| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * রোজায় অফিস সময় ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা   * দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তি দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর   * সন্ধ্যার পর ওষুধের দোকান ছাড়া সব বন্ধ   * ঢাকায় মোট ৬৪ জনের করোনা শনাক্ত   * নামাজ-প্রার্থনা নিজঘরে, জুমায় সর্বোচ্চ ১০ জন   * চট্টগ্রামে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের   * ফরিদপুরে আইসোলেশনে বৃদ্ধের মৃত্যু   * দেশে করোনায় নতুন করে ২৯ করোনা রোগী শনাক্ত, মোট ১১৭   * করোনায় দেশে একদিনে ৪ জনের মৃত্যু, সংখ্যা বেড়ে ১৩   * এবার বাঘের শরীরে মিললো করোনাভাইরাস  

   সারা দেশ -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
চট্টগ্রামে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের

অনলাইন ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এবার চট্টগ্রাম নগরীর সবগুলো প্রবেশপথ বন্ধ করে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন সিএমপি কমিশনার।

সোমবার (৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তিনি এই নির্দেশনা জারী করেন। একই সাথে ওই প্রবেশ পথগুলোতে চেকপোস্ট বসানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে সময় সংবাদকে জানিয়েছেন সিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ মাহবুবর রহমান।

এটিকে তিনি লকডাউন না বলে মানুষ এবং যানবাহন চলাচল সীমিত করার উদ্যোগ বলে মন্তব্য করেছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় নিজ ক্ষমতাবলে এই আদেশ জারি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করে সিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ মাহাবুবর রহমান বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে আমরা সব ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছি। নগরীর আশপাশের উপজেলা থেকে প্রতিদিন লোকজন চট্টগ্রাম শহরে আসছেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বিস্তার প্রতিরোধের ক্ষেত্রে এটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ বলে আমাদের মনে হচ্ছে। সেজন্য আপাতত পাঁচটি প্রবেশপথ আমরা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেখানে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। অযৌক্তিক কোনো কারণে কেউ প্রবেশ করতে পারবে না।

নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়া নগরীর প্রবেশপথ হলো বাকলিয়া থানাধীন শাহ আমানত সেতু, চান্দগাঁও থানাধীন কালুরঘাট সেতু, কাপ্তাই রাস্তার মাথা, বায়েজীদ থানাধীন অক্সিজেন মোড় এবং আকবরশাহ থানাধীন সিটি গেইট।

কমিশনার মাহবুবর রহমান জানান, এসব প্রবেশপথ দিয়ে ওষুধ, খাদ্য ও জরুরি পণ্যবাহী পরিবহন, রপ্তানি পণ্যবোঝাই পরিবহন, রোগী নিয়ে অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না। এসব প্রবেশপথ দিয়ে মানুষের চলাচলও সীমিত থাকবে। নগরীতে প্রবেশের সময় লোকজনকে নিরাপত্তা চৌকিতে পুলিশের মুখোমুখি হতে হবে।

এর আগে সোমবার থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরদিন সকাল ৭টা পর্যন্ত নগরীতে ওষুধের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন সিএমপি কমিশনার।

সূত্র ঃ সময় সংবাদ

চট্টগ্রামে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের
                                  

অনলাইন ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এবার চট্টগ্রাম নগরীর সবগুলো প্রবেশপথ বন্ধ করে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন সিএমপি কমিশনার।

সোমবার (৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তিনি এই নির্দেশনা জারী করেন। একই সাথে ওই প্রবেশ পথগুলোতে চেকপোস্ট বসানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে সময় সংবাদকে জানিয়েছেন সিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ মাহবুবর রহমান।

এটিকে তিনি লকডাউন না বলে মানুষ এবং যানবাহন চলাচল সীমিত করার উদ্যোগ বলে মন্তব্য করেছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় নিজ ক্ষমতাবলে এই আদেশ জারি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করে সিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ মাহাবুবর রহমান বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে আমরা সব ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছি। নগরীর আশপাশের উপজেলা থেকে প্রতিদিন লোকজন চট্টগ্রাম শহরে আসছেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বিস্তার প্রতিরোধের ক্ষেত্রে এটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ বলে আমাদের মনে হচ্ছে। সেজন্য আপাতত পাঁচটি প্রবেশপথ আমরা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেখানে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। অযৌক্তিক কোনো কারণে কেউ প্রবেশ করতে পারবে না।

নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়া নগরীর প্রবেশপথ হলো বাকলিয়া থানাধীন শাহ আমানত সেতু, চান্দগাঁও থানাধীন কালুরঘাট সেতু, কাপ্তাই রাস্তার মাথা, বায়েজীদ থানাধীন অক্সিজেন মোড় এবং আকবরশাহ থানাধীন সিটি গেইট।

কমিশনার মাহবুবর রহমান জানান, এসব প্রবেশপথ দিয়ে ওষুধ, খাদ্য ও জরুরি পণ্যবাহী পরিবহন, রপ্তানি পণ্যবোঝাই পরিবহন, রোগী নিয়ে অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না। এসব প্রবেশপথ দিয়ে মানুষের চলাচলও সীমিত থাকবে। নগরীতে প্রবেশের সময় লোকজনকে নিরাপত্তা চৌকিতে পুলিশের মুখোমুখি হতে হবে।

এর আগে সোমবার থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরদিন সকাল ৭টা পর্যন্ত নগরীতে ওষুধের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন সিএমপি কমিশনার।

সূত্র ঃ সময় সংবাদ

ফরিদপুরে আইসোলেশনে বৃদ্ধের মৃত্যু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : করোনা সন্দেহে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা এক রোগীর (৭০) মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তার বাড়ি মধুখালী উপজেলায়।

হাসপাতালের পরিচালক মো. সাইফুর রহমান জানান, এক রোগী কয়েকদিন আগে কিডনীজনিত ও শ্বাসকষ্ট সমস্যা নিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে ভর্তি হন।

রোববার তার করোনা উপসর্গ দেখতে পেয়ে চিকিৎসকরা তাকে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে এনে ভর্তি করে। আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

তিনি বলেন, গতকাল তার করোনা নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে পরীক্ষার জন্য।

মধুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মোস্তাফা মনোয়ার জানান, আমরা দুদিন আগে জানার সাথে সাথে ওই এলাকার ৪টি বাড়ির প্রায় ৫০ জন সদস্যকে হোম কোয়ারেন্টাইন করে দিয়েছি। তার লাশ প্রশাসনের মাধ্যমে দাফন করা হবে।

কদমতলী মডেল টাউনে করোনা রোগীর সন্ধান
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ দক্ষিণ থানাধীন কদমতলী মডেল টাউন এলাকায় প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান মিলেছে। আক্রান্ত ব্যক্তি একজন ব্যবসায়ী। এই তথ্য নিশ্চিত করে কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মীর মোবারক হোসেন সাংবাদিকদের বলেন,

তিনি কিভাবে, কার সংস্পর্শে এসে করোনা আক্রান্ত হলেন তা এখনও জানা যায়নি। বর্তমানে সে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি আছে।

ঢাকার কদমতলী মডেল টাউনে আক্রান্ত ব্যাক্তি তার নিজস্ব ফ্ল্যাটে পরিবার নিয়ে থাকতেন।

আক্রান্ত ব্যক্তির তিন ছেলে (বিদেশে থাকে), ছেলের বউ ও তারা স্বামী স্ত্রী মিলে একই ফ্ল্যাটে বসবাস করতেন। বাড়ির পাশে (মডেল টাউন) বি ব্লকে তার একটি পুরাতন টিভি সার্ভিসের দোকান রয়েছে।

ইতোমধ্যেই কেরানীগঞ্জের ওই বাড়িটি ঘিরে রেখেছেন থানা পুলিশ। লকডাউনের প্রস্তুতি নিচ্ছে কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন।

নারায়ণগঞ্জে সিটি ও সদর এলাকা অঘোষিত লকডাউন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জে গত এক সপ্তাহে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু এবং আরো নয়জনের শরীরে এ ভাইরাস শনাক্তের পর নড়েচড়ে বসেছে জেলা প্রশাসন। করোনা মোকাবেলায় অবাধ চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে এবার কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সদর উপজেলার তিনটি থানা এলাকাকে এক প্রকার অঘোষিত লকডাউন করতে যাচ্ছেন তারা। রোববার (৫ এপ্রিল) রাতে জেলা প্রশাসনের এক জরুরি সভায় এমনই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

করোনার প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে প্রথমেই সদর উপজেলাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এখানকার বাসিন্দাদের ঝুঁকিমুক্ত করতে চাইছেন তারা। এর পাশাপাশি করোনাভাইরাস যাতে এখান থেকে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সে বিষয়টিও গুরুত্ব দিয়ে তারা দেখছেন।

তবে কোনো কোনো গণমাধ্যমে জেলা প্রশাসন সদর উপজেলার তিন থানায় কারফিউ জারি করেছে বলে সংবাদ প্রচার হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সময় নিউজ রাত সাড়ে এগারোটায় মুঠোফোনে জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিন ও জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলমের সাথে যোগাযোগ করলে কারফিউ জারির বিষয়টি অস্বীকার করেন তারা দুজনই।

জেলা প্রশাসনের একটি সূত্র জানায়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিনের সভাপতিত্বে রাত আটটা থেকে সোয়া দশটা পর্যন্ত এই জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই জরুরি সভায় সেনা কর্মকর্তারাসহ উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, র‌্যাব-১১ অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার এবং জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ।

সভায় করোনা পরিস্থিতির বর্তমান ভয়াবহতার চিত্র তুলে ধরে বিস্তারিত আলোচনা করেন সংশ্লিষ্টরা।

সভা প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিন সময় নিউজকে বলেন, বৈঠক করে সবার সম্মতিক্রমে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি নারায়ণগঞ্জ শহরের সদর উপজেলাধীন তিনটি থানা অর্থাৎ সিদ্ধিরগঞ্জ, সদর থানা ও ফতুল্লা থানা এলাকার কাউকে বাইরে যেতে দেওয়া হবে না এবং বাহির থেকে কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয় হবে না।

জেলা প্রশাসক বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে আইইডিসিআরের নির্দেশনা অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সদর, ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকাকে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। আমরা বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিয়েছি নারায়ণগঞ্জ শহরের সদর উপজেলাধীন তিনটি থানা অর্থাৎ সিদ্ধিরগঞ্জ, সদর থানা ও ফতুল্লা থানা এলাকার কাউকে বিনা প্রয়োজনে বাইরে যেতে দেওয়া হবে না এবং এই এলাকার বাইরে থেকেও বিনা কারণে কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

তিনি আরো বলেন, এসব এলাকায় বিনা প্রয়োজনে রিকশা, অটো রিকশা, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস আরোহী ও মোটরসাইকেলসহ যাত্রী বহনকারী ছোট বড় কোনো যানবাহনকে বিনা প্রয়োজনে রাস্তায় চলাচল করতে দেয়া হবে না।

আরোহী যে কাজেই বাইরে বের হোক তাদেরকে প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হবে এবং বের হওয়ার প্রয়োজনীয়তা প্রশাসন নির্ণয় করবে। যদি অহেতুক কেউ বাইরে বের হন তবে প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা নেবে। এ ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে কিনা তা কঠোরভাবে নির্ণয় করা হবে।

কারফিউর বিষয়টি তুললে জেলা প্রশাসক সময় নিউজকে বলেন, কারফিউ মানে হচ্ছে বাইরে একটা লোকও বের হতে পারবে না। কিন্তু মানুষকে প্রয়োজনে বের হতে হবে। যারা অপ্রয়োজনে বের হবে এবং সামাজিক দূরত্বে ব্যাঘাত সৃষ্টি করবে তাদের নিয়ন্ত্রণ করতেই আমাদেরই এই কঠোর অবস্থান। তাই আমরা কারফিউ বলতে পারি না।

জেলা প্রশাসক আরো জানান, সদর উপজেলার এই তিনটি থানা এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে চেকপোস্ট বসানো হবে। পুরো নিরাপত্তা বিষয়টির দায়িত্ব পালন করবে পুলিশ প্রশাসন। তাদেরকে সহায়তা করবে সেনাবাহিনী ও র‌্যাবসহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী অন্যান্য সংস্থাগুলো।

এ ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপার মো. জায়েদুল আলম সময় নিউজকে বলেন, আমরা সবদিক বিবেচনা করে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোকে চিহ্নিত করেছি। সার্বক্ষণিক মোট ৩২টি চেকপোস্ট বসানো হবে। এসব চেকপোস্ট থাকবে পুলিশের নিয়ন্ত্রণে। পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও র‌্যাব টহলের মাধ্যমে এসব চেকপোস্ট নজরদারিসহ পুলিশকেও সহযোগিতা করবে। সোমবার ভোর থেকেই চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু হবে। কাউকে কোনোভাবে ছাড় দেয়া হবে না।

এই পরিস্থিতি কারফিউ কিনা জানতে চাইলে পুলিশ সুপার বলেন, আমরা কারফিউ বলছি না। তবে অঘোষিত লকডাউন বলা যায়।

নারায়ণগঞ্জে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে ১১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন বৃদ্ধ হোশিয়ারী ব্যবসায়ী ও একজন বৃদ্ধা নারী মারা গেছেন। এছাড়া করোনা আক্রান্ত ৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ জানিয়েছে। করোনায় আক্রান্তদের সংস্পর্শে থাকায় জেলার বন্দর উপজেলার রসুলবাগ, শহরের পাইকপাড়া ও ফতুল্লার লামাপাড়া এলাকার ৬শ` পরিবারকে লকডাউন এর আওতায় আনা হয়েছে।

চট্টগ্রামে সুপারশপ লকডাউন, মালিক-কর্মচারীরা কোয়ারেন্টাইনে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : কর্মচারীর শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ায় চট্টগ্রামের অভিজাত সুপারশপ ‘দি বাস্কেট’ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সেইসঙ্গে শপের মালিককে সপরিবারে, কর্মকর্তা-কর্মচারী সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিল্টন রায়।

রোববার (৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মচারীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর এ পদক্ষেফ নেয়া হয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

সুপারশপটির ম্যানেজার নেজাম উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, গত শনিবার সকাল থেকে খুলশী থানা পুলিশের নির্দেশে তাদের প্রতিষ্ঠানটি লকডাউন করা হয়েছে।

প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের করোনাভাইরাস আক্রান্ত প্রথম রোগীর ২৫ বছর বয়সী ছেলে বাস্কেটে ‘সেলস এক্সিকিউটিভ’ হিসেবে চাকরি করেন। সে কারণে নিরাপত্তামূলকভাবে শনিবার বাস্কেট বন্ধ করে পর রোববার সন্ধ্যায় ওই যুবকের শরীরে করোনা সংক্রামণ হওয়ার রিপোর্ট পাওয়ার কথা জানান চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বি।

বাস্কেটের ম্যানেজার নেজামউদ্দিন বলেন, আক্রান্ত কর্মী গত ২৫ মার্চ থেকে ছুটিতে আছেন। তারপরেও পুলিশের নির্দেশনা মেনে আমরা বাস্কেট বন্ধ করে দিয়েছি।

টেকনাফে ১৫ বাড়ি-দোকান ও ল্যাব লকডাউন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : টেকনাফ শ্বশুরবাড়ি থেকে ফিরে যাওয়া ঢাকা উত্তরা এলাকার এক র‌্যাব সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাসের আলামত পাওয়া গেছে। ফলে গত কয়েকদিন আগে তার সংস্পর্শে আসা টেকনাফের ১৫টি বাড়ি ও দোকান একটি প্যাথলজি লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন। এর মধ্যে ৭টি বাড়ি ও ৮টি দোকান ও একটি কেয়ারল্যাব নামক একটি প্যাথলজি রয়েছে।

শুক্রবার (৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে টেকনাফ পুরাতন পল্লান পাড়ায় বাড়ি ও দোকান গুলো লকডাউন করা হয়।
সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ঢাকায় করোনা শনাক্ত র‌্যাব সদস্যের শ্বশুরবাড়ি টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়ায়। কিছু দিন আগে তিনি এখান থেকে ফিরে করোনা আক্রান্ত হন। ফলে তার সংস্পর্শে আসা প্রায় ১৫টি বাড়ি ও দোকান লকডাউন করে রাখা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত ২০ মার্চ ঢাকা থেকে ওই র‌্যাব সদস্য টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন পল্লান পাড়া এলাকায় তার শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসেন। কয়েকদিন বেড়ানোর পর গেল ২৬ মার্চ টেকনাফ থেকে ঢাকায় চলে যান। সেখানে সর্দি, জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হন তিনি। এরপর ৩ এপ্রিল ঢাকায় পরীক্ষা করলে তার শরীরে কভিড-19 পজিটিভ পাওয়া যায়। তাকে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা ডা. টিটু চন্দ্রশীল জানান, আইইডিসিআর সূত্রে জানা জানতে পারি যে, ওই র‌্যাব সদস্য কভিড19 এ আক্রান্ত। পূর্বের অবস্থান জানতে গিয়ে টেকনাফে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসার ঘটনা জানা যায়।

রাজশাহীতে ক্ষুধার্ত কুকুরের দল খেয়ে ফেলল চারটি হরিণ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানায় পাঁচটি ক্ষুধার্ত কুকুর ঢুকে চারটি হরিণ খেয়ে ফেলেছে। শুক্রবার (৩ এপ্রিল) ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি ধামাচাপা দিতে তড়িঘড়ি করে সকালেই হরিণগুলোর দেহের অবশিষ্টাংশ মাটিচাপা দেয়া হয়েছে। কুকুরের পেটে যাওয়া চার হরিণের তিনটিই বাচ্চা। একটি তাদের মা।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে বিকালে চিড়িয়াখানায় সরেজমিনে গেলে সুপারভাইজার শরিফুল ইসলামকে পাওয়া যায়। তিনি ঘটনার কিছুই জানেন না বলে দাবি করেন। এ প্রতিবেদক খবর কোথায় পেলেন সেটিই জানার চেষ্টা করেন বার বার। পরে হরিণের সেডের পাশে পাওয়া যায় মধু নামের একজন পশু পরিচর্যকারীকে।

হরিণের সেডে কুকুর ঢুকেছিল কোন দিক দিয়ে তা জানতে চাইলেও মধু দেখালেন পূর্ব দিকের বেড়ার অংশ। এ প্রতিবেদকের সামনেই কেঁদে ফেলেন মধু। বলেন, তার কোনো দোষ নেই। মধুর সহজ স্বীকারোক্তির পর অবশ্য সুপারভাইজার শরিফুল ইসলামও স্বীকার করেন বিষয়টি।

তিনি জানালেন, চিড়িয়াখানায় গত তিন মাসে হরিণের ১৫টি বাচ্চা জন্ম নিয়েছে। নেড়ি কুকুরের দল ঢোকার সময় সেডে মোট হরিণ ছিলো ৭৫টি। কুকুরে খাওয়ার পর এখন হরিণের সংখ্যা ৭১টি। কুকুরের পেটে যাওয়া চার হরিণের তিনটিই বাচ্চা। একটি তাদের মা। হরিণগুলোর দেহের অবশিষ্টাংশ সেডের ভেতরেই মাটি খুঁড়ে পুঁতে ফেলা হয়েছে। জায়গাটি এখনও উঁচু হয়ে আছে।

বেশ কিছু জমি নিয়ে হরিণের শেড করা হয়েছে। এর ভেতর টিন দিয়ে দুটি ঘর রয়েছে। হরিণেরা সেখানে পানি এবং খাবার খায়। ছায়ায় বিশ্রাম করে। বাকি অংশটুকু হরিণের বিচরণের জন্য ফাকা পড়ে আছে। চারপাশে আছে লোহা এবং কাঁটাতারের বেড়া। বিকালে সবগুলো হরিণ ফাকা এক জায়গায় বসে ছিল। হরিণগুলোর চোখে-মুখে দেখা যায় আতঙ্কের ছাপ।

চিড়িয়াখানায় পাঁচটি কুকুর ঢুকে চারটি হরিণ সাবাড় করলেও শুক্রবার বিকালেও ভেতরে কুকুর দেখা গেছে। চিড়িয়াখানায় দ্বিতীয় গেটের বাম পাশে থাকা পুকুরপাড়ে শুয়ে ছিলো একটি কুকুর। চিড়িয়াখানার একটি সূত্র জানিয়েছে, কর্মচারীরা ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করেন না। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দায়িত্বহীনতার কারণেই সেডের ভেতর চারটি হরিণ নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে।


সিটি কর্পোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানা পরিচালনা করে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। যোগাযোগ করা হলে চিড়িয়াখানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিষয়টি স্বীকার করে বলেছেন, রাত ২টা পর্যন্ত চিড়িয়াখানার পুকুরে কাজ চলেছে। লোকজন ছিল। তখন পর্যন্ত কুকুর ঢোকেনি। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শহরের হোটেলগুলো বন্ধ থাকায় কুকুরের খাবার সংকট। তাই পাঁচটি নেড়ি কুকুর চিড়িয়াখানায় ঢুকে পড়েছিল। বেড়া থাকলেও কুকুরগুলো হরিণের সেডে ঢুকতে পেরেছিল।

ক্ষুধার্ত কুকুরগুলো প্রথমে বাচ্চাগুলোকে আক্রমণ করেছিল। তাকে বাঁচাতে গিয়েছিল মা হরিণটি। তখন সবগুলোকেই আক্রমণ করেছে কুকুরগুলো। সবগুলো হরিণের দেহের অংশ খেয়ে ফেলেছিল। ভোরে চিড়িয়াখানার কর্মীরা দেখেন হরিণের সেডে পাঁচটি কুকুর। চারটি হরিণের ক্ষতবিক্ষত দেহও পড়ে ছিল। পরে কুকুরগুলোকে বের করে দেয়া হয়। আর হরিণগুলোর দেহের অবশিষ্টাংশ মাটিতে পুঁতে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় চিড়িয়াখানার তত্ত্বাবধায়ককে একটি লিখিত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। দু’একদিনের মধ্যেই তিনি প্রতিবেদন দেবেন।

সূত্র: সময় সংবাদ

আমানের পক্ষে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছাত্রদলের ত্রাণ বিতরণ
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের চেয়ারপার্সন বেগমখালেদা জিয়া`র রাজনৈতিক উপদেষ্টা কেরানীগঞ্জের সাবেক এমপি, প্রতিমন্ত্রী ও ঢাকসুর ভিপি আলহাজ্ব আমান উল্লাহ আমানের নির্দেশে এবং কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছাত্রদলের উদ্যোগে ছয় হাজার প্যাকেট খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল এপ্রিল কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ৭ টি ইউনিয়নে, ৫ কেজি করে চাল, দুই কেজি করে গোলআলু ও পেয়াজ, এক কেজি করে মুশরি ডাল, তেল ও লবণ ভর্তি ছয় হাজার প্যাকেট বিতরণ করে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছাত্রদল।

আজ বেলা ১১ টায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা কামাল মন্টুর নেতৃত্বে রুহিতপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে অসহায় পরিবার বর্গের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন রুহিতপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু বকর, ঢাকা জেলা যুবদল নেতা ত্রিবুদ্দিন রোমান, ঢাকা জেলা জাসাস এর সাংগঠনিক সম্পাদক ও মডেল থানার সভাপতি সোহানুর রহমান সোহেল, সরকারি ইস্পাহানী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক শহিদুল ইসলাম রাজু, কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছত্রদল নেতা আব্দুস সালাম, মাহবুব আলম, ইকবাল হোসেন ও রাজু ইসলাম প্রমুখ।

করোনা ভাইরাসের মহামারি আতংকে আছেন সারা দেশের মানুষ, মানুষের সেবায় মানুষ বিত্তশালীগন এগিয়ে আসলে খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষগুলো আজ দিশেহারা, দিন আনে, দিন খায়, তাদের পাশে দাড়াতে হবে, জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে।

এব্যাপারে আলহাজ আমান উল্লাহ আমান পুত্র ব্যারিস্টার ইরফান ইবনে আমান অমি মুঠোফোনে সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি`র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আলহাজ্ব আমান উল্লাহ আমানের নির্দেশে এই ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। আমরা আমাদের সাধ্য মত গরীব ও অসহায় দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছি। দেশের সকল সামর্থবানরা যার যার সমর্থ অনুযায়ী গরীবের পাশে দাঁড়ালে দেশে কোন অভাব থাকবেনা। জাতীয় এই দুর্ভোগে ছাত্রদল নেতাদের কে জনসচেতনতা বৃদ্ধি র পাশাপাশি করোনা ভাইরাসের মহামারি মরণঘাতী আতংকে অসহায় মানুষের পাশে থাকার নির্দেশ প্রধান করেন।

কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানার যৌথ উদ্যোগে দুঃস্থ, কর্মহীনদের মাঝে খাবার বিতরণ
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : করোনার ভাইরসের পাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া দুঃস্থ , পথচারী, রিক্সার চালক অসহায় মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবার বিতরণ করেছেন কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ।

শুক্রবার (৩ মার্চ) কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানার যৌথ উদ্যোগে প্রায় ৫ শত দুঃস্থ অসহায় কর্মহীন, পথচারী, রিক্সা চালক দিনমজুর মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার ও মিনারেল পানি বিতরণ করা হয়েছ। এ সময় নিজ হাতে হাতে রান্না করা খারাব বিতরন করেন, কেরানীগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কাজি মাইনুল ইসলাম, পরিদর্শক তদন্ত মিজানুর রহমান, অফিসার ইনচার্জ অপারেশন আসাদুজ্জামান টিটু, পুলিশ পরিদর্শক মাসুম রহমান, কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি - বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী সালাউদ্দিন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন মিন্টু, সহ সভাপতি ইকবাল রতন, সাবেক সভাপতি মোঃ আব্দুল গনী, সাবেক সহ সভাপতি ও বর্তমান কার্যনির্বাহী সদস্য মিয়া আবদুল হান্নান, ঢাকা জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এইচ এম আমীন সহ মডেল থানার পুলিশ অফিসার ও কেরানীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ। কেরানীগঞ্জ মডেল থানা প্রাঙ্গণ গেইট থেকে খাবার বিতরণ শুরু করে, কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব সামনে বিতরণ শেষ হয়। দুঃস্থ কর্মহীন অসহায় মানুষকে তিনফিট দুরত্ব বজায় রেখে লাইনে দাঁড়িয়ে সুন্দর ও শৃঙ্খলা সারিবদ্ধভাবে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়।

 

মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইনুল ইসলাম বলেন, কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের পাশাপাশি কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ আজ করোনা ভাইরাস মহামারি কারনে অসহায় কর্মহীন ও খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাড়িয়েছি, সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানরা গরিব মেহনতি মানুষের পাশে দাড়ালে অসহায় কর্মহীনদের নাখেয়ে থাকতে হবে না, তিনি আরো বলেন, খাবারেরপাশাপাশি এখন বেশি প্রয়োজন পরিস্কার পরিছন্নতা ও ঘরে বসে থাকা সচেতনতা সৃষ্টি করা। কোন অসুস্থ হতদরিদ্র চিকিৎসা সেবা নিতে অক্ষম হলে সঠিক নাম ঠিকানা সহ আমাকে সংবাদ জানালে আমরা চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করবো। আমাদের পুলিশের টিম আপনাদের সেবা নিয়োজিত থাকবেন। তিনি সইবাকে মাস্ক ব্যবহার, স্যানিটাজার ও ক্ষারযুক্ত সাবান দিয়ে ভালোভাবে বার বার হাত দুয়ার জন্য অনুরোধ জানান। নিজের ভাল থাকলে আপনার পরিবার ভালো থাকবো। রান্না করা খাবার পেয়ে বেজায় খুশি ৬৫ বছর বয়সী মাদারীপুরের আমেনা খাতুন।

সড়ক দুর্ঘটনায় ডান পা হারানো পঙ্গু শামীম মিয়া ক্রসে ভর করে এসেছে ২ কেজি চাল কিনিতে কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে লাইনে দাঁড়িয়ে এক প্যাকেট পেয়ে আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করে বলে আমার হাতে দুই কেজি চাল দেখিতেছেন এই চাল নিয়ে বাসায় গেলে, রান্না করবে, ছোট ছেলে ক্ষুধায় কান্না করছে, এখাবার নিয়ে গেলে ছেলে খুব খুশি হবে।

করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় কলেজছাত্রের মৃত্যু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : জ্বর-শ্বাসকষ্টসহ করোনার সব উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরার নারায়ণপুরে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, তার শরীরে করোনার লক্ষণ মনে হচ্ছে না, তবে তার নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) দিনগত রাতে সদর উপজেলার বল্লী ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। ওই কলেজছাত্রের নাম হাসান আলী (২০)। তিনি সদর উপজেলার বল্লী ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের বাহারুল ইসলামের ছেলে ও ঝাউডাঙ্গা কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

বল্লী ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইরাদ আলী মোবাইল ফোনে জানান, গত ৬/৭ দিন ধরে ওই যুবকের গায়ে জ্বর, ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট ছিল।

তার পরিবারের পক্ষে জানানো হয়, গায়ে জ্বর থাকায় সে দুর্বল হয়ে পড়ে। এতে সে তেমন খাওয়া দাওয়া করতো না। স্থানীয় গ্রাম্য ডাক্তার দেখিয়ে তাকে ওষুধ খাওয়ানো হয়। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সময় তার মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়। তার মৃত্যুর খবরে এলাকাজুড়ে করোনা আতঙ্ক বিরাজ করছে। তার পরিবারের সদস্যরা মরদেহ থেকে কিছুটা দুরে অবস্থান করছেন। ওই বাড়ির আশেপাশেও এখন কেউ আসছে না। স্থানীয় গ্রাম পুলিশ দিয়ে বাড়িটি পাহারায় রাখা হয়েছে।

তবে সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শওকত জানান, এ খবর পাওয়ার পর একটি মেডিকেল টিম পাঠানো হয়েছিল। তারা তার শরীরে কোনো করোনার ভাইরাসের লক্ষণ পাননি। তবে যেহেতু এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে, সেজন্য তার করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হবে।

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় বিদেশ ফেরত আরো নতুন ৪৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট ২ হাজার ৮৯৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে আরো ৬৯৬ জনকে।

নওগাঁয় বন্দুকযুদ্ধে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : নওগাঁয় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ ও থানা পুলিশের সঙ্গে পৃথক `বন্দুকযুদ্ধে` দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। বুধবার (১ এপ্রিল) রাতে জেলার পত্নীতলা এবং আত্রাই উপজেলায় এ বন্দুকযুদ্ধ হয়।

নিহতরা হলেন- পত্নীতলা উপজেলার বালুখা এলাকার মৃত রফাত উল্লাহর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৩৮) এবং আত্রাই উপজেলার ভর তেঁতুলিয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে মিনহাজুল ইসলাম ওরফে মিন্টু শিকদার (৩৬)।

আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মসলেম উদ্দিন বলেন, উপজেলার তিলাবুদুরি এলাকায় রাত ৩টার দিকে পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের বন্দুকযুদ্ধে মিনহাজুল ইসলাম ওরফে মিন্টু শিকদার নিহত হন। এ সময় একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও দুটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়।

এতে চার পুলিশ সদস্য আহত হন। নিহত মাদক ব্যবসায়ী ও আহত পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে।

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল কুমার চক্রবর্তী বলেন, উপজেলার দিবর ইউনিয়নের দিবর এলাকায় রাত আড়াইটার দিকে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের বন্দুকযুদ্ধে জাহিদুল ইসলাম নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, চারটি হাসুয়া, ৯৫০ পিস ইয়াবা ও ৬৫ গ্রাম হিরোইন উদ্ধার করা হয়।

জাহিদুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় কমপক্ষে ১২টি মামলা ছিল।

হালুয়াঘাটে অসহায় ও কর্মহীনদের মাঝে সরকারি ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধকল্পে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে গৃহবন্দী হয়ে থাকা কর্মহীন ও দুস্থদের মাঝে সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে হালুয়াঘাট উপজেলা প্রশাসন।

প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পৌরশহরসহ উপজেলার হাট-বাজার ও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের প্রায় ২ শতাধিক অসহায় শ্রমজীবী মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা বিতরণ করা হয়।

পৃথকভাবে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশ নেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রেজাউল করিম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর আহমদ।
এর আগে উপজেলার মাঝিয়াইল গ্রামে ব্যক্তি উদ্যোগে ৫০ জনকে ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন ময়মনসিংহ জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সমর কান্তি বসাক।

ত্রাণ বিতরণকালে হালুয়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ, সমবায় কর্মকর্তা কামরুল হুদা, মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম, সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুর রহিম, উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, এসআই মাহমুদুল হাসানসহ ও বিভিন্ন দফতরের সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণ সহায়তার বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম বলেন, এই উপজেলায় সরকারিভাবে ত্রাণ ও দূর্যোগ মন্ত্রনালয় থেকে ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ১৪ টন চাল ও নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা বরাদ্দ পেয়েছেন। প্রতিদিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। সর্বসাধারণকে নিজ নিজ ঘরে থাকতে বিশেষভাবে অনুরোধ জানান তিনি।

শরীয়তপু‌রে আইসোলেশনে থাকা যুব‌কের মৃত্যু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস সন্দেহে শরীয়তপুরে সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি এক যুবকের (৩৪) মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন থেকে তিনি মারা যান। ওই যুবক নড়িয়া উপজেলার বাসিন্দা ছিলেন।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মুনির আহমেদ জানান, ওই যুবকের যক্ষ্মা ছিল। শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন। যেহেতু শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও কাশি ছিল। তাই করোনাভাইরাস থাকতে পারে এমন ধারণা করে তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়।

ভর্তির পর থেকেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এক পর্যায়ে তিনি মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান।

তিনি আরও জানান, তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হবে। এছাড়া ডব্লিউএইচও এর নিয়ম অনুযায়ী দাফন করা হবে।

এ ব্যাপারে নড়িয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, ওই যুবক নড়িয়া উপজেলার মোক্তারের চর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তিনি একজন শ্রমিক। দীর্ঘদিন ধরে যক্ষ্মা রোগে ভুগছিলেন।

এদিকে ওই ব্যক্তির আশপাশের পাঁচটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

শেষ হলো পদ্মাসেতুর সবক’টি পিলার বসানোর কাজ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শতভাগ শেষ হলো পদ্মা সেতুর ৪২টি পিলারের কাজ। সেতুর ২৬ নম্বর পিলারটির কংক্রিটিংয়ের কাজ সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হলো সব পিলারের নির্মাণ কাজ। করোনাভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যেই পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে এ কাজ শেষ করা হয়। সব পিলারের কাজ শেষ করাকে পদ্মা সেতুর ইতিহাসে অন্যতম অর্জন বলে মনে করছেন প্রকল্প পরিচালক।

বেশিরভাগ অংশই দৃশ্যমান এখন দেশের মেগা প্রকল্প পদ্মা বহুমুখী সেতুর। কাজের বর্তমান অবস্থা আশা জাগানিয়া হলেও কোনভাবেই সহজ ছিলো না শুরুটা। ২০১৫ সালে শুরুর পর কাজের অগ্রগতি হোঁচট খায় নকশা জটিলতায়। ২২টি পিলারের নিচে মাটির গঠনগত জটিলতা দেখা দিলেও আশা ছাড়েন নি প্রকৌশলীরা। দেশি বিদেশি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের চেষ্টায় শেষ পর্যন্ত দেড়বছর পর নতুন নকশায় শুরু হয় জটিলতায় থাকা পিলারগুলোর কাজ।

সে কাজও শেষ হলো অবেশেষে। পরিকল্পনা ছিলো, এপ্রিল মাসের মধ্যে সব পিলারের কাজ শেষ করা হবে। প্রকৌশলগত পিপিই`র পাশাপাশি স্বাস্থ্যগত পিপিই ব্যবহার করে আগেই নিশ্চিত করা হয় সুরক্ষা। এর আগে গত ১৭ মার্চ শেষ করা হয়েছিলো ৪১তম পিলারটির কাজ। এক সাথে সব পিলারের নকশা সমাধান হলেও ধারাবাহিকতা রক্ষায় একটির পর একটির কাজ শেষ করা হয়।

পদ্মা বহুমুখী সেতু’র প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, ২২টি পিলারের কাজ একই পদ্ধতিতে করা হয়েছে। বেশির ভাগ পিলারের সমাধান এক সিস্টেমেই এসেছে।

এর ফলে মূল সেতুর ৪২টি, সড়ক থেকে সেতুতে উঠার ৮৯টি এবং রেল লাইনের ১৪টি, সব মিলে পদ্মা সেতু প্রকল্পের ১৪৫টি পিলারের সবগুলোর নির্মাণ কাজই শেষ হলো। সূত্র: সময় সংবাদ

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে ভবানীগঞ্জ সচেতন নাগরিক সমাজ
                                  

নিজস্ব প্রতিনিধি : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করেছে। চীন, ইতালি, স্পেন আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনার ছোবলে আক্রান্ত। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মারা যাচ্ছে অসংখ্য মানুষ।

বাংলাদেশেও ধরা পড়ছে করোনায় আক্রান্ত রোগী। সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে মাস্ক ও লিফলেট নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ালো লক্ষ্মীপুর জেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নে ভবানীগঞ্জ সচেতন নাগরিক সমাজ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অসহায়, অবহেলিত ও নিরিহ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ এবং বাড়ি বাড়ি গিয়ে কালো জিরা বিতরণসহ বিভিন্ন স্থানে জিবানু নাশক স্প্রে এবং জনসচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ করে ভবানীগঞ্জের এই সচেতন নাগরিক সমাজ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সচেতন নাগরিক সমাজের মোহসিন রাজু, শেখ শাহিন, পারভেজ, মোরশেদ, আলম, বিপ্লব, কামরুল, জিসান, ফুয়াদ, অভি, আতিক, মিশু সাকিল রুমিজ ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। তারা জানান, করোনা ভাইরাস সমূলে নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত এই কার্যক্রম তারা চালিয়ে যাবেন। সমাজের অন্যন্য বিত্তবানদেরও এই মানব সেবায় অংশগ্রহনের আহবান জানান তারা।

মৃত শ্বশুরকে দেখতে যাওয়ার পথে জামাই-মেয়েসহ নিহত ৩
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শ্বশুরের দাফনে যাওয়ার পথে জামাতা, মেয়ে ও গাড়িচালক নিহত হয়েছে। কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কোরবানপুরে মঙ্গলবার এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-পাশের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের জুলাইপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৭), তার স্ত্রী পারভীন আক্তার (২৪) ও গাড়িচালক আব্দুর রহমান (২৮)। চালক আবদুর রহমান নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার সোনাদিয়া গ্রামের আবুল বাশারের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নিহত সাদ্দাম হোসেন তার শ্বশুর আবু বকরের মৃত্যুর সংবাদ শুনে মঙ্গলবার সকালে স্ত্রী পারভীন আক্তারকে নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের বাগাউড়া শ্বশুর বাড়িতে যাচ্ছিলেন। দুপুরে মাধবপুর-দৌলতপুর সড়কের কোরবানপুর বাজার এলাকার মোড়ে প্রাইভেটকারটির সামনে চাকা ফেটে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের গভীর খালে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের লোকজন স্থানীয়দের সহায়তায় লাশ উদ্ধার করে।
এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


   Page 1 of 122
     সারা দেশ
চট্টগ্রামে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের
.............................................................................................
ফরিদপুরে আইসোলেশনে বৃদ্ধের মৃত্যু
.............................................................................................
কদমতলী মডেল টাউনে করোনা রোগীর সন্ধান
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে সিটি ও সদর এলাকা অঘোষিত লকডাউন
.............................................................................................
চট্টগ্রামে সুপারশপ লকডাউন, মালিক-কর্মচারীরা কোয়ারেন্টাইনে
.............................................................................................
টেকনাফে ১৫ বাড়ি-দোকান ও ল্যাব লকডাউন
.............................................................................................
রাজশাহীতে ক্ষুধার্ত কুকুরের দল খেয়ে ফেলল চারটি হরিণ
.............................................................................................
আমানের পক্ষে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ছাত্রদলের ত্রাণ বিতরণ
.............................................................................................
কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানার যৌথ উদ্যোগে দুঃস্থ, কর্মহীনদের মাঝে খাবার বিতরণ
.............................................................................................
করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় কলেজছাত্রের মৃত্যু
.............................................................................................
নওগাঁয় বন্দুকযুদ্ধে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
.............................................................................................
হালুয়াঘাটে অসহায় ও কর্মহীনদের মাঝে সরকারি ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত
.............................................................................................
শরীয়তপু‌রে আইসোলেশনে থাকা যুব‌কের মৃত্যু
.............................................................................................
শেষ হলো পদ্মাসেতুর সবক’টি পিলার বসানোর কাজ
.............................................................................................
করোনাভাইরাস মোকাবেলায় নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে ভবানীগঞ্জ সচেতন নাগরিক সমাজ
.............................................................................................
মৃত শ্বশুরকে দেখতে যাওয়ার পথে জামাই-মেয়েসহ নিহত ৩
.............................................................................................
সাপাহারে অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ পৌঁছে দিলেন ইউএনও কল্যাণ চৌধুরী
.............................................................................................
জামালপুরে নারীর নমুনা সংগ্রহ, ১০ বাড়ি লকডাউন
.............................................................................................
পীরগাছায় ট্রেনের ধাক্কায় অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত
.............................................................................................
দেশ লকডাউন হওয়া উচিত: হাইকোর্ট
.............................................................................................
বগুড়ায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৬ শ্রমিক নিহত
.............................................................................................
নগরীতে জীবানুনাশক ঔষধ স্প্রে করলো সিসিক
.............................................................................................
সিলেটে কোয়ারেন্টিনে আরও ৩২৮ জন
.............................................................................................
আজ সন্ধ্যা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য যাত্রীবাহি ট্রেন চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
সারা দেশে গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
বরিশালে করোনা সন্দেহে দু’জন হাসপাতালে
.............................................................................................
আজ থেকে সারাদেশে নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
গাজীপুরে একজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করলেন মাশরাফি
.............................................................................................
সমাজের সহিংসতা প্রতিরোধে কাজ করছে নারী দল
.............................................................................................
কুমিল্লায় একই পরিবারের ১০ ঘর পুড়ে ছাই
.............................................................................................
৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ, বাবা-ছেলে আটক
.............................................................................................
ড্রাম ট্রাক-সিএনজি ও প্রাইভেটকারে সংঘর্ষে বাবা-মেয়েসহ নিহত ৫
.............................................................................................
খুলনায় তয়ন হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড
.............................................................................................
রাজধানীতে ২ শিশু সন্তানকে হত্যা, মা আটক
.............................................................................................
ট্রাক চাপায় পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু
.............................................................................................
কক্সবাজারে ১০ হাজার ইয়াবা ও ২৫ লাখ টাকাসহ নারী আটক
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সভা
.............................................................................................
ছাত্রলীগকর্মী রাকিব হত্যার আসামী নজরুল বন্দুকযুদ্ধে নিহত
.............................................................................................
চট্টগ্রামে অগ্নিদগ্ধে দুজনের মৃত্যু
.............................................................................................
গাজীপুরে ১২ দোকান আগুনে পুড়ে ছাই
.............................................................................................
মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্র নিহত
.............................................................................................
গাছের সাথে প্রাইভেটকারের ধাক্কা, নিহত ৬
.............................................................................................
বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তিন যাত্রী নিহত
.............................................................................................
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন
.............................................................................................
২৮ কোটি ৯ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা ব্যয়ে এগিয়ে চলছে শরীয়তপুর-নড়িয়া সড়েকর কাজ
.............................................................................................
পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত
.............................................................................................
ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল দুই মোটরসাইকেল আরোহীর
.............................................................................................
কাশিয়ানীতে ট্রাকচাপায় স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু
.............................................................................................
২ পক্ষের গোলাগুলিতে দুই ডাকাত নিহত
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD