| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * প্রাকৃতিক দুর্যোগে লণ্ডভণ্ড কেরালায় ১২ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ বহু   * মালয়েশিয়ার সাবেক অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ   * নভেম্বরের মধ্যে করোনায় ৩ লাখ মৃত্যু হবে যুক্তরাষ্ট্রে   * গাড়িচাপায় পর্বতারোহী রেশমা নিহত   * বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর সরকার বিরোধী বিক্ষোভ   * করোনায় মৃত্যু ছাড়ালো ৭ লাখ ১৭ হাজার   * লেবানন বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৬ জনকে আটক   * যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ মাসে ২৬০০ কোটি টাকার পোশাক রপ্তানি কমেছে   * সাবরিনাসহ ৮ আসামির অভিযোগ গঠন শুনানি ১৩ আগস্ট   * করোনা একেবারে নির্মূল হবে না: ফাউসি  

   আন্তর্জাতিক
  ‘স্বার্থে’ নিশ্চুপ ডিএসইর পরিচালকরা!
 

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে অতিমূল্যায়িত হয়ে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে যাচ্ছে এডিএন টেলিকম। তবে এ বিষয়ে নিশ্চুপ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালকরা। যারা এর আগে একাধিক ‘দুর্বল’ কোম্পানির তালিকাভুক্তি রুখতে বেশ শক্ত ভূমিকা পালন করেন। যদিও তাদের সেই ভূমিকা ওই দুর্বল কোম্পানির তালিকাভুক্তি আটকাতে পারেনি।

একাধিক কোম্পানির ‘অনিয়ম’ নিয়ে বেশ সরব হওয়ার মধ্যেই এডিএন টেলিকমের বিষয়ে ডিএসইর পরিচালকদের নীরব থাকায় অভিযোগ উঠেছে- ডিএসই’র শেয়ারহোল্ডার পরিচালক ও ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র (ডিবিএ) নেতাদের বিরুদ্ধে। এডিএন টেলিকমে স্বার্থ থাকায় তারা নিশ্চুপ ভূমিকা পালন করছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালক মো. রকিবুর রহমান, মিনহাজ মান্নান ইমন, মো. হানিফ ভূইয়া ও শরীফ আতাউর রহমানের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান যোগ্য বিনিয়োগকারী হিসেবে এডিএন টেলিকমের বুক বিল্ডিং পদ্ধতির বিডিংয়ে (নিলাম) অংশ নেয়। বিডিংয়ে তাদের প্রত্যেককে সর্বোচ্চ সংখ্যক শেয়ার নেয়ার জন্য দরপ্রস্তাব করেন।

ওই চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালকের প্রত্যেকে এডিএন টেলিকমের দুই লাখ ৩৭ হাজার ৫০০টি করে শেয়ার কেনার জন্য দরপ্রস্তাব দেন। তবে তাদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১৮ হাজার ৯৬৮টি করে শেয়ার। প্রতিটি ৩০ টাকা করে তারা এ শেয়ার কিনবেন। ২৮ নভেম্বর আইপিও লটারি হওয়ার পর তাদের বিও হিসাবে এসব শেয়ার হস্তান্তর হবে।

ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালকের পাশাপাশি ডিবিএ’র বর্তমান সভাপতি শাকিল রিজভী ও সাবেক সভাপতি আহমেদ রশিদের ব্রোকারেজ হাউজও এডিএন টেলিকমের বিডিংয়ে অংশ নেন। তারাও দুই লাখ ৩৭ হাজার ৫০০টি শেয়ার কেনার জন্য দরপ্রস্তাব দিয়ে ১৮ হাজার ৯৬৮টি করে শেয়ার বরাদ্দ পেয়েছেন।

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণের জন্য এডিএন টেলিকমের বিডিং শুরু হয় গত বছরের ৫ নভেম্বর বিকাল ৫টায়। যা ৮ নভেম্বর বিকাল ৫টা পর্যন্ত টানা ৭২ ঘণ্টা চলে। এ বিডিংয়ে ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালকসহ যোগ্য বিনিয়োগকারীরা অংশ নিয়ে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণ করেন ৩০ টাকা।

অথচ এডিএন টেলিকমের রেড হেরিং প্রসপেক্টাস অনুযায়ী, কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য সর্বোচ্চ ১৭ টাকা হতে পারে। কারণ বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে যেকোনো কোম্পানির শেয়ারের দাম বিবেচনায় ‘হিস্ট্রোরিকাল আর্নিংস বেজড ভ্যালু পার শেয়ার’ পদ্ধতি-কে সর্বোচ্চ বিবেচনায় নেয়া হয়।

এক্ষেত্রে প্রথমে কোম্পানির শেষ পাঁচ বছরের ওয়েটেড শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস)-কে মূল্য-আয় অনুপাত (পিই রেশিও) ১০ দিয়ে গুণ করা হয়। এর পর শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ (এনএভিপিএস) যোগ করার পর ২ দিয়ে ভাগ করে দাম নির্ধারণ করা হয়।

এডিএন টেলিকমের রেড হেরিং প্রসপেক্টাস অনুযায়ী, গত পাঁচ বছরের ওয়েটেড ইপিএস ১ টাকা ৮১ পয়সা। এনএভিপিএস রয়েছে ১৬ টাকা ১৩ পয়সা। এ হিসাবে কোম্পানিটির ‘হিস্ট্রোরিকাল আর্নিংস বেজড ভ্যালু পার শেয়ার’ পদ্ধতিতে শেয়ার দাম মূল্যায়ন হয় ১৭ টাকা ১২ পয়সা।

শুধু ‘হিস্ট্রোরিকাল আর্নিংস বেজড ভ্যালু পার শেয়ার’ অনুযায়ী নয়, কোম্পানিটির প্লেসমেন্টে শেয়ার বিক্রির তথ্য বিবেচনা করলেও দেখা যাবে, বুক বিল্ডিংয়ের বিডিংয়ে এডিএন টেলিকমের শেয়ারের দাম অতিমূল্যায়িত হয়েছে। কারণ কোম্পানিটি বাজারে আসার প্রক্রিয়া শুরুর আগে ২০১৭ সালের ৭ জুন প্লেসমেন্টে প্রতিটি শেয়ার ১৫ টাকা করে ইস্যু করে।

অভিযোগ উঠেছে, বুক বিল্ডিং পদ্ধতির বিডিংয়ে অংশ নিয়ে একটি চক্র পরিকল্পিতভাবে কোম্পানির শেয়ারের দাম অতিমূল্যায়িত করছে। এডিএন টেলিকমের ক্ষেত্রেও একই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। ডিএসইর সব শেয়ারহোল্ডার পরিচালক এডিএন টেলিকমের বিডিংয়ে অংশ নেয়ায় হয় তো তারা চুপ রয়েছেন।

এ বিষয়ে ডিএসইর এক সদস্য নাম প্রকাশ না করে বলেন, ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালক এবং ডিবিএ’র সাবেক ও বর্তমান সভাপতি এডিএন টেলিকমের বিডিংয়ে অংশ নিয়েছেন। তারা যে দামে শেয়ার কিনতে চেয়েছিলেন সেই দামেই শেয়ার পাচ্ছেন। যে কোম্পানির শেয়ার ১৭ টাকা পাওয়ার যোগ্য তারা সেই শেয়ার ৩০ টাকা দিয়ে কিনছেন। এর পেছনে অন্যকিছু আছে কি-না, তা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) খতিয়ে দেখা উচিত।

তিনি বলেন, কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ ও রিং সাইন টেক্সটাইলের প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) নিয়ে বেশ সরব ছিলেন ডিএসইর পরিচালকরা। ওই দুই কোম্পানির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগও তোলেন তারা। এসিআইর লোকসান নিয়েও ডিএসইর শেয়ারহোল্ডার পরিচালকরা কড়া সমালোচনা করেন। যদিও তাদের কোনো সমালোচনা তেমন কাজে আসেনি। তারপরও তাদের এ ভূমিকা বেশ প্রশংসা পায়। কিন্তু এডিএন টেলিকমের বিষয়ে তাদের ভূমিকা অনেকটাই প্রশ্নবিদ্ধ। কোম্পানিটির বিরুদ্ধে কোনো পরিচালক টু শব্দও করছেন না।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করলে ডিএসইর শেয়ারহোল্ডার পরিচালক মো. রকিবুর রহমান বলেন, প্লেসমেন্ট শেয়ার বিক্রির তথ্য এবং ইপিএস ও এনএভির তথ্য তুলে ধরে প্রশ্ন করেন, যারা বিডিংয়ে অংশ নিল তারা কীভাবে এ দাম নির্ধারণ করল? প্রশ্ন আমাকে করছেন কেন, এ বিষয়ে বিএসইসিকে প্রশ্ন করেন।

পক্ষ থেকে এ সময় বলা হয়, আপনিসহ ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালকই এডিএন টেলিকমের বিডিংয়ে অংশ নিয়েছেন। রকিবুর রহমান বলেন, এতে সমস্যা কী? আমি ভালো মনে করেছি, আমি কিনেছি। আপনি আমাকে প্রশ্ন করতে পারেন না। আপনার ইচ্ছা না হলে আপনি কিনবে না। বিনিয়োগকারীদের ১০ শতাংশ ছাড় দিলে হবে ২৭ টাকা। বিনিয়োগকারীরা চাইলে কিনবে না। আমি কিনেছি, নিশ্চয়ই আমি ভালো বুঝি। কারণ টাকা তো আমার। আমার টাকায় আমি অংশগ্রহণ করেছি, আমি কিনেছি।

ডিএসইর চার শেয়ারহোল্ডার পরিচালকই এডিএন টেলিকমের শেয়ার কিনতে বিডিংয়ে অংশ নেয়ায় তারা নিশ্চুপ রয়েছেন কি-না? এমন প্রশ্ন করা হলে রকিবুর রহমান বলেন, ‘নো, এর সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই। ডিএসই কোনো অবজারভেশন দিয়েছে কি-না, তাও আমি জানি না। এ বিষয়ে আমাকে খোঁজ নিয়ে দেখতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি ডিএসইতে আমার কোম্পানির রিপ্রেজেন্ট (প্রতিনিধিত্ব) করি না। আমি রিপ্রেজেন্ট করি শেয়ারহোল্ডার হিসেবে। ডিলারের সঙ্গে আমার ছেলে আছে। এটা মিডওয়ে সিকিউরিটিজের টাকা। সিদ্ধান্ত মিডওয়ে সিকিউরিটিজের। বিনিয়োগকারী বিনিয়োগ করে কিনে দেখেন। যদি বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করেন, তাহলে বুঝতে হবে আপনি ভুল।’

এ সময় রকিবুর রহমানকে পাল্টা প্রশ্ন করা হয়, এর আগে আপনারা যেসব কোম্পানির বিষয়ে আপত্তি তুলেছেন বিনিয়োগকারীরা তো সেই কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছেন। উত্তরে তিনি বলেন, ‘যেটা হয়ে গেছে, সেটা নিয়ে আর কী করবেন আপনি? পুরোনো জিনিস সামনে এনে লাভ আছে। আপনি সামনের দিকে আগান। আপনি কোম্পানির দুর্বল দিকগুলো তুলে ধরেন। আপনার দায়িত্ব তুলে ধরা, আমার দায়িত্ব সিদ্ধান্ত নেয়া।’

এডিএন টেলিকমের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) এনায়েত হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আইটি কোম্পানির ভবিষ্যত আয় আছে। আইটি কোম্পানির শেয়ারের দাম সব সময় এনএভি দিয়ে নির্ধারণ হয় না। আমাদের হিসাবে বিডিংয়ে এডিএন টেলিকমের কাট-অফ প্রাইজ কম হয়েছে। আমরা আশা করেছিলাম ৪০ টাকার ওপরে যাবে। আমরা এখানে কোনো ইনফ্লুয়েন্স করিনি, যা পেয়েছি তা-ই মেনে নিয়েছি।

২০১৭ সালে ১৫ টাকা করে প্লেসমেন্টে শেয়ার বিক্রির বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি তার উত্তর না দিয়ে বলেন, আইটি কোম্পানির এনএভি কমই থাকে। তাদের ফিক্সড অ্যাসেট (স্থায়ী সম্পদ) কম। এখানে ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি থাকে, যদিও এগুলো ব্যালেন্স শিটে আসে না। যারা জানে তারা ওইভাবে শেয়ারের দাম কোড করেছে।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 141        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     আন্তর্জাতিক
প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য, কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান
.............................................................................................
প্রাকৃতিক দুর্যোগে লণ্ডভণ্ড কেরালায় ১২ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ বহু
.............................................................................................
মালয়েশিয়ার সাবেক অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ
.............................................................................................
নির্বাচনের আগেই পাওয়া যাবে ভ্যাকসিন : ট্রাম্প
.............................................................................................
করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াইয়ের আহ্বান
.............................................................................................
নভেম্বরের মধ্যে করোনায় ৩ লাখ মৃত্যু হবে যুক্তরাষ্ট্রে
.............................................................................................
টিকটকে নিষেধাজ্ঞার নির্বাহী আদেশে ট্রাম্পের সই
.............................................................................................
অক্সফোর্ডের তৈরি করোনা টিকা উৎপাদন করবে চীন
.............................................................................................
বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর সরকার বিরোধী বিক্ষোভ
.............................................................................................
করোনায় মৃত্যু ছাড়ালো ৭ লাখ ১৭ হাজার
.............................................................................................
লেবানন বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৬ জনকে আটক
.............................................................................................
শীঘ্রই ওমরা শুরু করার প্রস্তুতিনিচ্ছে সৌদি আরব সরকার
.............................................................................................
ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে চীনা বাহিনীর অনুপ্রবেশের নথি গায়েব
.............................................................................................
করোনা একেবারে নির্মূল হবে না: ফাউসি
.............................................................................................
দুর্নীতি বন্ধ হলেই ঘুরে দাঁড়াবে অর্থনীতি
.............................................................................................
প্রতি ১৫ সেকেন্ডে একজনের মৃত্যু হচ্ছে
.............................................................................................
কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘকে সম্পৃক্ত করতে পাকিস্তানের চেষ্টা ব্যর্থ- ভারত
.............................................................................................
অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট নিজে নিজে বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে না: ব্রিটিশ গোয়েন্দা কর্মকর্তা
.............................................................................................
যে কারণে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করল ট্যুইটার
.............................................................................................
করোনার ভ্যাকসিনের ‘খুব ভালো খবর’
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD