বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * গঙ্গাস্নানে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা, নারী-শিশুসহ নিহত ২২   * পিলখানা হত্যাকাণ্ডে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন   * ঢাকাসহ ৮ অঞ্চলে হতে পারে ঝোড়ো বৃষ্টি   * শবেবরাত সবার জন্য রহমত ও কল্যাণ বয়ে আনুক : রাষ্ট্রপতি   * দফায় দফায় বাড়ছে খেজুরের দাম   * ডেঙ্গুর প্রকোপ : এবার আগেভাগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার নির্দেশ   * পবিত্র শবে বরাত আজ   * জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস আজ   * রোজার আগেই ভার‌ত থে‌কে দে‌শে পেঁয়াজ ঢুক‌বে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   * যুদ্ধের দুই বছর : হাল ছাড়তে চান না ক্লান্ত ইউক্রেনীয়রা  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
নতুন বাইক আনলো কাওয়াসাকি

জনপ্রিয় টু হুইলার নির্মাতা সংস্থা কাওয়াসাকি। নতুন কাওয়াসাকি জেড৬৫০আরএস মডেলে পাবেন ৬৫০ সিসি ইঞ্জিন। যা সর্বোচ্চ ৬৭ হর্সপাওয়ার এবং ৬৪ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে। সঙ্গে রয়েছে ৬ স্পিড গিয়ার। এবং স্লিপ-অ্যাসিস্ট ক্লাচ।

বাইকের ডিজাইন অন্যতম আকর্ষণ। একেবারে রেট্রো ধাঁচে তৈরি করা হয়েছে চেসিস। গোল হেডল্যাম্প, সিঙ্গেল পিস সিট, টিয়ারড্রপ ফুয়েল ট্যাংক পাওয়া যাবে এতে। ৬৪৯ সিসি লিকুইড কুল্ড টুইন সিলিন্ডার ইঞ্জিন রয়েছে। বাইকের সামনে টেলিস্কপিক ও পেছনে মনোশক সাসপেনশন পাওয়া যাবে বাইকে।

দু চাকাতেই রয়েছে ডিস্ক ব্রেক সঙ্গে ডুয়াল চ্যানেল অ্যান্টি লক ব্রেকিং সিস্টেম। উপরন্তু, মিলবে ট্র্যাকশন কন্ট্রোল সিস্টেম। যা বাইকটিকে আরও ভরসাযোগ্য করে তুলতে পারে। কারণ এই ধরনের বাইক নিয়ে অনেকেই দূর-দুরান্তে লং ট্রিপে যান।

ডিজিটাল ও অ্যানালগ ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার দেখা যাবে বাইকে। রঙের ক্ষেত্রে সেরা বিকল্প রয়েছে-মেটালিক ম্যাট কার্বন গ্রে। যদিও অন্যান্য দেশে আরও অনেক রঙে পাওয়া যাবে এই বাইক। বাইকের দাম ভারতীয় বাজারে রাখা হয়েছে ৬ লাখ ৯৯ রুপি (এক্স-শোরুম)।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

নতুন বাইক আনলো কাওয়াসাকি
                                  

জনপ্রিয় টু হুইলার নির্মাতা সংস্থা কাওয়াসাকি। নতুন কাওয়াসাকি জেড৬৫০আরএস মডেলে পাবেন ৬৫০ সিসি ইঞ্জিন। যা সর্বোচ্চ ৬৭ হর্সপাওয়ার এবং ৬৪ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে। সঙ্গে রয়েছে ৬ স্পিড গিয়ার। এবং স্লিপ-অ্যাসিস্ট ক্লাচ।

বাইকের ডিজাইন অন্যতম আকর্ষণ। একেবারে রেট্রো ধাঁচে তৈরি করা হয়েছে চেসিস। গোল হেডল্যাম্প, সিঙ্গেল পিস সিট, টিয়ারড্রপ ফুয়েল ট্যাংক পাওয়া যাবে এতে। ৬৪৯ সিসি লিকুইড কুল্ড টুইন সিলিন্ডার ইঞ্জিন রয়েছে। বাইকের সামনে টেলিস্কপিক ও পেছনে মনোশক সাসপেনশন পাওয়া যাবে বাইকে।

দু চাকাতেই রয়েছে ডিস্ক ব্রেক সঙ্গে ডুয়াল চ্যানেল অ্যান্টি লক ব্রেকিং সিস্টেম। উপরন্তু, মিলবে ট্র্যাকশন কন্ট্রোল সিস্টেম। যা বাইকটিকে আরও ভরসাযোগ্য করে তুলতে পারে। কারণ এই ধরনের বাইক নিয়ে অনেকেই দূর-দুরান্তে লং ট্রিপে যান।

ডিজিটাল ও অ্যানালগ ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার দেখা যাবে বাইকে। রঙের ক্ষেত্রে সেরা বিকল্প রয়েছে-মেটালিক ম্যাট কার্বন গ্রে। যদিও অন্যান্য দেশে আরও অনেক রঙে পাওয়া যাবে এই বাইক। বাইকের দাম ভারতীয় বাজারে রাখা হয়েছে ৬ লাখ ৯৯ রুপি (এক্স-শোরুম)।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

অবশেষে ৩ দিনের দামে ৭ দিন মেয়াদে ইন্টারনেট প্যাকেজ
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবশেষে সাতদিন মেয়াদের ডাটা প্যাকেজের দাম কমালো বেসরকারি তিন অপারেটর। তিনদিন মেয়াদে আগে যে দামে যে পরিমাণ ইন্টারনেট ভলিউম দিতো অপারেটরগুলো, তার কাছাকাছি দামে সাতদিন মেয়াদে একই পরিমাণ ডাটা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা। এতে ৩০ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধিকে পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ নভেম্বর) রাতে ডাটা প্যাকেজ পুনর্বিন্যাস করে নতুন প্যাকেজ গ্রাহকদের অফার করছে গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংক।

এর মধ্যে তিনদিনের দামেই সাতদিন মেয়াদি প্যাকেজ দিচ্ছে রবি। আগের তিনদিনের দামের চেয়ে দুই টাকা বাড়িয়ে দাম পুনর্বিন্যাস করেছে গ্রামীণফোন। আর দাম না কমিয়ে সাতদিনের প্যাকেজে বোনাস হিসেবে ডাটা বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলালিংক ও রবির সঙ্গে একীভূত হওয়া এয়ারটেল।

তিনটি অপারেটরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নতুন প্যাকেজ থেকে জানা গেছে, ১৫ অক্টোবরের আগে ৪৮ টাকায় দেওয়া তিন দিন মেয়াদের এক জিবি ডাটা প্যাকেজে এখন মেয়াদ দেওয়া হচ্ছে সাতদিন। অবশ্য ১৫ অক্টোবর থেকে সাতদিন মেয়াদে একই পরিমাণ ডাটা কিনতে গ্রাহকের খরচ হচ্ছিল ৬৮ টাকা। অর্থাৎ খরচ কমে এলো সপ্তাহে ২০ টাকা।

অন্যদিকে গ্রামীণফোনের তিনদিনের এক জিবির ডাটা প্যাকেজের দাম শুরুতে ৪৬ টাকা থাকলেও ১৫ অক্টোবর থেকে একই ডাটার সাতদিনের প্যাকেজ কিনতে খরচ হচ্ছিল ৬৯ টাকা। শুক্রবার রাত থেকে সেটা আবার ৪৮ টাকায় নামিয়েছে অপারেটরটি।

প্রথমে তিনদিনের দেড় জিবি ডাটা প্যাকেজ বাংলালিংক ৪২ টাকায় দিতো। ১৫ অক্টোবর থেকে সাতদিন মেয়াদি সেই ডাটা প্যাকেজ ৬৯ টাকায় বিক্রি করছিল অপারেটরটি। ২৫ দিনের মাথায় পুনর্বিন্যাস করা প্যাকেজে দাম না কমিয়ে ৫০ শতাংশ বোনাস ঘোষণা করে ৬৯ টাকায় দুই জিবি ইন্টারনেট দিচ্ছে বাংলালিংক।

একইভাবে আগে তিনদিনের জন্য ৪২ টাকায় এক জিবি এবং ৪৯ টাকায় দেড় জিবি ডাটা দেওয়া এয়ারটেল ১৫ অক্টোবর থেকে ৬৮ টাকায় দেড় জিবি ডাটা প্যাকেজ অফার করছিল সাতদিন মেয়াদে। শুক্রবার থেকে একই দামে তারা দুই জিবি ইন্টারনেট ডাটা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

মোবাইল অপারেটরদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশের (এমটব) বিবৃতিতে বলেছে, ১৫ অক্টোবর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির নির্দেশাবলী অনুযায়ী- প্রতিকূলতা সত্ত্বেও অপারেটররা তাদের ইন্টারনেট প্রোডাক্ট পোর্টফোলিও আপডেট করে। দুর্ভাগ্যবশত মাত্র ১৫ দিন পর আবারও প্রোডাক্ট পোর্টফোলিও পরিবর্তন করতে নতুন নির্দেশনা দেওয়া হয়। নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা জটিল পোর্টফোলিও পরিবর্তন করেছি।

শুক্রবারের (১০ নভেম্বর) মধ্যে দেশের সব মোবাইল অপারেটরকে ইন্টারনেটের কিছু প্যাকেজের দাম কমানোর নির্দেশনা দিয়েছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। এ নিয়ে পরে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ ও নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) পক্ষ থেকে অপারেটরগুলোকে চিঠিও দেওয়া হয়।

নির্দেশনা মেনে বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) ইন্টারনেট প্যাকেজের দাম কমায় রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক। কিছুটা ধূম্রজাল সৃষ্টির পর শুক্রবার রাতে ধীরে ধীরে বেসরকারি তিন অপারেটর কোম্পানিও তাদের প্যাকেজের দাম সমন্বয় করে।

মন্ত্রী ও বিটিআরসির নির্দেশনা মেনে বেসরকারি তিনটি অপারেটর কোম্পানি ইন্টারনেটের দাম কমাবে কি না, তা জানতে উন্মুখ হয়ে ছিলেন গ্রাহকরা। অপারেটরদের কার্যক্রমের দিকে তাকিয়ে ছিল বিটিআরসিও। নির্দেশনা মেনে দাম কমানোয় গ্রাহকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।

এদিকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে লিখেছেন, ‘আংশিক দাম কমলো। বাকিটাও কমাতে হবে।`

ঢাবির ওয়াশরুম থেকে ককটেল উদ্ধার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ওয়াশরুম থেকে দুটি ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (৬ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের নিচ তলার ওয়াশরুম থেকে ককটেল দুটি উদ্ধার করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, সকালে কলা ভবনের এক সিকিরিটি গার্ড ওয়াশরুমে গেলে ককটেল দুটি দেখতে পান। পরে প্রক্টোরিয়াল টিমকে জানালে তারা এসে ককটেল দেখতে পেয়ে শাহাবাগ থানাকে অবহিত করেন। পরে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এসে ককটেল দুটি নিয়ে যান।

তবে, কে বা কারা এই ককটেল রেখে গেছে তা জানেনা কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বাড়ানোর জন্যই এই ককটেল রাখা হয়েছে বলে ধারণা তাদের। বিষয়টি তদন্তে কাজ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।


এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর ড. মুহাম্মদ বদরুল হাসান বলেন, সকালে এক সিকিরিটি গার্ড দুটি ককটেল দেখতে পেয়ে আমাদের জানায়। পরে আমরা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এসে দুটি ককটেল উদ্ধার করে নিয়ে গেছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্ভবত এটা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বাড়ানোর জন্যই এ কাজ করা হয়েছে বলে আমাদের ধারণা।

১০ নভেম্বরের মধ্যে মোবাইল ইন্টারনেটের দাম কমবে
                                  

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি সপ্তাহে দাম কমছে মোবাইল ইন্টারনেটের। বুধবার (৮ নভেম্বর) ডাটা প্যাকেজে সংশোধনী এনে দাম কমাবে রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর কোম্পানি টেলিটক। আর ১০ নভেম্বরের মধ্যে ইন্টারনেট প্যাকেজের দাম কমাবে গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবিও। আগের তিনদিন মেয়াদের ডাটা একই দামে সাতদিন মেয়াদেও পেতে পারেন গ্রাহকরা।

দেশের সব মোবাইল অপারেটরগুলোর শীর্ষ নির্বাহীদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। রোববার (৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসির) প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়।

বৈঠকে মন্ত্রী ১০ নভেম্বরের মধ্যে সব মোবাইল অপারেটরকে ইন্টারনেট প্যাকেজের দাম কমানোর জোরালো নির্দেশনা দেন। কোম্পানিগুলোও মন্ত্রীকে ডাটা প্যাকেজ সংশোধন করে দাম কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন।

বৈঠকে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে ইন্টারনেটের দাম এভাবে বাড়ানোটা সরকারবিরোধী কাজ এবং চক্রান্ত।

মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের উদ্দেশে বলেন, বাংলাদেশে ব্যবসা করতে হলে দেশের জনগণের পক্ষে থাকতে হবে। রেগুলেটর হয়েও বিটিআরসি ফ্যাসিলিটেটরের ভূমিকা পালন করছে। তারপরও আপনারা যে আচরণ করছেন, তা জনগণ মেনে নেবে না। আপনারা ডাটা বিক্রি করবেন। কিন্তু সময় (মেয়াদ) নয়।’

এ সময় বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার, বিটিআরসির কমিশনারসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং মোবাইল অপারেটরগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে উপস্থিত বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানান, মন্ত্রী বৈঠকে তীব্র অসন্তোষ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সদ্য বিলুপ্ত তিনদিন মেয়াদের ইন্টারনেট প্যাকেজ নিয়ে দীর্ঘসময় ধরে আলোচনা হয়। মন্ত্রী মোবাইল ফোন অপারেটরদের আগের তিনদিন মেয়াদের প্যাকেজের দামে সাতদিনের ইন্টারনেট প্যাকেজ গ্রাহকদের অফার করার নির্দেশ দেন।

বৈঠকের পর মোস্তাফা জব্বার গণমাধ্যমকে বলেন, ৮ নভেম্বরের মধ্যে টেলিটক এবং ১০ নভেম্বরের মধ্যে অন্য সব অপারেটরকে বৈঠকের নির্দেশনা প্রতিপালন করতে হবে। আশা করি, অপারেটরদের বোধদয় হবে। তারা ৯৫টি প্যাকেজকে ৪০টিতে নামিয়ে আনার ক্ষেত্রে ইন্টারনেটের দাম বাড়াবে না। তখন ইন্টারনেটের দাম কমাবে।

গত ১৫ অক্টোবর থেকে গ্রাহকের স্বার্থবিবেচনা করে তিনদিন ও ১৫ দিন মেয়াদের ডাটা প্যাকেজ বাতিল করা হয়। বর্তমানে ৭ ও ৩০ দিন এবং আনলিমিটেড প্যাকেজ কিনতে পারছেন গ্রাহকরা।

গ্রাহকদের অভিযোগ, তিনদিন ও ১৫ দিনের ডাটা প্যাকেজ বাতিলের পর অপারেটররা কৌশলে দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। এতে অনেকেই এ নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছে। তারা মন্ত্রী ও বিটিআরসিকে দুষছেন। এমন পরিস্থিতিতে বৈঠক ডেকে মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলোকে ডাটা প্যাকেজের দাম কমানোর নির্দেশ দিলেন মন্ত্রী।

ইনস্টাগ্রামে নতুন ফিচারে থাকছে যেসব সুযোগ
                                  

 

অনলাইন ডেস্ক : বর্তমান বিশ্বের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোর মধ্যে একটি ইনস্টাগ্রাম। প্রযুক্তির বাজারে নিজের অবস্থান পোক্ত করতে বিভিন্ন ধরনের ফিচার আনছে তারা। ব্যবহারকারীদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করতে এবার একাধিক ফিচার যুক্ত করতে যাচ্ছে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ।

এবার অডিও নোট-সেলফি ভিডিও নোটে নতুন ফিচার আনছে ইনস্টাগ্রাম। এর পাশাপাশি জন্মদিন এবং স্টোরি পোস্টেও থাকছে নতুনত্বের ছোঁয়া।

জানা গেছে, দ্রুতই এ ফিচারগুলো পরীক্ষামূলকভাবে আনবে মেটা। যা ব্যবহারকারীদের মধ্যে আরও সাড়া ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নতুন ফিচারে প্রোফাইলে বার্থডে এফেক্ট যুক্ত করা যাবে। সেলফির পাশাপাশি ভিডিও নোটও পাঠানো যাবে, এ ছাড়া ব্যবহারকারীরা অডিও নোটের মাধ্যমে নিজস্ব মতামত প্রকাশ করতে পারবেন।

বিশেষ মুহূর্ত শেয়ারের পাশাপাশি কারা কোন স্টোরি দেখতে পারবেন, সেই তালিকাও তৈরি করতে পারবেন ব্যবহারকারী।

বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ আজ
                                  

 

নিউজ ডেস্ক : চলতি বছরের (২০২৩ সালের) দ্বিতীয় এবং শেষ সূর্যগ্রহণ হতে যাচ্ছে আজ শনিবার। স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৩ মিনিটে শুরু হয়ে ২টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত চলবে এই সূর্যগ্রহণ। এটি বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ।

অমাবস্যার সময়ে সূর্যগ্রহণের ঘটনা বেশ বিরল। এর আগে ১৮৪৫ সালে অমাবস্যার সময় সূর্যগ্রহণ হয়েছিল।

বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণে সূর্যের ওপর চাঁদের ছায়া পড়বে, কিন্তু সেটা সূর্যকে সম্পূর্ণরূপে ঢাকতে পারবে না। চাঁদের চারপাশে সূর্যের লাল আলোর রিং বা বলয় দেখা যাবে।

দিনটি শনিবার হওয়ায় বিরল এই গ্রহণকে শনির অমাবস্যার সূর্যগ্রহণও বলা হচ্ছে। তবে আমাদের দেশ থেকে দেখা যাবে না বছরের এই দ্বিতীয় সূর্যগ্রহণ।

উত্তর আমেরিকা, মধ্য আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, উত্তর আফ্রিকা, আটলান্টিক ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে এই সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে।

বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে শনিবার
                                  

 

চলতি বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ শনিবার (১৪ অক্টোবর) দেখা যাবে। এর আগে, ১৮৪৫ সালে অমাবস্যার সময় সূর্যগ্রহণ হয়েছিল।

জানা গেছে, শনিবার আশ্বিন মাসের অমাবস্যা তিথিতে বিকেল ৪টা ৩৪ মিনিটে গ্রহণ শুরু হবে। গ্রহণ ছেড়ে যাবে রাত ২টা ২৫ মিনিটে। এসময় সূর্যের ওপর চাঁদের ছায়া পড়বে। কিন্তু সেটা সূর্যকে সম্পূর্ণরূপে ঢাকতে পারবে না। চাঁদের চারপাশে সূর্যের লাল আলোর রিং বা বলয় দেখা যাবে। দিনটি শনিবার হওয়ায় বিরল এই গ্রহণকে শনির অমাবস্যার সূর্যগ্রহণ বলা হচ্ছে।

তবে বাংলাদেশ থেকে বছরের দ্বিতীয় এবং শেষ এই সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।

বছরের এই শেষ সূর্যগ্রহণ উত্তর আমেরিকা, মধ্য আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, উত্তর আফ্রিকা, আটলান্টিক ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে দেখা যাবে।

গুগলের ২৫তম জন্মদিন আজ
                                  

নিউজ ডেস্ক : বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলের দেখতে দেখতে ২৫ বছর হয়ে গেলো। আজ, বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) গুগলের ২৫তম জন্মদিন। এ উপলক্ষ্যে গুগল বিশেষ ডুডল তৈরি করেছে।

এতে গুগলের শুরুটা হয়েছিল কীভাবে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

ই-কমার্স, ডিজিটাল বিজ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে এখন ১ ট্রিলিয়ন ডলারের কোম্পানি গুগল।

১৯৯৮ সালে ল্যারি পেইজ ও সের্গেই ব্রিনের হাত ধরে যাত্রা শুরু হয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলের। বিশ্বে বিভিন্ন ডেটা সেন্টারে এক মিলিয়ন সার্ভার চালায় গুগল। দিনে পাঁচশো কোটির বেশি অনুসন্ধানের জবাব দেয়।

গুগল সার্চ ইঞ্জিনের শুরুতে নাম রাখা হয়েছিল গুগোল (googol)। কিন্তু কোম্পানি নিবন্ধনের সময় বানান ভুল হওয়ার কারণে এর নাম গুগল (Google) হয়ে যায়। ১৯৯৮ সালে গুগল এক লাখ মার্কিন ডলার বিনিয়োগের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। সেই বিনিয়োগ করেছিলেন সান মাইক্রোসিস্টেমের সহপ্রতিষ্ঠাতা অ্যান্ডি বেসটোলসহাইম।

সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে যাত্রা শুরু করলেও পরবর্তীতে আরও নতুন নতুন ফিচার নিয়ে গ্রাহকের কাছে হাজির হয়েছে গুগল। গুগলের পণ্য ও সবার মধ্যে রয়েছে ই-মেইল সেবা জিমেইল, মানচিত্র ওয়েজ ও ম্যাপস, ক্লাউড কম্পিউটিং সেবা ক্লাউড, ওয়েবসাইট দেখার সফটওয়্যার ক্রোম, ভিডিও দেখার ওয়েবসাইট ইউটিউব, ওয়ার্কস্পেস, অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, ক্লাউডে তথ্য সংরক্ষণের ড্রাইভ, অনুবাদের জন্য ট্রান্সলেট, ছবি রাখার জন্য ফটোজ, ভিডিও কল করার মিট, স্মার্ট বাড়ির জন্য নেস্ট, পিক্সেল স্মার্টফোন, পরিধেয় প্রযুক্তি পিক্সেল ওয়াচ ও ফিটবিট, গান শোনার ওয়েবসাইট ইউটিউব মিউজিক, ভিডিওর জন্য ইউটিউব টিভি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট, মেশিন লার্নিং এপিআই টেনসরফ্লো, এআই চিপস টিপিইউ। এ ছাড়া প্রায়ই নিত্যনতুন ফিচার নিয়ে আসছে এই প্রযুক্তি গুগল।

সূর্যের পথে দ্বিতীয় ধাপ অতিক্রম করল আদিত্য এল-১
                                  

পৃথিবী থেকে ১৫ লাখ কিলোমিটার দূরে সূর্য এবং পৃথিবীর মধ্যবর্তী এক অবস্থান থেকে সূর্যের কোরোনা স্তর এবং আলোরশ্মি পর্যবেক্ষণ করবে আদিত্য এল-১ মহাকাশযান। সেখান থেকে একাধিক নতুন বৈজ্ঞানিক তথ্য পাওয়া যাবে বলে মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন।


সম্প্রতি চন্দ্রযানের সাফল্যের পর গত শনিবার ভারতীয় মহাকাশ গবেষণাকেন্দ্র ইসরো আদিত্য এল-১ সূর্যযানের সফল উৎক্ষেপণ করেছে। সোমবার রাতে ইসরো জানিয়েছে, যাত্রাপথের দ্বিতীয় বাধা অতিক্রম করেছে এই মহাকাশযান।

টুইট করে ইসরো এই খবর জানিয়েছে। আদিত্যের বর্তমান অবস্থান এবং কোন কোন অঞ্চল থেকে আদিত্যকে উপগ্রহের মাধ্যমে ট্র্যাক করা হচ্ছে, তা-ও জানানো হয়েছে টুইটে। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর তৃতীয় বাধা পার করার কথা এই সৌরযানের। ভারতীয় সময় দুপুর আড়াইটা নাগাদ ওই বাধা পার করার কথা আদিত্য এল-১-এর।


মোট ১২৫ দিন ধরে যাত্রা করবে এই সূর্যযান। প্রথম ১৬ দিন পৃথিবীর কক্ষপথে থাকার পর তা সূর্যের দিকে পাড়ি দেবে। শেষপর্যন্ত এই সূর্যযান পৌঁছাবে ল্য়াগরেজ পয়েন্ট বা এল ওয়ান পয়েন্টে। সেখানেই অবস্থান করবে এই ভারতীয় উপগ্রহ।

এই সৌরযানে বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা করার জন্য আছে সাতটি পে লোড। এদের প্রত্যেকের নিজস্ব কাজ আছে। সৌরযান তখনই সফল হবে, যখন এই পে লোডগুলি নিজের কাজ ঠিক করে করবে। একটি পে লোড সূর্যের কোরোনা স্তরের ছবি তুলবে।

তাছাড়া সূর্যের বর্ণালি পর্যবেক্ষণ করে রিপোর্ট দেবে ভিএলসি। সূর্যের কোরোনা থেকে আলোর রশ্মির বিচ্ছুরণ ও তার ইলেক্ট্রো-ম্যাগনেটিক বিকিরণ সম্পর্কেও তথ্য জানাবে ভিএলসি। সোলেক্স পে লোডের কাজ হবে নক্ষত্র হিসাবে সূর্য কেমন তা বিচার করা।

আরেকটা পে লোডের নাম এসইউআইসি। তারা ক্রোমোস্ফিয়ার ও ফটোস্ফিয়ারের ছবি ও তথ্য পাঠাবে। সূর্যস্পৃষ্ঠের নাম ফটোস্পিয়ার ও সেখান থেকে করোনা পর্যন্ত প্লাজমা স্তরের নাম ক্রোমোস্পিয়ার। অন্য পে লোডগুলো সূর্যের বায়ু, কণা ও চুম্বকক্ষেত্র সম্পর্কে খবরাখবর দেবে।

অনলাইনে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য পেলে জানাবে গুগল
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : নিত্যনতুন ফিচার নিয়ে আসছে গুগল। গত বছর সেপ্টেম্বরে নিয়ে এসেছিল তেমনই একটি ফিচার ‘রেজাল্ট অ্যাবাউট ইউ’। অনলাইনে আপনার কি কি তথ্য আছে সে তথ্য জানাতেই এই ফিচারে নিয়ে আসা হয়। এবার সেই ড্যাশবোর্ড আপডেট করে নতুন ফিচার যোগ করেছে গুগল।

চারদিকে ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস নিয়ে যখন এতো হইচই তখন সেই ব্যক্তিগত তথ্যে খোঁজ জানাবে এই ফিচার। এই ড্যাশবোর্ডে নিজের নাম-পরিচয় দিলে সে নিজেই খোঁজার কাজটি করে দেবে। যে সব ওয়েবসাইটে এই সংক্রান্ত তথ্য রয়েছে, সেগুলো আপনার সামনে তুলে ধরা হবে। এবার আপনি সেই ওয়েব পেজগুলোতে গিয়ে দেখে নিতে পারবেন কোন তথ্য ফাঁস হয়ে গেছে। সঙ্গে সঙ্গে তা মুছে দেয়ার আবেদনও করে দিতে পারবেন।

আগে কোনও ওয়েবসাইটে ব্যক্তিগত তথ্য খুঁজে পাওয়া গেলে তা সরিয়ে দেয়ার জন্য ম্যানুয়ালি আবেদন করতে হতো। যার ফলাফল পেতে অনেক সময় লাগতো। কিন্তু প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে নিজেকেও আপডেট করেছে গুগল।

এখন কোনো ওয়েবসাইটে আপনার ঠিকানা, ফোন নম্বর কিংবা ই-মেইল আইডি খুঁজে পাওয়া গেলে নোটিফিকেশনের মাধ্যমে তা আপনাকে নিজেই জানিয়ে দেবে গুগল। ফলে সহজেই আপনি তা মুছে ফেলার সুযোগ পাবেন।

এতে ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত থাকবে বলে দাবি গুগলের। প্রতারণার হাত থেকেও নিরাপদ থাকা যাবে। প্রাথমিক ভাবে এই ফিচার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চালু হয়েছে। খুব শিগগিরই এটি একাধিক ভাষায় চালু করা হবে।

ইনফিনিক্স আনল কম দামের স্মার্টফোন
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইনফিনিক্স নতুন ফোন এনেছে। মডেল ইনফিনিক্স হট ৩০ ৫জি। এই হ্যান্ডসেট দুই স্টোরেজ ভার্সনে কেনা যাবে।

এটি একটি বাজেট ফোন। এর একটি ভার্সনে আছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। যার দাম ১১ হাজার ৪৯৯ রুপি। অন্য আরেকটি ভার্সন পাওয়া যাবে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। যার বাজারমূল্য ১২ হাজার ৪৯৯ টাকা। ফোন দুইটি ভারতের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

৫জি কানেক্টিভিটি সমৃদ্ধ এই ফোন গ্লাস অ্যান্ড লেদার ফিনিশ ডিজাইনে তৈরি করা হয়েছে। এতে রয়েছে ৬.৭৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। এতে ১২০ হার্জের ডিসপ্লে প্যানেল দেওয়া হয়েছে। ব্যাকআপের জন্য রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। যা চার্জ দেওয়ার জন্য ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার দেওয়া হয়েছে।

ইনফিনিক্স দাবি করছে, গ্লাস ও লেদার ডিজাইন ফোনটিকে শুধুই টেকসই করছে তাই নয়, একটা প্রিমিয়াম ফিলও দিচ্ছে। সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং ডিটিএস সাপোর্ট সহযোগে ডুয়াল স্পিকার্স রয়েছে ফোনটিতে।

ফোনটির পেছনে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল এআই ক্যামেরা। লো লাইট, পোর্ট্রেইটের মতো একাধিক জরুরি মোড রয়েছে ফোনটিতে। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য ফোনটিতে একটি ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা রয়েছে। এছাড়া রয়েছে কোয়াড এলইডি ফ্ল্যাশ, যা আরও উন্নত লো-লাইট ফটোগ্রাফি দিতে পারে।

ডিভাইসটিতে রয়েছে প্রি-লোডেড লেটেস্ট অ্যানড্রয়েড ১৩ অপারেটিং সিস্টেম। যা ইনফিনিক্স এক্সওএস ১৩ এর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফিচারের মধ্যে রয়েছে এনএফসি, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, আইপি ৫৩ ওয়াটার ও ডাস্ট রেটিং সহ আরও অনেক ফিচার।

নতুন রূপে আসছে ইয়ামাহার নব্বই দশকের বাইক
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : জনপ্রিয় বাইক সংস্থা ইয়ামাহা পুরোনো একটি বাইকের নতুন ভার্সন আনছে বাজারে। ইয়ামাহার জনপ্রিয় আরএক্স১০০ বাইকটির নতুন মডেল আসছে খুব শিগগির। বাইকটি দুর্দান্ত পারফরম্যান্স আর শক্তিশালী পিকআপের জন্য অল্প সময়েই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। তবে ১৯৯৬ সালে সংস্থাটি বাইকটির ম্যানুফ্যাকচারিং বন্ধ করে দেয়।

২৭ বছর পর নতুন রূপে ফিরে আসছে সেই বাইকটি। ভারতে এই বাইকের গ্রাহক সংখ্যা আছে এখনো। সে কারণেই ভারতের বাজারে সংস্থাটি তাদের এই বাইকটি ফিরিয়ে আনছে। তবে কবে লঞ্চ করা হবে এই বাইক তা এখনো জানা যায়নি।

সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়, ইয়ামাহা আরএক্স ১০০ বাইকটি সেসময় ভারতের জন্য একটি বিশেষ মডেল ছিল। বাইকের স্টাইলিং, হালকা ওজন, শক্তি এবং যে শব্দ বাইকটি তৈরি করে, তা অনেকেরই মন জিতে নিয়েছিল। জনপ্রিয় সেই বাইকের নতুন প্রজন্মের ইঞ্জিন অন্তত ২০০সিসির হতে পারে বলেই ইঙ্গিত দিয়েছেন তারা। তাতেও যে শব্দটা আগের মতোই হবে, এমন কোনো নিশ্চয়তা এখনো পর্যন্ত নেই।

ইয়ামাহা মোটর কর্প এবং এসকর্টস ১৯৮৩ সালে একসঙ্গে ব্র্যান্ড থেকে বের করে আরডি৩৫০। এটি ছিল ইন্ডিয়া-স্পেক আরডি৩৫০বি, যা আন্তর্জাতিক বাজারে বিক্রি হয়েছিল। ছোট ইঞ্জিন দ্বারা চালিত এএক্স১০০ বাইকটি তরুণদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

এএক্স১০০-এর সাফল্যের পর ১৯৮৩ সালের শেষার্ধে সংস্থাটি বাজারে আনে আরএক্স১০০। তাৎক্ষণিকভাবে আরএক্স১০০ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। কারণ এটি এএক্স১০০-এর চেয়ে বেশি শক্তিশালী এবং সাশ্রয়ী ছিল। ইয়ামাহা তার জীবদ্দশায় এই বাইকের তেমন কোনো আপগ্রেড করেনি। এক দশকেরও বেশি সময় এই বাইকটি বাজারের সবচেয়ে জনপ্রিয় বাইকের তালিকায় ছিল শীর্ষে।

ইয়ামাহা আরএক্স১০০-বাইকটি একটি দুই-স্ট্রোক, একক-সিলিন্ডার, ৯৮সিসি ইঞ্জিন দ্বারা চালিত ছিল, যা ১১পিএস সর্বোচ্চ শক্তি এবং ১০.৩৯ এনএম সর্বোচ্চ টর্ক তৈরি করতে পারে। আরএক্স১০০ এর সাইজ এবং ক্ল্যাসিক ডিজাইন যে কোনো বাইকের চেয়ে বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। ফলে তরুণদের মধ্যে এই বাইকের জনপ্রিয়তা ছিল সবচেয়ে বেশি। সেই বাইক ফিরে আসছে। এখন দেখার অপেক্ষা এই প্রজন্মের তরুণদের কাছে কতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারে নব্বই দশকের জনপ্রিয় এই বাইক।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

বিষয়গত লক্ষ্য নয়, তরুণদের সম্পর্ক গড়ায় মন দিতে বললেন জুকারবার্গ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফেসবুক প্রতিষ্ঠার বিষয়ে বেশিরভাগ মানুষ হয়তো ডর্ম-রুমের ঘটনাটি জানেন। কিন্তু খোদ মার্ক জুকারবার্গই বলছেন, এই ঘটনা থেকে আপনি হয়তো ভুল শিক্ষাই পেয়েছেন।

সম্প্রতি এমআইটি’র কম্পিউটার বিজ্ঞানী লেক্স ফ্রিডম্যানের উপস্থাপনায় ‘লেক্স ফ্রিডম্যান পডকাস্ট’ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন জুকারবার্গ। সেখানে তিনি জানান, ২০০৪ সালে তার ফেসবুক প্রতিষ্ঠার কারণ কলেজ ড্রপআউট হওয়া কিংবা অন্য শখ-আহ্লাদগুলো বাদ দেওয়া নয়, বরং স্কুলজীবনে তিনি যে ব্যক্তিগত সম্পর্কগুলো তৈরি করেছিলেন, তার কারণেই সম্ভবত বিশাল এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম চালু করা সম্ভব হয়েছিল।

মেটা সিইও বলেন, কলেজে কার সঙ্গে সময় কাটাবেন, ক্যাম্পাস জীবনে যেকোনো শিক্ষার্থীর জন্য এটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত।

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, আপনি যাদের সঙ্গে থাকবেন, তাদের মতোই হয়ে উঠবেন। আমি মনে করি, মানুষ সাধারণত খুব বেশি উদ্দেশ্যকেন্দ্রিক এবং সম্ভবত যোগাযোগ ও সম্পর্ক তৈরির ওপর যথেষ্ট মনোযোগ দেয় না।

মার্ক জুকারবার্গের পাশাপাশি ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন এডুয়ার্ডো সাভারিন, ডাস্টিন মস্কোভিটজ, ক্রিস হিউজ এবং অ্যান্ড্রু ম্যাককলাম। ২০০০’র দশকের শুরুর দিকে হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে পড়াকালীন তাদের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল জুকারবার্গের। ঘটনাক্রমে তাদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ফেসবুক, যা আজ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম প্রযুক্তি কোম্পানি।

যদিও পরে সেই বন্ধুত্ব ভেঙে যায়। তবু পডকাস্টে জুকারবার্গ বলেছেন, তিনি আজও উদ্দেশ্যর চেয়ে সম্পর্ককে অগ্রাধিকার দেওয়ার চেষ্টা করেন, বিশেষ করে নিয়োগের ক্ষেত্রে।

তিনি বলেন, একজন চাকরিপ্রার্থীকে মূল্যায়নের সময় তিনি কল্পনা করেন, তার বস হওয়ার পরিবর্তে সেই ব্যক্তির অধীনে কাজ করা কেমন হবে। ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা বলেন, আমি কেবল তাকেই নিয়োগ দেই, যার অধীনে নিজেকে কাজ করতে দেখতে পারি।

জুকারবার্গ বলেন, এই কৌশলটি এমন একটি কাজের পরিবেশ তৈরি করে, যা আরও সুসংহত ও উত্পাদনশীল। আপনি যদি এমন লোকদের সঙ্গে কাজ করেন যারা মানবিক স্তরে আপনার মূল্যবোধ ভাগাভাগি করে নেন, তাহলে আপনার কাজের লক্ষ্য অর্জন সহজ হয়ে যাবে। এটি ব্যক্তিগত সামঞ্জস্য খোঁজার বিষয়, অনেকটা বন্ধু বা অংশীদার নির্বাচনের মতো।


সূত্র: সিএনবিসি

বিশ্বজুড়ে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারে বিভ্রাট
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : প্রযুক্তিগত সমস্যায় ‘মেটা’র তিনটি অ্যাপ— ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম। শুক্রবার (১৬ জুন) মধ্যরাত থেকে এ সমস্যার মুখে পড়তে হয় বহু ব্যবহারকারীকে। বার্তা থেকে ছবি বা ভিডিও কোনো কিছুই পাঠানো যাচ্ছিল না। বিশ্বজুগে ব্যবহারকারীদের একটা বড় অংশই এই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন।

এ বিষয়ে মেটার কাছে অভিযোগ জমা পড়লেও কী কারণে ওই সমস্যা দেখা দিয়েছে, তা নিয়ে কিছু জানায়নি সংস্থাটি।

ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রাম— মেটার এই তিনটি অ্যাপই বিশ্বে বহুল ব্যবহৃত। আচমকা পরিষেবা বিঘ্নিত হওয়ায় সমস্যায় পড়েন কোটি কোটি গ্রাহক। তাঁরা অভিযোগ জানাতে শুরু করেন। বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও পরিষেবার অবস্থা সম্পর্কে তথ্য প্রদানকারী একটি অনলাইন মাধ্যম ডাউন ডিটেক্টর। মেটার অ্যাপগুলোতে সমস্যা শুরু হতেই তারা সেখানে অভিযোগ জানাতে শুরু করেন।

কেউ লেখেন, ‘হোয়াটস্যাপ থেকে বার্তা পাঠানো যাচ্ছে না।’ কেউ লেখেন, ‘বন্ধুদের ছবি পাঠাতে পারছি না।’ কেউ ফেসবুকে কোনও লিঙ্ক খুলতে পারছেন না। কেউ বা ইনস্টাগ্রামে ছবি দেখতে পারছেন না। এ রকম কয়েক হাজার অভিযোগ জমা পড়েছে ডাউন ডিটেক্টরে।

কী কারণে এই সমস্যা, সেই সম্পর্কে এখন পর্যন্ত মেটা কোনও বিবৃতি না দিলেও, মেটার মুখপাত্র সংবাদপত্র দ্য সানকে বলেছেন, কিছু ব্যবহারকারীর পরিষেবা পেতে অসুবিধা হচ্ছে। সেই সম্পর্কে আমরা অবহিত। আমরা যত দ্রুত সম্ভব আমাদের পরিষেবা স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছি। অসুবিধার জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী।

আয় করা আরও সহজ করল ইউটিউব
                                  

বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব। বিনোদনের পাশাপাশি ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করে লাখ লাখ টাকা উপার্জন করেন বহু মানুষ । কিন্তু ইউটিউবে টাকা আয় করা অনেকটা কঠিন। এ জন্য মনিটাইজেশন শর্ত পূরণে বেশ কিছু ধাপ পেরোতে হয়।

ফলে অনেকে চ্যানেল খুললেও মনিটাইজেশন শর্ত পূরণ করতে না পেরে হতাশ হয়ে বন্ধ করে দেন ভিডিও আপলোড। তাদের কথা ভেবেই মনিটাইজেশন পদ্ধতি কিছুটা সহজ করেছে ইউটিউব।

মঙ্গলবার (১৩ জুন) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায় ইন্ডিয়া টুডে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউটিউব থেকে উপার্জন শুরু করার ক্ষেত্রেও বেশ কিছু ধাপ পার করতে হয়। শর্ত অনুযায়ী, যেকোনো চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা হতে হতো কমপক্ষে ১ হাজার। আর ওয়াচ আওয়ার ৪০০০ ঘণ্টা বা শর্টটে ১০ মিলিয়ন ভিউ হলেই চ্যানেলে মনিটাইজেশন হতো। যা নতুন চ্যানেলের জন্য অত্যন্ত কঠিন। সেই চিন্তা থেকেই নতুন নীতিমালা নিয়ে এসেছে ইউটিউব।

নতুন নীতিমালায় সাবক্রাইবারের সংখ্যা ৫০০ হলেই চ্যানেল মনিটাইজেশন হবে। সেই সঙ্গে ওয়াচ আওয়ার কমিয়ে ৩০০০ ঘণ্টা করা হয়েছে। তবে এই সুযোগ পাবেন নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশের ব্যবহারকারীরা। তার মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, তাইওয়ান ও দক্ষিণ কোরিয়া।

ইউটিউবের এই সিদ্ধান্ত নতুন এবং ছোট ক্রিয়েটরদের জন্য বিশেষ সহায়ক ভূমিকা পালন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্মার্টফোনে করা যাবে না যে ৮ ভুল
                                  

দিন শুরু ও শেষের মাঝের যে বস্তুর সঙ্গে মানুষের সবচেয়ে বেশি সময় কাটে সেটি হলো স্মার্টফোন। আমাদের প্রতিদিনের জীবনের একটি অংশ হয়ে উঠেছে এ স্মার্টফোন। সারাদিনে স্মার্টফোন দিয়েই চলে নানান কাজ। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে অনলাইন শপিং, সিনেমা, খবর, গেমসহ এমন কোনও কাজ নেই যা স্মার্টফোনে করা যায় না। কিন্তু এখান থেকেই শুরু হয় বিপদ।

স্মার্টফোন ব্যবহারের সময় না জেনেই আমরা অনেক ভুল করে থাকি। লম্বা সময় চার্জে দিয়ে, সারাদিন গান শোনা, আপডেট আসলে ফোনের ফিচার নষ্ট হয়ে যাবে ভেবে আপডেট না দেওয়াসহ নিজের অজান্তেই এ ধরনের অনেক কাজ আমরা করে থাকি। তবে আমাদের প্রতিদিনের করা এ কাজগুলো ফোনের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা জানলে ভুলেও আপনি এ ধরনের কাজ করবেন না।
জেনে নিন কোন ভুলগুলো স্মার্টফোনে ভুলেও করা যাবে না-
সারারাত চার্জিং : স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে করা আরেকটি কমন ভুল হলো সারারাত ধরে ফোন চার্জ দেয়া। এ ভুলটি প্রায় সবাই করে থাকেন। বর্তমানে একাধিক ফোনে ব্যাটারি হেলথ নিয়ন্ত্রণ করার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। তবুও সারারাত ধরে ফোন চার্জে লাগিয়ে রাখার অভ্যাস একদমই ভালো নয়। কারণ সারারাত চার্জিংয়ের ফলে ফোনের ব্যাটারি হিট/গরম হয়ে যায়। এর ফলে বোমার মতো ফেটে যায় স্মার্টফোন। এমন ঘটনার সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। আর এ অভ্যাস বেশিদিন চলতে থাকলে ফোনের ব্যাটারি বেশিদিন টেকে না।

ফোনের সফটওয়্যার আপডেট এড়িয়ে যাওয়া : নতুন স্মার্টফোন কেনার পর একটা সময় পর তাতে একাধিক সফটওয়্যার আসে। কিন্তু এমন অনেকেই আছেন যারা এ আপডেট দেন না বা করেন না। যদি আপনিও এ কাজটি করে থাকেন তাহলে আজই তা বাদ দিন। কারণ এটি করে আপনি আপনার সখের ফোনটির মারাত্মক ক্ষতি করছেন। মনে রাখবেন, এই সফটওয়্যার আপডেটে এমন কিছু বৈশিষ্ট্য দেয়া থাকে যা আপনার ফোনে ম্যালওয়্যার ভাইরাস প্রবেশ করতে বাধা দেয়। একই সঙ্গে পাওয়া যায় একগুচ্ছ নতুন ফিচার্স। যা আপনার স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরও ভালো করবে ও ফোনের হ্যাং হয়ে যাওয়াও বন্ধ করবে।

অ্যাপকে ফোনের সব পারমিশন দেওয়া : প্লে স্টোর থেকে নতুন কোনো অ্যাপ ইন্সটল করার পর সেটি আপনার ফোনের বেশকিছু জিনিসের অ্যাক্সেস চায়। এর মধ্যে ওই অ্যাপটির প্রয়োজনীয় কিছু পারমিশন থাকে, আর কিছু থাকে অবাঞ্ছিত। আর এখানেই ভুল করেন অধিকাংশ মানুষ। পারমিশনের নামে আপনার ফোনে থাকা বিভিন্ন ব্যক্তিগত ফাইলের অ্যাক্সেস পেয়ে যায় তারা। তাই নতুন অ্যাপ ইন্সটল করার আগে অবশ্যই যাচাই করুন তারা কী কী পারমিশন চাচ্ছে।

অন্য চার্জার/কেবল ব্যবহার : জেনেশুনে অনেকেই এ কাজটি করে থাকেন। অন্য চার্জারে নিজের স্মার্টফোন চার্জ দিলে ফোনের ব্যাটারির মারাত্মক ক্ষতি হতে। বর্তমানে অধিকাংশ ফোনে ইউএসবি টাইপ-সি চার্জিং পোর্ট ব্যবহার করা হয়। এরপরও অনেকে অন্য চার্জার দিয়ে ফোন চার্জ করেন। এর ফলে আপনার সখের স্মার্টফোনের আয়ু কমে যেতে পারে।

ব্যাকআপ এড়িয়ে যাওয়া : সারাদিনে বহু ছবি, ফাইল স্মার্টফোনে জমা হয়। সেগুলো অনন্তকাল ধরে স্মার্টফোনে সেভ থাকে না। তাই স্মার্টফোনে ফাইল ব্যাকআপ করার অপশন দেয়া হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দুই অপারেটিং সিস্টেমেই এই সুবিধা পাওয়া যায়। তাই গুরুত্বপূর্ণ ছবি, ফাইল সেভ করে রাখার জন্য সেগুলো নির্দিষ্ট সময় অন্তর ব্যাকআপ করে রাখা উচিত। এতে স্মার্টফোনও হালকা হয়।

অবিশ্বস্ত সোর্স থেকে ডাউনলোড : বর্তমানে অনেক অ্যাপ আছে যেগুলো বিশ্বস্ত সোর্স যেমন গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যায়না। যেমন এপিকে ফাইল। এগুলোকে বলা হয় থার্ড পার্টি অ্যাপ। অবিশ্বস্ত সোর্স থেকে থার্ড পার্টি অ্যাপ ইন্সটল করা মোটেও উচিত নয়। কারণ এগুলো বেশিরভাগেই ম্যালওয়্যার ভাইরাস থাকে যা আপনার ফোনের সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নেয়। অ্যাপল কখনোই থার্ড পার্টি অ্যাপ ডাউনলোড করার অনুমতি দেয় না। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েডে এ কাজটি করা যায় বিধায় আপনাকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে।

সারাদিন ব্লুটুথ অন : অনেকেরই স্মার্টফোনে সারাদিন গান শোনার অভ্যাস রয়েছে। ইয়ারফোন বা হেডফোন ব্যবহার করার জন্য অনেকক্ষন ধরে ব্লুটুথ অন করে রাখতে হয়। আপনি হয়তো জানেন না এর মাধ্যমেও আপনার ফোন হ্যাকিংয়ের সম্ভাবনা থাকে। তাই যখন ইয়ারফোন ব্যবহার করবেন না তখন ব্লুটুথ অফ করে রাখুন।

পাবলিক ওয়াইফাই : পাবলিক ওয়াইফাই পেলে ব্যবহার করেন না এমন মানুষ খুবই কম আছে। কিন্তু আপনার অজান্তেই এখানেও লুকিয়ে থাকে বিপদ। অনেক পাবলিক ওয়াইফাইয়ে ম্যালওয়্যার থাকে যা আপনার ফোনে ঢুকে গুপ্তচরবৃত্তি করতে পারে। এগুলো আপনার ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করতে পারে। তাই পাবলিক ওয়াইফাই ব্যবহারের সময় অবশ্যই সাবধান থাকুন।


   Page 1 of 20
     তথ্য-প্রযুক্তি
নতুন বাইক আনলো কাওয়াসাকি
.............................................................................................
অবশেষে ৩ দিনের দামে ৭ দিন মেয়াদে ইন্টারনেট প্যাকেজ
.............................................................................................
ঢাবির ওয়াশরুম থেকে ককটেল উদ্ধার
.............................................................................................
১০ নভেম্বরের মধ্যে মোবাইল ইন্টারনেটের দাম কমবে
.............................................................................................
ইনস্টাগ্রামে নতুন ফিচারে থাকছে যেসব সুযোগ
.............................................................................................
বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ আজ
.............................................................................................
বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে শনিবার
.............................................................................................
গুগলের ২৫তম জন্মদিন আজ
.............................................................................................
সূর্যের পথে দ্বিতীয় ধাপ অতিক্রম করল আদিত্য এল-১
.............................................................................................
অনলাইনে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য পেলে জানাবে গুগল
.............................................................................................
ইনফিনিক্স আনল কম দামের স্মার্টফোন
.............................................................................................
নতুন রূপে আসছে ইয়ামাহার নব্বই দশকের বাইক
.............................................................................................
বিষয়গত লক্ষ্য নয়, তরুণদের সম্পর্ক গড়ায় মন দিতে বললেন জুকারবার্গ
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারে বিভ্রাট
.............................................................................................
আয় করা আরও সহজ করল ইউটিউব
.............................................................................................
স্মার্টফোনে করা যাবে না যে ৮ ভুল
.............................................................................................
দুই ঘণ্টা অচল ইনস্টাগ্রাম
.............................................................................................
টুইটারের নতুন প্রধান নির্বাহীর খোঁজ পেলেন ইলন মাস্ক
.............................................................................................
৫০০-৭৫০ সিসির ই-বাইক আনছে হোন্ডা
.............................................................................................
এআই চ্যাটবটের প্রতিযোগিতায় নামছে আলিবাবা
.............................................................................................
রাতের আকাশে একই রেখায় পাঁচ গ্রহ এক চাঁদ
.............................................................................................
অ্যামাজনে ফের ছাঁটাই, চাকরি হারাতে চলেছেন ৯ হাজারেরও বেশি কর্মী
.............................................................................................
টাকার বিনিময়ে ব্লু ব্যাজ দেওয়া শুরু করলো ফেসবুক
.............................................................................................
১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করল মেটা
.............................................................................................
গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক হঠাৎ উধাও
.............................................................................................
টাকা দিয়ে কেনা যাবে ফেসবুকের ‘ব্লু ব্যাজ’
.............................................................................................
নিজের বিয়ের খবর জানালেন স্বরা
.............................................................................................
ইউটিউবের সিইও হচ্ছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত নিল মোহান
.............................................................................................
দেশের বাজারে অপোর নতুন স্মার্টফোন এ৭৭
.............................................................................................
এক চার্জে ২৮ ঘণ্টা চলবে যে ইয়ারবাড
.............................................................................................
গোবরে চলবে মারুতি সুজুকির এই গাড়ি
.............................................................................................
প্রোফাইল ফটো আকর্ষণীয় করতে ইনস্টাগ্রামের নতুন ফিচার
.............................................................................................
আসছে হার্লে ডেভিডসনের নাইটস্টার বাইক
.............................................................................................
এক চার্জে ৬০০ কিলোমিটার দৌড়াবে যে গাড়ি
.............................................................................................
পৃথিবীর মতো আরও একটি গ্রহের সন্ধান
.............................................................................................
ব্যবহারকারীর ঘুমের সময় জানাবে টিকটক
.............................................................................................
ইন্টারনেটের গতিতে সাত ধাপ এগিয়ে ১১৯তম বাংলাদেশ
.............................................................................................
তৃতীয় সন্তানের প্রতীক্ষায় বছর শুরু জাকারবার্গ দম্পতির
.............................................................................................
পুরোনো টুইট আর্কাইভ করবেন যেভাবে
.............................................................................................
‘ফলো’ না করা অ্যাকাউন্টের টুইটও দেখা যাবে
.............................................................................................
টিকটক দিয়ে বিশ্ব মাত, ৩৮ বছরেই শীর্ষ ধনীর কাতারে
.............................................................................................
ছাঁটাই কর্মীদের ফিরিয়ে আনছে টুইটার
.............................................................................................
গ্রামীণফোনের সব ধরনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
এবার বন্ধ হলো টুইটারের অফিস
.............................................................................................
১০ কোটি ডলার পাবেন টুইটারের চাকরিচ্যুত তিন কর্মকর্তা
.............................................................................................
স্মার্টফোনের ব্যাটারির আয়ু কমায় যেসব অ্যাপ
.............................................................................................
টিকটক লাইভ করতে পারবে না অপ্রাপ্তবয়স্করা
.............................................................................................
বাংলাদেশ থেকে ৫০ লাখ ভিডিও সরিয়েছে টিকটক
.............................................................................................
টুইটারে হোয়াটসঅ্যাপ বাটন
.............................................................................................
বন্ধ হচ্ছে ফেসবুকের জনপ্রিয় ফিচার
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD