| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * বাংলাদেশের ভয়াবহ ১১ ট্রেন দুর্ঘটনা   * মায়ের জন্য সুপাত্র চান ছেলে   * সৌদিতে লাইভ শো চলাকালে ৩ জনকে ছুরিকাঘাত   * পরীক্ষার চাপ কমাতে শিক্ষার্থীদের ‘কবরে শুয়ে থাকার’ পরামর্শ   * মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলা, স্বাগত জানিয়েছে কানাডা   * হাসপাতালে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার   * গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ইসলামিক জিহাদের কমান্ডার নিহত   * মেক্সিকোতে রাজনৈতিক আশ্রয় নিচ্ছেন বলিভিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট   * রাজস্থানে লেকের ধারে হাজার হাজার পাখির মৃত্যু   * ৩১ বছর পরেও দর্শক মাতাচ্ছেন সেই মাধুরী  

   সারা দেশ
  ফরম পূরণ করেও জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়নি শিক্ষার্থীরা
 

নওগাঁ প্রতিনিধি   

 

চলতি জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় নওগাঁর মান্দা উপজেলার শ্যামপুর নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে কোনো শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি টিকিয়ে রাখার স্বার্থে শিক্ষকরা ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করালেও অ্যাডমিট কার্ড (প্রবেশপত্র) উত্তোলন করেননি। গত ২০ বছর যাবৎ বিদ্যালয়টি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষা কার্যক্রম ভেঙে পড়েছে। এর আশপাশে কোনো মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় না থাকায় প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

 

বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৮ সালে বিদ্যালয়টি স্থাপন করা হয়। এরপর ২০০০ সালে ৬ষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত নিম্ন মাধ্যমিক হিসেবে পাঠদানের অনুমতি পায় বিদ্যালয়টি। এখানে প্রধান শিক্ষকসহ মোট ছয়জন শিক্ষক রয়েছেন। এছাড়া একজন পিয়ন ও একজন অফিস সহায়ক রয়েছেন। কাগজে কলমে বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৫ জন। ৭৬ শতাংশ জায়গার ওপর সেই সময় মাটির ছয়টি ঘর ছিল। বর্তমানে সেখানে একটি আধাপাকা ইটের ঘর রয়েছে। যা অফিস কক্ষ হিসেবে ব্যবহার হয়। টিনের বেড়া ও টিনের ছাউনির তিনটি ক্লাস রুম রয়েছে। এ বছর আলমগীর হোসেন, কাওসার আলী, জেসমিন ও মোস্তাফিজুর রহমান জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। গত ২০১৮ সালে সাবজন এবং ২০১৭ সালে ১২ জন জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সবাই পাস করে।

 

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ-পশ্চিমে রাজশাহী সড়কের প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের প্রত্যান্ত গ্রাম শ্যামপুর। এ গ্রামের শেষ প্রান্তে একটি আম বাগানের পর বড় মাঠ, আর মাঠের পরই বিদ্যালয়। তবে মজার বিষয় হলো- বিদ্যালয়ে আসার মাটির রাস্তার উত্তর পাশে নওগাঁ জেলা, আর দক্ষিণ পাশে রাজশাহী জেলা। বিদ্যালয়টি মাঠের পূর্ব-উত্তর কোণে এল আকারে তৈরি। উত্তর পাশে পশ্চিম দিকের ঘরটি ইটের ও টিনের ছাউনি। আর বাকি তিনটি ঘর টিনের বেড়া ও টিনের ছাউনি। একটি ঘরে দরজা-জানালা আছে। সে ঘরে একটি আলমারি রাখা আছে। বাকি ঘরগুলোতো কোনো দরজা-জানালা নেই। নেই কোনো চেয়ার, টেবিল ও বেঞ্চ।

 

দীর্ঘদিন থেকে কারও পদচারণা না থাকায় মেঝেতে ঘাস গজিয়েছে। আর মাঝখানের ঘরের চালার কিছু অংশের ছাউনির টিন উড়ে গেছে। আর বেড়ার টিনগুলো কিছু কিছু অংশে ছিদ্র হয়ে গেছে। ঘরের মেঝেতে কিছু খড় বিছানো ছিল এবং কয়েকটি কার্ড (তাস) পড়ে আছে। দেখে বুঝাই যাচ্ছে বিদ্যালয়টি বন্ধ থাকায় সেখানে স্থানীয়রা মাঝেমধ্যে আড্ডা জমাতো।

 

প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামকে খবর দেয়া হলে আধাঘণ্টা পর তিনি সাইকেল চালিয়ে বিদ্যালয়ে আসেন। সঙ্গে নিয়ে আসেন দুই পরীক্ষার্থীকে। যে চারজন জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিল তাদের মধ্যে আলমগীর হোসেনের বাড়ি শ্যামপুর গ্রামে হলেও বাকি তিনজনের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর থানার হাটরা গ্রামে। প্রধান শিক্ষকসহ কয়েকজন শিক্ষকের বাড়িও একই গ্রামে। অর্থ্যাৎ স্কুল থেকে প্রায় ৪/৫ কিলোমিটার দূরে।

 

 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়টিতে এক সময় খুব জামজমকভাবে পড়াশুনা হতো। ২০১৭ সালের পর থেকে শিক্ষকদের আগ্রহ কমতে থাকে। সঙ্গে শিক্ষার্থীও কমতে শুরু করে। এক সময় সবকিছুই আস্তে আস্তে বন্ধ হয়ে গেল। কিছু টেবিল, চেয়ার ও বেঞ্চ বিদ্যালয়ের পাশে স্থানীয়দের বাড়িতে রাখা আছে।

 

তিনি বলেন, বিদ্যালয়ে এখন যারা আছে তারা ঝরে পড়া শিক্ষার্থী। প্রত্যান্ত এ এলাকায় বিদ্যালয়টি টিকিয়ে রাখার স্বার্থে চলতি বছর জেএসসি পরীক্ষার জন্য ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছিল। পরীক্ষার আগ মুহূর্তে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে পরিবার থেকে জানানো হয় ভাড়া দিয়ে নিয়ে যেতে। যেখানে আমরা চলতে পারি না, সেখানে টাকা খরচ করে কীভাবে পরীক্ষার কেন্দ্রে নিয়ে যাব?

 

পরীক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান জানায়, তাদের অভাবের সংসার। তাই স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর সে ঢাকায় চলে যায়। কিছুদিন আগে বাড়িতে আসলে স্যার বলেন পরীক্ষা দিব কি-না। এরপর বাড়িতে জানানো হলে- বাবা-মা বলে পরীক্ষা দিলে তো টাকা খরচ হবে।

 

পরীক্ষার্থী আলমগীর হোসেনের মা মুঞ্জুয়ারা ও বাবা নুর ইসলাম বলেন, অভাবের সংসার। বলতে গেলে মাটির বাড়িটুকুই সম্পদ। ছেলে পড়াশুনার পাশাপাশি কাজ করে সংসারে সহযোগিতা করে। ছেলের পরীক্ষা দেয়ার ইচ্ছা থাকলেও দিতে পারেনি।

 

স্থানীয় বয়োজ্যেষ্ঠ মোসলেম উদ্দিন বলেন, আশপাশে কোনো মাধ্যমিক বিদ্যালয় না থাকায় গ্রামের ছেলে-মেয়েদের পড়াশুনার জন্য আমরা গ্রামের কয়েকজন মিলে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। ৬টি মাটির কক্ষে টিনের ছাউনি দিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়। সেই সময় প্রায় ১৫০ জনের মতো ছাত্র-ছাত্রী ছিল। আমার ছেলে-মেয়েও এ স্কুল থেকে পড়াশুনা করে পাস করে গেছে। আজ সেই স্কুলের অবস্থা বেহাল। বলতেও কষ্ট হচ্ছে যে প্রতিষ্ঠান এক সময় ছাত্রছাত্রীর জন্য শিক্ষার আলো ছড়াতো, আজ সে প্রতিষ্ঠান এখন অন্ধকারে পড়ে আছে। শিক্ষকরাও বিভিন্ন কাজে কর্মে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিদ্যালয়টি দীর্ঘদিন থেকে জাতীয়করণ না হওয়ায় এমনটা হয়েছে।

 

স্থানীয় আরেক বয়োজ্যেষ্ঠ আবুল কালাম বলেন, গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকলেও আশপাশে কোনো মাধ্যমিক বিদ্যালয় নেই। এ গ্রাম থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরে তেঁতুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এবং রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়াইল গ্রামে প্রায় আড়াই কিলোমিটার দূরে উচ্চ বিদ্যালয়। এর মাঝে আর উচ্চ বিদ্যালয় নেই। ছেলেরা দূরে যেতে পারলেও মেয়েদের নিয়ে সমস্যা হয়। বাবা-মা দুশ্চিন্তায় থাকে স্কুলে আসা-যাওয়া নিয়ে। এই স্কুলটি এমপিওভুক্ত করা হলে- শ্যামপুর, চৌজা, চক, বাংড়া, কটকতৈল, হাটরা, চান্দুপাড়া গ্রামসহ কয়েকটি গ্রামের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার সুবিধা হবে। কারণ আশপাশে কোনো মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় নেই।

 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, প্রতিবছর এমপিও হওয়ার আশ্বাস পাই। কিন্তু কখনো বাস্তবায়ন হয়নি। এদিকে বয়সও শেষ। বলতে গেলে জীবনটাও শেষ! কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই। আমার মতো অন্য শিক্ষকরা কৃষি কাজ ও ছোটখাট ব্যবসা করে পরিবার পরিজন নিয়ে খুব কষ্টে জীবন যাপন করছেন। তবে প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হলে পরিবার নিয়ে চারটা ডাল-ভাত খেয়ে ভালোভাবে বেঁচে থাকতে পারতাম। এখন সে আশায়ও গুঁড়েবালি।

 

মান্দা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুস সালাম বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি দেয় বোর্ড। তবে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ আছে। বিদ্যালয়ে কোনো চেয়ার, টেবিল ও বেঞ্চ নেই। দীর্ঘদিন থেকে এমপিওভুক্ত না হওয়ায় শিক্ষকরা যে যার পেশায় বিভিন্ন জায়গায় চলে গেছে। শুধু প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়টি নিয়ে বসে আছেন। প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম যদি চালু না থাকে তাহলে তো সরকার সেটি এমপিওভুক্ত করবে না।

 


সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 10        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     সারা দেশ
দুই ট্রেনের সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় স্পিকারের শোক
.............................................................................................
ট্রেন দুর্ঘটনা : তূর্ণা নিশীথার মাস্টার-সহকারী মাস্টার বরখাস্ত
.............................................................................................
৮ ঘণ্টা পর ঢাকা-চট্টগ্রাম ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক
.............................................................................................
শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে মুক্তি পেল ১২১ শিশু
.............................................................................................
দুর্ঘটনাকবলিতদের উদ্ধার করতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু
.............................................................................................
নিহতদের পরিবারকে ১ লাখ করে টাকা দেয়া হবে : রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
কসবার ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬, তদন্ত কমিটি
.............................................................................................
ট্রেন দুর্ঘটনা দেখতে এসে চাচা-চাচির লাশ পেলেন শাহাদৎ
.............................................................................................
ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের ৭ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে
.............................................................................................
ট্রেন দুর্ঘটনায় ৩টি তদন্ত কমিটি গঠন
.............................................................................................
‘তূর্ণা নিশীথা সিগন্যাল অমান্য করে’
.............................................................................................
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই ট্রেনের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন নিহত
.............................................................................................
বুলবুলে তছনছ সাকিবের কাঁকড়ার খামার
.............................................................................................
বিকেলে ফিরছেন সেন্টমার্টিনে তিন দিন ধরে আটকাপড়া ১২শ পর্যটক
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের একমাসের বেতন-ভাতা দেবেন এমপি শাওন
.............................................................................................
সুগার মিলের মেশিনে জড়িয়ে শ্রমিকের মৃত্যু
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় বুলবুল কেড়ে নিল ১৩ জনের প্রাণ
.............................................................................................
সব সতর্ক সংকেত নামল, ফিরতে পারবেন পর্যটকরা
.............................................................................................
ঢাকা থেকে সারা দেশে নৌ চলাচল শুরু
.............................................................................................
ট্রাকের ধাক্কায় মাইক্রোবাস উল্টে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, নিহত ৩
.............................................................................................
৪৫ যাত্রী নিয়ে পুকুরে বিয়ের বাস
.............................................................................................
নিরাপদে আছেন সেন্টমার্টিনে আটকেপড়া পর্যটকরা
.............................................................................................
আশ্রয়কেন্দ্রে সাতক্ষীরা উপকূলের ৬০ হাজার মানুষ
.............................................................................................
কক্সবাজারে উত্তাল সাগর, উপকূলের নিচু এলাকা প্লাবিত
.............................................................................................
ছেলের রডের আঘাতে প্রাণ গেল বাবার
.............................................................................................
আশ্রয়কেন্দ্রে পটুয়াখালী উপকূলের ৭০ হাজার মানুষ
.............................................................................................
রেইনবো সুপার মার্কেটে আগুন
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : খুলনাঞ্চলের বেড়িবাঁধ নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : দুপুর ২টার মধ্যে আশ্রয়কেন্দ্রে আসার নির্দেশ
.............................................................................................
প্রেমের টানে বাড়ি ছাড়া যুবকের লাশ মিলল কাঁঠালগাছে
.............................................................................................
পরীক্ষায় ফেল করেও ড্রাইভিং লাইসেন্স পেয়েছি আমি
.............................................................................................
ছাত্রীকে পেটানোয় চাকরি গেল শিক্ষকের
.............................................................................................
আসামি ছিনিয়ে নিতে ডিবি পুলিশের ওপর হামলা
.............................................................................................
মাদরাসার পাশে বোমা ফেলে গেল কারা?
.............................................................................................
কিডনি বিক্রি করায় স্বামী-স্ত্রী আটক
.............................................................................................
শিক্ষকের পিটুনিতে মারাই গেল মাদরাসাছাত্র আসিফ
.............................................................................................
শিকলমুক্ত হলো সেই তিন মাদরাসাছাত্র
.............................................................................................
ভুয়া ডাক্তারের অস্ত্রোপচারে স্তন হারানো শেফালি এখন সুস্থ
.............................................................................................
ফরম পূরণ করেও জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়নি শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জে ২৮টি অস্ত্রসহ দুই ব্যবসায়ী আটক
.............................................................................................
পঞ্চগড়ে শীতের আগমনে রূপ বদলাচ্ছে প্রকৃতি
.............................................................................................
শিকলে বন্দি তিন মাদরাসাছাত্রের জীবন
.............................................................................................
প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী লাশ
.............................................................................................
আন্দোলনরত শিক্ষকদের বাদ রেখেই প্রাথমিক সমাপনীর চিন্তা
.............................................................................................
বিচারের জন্য প্রস্তুত রিফাত হত্যা মামলা
.............................................................................................
২-৩ দিনে কমবে পেঁয়াজের দাম, বললেন খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীরা
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে ভবনধসে চাপা পড়া স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
পাতাসহ পেঁয়াজের কেজি ৪৫ টাকা
.............................................................................................
সুন্দরবনে হরিণ শিকারের ফাঁদ ও ট্রলারসহ ৬০ জন আটক
.............................................................................................
কলেজ থেকে ফিরে ছাত্রীর আত্মহত্যা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]