| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ঈদে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২৯ জুলাই   * সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বনদস্যু বাহিনী প্রধানসহ নিহত ২   * ছেলেধরা ও গণপিটুনি বিষয়ে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা   * উত্তরাঞ্চলে পানি কিছুটা কমলেও নদীগুলোর পানি এখনও বিপদসীমার ওপর   * সৌদি পৌঁছেছেন ৭৫ হাজার ৫৯০ হজযাত্রী   * হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার   * দুদক পরিচালক এনামুল বাছির গ্রেফতার   * চট্টগ্রামের আনোয়ারায় ৮ বাড়িতে বন্য হাতির তাণ্ডব   * আদালতে মিন্নির দু`টি আবেদন নামঞ্জুর   * পেশায় ইমাম, জিন তাড়ানোর নামে করতেন নারী-শিশু ধর্ষণ  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ঈদে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২৯ জুলাই

ডেস্ক রিপাের্ট : আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে আগামী ২৯ জুলাই থেকে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত।

এছাড়া রেলের ফিরতি টিকিট বিক্রি ৫ আগস্ট শুরু হয়ে ৯ আগস্ট পর্যন্ত চলবে।

আজ মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাজধানীর রেলভবনে আসন্ন ঈদ উপলক্ষে রেলওয়ের প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন এ তথ্য জানান।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১২ বা ১৩ আগস্ট দেশে মুসলমানদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

ঈদ উপলক্ষে প্রিয়জনের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করতে শহরের মানুষ গ্রামে ছুঁটে যান। এবার ঈদের ১০ দিন আগে থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে।

২৯ জুলাই টিকিট সংগ্রহ করলে তারা ৭ আগস্ট, ৩০ জুলাই সংগ্রহ করলে তারা ৮ আগস্ট, ৩১ জুলাই সংগ্রহ করলে ৯ আগস্ট, ১ আগস্ট সংগ্রহ করলে তারা ১০ আগস্ট, ২ আগস্ট সংগ্রহ কররে তারা ১১ আগস্ট ভ্রমণের সুযোগ পাবেন বলে জানান রেলমন্ত্রী।

যাত্রীদের সুবিধার্থে এবার পাঁচটি স্থান থেকে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একনাগারে টিকিট বিক্রি চলবে।’

এছাড়া মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি শুরু হবে সকাল ৬টা থেকে।

জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। একজন যাত্রী চারটির বেশি টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন না।

ঈদে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২৯ জুলাই
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে আগামী ২৯ জুলাই থেকে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত।

এছাড়া রেলের ফিরতি টিকিট বিক্রি ৫ আগস্ট শুরু হয়ে ৯ আগস্ট পর্যন্ত চলবে।

আজ মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাজধানীর রেলভবনে আসন্ন ঈদ উপলক্ষে রেলওয়ের প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন এ তথ্য জানান।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১২ বা ১৩ আগস্ট দেশে মুসলমানদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

ঈদ উপলক্ষে প্রিয়জনের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করতে শহরের মানুষ গ্রামে ছুঁটে যান। এবার ঈদের ১০ দিন আগে থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে।

২৯ জুলাই টিকিট সংগ্রহ করলে তারা ৭ আগস্ট, ৩০ জুলাই সংগ্রহ করলে তারা ৮ আগস্ট, ৩১ জুলাই সংগ্রহ করলে ৯ আগস্ট, ১ আগস্ট সংগ্রহ করলে তারা ১০ আগস্ট, ২ আগস্ট সংগ্রহ কররে তারা ১১ আগস্ট ভ্রমণের সুযোগ পাবেন বলে জানান রেলমন্ত্রী।

যাত্রীদের সুবিধার্থে এবার পাঁচটি স্থান থেকে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একনাগারে টিকিট বিক্রি চলবে।’

এছাড়া মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি শুরু হবে সকাল ৬টা থেকে।

জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। একজন যাত্রী চারটির বেশি টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন না।

ছেলেধরা ও গণপিটুনি বিষয়ে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : দেশজুড়ে গণপিটুনিতে একের পর এক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।

আজ সোমবার পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-অপারেশন্স) সাঈদ তারিকুল হাসান স্বাক্ষরিত একটি নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে দেশের সব পুলিশ ইউনিটে।
গুজব প্রতিরোধে পুলিশের সব ইউনিট প্রধান ও জেলা পুলিশ সুপারদের কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

গুজব ঠেকাতে প্রতিটি এলাকায় মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও পোস্টারিং করার কথাও বলা হয়েছে নির্দেশনায়। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেউ যদি ছেলেধরা সংক্রান্ত পোস্ট বা মন্তব্য ছাড়ায় তাহলে তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনিতে হত্যার মাধ্যমে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অপচেষ্টা চলছে। গণপিটুনি দিয়ে হত্যা ও গুজব ছড়িয়ে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করা ফৌজদারি অপরাধ। গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা বন্ধে সংশ্লিষ্ট ইউনিট/জেলা পুলিশ সুপারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।
পুলিশ সদর দফতরের এ বার্তায় চারটি উপায়ে ছেলেধরা গুজব ও গণপিটুনি প্রতিরোধে পুলিশের ইউনিটগুলোকে কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেন্দ্রিক নির্দেশনায় বলা হয়েছে- দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকেন্দ্রিক টহল ও গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো, স্কুলে অভিভাবক ও গভর্নিং বডির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময়, ছুটির পর অভিবাবকদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের স্কুল ত্যাগের বিষয়টি শিক্ষক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের মাধ্যমে নিশ্চিত করা এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সিসিটিভি স্থাপন করা।

জনসচেতনতা বাড়াতে প্রতিটি এলাকায় ছেলেধরার গুজবে কান না দিতে এবং পুলিশকে তাৎক্ষণিক তথ্য জানানোর জন্য মাইকিং করা, লিফলেট বিতরণ ও পোস্টারিং করতে বলা হয়েছে। এছাড়া এলাকার জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন, জনসাধারণদের নিয়ে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে সচেতনতা বাড়ানো, আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়ে সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের পুলিশের হাতে ‍তুলে দেওয়ার বিষয়ে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করা, প্রতিদিন মসজিদে এ সংক্রান্ত বক্তব্য দেওয়ার ব্যবস্থা এবং মেট্রোপলিটন ও জেলা শহরের বস্তিতে নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মনিটরিংয়ের বিষয়ে- ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার, ব্লগসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেলেধরা সংক্রান্ত বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট, মন্তব্য বা গুজব ছড়ানোদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

এছাড়া গুজবে কান দিয়ে ছেলেধরা বিষয়ে আতঙ্কিত না হয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় প্রচারের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

সৌদি পৌঁছেছেন ৭৫ হাজার ৫৯০ হজযাত্রী
                                  

অনলাইন ডেস্ক : পবিত্র হজ পালনে সৌদি আরব পৌঁছেছেন ৭৫ হাজার ৫৯০ জন হজযাত্রী। তাদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চার হাজার ৬০৪ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭০ হাজার ৯৮৬ জন হজযাত্রী রয়েছেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১০৮টি ও সৌদি এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১০০টিসহ মোট ২০৮টি ফ্লাইটে তারা সৌদি পৌঁছান।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় (সৌদি সময় সোমবার দিবাগত রাত ৩টায়) মক্কা থেকে প্রকাশিত হজ বুলেটিন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিকে সোমবার (২২ জুলাই) রাত ১টায় বাংলাদেশ হজ অফিস মক্কার কনফারেন্স কক্ষে প্রশাসনিকদলের দলনেতা এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. জহির আহমেদের সভাপতিত্বে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় হজ ব্যবস্থাপনাকে আরও গতিশীল করার লক্ষ্যে প্রশাসনিকদলের সদস্যদের মাঝে বিভিন্ন বিষয়ে তদারকির জন্য কমিটি গঠন করা হয়।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হজ অফিস মক্কার কাউন্সিলর মুহাম্মাদ মাকসুদুর রহমান, মক্কার মৌসুমী হজ অফিসার, কনসাল (হজ), প্রশাসনিকদলের সদস্যবৃন্দ, চিকিৎসকদলের দলনেতা এবং আইটি দলের দলনেতা।

চলতি বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা এক লাখ ২৬ হাজার ৯২৩ জন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এ বছর হজ অনুষ্ঠিত হবে ১০ আগস্ট।

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা তথ্য দিয়ে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের স্থায়ী কমিটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত।

তিনি বলেন, ‘আজ সন্ধ্যায় স্থায়ী কমিটির এক জরুরি সভায় সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী কাজের জন্য প্রিয়া সাহাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছি। তাকে সব সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত অনতিবিলম্বে কার্যকর হবে।’

২৪ জুলাই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রিয়া সাহা বিষয়ে তাদের অবস্থানও পরিষ্কার করা হবে বলেও জানান রানা দাশগুপ্ত।

তিনি আরও বলেন, ‘এ সিদ্ধান্ত তো নেয়া হয়েছে সাময়িক। এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করতে হলে তাকে শোকজ ছাড়া এবং আরও পদক্ষেপ গ্রহণ করা ছাড়া সম্ভব নয়। এটা আমাদের গঠনতন্ত্রের অনুকূলেই করেছি।’

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রিয়া সাহা বলেছিলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। সেখানে ৩৭ মিলিয়ন (৩ কোটি ৭০ লাখ) হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান উধাও হয়ে গেছে। এখনও সেখানে ১৮ মিলিয়ন (১ কোটি ৮০ লাখ) সংখ্যালঘু জনগণ রয়েছে। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশ ত্যাগ করতে চাই না। আমি আমার ঘর হারিয়েছি, আমার জমি নিয়ে গেছে। আমার ঘরবাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। কিন্তু সেসবের কোনো বিচার নাই।’

প্রিয়া সাহাকে ট্রাম্প জিজ্ঞাসা করেছেন, এসব কারা করছে? জবাবে প্রিয়া সাহা বলেন, ‘উগ্রবাদী মুসলিমরা এই কাজ করছে। সবসময় তারা রাজনৈতিক প্রশ্রয়ে এই কাজ করে।’

প্রিয়া সাহার এমন বক্তব্যের পর ব্যাপক সমালোচনা শুরু হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিল সংগঠনটি।

মশার ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে দুপুরে বৈঠকে বসছেন সাঈদ খোকন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বিদ্যমান মশার ওষুধের কার্যকারিতা এবং মশক নিধনে নতুন ওষুধের বিষয়ে বৈঠকে বসবেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) দুপুরে নগর ভবনে এ বৈঠকে বসবেন তিনি। বৈঠকে মেয়র সাঈদ খোকনের সভাপতিত্বে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর), আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র (আইসিডিডিআর,বি), প্ল্যান প্রোটেকশন উইং, স্বাস্থ্য অধিদফতরসহ মোট ১০ সংস্থার সমন্বয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ১৫ জুলাই মশক নিয়ন্ত্রণে কীটনাশক নির্বাচন, কার্যকারিতা পরীক্ষা, ক্রয় প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা এবং কীটনাশকের কার্যকারিতা মনিটরে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে (ডিএনসিসি) ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি কারিগরি কমিটি গঠন করে।

ডিএনসিসি মেয়র কমিটির সভাপতি এবং প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটির সদস্যরা হলেন সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণের (সিডিসি) পরিচালক/প্রতিনিধি, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক/প্রতিনিধি, আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রের (আইসিডিডিআর,বি) প্রতিনিধি, সিডিসির কীটতত্ববিদ, উদ্ভিদ সংরক্ষণ শাখার প্রতিনিধি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ববিদ অধ্যাপক কবিরুল বাশার, বাংলাদেশ ক্রপ প্রটেকশন অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিপিএ) সভাপতি এ কে এম আজাদ ও কীটতত্ববিদ ড. মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী।

মশক নিধন কার্যক্রম ও পূর্ণাঙ্গ মশা নিধনে কীটনাশকের (এডাল্টিসাইড) কার্যকারিতা নিয়ে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়। আলোচনায় মশা নিধনে কীটনাশকের কার্যকারিতা এবং পরিবেশের উপর এর প্রভাবের বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করা হয়। সার্বিক বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সভায় উপস্থিত বিশেষজ্ঞরা পরবর্তী কীটনাশক ক্রয় করা পর্যন্ত বর্তমানে ব্যবহৃত কীটনাশকের ঘনত্ব বাড়িয়ে ব্যবহারের পরামর্শ দেন। পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি কীটনাশক হিসেবে অধিকতর কার্যকর কীটনাশক ও নতুন প্রযুক্তি সংযোজনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়। তবে দীর্ঘমেয়াদি কীটনাশক ক্রয়ের আগ পর্যন্ত স্বল্পমেয়াদে অধিকতর কার্যকর কীটনাশক ক্রয়ের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শের প্রেক্ষিতে তারা নতুন কীটনাশক সংযোজনের পরামর্শ দেন।

দুদক পরিচালক এনামুল বাছির গ্রেফতার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : অবৈধভাবে তথ্য পাচার ও ডিআইজি মিজানের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার রাত ১০টা ২০ মিনিটে রাজধানীর দারুস সালাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘খন্দকার এনামুল বাসিরকে রাজধানী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাতে তাকে রমনা থানায় রাখা হবে।’

এর আগে, (১০ জুন) দুদকের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন নিউজে প্রচারিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘কমিশনের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে পরিচালিত একটি অনুসন্ধান হতে তাকে দায়মুক্তি দিতে তার কাছ থেকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণে সমঝোতা করেন।

তিনি ৪০ লাখ টাকার মধ্যে ২৫ লাখ টাকা ঢাকার রমনা পার্কে বাজারের ব্যাগে করে ডিআইজি মিজানুর রহমানের কাছ থেকে গ্রহণ করেন এবং অবশিষ্ট ১৫ লাখ টাকা পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে পাওয়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। ছেলেকে স্কুলে আনা-নেওয়ার জন্য তিনি গ্যাসচালিত একটি গাড়ি দাবি করেন। এছাড়া তিনি কমিশনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অবৈধভাবে পাচার করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এটিএন নিউজে প্রচারিত এই প্রতিবেদনটি কমিশন আমলে নিয়ে দুদক সচিব মো. দিলওয়ার বখত এর নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করে।

প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে কমিশন, দুদকের তথ্য অবৈধভাবে পাচার, চাকরির শৃঙ্খলাভঙ্গ সর্বোপরি অসদাচরণের অভিযোগে পরিচালক খন্দকার এনামুল বাসিরকে দুর্নীতি দমন কমিশনের চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে।

‘হবিগঞ্জের সিভিল সার্জনের মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত নয়’
                                  

অনলাইন ডেস্ক : হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডাক্তার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেনের মৃত্যুর কারণ ডেঙ্গু কিনা তা নিশ্চিত নয় সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (২২ জুলাই) দুপুরে সময় সংবাদকে এ কথা জানান হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া। তিনি জানান, হাসপাতালে আনার আগেই মারা যান শাহাদাত হোসেন।

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের একজন চিকিৎসক বলেন, ‘যেহেতু মৃত হিসেবে আসছে, শুধু জ্বরের হিস্ট্রি। পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে তাই মৃত্যুর কারণ বলা অত্যন্ত দূরূহ।’

তিনি আরো বলেন, ‘ওনার আগে অন্য রোগ আছে কিনা, তার ডেঙ্গু হয়েছে কিনা পরীক্ষা না করে বলা যাবে না। যেহেতু মৃত রোগী তাই ডেঙ্গু কিনা তা কিভাবে আমরা শনাক্ত করবো।’

প্রিয়া সাহার নালিশ নিয়ে যা বললেন সজীব ওয়াজেদ জয়
                                  

অনলাইন ডেস্ক : প্রধনামন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়

প্রধনামন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় দাবি করেছেন, প্রিয়া সাহা যা দাবি করেছেন তা ভয়ঙ্কর ও মিথ্যা। রোববার (২১ জুলাই) ফেসবুকে পোস্ট করা এক স্ট্যাটাসে তিনি এ মন্তব্য করেছেন।

মার্কিন দূতাবাস যে আওয়ামী লীগ বিরোধী তা নতুন কিছু নয়। তাদের সব অনুষ্ঠানেই জামায়াত নেতাকর্মীরা ও যুদ্ধাপরাধীরা নিয়মিত আমন্ত্রিত হতেন। প্রিয়া সাহার মিথ্যা বক্তব্যকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে তাদের সরাসরি আধিপত্য বিস্তারের ষড়যন্ত্র পরিষ্কারভাবেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
সৌভাগ্যবশত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার সরকার অন্যান্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার নীতিতে বিশ্বাসী নন। তারা এই ধরনের ভয়ঙ্কর মিথ্যা দাবি বিশ্বাস করার মতো বোকাও নন।

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের রাজনৈতিক কূটনীতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার (২০ জুলাই) লন্ডনে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এনভয় কনফারেন্সে বা দূত সম্মেলনে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

সম্মেলনের বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে প্রেস সচিব ইহসানুল করিম প্রধানমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে বলেন, আমাদের চলমান উন্নয়ন কর্মসূচি যাতে অব্যাহত থাকে, সেজন্য রাজনৈতিক কূটনীতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক বিষয়ে আরও গুরুত্ব দিতে হবে।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত ১৫ জন রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার এবং স্থায়ী প্রতিনিধি এই সম্মেলনে যোগ দেন। এর শিরোনাম হচ্ছে- ‘দূত (ইউরোপ) সম্মেলন’। শনিবার বিকেলে (লন্ডন সময়) স্থানীয় একটি হোটেলে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক।

সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশি দূতদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন এবং প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেন।

শিশুদের নিয়ে ডেঙ্গু আতঙ্কে পরিবার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সিনিয়র সহকারী সচিব কাজী ফয়সালের মেয়ে লাবণ্য আলীনা কাজী মারা গেছে চলতি মাসে। চার বছরের কিছু বেশি বয়সী লাবণ্য জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে গত ৮ জুলাই মা-বাবাকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে ফুটফুটে শিশুটি চিরতরে বিদায় নেয়। লাবণ্যর মতো চলতি মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও ৯ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে সহস্রাধিক শিশু। ডেঙ্গু নিয়ে গতকাল শনিবার আরও ২২ শিশু ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ছে ডেঙ্গু। বিশেষ করে শিশুদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আতঙ্ক হয়ে দেখা দিয়েছে। উদ্বেগ ছড়িয়েছে শিশুদের পরিবারেও। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্নেষণ করে দেখা যায়, এ পর্যন্ত প্রায় ৩৪ শতাংশ শিশু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। ঝুঁকিতে আছেন নারীরাও। শিশুদের মতো প্রায় সমান হারে তারাও আক্রান্ত হচ্ছেন।

চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডেঙ্গুর ভয়াবহতা শিশুদের সহ্য করা অত্যন্ত কঠিন। বড়দের শারীরিক যে সহনীয় ক্ষমতা আছে, শিশুদের তা নেই। এ কারণে তাদের জন্য ডেঙ্গু অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় শিশুদের প্রতি বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

ঢাকা শিশু হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ও শিশু বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. আবদুল আজিজ জানান, ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর শরীরে উচ্চ তাপমাত্রার পাশাপাশি হাড় ও মাংসপেশিতে প্রচণ্ড ব্যথা হয়। এই ধকল সামাল দেওয়া শিশুদের জন্য অত্যন্ত কষ্টকর। এ ছাড়া দাঁতের গোড়া, নাক থেকে রক্ত বের হতে পারে। ডেঙ্গু ভাইরাসের একটি বৈশিষ্ট্য হলো- এটি রক্তনালির পরিবর্তন ঘটিয়ে জলীয় অংশ বের করে দেয়। ফলে রোগী পানিশূন্যতায় ভোগে। বড়দের তুলনায় শিশুরা পানিশূন্যতায় বেশি ভোগে। এতে করে তীব্র পানিশূন্য হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়াসহ নানা জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয় শিশুদের। তাই শিশুদের প্রতি বাড়তি নজর দিতে হবে।

পরিবারে উদ্বেগ :ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুদের পরিবারেও উদ্বেগ ছড়িয়েছে। দুই বছর চার মাস বয়সী শিশু মাশফিকে নিয়ে গতকাল শনিবার ঢাকা শিশু হাসপাতালে আসেন তার মা। সঙ্গে ছিলেন চাচা মাকসুদুর রহমান। শিশুটি জ্বরে কাঁপছিল। শিশুটির শারীরিক এমন অবস্থায় মায়ের চোখও ছলছল করছিল। ঢাকায় তেজতুরীপাড়া এলাকায় তারা বসবাস করেন। মাকসুদুর রহমান বলেন, চার দিন ধরে মাশফি জ্বরে আক্রান্ত। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করেও জ্বর কমছিল না। এরপর গতকাল ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কোনো খাবার খেতে চায় না সে। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী লিকুইড খাবার দেওয়া হচ্ছে। আরেক শিশু ছয় বছর বয়সী মুসকানকে গতকাল ভর্তি করা হয়। তার স্বজনরা জানান, রাজধানীর রাজাবাজার এলাকায় তারা বসবাস করেন। চার দিন ধরে মুসকান জ্বরে আক্রান্ত। বাসায় প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাতে জ্বর কমছিল না। এরপর হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন। জ্বরের পাশাপাশি শরীর ও হাত-পায়ে প্রচণ্ড ব্যথা। শিশুটির সুস্থতার জন্য তিনি দোয়া প্রার্থনা করেন।

আবান নামের তিন বছর সাত মাস বয়সী আরেক শিশুকে গত শুক্রবার ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যার পর থেকেই শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। চিকিৎসকরা স্বজনদের ডেকে এনআইসিইউতে নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। কিন্তু শিশু হাসপাতালে এনআইসিইউর কোনো শয্যা ফাঁকা ছিল না। শিশুটির নানা নাসির উদ্দিন জানান, এনআইসিইউ না পেয়ে আবানকে তারা রেনেসাঁ নামে একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে এনআইসিইউতে ভর্তির পরও তার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হচ্ছিল না। এরপর গতকাল শনিবার দুপুরে বনশ্রী এলাকার আল-রাজী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নাতির সুস্থতার জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

মুগদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের শিশু বিভাগের কনসালট্যান্ট ড. আবু সাঈদ শিমুল জানান, শিশু ডেঙ্গু আক্রান্ত হলে পানি ও তরলজাতীয় খাবার খাওয়ানোর প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। মায়ের বুকের দুধের পাশাপাশি ডাবের পানি, স্যালাইন, জুস, লেবুর শরবত খাওয়াতে হবে। এ সময় মুখে রুচি কম থাকে। তাই পুষ্টিগুণসম্পন্ন খাবার দিতে হবে। আক্রান্ত শিশুকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিতে হবে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবন থেকে বিরত রাখতে হবে। একই সঙ্গে শিশুর জন্য পর্যাপ্ত বিশ্রামের ব্যবস্থা করতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্যানুযায়ী, চলতি বছরে গতকাল শনিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত আট হাজার ৮৬৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৯ শিশু। এক হাজার ৪৭৪ জন এখন রাজধানীসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অন্যরা চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন। গতকালও নতুন করে আরও ২৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জুলাই মাসে এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে তিন হাজার ৯৬০ জনে দাঁড়াল। গত জুন মাসেও এক হাজার ৭৭০ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

শিশুদের চিত্র :স্কয়ার, ঢাকা শিশু হাসপাতাল ও বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে দু`জন করে এবং ইউনাইটেড, গ্রিনলাইফ ও সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে একজন করে মোট ৯ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঢাকা শিশু হাসপাতালের এপিডেমিওলজিস্ট কিংকর ঘোষ জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢাকা শিশু হাসপাতালে এ পর্যন্ত ১৯০ শিশু চিকিৎসা নিয়েছে। তাদের মধ্যে দু`জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরেছে ১৩৮ শিশু এবং আরও ৫০ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাতে থাকা রাজধানীসহ দেশের সরকারি-বেসরকারি ৪৯ হাসপাতালের তথ্যেও একই চিত্র পাওয়া গেছে। এ ছাড়া শিশু রোগীদের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সুনির্দিষ্ট কোনো তালিকা পাওয়া যায়নি। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বে থাকা সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার জানান, জেন্ডার হিসাব করে শুরুতে তারা তালিকা তৈরি করেননি। এ কারণে মোট আক্রান্তের মধ্যে নারী, পুরুষ ও শিশুদের পৃথক করা সম্ভব হয়নি। তবে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে তারা এই কাজ করা শুরু করেছেন। এতে দুই হাজার ১৭৬ রোগীর জেন্ডারভিত্তিক তথ্য পর্যালোচনা করে ৬৪৫ শিশু পাওয়া গেছে। নারীর সংখ্যা ৬৭৪ এবং পুরুষ ৮৫৭ জন। এখন থেকে জেন্ডারভিত্তিক তথ্য-উপাত্ত তারা সংরক্ষণে রাখবেন বলে জানান এই কর্মকর্তা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা জানান, পরিস্থিতির অবনতি রোধে মশার প্রজননস্থল ধ্বংসের জন্য বাসাবাড়ি থেকে শুরু করে আশপাশে পরিবেশের ওপর জোর দিতে হবে। মানুষ সচেতন হলে ডেঙ্গুর প্রকোপ অনেকাংশে হ্রাস করা সম্ভব। এ ছাড়া জ্বর আসার সঙ্গে সঙ্গে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে। তাহলে চিকিৎসায় রোগীরা সুস্থ হয়ে উঠবে।

সূত্র: সমকাল

প্রধানমন্ত্রী আজ দূত সম্মেলনে যোগ দিবেন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ লন্ডনে অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপে অবস্থানরত বাংলাদেশ দূতদের সম্মেলনে অংশ নিবেন। এ ধরনের সম্মেলন এটিই প্রথম।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বাসস’কে জানান, শনিবার লন্ডনের একটি হোটেলে অনুষ্ঠেয় এই সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ দিবেন।

তিনি আরো জানান, ইউরোপের বিভিন্ন দেশে দায়িত্ব পালনকারী বাংলাদেশের ১৫ জন রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার এবং স্থায়ী প্রতিনিধি এই সম্মেলনে যোগ দিবেন।

তারা হলেন, আবু জাফর (অস্ট্রেলিয়া), মো. শাহাদৎ হোসেন (বেলজিয়াম), মুহম্মদ আবদুল মুহিত (ডেনমার্ক), কাজী ইমতিয়াজ হোসেন (ফ্রান্স), ইমতিয়াজ আহমেদ (জার্মানী), জসিম উদ্দিন (গ্রীস), আবদুস সোবহান সিকদার (ইতালি), শেখ মোহাম্মদ বেলাল (নেদারল্যান্ড) , মুহম্মদ মাহফুজুর রহমান (পোল্যান্ড), রুহুল আলম সিদ্দিক (পর্তুগিজ), ড. এস এম সাইফুল হক (রুশ ফেডারেশন), হাসান মোহাম্মদ খন্দকার (স্পেন), নাজমূল ইসলাম (সুইডেন), শামিম আহসান (সুইজারল্যান্ড) এবং সাইদা মুনা তাসনীম (যুক্তরাজ্য)।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী ইউরোপে বাংলাদেশী দূতদের সঙ্গে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবেন এবং তাদেরকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিবেন। আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যুটি বিশেষভাবে স্থান পাবে। বাসস

পদ্মার পানি বৃদ্ধি মধ্যাঞ্চলে হতে পারে বন্যার অবনতি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় মধ্যাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হবে। অপরদিকে যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি কমতে থাকায় উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে যেতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র।

শনিবার (২০ জুলাই) ‘বৃষ্টিপাত ও নদনদীর অবস্থা’ নিয়ে দেয়া প্রতিবেদনে সতর্কীকরণ কেন্দ্র এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গঙ্গা-পদ্মা এবং ঢাকার চারপাশের নদ-নদী ছাড়া অন্যান্য সব প্রধান নদ-নদীর পানি কমছে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর ও ভারত আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশের উজানের প্রদেশগুলোতে আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। এ জন্য আগামী ২৪ ঘণ্টায় ব্রক্ষপুত্র-যমুনা এবং সুরমা-কুশিয়ারা নদ-নদীগুলোর পানি কমতে পারে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানান, আগামী ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর পানির বৃষ্টি ব্যাহত থাকতে পারে। আগামী ২৪ ঘটায় পদ্মা নদী সুরেশ্বর পয়েন্টে পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে। পদ্মার পানি বৃদ্ধির কারণে মধ্যাঞ্চলের মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, ফরিদপুর ও মুন্সিগঞ্জ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় টাঙ্গাইল এবং সিরাজগঞ্জ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। একই সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের বগুড়া, জামালপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ ও সিলেট জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে বলেও জানান প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান।

বন্যা সতর্কীকরণ কেন্দ্রের তথ্যানুযায়ী, যমুনা নদীর পানি ফুলছড়িতে ১২৯ সেন্টিমিটার, বাহাদুরাবাদে ১৩৭ সেন্টিমিটার, সারিয়াকান্দিতে ১১৬ সেন্টিমিটার, কাজিপুরে ১১১ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জে ৯৩ সেন্টিমিটার বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ব্রহ্মপুত্রের পানি নুনখাওয়া ও চিলমারী পয়েন্টে এবং পদ্মা নদীর পানি গোয়ালন্দ ও ভাগ্যকূল পয়েন্টে বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এ ছাড়া সুরমা নদীর পানি সুনামগঞ্জ, কুশিয়ারার পানি শেরপুর-সিলেট, পুরনো সুরমার পানি দিরাই, তিতাসের পানি ব্রাহ্মণবাড়িয়া, মেঘনার পারি চাঁদপুর, ধরলার পানি কুড়িগ্রাম, ঘাঘটের পানি গাইবান্ধা, করতোয়ার পানি চকরহিমপুর, আত্রাইয়ের পানি বাঘবাড়ি, ধলেশ্বরীর পারি এলাশিন পয়েন্টে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে দেশের ভেতরে ও উজানের বেসিনে (আসাম) ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপাতের কারণে চলতি জুলাই মাসের তৃতীয় সপ্তাহের প্রথমার্ধে দেশের উত্তরাঞ্চলে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি সবকয়টি পয়েন্টে বিপৎসীমা অতিক্রম করে জামালপুর, কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধায় ভয়াবহ রূপ দিয়েছে, যা উত্তর-মধ্যাঞ্চলের বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইলসহ মানিকগঞ্জ পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে। যমুনা নদী বাহাদুরাবাদ ও ফুলছড়ি পয়েন্টে এবং তিস্তা নদী ডালিয়া পয়েন্টে পূর্বে রেকর্ডকৃত সবোর্চ্চ সীমা অতিক্রম করেছে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

পরবর্তী সময়ে এর প্রভাব পড়ে পদ্মায়ও। বিস্তৃত অঞ্চলে বন্যার কারণে লাখ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে দুর্বিসহ জীবন-যাপন করছেন।

প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে: কাদের
                                  

অনলাইন ডেস্ক : দেশদ্রোহী বক্তব্যের জন্য প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

গত বুধবার (১৭ জুলাই) বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় নির্যাতনের শিকার হওয়া কয়েকজন ব্যক্তি ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সেখানে চীন, তুরস্ক, উত্তর কোরিয়া, মিয়ানমারসহ ১৭টি দেশের নির্যাতিত ব্যক্তিরা ছিলেন। সেখানে নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দেয়া প্রিয়া সাহা বলেন, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। সেখানে প্রায় ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশেই থাকতে চাই।

তিনি বলেন, এখনও সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশ ছাড়তে চাই না। সেখানে আমি আমার ঘরবাড়ি হারিয়েছি। তারা আমার ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে। তারা আমার জমিজমাও দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এর কোনো বিচার হয়নি।

ওই নারীর বক্তব্যের পর ট্রাম্প বলেন, কারা জমি দখল করেছে, কারা ঘরবাড়ি দখল করেছে? তখন ওই নারী বলেন, মুসলিম মৌলবাদী সংগঠন। তারা সবসময় রাজনৈতিক আশ্রয় পায়। সবসময়।

ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশ নিয়ে এমন মিথ্যাচারের ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তার বক্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যে ব্যাপক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

সৌদি পৌঁছেছেন ৬৬ হাজার ৩৭৮ বাংলাদেশি হজযাত্রী
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : পবিত্র হজ পালনে ৬৬ হাজার ৩৭৮ জন বাংলাদেশি সৌদি আরব পৌঁছেছেন। তাদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার ৬০৪ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬১ হাজার ৭৭৪ জন রয়েছেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৯৪টি ও সৌদি এয়ারলাইন্সের ৮৯টিসহ মোট ১৯৩টি ফ্লাইটে তারা সেখানে পৌঁছান।

শুক্রবার (১৯ জুলাই) দিবাগত রাত ৩টায় (সৌদি সময়) মক্কা থেকে ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রকাশিত হজ বুলেটিন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিকে গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রশাসনিক দল-১ এর দলনেতা ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. জহির আহমেদের নেতৃত্বে হজ প্রশাসনিক দলের কর্মকর্তারা, চিকিৎসক দলের দলনেতা এবং আইটি দলের দলনেতা সরেজমিনে মিনা, মুজদালিফা এবং আরাফা পরিদর্শন করেন।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ হজ অফিস মক্কার কনসাল (হজ) মোহাম্মাদ আবুল হাসান এবং আইটি দলের দলনেতা রাশিদুল হাসান লিটন ভারতীয় হজ অফিস মক্কার কনসাল (হজ) ওয়াই সাবিরের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। সভায় দুই দেশের সার্বিক হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়।

চলতি বছর সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ২৬ হাজার ৯২৩ জন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এ বছর হজ অনুষ্ঠিত হবে ১০ আগস্ট। ধর্ম মন্ত্রণালয় অনুমোদিত হজ এজেন্সির সংখ্যা ৫৯৮টি।

গত ৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হয়। শেষ ফ্লাইট আগামী ৫ আগস্ট। হাজিদের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট ১৭ আগস্ট এবং শেষ ফিরতি ফ্লাইট ১৫ সেপ্টেম্বর।

বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী নিহত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে এক নারীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। শনিবার (২০ জুলাই) সকাল পৌনে ৯টার দিকে উত্তর বাড্ডার কাঁচাবাজারের সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত অবস্থায় ওই নারীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ছেলেধরা সন্দেহে এক নারী গণপিটুনির শিকার হয়েছেন। খবর পাওয়ার পর পুলিশ গিয়ে ওই নারীকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা জানান, উত্তর বাড্ডায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি মাদরাসা পাশাপাশি। সেখানে শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনজন বোরকা পরিহিত নারী যান। তারা স্কুলের ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করেন। বাধার মুখে দু’জন পালিয়ে গেলেও আরেক গণপিটুনির শিকার হন।

প্রিয়া সাহার বক্তব্যের পেছনে রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র থাকতে পারে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিষয়ে প্রিয়া সাহার মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে এর পেছনে অসৎ কোনো উদ্দেশ্য বা রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র থাকতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে।

ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিষয়ে ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা তথ্য তুলে ধরার ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরে শনিবার (২০ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এ প্রতিক্রিয়া জানালো সরকার।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রিয়া সাহা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে যে ভয়ঙ্কর মিথ্যা অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ সরকার দৃঢ়ভাবে এর প্রতিবাদ ও কঠোর নিন্দা জানায়। এর পেছনে বাংলাদেশের মারাত্মক ক্ষতির কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে বলেও মনে করছে সরকার।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ ধর্মীয় স্বাধীনতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটি বাতিঘর, যেখানে সকল ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষ যুগ যুগ ধরে শান্তিতে বসবাস করে আসছেন।

জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ১১ লাখেরও বেশি মিয়ানমারের নাগরিকদের (রোহিঙ্গাদের) অস্থায়ীভাবে আশ্রয় দেওয়ার পরে বাংলাদেশের মানুষের মানবিকতা ও উদারতা বিশ্বব্যাপী প্রসংশিত হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার আশা করে এ ধরনের বড় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজকরা দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ জানাবেন, যারা ধর্মীয় স্বাধীনতার মূল্য বৃদ্ধিতে সত্যিকারের অবদান রাখবে।

গত ১৬ জুলাই ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।’


   Page 1 of 100
     জাতীয়
ঈদে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২৯ জুলাই
.............................................................................................
ছেলেধরা ও গণপিটুনি বিষয়ে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা
.............................................................................................
সৌদি পৌঁছেছেন ৭৫ হাজার ৫৯০ হজযাত্রী
.............................................................................................
হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার
.............................................................................................
মশার ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে দুপুরে বৈঠকে বসছেন সাঈদ খোকন
.............................................................................................
দুদক পরিচালক এনামুল বাছির গ্রেফতার
.............................................................................................
‘হবিগঞ্জের সিভিল সার্জনের মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত নয়’
.............................................................................................
প্রিয়া সাহার নালিশ নিয়ে যা বললেন সজীব ওয়াজেদ জয়
.............................................................................................
অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
শিশুদের নিয়ে ডেঙ্গু আতঙ্কে পরিবার
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী আজ দূত সম্মেলনে যোগ দিবেন
.............................................................................................
পদ্মার পানি বৃদ্ধি মধ্যাঞ্চলে হতে পারে বন্যার অবনতি
.............................................................................................
প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে: কাদের
.............................................................................................
সৌদি পৌঁছেছেন ৬৬ হাজার ৩৭৮ বাংলাদেশি হজযাত্রী
.............................................................................................
বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী নিহত
.............................................................................................
প্রিয়া সাহার বক্তব্যের পেছনে রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র থাকতে পারে
.............................................................................................
ঢাকাসহ দেশের কয়েকটি স্থানে ভূকম্পন অনুভূত
.............................................................................................
সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি করলে সেটা অপরাধ নয়: দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
মোবাইল কোর্টে বিশেষ পুলিশের প্রয়োজন নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ধসে পড়া ভবনে মিলল বাবা-ছেলের মরদেহ
.............................................................................................
আগামীতে দেশে বিদ্যুৎচালিত ট্রেন চলবে: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
৫৫ দিনে ফলাফল দিতে পারায় আমি খুব খুশি: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
২৯ তারিখ থেকে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু
.............................................................................................
এখন পর্যন্ত ৬ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী মারা গেছেন
.............................................................................................
প্রস্তুত বেনাপোল এক্সপ্রেস, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রতি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
বিএসটিআই অনুমোদিত ১১ কোম্পানির দুধে সিসা
.............................................................................................
বস্তিবাসীর জন্যও ভাড়াভিত্তিক ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে অনলাইন গণমাধ্যমগুলোর শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠিত হবে : ড. হাছান
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
আংশিক চন্দ্রগ্রহণ বুধবার
.............................................................................................
বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস আজ
.............................................................................................
উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ডিসিদের আন্তরিক হওয়ার আহ্বান
.............................................................................................
এরশাদের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায়ও দুধে `অ্যান্টিবায়োটিক` মিলেছে
.............................................................................................
বিস্তৃত হচ্ছে বন্যা
.............................................................................................
‘দুর্নীতির কারণে যেন উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত না হয়’
.............................................................................................
সম্প্রসারিত হচ্ছে মন্ত্রিসভা, শনিবার শপথ
.............................................................................................
উচ্ছেদ স্থলে ম্যাজিস্ট্রেটের ওপর হামলা! (ভিডিও)
.............................................................................................
ইসলামি পর্যটনকে বিশ্ব বাণিজ্য ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান
.............................................................................................
ঢাকার একাংশে আজ গ্যাস থাকবে না
.............................................................................................
আজ বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস
.............................................................................................
রিকশা চলবে বাইলেনে
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশ সবচেয়ে বড় হুমকিতে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগার খবর গুজব
.............................................................................................
সংসদ সদস্য রুশেমা ইমাম আর নেই
.............................................................................................
ঢাকায় মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
রিকশা চলাচলে আলাদা লেন নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]