| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * দাউদকান্দিতে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে একই পরিবারের ৩ জন নিহত   * শুল্ক কমিয়ে বিদেশ থেকে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত   * মৃত্যু বেড়ে ২১৫১, মোট শনাক্ত ১৬৮৬৪৫   * বাহরাইনে ৫০% ছাড়ে মিলছে ভিসা, নিয়মে আসছে পরিবর্তন   * বান্দরবানে গোলাগুলিতে ছয় জন নিহত   * সামনের সপ্তাহেই মানবদেহে `কোভ্যাকসিন` পরীক্ষা শুরু ভারতে   * জাপানে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ৩ দিনে ৪০ জনের প্রাণহানি   * এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন মাশরাফির স্ত্রী সুমি   * মারা গেলেন এন্ড্রু কিশোর   * করোনায় ৪০ কোটি মানুষ চাকরি হারিয়েছে- আইএলও  

   আন্তর্জাতিক
  চীনে বন্দী করে লাখো মুসলিমকে নির্যাতনের দলিল ফাঁস
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জিনজিয়াং প্রদেশে একজন মুসলিম আজান দিচ্ছেন, ছবিটি ২০০৮ সালের।
চীনে কয়েক লাখ উইঘুর মুসলিমকে গোপন বন্দিশালায় আটকে রেখে কীভাবে তাদের মগজ ধোলাই করা হচ্ছে তার কিছু দলিলপত্র সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে। পশ্চিমাঞ্চলীয় জিনজিয়াং প্রদেশে এ ধরনের গোপন বন্দিশালার কথা চীন বরাবরই অস্বীকার করে এসেছে এবং তারা বলে থাকে যে মুসলিমরা নিজেরাই স্বেচ্ছায় এখানে প্রশিক্ষণ নিতে এসেছে।

তাদের দাবি, এগুলো আসলে প্রশিক্ষণ এবং শিক্ষা শিবির। কিন্তু অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা আইসিআইজে যেসব ফাঁস হওয়া গোপন দলিলপত্র হাতে পেয়েছে, তাতে দেখা যায় কীভাবে এই উইঘুর মুসলিমদের বন্দী করে মগজ ধোলাই করা হচ্ছে এবং শাস্তি দেয়া হচ্ছে।



সাংবাদিকদের এই দলে রয়েছে বিবিসিসহ মোট ১৭টি সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিক। যুক্তরাজ্যে চীনের রাষ্ট্রদূত অবশ্য বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, এটা ভুয়া খবর। ধারণা করা হয়, এসব শিবিরে দশ লাখেরও বেশি মুসলিমকে বিনা বিচারে আটক করে রাখা হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই উইঘুর সম্প্রদায়ের সদস্য।


গোপন এসব বন্দিশালার ছবি বিশ্ব এর আগেও দেখেছে। স্যাটেলাইট থেকে তোলা হয়েছিল উঁচু প্রাচীর ঘেরা এসব বন্দিশিবিরের ছবি। শিবিরের ভেতর থেকে তোলা ছবিও গোপনে বাইরে পাচার হয়েছে। বেইজিংয়ের দাবি, সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় গত তিন বছর ধরে এসব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছে যেখানে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

কিন্তু এখন ফাঁস হওয়া দলিলপত্র থেকে পরিষ্কার এসব শিবিরের ভেতরে আসলে কী ঘটছে। বিবিসির কাছে যেসব দলিল এসেছে, সেগুলো মূলত কীভাবে এই বন্দিশিবির চালাতে হবে তার নির্দেশনা। শিবিরের কর্মকর্তাদের জন্য এসব নির্দেশাবলী দিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ।

 

জিনজিয়াং কমিউনিস্ট পার্টির ডেপুটি সেক্রেটারি ঝু হাইলুন ২০১৭ সালে যারা এসব শিবির পরিচালনা করেন তাদের কাছে নয় পৃষ্ঠার এই সরকারি দলিল পাঠিয়েছিলেন। তাতে বলা হয়েছে, শিবিরগুলো অত্যন্ত সুরক্ষিত জেলখানার মতো চালাতে হবে। বজায় রাখতে হবে কঠোর শৃঙ্খলা। কেউ যেন পালিয়ে যেতে না পারে সেটাও নিশ্চিত করতে হবে।

সরকারের এসব নির্দেশনার মধ্যে ছিল:
• কখনোই পালানোর সুযোগ দিও না।
• শৃঙ্খলা এবং শাস্তি বাড়াতে থাকো।
• কেউ আচরণবিধি ভঙ্গ করলে তাকে কঠোর শাস্তি দাও।
• স্বীকারোক্তি ও অনুতপ্ত হতে উৎসাহিত করো।
• মান্দারিন ভাষা শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দাও।
• পুরোপুরি বদলে যাওয়ার ব্যাপারে তাদেরকে অনুপ্রাণিত করো।
• পুরো ভিডিও নজরদারি চালাও, কোন জায়গা যেন বাদ না থাকে।



ফাঁস হওয়া এসব দলিলে দেখা গেছে, শিবিরে বন্দী উইঘুরদের জীবনের ওপর কীভাবে নজর রাখা হচ্ছে ও কতোটা নিয়ন্ত্রণের ভেতরে তাদেরকে রাখা হয়েছে। যেমন, ‘শিক্ষার্থীদের বিছানা কোথায় কীভাবে থাকবে, লাইনের কোথায় কে দাঁড়াবে, শ্রেণীকক্ষে কোথায় বসবে, কে কী শিখবে- সব নির্ধারিত থাকবে। এগুলো পরিবর্তন করা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ।’

Uighur-4.jpgসরকারি নির্দেশাবলীর একটি।

এসব নির্দেশনায় ঘুম থেকে ওঠা, রোল কল করা, কাপড় ধোওয়া, টয়লেটে যাওয়া, ঘর গুছিয়ে রাখা, খাওয়া দাওয়া, লেখাপড়া, ঘুমানো এমনকি দরজা বন্ধ করার বিষয়েও উল্লেখ করা হয়েছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মুখপাত্র সোফি রিচার্ডসন বলছেন, এসব দলিল আসলে এমন একটি প্রমাণ যার ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়া যায়।

তিনি বলেন, ‘এটি গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রামাণিক দলিল। এই প্রমাণ এখন থাকা উচিৎ কোন বিচারিক তদন্ত কর্মকর্তার ফাইলে।‘ তিনি এর সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলত শাস্তি দাবি করেছেন।



যেসব নিষ্ঠুরতার কথা আছে এই দলিলে, তা সাবেক বন্দীরা নিজেদের অভিজ্ঞতা থেকে ভালো করেই জানেন। এরকম একজন ইয়ো জান। তাকে রাতের বেলায় ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, এরপর তাকে এক বছর আটকে রাখা হয় বন্দী শিবিরে।

তিনি বলেন, ‘তারা আমাকে উলঙ্গ করে পায়ে শেকল পরিয়ে দিল। খুবই ভীতিকর অভিজ্ঞতা। ওরা আমাদের মানুষ বলে গণ্য করতো না। সেখান থেকে জীবিত বেরিয়ে আসতে পারবো বলে ভাবিনি কখনো।’ ইয়ো জান তার যে অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করেছেন, সেটা বন্দিশিবিরে আটক আরও লাখ লাখ উইঘুর মুসলিমেরই কাহিনী।

চীনা সরকার বিদেশি সাংবাদিকদের অবশ্য এসব শিবির ঘুরিয়ে দেখিয়ে দাবি করেছে যে, সন্ত্রাসবাদ দমনে সাহায্য করছে এসব শিবির। এখানে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ নিয়ে তারা নতুন দক্ষতা অর্জন করছে। কিন্তু আইসিআইজের অনুসন্ধানী সাংবাদিকরা বলছেন, এখন ফাঁস হওয়া দলিলপত্রে বোঝা যায়, এসব শিবিরের আসল উদ্দেশ্য আসলে কী।

বিশ্ব উইঘুর কংগ্রেসের আইনি উপদেষ্টা বেন এমারসন বলেন, ‘বিশ্বের বড় পরাশক্তি হয়েও চীন তার জনগণকে আটকে রাখছে। তাদের বিশ্বাস, ভাষা এবং নিজস্ব জীবনযাত্রা পুরোপুরি বদলে ফেলছে। এটাকে গণহারে মগজ ধোলাই ছাড়া অন্য কিছু ভাবা আসলেই কঠিন। একটা পুরো জাতিগোষ্ঠীকে টার্গেট করে এই কাজ চালানো হচ্ছে।’

Uighur-4.jpgব্রাসেলসে এক নারী উইঘুরদের বন্দী করে রাখার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।



লন্ডনে চীনের রাষ্ট্রদূত লিও যাও মিং এসব বন্দিশিবিরের ব্যাপারে বিবিসির সরাসরি প্রশ্নের কোন জবাব দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। কিন্তু এর আগে গত সপ্তাহে তিনি হংকংয়ের ব্যাপারে এক সংবাদ সম্মেলন ডেকেছিলেন। সেখানে বিবিসির সাংবাদিক রিচার্ড বিল্টন তাকে এসব বন্দিশিবির নিয়ে প্রশ্ন করেন।

জবাবে রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘প্রথমত বলতে চাই, আপনি যেরকম বর্ণনা দিচ্ছেন, সেরকম কোন বন্দিশিবির সেখানে নেই। এগুলো আসলে বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। সেখানে তাদের রাখা হয়েছে সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধের জন্য।’ রিচার্ড বিল্টন এরপর পাল্টা প্রশ্ন করেন, তার মানে তিনি যা দেখে এসেছেন, তা সত্য নয়?

চীনের রাষ্ট্রদূত এর জবাবে বলেন, ‘আপনি যে তথাকথিত দলিলের কথা বলছেন, সেটা পুরোটাই বানোয়াট। ভুয়া খবরে বিশ্বাস করবেন না। বানানো গল্প শুনবেন না।’

কিন্তু আইসিআইজের সাংবাদিকরা বলছেন, ‘এসব দলিল মোটেই ভুয়া নয়। এগুলো মানবতাবিরোধী অপরাধের প্রমাণ। চীন লাখ লাখ মানুষকে খাঁচায় বন্দী করে তাদের মগজ ধোলাই করছে এবং এখন আমরা জানি কীভাবে সেটা করা হচ্ছে।’

সূত্র : বিবিসি বাংলা



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 126        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     আন্তর্জাতিক
করোনা ভাইরাসে ভারতে মৃত্যু ছাড়াল ২০ হাজার
.............................................................................................
পিছু হটেছে, ফিরেও আসতে পারে! চীন নিয়ে দোটানায় ভারত
.............................................................................................
সীমান্তে সেনা প্রত্যাহার করলেও চীনের মন্তব্যে উদ্বিগ্ন ভারত
.............................................................................................
চীনে এবার প্লেগ মহামারীর সতর্কতা
.............................................................................................
সামনের সপ্তাহেই মানবদেহে `কোভ্যাকসিন` পরীক্ষা শুরু ভারতে
.............................................................................................
জাপানে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ৩ দিনে ৪০ জনের প্রাণহানি
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে মুখোমুখি বিমান সংঘর্ষ, বেশ কয়েকজনের মৃত্যু
.............................................................................................
পর্নসাইটের পরিচালককে ফেরত চায় যুক্তরাষ্ট্র, রাজি হয়নি দ. কোরিয়া
.............................................................................................
আতঙ্ক চরমে, করোনার মধ্যেই চীনে নতুন মহামারীর শঙ্কা!
.............................................................................................
অস্ত্রবাহী অত্যাধুনিক ড্রোন দিচ্ছে চীন, যুদ্ধের প্রস্তুতি বাড়াচ্ছে পাকিস্তান !
.............................................................................................
বিশ্বে সর্বাধিক করোনা আক্রান্তের তালিকায় তিনে ভারত
.............................................................................................
চীনের সঙ্গে বিবাদ মেটাতে এখন যে বিশেষ প্রতিনিধির ওপর ভরসা করছে ভারত
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের চাল পাঠিয়ে পাশে থাকার আশ্বাস দিল চীন
.............................................................................................
রহস্যময় গোলাপি বরফ ইতালিতে, গলে যাচ্ছে হিমবাহ,জলবায়ু পরিবর্তনের আশঙ্কা
.............................................................................................
ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে ৪ মাওবাদী বিদ্রোহী নিহত
.............................................................................................
করোনা নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ৩২ দেশের ২৩৯ গবেষকের চ্যালেঞ্জ
.............................................................................................
আবারও হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারে ‘না’ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
.............................................................................................
বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড আজ
.............................................................................................
সৌদিতে করোনায় পাঁচ শতাধিক বাংলাদেশির মৃত্যু, আক্রান্ত প্রায় ২০ হাজার
.............................................................................................
ট্রাম্পের বিপক্ষে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন কার্দাশিয়ানের স্বামী কেনি
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD