| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ২৯ তারিখ থেকে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু   * এখন পর্যন্ত ৬ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী মারা গেছেন   * উচ্চ মাধ্যমিকে পাসের হার ৭৩.৯৩%   * ৮ দিন পর বান্দরবানের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক   * রাজবাড়ীতে বিপৎসীমার ওপরে পদ্মার পানি   * মামলার প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি মিন্নি   * রংপুরবাসীর ভালোবাসায় পল্লী নিবাসে চিরশায়িত এরশাদ   * প্রতি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর   * আদালতে খুন : বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট   * এইচএসসি পরীক্ষার ফল বুধবার  

   আবহাওয়া -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
মেঘলা আকাশ, বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে

ডেস্ক রিপোর্ট : আজ আষাঢ়ের শেষ দিন। বর্ষাকালের এ মাসটির প্রথম দিকে বৃষ্টির দেখা সেভাবে মেলেনি। বরং চলছিল দাবদাহ। তবে মাসটির অর্ধেক সময় অতিক্রম করার পরই তার চিরাচরিত রূপ ধারণ করেছে। দেশের ওপর মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় অধিকাংশ অঞ্চলে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। কোথাও কোথাও ১০ দিনের বেশি সময় ধরে চলছে টানা বৃষ্টি। নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর, মাঠ-ঘাটে থৈ থৈ করছে পানিতে।

সোমবারও রাজধানীর আকাশ মুখ ভার করে আছে। সকাল ৮টার দিকে চারপাশ অন্ধকার ছিল। কিন্তু বৃষ্টি নামেনি। তবে সেই অন্ধকার এখনও কাটেনি। ফলে যেকোনো সময় নামতে পারে অঝোরে বৃষ্টি।

এ বিষয়ে সোমবার (১৫ জুলাই) সকালে জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলছেন, ‘বর্ষাকাল চলছে, আপাতত এরকম আবহওয়াই অব্যাহত থাকবে।’

সোমবারের আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানিয়ে তিনি বলেন, ‘রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে কিছু কিছু জায়গায় মাঝারি ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।’

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কারণে এখনও চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের সম্ভাবনা রয়েছে।

মেঘলা আকাশ, বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : আজ আষাঢ়ের শেষ দিন। বর্ষাকালের এ মাসটির প্রথম দিকে বৃষ্টির দেখা সেভাবে মেলেনি। বরং চলছিল দাবদাহ। তবে মাসটির অর্ধেক সময় অতিক্রম করার পরই তার চিরাচরিত রূপ ধারণ করেছে। দেশের ওপর মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় অধিকাংশ অঞ্চলে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। কোথাও কোথাও ১০ দিনের বেশি সময় ধরে চলছে টানা বৃষ্টি। নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর, মাঠ-ঘাটে থৈ থৈ করছে পানিতে।

সোমবারও রাজধানীর আকাশ মুখ ভার করে আছে। সকাল ৮টার দিকে চারপাশ অন্ধকার ছিল। কিন্তু বৃষ্টি নামেনি। তবে সেই অন্ধকার এখনও কাটেনি। ফলে যেকোনো সময় নামতে পারে অঝোরে বৃষ্টি।

এ বিষয়ে সোমবার (১৫ জুলাই) সকালে জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলছেন, ‘বর্ষাকাল চলছে, আপাতত এরকম আবহওয়াই অব্যাহত থাকবে।’

সোমবারের আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানিয়ে তিনি বলেন, ‘রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে কিছু কিছু জায়গায় মাঝারি ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।’

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কারণে এখনও চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের সম্ভাবনা রয়েছে।

আজও অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : বাংলাদেশে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় রয়েছে। মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এ বৃষ্টিপাতের কারণে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বেশকিছু শহরে তৈরি হয়েছে জলাবদ্ধতার। বেড়েছে ভোগান্তি। অন্যদিকে কোনো কোনো জায়গায় ভূমিধসও হয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, আজ শনিবারও (১৩ জুলাই) ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। রয়েছে ভূমিধসের আশঙ্কাও।

শনিবার সকালে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে আজ (১৩ জুলাই) সকাল ১০টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট এবং চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিলিমিটারের বেশি) বৃষ্টিপাত হতে পারে।

অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের সম্ভাবনা রয়েছে।

রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে বলেও জানিয়েছে অধিদফতর। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

থেমে থেমে বৃষ্টি, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা
                                  

এশিয়া বাণী অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীতে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। সোমবার (৮ জুলাই) সকাল থেকেই রাজধানীর আকাশ ছিল মেঘাচ্ছন্ন। রোদ উঠলেও দিনের তাপমাত্রা তুলনামূলক কমই ছিল।

দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে রাজধানীতে থেমে থেমে কখনো মুষলধারে আবার কখনোবা থেমে থেমে বৃষ্টি নামে। তবে বৃষ্টি নামতে পারে এমন পূর্বাভাস আগেই জানিয়েছিল আবহাওয়া অধিদফতর।

এদিকে হঠাৎ বৃষ্টিতে শিক্ষার্থী ও পথচারীদের অনেককেই ভিজতে দেখা গেছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগেই বলা হয়েছিল সোমবার দুপুর ১টা থেকে পরবর্তী ছয় ঘণ্টার জন্য ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আকাশ মেঘলা থেকে অস্থায়ীভাবে মেঘাচ্ছন্ন থাকতে পারে। সেই সঙ্গে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি, বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে ভারি বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সে সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : উত্তর বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের তারতম্যের কারণে দেশের ৪টি সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

চট্টগ্রাম, মোংলা, পায়রা ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস বলছে বায়ুচাপের এ তারতম্যের কারণে চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আগামীকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা, ঝড়ো হাওায়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : উত্তর বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বাসসকে জানান, ‘উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এতে এসব এলাকায় গভীর সঞ্চালণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।’

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমূদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে বলে তিনি জানান।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এদিকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারিপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ-দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘন্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। বাসস

চট্টগ্রাম ও বরিশালে হতে পারে ভারী বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটা আরও ঘণীভূত হতে পারে। এর প্রভাবে চট্টগ্রাম ও বরিশালের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। আগামী তিনদিন বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে।

রোববার (৩০ জুন) সকাল ৯টা পরবর্তী পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ মো. শাহিনুল ইসলাম বলেন, ‘লঘুচাপ সৃষ্টি হয়ে গেছে। আজ সকালে আমরা সেটা ঘোষণাও দিয়েছি। লঘুচাপের প্রভাবে বৃষ্টি হবে চট্টগ্রাম ও বরিশালে। আর লঘুচাপের অবস্থান ভেদে দেশের অন্যান্য স্থানে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তে পারে।’

ঢাকায় রোববার সকালে থেমে থেমে একাধিকবার বৃষ্টিপাত হয়েছে। আবার রোদও উঠেছে। আকাশ মেঘলা রয়েছে।

এ বিষয়ে শাহিনুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকায় লঘুচাপের কারণে কোনো বৃষ্টিপাত হচ্ছে না। ঢাকাতে বৃষ্টিপাত বন্ধ হয়ে গেছে। বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আপাতত নেই। আকাশ মেঘলা থাকতে পারে।’

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

সারাদেশের বৃষ্টিপাতের বিষয়ে পূর্বাভাসে বলা হয়, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা, খুলনা ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। রাতের তাপমাত্রা দেশের পূর্বাঞ্চলে সামান্য কমতে পারে এবং অন্য জায়গায় তা সামান্য বাড়তে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

তীব্র গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : আবহাওয়া অধিদফতর গতকালই পূর্বাভাস দিয়েছিল, আজ বৃষ্টি হতে পারে। সকাল থেকেই আকাশটাও ছিল মেঘাচ্ছন্ন। রাজধানীতে কোথাও কোথাও ভোরবেলায় এক পশলা বৃষ্টি হয়।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, মৌসুমী বায়ুর বর্ধিতাংশ বিহার, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশে মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে সক্রিয় অবস্থায় বিরাজ করছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, রংপুর, রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে। রাজশাহী অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা প্রশমিত হতে পারে। আজ সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি হ্রাস পেতে পারে।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যশোরে ৩৬ দশমিক ৮ ও সর্বনিম্ন কুমারখালীতে ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।রাজধানী ঢাকায় গতকাল সর্বোচ্চ ৩৫ দশমিক ২ ও সর্বনিম্ন ২৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল।

বৃষ্টি হলেও তাপমাত্রা বাড়তে পারে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শনিবার সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ ছিল মেঘলা। দুপুর পৌনে ১টার দিকে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, আজ দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে।

অধিদফতরের আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং চট্টগ্রাম ও সিলেটের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

তবে বৃষ্টি হলেও সারাদেশে দিনের ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানিয়েছে অধিদফতর।

অধিদফতর জানিয়েছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরগ লঘুচাপটি বর্তমানে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

বৃষ্টি থাকবে ৩-৪ দিন, তাপমাত্রা কমছে ১-৩ ডিগ্রি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মৌসুমী বায়ু বিস্তার লাভের কারণে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অংশে হালকা থেকে মাঝারী ধরনের ভারী বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। বৃষ্টিতে তাপমাত্রা ১-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে ঢাকায় বজ্রবৃষ্টি শুরু হয়। দেশের বিভিন্ন অংশেও বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। বৃষ্টিতে তাপমাত্রাও কমে স্বস্তি এসেছে।

আবহাওয়া কার্যালয় জানিয়েছে, দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগ অতিক্রম করে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে।

মৌসুমী বায়ু অর্থাৎ বর্ষা বিস্তার লাভের কারণে বাংলাদেশে আষাঢ়-শ্রাবণে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয় বলে জানান আবহাওয়াবিদেরা।বৃষ্টি নামছে। ছবি: ডিএইচ বাদলসকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এক রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

তাপপ্রবাহের অবস্থায় বলা হয়, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, চাঁদপুর এবং ভোলা অঞ্চলসহ খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু অঞ্চলে প্রশমিত হতে পারে।

পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়, বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু দেশের অবশিষ্ঠাংশের উপর নির্ভার লাভ করতে পারে।

সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৭ মিলিমিটার, ময়মনিসংহে ৩৯ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ১৬ মিলিমিটার, সিলেটে ৫২ মিলিমিটার, রংপুরে ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।যশোরে সর্বোচ্চ ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসসহ ঢাকায় ৩৬ দশমিক ৬, ময়মনিসংহে ৩৬ দশমিক ৫, চট্টগ্রামে ৩২ দশমিক৬, সিলেটে ৩৬ দশমিক ৫, রাজশাহীতে ৩৮ দশমিক ৪, রংপুরে ৩৭, খুলনায় ৩৭ এবং বরিশালে ৩৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : সোমবার (১৭ জুন) মধ্যরাত থেকে মঙ্গলবার (১৮ জুন) সকাল পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জায়গায় টানা বৃষ্টিপাত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৯টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ‘রংপুর, ঢাকা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।’

দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগ অতিক্রম করে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

এ পরিপ্রেক্ষিতে অধিদফতর আরও জানায়, সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

পরবর্তী তিন দিনের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু দেশের অবশিষ্টাংশে বিস্তার লাভ করতে পারে। বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি বৃদ্ধি পেতে পারে।

বৃষ্টিপাতের বাইরেও দেশের কিছু অংশের উপর দিয়ে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, ফরিদপুর, কুতুবদিয়া, রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু জায়গায় প্রশমিত হতে পারে।

মঙ্গলবার ভোর ৬টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় তাড়াশ পর্যবেক্ষণাগার রেকর্ড করেছে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ৯১ মিলিমিটার। এই সময়ে ঢাকা পর্যবেক্ষণাগার রেকর্ড করেছে ৩০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত।

রাজধানীর কোথাও কোথাও স্বস্তির বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বেশ কয়েক দিন টানা গরম আবহাওয়ার পর আজ রাজধানীর কিছু জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। এলাকাভেদে ১৫ মিনিট থেকে আধঘণ্টা পর্যন্ত বৃষ্টি হয়। টানা গরমের কারণে অস্বস্তির পর কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টি নগরবাসীর অনেকের মাঝে স্বস্তির পরশ বুলিয়ে দেয়। বৃষ্টির মধ্যে অনেকেরই ইচ্ছা করে ভিজে পথ চলতে দেখা যায়। তবে রাজধানীর সর্বত্র বৃষ্টি না হওয়ায় গুমোট আবহাওয়া বিরাজ করছে।

বিকেল সাড়ে ৩টায় আগারগাঁও আবহাওয়া অধিদফতরে যোগাযোগ করা হলে কর্তব্যরত আবহাওয়াবিদ জানান, আগারগাঁওয়ে বৃষ্টির ছিটেফোঁটাও হয়নি। তবে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানসহ দেশের কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাত হচ্ছে। তবে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ এ মুহূর্তে জানানো সম্ভব নয় বলে জানান তিনি।

এদিকে সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, দিনাজপুর ও নীলফামারী অঞ্চলসহ রাজশাহী, খুলনা ও সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং কিছু কিছু জায়গায় তা প্রশমিত হতে পারে।

দুপুর ১২টায় রাজধানী ঢাকার তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল ছিল ৩৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

৩দিনের মধ্যে শুরু হতে পারে বর্ষার বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : আগামী তিন দিনের মধ্যে দেশে বর্ষাকালের বৃষ্টি শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর। সোমবার (১০ জুন) সকাল ৯টা পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, ‘তিন দিনের শেষের দিকে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি বৃদ্ধি পেতে পারে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর আরও অগ্রগতির জন্য অবস্থা অনকূলে রয়েছে।’

বিষয়টির ব্যাখ্যা করে আবহাওয়াবিদ মো. শাহিনুল ইসলাম বলেন, ‘এটা মৌসুমি বৃষ্টি। এটা বর্তমানে টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। পরবর্তী (দেশের ভেতরের দিকে) অগ্রসর হওয়ার জন্য এটি অনুকূল অবস্থায় রয়েছে।’

সোমবারের আবহাওয়ার পূর্বাভাসের বিষয়ে বলা হয়, ‘রংপুর বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, বরিশাল, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।’

সারাদিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমূহের জন্য ২ নম্বর সংকেত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রংপুর, ময়মনসিংহ এবং সিলেট অঞ্চলের নদীবন্দর সমূহকে ২ নম্বর নৌ হুশিয়ারী সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিস জানায়, রংপুর, ময়মনসিংহ এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘন্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ২ নম্বর নৌ হুশিয়ারী সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।
এছাড়া দেশের অন্যত্র পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সেই সাথে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরসমূহকে ১ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারী সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মাদারীপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, নোয়াখালী, রাঙ্গামাটি, বরিশাল এবং পটুয়াখালী অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু এলাকায় প্রশমিত হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, কুমিল্লা, নোয়াখালী ও রাঙ্গামাটি অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

আজ সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৯০ শতাংশ। আজ ঢাকায় সূর্যাস্ত ৬টা ৩৭ মিনিটে এবং আগামীকাল সূর্যোদয় হবে ৫টা ১৩ মিনিটে।

গতকাল দেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যশোর ও মংলায় ৩৭ দশমিক ৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

আগামী ৩ দিনে বৃষ্টিপাতের কার্যাশক্তি বৃদ্ধি পেতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে। বাসস

আজও বৃষ্টি হতে পারে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মঙ্গলবার (১৪ মে) বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। ৯ দিন টানা তাপদাহের পর সোমবার (১৩ মে) রাতে দেশজুড়ে নামে স্বস্তির বৃষ্টি।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গা, রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা ও ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, এছাড়া রাজশাহী, পাবনা মাঈজদীকোর্ট ও রাঙামাটি অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে বিরাজমান মৃদু তাপপ্রবাহ প্রশমিত হতে পারে। সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফরিদপুরে সর্বোচ্চ বৃষ্টি ৪৩ মিলিমিটার রেকর্ড করা হয়েছে। আর ঢাকায় রেকর্ড করা হয় ২৪ মিলিমিটার। এছাড়া রাঙামাটিতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

স্বস্তির খবর দিল আবহাওয়া অফিস
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বেশ কিছু দিন ধরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে চলছে মৃদু তাপপ্রবাহ। টানা এই মৃদু তাপপ্রবাহের মাঝে স্বস্তির খবর দিল বাংলাদেশ আবহাওয়া অফিস। চলমান মৃদু তাপপ্রবাহ কিছুটা প্রশমিত হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে হতে পারে শিলাবৃষ্টি।

রবিবার (১২ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়, সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।
এছাড়া রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বয়ে চলা তাপপ্রবাহের বিষয়ে বলা হয়, টাঙ্গাইল, রাঙ্গামাটি, নোয়াখালী, রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু অঞ্চলে প্রশমিত হতে পারে।

এছাড়া পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের কার্যশক্তি বৃদ্ধি পেতে পারে। তবে বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে তেমন কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।

দুই দিনের মধ্যে মিলবে স্বস্তির বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : নোয়াখালী ও দিনাজপুর অঞ্চলসহ ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা আরও কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী দুই দিনের মধ্যে বৃষ্টিপাত হতে পারে এবং তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে। পরবর্তী আরও তিনদিন এই অবস্থা থাকতে পারে।

শুক্রবার (১০ মে) রাতে আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘আগামী দুই দিনের মধ্যে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এবং তাপমাত্রা কমার কথা বলা হয়েছে। এটা অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।’

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর বলেছে, সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে

অধিদফতরের পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলা হয়েছে, এ সময় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে এবং তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে।

সেই সঙ্গে আগামী পাঁচ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অবস্থার উল্লেখযোগ্য কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। অর্থাৎ দুই দিন পর তাপমাত্রা কমলে সেই অবস্থা পরবর্তী আরও তিনদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আরও জানানো হয়, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুই এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

আজকে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে, ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায়, ২৩ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আগামীকাল (শনিবার) ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১৮ মিনিটে এবং সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ৩২ মিনিটে।


   Page 1 of 6
     আবহাওয়া
মেঘলা আকাশ, বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে
.............................................................................................
আজও অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস
.............................................................................................
থেমে থেমে বৃষ্টি, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা
.............................................................................................
সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
চট্টগ্রাম ও বরিশালে হতে পারে ভারী বৃষ্টি
.............................................................................................
তীব্র গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি
.............................................................................................
বৃষ্টি হলেও তাপমাত্রা বাড়তে পারে
.............................................................................................
বৃষ্টি থাকবে ৩-৪ দিন, তাপমাত্রা কমছে ১-৩ ডিগ্রি
.............................................................................................
মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা
.............................................................................................
রাজধানীর কোথাও কোথাও স্বস্তির বৃষ্টি
.............................................................................................
৩দিনের মধ্যে শুরু হতে পারে বর্ষার বৃষ্টি
.............................................................................................
দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমূহের জন্য ২ নম্বর সংকেত
.............................................................................................
আজও বৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
স্বস্তির খবর দিল আবহাওয়া অফিস
.............................................................................................
দুই দিনের মধ্যে মিলবে স্বস্তির বৃষ্টি
.............................................................................................
গরম থেকে রেহাই মিলছে না এখনই
.............................................................................................
আবারো বাড়বে তাপমাত্রা
.............................................................................................
মোংলা-পায়রায় ৭, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত
.............................................................................................
ফণি`র গতিপথ পরিবর্তন হলে বাংলাদেশে আঘাত হবে ভয়াবহ
.............................................................................................
সমুদ্র বন্দরসমূহকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত
.............................................................................................
আজ তাপমাত্রা কমতে পারে
.............................................................................................
কমতে পারে তাপপ্রবাহ, আছে বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
নববর্ষের দিন থাকবে ভ্যাপসা গরম, বিকেলে হতে পারে ঝড়-বৃষ্টি
.............................................................................................
ঝড়-বৃষ্টির তীব্রতা বুধবারও থাকবে, নদীবন্দরে ২ নম্বর সংকেত
.............................................................................................
বৃষ্টির সম্ভাবনা আরও তিনদিন
.............................................................................................
এপ্রিলে আরও ৩টি কালবৈশাখীর আশঙ্কা
.............................................................................................
শিলাবৃ‌ষ্টি হ‌তে পা‌রে, ১ নম্বর সতর্ক সং‌কেত
.............................................................................................
মঙ্গলবার পর্যন্ত বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
ঝড়-বৃষ্টি থাকতে পারে আরও একদিন
.............................................................................................
বজ্র ও শিলাবৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
পুবালি বাতাস আর লঘুচাপ, কালও থাকবে বৃষ্টি
.............................................................................................
সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
নদীবন্দর সমূহকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত
.............................................................................................
ঝড়-বৃষ্টি থাকবে আরও তিনদিন
.............................................................................................
ফের কমবে তাপমাত্রা
.............................................................................................
তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে
.............................................................................................
ফেব্রুয়ারির শেষেই শিলাবৃষ্টি-ঝড়
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড়ে সাগর উত্তাল, বন্দরে গুলোতে ৪ নম্বর সতর্কতা
.............................................................................................
আরও তিন দিন বৃষ্টি হবে!
.............................................................................................
সাগর উত্তাল, ৩ নম্বর সতর্কতা
.............................................................................................
লঘুচাপ নিম্নচাপে পরিণত, আজও বৃষ্টি হবে
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, ৩ নম্বর সতর্কতা
.............................................................................................
মাগুরা ও সিরাজগঞ্জে বজ্রপাতে ৮ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
বুধবার থেকে কমতে পারে শীতের তীব্রতা
.............................................................................................
৬ ঘণ্টা পর দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু
.............................................................................................
বৃষ্টি হতে পারে আজও
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ, ৩ নম্বর সতর্কতা
.............................................................................................
সাগরে নিম্নচাপ, ১ নম্বর সতর্কসংকেত
.............................................................................................
ঘন কুয়াশায় নৌযান চলাচল বন্ধ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]