বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * গঙ্গাস্নানে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা, নারী-শিশুসহ নিহত ২২   * পিলখানা হত্যাকাণ্ডে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন   * ঢাকাসহ ৮ অঞ্চলে হতে পারে ঝোড়ো বৃষ্টি   * শবেবরাত সবার জন্য রহমত ও কল্যাণ বয়ে আনুক : রাষ্ট্রপতি   * দফায় দফায় বাড়ছে খেজুরের দাম   * ডেঙ্গুর প্রকোপ : এবার আগেভাগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার নির্দেশ   * পবিত্র শবে বরাত আজ   * জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস আজ   * রোজার আগেই ভার‌ত থে‌কে দে‌শে পেঁয়াজ ঢুক‌বে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   * যুদ্ধের দুই বছর : হাল ছাড়তে চান না ক্লান্ত ইউক্রেনীয়রা  

   সারা দেশ -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ভাষা-সংস্কৃতি রক্ষায় সাঁওতাল-বাঙালি সাংস্কৃতিক উৎসব

জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধায় সাঁওতাল-বাঙালি সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে শহরের ডিবি রোডে গাইবান্ধা নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংস্থার (গানাসাস) মুক্তমঞ্চে এ কর্মসূচির আয়োজন করে নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ।

সাঁওতাল-উড়াওঁসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নারী-পুরুষ তাদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে ভাষা-সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশের দাবি-সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে একটি শোভাযাত্রা বের করে। শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভা ও বাঙালিসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর শিল্পীরা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপস্থাপন করে। এতে শতাধিক সাঁওতাল-উড়াওঁসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নারী-পুরুষ এতে অংশগ্রহণ করে।

জনউদ্যোগের সদস্যসচিব প্রবীর চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ মাজহারউল মান্নান, আদিবাসী-বাঙালি সংহতি পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু, গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর কবির তনু, সদস্যসচিব হাসান মোর্শেদ দীপন, নারী নেত্রী অঞ্জলী রানী দেবী, নাজমা বেগম, শিক্ষক আহাদুজ্জামান রিমু, অবলম্বনের প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর একেএম মাহবুব আলম মুকুল, সাঁওতাল নেত্রী মারিয়া মুর্মু, তেরেসা সরেন, ইয়ুথ নেতা সান্তনা রবিদাস প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, সাঁওতালসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মাতৃভাষা হারিয়ে যেতে বসেছে। তাদের সংস্কৃতিও বিলুপ্ত হচ্ছে। এরা বাংলাদেশের দরিদ্রতম প্রান্তিক জনগোষ্ঠী। অধিকাংশই ভূমিহীন। আদিবাসীদের ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় অবিলম্বে সরকারি উদ্যোগ নিতে হবে। অবিলম্বে আলাদা মন্ত্রণালয় গঠন করে আদিবাসী ও তাদের সংস্কৃতি বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এটি হতাশাজনক যে, বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর ভাষায় রয়েছে অনেক গীত, ঝুমুর, গল্প; যা কালের পরিক্রমায় হারিয়ে যাচ্ছে। এ সব ভাষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণ জরুরি। না হলে ভাষাগুলো গবেষণা ও পরিচর্যার অভাবে হারিয়ে যাবে।

ভাষা-সংস্কৃতি রক্ষায় সাঁওতাল-বাঙালি সাংস্কৃতিক উৎসব
                                  

জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধায় সাঁওতাল-বাঙালি সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে শহরের ডিবি রোডে গাইবান্ধা নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংস্থার (গানাসাস) মুক্তমঞ্চে এ কর্মসূচির আয়োজন করে নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ।

সাঁওতাল-উড়াওঁসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নারী-পুরুষ তাদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে ভাষা-সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশের দাবি-সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে একটি শোভাযাত্রা বের করে। শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভা ও বাঙালিসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর শিল্পীরা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপস্থাপন করে। এতে শতাধিক সাঁওতাল-উড়াওঁসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নারী-পুরুষ এতে অংশগ্রহণ করে।

জনউদ্যোগের সদস্যসচিব প্রবীর চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ মাজহারউল মান্নান, আদিবাসী-বাঙালি সংহতি পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু, গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর কবির তনু, সদস্যসচিব হাসান মোর্শেদ দীপন, নারী নেত্রী অঞ্জলী রানী দেবী, নাজমা বেগম, শিক্ষক আহাদুজ্জামান রিমু, অবলম্বনের প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর একেএম মাহবুব আলম মুকুল, সাঁওতাল নেত্রী মারিয়া মুর্মু, তেরেসা সরেন, ইয়ুথ নেতা সান্তনা রবিদাস প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, সাঁওতালসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মাতৃভাষা হারিয়ে যেতে বসেছে। তাদের সংস্কৃতিও বিলুপ্ত হচ্ছে। এরা বাংলাদেশের দরিদ্রতম প্রান্তিক জনগোষ্ঠী। অধিকাংশই ভূমিহীন। আদিবাসীদের ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় অবিলম্বে সরকারি উদ্যোগ নিতে হবে। অবিলম্বে আলাদা মন্ত্রণালয় গঠন করে আদিবাসী ও তাদের সংস্কৃতি বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এটি হতাশাজনক যে, বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর ভাষায় রয়েছে অনেক গীত, ঝুমুর, গল্প; যা কালের পরিক্রমায় হারিয়ে যাচ্ছে। এ সব ভাষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণ জরুরি। না হলে ভাষাগুলো গবেষণা ও পরিচর্যার অভাবে হারিয়ে যাবে।

গাজীপুরে গার্মেন্টস কর্মীর আত্মহত্যা
                                  

মোঃ মোসলেহ উদ্দিন বাচ্চু : গাজীপুর সদর উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের বি.কে.বাড়ি শিকদার মার্কেট এলাকায় এক যুক আত্মহত্যা করেছে।

২৪শে ফেব্রুয়ারি বিকেলে শিকদার মার্কেট জামে মসজিদ রোডে অবস্থিত একটি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে।

নিহত মোঃ আসাদুল ইসলাম (২৬) রবিউল ইসলাম এবং জহুরা খাতুনের এক মাত্র ছেলে। তিনি পাবনা জেলার ফরিদপুর থানাধীন কাশিপুর গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি শিকদার মার্কেট এলাকার নূর মোহাম্মদ এর বাড়িতে ভারা থাকতেন।
নিহতের পিতা ও উপস্থিত লোকদের থেকে জানা যায়,আসাদুল ইসলামের ১৭ মাস বয়সের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।সে স্থানিয় রেনেসা এপ‍্যারেলস এ চাকরি করতেন। আজকে ছুটি থাকায় বাড়িতেই ছিল। তার সহ ধর্মীনি কথা বলছিল, এক পর্যায়ে আসাদুল রাগকরে ভিতরের ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে তার দরজা খোলার জন্য ডাক দিলে কোন সাড়াশব্দ না পাওয়ায় আশে পাশের লোকজন ডাকে। তারা সকলে থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ এসে সকলে উপস্থিতিথে দরজা কেটে দেখতে পায় ফেনের সাথে ওরনা পেচিয়ে ঝুলে আছে।

পরবর্তীকালে পুলিশ আশেপাশের লোকজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করে লাশ থানায় নিয়ে জায়।

আত্মহত্যার বিষয়ে জয়দেবপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইবরাহিম খলিল জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে লাশ থানায় নিয়ে এসেছি। নিহতের পরিবার বলছে সে মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগে আত্মহত্যা করেছে। তাই তার কোন অভিযোগ করতে চাইছে না। এবং ময়নাতদন্ত করাতে চাচ্ছে না। তবে আত্মহত্যার বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে। আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ-আলোচনা করে লাশ হস্তান্তরে বিষয়ে সিধান্ত নিব।

গাছে গাছে আমের মুকুল, ছড়াচ্ছে পাগল করা ঘ্রাণ
                                  

কাজী সাইফ উদ্দিন : আমের মুকুল : আয় ছেলেরা, আয় মেয়েরা, ফুল তুলিতে যাই, ফুলের মালা গলায় দিয়ে মামার বাড়ি যাই, ঝড়ের দিনে মামার দেশে আম কুড়াতে সুখ, পাকা জামের মধুর রসে রঙিন করি মুখ। পল্লীকবি জসীম উদ্দিনের ‘মামার বাড়ি’ কবিতার পংক্তিগুলো বাস্তব রূপ পেতে বাকি রয়েছে আর মাত্র কয়েক মাস। আজ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি তবে সুখের ঘ্রাণ বইতে শুরু করেছে। গাছে গাছে ফুটছে আমের মুকুল। চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে এই মুকুলের পাগল করা ঘ্রাণ।

বাতাসে মিশে সৃষ্টি করছে মৌ মৌ গন্ধ। যে গন্ধ মানুষের মনকে বিমোহিত করে। পাশাপাশি মধুমাসের আগমনী বার্তা শোনাচ্ছে আমের মুকুল। আমাদের রাজধানী ঢাকা হলেও কেরানীগঞ্জ উপজেলা হলেও কেরানীগঞ্জের রাজধানী জিঞ্জিরা। তেমনি আমের জন্য বিখ্যাত চাপাইনবাবগঞ্জ জেলাকে বলা হয় আমের রাজধানী। জেলার শিবগঞ্জ ও ভোলাহাটে সরেজমিনে দেখা যায়, আম বাগানের সারি সারি গাছে শোভা পাচ্ছে কেবলই মুকুল। এ যেন হলুদ আর সবুজের মহামিলন। মুকুলে ছেয়ে আছে গাছের প্রতিটি ডালপালা। চারদিকে ছড়াচ্ছে সেই মুকুলের সুবাসিত পাগল করা ঘ্রাণ। তবে আমের ফলন নির্ভর করছে আবহাওয়ার ওপর। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের বাম্পার ফলনের আশা করছেন বাগান মালিকরা।

এদিকে মৌসুমের শুরুতে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মুকুলে ভরে গেছে বাগানসহ ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো আম গাছগুলোতে। তবে বড় আকারের চেয়ে ছোট ও মাঝারি আকারের গাছে বেশি মুকুল ফুটেছে। সেই মুকুলের মৌ মৌ গন্ধে বাগান মালিকদের চোখে ভাসছে স্বপ্ন। আম্রুপালি, গোপালভোগ, ল্যাংড়া, ফজলি, ক্ষিরসাপা অন্যতম। ইতিমধ্যে এসব গাছে মুকুল আসা শুরু হয়েছে। গাছের পুরো মুকুল ফুটতে আরও কয়েক সপ্তাহ লাগবে বলে জানান বাগান মালিকরা। তবে ইদানীং ঢাকা জেলা দোহার, নবাবগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ উপজেলা শখের বশবর্তী হয়ে শত শত আম বাগান রয়েছে শখ ও ব্যবসায় সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে, আম বাগানগুলোতে রাজধানীর ঢাকার আশপাশের বিনোদন মনা শহরের কোলাহল ও গাড়ির কালো ধোঁয়া থেকে দম নিতে দলবেঁধে কখনো পরিবার পরিজনদের নিয়ে নিয়ে বেড়াতে আসে রাজধানী ঢাকার সদর দক্ষিন থানা বাঁ উপজেলাগুলোতে আম বাগান গুলোর নীচে হয়ে যাক বনভোজন বাঁ পিকনিক স্পট। ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন রুহিতপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ ধর্মশুর প্রফেসর ডাক্তার মোঃ আনিসুর রহমানের শখের আম বাগান এবার হয়ে গেল গ্রীণ হাউজ পিকনিক স্পট। ভ্রমণ পিপাসুদের আনাগোনা সেই আম বাগানের ছায়ায়। ঘুরাফেরা বেড়ানো হলো। শখিন আম বাগানের মালিক লন্ডন প্রবাসী রুহিতপুরের হাজী মতিউর রহমান, সাংবাদিক মিয়া আবদুল হান্নান, মোহাম্মদ শাহাবুল খান, ওমান প্রবাসী মোঃ খোকন মিয়া, তার সহধর্মিণী মামনী আক্তার ও মোখশেদা নাসির মিলে বিকেলে আম বাগান দেখা- ছবি তোলা ও ঘুরে ফিরে আজকের দিনটা বেড়ানো হয়ে গেল। লন্ডন প্রবাসী মতিউর রহমান জানান, প্রায় দুই বছর আগে থেকে তাদের বাগানে লাগানো আম গাছে মুকুল আসা শুরু হয়েছে। বেশিরভাগ গাছ মুকুলে ছেয়ে গেছে। কিছু গাছে গাছে মুকুল বের হচ্ছে।

সাংবাদিক মিয়া আবদুল হান্নান জানান, মুকুল আসার পর থেকেই তার গাছের প্রাথমিক পরিচর্যা শুরু করেছেন। মুকুল রোগ বালাইয়ের আক্রমন থেকে রক্ষা করতে স্থানীয় কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ওষুধ স্প্রে করছেন । এরকম বহু আম বাগান মালিকরা আরও জানান, বর্তমানে আবহাওয়া অনুকূলে রয়েছে। এ অবস্থা থাকলে এবার আমের বাম্পার ফলন বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য অনুয়ারী, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম বাগান আছে ২৪ হাজার ৪৭০ হেক্টর জমিতে আর আম গাছ আছে প্রায় ১৯ লাখ। আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের (আম গবেষণা কেন্দ্র) উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শরফ উদ্দিন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গেলো দুই সপ্তাহ থেকে গাছে আমের মুকুল আসতে শুরু করেছে। মূলত আবহাওয়াগত কারনে দেশীয় জাতের গাছে এই আগাম মুকুল আসতে শুরু করেছে। শখিন আম বাগানের মালিক মোহাম্মদ শাহাবুল খান বলেন, এ সময় বাগানে বসবাস করা হপার বা ফুদকী পোকা যারা মুকুলের ক্ষতি করে। এ পোকা দমনে বালইনাশক স্প্রে করতে হবে। তবে যেহেতু দুই একদিন থেকে কুয়াশা বেশি পড়ছে গতকাল ২২ ফেব্রুয়ারি রহমতের বৃষ্টি ঝড়ে গেল এখন স্প্রে করে খুব ভালো ফল পাবেন না চাষীরা।

কারণ ঠাণ্ডার কারণে এমনিতেই হপার পোকা গাছের বাকলে লুকিয়ে থাকবে। তবে আরও এক সপ্তাহ পরে দিলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে। সেই সঙ্গে নিয়ে সালফার জাতীয় ছত্রাক নাসক স্প্রে করার পরামর্শ দেন ওই রুহিতপুর বাজার বালাই নাশক ঔষধ বিক্রেতা সোনাকান্দার হাজী মোস্তফা কামাল।

সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে : রাশেদ প্রধান
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : রাজধানী ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবে তোফখানা রোডস্থ ১২ দলীয় জোটের মিছিল পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়েছে। আজ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে মিছিলের প্রস্তুতি নেন দলটির নেতাকর্মীরা। এসময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন।

নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, পুলিশের মারমুখী আচরণে স্লোগান ও মিছিল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ ১২ দলীয় জোটের ব্যানার ও ফেস্টুন কেড়ে নেয়। ব্যানার ছাড়াই ১২ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা মিছিল শুরু করেন এবং পল্টন মোড়ে গিয়ে মিছিলটি শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন ১২ দলীয় জোটের মুখপাত্র ও বাংলাদেশ এলডিপির মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম। শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথে আছি,রাজপথে থাকবো। এর আগে পুলিশি বাধায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ মিছিলপূর্ব সমাবেশ করতে পারেননি জোট নেতারা। সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তারা তখন বলেন, আপনারা দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে কর্মসূচি করতে পারেন। এখানে আমাদের পক্ষ থেকে কোনো বাঁধা নেই। কিন্তু রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কোনো কর্মসূচি করতে দিতে পারি না। সকাল ১১টার দিকে ১২ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা সমাবেশের জন্য জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের ফুটপাতে জড়ো হতে থাকেন। এ সময় তারা স্লোগানও দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে পুলিশ এসে তাদের ব্যানার ছিনিয়ে নেয় এবং জোট নেতাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। পরে নেতারা পুলিশি বাঁধার মূখে সমাবেশ না করে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন।

বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ১২ দলীয় জোটের সমন্বয়ক বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহেসানুল হুদা বলেন, আন্দোলন চলমান আছে এবং এই আন্দোলন চলবে। সৈয়দ এহেসানুল হুদান বলেন, পৃথিবীর যেকোনো রাষ্ট্রে আমরা দেখেছি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে দেশপ্রেমিক জনগণ প্রতিবাদে সোচ্চার থাকে। কিন্তু আমাদের দেশে দিল্লির তাঁবেদার সরকার মানুষের কথা বলার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহেসানুল হুদা দেশের আপামর জনগণকে ভারতীয় পণ্য বর্জনের আহ্বান জানান।জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সিনিয়র সহ-সভাপতি রাশেদ প্রধান বলেন, ১২ দলীয় জোটের আন্দোলন চলছে। সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। বিক্ষোভ মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন লেবার পার্টির চেয়ারম্যান লায়ন ফারুক রহমান, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মাওলানা আব্দুল করিম, মাওলানা শওকত আমিন, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির একাংশের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন পারভেজ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি জাকির হোসেন। এছাড়া কর্মসূচির শুরুতে ১২ দলীয় জোটের প্রধান ও জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, মহাসচিব আহসান হাবীব লিংকন উপস্থিত ছিলেন।  

সাগরপথে মিয়ানমারে খাদ্যদ্রব্য পাচারকালে বিপুল পরিমাণ ভোজ্যতেল, আটা, চিনি ও রঁসুন উদ্ধারঃ গ্রেফতার -৩
                                  

আবু সায়েম, কক্সবাজারঃ কক্সবাজার শহরে সাগর পথে পাচারের চেষ্টাকালে ভোজ্যতেল, আটা, চিনি ও রঁসুনসহ বিপুল পরিমাণ খাদ্যদ্রব্য জব্দ করেছে র‌্যাব-১৫। এসময় পাচারকাজে জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয় । বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ল` এন্ড মিডিয়া) মোঃ আবু সালাম চৌধুরী। তিনি দাবি করেন জব্দ করা খাদ্যপণ্যগুলো যুদ্ধ পরিস্থিতিতে থাকা প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারে পাচারের জন্য মজুদ করা হয়েছিল।

আটককৃতরা হলো - কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম এলাকার মৃত হাসন আলীর ছেলে আবু তাহের (৫০) এবং টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের মৃত মো. শরীফের ছেলে মো. তৈয়ব (২৪)। এছাড়া আটক অপরজন হল, চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার কাহারঘোনা এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে কবির আহমদ (৫৩)।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার মধ্যরাতে কক্সবাজার শহরের মাঝেরঘাট এলাকায় খুরুশকূল ব্রিজের দক্ষিণ পাশে কতিপয় লোকজন যুদ্ধপরিস্থিতিতে থাকা মিয়ানমারে পাচারের জন্য বেশ কিছু পরিমান খাদ্যপন্য মজুদ করার খবরে র‌্যাবের একটি চৌকস দল অভিযান চালায়। এতে ঘটনাস্থলে পৌঁছলে সন্দেহজনক ৪/৫ জন লোক দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা চালায়। পরে ধাওয়া দিয়ে ৩ জনকে আটক করতে সক্ষম হলেও অন্যরা পালিয়ে যায়। আটককৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, মিয়ানমারে পাচারের জন্য তারা বেশ কিছু পরিমান খাদ্যদ্রব্য মজুদ করেছে। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে, স্থানীয় একটি বাসা থেকে ৫৩ টি বস্তায় ২ হাজার ১২০ লিটার সয়াবিন তেল, ১৭ টি বস্তায় ৮৫০ কেজি আটা, ১৫ টি বস্তায় ৭৫০ কেজি চিনি, ১২ টি বস্তায় ৪৮০ কেজি রঁসুন উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা এসব খাদ্যপন্যের আনুমানিক মূল্য ৬ লাখ টাকার বেশী। “

আটকদের দেওয়া তথ্যের বরাতে র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ল` এন্ড মিডিয়া) মোঃ আবু সালাম চৌধুরী বলেন, মিয়ানমারে সরকারি বাহিনী ও আরাকান আর্মির মধ্যে চলমান সংঘাতের জেরে দেশটির রাখাইন রাজ্যে বেশ কিছু এলাকা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এতে পন্য সরবরাহ বন্ধ থাকায় রাজ্যটিতে খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। এতে সীমান্তের যুদ্ধপরিস্থিতির মধ্যেও পাচারকারি চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে। আর চক্রটির সদস্যরা কক্সবাজার উপকূলবর্তী সাগরের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে খাদ্যপন্য পাচার করে আসছিল।

আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে কক্সবাজার সদর থানায় মামলা করা হয়েছে বলে জানান এ র‌্যাব কর্মকর্তা।

মিয়ানমার অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ চাচ্ছে : গোপালগঞ্জে র‌্যাবের ডিজি
                                  

মিয়ানমার অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ চাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) এম খুরশীদ হোসেন। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে এম এ খালেক ডিগ্রি কলেজ মাঠে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

এম খুরশীদ হোসেন বলেন, মিয়ানমার যা করছে তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই করছে। মিয়ানমার অনেক আগে থেকেই চাচ্ছে বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ করার জন্য। রোহিঙ্গা আটক হওয়া থেকে শুরু করে তারা পায়ে পাড়া দিচ্ছে, আমরা তো কাজ করি আমরা জানি। আমি বহুবার কক্সবাজার গিয়েছি, বর্ডারে গিয়েছি, আমি সব ঘুরে এসেছি। প্রধানমন্ত্রী যে দৃঢ়চেতা এবং তার যে প্রজ্ঞা, উনি কোনো দিন যুদ্ধে জড়াবেন না। কারণ এখন যুদ্ধে যাওয়া মানে আমার দেশটা শেষ হয়ে যাওয়া। মিয়ানমারে এখন সামরিক সরকার রয়েছে। তারা এখন চাচ্ছে আমাদের সঙ্গে যুদ্ধ বাধাতে পারলে তারা সেভ হবে। কারণ ওই দেশে এখন যে অবস্থা তৈরি হয়েছে, আরাকান আর্মি তাদের বিরুদ্ধে গিয়ে এখন সমানে ভূমি দখল করছে। সেনাবাহিনী-আরাকান দ্বন্দ্ব এখন বলতে গেলে শেষ পর্যায়ে চলে গেছে। গভর্নমেন্ট বাঁচার জন্য উসকানি দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মাদক এখন বিভিন্ন দেশ থেকে এয়ারেও আসছে, জলপথেও আসছে। বেশির ভাগ মাদক মিয়ানমার থেকে আসছে। উদ্দেশ্যমূলকভাবে মাদক পাঠাচ্ছে মিয়ানমার। কিছু দিন পর আপনারা জানবেন আমরা যে জাল ফেলে রেখেছি, সবচেয়ে যে বড় গ্যাংস্টার, তাকে আমরা জালের মধ্যে ফেলেছি। আমরা কিছু করতে পারব।

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রনি হত্যা মামলা প্রসঙ্গে র‍্যাব মহাপরিচালক বলেন, সাগীরা মোর্শেদ মারা যাওয়ার ৩৫ বছর পার হয়েছে। আর সাংবাদিক দম্পতি হত্যা তো মাত্র কয়দিন। আমরা চাচ্ছি প্রকৃত খুনিকে খুঁজে বের করতে। মামলাটির তদন্ত এর আগে ডিএমপি করেছে, ডিবি করেছে, এখন আমাদের কাছে। তবে এখনো পজিটিভ কিছু আসে নাই। আমাদের চেষ্টা চলছে। এতোদিন যেহুতু রয়ে গেছে, আমরা ভাবছি দেখিনা কী করা যায়, আর ওই দেখিনার মধ্যে রয়ে গেছে। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি, আমরা বিশ্লেষণ করছি, তদন্ত কর্মকর্তা বদলাচ্ছি, চেষ্টা করছি। তদন্ত প্রতিবেদন একদিন না একদিন হবেই। এভাবে পড়ে থাকবে না। শুরু যার আছে তার শেষও আছে।

এর আগে এম খুরশীদ আলম কাশিয়ানী এম এ খালেক কলেজ মাঠে আয়োজিত কাশিয়ানী উপজেলার ১০৯ জন জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন এবং কৃতী শিক্ষার্থীদের প্রত্যেককে নগদ ১০ হাজার টাকা ও ক্রেস্ট প্রদান করেন।

এম খুরশীদ হোসেন বিগত ১৯৮০-৮১ সালে কাশিয়ানী এম এ খালেক কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন।

ভাসানচরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ : চমেকে রোহিঙ্গা শিশুর মৃত্যু
                                  

নোয়াখালীর ভাসানচরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ রাসেল নামে এক রোহিঙ্গা শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। মারা যাওয়া শিশুটির বয়স আনুমানিক আড়াই বছর।

চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাকিরা হলেন, জোবায়দা (২২), মুবাসসারা (৪), রোসমিনা (৫), রবি আলম (৫), আমেনা খাতুন (২৪) ও সোহেল (৫)।

চমেক হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামীম আহসান বলেন, ভাসানচরে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ৯ জনের মধ্যে ৭ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে এক শিশুকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি ৬ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আহতদের মধ্যে মুবাসসারার শরীরের ৬০ শতাংশ, রোসমিনার ৫০ শতাংশ, রবি আলমের ৪৫ শতাংশ, আমেনা খাতুনের ৮ শতাংশ সোহেলের ৫২ শতাংশ ও জোবায়দার ২৫ শতাংশ দগ্ধ হয়।

তিনি আরও বলেন, আহতদের মধ্যে আমেনা খাতুন ছাড়া বাকি সবারই শ্বাসনালী দগ্ধ হয়েছে। তাই তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

উল্লেখ্য, শনিবার সকালে হাতিয়া উপজেলার ভাসানচরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৮১ নম্বর ক্লাস্টারে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে ৫ শিশুসহ ৯ জন দগ্ধ হয়। আহতদের প্রথমে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ৭ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে।

দক্ষিণখানে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাদরাসাছাত্র নিহত
                                  

রাজধানীর দক্ষিণখানের আসিয়ান সিটি এলাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মো. ওমর ফারুক (১৮) নামের এক মাদরাসা শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে দুর্ঘটনায় আহত হন ওমর ফারুক। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ৯টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওমর ফারুকের বাবা রাজন মিয়া বলেন, আমার ছেলে রূপগঞ্জের মাদরাসাতুস সুন্নাহে কিতাবখানার শিক্ষার্থী। বিকেলে মোটরসাইকেলে দুই বন্ধুকে নিয়ে ঘুরতে যায়। পরে খবর পাই ছেলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুই বন্ধুসহ গুরুতর আহত হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রথমে তাদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আমার ছেলেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

রাজন মিয়া আরও বলেন, আমি বিভিন্ন মার্কেটের শার্টার মেরামতের কাজ করি। আমাদের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানা গন্দকপুর গ্রামে। আমার এক ছেলে এক মেয়ের মধ্যে ওমর ফারুক ছিল বড়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ মর্গে রাখা আছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

পুকুরে জাল ফেলতেই উঠে এলো জ্যান্ত ইলিশ
                                  

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে একটি মসজিদের পুকুর সেচে এক কেজি ওজনের একটি ইলিশ মাছ পাওয়া গেছে। সাগরের লোনাপানির এ মাছ কীভাবে মিঠাপানির পুকুরে বড় হলো তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ভূমিহীন বাজারের পাশে এনামুল হক মিয়া মেম্বারের মসজিদের পুকুর থেকে ইলিশ মাছটি পাওয়া যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ আবু নাছের সজিব বলেন, মসজিদের পুকুর সেচে মাছ ধরার জন্য জাল ফেলা হয়। পরে অন্য মাছের সঙ্গে ইলিশ মাছটি দেখে অনেকে হতবাক হয়ে যান। বিষয়টি প্রথমে বিশ্বাস হয়নি। পরে ভালোভাবে পরীক্ষা করে মাছটি ইলিশ বলেই নিশ্চিত হয়েছি।

স্থানীয়রা জানান, নদী থেকে কোরাল মাছের পোনা এনে ওই পুকুরে ছাড়া হয়েছিল। এরমধ্যে যে ইলিশ মাছ থাকবে তা কেউ ধারণাই করতে পারেনি। খবর শুনে জ্যান্ত ইলিশ দেখতে আশপাশের লোকজন মসজিদের পুকুরপাড়ে জড়ো হন। মাছটি সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় সাংবাদিক মো. আবদুল হামিদ রনি বলেন, জ্যান্ত ইলিশ দেখার সৌভাগ্য জেলে ছাড়া কারো হয় না। আজ দেখলাম। লোনাপানির এ মাছটি পুকুরে বড় হয়েছে শুনে অনেকেই অবাক হয়েছে। এই মাছ পুকুরে চাষ সম্ভব কিনা সংশ্লিষ্ট দপ্তরে গবেষণার অনুরোধ জানাচ্ছি।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আশরাফুল ইসলাম সরকার বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে স্বাদু পানিতে ইলিশ মাছ কম বাড়লেও একটা সময় পর্যন্ত বেঁচে থাকে। তবে বাণিজ্যিকভাবে এটি লাভজনক নয়। এছাড়া স্বাদু পানিতে ইলিশের স্বাদ ও গন্ধ ঠিক থাকে না। নদীর তীরবর্তী এলাকা হওয়ায় অন্য মাছের সঙ্গে মাছটি পুকুরে আসতে পারে।

কুড়িগ্রামে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধু নিহত
                                  

কুড়িগ্রামে ট্রাকচাপায় সাদমান সাদিক (১৬) ও হিমু (১৭) নামের দুই কিশোর নিহত হয়েছে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ধরলা সেতুর পশ্চিম পাড়ের কাছে ট্যানারিপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সাদিক কুড়িগ্রাম সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এবং হিমু কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইন স্কুলের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। সাদিক পৌর শহরের পলাশবাড়ী বানিয়াপাড়া গ্রামের ঠিকাদার আব্দুল ওয়াদুদের ছেলে। হিমু ভেলাকোপা গ্রামের শিক্ষক মো. নুর ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সাদিক ও হিমু দুই বন্ধু। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে মোটরসাইকেল নিয়ে তারা ধরলা সেতুর উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সেতুর পশ্চিমে ট্যানারিপাড়ায় মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ভুরুঙ্গামারী থেকে ছেড়ে আসা একটি ট্রাকের নিচে চলে যায়। এসময় মোটরসাইকেলটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

পরে দুজনকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক সাদিককে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যদিকে হিমুকে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।

কুড়িগ্রাম সদর থানার তদন্ত কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ সরকার বলেন, ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বরগুনায় ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল বিনষ্ট
                                  

বরগুনা: বরগুনা সদর উপজেলায় ২০ হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এসময় ঘটনাস্থল থেকে কেউ আটক যায়নি।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে সদর উপজেলার চালিতাতলি এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব জাল জব্দ করা হয়।

এ সময় সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস. এম. মাহমুদুল হাসানের সঙ্গে অভিযানে উপস্থিত ছিলেন মেরিন ফিশারিজ অফিসার মো. নাজমুস সাকিব, সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা নয়ন চন্দ্র শীল, মৎস্য অধিদপ্তরের সদস্যরা ও পুলিশ সদস্যরা।

মেঘনায় নিষিদ্ধ জালে মাছ ধরায় ১৫ জেলেকে জরিমানা
                                  

চাঁদপুর: চাঁদপুরের হাইমচরে মেঘনা নদীতে কারেন্ট জালসহ অন্যান্য নিষিদ্ধ জালে মাছ ধরায় আটক ১৫ জেলেকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার নীলকমল পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড়ে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়।

নেতৃত্বে ছিলেন হাইমচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পূর্বিতা চাকমা।
জরিমানাপ্রাপ্তরা হলেন- খোরশেদ (৩৮), মো. সোহাগ (৩২), মো. রাছেল (২৯), রিয়াদ মিজি (২৭), মো. মোহন মীর (২১), মো. শাওন (২০), মো. শান্ত মোল্লা (১৯), মো. বাবু (২০), মো. রাজিব বেপারী (৩০), মো. হৃদয় মীর (২৫), সেলিম মীর (৫০), মো. রুবেল (৩৫), মো. রিয়াদ (২৫), সোহাগ খান (৩০) ও আবু বকর বেপারী (৫০)।

অভিযানে অংশগ্রহণকারী হাইমচর উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. মাহবুব রশীদ জানান, কম্বিং অপারেশনের চতুর্থ ধাপের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত মেঘনা নদীর চরভৈরবী এলাকায় উপজেলা টাস্ক ফোর্স যৌথ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৩০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, একটি চরঘেরা জাল জব্দ করা হয়। নিষিদ্ধ ঘন ফাঁসের জাল দিয়ে ১০০ কেজি জাটকা, চেউয়া মাছের একটি ব্রুড স্টক এবং অন্যান্য প্রজাতির মাছ ধরা অবস্থায় ১৫ জেলেকে হাতেনাতে আটক করা হয়। আটক ১৫ জেলেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। জব্দকৃত জাল ইউএনওর উপস্থিতিতে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয় এবং জব্দকৃত মাছ স্থানীয় দুস্থদের মধ্যে বিতরণ করা হয়।

অভিযানে নীল কমল নৌপুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর হোসেনসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক দুর্ঘটনায় শিশুসহ দুইজন নিহত
                                  

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছে। শিশু নিহতের প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুব্ধরা।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে ও দুপুরে পৃথক দুটি স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার নীমগাছি গ্রামের মো. রুহুল আমীনের স্ত্রী মোসা. খাইরুন নেসা (৬০) ও শিবগঞ্জ উপজেলার ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নের কালিনগর গ্রামের মো. কাউসার আলীর ছেলে মো. রাফি (৯)।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিন্টু রহমান জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার জোড়গাছি নতুনপাড়া এলাকায় বালুভর্তি একটি ড্রাম ট্রাক পথচারী খাইরুন নেসাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করেছে পুলিশ।

অপরদিকে, বেলা ১২টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ আঞ্চলিক সড়কের শিবতলা এলাকায় পুলিশ সার্জেন্ট মো. মতিউর রহমান একটি মোটরসাইকেল জোরপূর্বক থামাতে গেলে পেছনে থাকা একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে ধাক্কা লেগে রিকশাটি উল্টে যায়। এ সময় অটোরিকশায় মায়ের সঙ্গে থাকা শিশু রাফি রাস্তায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাফিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহী স্থানান্তর করেন। পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

এদিকে শিশুর মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করেন। প্রায় আধা ঘণ্টা যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে করে সোনামসজিদ স্থলবন্দর থেকে ছেড়ে আসা শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন আটকে যায়। পরে পুলিশের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে অবরোধ তুলে নেয় এলাকাবাসী।

ঝালকাঠিতে ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত
                                  

ঝালকাঠি: ঝালকাঠির নলছিটিতে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সাধু আন্তনির সপ্তম তীর্থ উৎসবে যোগ দিতে এসেছেন ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত মন্সিনিয়র কেভিন রান্ডাল।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়নের রাজাবাড়ীয় গ্রামে খ্রিস্টযাগ অনুষ্ঠিত হয়।


তীর্থ যাত্রীদের আগমনে মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে গানে গানে মুখরিত হয়ে উঠে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ। তীর্থোৎসবের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বে কয়েক হাজার খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বী নর-নারী অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত মন্সিনিয়র কেভিন রান্ডাল।

খ্রিস্ট প্রসাদ বিতরণ শেষে ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপনী আশীর্বাদ জ্ঞাপন করেন দ্বিতীয় পর্বের প্রার্থনা পরিচালনাকারী বরিশালের ক্যাথোলিক ধর্মপ্রদেশ ধর্মপাল বিশপ ইম্মানুয়েল কানন রোজারিও।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পাল পুরোহিত ফাদার রবার্ট দীলিপ গোমেজ, ফাদার খোকন গাব্রিয়েল নকরেক,ফাদার রিজন মারিও বাড়ৈ।

সীমান্তে হাতি আতঙ্কে মশাল নিয়ে রাত পাহারায় গ্রামবাসী!
                                  

পঞ্চগড়: পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় বাংলাবান্ধা ইউনিয়নে ভারতীয় বন্য হাতির তাণ্ডবে নুরুজ্জামান (২৩) নামে এক বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যুর পর আবারও উপজেলার সীমান্তের তিন গ্রামে হাতির আতঙ্ক ছড়িয়েছে। এদিকে হাতি তাড়াতে রাতে সীমান্ত এলাকায় মশাল প্রজ্বলন করে অবস্থান নিয়েছে গ্রামবাসীরা।

আতঙ্কের ঘটনাটি ঘটেছে জেলার তেঁতুলিয়া সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া, সিদ্দিকনগর, খুনিয়াভিটা গ্রামের। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বন্য হাতি দুটি তেঁতুলিয়ার তেলিপাড়া গ্রামের সীমান্ত থেকে মাত্র ২০০ গজ দূরে ভারতের হাফতিয়াগছ বিএসএফ ক্যাম্প সংলগ্ন ভারতীয় ফরেস্টের জিরো সীমানায় অবস্থান করছে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে গ্রামবাসীরা আগুন ও মশাল নিয়ে অবস্থান করছে। সঙ্গে জানমালের নিরাপত্তায় গ্রাম পুলিশ ও সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যদের পাশাপাশি ভারতের অভ্যন্তরে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী ও ভারতীয় বন বিভাগকে অবস্থান নিতে দেখা গেছে।

এর আগে এদিন সকাল থেকে উপজেলা সদরের তেলিপাড়া, সিদ্দিকনগর, খুনিয়াভিটাসহ গ্রামগুলোতে ভারতীয় বন্য হাতি আসার খবর নিয়ে আতঙ্ক বিরাজ করে। একই সঙ্গে সাধারণ মানুষকে সচেতন ও হাতিকে বিরক্ত করা থেকে বিরত থাকতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচারণা করা হয়েছে।

জানা গেছে, হাতির আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে সকালে তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফজলে রাব্বি তেঁতুলিয়া সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া ও ভারতের হাফতিয়াগছ ফরেস্টের জিরো সীমানায় উপস্থিত হয়ে ভারতীয় বন দপ্তরের প্রতিনিধির সঙ্গে জরুরি সাক্ষাৎ করেন এবং হাতি দুটিকে ট্রাংকুলাইজার ব্যবহার করে হাতিগুলোকে দ্রুত উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান।

স্থানীয় গ্রামবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত দু-দিন আগে বাংলাবান্ধায় হাতি দুটি তাণ্ডব চালিয়ে একজনকে মেরে ফেলেছে। এবার আমাদের এলাকার পাশে সীমান্তের ভারতীয় অভ্যন্তরে একটি জঙ্গলে হাতি দুটি অবস্থান করছে। না জানি কখন বাংলাদেশে প্রবেশ করে আমাদের ওপর হামলা করে। তাই আমরা সবাই আতঙ্কে রয়েছে। হাতি দুটি ভারতীয় ফরেস্ট জঙ্গলে অবস্থান করছে। এদিকে জঙ্গল থেকে বের হলে আমাদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি করতে পারে। তাই আমরা আগুন নিয়ে অবস্থান করছি। কারণ হাতি দুটি আমাদের গ্রামের দিকে এলে আগুন দেখে পালিয়ে যাবে। তাই রাত পাহারায় রয়েছি গ্রামের সবাই।

এ বিষয়ে ইউএনও ফজলে রাব্বি বলেন, দু-দিন পর আবারও বাংলাদেশে প্রবেশের আশঙ্কা থাকায় আমরা ভারতের বন দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে আলোচনা করেছি। হাতি দুটি যেন বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে। বন্য হাতিকে দেখে কেউ যেন বিরক্ত না করে এবং মানুষকে নিরাপদে থাকতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচারণা করা হচ্ছে। আশা করছি ভারতীয় বন বিভাগ তাদের কৌশল অবলম্বন করে হাতি দুটিকে উদ্ধার করে দ্রুত নিয়ে যাবে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের রওশনপুর বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্ত পিলার ৭৩৫/২ এস এর মধ্যবর্তী ইসলামবাগ এলাকা দিয়ে দুটি ভারতীয় বন্য হাতি বাংলাদেশে প্রবেশ করে। পরে হাতি দুটি তিরনইহাট এলাকা হয়ে গোয়ালগছ বিওপির দায়িত্বপূর্ণ সীমান্তে কাশিমগঞ্জ এলাকায় এসে অবস্থান নিয়ে তাণ্ডব চালিয়ে কিছু বাড়ি ঘরে হামলা করে এবং সন্ধ্যায় হাতির তাণ্ডবে নুরুজ্জামান (২৩) নামে এক বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু হয়। পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বিজিবি সদর দপ্তরের নির্দেশনায় বিকেলে কাশিমগঞ্জ সীমান্ত এলাকার ৭৩০ পিলারে বাংলাদেশ ও ভারতীয় বনবিভাগের প্রয়োজনীয় সমন্বয় সাধনের জন্য পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পতাকা বৈঠকে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসা হাতি দুটি ভারতে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য বাংলাদেশি বনবিভাগের সদস্যদের সঙ্গে ভারতীয় বনবিভাগ বিভাগের সদস্যদের প্রয়োজনীয় আলোচনা হয়। পরে রাতে গোয়ালগছ ক্যাম্পের বিপরীতে ৭৩০ এর নিকটবর্তী বিএসএফ ব্যাটালিয়নের ফাঁসিদেওয়া ক্যাম্প এলাকা দিয়ে নদী পার হয়ে ভারতে প্রবেশ করে হাতি দুটি।

সিরাজগঞ্জে ৩৩২ কেজি জাটকা জব্দ
                                  

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার যমুনা নদীর তীরে অভিযান চালিয়ে ৩৩২ কেজি জাটকা মাছ জব্দ করেছে উপজেলা মৎস্য বিভাগ।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সদর উপজেলার যমুনা নদীর ক্রসবার-৪ এলাকায় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, অভিযানে ৩৩২ কেজি জাটকাসহ ১১ জেলেকে আটক করা হয়। পরে মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, অভিযান চলাকালে নদীর তীরে কিছু অবৈধ কারেন্ট জাল পাওয়া যায়। সেগুলো পুড়িয়ে দেওয়া হয়। আর জব্দকৃত জাটকা স্থানীয় চারটি এতিমখানায় দেওয়া হয়েছে।

অভিযান চলাকালে সদর উপজেলা মৎস্য বিভাগের ক্ষেত্র সহকারী গোলাম রাব্বি, সিরাজগঞ্জ নৌ-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাব হোসেন ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


   Page 1 of 553
     সারা দেশ
ভাষা-সংস্কৃতি রক্ষায় সাঁওতাল-বাঙালি সাংস্কৃতিক উৎসব
.............................................................................................
গাজীপুরে গার্মেন্টস কর্মীর আত্মহত্যা
.............................................................................................
গাছে গাছে আমের মুকুল, ছড়াচ্ছে পাগল করা ঘ্রাণ
.............................................................................................
সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে : রাশেদ প্রধান
.............................................................................................
সাগরপথে মিয়ানমারে খাদ্যদ্রব্য পাচারকালে বিপুল পরিমাণ ভোজ্যতেল, আটা, চিনি ও রঁসুন উদ্ধারঃ গ্রেফতার -৩
.............................................................................................
মিয়ানমার অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ চাচ্ছে : গোপালগঞ্জে র‌্যাবের ডিজি
.............................................................................................
ভাসানচরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ : চমেকে রোহিঙ্গা শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
দক্ষিণখানে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাদরাসাছাত্র নিহত
.............................................................................................
পুকুরে জাল ফেলতেই উঠে এলো জ্যান্ত ইলিশ
.............................................................................................
কুড়িগ্রামে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধু নিহত
.............................................................................................
বরগুনায় ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল বিনষ্ট
.............................................................................................
মেঘনায় নিষিদ্ধ জালে মাছ ধরায় ১৫ জেলেকে জরিমানা
.............................................................................................
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক দুর্ঘটনায় শিশুসহ দুইজন নিহত
.............................................................................................
ঝালকাঠিতে ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত
.............................................................................................
সীমান্তে হাতি আতঙ্কে মশাল নিয়ে রাত পাহারায় গ্রামবাসী!
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জে ৩৩২ কেজি জাটকা জব্দ
.............................................................................................
গাজীপুরে ঢাকা প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন
.............................................................................................
সৈয়দপুরে ইয়াবাসহ যুবক আটক
.............................................................................................
ফেনীতে ছয় দিনব্যাপী একুশে বইমেলার উদ্বোধন
.............................................................................................
দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীবাহী মাহেন্দ্রয় ট্রাকের ধাক্কা, বৃদ্ধ নিহত
.............................................................................................
পরীক্ষা দিতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেলো দাখিল পরীক্ষার্থীর
.............................................................................................
খৎনার সময় শিশুর পুরুষাঙ্গ কাটার অভিযোগ
.............................................................................................
ভাষা শহীদদের স্মরণে নড়াইলে লাখো প্রদীপ প্রজ্জ্বলন
.............................................................................................
পর্যটকে ভরপুর কক্সবাজার
.............................................................................................
যশোরে ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
.............................................................................................
কেরানীগঞ্জ আইনজীবী কল্যাণ সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম
.............................................................................................
শিলা বৃষ্টির আভাস, বাড়বে রাতের তাপমাত্রা
.............................................................................................
টেকসই কৃষি ব্যবস্থা গড়তে সহযোগিতা বাড়ানোর আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর
.............................................................................................
চালক ঘুমে, সহকারী বাস চালানোর সময় ট্রলির সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ২
.............................................................................................
ভয়াবহ প্রক্সিকাণ্ড, এডমিটের সঙ্গে ছবির মিল না থাকায় কেন্দ্র সচিব সহ ৫৯ মাদরাসা পরীক্ষার্থী আটক
.............................................................................................
রনাকের উদ্যোগে দুস্থ নারীদের মাঝে ছাগল বিতরণ
.............................................................................................
বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিল তিন্নি
.............................................................................................
নওগাঁয় ভয়াবহ প্রক্সিকাণ্ড, ৫৭ দাখিল পরীক্ষার্থীর সবাই ভুয়া
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু টানেলে ট্রাকের ধাক্কা
.............................................................................................
গফরগাঁওয়ে রেললাইনের স্লিপার পিন চুরির সময় ২ যুবক আটক
.............................................................................................
ঢাকা জেলা প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত কমিটির বাকি অংশের শপথ অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
সিংড়ায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার পেল সাংবাদিক কন্যা সাফা
.............................................................................................
হরিপুরে শিক্ষক সমিতির ৪র্থ বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
বনবিভাগের অভিযানে ২৫ শতক বনভূমি জবরদখল মুক্ত
.............................................................................................
ছাগলছানা খেতে এসে মারা পড়লো মেছো বিড়াল
.............................................................................................
লিচুর রাজ্যে গাছে গাছে মুকুল, বাম্পার ফলনের আশা
.............................................................................................
ভারতীয় ট্রাকে পাথরের নিচে মিললো ২৫ লাখ টাকার শাড়ি
.............................................................................................
সাতসকালে ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো তিনজনের
.............................................................................................
সিরাজদিখান প্রেসক্লাব নির্বাচনে মোক্তার সভাপতি ও মাসুদ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন
.............................................................................................
কালবেলায় সংবাদ প্রকাশের পর নতুন ভবনঃ ভত্তি প্রস্তর উদ্ধোধন করলেন মাজহারুল ইসলাম- এমপি
.............................................................................................
পুকুরে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু
.............................................................................................
টাঙ্গাইলে পিকআপ-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ৪
.............................................................................................
শিবচরে ট্রেনের ধাক্কায় মাদরাসাছাত্র নিহত
.............................................................................................
দেশ বিক্রি করার চুক্তি আমরা করিনি, করব না : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
মিয়ানমার থেকে গুলিবিদ্ধ নারীসহ বাংলাদেশে পাঁচ রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD