| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ঢাকায় আজ হালকা বৃষ্টির আভাস, বাড়তে পারে তাপমাত্রা   * মহামারির মধ্যেই বিদ্যালয় খুলে দিল যুক্তরাষ্ট্র   * প্রাকৃতিক দুর্যোগে লণ্ডভণ্ড কেরালায় ১২ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ বহু   * মালয়েশিয়ার সাবেক অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ   * নভেম্বরের মধ্যে করোনায় ৩ লাখ মৃত্যু হবে যুক্তরাষ্ট্রে   * গাড়িচাপায় পর্বতারোহী রেশমা নিহত   * বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর সরকার বিরোধী বিক্ষোভ   * করোনায় মৃত্যু ছাড়ালো ৭ লাখ ১৭ হাজার   * লেবানন বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৬ জনকে আটক   * যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ মাসে ২৬০০ কোটি টাকার পোশাক রপ্তানি কমেছে  

   বিনোদন -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
রামমন্দির নয়, ভ্যাকসিন জরুরি- দেব

৫ অগাস্ট, বুধবার দিনক্ষণ, শুভলগ্ন মেনে অযোধ্যার রামজন্মভূমিতে মন্দির নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। মন্দিরের প্রথম ইট গেঁথেছেন স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি। পরিকল্পনা অনুযায়ী এরপর সাড়ে তিন বছরে ‘মর্যদা পুরুষোত্তম শ্রীরামের মন্দির’ তৈরি করবে শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট। খরচ হবে আনুমানিক ৩০০ কোটি।

অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজোতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও। করোনাকালে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের এমন এলাহি আয়োজন নিয়েই এবার প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল সাংসদ, অভিনেতা দীপক অধিকারী ওরফে দেব। ঘাটালের এই সাংসদের প্রশ্ন, ‘এই অতিমারীর সময়ে রাম মন্দির নিয়ে আড়ম্বরের যৌক্তিকতা কী? যে কোনও বাচ্চাকে যদি প্রশ্ন করা হয়, তোমার এখন কী চাই? করোনার ভ্যাকসিন না রামমন্দির, সেও বলে দেবে কোনটা প্রয়োজন’।

এই মুহূর্তে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখের কাছাকাছি। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের নিরিখে ব্রাজিল এবং আমেরিকাকেও ছাড়িয়ে গেছে ভারত। টানা এক সপ্তাহ ভারতে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন ৫০ হাজারের ওপর মানুষ। মৃত্যুতেও রেকর্ড দেশের। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

কোভিড ১৯ থাবা বসিয়েছে মোদি মন্ত্রিসভাতেও। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ছাড়াও আক্রান্ত হয়েছেন আরও একাধিক নেতা। হোম আইসোলেশনে একাধিক সাংসদ থেকে মন্ত্রী। এই অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর অযোধ্যায় উড়ে আসা এবং শতাধিক অতিথি নিয়ে ঘটা করে রামমন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর নিয়ে তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে।

দেব বলেন, ‘আমার মোদিজিকে ভালো লাগে। গোটা দেশে অনুরাগী, আমি তার প্রশংসা করি। এটা কোনও দল বা বিরোধী দল বলে নয়, এই সময়ে দাঁড়িয়ে মন্দির নয় ভ্যাকসিন দরকার। একটা বাচ্চা ছেলেকে প্রশ্ন করলে সেও তাই বলবে’।

রামমন্দির নয়, ভ্যাকসিন জরুরি- দেব
                                  

৫ অগাস্ট, বুধবার দিনক্ষণ, শুভলগ্ন মেনে অযোধ্যার রামজন্মভূমিতে মন্দির নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। মন্দিরের প্রথম ইট গেঁথেছেন স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি। পরিকল্পনা অনুযায়ী এরপর সাড়ে তিন বছরে ‘মর্যদা পুরুষোত্তম শ্রীরামের মন্দির’ তৈরি করবে শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট। খরচ হবে আনুমানিক ৩০০ কোটি।

অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজোতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও। করোনাকালে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের এমন এলাহি আয়োজন নিয়েই এবার প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল সাংসদ, অভিনেতা দীপক অধিকারী ওরফে দেব। ঘাটালের এই সাংসদের প্রশ্ন, ‘এই অতিমারীর সময়ে রাম মন্দির নিয়ে আড়ম্বরের যৌক্তিকতা কী? যে কোনও বাচ্চাকে যদি প্রশ্ন করা হয়, তোমার এখন কী চাই? করোনার ভ্যাকসিন না রামমন্দির, সেও বলে দেবে কোনটা প্রয়োজন’।

এই মুহূর্তে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখের কাছাকাছি। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের নিরিখে ব্রাজিল এবং আমেরিকাকেও ছাড়িয়ে গেছে ভারত। টানা এক সপ্তাহ ভারতে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন ৫০ হাজারের ওপর মানুষ। মৃত্যুতেও রেকর্ড দেশের। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

কোভিড ১৯ থাবা বসিয়েছে মোদি মন্ত্রিসভাতেও। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ছাড়াও আক্রান্ত হয়েছেন আরও একাধিক নেতা। হোম আইসোলেশনে একাধিক সাংসদ থেকে মন্ত্রী। এই অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর অযোধ্যায় উড়ে আসা এবং শতাধিক অতিথি নিয়ে ঘটা করে রামমন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর নিয়ে তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে।

দেব বলেন, ‘আমার মোদিজিকে ভালো লাগে। গোটা দেশে অনুরাগী, আমি তার প্রশংসা করি। এটা কোনও দল বা বিরোধী দল বলে নয়, এই সময়ে দাঁড়িয়ে মন্দির নয় ভ্যাকসিন দরকার। একটা বাচ্চা ছেলেকে প্রশ্ন করলে সেও তাই বলবে’।

সুশান্তের মৃত্যুর পরই অভিনেতার ডায়েরির বেশ কিছু পাতা ছিঁড়ে ফেলা হয়!
                                  

​সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তাঁর ডায়রি থেকে বেশ কিছু পাতা ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে? ১৪ জুনের পর এমনই অভিযোগ উঠতে শুরু করে। কে বা কারা সুশান্তের প্রিয় ডায়েরি থেকে পাতা ছিঁড়ে ফেলেন, তা নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়ে যায়। পাশাপাশি বিষয়টি উঠে আসে সংবাদমাধ্যমের সামনেও।

এ বিষয়ে সুশান্তের সঙ্গী অর্থাত ফ্ল্যাটমেটকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, সুশান্তের নিজে ডায়েরি থেকে পাতা ছেঁড়ার অভ্যেস ছিল। নিজের জীবনে তিনি কী করবেন, কী লক্ষ্য, সবকিছুই ডায়েরির পাতায় লিখে রাখতেন তিনি।

সেই পাতা আবার অনেক সময় নিজেই ছিঁড়ে ফেলতেন বলে দাবি করেন সিদ্ধার্থ পিটানি। তবে এসএসআর-এর ডায়রি থেকে বেশ কিছু পাতা ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে বলে যে দাবি করা হয়েছে, তা ঠিক নয় বলেও দাবি করেন সিদ্ধার্থ পিটানি।

এদিকে রিয়ার নিয়োগ করা হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে বৃহস্পতিবার ৯ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের সামনে মিরান্ডা মুখ খুললেও, সংবাদমাধ্যমের সামনে কোনও মন্তব্য করেননি। জি নিউজ

প্রশংসা পাচ্ছে ঈদের নাটক ‘মাস্ক’
                                  

ঈদুল আজহার বিশেষ নাটক ‘মাস্ক’ । নাটকটি পরিচালনা করেছেন কাজল আরেফিন অমি এবং প্রযোজনা করেছেন মাসুদুল হাসান।নাটকটি ঈদের পরের দিন অবমুক্ত করা হয় ‘মোশন রক এন্টারটেইনমেন্ট’ এর ইউটিউব চ্যনেলে।

প্রকাশের পর থেকেই নেটিজেনদের মধ্যে আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয় ‘মাস্ক’ । মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ১০ লাখেরও বেশি মানুষ দেখে নাটকটি। যা এখনো পর্যন্ত ঈদে প্রকাশিত নাটকগুলো মধ্যে প্রথম । নাটকটিতে অভিনয় করেছেন - জিয়াউল হক পলাশ, তাসনিয়া ফারিন, চাষী আলম, মারজুক রাসেল, মুকিত জাকারিয়া, মুসাফির প্রমুখ।

মোবাইলফোনে কথা হলো কাজল আরেফিন অমির সাথে , তিনি জানালেন, ‘মাস্ক গল্পটা একটু ডার্ক কমেডি ধাচের। আমি সবসময় আমার দর্শকদের বিনোদন দিতে চাই আমার কাজের মাধ্যমে। সারাদিনের শত ব্যস্ততা শেষে কেউ যদি আমার নাটক দেখে একটু বিনোদিত হয়,একজন নির্মাতা হিসেবে এতটুকুই আমার স্বার্থকতা। নাটকটি প্রকাশের পর দর্শকদের কাছ থেকে অনেক রেস্পন্স পাচ্ছি। আলোচনা-সমালোচনা থাকবেই। সমালোচনা অবশ্যই গঠনমুলক হওয়া উচিৎ। ডার্ক কমেডি ধাচের নাটক মূলত আমাদের দেশে হয় না তবে আশা করা যায় এখন থেকে হবে, আমার কাজ রিলিজ হওয়ার পর এক দল বলে অসাধারণ হয়েছে আরেক দল বলে একদমই ভালো হয় নাই আমি এই দুই দলকেই ভালোবাসি , কারন তারা কস্ট করে আমার কাজ দেখেন। আমি সবসময়ই চেস্টা করি দর্শকদের নতুন কিছু দেয়ার জন্য সামনেও এই চেস্টা অব্যাহত থাকবে,আপনারা পাশে থাকবেন।

এবারের কাজের অভিজ্ঞতা অন্য সবসময় থেকে একটু আলাদা , এই করোনাকালীন সময়ে আমাদের কাজের ক্ষেত্রেও নিতে হয়েছে বাড়তি সতর্কতা। অন্য সময়গুলাতে আমরা গল্প,ক্রিপ্ট রেডি করে তারপর লোকেশন রেডি করতাম আর এবার লোকেশন রেডি করে গল্প রেডি করতে হয়েছে এটা একটা চাপ ছিল। তারপরও শত প্রতিকুলতার মাঝেও কাজ করেছি দর্শকদের জন্য। দিনশেষে দর্শকদের ভালোবাসাটাই সামনে এগিয়ে যাওয়ার শক্তি।

আমি এবং আমার টিমের জন্য দোয়া করবেন সবাই যাতে সামনে আপনাদের আরো কাজ উপহার দিতে পারি।

একটি ফোন আসে, সুশান্তকে জানান; এরপরেই আত্মহত্যা
                                  

৮ জুন নিজের ফ্ল্যাট থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন দিশা সালিয়ান। পার্টির মাঝে আচমকা দিশা কেন আত্মহত্যা করলেন, তা নিয়ে প্রশ্নের মাঝেই ১৪ জুন গলায় ফাঁস দিয়ে নিজের জীবন শেষ করে দেন সুশান্ত সিং রাজপুত। দিশার আত্মহত্যার সঙ্গে সুশান্তের মৃত্যুর কোনও যোগ রয়েছে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। মুম্বাই পুলিস বিষয়টি নাকচ করে দিলেও, বিহার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে দুটি বিষয় নিয়েই।

সম্প্রতি সুশান্তের জন্য বিচার চেয়ে যে `ইনসাফ এসএসআর` নামে একটি ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছে। তার মুখ হিসেবে সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাতকারে হাজির হন প্রশান্ত কুমার নামে এক ব্যক্তি। সেখানে তিনি দাবি করেন, সম্প্রতি একটি অচেনা নম্বর থেকে একটি ফোন আসে তাঁর কাছে। সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে তিনি প্রশান্ত কুমারদের তথ্য দিয়ে সাহায্য করতে চান বলে দাবি করেন। কিন্তু মুম্বাইত থাকার জন্য নিজের নাম যাতে বাইরে না আসে, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে চান বলে অচেনা ব্যক্তি জানান প্রশান্ত কুমারকে।

প্রশান্তের দাবি ওই ব্যক্তি তাঁকে জানিয়েছেন, গত ৮ জুন যে পার্টিতে দিশা হাজির হন সেখানে একাধিক তারকা এবং রাজনৈতিক নেতা হাজির ছিলেন। পার্টির মাঝে দিশার কাছে একটি ফোন আসে। যে ফোন আসার পর ভয় পেয়ে যান দিশা। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষয়টি সুশান্তকে জানান। দিশা যাতে ভয় না পেয়ে তখনই ওই পার্টি থেকে বেরিয়ে আসেন, সে বিষয়ে জানান সুশান্ত। শুধু তাই নয়, তিনি বিষয়টি দেখবেন বলেও দিশাকে আশ্বস্ত করেন। সুশান্তের ফোন রাখার পর আচমকাই বহুতল থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন দিশা।

সন্দীপ সিং যখন সুশান্তকে দিশার আত্মহত্যার খবর ফোন করে জানান, তখন চিতকার করে ওঠেন সুশান্ত। এরপরই সুশান্তের সঙ্গে রিয়ার ঝামেলা শুরু হয়। দিশার মৃত্যু সুশান্ত কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না কিন্তু রিয়া বুঝতে চাননি সুশান্তের মনের অবস্থা। এরপরই সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে রিয়া চলে যান বলে প্রশান্ত কুমারকে ওই ব্যক্তি জানান বলে দাবি করা হয়।

মালেক আফসারীর ২৬ তম চলচ্চিত্রে হিরো আলম
                                  

মাস্টার মেকার খ্যাত নির্মাতা মালেক আফসারী হিরো আলমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করবেন। ক্যারিয়ারের ২৬ নম্বর চলচ্চিত্রটিই হবে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে উঠে আসা বগুড়ার এই তরুণকে। এমনই ঘোষণা দিলেন মালেক আফসারী। নিজস্ব ফেসবুক চ্যানেলে বুধবার রাতে আমন্ত্রণ জানান আশরাফুল আলমকে। সেখানের সম সাময়িক বিষয় নিয়ে কথা বলেন মালেক আফসারী।

এক পর্যায়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়। মালেক আফসারী এক পর্যায়ে জানান তার ২৫ নম্বর চলচ্চিত্র `হ্যাকার` এ যদি কোনো চরিত্র সৃষ্টি করা যায় তাহলে সেখানে তিনি হিরো আলমকে নেবেন। সেটা সম্ভব হতেও পারে নাও হতে পারে। তবে ক্যারিয়ারের ২৬ নম্বর ছবিটি হিরো আলমকে নিয়েই বানাবেন। এবং হিরো আলমের বিপরীতে বিদেশি চরিত্র থাকবে। ছবিটির প্রযোজনা করবেন হিরো আলম।

এ প্রসঙ্গে কালের কণ্ঠকে হিরো আলম বলেন, `যেহেতু আমি একটি ছবি প্রযোজনা করেছি। আমি মনে করি এটাও পারবো। ওস্তাদ আমাকে (মালেক আফসারী) নিয়ে ছবি বানাতে চেয়েছে, এটা আমার জন্য আনন্দের। আমি মনপ্রাণ দিয়ে সেই ছবির জন্য কাজ করবো।`

মালেক আফসারী ওই লাইভে হিরো আলমকে উদ্দেশ করে বলেন, তুমি যে মিউজিক ভিডিও দিয়ে ভাইরাল হয়েছে সেটা আবার নতুন করে বানানো যেতে পারে। আর তোমাকে এখন থেকে সমালোচনা মূলক মিউজিক ভিডিও করা যাবে না। যেসব করবা সব ভালো ভিডিও করবা।

বগুড়ার এরুলিয়া ইউনিয়নের এরুলিয়া গ্রাম থেকে উঠে আসেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আলোচনা ও সমালোচনার কেন্দ্রে পরিণত হয়ে হিরো আলম ওরফে আশরাফুল আলম ঢাকায় চলে আসেন। স্থানীয়ভাবে তিনি ডিশ আলম হিসেবেও পরিচিত। কেননা এরুলিয়ায় তাঁর কেবল নেটওয়ার্কের ব্যবসা রয়েছে।

আত্মহত্যা প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তের বাবার এফআইআর
                                  

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার ঘটনায় এবার ঘটনা অন্যদিকে মোড় নিয়েছে। অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কে কে সিং। পাটনার রাজীব নগর থানায় রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন প্রয়াত অভিনেতার বাবা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪১, ৩৪২, ৩৮০, ৪০৬, ৫০৬ এবং ৩০৬ ধারায় দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ।

জানা গেছে, প্রেমের নামে করে সুশান্তের কাছ থেকে অর্থ আদায় করতেন রিয়া। এমনই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে প্রয়াত অভিনেতার বিশেষ বান্ধবীর বিরুদ্ধে। পাশাপাশি সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে  রিয়ার বিরুদ্ধে। সুশান্তের কাছ থেকে একাধিক দফায় রিয়ার পরিবার অর্থ আদায় করেছে বলেও দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ। রিয়ার পাশাপাশি আরও ৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এমনটাই জানাচ্ছে ভারতীয় একাধিকা গণমাধ্যম।

সুশান্তের বাবা কে কে সিংয়ের শারীরিক অবস্থা বর্তমানে ভালো নয়। সেই কারণে তিনি মুম্বাইতে গিয়ে লড়াই করতে পারবেন না। ফলে পাটনাতেই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শিগগিরই বিহার পুলিশের পক্ষ থেকে রিয়াকে জিজ্ঞসাবাদের জন্য মুম্বাইতে রওনা দেওয়া হবে বলেও জানা গেছে।

এদিকে সুশান্তের মৃত্যুর একমাস পর নিজের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে প্রথম স্টেটাস শেয়ার করেন রিয়া চক্রবর্তী। শুধু তাই নয়, ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যাতে সুশান্তের আত্মহত্যার ঘটনার তদন্তে সিবিআই তদন্তের অনুমতি দেন, সে বিষয়ে আবেদন জানান অভিনেত্রী।

তবে রিয়া কেন নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে ওই আবেদন করেন, তা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন সুশান্তের বিশেষ বান্ধবী।

অভিনেতা এনায়েত শিপুল এখন নাটক পরিচালনায়
                                  

বিনোদন প্রতিবেদক : চাঁদপুরের বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠী, পরবর্তীতে নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের সাথে মঞ্চ নাটক। এরপর গাজী রাকায়াতের হাত ধরে `পরিবার ও একটি কোম্পানী` ধারাবাহিক নাটকের মাধ্যমে টিভি নাটকে যাত্রা শুরু করেন এনায়েত শিপুল।

এরপর মাসুম আজীজ, মেজবাউর রহমান সুমন, সাজ্জাদ সুমনের পরিচালনায় কাজ করেন অসংখ্য নাটকে। `ঘুণপোকা`, `গ্রহণকাল`, `পিচ্চি হাজতি`, `ভেল্কী`, `ট্রানজিস্টার`, `এঙ্গেজমেন্ট`, `দক্ষিনায়নের দিন`, `তারপর পারুলের দিন`, তার উল্লেখযোগ্য নাটক।

এবার আসন্ন ঈদুল আযহায় নির্মাতা হিসেবে হাজির হতে চলেছেন গুনী এই অভিনেতা।

শিপুল জানান, ‘গালে হলুদ’ নামে সাত পর্বের একটি ধারাবাহিক নাটক পরিচালনা করছেন তিনি। এখন পর্যন্ত নাটকটির প্রায় সকল কাজ শেষ হয়েছে। আগামী ঈদুল আযহায় মাই টিভিতে এটি প্রচারিত হবে।

তিনি বলেন, সামনে ভালো মানের আরো কিছু কাজ করার ইচ্ছা আছে। আশা করি, পরিচালনার মধ্য দিয়ে নিজেকে নতুন ভাবে খুঁজে পাবো।

হঠাৎ করে নির্মাণে আসার ব্যাপারে শিপুল বলেন, নাট্যাঙ্গন আমার খুব ভালো লাগে। যখন শুটিং করি, তখন নিজেকে একটা ফ্রেমে দেখতে ভালো লাগে। কম্পোজিশন, কালার, ডিরেকশন- সবকিছুর একটা মেলবন্ধনই তো এই জগৎ। তাই এই জায়গাটার প্রতি দুর্বলতা আগে থেকেই ছিল।

মাহফুজুর রহমান রচিত এবং এনায়েত শিপুল পরিচালিত হাসির নাটক `গালে হলুদ`। নাটকটি ঈদের দিন থেকে একটানা সাতদিন প্রচারিত হবে। প্রচারের সময় রাত ৯টা ২০ মিনিট।

আজই বিয়ে করবাে-এই অভিপ্রায়ে ঘর থেকে বেরিয়ে আসা গীতির কাছে সার্থকের একটাই শর্ত, বাসর হবে ভাওয়ালের গভীর বনে, গাছের ডালে। চাঁদের আলােয় নববধুর শিশিরসিক্ত মুখ দেখতে চায় সে। এক রাতেই ওরা বুঝে ফেলে, বিশ্বব্যাপী সমস্যা সংকুল বন, পর্বত শীর্ষ, অরণ্য আর উত্থাল সাগরে ছড়িয়ে থাকা ভয়মাখা আনন্দগুলােই বিশ্বসেরা। বাবার অগাধ সম্পদের নরম বিছানায় গা এলিয়ে জীবনটা কাটিয়ে দেয়ার ভেতর কোনাে সুখ। নেই। তারা প্রতিজ্ঞা করে, বাকী জীবনটা কাটাবে সাগরে-অরণ্যে, পাহাড়ে-গিরিখাদে। আর এসব নিয়েই তরতর করে এগিয়ে যায় হাস্যরসের এই ঈদ-নাটক। নিজেদেরকে এই দুর্বার জীবনের জন্য প্রস্তুত করতে ওরা লেগে যায় বিচিত্র সব অনুশীলনে। করােনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গ্রামে প্রশিক্ষণ শুরু করে ওরা। সেখানেই সার্থকের বন্ধু হিমেলের সাথে ইতির পরিচয় হয়-যা পরে প্রেমের পথে গড়িয়ে যায়। শেষ দৃশ্যে এসে ওরা বুঝতে পারে, বাংলাদেশই তাদের শেষ ঠিকানা।

নাটকটিতে অভিনয় করেছেন অ্যালেন শুভ্র, ইভানা, তানভীর, সানিতা সামান্তা, শামিমা নাজনিন, হায়দার আলি, আজম খান, এস. এম. মহসিন, শামিম ভিস্তি, জুলফিকার চঞ্চল ও মহসিন রনিসহ আরাে অনেকে।

প্রধানমন্ত্রীর অনুদান শিল্পী নমিতা ঘোষের চিকিৎসা
                                  


স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী নমিতা ঘোষের ক্যান্সার ও চোখের চিকিৎসার জন্য ২১ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বুধবার এ তথ্য জানিয়ে বলেন, “শিল্পী নমিতা ঘোষের পরিবারের কাছে এই টাকার চেক পাঠিয়ে দেওয়া হবে।” একাত্তরের ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানী বাহিনীর গণহত্যা শুরু হয়, পরদিনই চট্টগ্রামে চালু হয় ‘স্বাধীন বাংলা বিপ্লবী বেতার কেন্দ্রের’ কার্যক্রম।

কালুরঘাট বেতারকেন্দ্র আক্রান্ত হলে সেখানকার ট্রান্সমিটারটি সীমান্ত পার করে নিয়ে যান অসীম সাহসী বেতারকর্মীরা। এরপর ভারত সরকারের কাছ থেকে পাওয়া ৫০ কিলোওয়াট ক্ষমতার একটি ট্রান্সমিটার নিয়ে একাত্তরের ২৫ মে কলকাতার বালিগঞ্জ রোডে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কার্যক্রম শুরু হয়।

এর চারদিনের মাথায় স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রে প্রথম নারী শিল্পী হিসেবে নিয়মিত সংগীত পরিবেশন শুরু করেন নমিতা ঘোষ, তখন তার বয়স ১৪ বছর। নমিতার মা জসোদা ঘোষ সে সময় রেডিওতে নিয়মিত সংগীত পরিবেশন করতেন। ঢাকায় পাকিস্তানি বাহিনীর গণহত্যা শুরু হলে ২৭ মার্চ বুড়িগঙ্গা পেরিয়ে কেরাণীগঞ্জ হয়ে কুমিল্লা দিয়ে আখাউড়া সীমান্ত পার হন তারা।

নরসিঙ্গরে শিল্পী আব্দুল জব্বার ও আপেল মাহমুদের সঙ্গে দেখা হয় নমিতার। তখন সেখানে মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্পে ক্যাম্পে গিয়ে গান গেয়ে অনুপ্রেরণা দেওয়ার পরিকল্পনা চলছিল।
আগরতলায় থাকতেই মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে একটি প্রামাণ্যচিত্রের কাজে যুক্ত হন নমিতা। পরে সেই প্রামাণ্যচিত্র যুদ্ধের সময় ভারতের বিভিন্ন সিনেমা হলে দেখানো হয়।

মে মাসে মায়ের সঙ্গে আগরতলা থেকে বিমানে করে কলকাতায় পৌঁছান নমিতা। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রথম প্রেস সচিব, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক আমিনুল হক বাদশার উৎসাহে যোগ দেন স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রে। স্বাধীনতা যুদ্ধের এই কণ্ঠযোদ্ধা দীর্ঘদিন ধরেই ক্যান্সার ও চোখের জটিল অসুখে ভুগছেন।

ইহসানুল করিম বলেন, শিল্পী নমিতা ঘোষ সশরীরে উপস্থিত হতে না পারায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তার চিকিৎসার জন্য অর্থ পরিবারে কাছে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

সত্যিই কি সুশান্ত বিষণ্ণতায় ভুগছিলেন? পুলিশের সন্দেহ
                                  

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় এবার প্রয়াত অভিনেতার চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করবে পুলিশ। সুশান্তের মৃত্যুর পর তাঁর চার্টার রোডের ফ্ল্যাট থেকে ওই চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন উদ্ধার করে পুলিশ। সেখান থেকেই জানা যায়, সম্প্রতি অবসাদে ভুগতে শুরু করেছিলেন সুশান্ত। তার ফলেই তিনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিচ্ছিলেন। অবসাদ কাটানোর ওষুধও খাচ্ছিলেন সুশান্ত। সেই অনুযায়ী, সুশান্তের চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করা।

জানা গেছে, ওই চিকিৎসককে আগই জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারত পুলিশ। কিন্তু সুশান্তের অবসাদ সম্পর্কে অন্যরা কী বলেন, তা জানার জন্যই চিকিৎসককে পুলিশ পরে জিজ্ঞাসাবাদ করছে বলে জানা গেছে। 

প্রসঙ্গত, কেউ তাঁর ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দিতে চাইছে। বন্ধুদের প্রায়শই ওই কথা বলতেন সুশান্ত। অভিনেতার সেই ভয় কি অমূলক ছিল, না সত্যিই এমন কোনও ঘটনা ঘটে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

অঙ্কিৎার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকে তিনি ভেঙে পড়েছেন বলে ওই চিকিৎসককে জানান সুশান্ত। শুধু তাই নয়, অঙ্কিৎার সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে দিয়ে তিনি ভুল করেছেন বলেও নাকি ওই চিকিৎসককে জানিয়েছিলেন সুশান্ত। যে খবর প্রকাশ্যে আসতেই হইচই শুরু হয়ে যায়।

গত ১৪ জুন ব্যান্দ্রায় নিজের চার্টার রোডের ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন সুশান্ত সিং রাজপুত। কেন আত্মহত্যা করলেন বলিউডের এই তরুণ অভিনেতা, তা নিয়ে হইচই শুরু হয়ে যায় গোটা ভারত জুড়ে। 

এমনকী, সুশান্তের মৃত্য়ুর তদন্তভার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার হাতে দিতে হবে বলেও দাবি জানাতে শুরু করেন প্রয়াত অভিনেতার ভক্তরা।

জায়েদ খানকে প্রযোজক সমিতির কারণ দর্শানোর নোটিশ
                                  

 ‘সংগঠনের স্বার্থ বিরোধী কর্মকাণ্ডের’ অভিযোগে চিত্রনায়ক ও প্রযোজক জায়েদ খানকে কারণ দর্শানোর নোটিস পাঠিয়েছে চলচ্চিত্রের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি।

প্রযোজক সমিতি জানিয়েছে, আশানুরূপ বক্তব্য না পেলে, অভিযোগ প্রমাণিত হিসেবে ধরা হবে। যার ফলে সংগঠন বিরোধী অপরাধে জায়েদ খোয়াতে পারেন সদস্যপদও।
জানা যায়, সোমবার জায়েদ খানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়, ‌চলচ্চিত্র নির্মাণে শৃঙ্খলা আনতে ও নির্মাণ ব্যয় কমাতে গত অক্টোবরে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করেছে সমিতি।

এটি বাস্তবায়ন হলে চলচ্চিত্র নির্মাণে ন্যূনতম ১৫ লাখ টাকা কমে যাবে। কিন্তু এই কাজে অসহযোগিতা করতে জায়েদ বিভিন্ন শিল্পী ও প্রযোজককে উৎসাহিত করছেন। এমনকী ‍মুঠোফোনে এসএমএসও পাঠাচ্ছেন তিনি।

এদিকে নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেন, গত ৭ মার্চ কার্যনির্বাহী পরিষদের ৭ম সভায় তাকে কারণ দর্শানো নোটিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সংগঠনের স্বার্থের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ার অভিযোগ এসেছে।

বিষয়টি নিয়ে আজও বেশ কয়েকটি সমিতি বৈঠক করবে বলে জানা গেছে। তবে এতে থাকছে না শিল্পী সমিতির কেউ।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে মোহাম্মদ হান্নানের ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে অভিষেক হয় জায়েদের। ২০১৭ সালে তিনি নিজেই প্রযোজনায় আসেন। তৈরি করেন ‘অন্তরজ্বালা’ ছবি। পাশাপাশি টানা দুই মেয়াদে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জায়েদ খান।

‘আমি মৃত্যুশয্যায়’, পোস্ট করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মারা গেলেন নায়িকা
                                  

 ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত হেরে গেলেন বলিউড অভিনেত্রী দিব্যা চৌকসি। অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবর ফেসবুকে নিশ্চিত করেছেন তার ফুপাতো বোন সৌম্যা অমিশ বর্মা। তিনি জানান, ক্যানসারেরই মৃত্যু হয়েছে দিব্যা চৌকসির।

তিনি বলেন, আমি অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি আমার ফুপাতো বোন দিব্য চৌকসি খুব অল্প বয়সে আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন ক্যানসারের কারণে। লন্ডন থেকে অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নিয়েছিল দিব্যা, মডেল হিসেবেও পরিচিত ছিল। ঈশ্বরের কাছে তার আত্মার শান্তি কামনা করি।
২০১৬ সালে হ্যায় আপনা দিল তো আওয়ার মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন দিব্যা। মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে নিজের শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানিয়েছিলেন দিব্যা।

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লেখেন, আমি মৃত্যুশয্যায় রয়েছি। তিনি লেখেন, আমি যা বলতে চাইছি সেটা হয়তো শব্দ দিয়ে বোঝাতে পারব না। গত কয়েক মাস যাবৎ আমি পালিয়ে বেড়িয়েছে, চারদিকে অনেক প্রশ্ন...সময় এসে গেছে তোমাদের সকলকে বলবার-আমি মৃত্যুশয্যায়…কিন্তু এমনটাও ঘটে, আমি খুব শক্তিশালী যদিও...ফিরে আসব এমন এক জীবন নিয়ে যেখানে কোনো যন্ত্রণা থাকবে না। দয়া করে আর কোনও প্রশ্ন করবেন না। ঈশ্বর জানেন, তোমরা সকলে কতখানি গুরুত্বপূর্ণ ছিলে``।

গত ১৪ মে দিব্যা তার শেষ ইনস্টাগ্রামপোস্ট করেন। তারপর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আর তাকে দেখা যায়নি।

এদিকে শেষ টুইটে চিকিৎসার জন্য সকলের কাছে সাহায্য চেয়েছিলেন। জিজ্ঞাসা করেছিলেন কেউ মিস্টলিটো থেরাপি সম্পর্কে জানেন কিনা।

করোনায় আক্রান্ত অমিতাভ বচ্চন
                                  

করোনায় আক্রান্ত কিংবদন্তি বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। শনিবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যায় অমিতাভ বচ্চনকে মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। অমিতাভ নিজেই এই খবর নিজের ট্যুইট হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন।

টুইটে তিনি জানান, তিনি করোনা পজিটিভ। এই কারণে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার পরিবার ও যারা বাড়িতে কাজ করেন, তাদেরও পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে এখনও করোনা পরীক্ষার ফলাফল আসেনি। টুইটারে বিগ বি জনসাধারণের কাছে আবেদন করেন, গত দশ দিনে তার সান্নিধ্যে যারা এসেছেন, তারা যেন কোভিড পরীক্ষা করেন।



এর আগে গত বছরের অক্টোবরেও এই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অমিতাভ। তখন জানানো হয়েছিল, রুটিন চেক-আপের জন্যই তিনি ভর্তি হন। তার শরীর ঠিক আছে। কিন্তু এবার কী হল, সেটা এখনও স্পষ্ট নয়।

অমিতাভকে শেষবার দেখা গিয়েছে সুজিৎ সরকারের ছবি ‘গুলাবো সিতাবো’-তে। এই ছবিতে তার সঙ্গে অভিনয় করেছেন আয়ুষ্মান খুরানা। লকডাউনের জেরে ছবিটি হলে মুক্তি পায়নি। আমাজন প্রাইম ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ছবিটি। ‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি’-তেও দেখা যাচ্ছে অমিতাভকে। এরপর ‘চেহরে’, ‘ব্রহ্মাস্ত্র’, ‘ঝুন্ড’-এর মতো ছবিতে দেখা যাবে বলিউডের মেগাস্টারকে।

মন ভালো নেই ববিতার
                                  

মানসিকভাবে কিছুটা অবসাদগ্রস্ত সত্যজিৎ রায়ের ‘অনঙ্গ বউ’। এমনিতে তিনি একা মানুষ। গুলশানের ফ্ল্যাটে একাই থাকেন। করোনা এই একাকিত্বকে আরেকটু বাড়িয়ে দিয়েছে। তার ওপর সম্প্রতি হারিয়েছেন বেশ কয়েকজন নিকট স্বজনকে। প্রিয়জন হারানোর ব্যথায় কাতর ৬৬ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী। ফোনের ওপারে তাঁর কণ্ঠে ঝরে সে ব্যথার সুর, ‘আমার চাচা-ফুফুদের পরিবার বেশ বড়। কাজিনদের পরিবারও কম না। চাচাতো বোনের ছেলে, ফুফাতো বোনসহ আমার পরিবারের পাঁচ-ছয়জনকে কেড়ে নিয়েছে করোনা। ভাগ্নেটার বয়স সবে চল্লিশ। এটা কি মৃত্যুর বয়স হলো? মনটা ভালো রাখি কী করে!’

মন খারাপের নেপথ্যে আরো অনেক কারণ। বড় বোন অভিনেত্রী সুচন্দা করোনায় আটকা পড়েছেন আমেরিকায়। তিন ভাই থাকেন তিন দেশে। আর একমাত্র ছেলে অনিক কানাডায়। অবশ্য ছোট বোন অভিনেত্রী চম্পা ঢাকাতেই আছেন। বলেন, ‘থাকলে কী হবে, দেখা-সাক্ষাৎ তো নেই কারো সঙ্গে। ফোনেই যা কতটুকু কথা। বছরে দুইবার ছেলের কাছে গিয়ে বেড়িয়ে আসতাম। মে মাসে যাওয়ার কথা ছিল। করোনার কারণে সেটাও পারিনি। ছেলেটাকে দেখার জন্য ব্যাকুল হয়ে আছি। অনিক ওখানকার বড় চাকুরে। বাসায় বসেই এখন অফিস করছে। ও ওই দেশের নাগরিক। আমি তা নই। আগে ভ্রমণ ভিসায় যেতাম। এ পরিস্থিতিতে আমাকে ওই দেশে ঢুকতে দেবে বলে মনে হয় না। কবে অনুমতি পাব, সেটাও জানি না। করোনা যে কত দিন থাকবে, তারও তো নিশ্চয়তা নেই।’

করোনা থেকে নিজেকে রক্ষায় যা যা করা প্রয়োজন তার সবই করছেন দেশবরেণ্য এই অভিনেত্রী। ‘প্রায় চার মাস স্বেচ্ছা ঘরবন্দি আছি। বাসায় দুজন গৃহপরিচারিকা আছেন। তবু বাসার কাজ নিজেই করি। আমার ধারণা, আমি যতটা করোনা সচেতন, গৃহপরিচারিকারা হয়তো ততটা নন। শোবার ঘর ও বসার ঘরের সঙ্গে লাগোয়া যে ছাদখোলা বারান্দা, সেখানে রীতিমতো ক্ষেতখামারি করছি। নানা রকম ফুল-ফলের গাছও আছে। চাষ করছি শাকসবজিও। দিনের বড় একটা সময় সেখানে ব্যস্ত থাকি। গাছে পানি দেওয়া, আগাছা সাফ করা। বাইরের শাকসবজি একেবারেই খাই না। লাল শাক, পুঁই শাক আমার বাগান থেকেই পাই।’

এ বিরুদ্ধ সময়টায় বাইরের কেউ তাঁর বাসায় আসছেন না। ইলেকট্রিশিয়ান, দারোয়ান কেউ না। কাঁচাবাজারের দরকার পড়লে দারোয়ানদের কেউ যায় সুপারশপে। দরজার সামনে বাজারের ব্যাগ রেখে গেলে পরে বাসায় এনে জীবাণুমুক্ত করে ব্যবহার করেন। মাছ-মাংস আনলে নিয়ম মেনে পানিতে ভিজিয়ে রাখেন দীর্ঘ সময়। আন্তর্জাতিক খ্যাতি পাওয়া বাংলাদেশের এই অভিনেত্রী কতটা সচেতন সেটা বোঝা গেল তাঁর কথায়, ‘ব্যাংক থেকে টাকা তুলে এনেই আলমারিতে ঢুকিয়ে রাখি না। আগে কড়া রোদে ভালোমতো রেখে দিই কয়েক ঘণ্টা। বলা তো যায় না কোন ফাঁকে করোনা ঢুকে পড়ে বাসায়!’

কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যাখ্যাও দিলেন আটবার জাতীয় পুরস্কার পাওয়া এই অভিনেত্রী, ‘আমার আত্মীয়-স্বজনদের যাঁরা করোনায় মারা গেছেন, তাঁদের কেউই অসচেতন ছিলেন না। নিয়ম মেনে বাসাতেই ছিলেন। হয়তো লিফটের বাটন চেপে বাড়ির ছাদে উঠেছেন, অজান্তে সামান্য কিছু ভুল করে ফেলেছেন, তাতেই আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন। আমি সজ্ঞানে সে রকম কোনো ভুল করতে চাই না।’

দীর্ঘদিন টানা বাসায় অবস্থান এবং পরিপার্শ্বের কারণে অবসাদ কাটাতে, শারীরিক ও মানসিকভাবে শক্ত থাকতে প্রতিদিন ঘরেই অন্তত দেড় ঘণ্টা হাঁটাহাঁটি করেন। চিকিৎসকের পরামর্শে ভিটামিন ‘সি’ ও ভিটামিন ‘ডি’ খাচ্ছেন। ববিতা বিশ্বাস করেন, করোনা মানুষের পাপের ফল। বলেন, ‘প্রকৃতির প্রতি মানুষের নিষ্ঠুর আচরণের বদলা নিচ্ছে করোনা। আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি, তিনি যেন আমাদের ক্ষমা করেন।’

বলিউডে ফের শোকের ছায়া, চলে গেলেন ‘মাস্টারজী’ সরোজ খান
                                  

 দুঃসংবাদ যেন কোনও ভাবেই পিছু ছাড়ছে না বলিউডের। ফের একবার শোক সংবাদ মুম্বাই সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির জন্য। চলে গেলেন না ফেরার দেশে জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার সরোজ খান।

গত ১৭ জুন তীব্র শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বলিউডের নামজাদা কোরিয়োগ্রাফার সরোজ খান। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ৭১ বছর বয়সী এই কিংবদন্তী। সরোজ খান ভর্তি ছিলেন মুম্বাইয়ের গুরু নানক হাসপাতালে।
১৯৪৮ সালের ২২ নভেম্বর মুম্বাই শহরে জন্ম তার। তার আসল নামছিল নির্মলা নাগপাল। মাত্র তিন বছর বয়সে শিশু শিল্পী হিসেবে বলিউডে তার ক্যারিয়ারের সূচনা। ১৯৫০-এর দশকে তিনি যোগ দেন ব্যাক আপ ডান্সার হিসেবে। দীর্ঘ সময় কাজ করেছেন তত্‍কালীন প্রখ্যাত কোরিওগ্রাফার বি সোহনলালের সঙ্গেই। তাকেই তিনি আজীবন নিজের মাস্টারজী মেনে এসেছেন।

স্বাধীন কোরিওগ্রাফার হিসেবে তার কাজ শুরু ১৯৭৪ সালে গীতা মেরা নাম ছবি দিয়ে। তবে তার ক্যারিয়ার উড়ান নেয় শ্রীদেবী এবং মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে কাজের পরই। ১৯৮৭ সালে মিস্টার ইন্ডিয়া, ১৯৮৬ সালের নাগিনা, ১৯৮৯ সালে চাঁদনি, ১৯৮৮ সালে তেজাব এবং ১৯৯০ সালে থানেদার ছবি তাকে বলিউডে প্রতিষ্ঠা দেয়। দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে, হাম দিল দে চুকে সনম, দেবদাস, জব উই মেট, মণি কর্নিকার মতো ছবির নাচের দৃশ্যও উজ্জ্বল তার অবদানের জন্যেই।

বহু বছরের বিরতির পর ফের তিনি তার পছন্দের অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে কাজ করেন Kalank ছবিতে। সেই তার শেষ কাজ।

তার অনন্য সব নাচের স্টেপ আজও সমান জনপ্রিয় বলিউড এবং সাধারণ মানুষের কাছে। তার দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এমন একটা সময় ছিল যখন নায়িকারা তিনি ছাড়া আর কারও সঙ্গে কাজ করতেও রাজি হতেন না। ২০০৫ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত সরোজ খান একটি টিভি রিয়ালিটি শো-এর বিচারকও ছিলেন।

২০২০ সালটা বলিউডের জন্য খুবই খারাপ যাচ্ছে। বছরের শুরু থেকেই একের পর এক মৃত্যু সংবাদের শোকস্তব্ধ টিনসেল টাউন। প্রথম ধাক্কাটা এসেছিল ইরফান খানের মৃত্যু দিয়ে। তার প্রয়াণের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতে মারা যান ঋষি কাপুর। দুই কিংবদন্তী অভিনেতার মৃত্যুশোক বলিউড যখন ধীরে ধীরে কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে, তখনই ১৪ জুন এল আরও বড় ধাক্কা। বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটের গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত।

৩ হাজার পরিবারকে ৬ দফা খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন ডিপজল
                                  

মনোয়ার হোসেন ডিপজল একজন খল অভিনেতা হিসেবে আলোচিত-সমালোচিত যেমন; আবার `চাচ্চু` ধরনের সিনেমার জন্য নিজের অন্য একটি চেহারাও দৃশ্যমাণ করেছেন দেশীয় চলচ্চিত্র দর্শকদের মাঝে। আর ব্যক্তি ডিপজল কেমন? সেটা হয়তো আপেক্ষিক। কখনো ঢাকা সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড কমিশনার হিসেবে সমালোচিত হয়েছেন আবার মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রশংসাও পেয়েছেন।

দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সময় দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেশের অনেক তারকাই এগিয়ে আসেন। আবার অনেক শীর্ষ তারকারাও কোয়ারেন্টিন থেকে আলোর মুখ দেখেননি। অর্থাৎ মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায়নি। দেশীয় চলচ্চিত্রের শীর্ষ তালিকায় থাকা বেশ কয়েকজন চিত্রনায়ক এ জন্য নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখেও পড়েন।

তবে এদিক থেকে একজন খল অভিনেতা হয়েও মনোয়ার হোসেন ডিপজল ছিলেন অনন্য। গত রমজান মাসে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে ডিপজল নগদ দুই লাখ টাকা প্রদানসহ ৬ দফা শিল্পীদের খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন।

`শিল্পী সমিতিতে তো অল্প কয়েকজন মানুষ, ৩০০-৪০০ হইবো। ওইটা কোনো সমস্যা না। শিল্পী গো লিগা সমস্যা হইবো না। তয় আমি আমার এলাকায় যতটুক পারছি দিছি। এহন তো দুর্যোগ তেমন নাই। আবার মানুষজন বিপদে পড়লে আমি হেল্প করমু`- কালের কণ্ঠের সাথে আলাপকালে এভাবেই ব্যক্ত করছিলেন করোনাকালের সহায়তা সম্পর্কে।

ডিপজল বলেন, `আল্লাহ আমারে যতটুকু দিছে আমি সেইখান থিকা যতটুকু পারমু দিমু। সামনে কুরবানি আইতাছে। এইবার বেশি কুরবানি দিমু না। যতটুক না দিলেই হয় না, ততটুক দিমু। তয় এই ভাইরাসের কথা তো কওন যায় না। কুরবানির আগে যদি চইলা যায় তয় এইবার আমি আরো বেশি কইরা কুরবানি দিমু। গরু রেডি রাখছি, হয়তো আরো কিছু কিনতে হইবো।`

ডিপজল সহায়তা করেছেন মিরপুর, গবতলী এলাকার ( ঢাকা উত্তরের ৯ নম্বর ওয়ার্ড) দেড় হাজার পরিবারকে। কার্যত লকডাউনের সময় প্রতিটি পরিবারকে ৬ দফা সহায়তা করেছেন। যার প্রতিটি দফায় ৫ কেজি চাল, ডাল, লবণ ও আনুষাঙ্গিক প্রয়োজনীয় জিনিসঅপত্র দিয়েছেন। একইভাবে দেড় হাজার পরিবারকে সসহায়তা দিয়েছেন সাভারের ফুলবাড়িয়া এলাকায়।

ডিপজল বুধবার দুপুরে কালের কণ্ঠকে বলেন, `আসলে ভাই আমি তো শুধু চলচ্চিত্রের মানুষের কথা ভাবতাছি আর অন্য মানুষের কথা ভাবতাছি না, এমুন তো না। আমি আমার এলাকার মানুষজনের পাশে সব সমায় ছিলাম, আছি। দ্যাশের মানুষ আমারে অভিনেতা হিসাবে চিনে।, কিন্তু আমি তৈ জনগণের প্রতিনিধি আছিলাম। তাগো লিগা তো আমার কর্তব্য আছে। সাভারের ফুলবাড়িয়া এলাকায় আমার শুটিং স্পট আছে। তার আশেপাশে খুব বেশি মানুষ নাই। আমি দেড় হাজারের মতো পরিবার পাইছি। তাগো লিগা আমি বিভিন্ন সময় প্রয়োজন মতো চাউল ডাউল পাডাইছি।`

ফুলবাড়িয়াতেও ডিপজল ৬ দফা সহায়তা করেছেন বলে জানা গেছে। যার মধ্যে প্রতি দফায় ৫ কেজি চাল, ডাল, তেল লবণ সহ আনুষাঙ্গিক দ্রব্যাদি ছিল। চলচ্চিত্র নিয়েও চিন্তিত ডিপজল বললেন, `এই সংকট কাইটা যাউক তারপরে দেহা যাউক আমগো ফিল্মের কী হয়। আমি আমার দিক থন সর্বোচ্চ হেল্প করুম।`

১৫ জুন, ১৯৫৮ সালে ঢাকার মিরপুরের বাগবারিতে জন্মগ্রহণ করেন। চলচ্চিত্র পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবরের হাত ধরে চলচ্চিত্রে আগমন ঘটে তার।  তিনি ফাহিম শুটিং স্পট, এশিয়া সিনেমা হল, পর্বত সিনেমা হল, জোবেদা ফিল্মস, পর্বত পিকচার্স-২, ডিপজল ফুড ইন্ডাস্ট্রিজের স্বত্বাধিকারী তিনি বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে সক্রিয়। প্রথমে খল চরিত্রে অভিনয় করলেও চাচ্চু চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তিনি ভালো চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এছাড়াও মা-বাবাকে হারানোর বেদনা থেকে তিনি একটি বৃদ্ধাশ্রমও গড়ে তুলেছেন।

কি কারণে মহেশ ভাটের কাছে যেতেন সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া?
                                  

মহেশ ভাটের সঙ্গে সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সম্পর্ক ঠিক কি রকম ছিল?‌ তাই নিয়েই এখনো তোলপাড় হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া। একের পর এক ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে বারবার। কিন্তু কেমন ছিল মহেশ ভাট আর রিয়া চক্রবর্তীর সম্পর্ক?‌ কেন তিনি মহেশ ভাটের কাছে যেতেন? এই নিয়েই মুখ খুলেছিলেন সুহিত্রা সেনগুপ্ত। যিনি একসময়ে মহেশ ভাটের অ্যাসোসিয়েট হিসেবে কাজ করতেন।

সুহিত্রা সেনগুপ্ত জানিয়েছিলেন, রিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একটা সুসম্পর্ক তৈরি হয়েছিল। যে কারণে বিভিন্ন সময়ে মহেশ ভাটের থেকে হয়ত উপদেশ গ্রহণ করতেন রিয়া। একটা সময়ের পর যখন সুশান্ত অবসাদগ্রস্থ হয়ে পড়েন, তখন মহেশ ভাটই রিয়াকে বলেন সম্পর্ক থেকে সরে আসতে। একেবারে অভিভাবকের মতো বুঝিয়ে বলেন বেশিদিন সুশান্তের সঙ্গে থাকলে সেও পাগল হয়ে যাবে।

যে ছবিগুলো ভাইরাল হয়েছে মহেশ ভাট ও রিয়া চক্রবর্তীর- তার মধ্যে একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন রিয়া। ২০১৮ সালে, লিখেছিলেন, ‘‌হ্যাপি বার্থডে মাউ বুডঢাহ!‌ স্যার, আপনি আমাকে ভালোবেসে সামলেছেন, শিখিয়েছেন কিভাবে উড়তে হয়।’ বোঝা যায়, দু’‌জনের মধ্যে ছিল আন্তরিকতার এক সম্পর্ক।


   Page 1 of 9
     বিনোদন
রামমন্দির নয়, ভ্যাকসিন জরুরি- দেব
.............................................................................................
সুশান্তের মৃত্যুর পরই অভিনেতার ডায়েরির বেশ কিছু পাতা ছিঁড়ে ফেলা হয়!
.............................................................................................
প্রশংসা পাচ্ছে ঈদের নাটক ‘মাস্ক’
.............................................................................................
একটি ফোন আসে, সুশান্তকে জানান; এরপরেই আত্মহত্যা
.............................................................................................
মালেক আফসারীর ২৬ তম চলচ্চিত্রে হিরো আলম
.............................................................................................
আত্মহত্যা প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তের বাবার এফআইআর
.............................................................................................
অভিনেতা এনায়েত শিপুল এখন নাটক পরিচালনায়
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর অনুদান শিল্পী নমিতা ঘোষের চিকিৎসা
.............................................................................................
সত্যিই কি সুশান্ত বিষণ্ণতায় ভুগছিলেন? পুলিশের সন্দেহ
.............................................................................................
জায়েদ খানকে প্রযোজক সমিতির কারণ দর্শানোর নোটিশ
.............................................................................................
‘আমি মৃত্যুশয্যায়’, পোস্ট করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মারা গেলেন নায়িকা
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত অমিতাভ বচ্চন
.............................................................................................
মন ভালো নেই ববিতার
.............................................................................................
বলিউডে ফের শোকের ছায়া, চলে গেলেন ‘মাস্টারজী’ সরোজ খান
.............................................................................................
৩ হাজার পরিবারকে ৬ দফা খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন ডিপজল
.............................................................................................
কি কারণে মহেশ ভাটের কাছে যেতেন সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া?
.............................................................................................
হিরো আলমের বিরুদ্ধে `অনৈতিক` প্রস্তাবের অভিযোগে তরুণীর জিডি
.............................................................................................
লকডাউনে ওজন কমিয়েছি: অপু বিশ্বাস
.............................................................................................
বাবাকে নিয়ে টুইঙ্কেলের পোস্ট
.............................................................................................
সুশান্তের সুইসাইড নোট মেলেনি, পরিবারের দাবি সিবিআই তদন্তের!
.............................................................................................
মিডিয়াকে বিদায় জানালেন সুজানা
.............................................................................................
আত্মহত্যা করেছেন বলিউড হিরো সুশান্ত সিং
.............................................................................................
ঢাকার চলচ্চিত্রে বলিউডের নোরা ফাতেহি
.............................................................................................
করোনার সংকটেই মুক্তি পাচ্ছে জাহ্নবীর সিনেমা
.............................................................................................
অভিযোগ করলেন শ্রীলেখা
.............................................................................................
আতঙ্কিত এ্যানি
.............................................................................................
অন্যরকম পার্নো
.............................................................................................
অসহায় শিল্পীদের ৪৫ লক্ষ টাকা দিলেন অক্ষয়
.............................................................................................
ঈদে আরও `সুন্দর পৃথিবী`র প্রার্থনা সানিয়া মির্জার
.............................................................................................
বলিউডে আসছেন মিঠুন চক্রবর্তীর মেয়ে!
.............................................................................................
ভয়ংকর রাত ছিল: রুক্মিণী
.............................................................................................
এবার ঈদে `ইত্যাদি`র ব্যতিক্রমী আয়োজন
.............................................................................................
সোনাক্ষীর উদ্যোগ
.............................................................................................
রমজানে দুস্থদের খাবার দিচ্ছেন সানা খান
.............................................................................................
রান্না শিখছি আর প্রচুর সিনেমা দেখছি: পূজা
.............................................................................................
এবার পৃথিবীর বাইরে হবে টম ক্রুজের শ্যুটিং
.............................................................................................
মা হলেন কোয়েল
.............................................................................................
লকডাউনে নতুন গানে পড়শী
.............................................................................................
প্রতিদিন ২৫ হাজার রোজাদারকে খাওয়াবেন সোনু
.............................................................................................
এটা বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে কথা বলার সময় নয়: পার্নো
.............................................................................................
করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি নুসরাতের বাবা
.............................................................................................
এবার করোনা কেড়ে নিল হলিউডের কালজয়ী অভিনেতার প্রাণ
.............................................................................................
রাতের আঁধারে ত্রাণ নিয়ে ছুটছেন নায়িকা
.............................................................................................
অনলাইনে মাধুরীর ফ্রি নাচের ক্লাস
.............................................................................................
কণিকা কাপুরের করোনাভাইরাস ড্রামা চলছেই
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত জেমস বন্ডের নায়িকা
.............................................................................................
সিনেমার পোস্টারে ‘তিতুমীর’
.............................................................................................
বড় পর্দায় বঙ্গবন্ধু চরিত্রে আসছেন আরুক মুন্সি
.............................................................................................
শিঙাড়া বিক্রেতার মেয়ে হয়ে আজকের নেহা কক্কর
.............................................................................................
‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমায় দেখা যাবে কলকাতার দর্শনাকেও
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD