| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * মতিঝিলে `বিচ্ছু বাহিনী`র ৫ সদস্য গ্রেফতার   * ফরিদপুরে করোনা-উপসর্গে আরও ১২ জনের মৃত্যু   * করোনাকালে ডেঙ্গু নিয়ে অবহেলা না করার অনুরোধ   * ফেরিতে উঠতে গিয়ে নদীতে পড়ে গেলেন ৩ যাত্রী   * করোনায় আরও ২২৮ জনের মৃত্যু   * মাস্কবিহীন কাউকে ছাড় দেয়া হচ্ছে না   * মহারাষ্ট্রে ভারি বৃষ্টি ও ভূমিধস, নিহত বেড়ে ১৩৮   * টিকা নিতে ১ কোটির বেশি মানুষের নিবন্ধন   * দৌলতদিয়ায় উভয়মুখী যাত্রীর চাপ   * পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা: ফেরির ২ চালককে দায়ী করে প্রতিবেদন  

   উপ-সম্পাদকীয়
  পলাশীর ট্রাজেডি থেকে শিক্ষাই শান্তির পথের সন্ধান মিলবে!
 

মিয়া আবদুল হান্নান : আজ ২৩ জুন এইদিনে ১৭৫৭ ঈসায়ী পলাশীর প্রান্তরে খৃষ্টান, ইহুদী, নাছারা আর মূর্তিপূর্জারীরা মুনাফেক মীর জাফরের মাধ্যমে নবাব সিরাজ-উদ-দৌলাকে শুধু হত্যাই করেই ক্ষ্যান্ত হয় নাই,তারা স্বাধীনতা, সার্বাভৌত্বকে শৃঙ্খলিতই করে নাই! এ অঞ্চলের শান্তি বিঘ্ন করতে মুসলমানদের চরিত্রহন,আর জুলুম,নিপীড়ন নির্যাতনও চালায়। ২৬৪ বছর আগে এ অঞ্চলের মানুষকে গোলামির জিঞ্জির পরায়! তা থেকে এই জাতি আজও মুক্তির পরির্বতে আরও কঠিন ভাবে জিঞ্জিরে আবদ্ধ হচ্ছে! সেদিন অত্যান্ত সুক্ষ ভাবে মুসলমানদের মাথায় কাঠাল ভেঙে হিন্দুজুলুম বাজরা তা ভোগ করে। মুসলমানদের জমিদারিত্ব কেড়ে নিয়ে হিন্দু জুলুমবাজদের হাতে হস্তান্তর করে!তারপর ইতিহাসে মুসলমান অবদান খুব ঠান্ডা মাথায় সরিয়ে রাখে। বিমল মিত্র সহ অনেকেই নবাব সিরাজ উদ দৌলাকে নিয়ে বিকৃত ইতিহাস উপস্হাপন করে। অবিভক্ত ভারতবর্ষে মানুষে-মানুষে বিভক্তি করন শুরু হয়।মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি রেখাটানতে সুকৌশলে পীর প্রথাচালু করে।কিন্ত কিয়ামতের দিন কঠিন সময় এক আল্লাহ্ আর দয়ার আখেরী নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছাড়া সবাই ইয়া নফ্সি ইয়া নফ্সি করবেন।এখানে পীর দাড়ঁ করিয়ে দিয়ে মুসলমানদের মাঝে অত্যান্ত সুকৌশলে মাখাল ফলের গাছ লাগিয়ে দিল।আজও মাখাল ফলের কারণে দূর্বৃতদের মিথ্যাচারের জন্যে ও রহমত থেকে বঞ্ছিত। ইষ্ট ইন্ডিয়ান কোম্পানি ও বৃটিশ উপেনিবেশিক শাসন এর লক্ষই হলো মুসলমানদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি আর সামাজিক বৈষম্য সৃষ্টির মাধ্যমে আল্লাহ তালার ঘোষিত ইহুদীদের কোন রাজ্য থাকবে না,এই ঘোষনাকে চ্যালেঞ্জ করে ইহুদীদের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করা। আজ অধিকাংশ মুসলিম রাষ্ট্র ইসরাইলের প্রতি দূর্বল হওয়ার কারণে মুসলমান সহ সাধারণ মানুষ পদেপদে জুলুমের স্বীকার। কিছু বিষয়ে পরিস্কার হওয়া দরকার,সেটাই উপস্হাপন করার চেষ্টা করবো মাত্র,তথ্য গত কমতি থাকলে পাঠক কিছু মনে করবেন না।প্রথমতো খাজা গরীবে নেওয়াজ মঈনুদ্দুন চিশতি (রহঃ),হযরত খাজা নিজামুদ্দিন আউলিয়া, হযরত বু আলী(রহঃ),হযরত শাহ জালাল (রহঃ)হযরত শাহ পরান (রহঃ), হযরত মহসিন আউলিয়া (রহঃ),হযরত শাহ আমানত উল্ল্যাহ শাহ্ (রহঃ) হযরত বাইয়জিদ বোস্তামী (রহঃ),হযরত শাহ মখদুম (রহঃ), হযরত শাহ ফতেহ আলী (রহঃ), হযরত খাজা খান জাহান আলী (রহঃ),কুষ্টিয়ার হযরত নফর শাহ (রহঃ),পাবনা চকদুবলিয়া গোরস্হানে শুয়ে আছে হজরত হরত কারী সেকেন্দার আলী, হযরত খাজা শরফুদ্দিন চিশতী,হযরত শাহ আলী বোগদাদী (রহঃ) হযরত কুমির শাহ, হযরত লালা শাহ, হযরত গোলাপ শাহ (রহঃ) সহ ৩৬০ আউলিয়া কি একজনও মুরিদ করেছেন একটু অনুসন্ধান করে দেখুন।বরং তারা জালেমের জুলুম, নিপীড়ন,নির্যাতনের বিরুদ্ধে লড়াই করে মহান আল্লাহ পাকের প্রদান কৃত মজুলুমের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন! আখেরী নবী (বিশ্বনবী) করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দুনিয়া ত্যাগ করার মুহূর্তে বলে গেলেন আমার উম্মতদের সালাতের প্রতি কঠোর হতে হবে। আর কোরআন আর আল হাদিস উপর নির্ভরশীল থাকতে হবে। আর তাই উপনিবেশিক দখলদাররা মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে অত্যান্ত কৌশলে পীর প্রথা চালু আর তাদের দিয়ে সুন্নী আর ওয়াবী ফেতনা চালু করে মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি রেখা টেনে দেওয়ায় নিজেদের অপরাধ মুসলিমদের ঘারে চাপিয়ে দিয়ে,একদিকে ভাল মানুষ সেজে গেলো! অন্যদিকে তারা সমাজটাকে ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন করে আতংকের মধ্যে ঠেলে দিলো। তারপর তারা নিজেদের নিরাপত্তার জন্যে জনগনের অর্থ দিয়ে পুলিশ বাহিনী গঠন করলো, এ বাহিনীর কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্যে নীতিমালা প্রণয়ন করে।যে নীতিমালা সাধারণ মানুষের কোন নিরাপত্তা ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে অবস্থান এর কোন বিধান রাখলো না! দখলের ২৬৪ বছর দুইবার ভারতবর্ষের বাংলাদেশ দুইবার স্বাধীন হলো কিন্তু সাধারণ মানুষের কোন অধীকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে কি? ১৯০বছর পর দখলদার বৃটিশ থেকে একবার স্বাধীনতা পেলাম,এর পর ১৯৭১ সালে আরেক বার স্বাধীনতা হলো।সব সময় মিত্র হলো শত্রুর আর শত্রুরা স্বঘোষিত মিত্র হলো। কিন্তু স্বঘোষিত মিত্রদের দেশের মুসলমানরা যেমন মজলুম, তেমনি অন্য দেশ গুলোতেও? আজ লক্ষ করতে হবে কাশ্মীরের মুসলমান, ফিলিস্তিন মুসলমান সহ বিশ্বের মুসলমানরা কমবেশীই একই রকম জুলুমের স্বীকার। আর অদৃশ্যে থেকে যারা মুসলমানদের উপর জুলুম করাচ্ছে তারা ইহুদী, খৃষ্টান, মূর্তিপূজারী,নাছারাদের স্বপ্ন বা পরামর্শ বাস্তবায়ন করছে মুনাফেক বা লেবাসধারীরা?আজকে মির্জাফর তাদের একজন? পরিস্কার হওয়াএটর দরকার দেশপ্রেম না থাকঅদলে সকল চাপ প্রয়োগই ব্যার্থত্বায় পর্যবশিত হয়।আজকে হিন্দুস্হানের উচ্চ আদালত মীরজাফরকে নবাব ঘোষণা দিলেও জনগন তাকে মিরজাফরের অতিরিক্ত কিছু বলে না।নবাব সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার অপপ্রচার করেও কোন লাভ হয়নি? বরং মুসলমানরা তার কবরের কাছে গেলে কবর জিয়ারত করে,মহান আল্লাহ তালার রাব্বুল ইজ্জৎ এর দরবারে তার জন্যে ক্ষমা চায় মানুষ ( মুসলিম জাতি) ,কবরে জান্নাতি বাগান ও জান্নাতুল ফেরদৌস প্রদানের জন্যে আল্লাহ তালার দরবারে প্রার্থনা করে। বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব আছে এ অঞ্চলের মানুষের হৃদয়ে,আর মীর জাফর ঘৃনিত ব্যাক্তি।আজ এই ঘৃনিত মহলটি বিশ্বজুড়ে মানবিক বিপর্যয় ঘটিয়েছে। এ অবস্হা থেকে মুক্তি পেতে আল-কোরান,আল হাদিস েথ ও পাথেয় অনুসরণ করে রাষ্ট্র চালানোর ব্যাবস্থা হয় তাহলে মরণঘাতী মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সহ সকল গজব থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। জালেমের জুলুম আর মজলুমের আহাজারি দেখতে হবে না। অসাম্য দুর হবে সাম্য প্রতিষ্ঠা হবে। আজকে আমাদের উপলব্ধিতে আসতে হবে কোরআন-আর আল-হাদিসই কেবল সকল মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে পারে।নবাব সিরাজউদ্দৌলা গোত্র পরিচিতি : বা মির্জা মুহম্মদ সিরাজ-উদ-দৌলা ছিলেন বাংলা-বিহার-ওড়িশার শেষ স্বাধীন নবাব। বাংলা ইতিহাসের এক প্রতিমূর্তি। পলাশীর যুদ্ধে তাঁর পরাজয় ও মৃত্যুর পরই ভারতবর্ষে ১৯০ বছরের ইংরেজ শাসনের সূচনা হয়। সিরাজউদ্দৌলা তাঁর নানা নবাব আলীবর্দী খানের কাছ থেকে ২৩ বছর বয়সে ১৭৫৬ সালে বাংলার নবাবের ক্ষমতা অর্জন করেন। জন্ম: ১৭৩৩, মুর্শিদাবাদ, ভারত। মারা গেছেন: ২ জুলাই ১৭৫৭, মুর্শিদাবাদ,ভারত। স্বামী বা স্ত্রী: লুৎফুন্নেসা বেগম (বিবাহ.?–১৭৫৭)কবরস্থান: খুশবাগ গার্ডেন, মাহীনগর, ভারত। সন্তান: কুদশিয়া বেগম সাহিদা, মা ও বাবা : আমিনা বেগম, জেইন উদ-দিন আহমেদ। লেখকঃ সাংবাদিক , এবং চেয়ারম্যান বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশন(বিআরজেএ)



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 101        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     উপ-সম্পাদকীয়
পলাশীর ট্রাজেডি থেকে শিক্ষাই শান্তির পথের সন্ধান মিলবে!
.............................................................................................
হাতিরঝিলের দুর্গন্ধযুক্ত পানি: পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে হবে
.............................................................................................
করোনা ভাইরাস: সরকারী ত্রাণ, প্রণোদনা ও রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন
.............................................................................................
ছুটি শেষে সচল দেশ: স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা জরুরি
.............................................................................................
প্রাথমিকে প্রয়োজন কাঠামোগত সংযোজন বা সংশোধন
.............................................................................................
দুর্গম পথচলা সুগম করতে হবে
.............................................................................................
সাইবার অপরাধ
.............................................................................................
প্রসঙ্গ ভ্রাম্যমাণ ফায়ার সার্ভিস ও Fire hydrant
.............................................................................................
পরমাণু অস্ত্র নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিমুখী আচরণ
.............................................................................................
আমার গেলাস সদাই থাক অর্ধেক পূর্ণ
.............................................................................................
লাখো কন্ঠে বিদ্রোহী কবিতা
.............................................................................................
বৈশাখ বাঙালির সার্বজনীন অসাম্প্রদায়িক উৎসব
.............................................................................................
সিরিয়া হামলায় মধ্যপ্রাচ্য বনাম রুশ হিসাব
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop