| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * দৌলতদিয়ায় আটকা ঢাকামুখী কয়েকশ ছোট গাড়ি   * ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে ভয়ংকর তথ্য দিলেন এই বিজ্ঞানী   * আল আকসায় হামলা: খেপেছেন এরদোয়ান   * দেশে কোনো মানুষই গৃহহীন থাকবে না বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা   * গিনির সোনার খনিতে ভূমিধস, অন্তত ১৫ জনের মৃত্যু   * করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আভাস পাচ্ছে বাংলাদেশ: কাদের   * অনির্দিষ্টকালের জন্য নেপালের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ   * ইউরোপে নিষিদ্ধ হচ্ছে বার্সা-রিয়াল-জুভেন্টাস!   * শবে কদরের বরকত লাভে ৪ আমল   * এবার রাজধানীতে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত  

   অর্থ-বাণিজ্য
  করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় তরমুজের বিক্রি কম, শঙ্কায় চাষিরা
 

জেলা প্রতিনিধি : চৈত্রের শুরুতেই নাটোরের বাজারে উঠেছে গ্রীষ্মকালীন ফল তরমুজ। তবে শুরুর আকাশচুম্বী দাম অর্ধেকে নেমে এসেছে মাত্র দুই সপ্তাহের ব্যবধানে। করোনা সংক্রমণ হঠাৎ বেড়ে যাওয়ায় কমেছে তরমুজের কেনাবেচা। তাই এবার বড় ধরনের লোকসানের আশঙ্কা করছেন তরমুজ চাষি ও ব্যবসায়ীরা। তাদের উদ্বেগ, করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে ক্রেতার অভাবে ক্ষেতেই পচবে তরমুজ।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্র জানা যায়, চলতি বছর জেলার সাতটি উপজেলায় ৫৯৯ হেক্টর জমিতে তরমুজের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে চলনবিল অধ্যুষিত গুরুদাসপুর, সিংড়া ও সদর উপজেলায় আবাদ বেশি হয়েছে। জেলায় এবার তরমুজ উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৪০ মেট্রিক টন। শিলাবৃষ্টি না হলে তরমুজের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তরমুজ চাষিরা বলছেন, তারা প্রাকৃতিক দুর্যোগের চেয়ে এবার করোনা নিয়ে বেশি উদ্বিগ্ন। অন্য বছরগুলোতে চৈত্রের শুরু থেকে মাঝামাঝি কয়েক দফা কালবৈশাখী ঝড় বা শিলাবৃষ্টি হলেও এবার তা হয়নি। তাই তরমুজের ভালো ফলন হয়েছে। ফলে কৃষক চৈত্রের শুরু থেকেই তরমুজ বিক্রি শুরু করেছেন। প্রথম সপ্তাহে বাজার ভালো থাকলেও করোনার প্রকোপ বাড়ায় হঠাৎ দাম অর্ধেক পড়ে গেছে তরমুজের। এতে পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীরা তরমুজ কেনা সীমিত করেছেন। দাম কমার কারণে ক্ষেতে থাকা বাকি তরমুজের বিক্রি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

অপরদিকে, তরমুজ পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীরাও সমান উদ্বিগ্ন করোনা সংক্রমণ নিয়ে। তারা বলছেন, বৈশাখ শুরুর এক মাস আগে থেকে ভোক্তারা তরমুজ কেনা শুরু করেন। শুরুর দিকে অবস্থাসম্পন্ন ভোক্তারা বেশি দামে হলেও তরমুজ কেনায় চাষিদের সঙ্গে চুক্তিভিত্তিক উৎপাদনে যান অনেক পাইকার। এবারও তার ব্যত্যয় হয়নি। ভালো দামের আশায় কোনো কোনো পাইকার বাজারে তরমুজ সরবরাহ শুরু করেছেন। বিক্রি বাড়ার আশায় অস্থায়ী মোকামগুলোতে তরমুজ মজুদ করা হচ্ছে। কিন্তু সপ্তাহখানেক চড়া দামে বিক্রি হওয়ার পরই কমতে শুরু করেছে তরমুজের দাম।

তারা আরও বলছেন, করোনা পরিস্থিতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়ার আশঙ্কায় তরমুজের টাকায় সেসব পণ্য কিনছেন ভোক্তারা। এতে মোকামগুলোতে শুরুতেই বিপুল পরিমাণ তরমুজ অবিক্রিত থেকে যাচ্ছে। পাশাপাশি, করোনা পরিস্থিতিতে ব্যয় কমাতে অন্য জেলার ব্যবসায়ীরা নিজ জেলায় উৎপাদিত তরমুজে ঝুঁকছেন। রফতানির পরিসর সংকুচিত হওয়ায় এবার তরমুজে লোকসান অনেকটাই নিশ্চিত।

শীর্ষ তরমুজ উৎপাদনকারী উপজেলা গুরুদাসপুর, সিংড়া ও নাটোর সদর ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে তরমুজ আসা শুরু হয়েছে। গ্রীষ্মের ফল তরমুজের পসরা সাজিয়ে অনেক মৌসুমি ব্যবসায়ী সড়ক-মহাসড়কের ধারে বসেছেন। গ্রামীণ হাট-বাজারসহ প্রায় সব এলাকার বাজারেই কমবেশি তরমুজ সরবরাহ থাকায় চাষি বা পাইকাররা এলাকার বাইরে তরমুজ নিচ্ছেন না।

গুরুদাসপুরের নাজিরপুর এলাকার তরমুজ চাষি আলতাব হোসেন বলেন, করোনার কারণে গতবার বিক্রির অভাবে ক্ষেতেই পচেছে তরমুজ। গত বছরের শেষ দিকে করোনার প্রকোপ কমায় এবার পাঁচ বিঘা জমিতে তরমুজের আবাদ করেছি। কিন্তু এবারও বিক্রি নিয়ে শঙ্কায় আছি।

তরমুজের পাইকারি ব্যবসায়ী শাহ আলম বলেন, চৈত্রের শুরুর দিকে ময়মনসিংহ, গাজীপুর, কুষ্টিয়া থেকে বড় ব্যবসায়ীরা এসে তরমুজ নিয়েছেন। বৈশাখ শুরুর আগের সপ্তাহে আরও বেশি বাইরের ব্যবসায়ীদের আসার কথা। কিন্ত সে তুলনায় এবার বিক্রি অনেক কম।

নাটোর শহরের তরমুজ বিক্রেতা সেলিম রেজা বলেন, এক সপ্তাহ আগে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি করেছি তরমুজ। এখন ২০ টাকা কেজিতেও ক্রেতা পাওয়া যাচ্ছে না। আমার মতো আরও ছোট ব্যবসায়ী আছেন যারা চাষিদের আগাম টাকা দিয়ে তরমুজের কিনে রেখেছেন। আমরা এখন বিক্রি নিয়ে চিন্তায় আছি।

চলনবিলের তরমুজ ব্যবসায়ী আজিজুল ইসলাম বলেন, এই মুহূর্তে করোনা না বাড়লে তরমুজের বিক্রি বাড়তো। ক্ষেতগুলোতে এখনো প্রচুর তরমুজ আছে। আবার বাজারেও বিক্রি কম। বাজারের অবিক্রিত তরমুজের সঙ্গে ক্ষেতের তরমুজ যোগ হলে দাম আরও কমে যাবে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক সুব্রত কুমার সাহা বলেন, তরমুজের ফলন এ বছর আশাব্যঞ্জক। কিন্ত কাঙ্ক্ষিত বিক্রি নির্ভর করছে ভোক্তার ক্রয় আচরণের ওপর। ভোক্তা কিনলে তরমুজ অবিক্রিত থাকবে না। তাছাড়া পরিস্থিতি বিবেচনায় গ্রীষ্মের শুরুতে চাহিদা কমলেও পরে বিক্রি বাড়তে পারে।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 90        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     অর্থ-বাণিজ্য
চালের বাজারে কিছুটা স্বস্তি, বেড়েছে মাছ-মুরগি-চিনির দাম
.............................................................................................
সময় বাড়ল ব্যাংক লেনদেনের
.............................................................................................
রিজার্ভ ছাড়াল ৪৫ বিলিয়ন ডলার
.............................................................................................
এবার সাতক্ষীরার ৫০০ মেট্রিক টন আম যাবে বিদেশে
.............................................................................................
পাইকারি মার্কেটেও খুচরা বেচাকেনার হিরিক
.............................................................................................
পাইকারিতে তরমুজের দাম কমেছে, তবে খুচরায় নেই তার প্রভাব
.............................................................................................
দাম কমেছে মুরগি ও ডিমের
.............................................................................................
এলপিজির দাম কমলো
.............................................................................................
শ্রমিকদের বেতন-বোনাস ১০ মের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে
.............................................................................................
করোনায় পোশাকশ্রমিকদের বেতন কমেছে ৩৫ শতাংশ
.............................................................................................
আরেক দফা ভোজ্যতেলের দাম বাড়াতে চান ব্যবসায়ীরা
.............................................................................................
দাম কমেছে মুরগি, শাক-সবজির
.............................................................................................
ব্যাংকিং কার্যক্রম সীমিত থাকবে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত
.............................................................................................
করোনায় মারা গেলে ব্যাংকাররা ৫০ লাখ টাকা পাবেন
.............................................................................................
পিপিই উৎপাদনে অনুদান দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক, আবেদন শুরু
.............................................................................................
সরবরাহ কম, ফলে চালের দামটা বেশি : অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
শেয়ারবাজারও খোলা : লেনদেন ১০টা থেকে সাড়ে ১২টা
.............................................................................................
খোলা থাকবে ব্যাংক, লেনদেন সাড়ে ৯টা থেকে দেড়টা
.............................................................................................
ছোলা, পেঁয়াজ, তেল, ডাল, চিনি ও খেজুরের দাম বেঁধে দেয়া হলো
.............................................................................................
কঠোর লকডাউনেও খোলা থাকবে পোশাক কারখানা
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop