| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ৮৩ যাত্রী নিয়ে আফগানিস্তানে বিমান বিধ্বস্ত   * লক্ষ্মীপুর-বগুড়ায় হচ্ছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়   * ভূমিকম্পে কাঁপল সিলেট, কয়েকটি ভবনে ফাটল   * ঢাকা দুই সিটি নির্বাচন : তাবিথের প্রার্থিতা বাতিলের রিট খারিজ   * উস্কানিমূলক স্লোগান নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন: তথ্যমন্ত্রী   * ৬৫ প্লাটুন বিজিবি থাকবে ঢাকা ২ সিটি ভোটের মাঠে   * ইসির উচিত সঠিক তদন্ত করে সত্য উৎঘাটন করা : কাদের   * ওয়ারীতে ওয়াসার লরির চাপায় স্কুলছাত্র নিহত, সড়ক অবরোধ   * শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ   * রাস্তায় দাড়িয়ে মৃত ছেলের ছবি বুকে জড়িয়ে বিচার দাবিতে মা  

   জাতীয়
  রোহিঙ্গা সংকট : আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে কূটনৈতিক তৎপরতা চালাবে বাংলাদেশ
 

নিজস্ব প্রতিবেদক


রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরাতে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে চীন নানা প্রস্তাব দিলেও কোনো প্রস্তাবেই সাড়া দিচ্ছে না মিয়ানমার। ফলে এ সংকট নিরসনে চীনের কোনো উদ্যোগ এখনো কাজে আসেনি। অনিশ্চয়তায় কাটেনি রোহিঙ্গা সংকট। কূটনৈতিক সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।



বাংলাদেশ সরকার বলছে, চীনের মধ্যস্থতায় মিয়ানমারের সাথে আলাপ চালিয়ে যাওয়ার পাশপাশি রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরাতে দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিকভাবে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নতুন বছরেও মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে কূটনৈতিক তৎপরতা চালাবে বাংলাদেশ।

অন্যদিকে চীনের প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে বারবরই মিথ্যা তথ্য ও নেতিবাচক মনোভাব দেখিয়ে যাচ্ছে মিয়ানমার। চীনকে বিষয়টি অবহিত করে এর জবাবও চেয়েছে বাংলাদেশ।

এদিকে চলতি জানুয়ারি মাসে আবারও ত্রিপাক্ষিক ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক অনুষ্ঠানের সম্ভাবনা রয়েছে। এই বৈঠককে সামনে রেখে প্রত্যাবাসন ইস্যুতে চীন আরও কয়েকটি নতুন প্রস্তাব দিতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে কূটনৈতিক সূত্র।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে চীন বাংলাদেশ ও মিয়ানমারকে এখন পর্যন্ত এক ডজনের বেশি প্রস্তাব দিয়েছে। এসব প্রস্তাব ছিল মূলত রোহিঙ্গাদের আস্থা অর্জন করা এবং কীভাবে নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করা যায় এবং এই সংকট কীভাবে কাটানো যায়, সে বিষয়ে।’


তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ চীনের এসব প্রস্তাবে বরাবরের মতো ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে, তবে মিয়ানমারের সাড়া না পাওয়ায় এ বিষয়ে কোনো অগ্রগতি হয়নি। আমরা চীনের কাছে জানতে চেয়েছি, মিয়ানমারকে কেন রাজি করানো যাচ্ছে না? বেইজিংয়ের আহ্বানে আবারও ত্রিপাক্ষিক ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক হতে যাচ্ছে। দেখা যাক, নতুন কী প্রস্তাব তারা আনছে।’

এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এর আগে দুইবারের প্রচেষ্টায় একজন রোহিঙ্গাকেও রাখাইনে ফেরত পাঠানো যায়নি। এর মূল কারণ, মিয়ানমারের প্রতি রোহিঙ্গাদের অনাস্থা। মিয়ানমারকে শুরুতে রোহিঙ্গাদের আস্থা অর্জন করতে হবে।’



এদিকে রোহিঙ্গাদের ফেরাতে মিয়ানমারের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, ‘মুখে ফেরত নেয়ার কথা বললেও মিয়ানমারের মধ্যে আন্তরিকতার অভাব রয়েছে।’

চীনের প্রচেষ্টা বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এ সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় চীন যুক্ত হয়েছে। তারা মিয়ানমারের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। এখনো কোনো প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়া দেয়নি। তবে আমরা আশাবাদী।’

ড. মোমেন বলেন, ‘চীনসহ সকল দেশ এক বাক্যে বলেছে, রোহিঙ্গাদের ফেরত যাওয়া উচিৎ। কিন্তু মিয়ানমার মানছে না। এ বিষয়ে সবাই এখন একমত যে, রোহিঙ্গারা এখানে থাকলে সন্ত্রাসের জন্ম হবে, যা গোটা বিশ্বের জন্য হুমকি সৃষ্টি হবে। চীন মিয়ানমারে ব্যবসা করতে চায়। কিন্তু এ সংকট জিইয়ে রেখে তারা লাভবান হতে পারবে না।’

সূত্র জানায়, মিয়ানমারকে দেয়া প্রস্তাবে চীন বলছে, কক্সবাজারের শিবিরগুলোতে বসবাস করা রোহিঙ্গাদের প্রতিনিধিদের রাখাইনে নিয়ে যাওয়া হোক। সেখানে গিয়ে নিরাপত্তাসহ সার্বিকভাবে ইতিবাচক পরিবেশের উপস্থিতি দেখতে পেলে তারা নিজেদের পরিবারসহ রোহিঙ্গাদের জানাবে। তখন বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা আস্থা ফিরে পাবে এবং রাখাইনে মিয়ানমারে ফেরত যাবে। এ ধরনের আরও অনেক প্রস্তাবই চীন দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু নেপিডো ইতিবাচক কোনো সাড়া দেয়নি।

এর মধ্যে মিয়ানমারের প্রতিনিধিরা কক্সবাজারে এসে রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেছে, সেখানে চীনের প্রতিনিধিরাও ছিলেন। সেখানেও নিজেদের অবস্থানে অনড় মিয়ানমার। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে তারা বারবার বলছে, বিদেশি হিসেবেই রাখাইনে ফিরতে হবে রোহিঙ্গাদের। তবে নাগরিকত্ব নিয়ে ফেরার ব্যাপারে অনড় রোহিঙ্গারা।

এদিকে আসন্ন ত্রিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং। এর আগে গত ১১ ও ১২ ডিসেম্বর কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করে চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, ‘দ্বিপাক্ষিকভাবেই এই সংকটের সমাধান করতে হবে। তা না করতে পারলে সমস্যা আরও বাড়বে। তবে বন্ধুত্বের জায়গা থেকে চীন সবসময়েই এই সংকট সমাধানে কাজ করে যাবে।’



২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মিয়ানমার সেনারা সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের নামে নির্মম নির্যাতন শুরু করে। এরপর প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে প্রায় ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা নাগরিক। পূর্বে আসা রোহিঙ্গাসহ সব মিলিয়ে বাংলাদেশের ৩৪টির বেশি শিবিরে ১২ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা আশ্রয় নেন।

মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার আশ্বাস দিলেও এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও রাখাইনে ফেরত যাননি। এরই মধ্যে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে যুক্ত হয় চীন।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে একটি ত্রিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া এখন পর্যন্ত ত্রিপাক্ষিক ওয়ার্কিং গ্রুপের একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এ মাসেও বসছেন তিন দেশের প্রতিনিধিরা।

এদিকে জাতিসংঘসহ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং কানাডার সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধিরা ইতোমধ্যে জানিয়েছে, প্রত্যাবাসনের জন্য রাখাইনে কোনো অনুকূল পরিবেশ তৈরি করেনি মিয়ানমার।

 


সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 14        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
লক্ষ্মীপুর-বগুড়ায় হচ্ছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
.............................................................................................
ইসির উচিত সঠিক তদন্ত করে সত্য উৎঘাটন করা : কাদের
.............................................................................................
রাস্তায় দাড়িয়ে মৃত ছেলের ছবি বুকে জড়িয়ে বিচার দাবিতে মা
.............................................................................................
বছরে সাড়ে চার হাজার মানুষ কলেরাতে মারা যাচ্ছে
.............................................................................................
মোংলা বন্দর : একনেকে উঠছে প্রকল্প, হচ্ছে আন্তর্জাতিক মানের
.............................................................................................
চীন থেকে ফিরতে আগ্রহী বাংলাদেশিদের ফেরাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
.............................................................................................
সবাই মিলে সবার ঢাকা গড়ার প্রতিশ্রুতি নিয়ে এসেছি
.............................................................................................
আমরা কাজ করে যাচ্ছি প্রতিটি গ্রামের উন্নয়নে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
৮৬ শতাংশ নাগরিকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনায় আস্থা
.............................................................................................
উপহার-ছাড়ের ছড়াছড়ি বাণিজ্য মেলায়
.............................................................................................
রাজধানীতে ৬ কোটি টাকার বন্ডেড পণ্য আটক
.............................................................................................
বাবার কবরের পাশে বসে কোরআন তেলাওয়াত প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করল বিএসএফ
.............................................................................................
জনসমর্থন হারিয়ে বিএনপি এখন দেউলিয়া : কাদের
.............................................................................................
ফারমার্স ব্যাংকের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চার্জশিট
.............................................................................................
ভাঙা শুরু বিজিএমইএ ভবন
.............................................................................................
দক্ষিণ এশিয়ায় আমরাই প্রথম ই-পাসপোর্ট শুরু করলাম : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
চীনের রহস্যজনক নতুন ভাইরাস : শাহজালাল বিমানবন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা
.............................................................................................
নির্বাচনী পরিবেশ ঘোলাটে করার জন্য একটি পক্ষ সক্রিয় : তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
৩৯তম বিসিএস: আরো ১৮ জন নিয়োগ পেলেন
.............................................................................................
জলাধার থাকতে হবে শিল্প-কারখানার পাশে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কোন সম্পর্ক নেই গ্রেফতারি পরোয়ানার সঙ্গে
.............................................................................................
ই-পাসপোর্ট মিলবে রাজধানীর আগারগাঁও, উত্তরা ও যাত্রাবাড়ী থেকে
.............................................................................................
মানবতার সেবায় রক্তদান এবার বাণিজ্য মেলায়
.............................................................................................
ভারতের জনগণ নানা সমস্যার মধ্যে আছে : শেখ হাসিনা
.............................................................................................
আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা
.............................................................................................
বৃত্তাকার রেলপথ প্রকল্প : সমীক্ষার বৃত্তেই আটকা পড়ে আছে
.............................................................................................
নির্বাচন কমিশন আমাদের যে নির্দেশনা দিচ্ছে আমরা সেটাই করছি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশের বৃহৎ জুমার নামাজ আদায় ইজতেমা ময়দানে
.............................................................................................
ছুটির দিনে বাণিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়
.............................................................................................
দর্শনার্থীদের ঢল ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায়
.............................................................................................
মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কাযর্ক্রম : একই ধাঁচের প্রকল্প ৬ বার, চলছে ২৭ বছর ধরে!
.............................................................................................
জানুয়ারিতেই সৌদি থেকে ফিরতে হলো দেড় হাজার বাংলাদেশিকে
.............................................................................................
তুরাগপাড়ে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু, আজ বৃহত্তর জুমার নামাজ
.............................................................................................
শাহবাগে সড়ক অবরোধ, সিটি নির্বাচন পেছানোর দাবি
.............................................................................................
ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ : ধর্ষনের পর ৫০০ টাকা দাবি করেছিল মজনু
.............................................................................................
নৌবাহিনীর সফল মিসাইল ফায়ার বঙ্গোপসাগরে
.............................................................................................
বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মিসাইল উৎক্ষেপণ দুপুরে
.............................................................................................
শাহজালালে ৭ ঘণ্টা পর ফ্লাইট ওঠানামা শুরু
.............................................................................................
২১তম স্প্যান বসলো পদ্মাসেতুতে
.............................................................................................
ডিপি ওয়ার্ল্ডকে বাংলাদেশে একটি হাইটেক পার্ক স্থাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
নিয়ম লঙ্ঘন করা মামলায় ড. ইউনূসকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্যের ৯ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বসবেন
.............................................................................................
অন্যায় করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
তীব্র যানজট বিমানবন্দর সড়কে
.............................................................................................
১২ মুসল্লির মৃত্যু প্রথম পর্বের ইজতেমায়
.............................................................................................
আখেরি মোনাজাতে অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
বিশ্ব ইজতেমা : মুসলিম উম্মাহর শান্তি-সমৃদ্ধি কামনায় শেষ হলো প্রথম পর্ব
.............................................................................................
সড়ক দুর্ঘটনা : ২০১৯ সালে ৭ হাজার ৮৫৫ জনের প্রাণহানী
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]