| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * খাগড়াছড়িতে বজ্রাঘাতে মা-ছেলের মৃত্যু   * হন্ডুরাসে বিমান বিধ্বস্ত, পাইলটসহ নিহত ৫   * এসএ পরিবহনের কুরিয়ারে এলো এক লাখ ইয়াবা   * ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ   * অভিনেত্রী মায়া ঘোষ আর নেই   * সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটে অনলাইন কজ-লিষ্ট ব্যবহারের অনুরোধ   * উপসাগরে উত্তেজনা : জরুরি বৈঠকের আহ্বান সৌদি আরবের   * বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু আজ   * ধ্যান ভাঙলেন মোদি   * সৌদি আরবে যাওয়ার চেষ্টা, শাহজালালে ডিজিটাল পাসপোর্টসহ ৪ রোহিঙ্গা আটক  

   শিক্ষাঙ্গন -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ

অনলাইন ডেস্ক : ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৫২ হাজার পরীক্ষার্থী। পাসের হার ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ ভাগ।

রোববার ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও এনটিআরসিএ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

নির্ধারিত ওয়েব সাইটে ntrca.teletalk.com.bd ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএমএস করে জানানো হয়েছে।

প্রিলিমিনারিতে ১ লাখ ৫২ হাজার প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছেন। এদের মধ্যে স্কুল পর্যায়ের ৫৫ হাজার ৫৯৬ জন, স্কুল পর্যায়-২ এর ৪ হাজার ১২৯ জন এবং কলেজ পর্যায়ের ৯২ হাজার ২৭৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। এ পরীক্ষায় ৮ লাখ ৭৬ হাজার ৩৩ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন।

গত ২৮ নভেম্বর ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। গত ১৯ এপ্রিল প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের দ্বিতীয় ধাপে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। আগামী ২৬ ও ২৭ জুলাই শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের শেষ ধাপে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৫২ হাজার পরীক্ষার্থী। পাসের হার ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ ভাগ।

রোববার ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও এনটিআরসিএ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

নির্ধারিত ওয়েব সাইটে ntrca.teletalk.com.bd ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএমএস করে জানানো হয়েছে।

প্রিলিমিনারিতে ১ লাখ ৫২ হাজার প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছেন। এদের মধ্যে স্কুল পর্যায়ের ৫৫ হাজার ৫৯৬ জন, স্কুল পর্যায়-২ এর ৪ হাজার ১২৯ জন এবং কলেজ পর্যায়ের ৯২ হাজার ২৭৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। এ পরীক্ষায় ৮ লাখ ৭৬ হাজার ৩৩ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন।

গত ২৮ নভেম্বর ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। গত ১৯ এপ্রিল প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের দ্বিতীয় ধাপে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। আগামী ২৬ ও ২৭ জুলাই শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের শেষ ধাপে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

টিএসসিতে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত নারী নেত্রীদের ওপর হামলা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদবঞ্চিতদের উপর ছাত্রলীগের পদপ্রাপ্তদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১৮ মে) রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে ডেকে নিয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করেছেন পদবঞ্চিতরা। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী। হামলার অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন ছাত্রলীগ সভাপতি।

শনিবার দিবাগত রাত ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান দিতে দেখা যায় ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের। তাদের অভিযোগ, নবগঠিত কমিটি নিয়ে আলোচনার জন্য আসতে বলে রাত দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে হামলা চালানো হয় পদবঞ্চিতদের ওপর।

পরে আহত অবস্থায় পদবঞ্চিত ছাত্রনেতা ঢাবি ছাত্রলীগের সাবেক উপপ্রচার সম্পাদককে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। বঞ্চিত এ ছাত্রনেতাদের পাশেই ছিলেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক শোভন। তবে অবস্থান ধর্মঘটের থেকে বেশ খানিকটা দূরে দলীয় কর্মীদের নিয়ে অবস্থান করছিলেন সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী। পদবঞ্চিতদের অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।

তবে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ঘটনা খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন ছাত্রলীগ সভাপতি।

এর আগে হামলার জবাব চেয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে বাক বিতন্ডা করতে দেখা যায় পদবঞ্চিতদের।

এসএসসির ফলে আপত্তি দেড় লাখের অধিক শিক্ষার্থীর
                                  

অনলাইন ডেস্ক : এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলে সন্তুষ্ট না হয়ে সারাদেশে এক লাখ ৬৫ হাজার ৬৫৮ জন শিক্ষার্থী তাদের উত্তরপত্র পুনঃমূল্যায়নের জন্য আবেদন করেছে। এসএসসিতে পরীক্ষার খাতা চ্যালেঞ্জ করে এটি রেকর্ড সংখ্যক আবেদন বলে জানা গেছে।

বুধবার (১৫ মে) দেশের সকল বোর্ডে খোঁজ নিয়ে এমন তথ্য পাওয়া যায়।

জানা গেছে, এবার দশ বোর্ডের মধ্যে ঢাকা বোর্ডে ৫৮ হাজার ৭০ জন, বরিশালে ৮ হাজার ৪৮০ জন, চট্টগ্রামে ১৯ হাজার ১৮৩ জন, দিনাজপুরে ১২ হাজার ৫৪০ জন, রাজশাহীতে ১৫ হাজার ১৭৩ জন, সিলেটে ১০ হাজার ৫৪১ জন, কুমিল্লা বোর্ডে ১৩ হাজার ২২৬ জন, মাদরাসা বোর্ডে ১১ হাজার ৭৪৫ জন এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ১৬ হাজার ৭০০ জন শিক্ষার্থী খাতা পুনঃমূল্যায়নের আবেদন করেছে।

অন্যদিকে একেকজন শিক্ষার্থী একাধিক বিষয়ের ফলাফল চ্যালেঞ্জের কারণে উত্তরপত্রের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে, এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৩৮ হাজার ৬২৯টিতে। এর মধ্যে ঢাকা বোর্ডে এক লাখ ৪০ হাজার ৯২৩টি, বরিশালে ১৫ হাজার ৫২৭টি, চট্টগ্রামে ৪৪ হাজার ২৯৭টি, দিনাজপুরে ২৬ হাজার ৯২৫টি, রাজশাহীতে ৩০ হাজার ২৩১টি, কুমিল্লায় ১৯ হাজার ২৬টি, সিলেটে ১৮ হাজার ৯১০টি, মাদরাসা বোর্ডে ২৩ হাজার ৭২৪টি এবং কারিগরি বোর্ডে ১৯ হাজার ৬৬টি উত্তরপত্র পুনঃমূল্যায়নের আবেদন জমা পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ফলাফল চ্যালেঞ্জ করা এক লাখ ৬৫ হাজার ৬৫৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ দেশসেরা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীও আছে। বেশিরভাগ আবেদন পড়েছে ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে। আবেদনের তালিকার ওপরের দিকে আছে ধর্মও। ১২টি পত্রের মধ্যে একেকজন শিক্ষার্থীর সর্বনিম্ন দুটি থেকে সর্বোচ্চ ৪-৫টি পত্র চ্যালেঞ্জ করার রেকর্ডও রয়েছে।

ঢাকা বোর্ডে সবচেয়ে বেশি আবেদন পড়েছে গণিতের খাতা পুনঃমূল্যায়নের ২২ হাজার ১৫০টি। দ্বিতীয় স্থানে আছে ধর্ম ১৫ হাজার। আর তৃতীয় স্থানে ইংরেজি প্রথমপত্র ১২ হাজার ৭০০টি।

রাজশাহী বোর্ডে ৬ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থী গণিত, ৩ হাজার ৬ জন রসায়ন, ২ হাজার ৩১২ জন ইংরেজি প্রথমপত্র এবং ২ হাজার ৯৭৮ জন ধর্ম বিষয়ের ফল পুনঃমূল্যায়ন চেয়েছে। এভাবে অন্যান্য বোর্ডে গণিত, ইংরেজি এবং ধর্ম বিষয়ের ফল নিয়ে বেশি অসন্তোষ শিক্ষার্থীদের।

বোর্ড কর্মকর্তারা জানান, পাবলিক পরীক্ষার খাতা পুনঃমূল্যায়নের ক্ষেত্রে সবকটি উত্তরে নম্বর দেয়া হয়েছে কি-না, প্রাপ্ত নম্বর গণনা ঠিক রয়েছে কি-না, প্রাপ্ত নম্বর ওএমআর শিটে (কম্পিউটারে ফল প্রণয়নে পাঠযোগ্য ফরম) উত্তোলনে ভুল হয়েছে কি-না এবং প্রাপ্ত নম্বর অনুযায়ী ওএমআর শিটের বৃত্ত ভরাট ঠিক আছে কি-না এসব বিষয় দেখা হবে। বিষয়গুলো ঠিক থাকলে তবে সেই খাতা নতুন করে মূল্যায়ন করা হবে।

গত ৬ মে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। ফল প্রকাশের পরদিনই শুরু হয় খাতা চ্যালেঞ্জের আবেদন প্রক্রিয়া। চলে ১৩ মে পর্যন্ত। আবেদনকারীরা ফল জানতে পারবে ২ জুনের মধ্যে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, বরাবরের মতো অনেক পরীক্ষার্থী নিজেদের ফলে সন্তুষ্ট না হয়ে পুনঃনিরীক্ষার জন্য আবেদন করেছেন। নিময় অনুযায়ী এসব খাতা নতুনভাবে নিরীক্ষা করা হবে।

তিনি বলেন, এসব আবেদনকারীর মধ্যে যারা এক বা দুই কম পাওয়ায় জিপিএ-৫ পাননি অথবা কৌতূহলী হয়েও কেউ কেউ আবেদন করে থাকে। তবে এবার ইসলাম ধর্ম বিষয়ের ফলে আপত্তি জানিয়ে বেশি আবেদন জমা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

প্রাথমিকের ৩২ লাখ শিশু পাবে রান্না করা খাবার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : সারাদেশের ১০৪টি উপজেলার সবগুলো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরে রান্না করা খাবার দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রায় ৩২ লাখ শিক্ষার্থীকে এর আওতায় আনা হবে। জাতীয় স্কুল মিল নীতি অনুযায়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশুদের পুষ্টি নিশ্চিত করতে এ কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফও) সহযোগিতায় জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলা, বান্দরবানের লামা উপজেলা, বরগুনার বামনা উপজেলায় ২০১৩ সালে এ প্রকল্পটি প্রাথমিকভাবে চালু করা হলেও, এখন দেশের দারিদ্র্য প্রবণ এলাকার সকল সরকারি প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রকল্পটি চালু করতে চায় তারা।

আগামী জুলাই থেকে আরও ১৬টি উপজেলায় চালু হবে দুপুরে খাবার দেয়ার এই কর্মসূচি। পরে এর আওতায় আসবে ১০৪টি উপজেলার সবগুলো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, ১৬টি উপজেলায় প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতি দেখে বাকি উপজেলাগুলোতে কীভাবে কাজ করা হবে, তার ছক কষা হবে। আগামী বছরের মধ্যে এসব প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ কর্মসূচি বাস্তবায়নের আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, সারাদেশে ৬৫ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২ কোটির বেশি। এর মধ্যে দারিদ্র্য প্রবণ ১০৪টি উপজেলায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩২ লাখের মতো। এসব উপজেলায় স্কুল মিল নীতি বাস্তবায়ন করতে গেলে বছরে ৮ হাজার কোটি টাকা লাগবে বলে হিসাব কষেছে মন্ত্রণালয়।

আকরাম হোসেন আরও বলেন, আমরা ৮ হাজার কোটি টাকা চেয়েছি। সারাদেশে বাস্তবায়ন করতে গেলে এই টাকাটা লাগবে। তবে সরকারি সহযোগিতা ছাড়াও বেসরকারি পর্যায় থেকে কেউ সহযোগিতা করতে চাইলে তাও আমরা নেব।

জাতীয় স্কুল মিল নীতির দায়িত্বে থাকা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব বাজেট থেকে প্রাথমিকভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। অর্থ বিভাগও এ প্রকল্পে অর্থ দেবে।

স্কুল মিল নীতি প্রকল্পের ওপিডি নূরুন্নবী সোহাগ বলেন, সরকারি প্রাথমিক স্কুলে দুপুরের খাবার দিতে গিয়ে শিক্ষার্থীপ্রতি ১৬ টাকা খরচ হবে।

মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেন, এই কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের অধীনে একটি সেল বা ইউনিট গঠন করা হবে। কার্যক্রমের পরিধি সম্প্রসারণে একটি পৃথক জাতীয় স্কুল মিল কর্মসূচি কর্তৃপক্ষ গঠনের চিন্তাও রয়েছে।

এছাড়া বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কারিগরি সহায়তায় বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে পরে একটি খাদ্য ও পুষ্টি গবেষণা উন্নয়ন কেন্দ্র গঠন করবে মন্ত্রণালয়।

একাদশে ভর্তি : অনলাইনে যেভাবে করা যাবে আবেদন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শনিবার মধ্যরাত থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অনলাইন ও এসএমএমের মধ্যমে কলেজ-মাদরাসায় ভর্তি কার্যক্রম চলছে।

অনলাইনে আবেদনের জন্য আবেদনকারীকে প্রথমে মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক, গ্রামীণফোন ও মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ বা শিওরক্যাশের মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দিতে হবে। টাকা জমা দেয়ার পর কনফার্মেশন এসএমএসের ভিত্তিতে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

অনলাইনে যেভাবে করা যাবে আবেদন :

www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এর আগে শিক্ষার্থীকে তার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল ব্যবহার করে এসএমএস করে টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ এর মাধ্যমে ১৫০ টাকা ফি জমা দিতে হবে।

এক্ষেত্রে টেলিটক সিম থেকে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস WEB স্পেস পরীক্ষা পাসের Board এর নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস পরীক্ষার রোল স্পেস পরীক্ষা পাসের সন লিখে ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে। ফিরতি এসএমএস এ আবেদনকারীর নাম ও আবেদন ফি বাবদ ১৫০ কেটে নেয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন কোড দেয়া হবে। ফি দিতে সম্মত থাকলে ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস YES স্পেস PIN স্পেস CONTACT NUMBER (বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধিত মোবাইল নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফি সঠিকভাবে জমা হলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি Transaction IDmn SMS যাবে।

টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ মাধ্যমে নির্ধারিত আবেদন ফি ১৫০ টাকা জমা দেয়ার পর আবেদনকারীকে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে www.xiclassadmission.gov.bd Apply Online -এ ক্লিক করতে হবে। এরপর প্রদর্শিত তথ্য ছকে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, বোর্ড ও পাসের সন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে সঠিকভাবে এন্ট্রি করতে হবে।

এরপর প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষ হলে আবেদনকারী একটি ফরম পাবে, সেটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। একইভাবে সর্বনিম্ন ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে প্রার্থীকে। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৫টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা আবার ১০টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা চার্জ করবে।

এসএমএসে আবেদন :

এসএমএমের মাধ্যমে আবেদন শুধু টেলিটক প্রি-পেইড সংযোগ থেকে সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করা যাবে। মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে এভাবে টাইপ করতে হবে- CAD ভর্তিচ্ছু কলেজ/মাদরাসার EIIN ভর্তিচ্ছু গ্রুপের নামের প্রথম দুই অক্ষর এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের সাল, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ভর্তিচ্ছু শিফটের নাম ভার্সন/কোটার নাম (যদি থাকে)। এরপর মেসেজটি send করতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

জানা গেছে, ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে আবেদনকারীর বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) নম্বর বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এবারই প্রথম ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে কলেজের তিনটি ক্যাটাগরি করা হয়েছে। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ৮২ এবং ‘বি’ ক্যাটাগরিতে ৪৫টি কলেজ আছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক ড. হারুন-অর-রশিদ জানান, এবার ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের মেধাক্রমও থাকবে। আবেদন করতে গেলেই শিক্ষার্থীরা নিজের মেধাক্রম দেখতে পাবে। চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু তাও বুঝতে পারবে। এতে আবেদন জটিলতা ও সংকট থেকে রেহাই মিলবে।

এবারও তিন ধাপে নেয়া হবে আবেদন। প্রথম ধাপে আবেদন করা যাবে ২৩ মে পর্যন্ত। এ পর্যায়ে আবেদনকারীদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন করা যাবে ১৯ ও ২০ জুন। ২১ জুনই এদের ফল প্রকাশ করা হবে। তৃতীয় ধাপে আবেদন নেয়া হবে ২৪ জুন। ফল প্রকাশ হবে ২৫ জুন। ২৭ থেকে ৩০ জুন শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত কলেজে ভর্তি হতে হবে। ১ জুলাই শুরু হবে ক্লাস।

অনলাইনে সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ ১০টি আবেদন করা যাবে। এজন্য নেয়া হবে ১৫০ টাকা। মোবাইল ফোনে প্রতি এসএমএসে একটি করে কলেজে আবেদন করা যাবে। দিতে হবে ১২০ টাকা। কোনো শিক্ষার্থী ১০টির বেশি প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবে না। কলেজ পছন্দের ঝক্কি দূর করতে এবার প্রথম ধাপের আবেদনের ফল প্রকাশ না করা পর্যন্ত আবেদন তালিকায় কলেজের পছন্দক্রম রদবদল করা যাবে।

কলেজ পাওয়ার পর শিক্ষার্থীদের ভর্তি রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এ জন্য গত বছর ১৮৫ টাকা নেয়া হতো। এবার ১৯৫ টাকা নেয়া হবে। বিলম্ব ফি ৫০ টাকার বদলে ১০০ টাকা, ইয়ার লসের জন্য ১০০ টাকার বদলে ১৫০ টাকা ফি নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে। অন্য ফি গত বছরের মতোই। ভর্তিকালে কলেজ-মাদরাসাগুলো কত টাকা নেবে তা আগেভাগেই ঘোষণা করতে হবে। ঘোষণা ছাড়া অর্থ নিলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ভর্তি নীতিমালায় একাদশ শ্রেণিতে সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি মফস্বল, পৌর (উপজেলা) এলাকায় ১ হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় ২ হাজার টাকা, ঢাকা ছাড়া অন্যান্য সব মেট্রোপলিটন এলাকায় ৩ হাজার টাকা ধার্য করা হয়েছে। তবে মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে ৫ হাজার টাকার বেশি আদায় করা যাবে না। মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত আংশিক এমপিওভুক্ত বা এমপিওবহির্ভূত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা হিসেবে শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময় ভর্তি ফি, সেশন চার্জ ও উন্নয়ন ফিসহ বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৯ হাজার টাকা এবং ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

কোটা : এবার ভর্তির সব আসনেই মেধার ভিত্তিতে পূরণ করা হবে। তবে বিভিন্ন কোটার মধ্যে আছে- মুক্তিযোদ্ধা-রাজধানীতে ৫ শতাংশ, বিভাগীয় ও জেলা সদরে ৩ শতাংশ। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধস্তন সব দফতরে ২ শতাংশ, বিকেএসপিতে ০ দশমিক ৫ এবং প্রবাসী ০ দশমিক ৫ শতাংশ করা হবে। যদি এসব কোটায় উপযুক্ত প্রার্থী না পাওয়া যায় তবে এ আসনে অন্য কাউকে ভর্তি করা যাবে না।

কারিগরি প্রতিষ্ঠানে ভর্তি :

এদিকে দেশের সব পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, ইনস্টিটিউট অব গ্লাস অ্যান্ড সিরামিকস, গ্রাফিক্স আর্টস ইনস্টিটিউট, ফেনী কম্পিউটার ইনস্টিটিউট, বিভিন্ন সার্ভে ইনস্টিটিউট, ভোকেশনাল টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডিপ্লোমা ইন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তির কার্যক্রম রোববার শুরু হচ্ছে।

একটানা ৮ জুন পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। ফল প্রকাশ ১৫ জুন। পরদিন থেকে ২৫ জুন পর্যন্ত মূল মেধাতালিকায় স্থান প্রাপ্তরা ভর্তি হতে পারবে। ২৯ জুন থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষমাণ তালিকার প্রার্থীরা ভর্তি হবে।

আজ থেকে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি প্রক্রিয়ার কার্যক্রম আজ রোববার থেকে শুরু হচ্ছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বাসস’কে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠান আগামীকাল রোববার দুপুর ১২ টায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।’ তবে আজ মধ্যরাত থেকে শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন বলেও জানান তিনি।

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, এবারও তিন ধাপে নেয়া হবে আবেদন। প্রথম ধাপে আবেদন করা যাবে ২৩ মে পর্যন্ত। এই পর্যায়ে আবেদনকারীদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন করা যাবে ১৯ ও ২০ জুন। ২১ জুনই এদের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে। তৃতীয় ধাপে আবেদন নেয়া হবে ২৪ জুন। ফল প্রকাশ করা হবে ২৫ জুন। ২৭ থেকে ৩০ জুন শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত কলেজে ভর্তি হতে হবে। ১ জুলাই শুরু হবে ক্লাস।
অনলাইনে সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ ১০টি আবেদন করা যাবে। এজন্য নেয়া হবে ১৫০ টাকা। মোবাইল ফোনে প্রতি এসএমএসে একটি করে কলেজে আবেদন করা যাবে। দিতে হবে ১২০ টাকা। কলেজ পছন্দের ঝামেলা দূর করতে এবার প্রথম ধাপের আবেদনের ফল প্রকাশ না করা পর্যন্ত আবেদন তালিকায় কলেজের পছন্দক্রম রদ-বদল করতে পারবে।

পছন্দের কলেজ পাওয়ার পর শিক্ষার্থীদের ভর্তি রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এর জন্য গত বছর ১৮৫ টাকা নেয়া হতো। এবার ১৯৫ টাকা নেয়া হবে। বিলম্ব ফি ৫০ টাকার বদলে ১০০ টাকা ইয়ার লসের জন্য ১০০ টাকার বদলে ১৫০ টাকা ফি নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

নীতিমালায় একাদশ শ্রেণীতে সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি মফস্বল, পৌর (উপজেলা) এলাকায় এক হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার টাকা, ঢাকা ছাড়া অন্যান্য সব মেট্রোপলিটন এলাকায় তিন হাজার টাকা ধার্য করা হয়েছে। তবে মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত এমপিওভূক্ত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে পাঁচ হাজার টাকার বেশি আদায় করা যাবে না। মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত আংশিক এমপিওভুক্ত বা এমপিওবহির্ভূত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা হিসেবে শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময় ভর্তি ফি, সেশন চার্জ ও উন্নয়ন ফিসহ বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৯ হাজার টাকা এবং ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এবার ভর্তির সব আসনেই মেধার ভিত্তিতে পূরণ করা হবে। তবে বিভিন্ন কোটার মধ্যে আছে- মুক্তিযোদ্ধা-রাজধানীতে ৫ শতাংশ, বিভাগীয় ও জেলা সদরে ৩ শতাংশ। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধঃস্তন সব দফতরে ২ শতাংশ, বিকেএসপিতে ০.৫ এবং প্রবাসী ০.৫ শতাংশ করা হবে। যদি এসব কোটায় উপযুক্ত প্রার্থী না পাওয়া যায় তবে এ আসনে অন্য কাউকে ভর্তি করা যাবে না।

কারিগরি প্রতিষ্ঠানে ভর্তি : এদিকে দেশের সব পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, ইন্সটিটিউট অব গ্লাস অ্যান্ড সিরামিকস, গ্রাফিক্স আর্টস ইন্সটিটিউট, ফেনী কম্পিউটার ইন্সটিটিউট, বিভিন্ন সার্ভে ইন্সটিটিউট, ভোকেশনাল টিচার্স ট্রেনিং ইন্সটিটিউটে ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডিপ্লোমা ইন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তির কার্যক্রম কাল শুরু হচ্ছে।

একটানা ৮ জুন পর্যন্ত এখানে আবেদন করা যাবে। ফল প্রকাশ ১৫ জুন। পরদিন থেকে ২৫ জুন পর্যন্ত মূল মেধাতালিকায় স্থানপ্রাপ্তরা ভর্তি হতে পারবে। ২৯ জুন থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষমাণ তালিকার প্রার্থীরা ভর্তি হবে। বাসস

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের পরীক্ষাও স্থগিত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন আজ রোববারের সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে।

গতকাল শনিবারের সব পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছিল।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অনিবার্য কারণে আজ রোববারের (৫ মে) সকল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।
পরবর্তী সময়ে এই পরীক্ষার তারিখ জানানো হবে। এ পরীক্ষার পূর্বঘোষিত অন্যান্য তারিখ ও সময়সূচি অপরিবর্তিত থাকবে।
জানতে চাইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ শাখার ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ফায়জুল করিম আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে পরপর দুটি পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। এই পরীক্ষার তারিখ পরে জানানো হবে।

ফণীর কারণে পেছাল এইচএসসির ৪ মের পরীক্ষা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে স্থগিত করা হয়েছে আগামী ৪ মের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। স্থগিত হওয়া ওই পরীক্ষা আগামী ১৪ মে অনুষ্ঠিত হবে।

আজ বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা আবুল খায়ের জানান, আগামী ৪ মের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১৪ মে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ওই পরীক্ষা পেছানো হয়েছে।

আগামী ৪ মে উচ্চতর গণিত, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ও ইসলাম শিক্ষা পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল।

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলীয় এলাকায় দ্রুত ধেয়ে আসছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর প্রভাবে বাংলাদেশের সমুদ্র উপকূলীয় এলাকা মোংলা ও পায়রায় বন্দরকে ৭ এবং চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়টি শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ আঘাত হানার আশঙ্কা রয়েছে।

ঢাকা ও যশোর বোর্ডের এইচ এস সি পরীক্ষার ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা ২য় পত্রের পরীক্ষা ৭ মে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : চলমান এইচ এস সি পরীক্ষা ২০১৯-এর ঢাকা ও যশোর বোর্ডের ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা ২য় পত্রের পরীক্ষার সময়সূচি পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

ঢাকা বোর্ডের অধীন ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা সরকারি কলেজ কেন্দ্রের এবং যশোর বোর্ডের খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলাধীন কপিলমুনি- ২১৭ কেন্দ্রের ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা ২য় পত্রের (বিষয় কোড ২৯৩) প্রশ্ন পত্রের প্যাকেট খুলে দেখার কারণে আগামীকাল ২৯ এপ্রিল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য এই পরীক্ষাটি বাতিল করে পরীক্ষার সময়সূচি পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।
আগামী ৭ মে বিকাল ২টায় এইচ এস সি পরীক্ষার ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা ২য় পত্রের পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। বাসস

ছিনতাই‌য়ের অভিযোগে জ‌বি‌’র ২ শিক্ষার্থী ব‌হিষ্কার
                                  

জ‌বি প্র‌তি‌নি‌ধি : ছিনতাই‌য়ের অভিযো‌গে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জ‌বি) দুই শিক্ষার্থী‌কে ব‌হিষ্কার ক‌রে‌ছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ব‌বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এক শিক্ষার্থী তার বন্ধুদের সাথে ঘুরতে আসলে তাদেরকে বাহাদুর শাহ (ভিক্টোরিয়া) পার্কে ডেকে তাদের সাথে অশোভন আচরণ করে এবং মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয় পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ফাহিম আহমেদ খান (আইডি ই১৬০৩০৪০৭২) এবং ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মারুফ আহমেদ (আইডি ই১৭০৬০২০৪১)।

প্রাপ্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রাথমিক তদন্তে ফাহিম আহমেদ খান এবং মো. মারুফ আহমেদের উক্ত ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুলভ নয় এবং শৃঙ্খলা পরিপন্থী। এ প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ উক্ত দুইজন শিক্ষার্থীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে এবং আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে স্থায়ীভাবে কেন বহিষ্কার করা হবে না সে ব্যাপারে লিখিত জবাব দেয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

জবিতে যৌন নিপীড়নবিরোধী শিল্পকর্ম প্রদর্শিত
                                  

জবি প্রতিনিধি : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) যৌন নিপীড়ন বিরোধী চিত্রকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) ক্যাম্পাসের ভাস্কর্য চত্বরের বিপরীত পাশে দিনব্যাপী প্রদর্শনীর এ আয়োজন করা হয়।

আয়োজকরা বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে যৌন নিপীড়নের ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়া তাদের এ আয়োজন। শিল্পকর্ম বরাবরই প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। যৌন নিপীড়ন বন্ধে নারী-পুরুষ উভয়ের সচেতনতা প্রয়োজন। শিল্পকর্মের সঠিক চর্চার মাধ্যমেই মানুষের বিবেক জাগ্রত করা সম্ভব বলে মনে করছেন তারা।

জবি শাখা সাংস্কৃতিক ইউনিয়নের সদস্য সাবাব আলম সানি বলেন," সমগ্র বাংলাদেশে যৌন নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমাদের প্রচেষ্টায় শিল্পকর্মের মাধ্যমে আমরা এর প্রতিবাদ করছি। কারণ, আমরা বিশ্বাস করি যৌন হয়রানি জঘন্য ও ঘৃণ্যতম অপরাধমূলক কাজ। তাই আমরা জবি শিল্পীরা একসাথে শিল্পকর্মের মাধ্যমে ধর্ষকদের সাথে কি ধরনের আচরণ করা উচিৎ তা তুলে ধরেছি। "

চিত্রকর্মগুলিতে শিল্পীরা, যৌন নিপীড়ন বন্ধের আহবান জানিয়েছেন। চিত্রকর্মগুলিতে তুলে ধরা হয়েছে, নারীর প্রতি সমাজ ও পুরুষের বিকৃত যৌন মানসিকতা। এছাড়াও নারীর বিভিন্ন প্রতিবাদী চরিত্র।

প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া চারুকলা বিভাগের ৯ম ব্যাচের অনিক সাহা সুমিত বলেন, প্রদর্শনীতে আমার ২টি চিত্রকর্ম প্রদর্শীত হচ্ছে। একটিতে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত যৌন নিপীড়নের পেপারকার্টিং এর উপর নিপীড়নের শিকার নারী প্রতিকৃতি এঁকেছি। এর মাধ্যমে আমি বুঝিয়েছি প্রতিদিনই সংবাদপত্রে যৌন নিপীড়নের সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে তারপরও নারীর অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে না বরং বাড়ছে।

প্রদর্শনীতে জায়গা পেয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত চারুকলা বিভাগের ২৭ জন ও অন্যান্য বিভাগের ৫ জন শিল্পীর ৩৫ টি চিত্রকর্ম, কাটুর্ন ও শিল্পকর্ম।

শিল্পকর্ম দেখতে আসা দর্শণার্থী অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সানজিদা সাথী বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে এধরনের প্রতিবাদ দেখে অনেক ভালো লাগছে। যারা এধরণের কাজ করে তাদের সামাজিক ভাবে সচেতন করার জন্যে এটি অনেকাংশে সাহায্য করবে। এধরণের বিকৃত মস্তিষ্ক অধিকারী মানুষদের কে সচেতন করার জন্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এর আয়োজন করা উচিৎ।

আয়োজনের বিষয়ে শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মিফতাহ আল ইহসান তূর্য বলেন, "শিল্পের মাধ্যমে যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদে আমাদের আয়োজন। শিল্প মানুষের মৌলিক ও জৈবিক চাহিদা। মানুষ শিল্পের সঠিক চর্চায় না থাকলে বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত হয়। আমাদের চেষ্টা ছিলো মানুষ কম করে হলেও একটি ছবি দেখুক এবং নিজেকে প্রশ্ন করার জায়গা থাকছে, বিবেক জাগ্রত হওয়ার সুযোগ তৈরি হচ্ছে।

জবিতে ইংরেজি বিভাগের নবীনবরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
                                  

জবি প্রতিনিধি : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইংরেজি বিভাগের ২০১৮-২০১৯ সেশনের ১৪তম ব্যাচের নবীনবরণ এবং ২০১২-২০১৩ সেশনের ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে বেলা ১১টায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কোষাধ্যক্ষ সেলিম ভুইয়া বলেন, “সামাজিক সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য সবাইকে একসাথে ভূমিকা রাখতে পারে। এ জন্য আরো উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা বৃদ্ধি করতে হবে। সাহিত্যের সঠিক ধারণা সচেতন নাগরিক তৈরিতে সহায়তা করে থাকে। আর সাহিত্য নিয়ে সম্পর্কে সঠিক ধারণা দিতে পারে এই বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। তারাই রাষ্ট্রের যথাযথ সমাধান দিতে পারবে।”

নবীণদের নিজ নিজ পাঠ্য বিষয়কে ভালোবেসে জ্ঞান আহরণের পরামর্শ দেন তিনি। এসময় বিদায়ী শিক্ষার্থীদের মঙ্গল কামনা করে বক্তব্য শেষ করেন।

অনুষ্ঠানে বিভাগীয় সভাপতি অধ্যাপক ড.আবু জাফর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, কলা অনুষদের অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড.আতিয়ার রহমান, নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আ হ ম জাহিদুল করিম, ইংরাজি বিভাগীয় সহযোগী অধ্যাপক মমীন উদ্দীন সহ আরো অনেকে। এসময় নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ এবং বিদায় শিক্ষার্থী ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ স্থগিত, কাল আবার হবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : গণহারে ফেলসহ নানা সমস্যা সমাধানের দাবিতে করা সড়ক অবরোধ আজকের মতো স্থগিত করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। তবে আগামীকাল বুধবার (২৪ এপ্রিল) আবারো সড়ক অবরোধ করে অবস্থান নিবে শিক্ষার্থীরা। তারা জানান, সমস্যা সমাধান না হলে, এই অবরোধ কর্মসূচী চালিয়ে যাবেন।

অবরোধ তুলে নেয়ার পর ওই এলাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে এসেছে।

এর আগে সেশনজট নিরসন, ত্রুটিপূর্ণ ফল সংশোধন এবং ফল প্রকাশের দীর্ঘসূত্রিতা দূর করাসহ নানা সমস্যা সমাধানের দাবিতে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১০টায় ঢাকা কলেজের সামনে থেকে মানববন্ধন শুরু করেন সাত কলেজ অধিভুক্ত শিক্ষার্থীরা। যা রাজধানীর নীলক্ষেত ও সাইন্সল্যাব পর্যন্ত ছাড়িয়ে যায়। এরপর বেলা ২টা পর্যন্ত সড়ক আটকে বিক্ষোভ করেন তারা।

এসময় তারা সাত কলেজের নানা সমস্যা তুলে ধরে বিভিন্ন স্লোগান দেন। ‘গণহারে আর ফেল নয়, যথাযথ রেজাল্ট চাই’, ‘শিক্ষা কোনো পণ্য নয়, শিক্ষা নিয়ে ব্যবসা নয়’- এসব স্লোগান দেয়া হয় বিক্ষোভে।

শিক্ষার্থীদের দাবি, পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে চরম বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন তারা। সবশেষ পরীক্ষায় ঢাকা কলেজ বাংলা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ২১৬ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে সব বিষয়ে পাশ করেছেন মাত্র ৩ জন। রসায়নে ৪৮ জনের মধ্যে ৪০ জন অকৃতকার্য হয়েছেন।

ঢাবিতে কনসার্ট উপলক্ষে টানানো ব্যানার ফেস্টুন ভাঙচুর-আগুন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মল চত্বরে চৈত্র সংক্রান্তি ও পহেলা বৈশাখের দুই দিনব্যাপী কনসার্ট উপলক্ষে টানানো ব্যানার, ফেস্টুন, বিজ্ঞাপন বুথ ও স্টলে ভাঙচুর এবং আগুন দিয়েছে ছাত্রলীগের একটি অংশ।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

দুই দিনব্যাপী এ কনসার্টে স্পন্সর কোমল পানীয় মোজো। আয়োজক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রলীগ নেতা বলেন, কনসার্টের আয়োজন সম্পর্কে কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে মূল্যায়ন করা হচ্ছে না বলে তার অনুসারীরা ক্ষুব্ধ হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাবির প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, এটা কখনও কাম্য নয়। কারা এ ভাঙচুর করেছে তা খতিয়ে দেখা হবে।

ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ববি শিক্ষার্থীদের অনির্দিষ্টকালের মহাসড়ক
                                  

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হকের পদত্যাগ দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। বুধবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নিয়ে টায়ার ও কাগজ জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের দুই প্রান্তে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

এর আগে সকাল ১০টার দিকে প্রশাসনিক ভবনের গ্রাউন্ড ফ্লোরে জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা । সেখানে তারা অবস্থান নিয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হকের পদত্যাগ দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। এরপর বেলা ১১টার দিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান করে টায়ার ও কাগজ জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এতে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার রাতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যরা সভা করেন। শিক্ষার্থীরা আশা করেছিলেন সিন্ডিকেট সভা থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হককে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হবে বা তিনি স্বেচ্ছায় পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানাবেন। তবে সিন্ডিকেট সভায় উপাচার্যের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। তাই শিক্ষার্থীরা বাধ্য হয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করতে বাধ্য হয়েছে। উপাচার্য পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

গত শনিবার বরিশাল সার্কিট হাউসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চার ঘণ্টার রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন সদর আসনের এমপি পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম, সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল।

বৈঠক শেষে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হককে আর বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব পালন না করতে দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মাধমে উপাচার্যকে ছুটি দিয়ে কিংবা পদত্যাগ করিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন সদর আসনের এমপি জাহিদ ফারুক শামীম।

বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওইদিন রাতেই রোববার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল আবাসিক হল ও শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর নোটিশ জারি করেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ড. হাসিনুর রহমান। তবে এরপর ৩ দিন পেরিয়ে গেলেও উপাচার্যকে বাধ্যতামূলক ছুটি কিংবা পদত্যাগ না করায় শিক্ষার্থীরা তাদের আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন।

রাত পেরিয়ে সকালেও চলছে অবস্থান কর্মসূচি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে এক শিক্ষার্থীকে মারধর ও ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরসহ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন ভিপি নুরুল হক নুরসহ প্রতিবাদী শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাত পৌনে ৮টা থেকে শুরু হওয়া এ কর্মসূচি রাত পেরিয়ে সকালেও (বুধবার) চলছে।

‘সন্ত্রাসী হামলা’র বিচার না হওয়া পর্যন্ত তারা সেখানে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে যাবেন বলে জানান।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেন বলেন, ‘আমরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাব। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে কোনো আপোষ নয়। তাদের বহিষ্কার করতে হবে।’

এর আগে রাত পৌনে ১টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিচারের আশ্বাস দিয়ে ভিপি নুরুল হক নুরসহ প্রতিবাদী শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি স্থগিত করার অনুরোধ জানান প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী। কিন্তু শিক্ষার্থীরা প্রক্টরের আশ্বাসে ভরসা রাখেননি। তারা ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানকে ঘটনাস্থলে এসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলার দাবি জানান।

এদিকে শিক্ষার্থীকে মারধর ও ভিপি নুরুল হক নুরসহ সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা তদন্তে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সলিমুল্লাহ মুসলিম হল প্রশাসন একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

উল্লেখ্য, সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে এক শিক্ষার্থীকে মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে শিক্ষার্থীরা দুই দফায় ছাত্রলীগের হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। হামলায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন তিনজন। তারা হলেন- উম্মে হাবিবা বেনজীর, আতাউল্লাহ, হাবীবুল্লাহ বেলালী।


   Page 1 of 11
     শিক্ষাঙ্গন
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ
.............................................................................................
টিএসসিতে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত নারী নেত্রীদের ওপর হামলা
.............................................................................................
এসএসসির ফলে আপত্তি দেড় লাখের অধিক শিক্ষার্থীর
.............................................................................................
প্রাথমিকের ৩২ লাখ শিশু পাবে রান্না করা খাবার
.............................................................................................
একাদশে ভর্তি : অনলাইনে যেভাবে করা যাবে আবেদন
.............................................................................................
আজ থেকে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু
.............................................................................................
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের পরীক্ষাও স্থগিত
.............................................................................................
ফণীর কারণে পেছাল এইচএসসির ৪ মের পরীক্ষা
.............................................................................................
ঢাকা ও যশোর বোর্ডের এইচ এস সি পরীক্ষার ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা ২য় পত্রের পরীক্ষা ৭ মে
.............................................................................................
ছিনতাই‌য়ের অভিযোগে জ‌বি‌’র ২ শিক্ষার্থী ব‌হিষ্কার
.............................................................................................
জবিতে যৌন নিপীড়নবিরোধী শিল্পকর্ম প্রদর্শিত
.............................................................................................
জবিতে ইংরেজি বিভাগের নবীনবরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ স্থগিত, কাল আবার হবে
.............................................................................................
ঢাবিতে কনসার্ট উপলক্ষে টানানো ব্যানার ফেস্টুন ভাঙচুর-আগুন
.............................................................................................
ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ববি শিক্ষার্থীদের অনির্দিষ্টকালের মহাসড়ক
.............................................................................................
রাত পেরিয়ে সকালেও চলছে অবস্থান কর্মসূচি
.............................................................................................
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারে বই নিয়ে প্রবেশের দাবি শিক্ষার্থীদের
.............................................................................................
এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু
.............................................................................................
শেখ হাসিনাকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব
.............................................................................................
ডাকসুর পুনর্নির্বাচনের দাবিতে ভিসি কার্যালয়ের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান
.............................................................................................
অনশন ভাঙলেন শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
রোকেয়া হলের প্রভোস্টকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে : ভিপি নুর
.............................................................................................
একনজরে ডাকসু নির্বাচনের ফলাফল
.............................................................................................
ঢাবি ভিসির বাসভবন ঘিরে রেখেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা
.............................................................................................
ডাকসু ভিপি নুরুল হক, জিএস গোলাম রাব্বানী
.............................................................................................
ঢাবির ৫ ছাত্রী হলের চারটিতেই ভিপি স্বতন্ত্ররা
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে : উপাচার্য
.............................................................................................
ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে ছাত্রলীগের বিপুল বিজয়
.............................................................................................
তিন ঘণ্টা পর মৈত্রী হলে ভোট শুরু
.............................................................................................
বস্তা ভর্তি সিল মারা ব্যালট, মৈত্রী হলে ভোট গ্রহণ স্থগিত
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু
.............................................................................................
আগামীকাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ডাকসু নির্বাচন
.............................................................................................
নতুন গ্রেডে উন্নীত হচ্ছেন প্রাথমিকের শিক্ষক-কর্মকর্তারা
.............................................................................................
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখন দ্রুতগামী ট্রেন : শিক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচনে প্যানেল ঘোষণা করলো কোটা আন্দোলনকারীরা
.............................................................................................
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচন : ছাত্রলীগের প্যানেল ঘোষণা
.............................................................................................
ঢাবি উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে ছাত্রদলের অবস্থান
.............................................................................................
ডাকসুর মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু, চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচন : ছয় দফা দাবিতে ঢাবি ভিসির কার্যালয় ঘেরাও
.............................................................................................
প্রশ্নপত্রে ত্রুটি, যশোর বোর্ডের আইসিটি পরীক্ষা বাতিল
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচনের তফসিল, মনোনয়ন বিতরণ ১৯ ফেব্রুয়ারি
.............................................................................................
ইজতেমার কারণে পেছাল এসএসসির তিন পরীক্ষা
.............................................................................................
রাত ১০টার পর মিছিল-মিটিং নয় : ঢাবি ছাত্রলীগ
.............................................................................................
জবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ
.............................................................................................
এসএসসি`র প্রথম দিনে অনুপস্থিত ১০৩৮৭, বহিষ্কার ২৪
.............................................................................................
আজ থেকে শুরু এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা
.............................................................................................
এইচএসসি ফরম পূরণে সময় বাড়ল
.............................................................................................
পিইসি-ইবতেদায়িতে ৯৮, জেএসসিতে ৮৫ ও জেডিসিতে ৮৯ শতাংশ পাস
.............................................................................................
শীর্ষে থেকেই বড় দিনের ছুটিতে লিভারপুল
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]