| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * পেঁয়াজের পর এবার সিলেটে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড   * এক বছর নয়, আরও বেশি সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন শাহাদাত রাজীব   * খুলনা বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট অব্যাহত, দুর্ভোগে যাত্রীরা   * পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান হচ্ছে আজ   * ফুটবলের এসএ গেমস প্রস্তুতি শুরু বৃহস্পতিবার   * মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়েই অসুস্থ নুসরাত!   * নতুন সিনেমার প্রথম পোস্টারেই ভাইরাল কাজল   * পুরুষদের জন্য গর্ভনিরোধক ইনজেকশন!   * ককপিটে নিয়ে কেবিন ক্রুদের কুপ্রস্তাব দেন পাইলট ইশরাত   * লিবিয়ায় বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে  

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
লিবিয়ায় বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে

নিউজ ডেস্ক

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম বাবু লাল। তিনি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুরের বাসিন্দা।

ত্রিপোলির উপকণ্ঠ ওয়াদি রাবিয়ার একটি বিস্কুটের কারখানার কর্মী ছিলেন বাবু লাল। ওই কারখানায় সোমবারের (১৮ নভেম্বর) বিমান হামলায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় আরও ১৫ জন বাংলাদেশি আহত হন। এদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হামিদুল হক নিহত বাবু লালের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে লিবিয়ায় বাংলাদেশি নিহত হওয়ার কথা তাকে জনানো হয়। খোঁজখবর নিয়ে তিনি ওই বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত করেন। এ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান জেলা প্রশাসক।

লিবিয়ায় বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে
                                  

নিউজ ডেস্ক

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম বাবু লাল। তিনি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুরের বাসিন্দা।

ত্রিপোলির উপকণ্ঠ ওয়াদি রাবিয়ার একটি বিস্কুটের কারখানার কর্মী ছিলেন বাবু লাল। ওই কারখানায় সোমবারের (১৮ নভেম্বর) বিমান হামলায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় আরও ১৫ জন বাংলাদেশি আহত হন। এদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হামিদুল হক নিহত বাবু লালের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে লিবিয়ায় বাংলাদেশি নিহত হওয়ার কথা তাকে জনানো হয়। খোঁজখবর নিয়ে তিনি ওই বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত করেন। এ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান জেলা প্রশাসক।

তুরস্কে ১৩৩ সেনা সদস্যকে আটকের নির্দেশ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

তুরস্কে ১৩৩ সেনা সদস্যকে আটকের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ২০১৬ সালের ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততার অভিযোগে এই নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদোলুর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইজমির প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলে ওই সন্দেহভাজনদের খোঁজে অভিযান চালানো হয়েছে। এদের মধ্যে ৮২ জনই সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন।



২০১৬ সালের ওই ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত তুরস্কের মুসলিম নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনকে দায়ী করে আসছে আঙ্কারা। ১৯৯৯ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন তিনি। তবে তিনি তুরস্কের সেনা অভ্যুত্থানে কোনো ধরনের সম্পৃক্ততার কথা অস্বীকার করেছেন।

তিন বছর আগের ওই ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৭৭ হাজারের বেশি মানুষকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া প্রায় দেড় লাখ বেসামরিক কর্মকর্তা, সেনা ব্যক্তিত্ব এবং অন্যান্যদের বরখাস্ত করা হয়েছে বা চাকরি থেকে বিতাড়িত করা হয়েছে। এখনও সারাদেশে গ্রেফতার ও আটকের ঘটনা চলছেই। তুরস্কের পশ্চিমা মিত্র এবং বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনগুলো দেশটির সমালোচনা করেছে।

লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ নিহত ৭
                                  

নিউজ ডেস্ক

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে একটি বিস্কুট কারখানায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ ৭ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও ৩৫ জন।

সোমবার ত্রিপোলির দক্ষিণাঞ্চলে ওয়াদি রাবেয়া এলাকায় বিমান হামলার এ ঘটনা ঘটে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স।

ত্রিপোলির জরুরি বিভাগের মুখপাত্র উসামা আলীর বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহতদের মধ্যে দুইজন লিবিয়ার৷বাকিরা বাংলাদেশ এবং আফ্রিকার নাগরিক৷

আহতদের মধ্যেও কয়েকজন বাংলাদেশি রয়েছেন বলে ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সোশাল মিডিয়ায় কর্তৃপক্ষের দেওয়া ছবিতে দেখা যায়, আহত কয়েকজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে থাকা ত্রিপোলির দখল নিতে চলতি বছরের এপ্রিল থেকে একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে আসছে জেনারেল খলিফা হাফতার নেতৃত্বাধীন একটি সশস্ত্রগোষ্ঠী। পূর্ব ও দক্ষিণ লিবিয়ার একটি অংশের নিয়ন্ত্রণ রয়েছে হাফতারের বাহিনীর হাতে।

রয়টার্স লিখেছে, দুই পক্ষই যুদ্ধে বিদেশি সাহায্য পাচ্ছে এবং পরস্পরের ওপর আক্রমণ শানাতে ড্রোন ও ফাইটার জেট ব্যবহার করছে। এর মধ্যে খলিফা হাফতারের বাহিনী এর আগেও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়েছে।

কাশ্মীরের সিয়াচেন হিমবাহে বরফ ধসে সৈন্যসহ ৬ জনের মৃত্যু
                                  

নিউজ ডেস্ক

শীতকালে হিমালয়ের সিয়াচেন হিমবাহ অঞ্চলের তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে ৬০ সেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যেতে পারে। ছবি: রয়টার্স
শীতকালে হিমালয়ের সিয়াচেন হিমবাহ অঞ্চলের তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে ৬০ সেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যেতে পারে। ছবি: রয়টার্স

ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের সিয়াচেন হিমবাহে বরফ ধসের ঘটনায় চার সৈন্য ও দুই মালবাহকের মৃত্যু হয়েছে বলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর আট জনের একটি দল হিমালয় পর্বতের ১৯ হাজার ফুট উঁচুতে (পাঁচ হাজার ৮০০ মিটার) টহল দেওয়ার সময় বরফ ধসের ওই ঘটনা ঘটে, জানিয়েছে বিবিসি।

সোমবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে।

উদ্ধারকারী দলগুলো বরফের নিচে চাপা পড়া সবাইকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। তাদের মধ্যে সাত জনকে সঙ্কটজনক অবস্থায় হেলিকপ্টারে করে নিকটবর্তী সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

পরে হাইপোথার্মিয়ায় তাদের মধ্যে ছয় জনের মৃত্যু হয়।

আলোচনা সত্ত্বেও ভারত ও পাকিস্তান সিয়াচেন হিমবাহ থেকে সামরিক বাহিনী প্রত্যাহারে ব্যর্থ হয়েছে। এই হিমবাহটি বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু যুদ্ধক্ষেত্র হিসেবে পরিচিত।

ভারত ১৯৮৪ সালে হিমবাহটি নিয়ন্ত্রণ ছিনিয়ে নেয়। তারপর থেকে এখানে যুদ্ধের চেয়েও চরম পরিস্থিতিজনিত কারণে বেশি সৈন্য মারা গেছে।

২০১৬-র ফেব্রুয়ারিতে বরফ ধস ওই অঞ্চলের একটি সামরিক ঘাঁটিতে আঘাত হানার পর ১০ ভারতীয় সৈন্যের মৃত্যু হয়েছিল।

শীতকালে হিমালয়ের ওই অঞ্চলটির তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে ৬০ সেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যেতে পারে। ওই সময় প্রায়ই বরফ ধস ও ভূমিধসের মতো ঘটনা ঘটে থাকে।

ছয় দিন বন্দি থেকে মারা গেল বিন লাদেন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বনের সুস্বাস্থ্যের প্রতীক ভাবা হয় হাতিকে। আরে সেই হাতিকে ছয় দিন ধরে রাখা হলো বন্দি। আর তাতেই মৃত্যু। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ওরাং জাতীয় অভয়ারণ্যে।

যে হাতিটি মারা গেছে তার নাম বিন লাদেন। গেল ১১ নভেম্বর ঘুমপাড়ানিয়া ওষুধ দিয়ে বন্দি করা হয় ৩৫ বছর বয়সী বিন লাদেনকে। বন্দি হওয়ার আগে রঙজুলি জঙ্গলে বাস করতো সে।



এই বিন লাদেনের আসল নাম অবশ্য কৃষ্ণ। কী করে নাম বদলালো? সেও এক গল্প। আল-কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর পর সবাই কৃষ্ণকে বিন লাদেন বলে ডাকতে শুরু করে। তবে সে কতটা ক্ষতিকারক ছিল মনুষ্য সমাজের পক্ষে কিংবা আদৌ ক্ষতিকর ছিল কি না, জানা যায়নি। কিন্তু বন্দিদশাই যে মৃত্যুর কারণ, সেটা অনুমান করতে অসুবিধা হয়নি কারোরই।

সাধারণত, ৫-৬ বছরের হাতিকে বিশেষ তত্ত্বাবধানে রাখা হয়। সেখানে ৩৫ বছরের পূর্ণবয়স্ক হাতিকে এভাবে কেন বন্দি করা হলো, জানতে পুরো বিষয় খতিয়ে দেখছে ভারতের কেন্দ্রীয় বনবিভাগ। ইতোমধ্যেই অভিজ্ঞ চিকিৎসকের একটি দলকে পাঠানো হয়েছে বিন লাদেনের ময়নাতদন্তের জন্য।

কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর গাড়িতে বিস্ফোরণে হতাহত ৩
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জম্মু-কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর একটি গাড়ি লক্ষ্য করে বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে এক সেনা নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও দুই সেনা। রোববার নিয়ন্ত্রণ রেখার পল্লনওয়ালা সেক্টরের কাছে ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

সেনা সূত্র জানিয়েছে, সেনাবাহিনীর গাড়িতে করে সেনা সদস্যরা যাওয়ার সময় ওই বিস্ফোরণ ঘটে। আহত সেনা সদস্যদের উদমপুরে সামরিক হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক সেনার মৃত্যু হয়।



ওই হামলার পেছনে কারা দায়ী সে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। তবে গত ৫ আগস্ট ভারত সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ তুলে নেয়ার পর প্রায়ই সেখানে হামলার ঘটনা ঘটছে। এসব হামলাকে জঙ্গি হামলা বলেই উল্লেখ করছে নিরাপত্তা বাহিনী। একই সঙ্গে সীমান্তে ভারত পাকিস্তানের মধ্যেও নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়েছে।

দু`পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে বারবার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে। ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোববারও যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গোলা বর্ষণ ও গুলি চালিয়েছে পাক সেনারা। তারা বেসামরিক এলাকা লক্ষ্য করেও হামলা চালিয়েছে। পরে পাকিস্তানের এসব হামলার জবাব দিতে ভারতীয় সেনারাও পাল্টা গুলি চালিয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ায় পারিবারিক অনুষ্ঠানে গোলাগুলি, হতাহত ১০
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে গোলাগুলির ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ছয়জন। রোববার একটি পরিবারের লোকজন বাড়ির পেছনে ফুটবল দেখা উপভোগ করছিলেন। ঠিক সে সময়ই অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা এলোপাতাড়ি গুলি চালায়।

বাড়িতে বসে পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুদের নিয়ে ফুটবল খেলা দেখছিলেন ওই বাড়ির লোকজন। কিন্তু সেখানে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটবে এটা কেউ ভাবতেও পারেনি।

স্থানীয় সময় রোববার রাত ৮টার দিকে ওই গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। তারপরেই কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে জানানো হয়। ফেসনো পুলিশের মুখপাত্র বিল ডোলেই বলেন, আমরা বাড়ির পেছনের উঠান থেকে বেশ কয়েকজনের মরদেহ উদ্ধার করেছি।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে নিহতের সংখ্যা চার বলে জানানো হলেও পুলিশের তরফ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে নিহতের সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি। তবে পুলিশ জানিয়েছে, নয়জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি শরদের শপথ গ্রহণ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের ৪৭তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিয়েছেন বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবদে। সোমবার সকালে তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। আগামী ১৮ মাস এই পদের দায়িত্বে থাকবেন তিনি। প্রধান বিচারপতির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

দেশের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মামলার বিচারের দায়িত্বে ছিলেন বোবদে। অযোধ্যা জমির মামলায় তিনি ছিলেন ৫ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চের সদস্য। ২০১৭ সালে গোপনীয়তা রক্ষা সংক্রান্ত মামলায় বিচারের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।



প্রাক্তন প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হয়রানির অভিযোগে গঠিত কমিটিতেও ছিলেন তিনি। ২০২১ সালের ২৩ এপ্রিল অবসর নেবেন বিচারপতি বোবদে।

নিয়ম অনুযায়ী, গত ১৮ অক্টোবর পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হিসেবে কেন্দ্রের কাছে শরদ বোবদের নাম প্রস্তাব করেন প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।

মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি বোবদের জন্ম ১৯৫৬ সালে নাগপুরে। এসএফএস কলেজ থেকে স্নাতক শেষে নাগপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। ১৯৭৮ সালে মহারাষ্ট্র বার কাউন্সিলে যোগ দেন তিনি।

জাকির নায়েকের পর এবার ভারতের টার্গেট ওয়েইসি!
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) প্রধান ও হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ভারতের দ্বিতীয় জাকির নায়েক হয়ে উঠতে চলেছেন বলে অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

শনিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই মন্তব্যই করেন আসানসোলের বিজেপির এই সাংসদ। প্রয়োজনে আসাদউদ্দিন ওয়েইসির বিরুদ্ধে ভারতীয় আইন অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকার ব্যবস্থা নেবে বলেও হুমকি দিয়েছেন তিনি।



বহুল বিতর্কিত বাবরি মসজিদ নিয়ে রায়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, ‘অযোধ্যার বিতর্কিত জমি শর্তসাপেক্ষে দেয়া হোক হিন্দুদের। মুসলিমদের মসজিদ তৈরির জন্য বিকল্প জমি দেয়া হোক।’ বাবরি মসজিদ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের সমালোচনা করেন এআইএমআইএম প্রধান আসাদউদ্দিন। শুক্রবার তিনি টুইট করেন, ‘মসজিদ ফেরত চাই।’

শনিবার তার এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন বাবুল। তিনি বলেন, ‘এআইএমআইএম প্রধান দ্বিতীয় জাকির নায়েক হতে চলেছেন। অযোধ্যার জমি নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছেন তার সমালোচনায় লাগাতার বিতর্কিত মন্তব্য করছেন। তিনি যদি আরও বেশি কথা বলেন, তাহলে তাকে চুপ করানোর আইন কেন্দ্রের কাছে আছে। ভবিষ্যতে দেশের সেই আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

 

শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের সমালোচনা করেন ওয়েইসি। তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদের যুদ্ধ একটু করো জমির জন্য নয়। আমরা আইনি অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য এই লড়াই করছি। সুপ্রিম কোর্ট তার রায়ে পরিষ্কার বলেছেন যে, মন্দির ভেঙে মসজিদ তৈরি করা হয়নি। তাই আমি আমার মসজিদ ফেরত চাই।’


সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জেরে ইতোমধ্যে মামলা হয়েছে এআইএমআইএম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসির নামে। সেই অনুযায়ী তদন্তও শুরু হয়েছে। এখন দেখার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র হুঁশিয়ারির পর হায়দরাবাদের সাংসদ ওয়েইসির বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করে কেন্দ্র।

নিজের বক্তৃতা নিয়ে ২০১৬ সালে তীব্র আলোচনা-সমালোচনার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। সে সময় তার বিরুদ্ধে অর্থ পাচার ও উগ্রপন্থাকে উসকে দেয়ার অভিযোগ তুলেছিল ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। একই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়। বন্ধ করে দেয়া হয় তার প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনসহ (আইআরএফ) ও পিস টিভি।

অভিযোগ ওঠার পর ২০১৬ সালের ১ জুলাই ভারত ছেড়ে যেতে বাধ্য হন জাকির নায়েক। ভারতে মামলা হওয়ার পর জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় আশ্রয় চাইলে তাকে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয় তৎকালীন নাজিব রাজাক সরকার। এরপর থেকে তিনি মালয়েশিয়ার পুত্রজায়া শহরে বসবাস করে আসছেন।

জাকির নায়েকের পর এবার ভারতের টার্গেট ওয়েইসি!
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) প্রধান ও হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ভারতের দ্বিতীয় জাকির নায়েক হয়ে উঠতে চলেছেন বলে অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

শনিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই মন্তব্যই করেন আসানসোলের বিজেপির এই সাংসদ। প্রয়োজনে আসাদউদ্দিন ওয়েইসির বিরুদ্ধে ভারতীয় আইন অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকার ব্যবস্থা নেবে বলেও হুমকি দিয়েছেন তিনি।



বহুল বিতর্কিত বাবরি মসজিদ নিয়ে রায়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, ‘অযোধ্যার বিতর্কিত জমি শর্তসাপেক্ষে দেয়া হোক হিন্দুদের। মুসলিমদের মসজিদ তৈরির জন্য বিকল্প জমি দেয়া হোক।’ বাবরি মসজিদ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের সমালোচনা করেন এআইএমআইএম প্রধান আসাদউদ্দিন। শুক্রবার তিনি টুইট করেন, ‘মসজিদ ফেরত চাই।’

শনিবার তার এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন বাবুল। তিনি বলেন, ‘এআইএমআইএম প্রধান দ্বিতীয় জাকির নায়েক হতে চলেছেন। অযোধ্যার জমি নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছেন তার সমালোচনায় লাগাতার বিতর্কিত মন্তব্য করছেন। তিনি যদি আরও বেশি কথা বলেন, তাহলে তাকে চুপ করানোর আইন কেন্দ্রের কাছে আছে। ভবিষ্যতে দেশের সেই আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

 

শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের সমালোচনা করেন ওয়েইসি। তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদের যুদ্ধ একটু করো জমির জন্য নয়। আমরা আইনি অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য এই লড়াই করছি। সুপ্রিম কোর্ট তার রায়ে পরিষ্কার বলেছেন যে, মন্দির ভেঙে মসজিদ তৈরি করা হয়নি। তাই আমি আমার মসজিদ ফেরত চাই।’


সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জেরে ইতোমধ্যে মামলা হয়েছে এআইএমআইএম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসির নামে। সেই অনুযায়ী তদন্তও শুরু হয়েছে। এখন দেখার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র হুঁশিয়ারির পর হায়দরাবাদের সাংসদ ওয়েইসির বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করে কেন্দ্র।

নিজের বক্তৃতা নিয়ে ২০১৬ সালে তীব্র আলোচনা-সমালোচনার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। সে সময় তার বিরুদ্ধে অর্থ পাচার ও উগ্রপন্থাকে উসকে দেয়ার অভিযোগ তুলেছিল ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। একই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়। বন্ধ করে দেয়া হয় তার প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনসহ (আইআরএফ) ও পিস টিভি।

অভিযোগ ওঠার পর ২০১৬ সালের ১ জুলাই ভারত ছেড়ে যেতে বাধ্য হন জাকির নায়েক। ভারতে মামলা হওয়ার পর জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় আশ্রয় চাইলে তাকে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয় তৎকালীন নাজিব রাজাক সরকার। এরপর থেকে তিনি মালয়েশিয়ার পুত্রজায়া শহরে বসবাস করে আসছেন।

মাঝ আকাশে ১৫০ যাত্রীসহ ভারতীয় বিমানকে বাঁচাল পাকিস্তান
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ উত্তেজনা বিরাজ করছে। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতেও পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সহায়তায় ভারতীয় একটি বিমানের ১৫০ জন আরোহী প্রাণে বেঁচে গেছেন।

বৃহস্পতিবার ভারতের জয়পুর থেকে ওমানের রাজধানী মাসকাটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছিল একটি যাত্রাবাহী বিমান। সে সময় জরুরি মুহূর্তে ওই বিমানটিকে সাহায্য করেছে পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ।

বিমানটি করাচির ওপর দিয়ে যাচ্ছিল। সে সময় বজ্রপাত হচ্ছিল। এ কারণে বিমানটি ৩৬ হাজার ফুট উচ্চতা থেকে ৩৪ হাজার ফুট উচ্চতায় নেমে আসে। সঙ্গে সঙ্গেই বিমানের পাইলট কাছাকাছি বিমানবন্দরে জরুরি বিপদ সংকেত পাঠায়।

ওই বিপদ সংকেত পেয়ে সাথে সাথেই সাড়া দেয় পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। এরপর পাইলটকে পাকিস্তানের আকাশসীমা দিয়ে বাকি পথ পাড়ি দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। ফলে বিমানটি ১৫০ যাত্রী নিয়ে নিরাপদেই যাত্রা শেষ করতে পেরেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীসহ ৩ সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের সান ডিয়েগো শহরে স্ত্রীসহ তিন সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন এক ব্যক্তি। পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সান ডিয়েগোতে এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

প্যারাডাইস হিলস থেকে ফোনকল পেয়ে সেখানে ছুটে যায় পুলিশ। শনিবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ একটি বাড়িতে তিন বছর বয়সী এক শিশু এবং তার মা ও বাবার মরদেহ উদ্ধার করে। এছাড়া আরও তিন শিশুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এদের বয়স যথাক্রমে ৫, ৯ এবং ১১ বছর।

সান ডিয়েগো শহরের পুলিশ প্রধান ডেভিড নিসলেইট এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ওই শিশুদের হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে আরও দু`জনের মৃত্যু হয়। অপর একজন এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শনিবার সকালে ওই দম্পতির মধ্যে ঝগড়া শুরু হয় এবং এক পর্যায়ে পরিবারের সবাইকে গুলি করে আত্মঘাতী হন ওই ব্যক্তি। এই ঘটনা তদন্ত করছে পুলিশ। এই ঘটনায় হতাহতদের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসে
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার সাবেক যুদ্ধকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী গোটাবায়া রাজাপাকসে দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। রাজাপাকসের মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সাত মাস আগের ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ২৬৯ জনের মৃত্যুর পর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো।

ওই হামলার পর দেশটির পর্যটন শিল্প ও বিনিয়োগে ধস নামে। তাই দেশটির এই আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন। এই নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের জনগণ তাদের পরবর্তী প্রেসিডেন্টকে বেছে নিয়েছেন। এই নির্বাচনে ক্ষমতাসীন সরকারের আবাসন বিষয়ক মন্ত্রী সাজিথ প্রেমাদাসার এবং গোটাবায়া রাজাপাকসের মধ্যে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে।



অবসরপ্রাপ্ত সাবেক লে. কর্নেল রাজাপাকসে (৭০) প্রায় ৪৮ দশমিক দুই শতাংশ ভোট পেয়েছেন। প্রায় ৩০ লাখ ব্যালোট গণনা শেষ হয়েছে।

রাজাপাকসের মুখপাত্র কেহেলিয়া রামবুকওয়েলা এএফপিকে বলেন, আমরা ৫৩ থেকে ৫৪ শতাংশ ভোট পেয়েছি। এটা পরিষ্কার যে আমরাই জয়ী হয়েছি। আমরা খুব খুশি যে গোটাবায়া দেশের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন। তিনি আগামীকাল বা তার পরেরদিন শপথ নেবেন।

রাজাপাকসের প্রতিদ্বন্দ্বী সাজিথ প্রেমাদাসা (৫২) ৪৫ দশমিক তিন শতাংশ ভোট পেয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান মাহিন্দা দেশাপ্রিয়া বলেন, কমপক্ষে ৮০ শতাংশ ভোটার শনিবারের ভোটে অংশ নিয়েছেন।

নওয়াজকে ৪ সপ্তাহ বিদেশে থাকার অনুমতি দিয়েছে আদালত
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অবেশেষে বিনাশর্তে চিকিত্সার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। শনিবার পাকিস্তানের সর্বোচ্চ আদালতের এক রায়ে এই অনুমতি দেয়া হয়।

লাহোর হাইকোর্ট ওই রায়ে জানিয়েছে, চিকিত্সার জন্য নওয়াজ শরিফ চার সপ্তাহ বিদেশে থাকতে পারবেন। এক্ষেত্রে কোনো শর্ত দেয়া হয়নি। তবে নওয়াজ ও তার ভাই শেহবাজ শরিফকে এই সফরের ব্যাপারে বিস্তারিত সব লিখিত আকারে জমা দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



এই রায়ের ব্যাপারে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, রায় নিয়ে কিছু বলার নেই। রাজনীতির থেকে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের প্রধানের শারীরিক অবস্থা। এ মুহূর্তে নওয়াজের সুস্থতার প্রতিই বেশি জোর দেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

পাকিস্তানের দীর্ঘ সময়কার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নওয়াজ শরিফ। ২০১৭ সালে তৃতীয় দফা ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি দুর্নীতির অভিযোগে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

কারাগারে থাকা অবস্থায় গত ২২ অক্টোবর হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়ায় নওয়াজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দু`সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে গত বুধবার তার বাসভবনে বিশেষ মেডিকেল ব্যবস্থা তৈরি করা হয় এবং তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়। সে সময় চিকিৎসকরা তাকে বিদেশে চিকিৎসার পরামর্শ দিলে সরকারের তরফ থেকে এ বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া দেয়া হয়। এবার আদালতও তার বিদেশ সফরে অনুমতি দিয়েছে। ফলে তার বিদেশে চিকিৎসা গ্রহণের ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা থাকল না।

বাবরি মসজিদ রায়ে সুবিচার পায়নি মুসলিমরা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের অযোধ্যার বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভূমি মামলা নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের দেয়া রায়ের পুনর্মূল্যায়নের দাবি তুলতে শুরু করেছেন দেশটির মুসলমান সমাজের অনেকে।

রায় ঘোষণার ঠিক পরই যদিও মুসলমানদের একটা অংশ বলেছিলেন যে সর্বোচ্চ আদালতের রায় মেনে নিতেই হবে। কিন্তু গত এক সপ্তাহে সেই মনোভাব পাল্টিয়েছেন মুসলিম সমাজের ধর্মীয়-সামাজিক নেতা এবং আইনজ্ঞদের অনেকেই।



ওই রায় যে তাদের ভাবাবেগকে আহত, ব্যথিত করেছে, সেটা স্পষ্ট করেই বলা শুরু হয়েছিল রায় বেরোনোর পর থেকেই। তবে রিভিউ বা পুনর্মূল্যায়নের আবেদন করা হবে কিনা, তা ঠিক করতে রোববার বৈঠকে বসছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। বোর্ডের সচিব ও অযোধ্যার জমি মামলায় মুসলিম পক্ষের অন্যতম প্রধান আইনজীবী জাফরইয়াব জিলানি বলেন, প্রথম থেকেই তার মনে হচ্ছিল যে রিভিউ পিটিশন দাখিল করা উচিত।

তিনি বলেন, রায় বেরোনোর পরই কয়েকটি বিষয়ে ত্রুটি আছে বলে আমার মনে হয়েছিল। সেজন্যই আমি মনে করছি যে রিভিউ হওয়া উচিত।

একটা কারণ হল, এক নম্বর বাদী- ভগবান রামলালার মূর্তি, যেটি ১৯৪৯ সালে মসজিদের ভেতরে বসানো হয়েছিল, সেটি বেআইনি ছিল বলে জানিয়েছেন কোর্ট। যে মূর্তিটি বেআইনিভাবে বসানো হয়েছিল বলে শীর্ষ আদালতই জানিয়েছেন, সেটিকেই জমির অধিকার দেয়া হল!

জিলানি বলেন, এছাড়া আদালত তো এটাও স্বীকার করেছে যে অন্তত ১৮৫৭ সাল থেকে ১৯৪৯ অবধি সেখানে নামাজ পড়া হত। তার অর্থ, ওই সময়কালে মুসলিমদের দখলে ছিল ওই জমিটি! এই দুটো বৈপরীত্য কিছুতেই বোধগম্য হচ্ছে না আমার।


ভারতের মুসলমানরা সুবিচার পায় নি

রিভিউর আবেদন জানানোর দাবি মুসলিম সমাজের একটা বড় অংশ থেকেই উঠছে কারণ গত এক সপ্তাহে রায়ের যা যা বিশ্লেষণ প্রকাশিত হয়েছে নানা সংবাদমাধ্যমে, তার পরে মুসলমান সমাজের অনেকেই এখন মনে করতে শুরু করেছেন যে রায়ের মধ্যে বেশ কিছু প্রশ্ন থেকে গেছে, যে কারণে রিভিউর আবেদন দাখিল করাই উচিত।

পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের নেতা মুহম্মদ কামরুজ্জামানের কথায়, গত কয়েকদিনে সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি থেকে শুরু করে আইন বিশেষজ্ঞরা রায়ের যেসব বিশ্লেষণ দিয়েছেন, তা থেকে দেশের ধর্মনিরপেক্ষ এবং ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের মনে হতে শুরু করেছে যে এই রায়ে মুসলমানরা সুবিচার পায়নি, বে-ইনসাফি হয়েছে তাদের সঙ্গে।



`সেজন্যই মহামান্য আদালতের কাছেই আবারও পুনর্মূল্যায়নের আবেদন জানানোর দাবি সমাজের ভেতর থেকে স্বাভাবিকভাবেই উঠছে।`

একদিকে যেমন রিভিউয়ের দাবি উঠছে, তেমনই মুসলমানদের অনেকেই বলছেন, বাবরি মসজিদ যেখানে ছিল, তারা সেই জমিটির অধিকার চেয়েছিলেন তারা, অন্য কোথাও জমি তো চাননি। তাই পাঁচ একর বিকল্প জমি দেয়ার আদেশ নিয়েও মুসলমান সমাজের মধ্যে থেকেই প্রশ্ন উঠছে।

মুসলমানদের বৃহত্তম সংগঠন জামিয়তে উলেমা-এ-হিন্দ বলছে অর্থ অথবা `বিকল্প জমি` মসজিদের জমির বিকল্প হতে পারে না। জমিয়তের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী মওলানা সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী বলছিলেন, মুসলমানরা তো আদালতের কাছে নির্দিষ্ট ওই জমিটি, যেখানে বাবরি মসজিদ ছিল, সেটার অধিকার চেয়েছিল। সম্পত্তির ভিক্ষা তো মুসলমানরা করেনি।



জমিয়তে উলেমা-এ হিন্দ সেজন্যই বলেছে যে পাঁচ একর জমি তো আমরাই ভিক্ষা করে কিনতে পারি। ওই জমি পেয়ে আমরা তাই যে খুব খুশি তা নয়।

রিভিউর কথা ভাবছে হিন্দু মহাসভাও

অন্যদিকে অযোধ্যা মামলাটির অন্যতম পক্ষ, হিন্দু মহাসভাও রিভিউয়ের আবেদন করার কথা ভাবছে সম্পূর্ণ অন্য কারণে। তাদের যুক্তি, অযোধ্যার ওই জমিতে যখন রামমন্দিরেরই অধিকার দিয়েছে আদালত, তখন মুসলমানদের আবার পাঁচ একর জমি কেন দেয়া হবে?

বাবরি মসজিদ ভেঙে ফেলেছিলেন যেসব করসেবক তাদের বিরুদ্ধে যত ফৌজদারী মামলা রয়েছে, সেগুলোও তুলে নেয়ার আবেদন করেছে তারা প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা এক চিঠিতে। এই হিন্দু মহাসভারই সদস্য গোপাল সিং ভিশারদ ১৯৫০ সালে ওই জায়গাটিতে পুজা করার অধিকার চেয়ে মামলা দায়ের করেছিলেন। বিবিসি বাংলা।

বাগদাদে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে বোমা বিস্ফোরণ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের কেন্দ্রে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে ইরাক। প্রথমদিকে সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হলেও পরে বিক্ষোভকারী এবং নিরাপত্তাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের কারণে বিক্ষোভ সহিংস আকার ধারণ করেছে।

বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে দু`জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১২ জন। নিরাপত্তা সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে একটি গাড়ির নিচে পুতে রাখা বিস্ফোরকে বিস্ফোরণ ঘটলে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

অক্টোবরের প্রথম দিকেই সরকারবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়। তারপর থেকে বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়লেও এটাই প্রথম বিস্ফোরণের ঘটনা। তায়ারান স্কয়ার এবং তাহরির স্কয়ারে বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করেই ওই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে কীনা তাৎক্ষণিকভাবে তা এখনও পরিস্কার নয়।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় বাগদাদে বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে নিরাপত্তা বাহিনী তাজা বুলেট এবং টিয়ার গ্যাস ছুড়লে কমপক্ষে তিনজন নিহত এবং আরও ২৫ জন আহত হয়েছে।


   Page 1 of 119
     আন্তর্জাতিক
লিবিয়ায় বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে
.............................................................................................
তুরস্কে ১৩৩ সেনা সদস্যকে আটকের নির্দেশ
.............................................................................................
লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ নিহত ৭
.............................................................................................
কাশ্মীরের সিয়াচেন হিমবাহে বরফ ধসে সৈন্যসহ ৬ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
ছয় দিন বন্দি থেকে মারা গেল বিন লাদেন
.............................................................................................
কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর গাড়িতে বিস্ফোরণে হতাহত ৩
.............................................................................................
ক্যালিফোর্নিয়ায় পারিবারিক অনুষ্ঠানে গোলাগুলি, হতাহত ১০
.............................................................................................
ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি শরদের শপথ গ্রহণ
.............................................................................................
জাকির নায়েকের পর এবার ভারতের টার্গেট ওয়েইসি!
.............................................................................................
জাকির নায়েকের পর এবার ভারতের টার্গেট ওয়েইসি!
.............................................................................................
মাঝ আকাশে ১৫০ যাত্রীসহ ভারতীয় বিমানকে বাঁচাল পাকিস্তান
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীসহ ৩ সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা
.............................................................................................
শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসে
.............................................................................................
নওয়াজকে ৪ সপ্তাহ বিদেশে থাকার অনুমতি দিয়েছে আদালত
.............................................................................................
বাবরি মসজিদ রায়ে সুবিচার পায়নি মুসলিমরা
.............................................................................................
বাগদাদে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে বোমা বিস্ফোরণ
.............................................................................................
৪৮ ঘণ্টায় ৩২ ফিলিস্তিনি নিহত
.............................................................................................
বলিভিয়া: মোরালেস কি লিথিয়াম রাজনীতির প্রথম শহীদ?
.............................................................................................
আর্জেন্টিনার আদালতে সু চির বিরুদ্ধে মামলা
.............................................................................................
ভেনিসে ৫০ বছরে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা
.............................................................................................
নিজেকে অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা বলিভিয়ার বিরোধীদলীয় সিনেটরের
.............................................................................................
মদ্যপ ছেলেকে পুড়িয়ে মারলেন বাবা-মা
.............................................................................................
১৭ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করল ভারতের সুপ্রিম কোর্ট
.............................................................................................
গাজা থেকে ইসরায়েলে রকেট বৃষ্টি
.............................................................................................
মতার পোস্টারে কাদা, দুধ-গোলাপ দিয়ে সাফাই কর্মীদের
.............................................................................................
কাশ্মীরে বাস দুর্ঘটনায় নিহত ১৬
.............................................................................................
কাবুলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ
.............................................................................................
মায়ের জন্য সুপাত্র চান ছেলে
.............................................................................................
সৌদিতে লাইভ শো চলাকালে ৩ জনকে ছুরিকাঘাত
.............................................................................................
মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলা, স্বাগত জানিয়েছে কানাডা
.............................................................................................
হাসপাতালে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার
.............................................................................................
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ইসলামিক জিহাদের কমান্ডার নিহত
.............................................................................................
মেক্সিকোতে রাজনৈতিক আশ্রয় নিচ্ছেন বলিভিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
ধর্ষকের সাজা কমাতে কোটি টাকার প্রস্তাব, প্রত্যাখ্যান করলেন তরুণী
.............................................................................................
এবার পাকিস্তানের জাদুঘরে অভিনন্দনের মূর্তি
.............................................................................................
হংকংয়ে বিক্ষোভকারীর বুকে গুলি চালিয়েছে পুলিশ
.............................................................................................
ভারতে যাত্রীবাহী দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের বাজারে এল গাঁজার তৈরি দুটি ওষুধ
.............................................................................................
বলিভিয়ার প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ
.............................................................................................
বাবরি মসজিদ মামলার রায় নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে
.............................................................................................
বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে মুসলিমদের অসন্তোষ
.............................................................................................
বাবরি মসজিদের জায়গায় মন্দিরের জয়
.............................................................................................
ভারতে বায়ুদূষণে এবার দেবতাদের মুখে মাস্ক
.............................................................................................
বুরকিনা ফাসোতে খনি কর্মীদের ওপর হামলায় নিহত ৩৭
.............................................................................................
শেখ খলিফা পুনরায় আমিরাতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত
.............................................................................................
জর্ডানে পর্যটকদের ওপর ছুরি নিয়ে হামলা
.............................................................................................
ইরাকে বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি না ছোড়ার নির্দেশ
.............................................................................................
মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় ভেনেজুয়েলার শীর্ষ ৫ কর্মকর্তা
.............................................................................................
থাইল্যান্ডে বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত ১৫
.............................................................................................
রাজস্থানে চলন্ত গাড়িতে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]