বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * যাত্রী বাড়লেও চিরচেনা সেই চাপ নেই সদরঘাটে   * পশ্চিমবঙ্গে বিপৎসীমা ছাড়িয়েছে তিস্তার পানি   * সীমান্তে বেড়েছে গরু চোরাচালান   * সড়কে চাপ আছে যানজট নেই: কাদের   * মানুষ শুধু গরু দেখছে, কিনছে না   * আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবার জিরা আমদানি   * পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু আজ   * এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে যানবাহনের চাপ   * শিগগির যুদ্ধবিরতির সম্ভাবনা দেখছেন না বাইডেন   * বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে ৩ কোটি ২১ লাখ টাকার টোল আদায়  

   সারা দেশ -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
মাগুরছড়া ট্রাজেডি দিবসে মানববন্ধন

জেলা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের মাগুরছড়া ট্র্যাজেডির ২৭ তম বার্ষিকী উপলক্ষে আজ ১৪ জুন শুক্রবার জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটি, কমলগঞ্জ উন্নয়ন পরিষদ, পাহাড় রক্ষা উন্নয়ন সোসাইটিসহ বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠন এর উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসুচী পালিত হয়েছে। জেলা সভাপতি মো. ময়নুল ইসলাম চৌধুরীর উপস্থিতিতে বিশিষ্ট সাংবাদিক গবেষক লেখক আহমদ সিরাজ বক্তব্য দেন। এসময় আরো বক্তব্য দেন এড. সানোয়ার আহমেদ, কমলগঞ্জ উপজেলা শাখা সভাপতি প্রফেসর সেলিম আহমদ চৌধুরী, শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখা সভাপতি সাহরাব ইসলাম রুহীন, জুয়েল আহমেদ এবং রাজিব দাস সহ অনেক নেতারা।

মাগুরছড়া ট্রাজেডি দিবসে মানববন্ধন
                                  

জেলা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের মাগুরছড়া ট্র্যাজেডির ২৭ তম বার্ষিকী উপলক্ষে আজ ১৪ জুন শুক্রবার জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটি, কমলগঞ্জ উন্নয়ন পরিষদ, পাহাড় রক্ষা উন্নয়ন সোসাইটিসহ বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠন এর উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসুচী পালিত হয়েছে। জেলা সভাপতি মো. ময়নুল ইসলাম চৌধুরীর উপস্থিতিতে বিশিষ্ট সাংবাদিক গবেষক লেখক আহমদ সিরাজ বক্তব্য দেন। এসময় আরো বক্তব্য দেন এড. সানোয়ার আহমেদ, কমলগঞ্জ উপজেলা শাখা সভাপতি প্রফেসর সেলিম আহমদ চৌধুরী, শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখা সভাপতি সাহরাব ইসলাম রুহীন, জুয়েল আহমেদ এবং রাজিব দাস সহ অনেক নেতারা।

আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবার জিরা আমদানি
                                  

প্রায় ছয় মাস বন্ধ থাকার পর আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আবারও পণ্য আমদানি শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় একটি ট্রাকে করে বন্দর দিয়ে ৭ মেট্রিক টন জিরা এসেছে ভারত থেকে। এর মাধ্যমে আবারও সচল হলো বন্দরের আমদানি বাণিজ্য।

হাইড্রোল্যান্ড সলিশন নামে ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠান এই জিরা আমদানি করেছে। আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্থলবন্দরের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মেসার্স শফিকুল ইসলাম আমদানিকৃত জিরার কাস্টমস ক্লিয়ারিংয়ের কাজ করবে।

আমদানিকারক সূত্রে জানা গেছে, প্রতি টন জিরার দাম পড়েছে দুই হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার, যা স্থানীয় মুদ্রায় দুই লাখ ৯২ হাজার ৫০০ টাকার মতো (প্রতি ডলার ১১৭ টাকা ধরে)।

আখাউড়া স্থলবন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মো. ছাগিরুল ইসলাম জানান, হাইড্রোল্যান্ড সলিশন আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ৭ মেট্রিক টন জিরা আমদানির জন্য এলসি খুলেছে। আজকে সন্ধ্যায় জিরা নিয়ে একটি ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করেছে। প্রথমবারের মত এই স্থলবন্দর দিয়ে দেশে জিরা আমদানি হয়েছে। আমদানি পণ্য থেকে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ নির্ধারিত হারে শুল্ক এবং বন্দর কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন মাশুল পাবে।

৬ অঞ্চলে বৃষ্টির আভাস
                                  

দেশের ছয় অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার (১৪ জুন) দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেওয়া আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; রংপুর এবং চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা এবং রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

খুলনা বিভাগসহ রাজশাহী এবং পাবনা জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে।

এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে যানবাহনের চাপ
                                  

স্বজনের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাজধানী ছেড়ে গ্রামে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। এতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে পদ্মা সেতুতে বেড়েছে যানবাহনের চাপ। পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা থেকে বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়ের ছনবাড়ি পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটারজুড়ে যানবাহনের জট দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার (১৪ জুন) ভোর থেকে যানবাহন চাপ বাড়তে থাকে বলে জানিয়েছে সেতু কর্তৃপক্ষ।

এদিকে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় যানবাহনগুলোকে টোল গ্রহণে কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এ কারণে সেতু এলাকায় যানবাহনের কিছুটা ধীরগতি রয়েছে।

মাওয়া ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জিয়াউল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, টোল প্লাজা থেকে প্রায় ছনবাড়ি পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার এই জট রয়েছে। ভোর থেকে একসঙ্গে এত গাড়ি এবং পদ্মা সেতুর ওজন পরিমাপক যন্ত্র অপারেটর কাজে যারা জড়িত তাদের ধীরগতির কারণে মহাসড়কে ট্রাকের জট লেগে যায়। ওয়েট স্কেলের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত ট্রাক সরালে কিছুটা যানজট কমতে থাকে।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে ৩ কোটি ২১ লাখ টাকার টোল আদায়
                                  

ঈদের ছুটিতে ঢাকা-টাঙ্গাইল ও বঙ্গবন্ধু সেতুতে তিন কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার তিনশ টাকার টোল আদায় হয়েছে। ঈদের ছুটিতে মহাসড়কে যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় বেড়েছে টোল আদায়।

শুক্রবার (১৪ জুন) সকালে বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল বিষয়টি নিশ্চিত করেছন।

বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিস সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১২ জুন) রাত ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) রাত ১২টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৪০ হাজার ৯০৬টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। টোল আদায় হয়েছে তিন কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার তিনশ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব অংশে ২২ হাজার ৬৪৫টি যানবাহন পারাপার হয়। এ থেকে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৫৮ লাখ ৮১ হাজার চারশ টাকা। সিরাজগঞ্জে সেতুর পশ্চিম অংশে ১৮ হাজার ২৬১ যানবাহন থেকে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৬৩ লাখ ১৫ হাজার ৯০০ টাকা।
বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল জানান, কর্মস্থল ছুটি হওয়ার কারণে যানবাহনের পারাপার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেতু পারাপারে যাতে কোনো বিঘ্ন না ঘটে সে লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যানজট নিরসনে সেতুর উভয় অংশে ৯টি করে ১৮ টোল বুথ স্থাপনসহ মোটরসাইকেলের জন্য চারটি বুথ স্থাপন করা হয়েছে।

সেফটিক ট্যাংকে নেমে দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর মৃত্যু
                                  

শরীয়তপুরের ডামুড্যাতে সেফটিক ট্যাংক পরিষ্কারে নেমে দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর ডামুড্যা এলাকার কবির সরদারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন, বগুড়ার সোনাতলা থানার পশ্চিম টেকানী এলাকার দুলু শেখের ছেলে মালেক শেখ (৪৫) ও পূর্ব টেকানী এলাকার আফসার বেপারীর ছেলে লিটন বেপারী (৩৫)।

স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, কবির সরদারের বাড়ির সেফটিক ট্যাংক পরিষ্কারের জন্য মালেক ও লিটন নামের দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে (সুইপার) ১০ হাজার টাকা চুক্তিতে নিয়ে আসা হয়। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে তারা ট্যাংকের ভেতরে পাইপ বসিয়ে ময়লা অপসারণ করছিলেন। এসময় লিটন ট্যাংকের ভেতরে নামলে হঠাৎ করেই নিচে লুটিয়ে পড়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধারে অপর শ্রমিক মালেক শেখ নামলে তিনিও আর উপরে উঠে আসেননি। তাদের সাড়া না পেলে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন বাড়ির লোকজন। ফায়ারসার্ভিসের কর্মীরা এসে দুজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।


ডামুড্যা ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার প্রদীপ কীর্তনীয়া বলেন, সেপটিক ট্যাংকের ভেতর প্রচুর বিষাক্ত গ্যাস ছিলো। আমরা গ্যাস অপসারণ করে ভিকটিম দুজনকে উদ্ধার করি।

ডামুড্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমারত হোসেন বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য দুই মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজধানী ঢাকার সাভারে ভূয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে পশুর হাটের ইজারা নেয়ার অভিযোগ
                                  

কাজী সাইফ উদ্দিন : এবারের কোরবানীর ঈদে রাজধানী ঢাকার সাভারের কুটুরিয়ায় ভূয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে গরুর হাটের ইজারা নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগ করেছেন কুটুরিয়া এলাকার সচেতন মহল। এর নেপথ্যে সাভারের দূর্গাপূরের টিটু সরকার নামে এক ব্যক্তি রয়েছে বলেও জানান এলাকাবাসী।

অন্যদিকে, ওই ভূয়া নামে ইজারা নেয়ার চেষ্টা করতে গিয়ে টিটু সরকারের লোকজন সাভার নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করেছেন। যে ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানায় সাভার উপজেলা প্রশাসন।
জানা গেছে, ঢাকা জেলা প্রশাসক কর্তৃক ২০২৪ সালের কোরবানীর ঈদের পশুর হাটের ইজারা প্রদান করা হয়। গত ১০ জুন জনৈক বাবু নামে এক ব্যক্তি কুটুরিয়া হাটের ইজারা পেয়েছেন বলে দেখা যায়। কিন্তু, দরপত্রে শুধু নাম ও মোবাইল নম্বর ছাড়া আর কোন তথ্য তিনি প্রদান করেননি বলে সূত্র জানায়। পরে এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ভূয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে ইজারা নেয়ার ব্যাপারে সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হয়।

অন্যদিকে, কুটুরিয়ার পাশ্ববর্তী গ্রাম দূর্গাপূরের হারেজ সরকারের পুত্র টিটু সরকার ওই বাবুর নামে ইজারার বন্দোবস্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেন। তিনি আজ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রভাবিত করে ইজারার কাগজ নেয়ার চেষ্টা করেন। পরে এতে ব্যর্থ হয়ে সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করেছেন বলেও তথ্য আছে।
এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহুল চন্দ বলেন, কুটুরিয়ার অস্থায়ী পশুর হাটের বাবু নামে যিনি ইজারা নিয়েছেন আজ অবধি তিনি প্রকাশ্যে আসেননি। তাঁকে আমাদের কোন কর্মকর্তা চিনেন না। এ ছাড়াও ওই হাট নিয়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হবে কি না, সে ব্যাপারেও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জনৈক বাবু শুধু নাম ও মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে ইজারায় অংশ নিয়েছেন। পরে আর কোন তথ্য তিনি প্রদান করেননি বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)।
ভূয়া তথ্য দিয়ে ইজারা নেয়া এবং সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নামে মিথ্যাচারের সাথে জড়িত টিটু সরকারসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান সাভার উপজেলা প্রশাসন।

ঈদযাত্রায় চাপ নেই, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়‌ক ফাঁকা
                                  

ঈদ‌কে কেন্দ্র ক‌রে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়‌কে যানবাহনের চাপ দেখা যায়নি। বুধবার (১২ জুন) রাতে প‌রিবহ‌নের অ‌তি‌রিক্ত চাপ ও এলেঙ্গা হ‌তে বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব অংশের বি‌ভিন্নস্থা‌নে ছোটখা‌টো দুর্ঘটনার কার‌ণে ১৩ কি‌লো‌মিটার অং‌শে ধীরগ‌তি থাক‌লেও রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত মহাসড়কে স্বাভাবিক গতিতে গাড়ি চলাচল করতে দেখা গেছে।

বৃহস্প‌তিবার (১৩ জুন) সকাল ১০টার দি‌কে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়‌কের এলেঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, ভুঞাপুর লিঙ্ক রোড, সেতুপূর্ব এলাকায় কোনো যানজট দেখা যায়‌নি। ভোররা‌ত থেকে সকাল পর্যন্ত মহাসড়‌কের ১৩ কি‌লোমিটার এলাকায় প‌রিবহ‌নের ধীরগ‌তি থাক‌লেও কোনো যানজট ছিল না। ত‌বে সড়‌কে পরিবহনের চাপ বাড়তে পারে।

এদি‌কে কোরবানি ঈদে প‌রিবা‌রের সঙ্গে ঈদ কর‌তে ঘরমু‌খো মানুষজন প‌রিবার-প‌রিজন নি‌য়ে ব্যক্তিগত যানবাহন, মোটরসাইকেল ও খোলা ট্রাকযো‌গে গন্তব্যে যা‌চ্ছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু কর্তৃপ‌ক্ষ সূ‌ত্রে জানা গে‌ছে, গেল ২৪ ঘণ্টায় সেতু‌তে টোল আদায় বে‌ড়ে‌ছে। এ সময় ৩০ হাজার ৮৩৪‌টি প‌রিবহন সেতু পারাপার হ‌য়ে‌ছে। এর বিপরী‌তে টোলপ্লাজায় টোল আদায় হ‌য়ে‌ছে ২ কো‌টি ৮২ লাখ ৭২ হাজার ৯৫০ টাকা। প‌রিবহ‌নের ম‌ধ্যে গরুবাহী ট্রাক, ব্যক্তিগত যানবাহন ও মোটরসাইকে‌ল সেতু‌ দি‌য়ে পারাপার হ‌য়ে‌ছে।

মহাসড়‌কে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা জানায়, মধ্যরাতে সড়‌কে যানবাহনের চাপ বেড়ে গি‌য়ে‌ছিল। তাছাড়া মহাসড়কের বিভিন্নস্থা‌নে ছোটখা‌টো একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছিল। ফ‌লে ওই সব ক্ষতিগ্রস্ত প‌রিবহনগু‌লো সরাতে সময় লাগায় মহাসড়‌কে প‌রিবহ‌নের ধীরগ‌তির সৃ‌ষ্টি হয়। ত‌বে উত্তরবঙ্গ থে‌কে ছে‌ড়ে আসা প‌রিবহনগু‌লো‌কে সেতুপূর্ব গোলচত্ত্বর থে‌কে ঘু‌রি‌য়ে ভুঞাপুর-টাঙ্গাইল আঞ্চ‌লিক সড়ক দি‌য়ে যাতায়াত কর‌ছে। ফ‌লে মহাসড়‌কের এলেঙ্গা হ‌তে সেতুপূর্ব পর্যন্ত ১৩ কি‌লো‌মিটার সড়‌ক একমু‌খী করা হ‌য়ে‌ছে।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মীর মো. সাজেদুর রহমান জানান, এলেঙ্গা থে‌কে সেতুপূর্ব পর্যন্ত সড়ক একমু‌খী করার কার‌ণে কোনো ধীরগ‌তি নেই মহাসড়‌কে। স্বাভা‌বিক গ‌তি‌তেই প‌রিবহনগু‌লো চলাচল কর‌ছে। কোথাও কোনো যানজট বা প‌রিবহ‌নের ধীরগ‌তি নেই।

৬ লাখে বিক্রি হবে সাড়ে ২২ মণের রাজা বাবু
                                  

২৬ বছর যাবত গরু মোটাতাজা করে আসছেন কিশোরগঞ্জের ভৈরব শহরের কমলপুর নিউ টাউন এলাকার বাসিন্দা আশরাফুল আলম রুজেন। খামারের নিজস্ব গাভীর উৎপাদিত ফ্রিজিয়ান জাতের কয়েকটি ষাঁড় গরুর মধ্যে এবছর কোরবানির ঈদে বিক্রির জন্য তিনি প্রস্তুত করেছেন রাজা বাবু নামের একটি গরু। সাড়ে ২২ মণ ওজনের রাজা বাবু বিক্রি হবে ৬ লাখ টাকায়।

আশরাফুল আলম রুজেন তার খামারে উৎপাদিত গরু সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে লালন পালন করে থাকেন। দেশীয় খাবার খড়, ঘাস, ভূষি খাইয়ে গরুগুলো মোটাতাজা করা হয়েছে।

খামারি রুজেন বলেন, ২৬ বছর যাবত খামারে গরু লালন পালন করে আসছি। প্রতি বছরই কোরবানির সময় খামারের নিজস্ব গরু থেকে উৎপাদিত বড় বড় গরু মোটাতাজা করে বিক্রির জন্য প্রস্তুত করে থাকি। এ বছর কোরবানির ঈদে ফ্রিজিয়ান জাতের একটি বড় গরু বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। দেশীয় উপায়ে খামারে গরু লালন পালন করি। কোনো ধরনের মেডিসিন ব্যবহার করা হয় না।

তিনি বলেন, ৯০০ কেজি ওজনের রাজা বাবুকে ৬ লাখ টাকায় বিক্রি করবো। এরইমধ্যে অনেকে ক্রেতা রাজা বাবুকে দেখতে এসেছেন। তারা দেখে বিভিন্ন দরদাম করছেন। কেউ কেউ ৩-৪ লাখ টাকা দাম বলেছে কিন্তু এই দামে রাজা বাবুকে বিক্রি করবেন না বলে তিনি জানান।


খামারের পরিচর্যাকারী সুলতান মিয়া বলেন, আমাদের খামারের গাভীর বাচ্চা হলো রাজা বাবু। তাকে ৩ বছর যাবত খড়, ঘাস, ভূষি, ছোলা খেতে দিয়েছি। কোনো ধরনের ক্ষতিকর ইনজেকশন ছাড়াই গরু লালন পালন করে মোটাতাজা করা হয়েছে। এখন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে বিক্রির জন্য দেশীয় খাবার দিয়ে বড় করা হয়েছে।

ভৈরব উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মনিরুজ্জামান তরফদার জানান, খামারি আশরাফুল আলম রুজেনের খামারে উৎপাদিত ফ্রিজিয়ান জাতের ৯০০ কেজি ওজনের একটি ষাঁড় গরু কোরবানির ঈদে বিক্রির জন্য মোটাতাজা করেছেন। ষাঁড় গরুটির নামকরণ করেছেন রাজা বাবু। তার খামারে রাজা বাবুকে দেখতে ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা প্রতিদিনই ভিড় করছেন।

তিনি আরও বলেন, এখানকার খামারিরা সারা বছর তাদের তত্ত্বাবধানে ছিলেন। পশু মোটাতাজাকরণে তারা খামারিদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ, পরামর্শ ও চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন। খামারিরা তাদের তত্ত্বাবধানে থাকায় এখানকার উৎপাদিত পশুগুলো সম্পূর্ণ নিরাপদ। এবছর ২ হাজার ১০০টি খামারে ১৮ হাজার পশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। এসব পশু স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে অন্যান্য জেলায় বিক্রি করা যাবে বলে তিনি জানান।

একরাতে ৪ ট্রান্সফরমারের কয়েল চুরি, সেচকাজ বন্ধ
                                  

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার রামনগর গ্রামের মাঠ থেকে ৪টি বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারের কয়েল চুরি হয়েছে। এতে অর্ধশত বিঘা জমির সেচকাজ বন্ধ হয়ে গেছে। বুধবার (১২ জুন) রাতের কোনো এক সময় এই চুরির ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, রামনগর বাজারের পাশে শহিদুল ইসলামের ইটভাটায় বৈদ্যুতিক সংযোগের জন্য ৩টি এবং শহিদুল ইসলামের সেচ পাম্পের জন্য ১টি ট্রান্সফরমার ছিল। রাতের আঁধারে অজ্ঞাত চোরেরা বৈদ্যুতিক পোল থেকে ট্রান্সফরমার খুলে ফেলে। এরপর ট্রান্সফরমারের উপরের কভার ভেঙে ভেতরে থাকা কয়েল নিয়ে যায়। এতে ইটভাটার যন্ত্রপাতি ও বৈদ্যুতিক সেচ পাম্পের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এতে অর্ধশতাধিক বিঘা জমির সেচ কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। পল্লী বিদ্যুত সমিতির নিয়মানুযায়ী ট্রান্সফরমার চুরি হলে নতুন ট্রান্সফরমার স্থাপনের সব খরচ গ্রাহককে বহন করতে হবে। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন সেচ পাম্প মালিকরা।

মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতির বামন্দী জোনাল অফিসের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার হানিফ রেজা জানান, চুরির ঘটনায় থানায় জিডি করা হচ্ছে।

টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় কৃষি কর্মকর্তাসহ নিহত ২
                                  

টাঙ্গাইলে পিকআপ ভ্যান ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের ঘাটাইল উপজেলার কদমতলি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার গারট্ট গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন ও কাশতলা গ্রামের জুয়েল রানা।

পুলিশ জানায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মোটরসাইকেলে তিন আরোহী কদমতলি থেকে ঘাটাইলের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় মধুপুর থেকে ছেড়ে আসা পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলে থাকা তিনজন সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন। পরে আহতাবস্থায় আলমগীরকে ঘাটাইল ও জুয়েলকে কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। আহত একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালাম মিয়া জানান, মরদেহ হাসপাতালে রয়েছে। চালককে আটক করাসহ পিকআপ ভ্যানটি জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি।

এখন গরিবেরা তিনবেলা ভাত খায় আর ধনীরা খায় আটা : খাদ্যমন্ত্রী
                                  

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, যখন দেশে খাদ্যের অভাব ছিল তখন অনেকেই ভাতের মাড় খেতো। অনেকেই আবার রুটি খেতো। কেউ আটা কিনলে মনে করতো সে মনে হয় সবচেয়ে গরিব মানুষ। কিন্তু এখন গরিবেরা তিনবেলা ভাত খায় এবং ধনীরা আটা খায়। সেটা ওজন বাড়ার ভয়েই হোক কিংবা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করার জন্যই হোক।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুর ১২টায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সাইলোতে সরকারি প্রিমিক্স কার্নেল ফ্যাক্টরি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একসময় আমাদের খাদ্যের অভাব ছিল। অনেকেই তখন একবেলা ভাত খেতো। বিদেশ থেকে চাল আমদানি করে তখন খেতে হতো। তখন ধারণা ছিল গোডাউনের চাল মানেই গন্ধ চাল। আর এখন গোডাউনের চালের জন্য মানুষ লাইন ধরে। বর্তমানে চালের মান অনেক ভালো বলে আমি মনে করি। তবে তখন খাদ্যে পুষ্টি মিশ্রণ করতে হতো না। এখন আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছি। বর্তমানে খাদ্যের অভাবে কোনো মানুষ মারা গেছে এমন ইতিহাস বাংলাদেশে নেই। শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ। পাশাপাশি তিনি কৃষিকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছেন। অর্থাৎ কৃষি যতো এগিয়ে যাবে আমাদের খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ইসমাইল হোসেন, খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, র্যাব-১১ এর অধিনায়ক (সিও) তানভীর মাহমুদ পাশা, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন) আমির খসরু, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দেদারুল ইসলাম ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক প্রমুখ।

বিদ্যালয়ের মাঠে পশুর হাট, ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা
                                  

 

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরায় প্রশাসনের ইজারা ছাড়াই অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের মাঠে পশুর হাট বসানোর অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তানভীর ও হৃদয় নামে ২ যুবককে আটক করে জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নে পিরিজকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অবৈধভাবে বসা কোরবানির পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও রায়পুরা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. শফিকুল ইসলাম।

এ সময় হাটে রশিদ কাটা অবস্থায় দুই যুবককে আটক করে সরকারি বিধি ভঙ্গের অভিযোগে ১৮৮ ধারায় অভিযুক্ত করে প্রত্যেককে ১০০০ টাকা করে সর্বমোট ২০০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

জানা যায়, বুধবার স্কুলের পাঠদান কার্যক্রম চালু ছিলো। পশুর হাট বসানোর পর দুপুর ১টায় স্কুলটি ছুটি দেওয়া হয়। স্কুল ছুটির ব্যাপারে জানতে প্রধান শিক্ষকের নাম্বারে একাধিকবার ফোন দিলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

স্কুল চলাকালীন বিদ্যালয়ের মাঠে পশুর হাট বসানো যায় কি না জানতে চাইলে রায়পুরা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সামালগীর আলম বলেন, আজ বিদ্যালয়ের পাঠদান কার্যক্রম চালু ছিল। বিদ্যালয়ের মাঠে কোনো পশুর হাট বসতে পারে না। এরপরও যদি সরকার পশুর হাটের জন্য লিজ (ইজারা) দেয় তাহলে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ একটু সেক্রিফাইস করতেই পারে। তবে একটা প্রতিষ্ঠানে হঠাৎ করে পশুর হাট বসানোর কোনো নিয়ম নেই।

এছাড়াও প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকের অনুমতি ছাড়া স্কুল মাঠে গরু বিক্রি দূরের কথা, একটা গরু ঢোকানোর সাধ্য নেই কারো। তাহলে ওনি আইনগত সমস্যায় পড়ে যাবেন।

বিদ্যালয়টির পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও মির্জাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মঞ্জুর এলাহী বলেন, প্রতি বছরই এখানে ঈদের আগে একটি বাজার বসে। এখানে শুধু মাত্র স্কুলের মাঠ ব্যাবহারের জন্য স্কুলের সভাপতির অনুমতি নিলেই হয় কিন্তু এবার ইউএনও স্যার বলেন ডিসির কাছ থেকে অস্থায়ী বাজারের জন্য আবেদন লাগে। এটা তারা জানতো না। এরপরও তারা আবেদন করেছিল কিন্তু মেয়াদ শেষ হওয়ার কারণে অনুমতি পায়নি। যেহেতু মাইকিং করা হয়েছে পাবলিক আসছে, ক্রেতা বিক্রেতা আসছে, তাদেরকে ফেরানো যায়নি।

রায়পুরা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, স্কুল মাঠে পশুর হাট বসানো হয়েছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে রশিদ কাটা অবস্থায় দুই জনকে আটক করে জরিমানা আদায় করে হাটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

সেন্ট মার্টিনে বিকল্প পথে যাবে পণ্য, যাতায়াত করবে মানুষও
                                  

কক্সবাজার: মিয়ানমারে সংঘাতের জেরে নিরাপত্তা জনিত কারণে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে গত পাঁচদিন ধরে ট্রলার চলাচল বন্ধ থাকার পর শুক্রবার থেকে বিকল্প পথে কক্সবাজার থেকে সেন্ট মার্টিনে পণ্যবাহী ট্রলার চলাচলের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে জেলা প্রশাসন।

কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়ামিন হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মিয়ানমারে সংঘাতের কারণে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে নৌযান চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

এ অবস্থা দ্বীপে যেন খাদ্য সংকট না হয় সেজন্য বিকল্প পথে সরাসরি কক্সবাজার থেকে নৌযান চলাচলের সিদ্ধান্ত হয়েছে।
তিনি জানান, শুক্রবার থেকে কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছড়ার বিআইডব্লিউটিএ ঘাট থেকে সাগরপথে নিয়মিত পণ্যবাহী ট্রলার চলাচল করবে। বৃহস্পতিবার টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপের ঘোলারচর পয়েন্ট থেকে পাঁচটি ট্রলারে করে কিছু পণ্য পাঠানো হবে।

তিনি আরও জানান, নাফ নদীতে যেহেতু ট্রলার দেখলেই গুলি ছোঁড়া হচ্ছে সেকারণে বিকল্প পথ হিসেবে কক্সবাজার থেকে পণ্য পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ পথে নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি নেই।

ইয়ামিন হোসেন জানান, মানুষের চলাচলও সীমিত আকারে স্বাভাবিক করা হচ্ছে। জরুরি ভিত্তিতে যাদের টেকনাফে যাতায়াত করা দরকার তাদের শাহপরীর দ্বীপের ঘোলারচর থেকে নির্দিষ্ট ট্রলারে করে কোস্টগার্ডের সহায়তায় যাতায়াতের সুযোগ দেওয়া হবে। তবে এ রুটে সীমিত আকারে ট্রলার চলবে শুধুমাত্র জোয়ারের সময়।

প্রসঙ্গত, টেকনাফ সেন্ট মার্টিন রুটের নাফ নদীতে গত ৫ জুন থেকে ট্রলার লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হচ্ছে মিয়ানমারের ওপার থেকে। এতে নিরাপত্তা জনিত কারণে গত ৭ জুন থেকে বন্ধ রয়েছে ট্রলার ও স্পিডবোট চলাচল। সেই থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছে সেন্ট মার্টিনের সঙ্গে সব যোগাযোগ।

মিয়ানমারে গোলাগুলি, টেকনাফ সীমান্তে আতঙ্কে স্থানীয়রা
                                  

 

কক্সবাজার: কক্সবাজারে টেকনাফের নাফ নদীর শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের সীমান্তে মিয়ানমারের ওপার থেকে আবারও ভেসে আসছে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ। এতে কিছুটা আতঙ্কে স্থানীয় বাসিন্দারা।

বুধবার (১২ জুন) রাত ১০টা থেকে নাফ নদীর টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের এলাকায় বিস্ফোরণের এসব শব্দ শোনা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন সীমান্ত এলাকার লোকজন।

সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুস সালাম জানান, টেকনাফ-সেন্ট মার্টিনে নৌরুটে চলাচলকারী নৌযান লক্ষ্য করে কয়েকদিন ধরে গুলিবর্ষণের ঘটনায় এমনিতেই আতঙ্কে রয়েছেন স্থানীয়রা। এ পরিস্থিতিতে বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকার পর আবার নতুন করে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

আব্দুস সালাম বলেন, বুধবার রাত ১০টার পর থেকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের সীমান্ত এলাকায় মিয়ানমারের ওপার থেকে থেমে থেমে ভেসে আসতে শুরু করে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ। এতে সীমান্ত লাগোয়া শাহপরীর দ্বীপ জেটিঘাট এলাকাসহ জালিয়াপাড়া, পশ্চিম পাড়া, উত্তর পাড়া ও আচারবনিয়ার আশপাশের বসতঘর ও স্থাপনাগুলোতে বিকট শব্দ শোনা যায়।

বিস্ফোরণের শব্দ ভেসে আসার ঘটনা অব্যাহত থাকায় স্থানীয়দের অনেকে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। তবে রাত ১টার পর থেকে বিস্ফোরণের শব্দ কিছুটা কমে আসে বলেও জানান তিনি।

সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা জানান, শাহপরীর দ্বীপ সীমান্তের নাফ নদীর ওপারে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের মংডু শহরের আশপাশের মেগিচং, কাদিরবিল, নুরুল্লাহপাড়া, মাঙ্গা, নলবইন্ন্যা, ফাদংচা ও হাসুরাতা এলাকা। ধারণা করা হচ্ছে, মংডু শহর ও আশপাশের এলাকাগুলোতে দেশটির সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। এতে উভয়পক্ষ ভারী অস্ত্র ও গোলাবারুদ ব্যবহার করায় বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে।

টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী বলেন, শাহপরীর দ্বীপ সীমান্তে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাওয়ার বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে জেনেছেন। তবে সীমান্ত পরিস্থিতি সম্পর্কে বিজিবি ও কোস্টগার্ডসহ সংশ্লিষ্টরা সজাগ রয়েছে।

তারপরও সীমান্ত পরিস্থিতির ওপর প্রশাসন পর্যবেক্ষণে রয়েছে বলে জানান ইউএনও আদনান।

সালথায় পশুর হাটে অতিরিক্ত হাসিল, ক্ষুব্ধ ক্রেতা-বিক্রেতারা
                                  

ফরিদপুর: আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে ফরিদপুরের সালথার বিভিন্ন পশুর হাটে ইজারাদারেরা ক্রেতা ও বিক্রেতার কাছ থেকে অতিরিক্ত খাজনা (হাসিল) আদায় করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়া হাটগুলোতে ইজারাদারদের হাসিল আদায়ের তালিকা টাঙানোর কথা থাকলেও অধিকাংশ হাটেই তার নেই।


এতে পশুর ক্রেতা-বিক্রেতারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
এছাড়াও বিভিন্ন কোরবানির পশুর হাটে হাট ইজারাদার ও তার নিয়োজিত লোকজনেরা নিয়ম বহির্ভূতভাবে অতিরিক্ত হাসিল (টোল) আদায় করার পাশাপাশি অতিরিক্ত পশু রাত না হওয়া পর্যন্ত বাড়িতে ফেরত নিতে দেওয়া হচ্ছে না বলে ক্রেতা-বিক্রেতারা অভিযোগ করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সালথা উপজেলার প্রতিটি পশুর হাটে ফরিদপুর জেলা প্রশাসক কর্তৃক নির্ধারিত হাসিলের তালিকা টাঙানো বাধ্যতামূলক। তবে উপজেলার কোনো হাটেই তা টাঙানোর প্রয়োজন মনে করছেন না প্রভাবশালী ইজারাদাররা।

অভিযোগ রয়েছে, সালথা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অধিকাংশ হাটের ইজারা পেয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। ফলে স্থানীয় প্রশাসন এ অনিয়ম দেখেও চোখ বুজে আছেন বলে স্থানীয়দের দাবি। এ সুযোগে ইচ্ছে মতো হাসিল তুলছেন ইজারাদাররা। এতে কোরবানির পশু কিনতে গিয়ে ক্রেতারা হয়রানির মুখে পড়ছেন।

সালথা উপজেলার অন্যতম পশুর হাট আটঘর ইউনিয়নের নকুলহাটি।

বুধবার (১২ জুন) বিকেলে নকুলহাটি হাটে গরু-ছাগল কিনতে আসা ক্রেতারা জানান, ‘এই হাটে ফরিদপুর জেলা প্রশাসক কর্তৃক নির্ধারিত হাসিলের তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার জোরে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে রীতিমতো হাসিল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি করা হচ্ছে। সেখানে গরু প্রতি নির্ধারিত ২শ-৫শ টাকার বদলে ৫০০-১৫শ টাকা নেওয়া হচ্ছে। ছাগলের জন্য নির্ধারিত ১শ-২শ টাকার পরিবর্তে আদায় হচ্ছে ৪শ-২শ টাকা। ’

এছাড়া কেউ তার পশুটি বাড়িতে ফেরত নিতে চাইলে ইজারাদার ও তাদের নিয়োজিত কর্মীরা পশুটি নিজ বাড়িতে নেওয়ার অনুমতি দিচ্ছেন না। তারা বলছেন, রাত না হওয়া পর্যন্ত পশুটি হাট থেকে ফেরত নেওয়া যাবে না। এ নিয়ে বিপদে পড়ছেন দূর থেকে পশু নিয়ে হাটে আসা বিক্রেতারা।

 

সালথা উপজেলার বিভিন্ন হাটের গরু-ছাগল ক্রেতারা জানান, বিভিন্ন হাটে ছাগল প্রতি ৮শ থেকে ২ হাজার টাকা ও গরু প্রতি ১ হাজার থেকে ২৫শ টাকা পর্যন্ত হাসিল নেওয়া হচ্ছে। হাসিলের টাকা নিয়ে ইজারাদারের পক্ষে যে স্লিপ দেওয়া হচ্ছে, তাতে শুধু গরুর দর লেখা হচ্ছে। হাসিলের অংক লেখা হচ্ছে না। কোনো ক্রেতা এই রসিদ নিতে না চাইলে হুমকি-ধামকি দিয়ে তাকে হাট থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত টাকা আদায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে নকুলহাটি হাটের ছাগল হাটের হাসিল উত্তোলনকারী মো. বিজু বলেন, ফরিদপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) প্রায় তিন বছর আগে এ হাসিল নির্ধারণ করেছেন। আমরা হাসিলের দর পরিবর্তনের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানালেও কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।

নকুলহাটি হাটের ইজারাদার ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা জাকির মোল্লা বলেন, কোরবানির হাটতো তাই হাসিল আদায়ে একটু কম-বেশি হচ্ছে। তবে, আমরা ১ লাখ টাকার নিচে বিক্রি হওয়া গরু থেকে ১ হাজার ও ১ লাখের বেশি দামে বিক্রি হওয়া গরু থেকে ১৫শ টাকা হাসিল নিচ্ছি। এছাড়া ছাগল প্রতি ১২০ টাকা থেকে ২শ টাকা পর্যন্ত হাসিল নেওয়া হচ্ছে। আবার অনেক পরিচিতদের কাছ থেকে হাসিলের টাকা আরও কম কিংবা নিচ্ছিও না।

তবে হাটে হাসিলের কোনো তালিকা টাঙানো হয়নি বলে অকপটে স্বীকার করেন এ ইজারাদার।

সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আনিছুর রহমান বালী বলেন, প্রতিটি গরুর হাটে হাসিলের নির্ধারিত মূল্য তালিকা প্রদর্শন করার কথা। তবে, কোনো হাটে সেটা না মানা হলে আমরা খোঁজখবর নিয়ে দেখব। এছাড়া আমরা প্রতিটি হাটে হাসিলের ব্যাপারে তদারকি করব।

তিনি বলেন, ক্রেতা-বিক্রেতার কাছে থেকে অতিরিক্ত হাসিল আদায়ের সুযোগ নেই। প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালানো হবে।

এ ব্যাপারে ফরিদপুরের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক চৌধুরী রওশন ইসলাম বলেন, আমি এক বছর হলো এই জেলায় যোগ দিয়েছি। আমার যোগ দেওয়ার আগের হাসিলের যে মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল, সেটাই এখনও বহাল আছে। তাই না দেখে মূল্য তালিকা বলা যাচ্ছে না। তবে আমরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করব। আর যে পশুর হাটগুলোতে হাসিলের তালিকা টাঙানো হয়নি, সেখানে তালিকা টাঙানোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া পশুর হাটে পশু ক্রেতা-বিক্রেতার কাছে থেকে ইজারাদাররা অতিরিক্ত হাসিল নিলে, সে ব্যাপারেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


   Page 1 of 604
     সারা দেশ
মাগুরছড়া ট্রাজেডি দিবসে মানববন্ধন
.............................................................................................
আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবার জিরা আমদানি
.............................................................................................
৬ অঞ্চলে বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে যানবাহনের চাপ
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে ৩ কোটি ২১ লাখ টাকার টোল আদায়
.............................................................................................
সেফটিক ট্যাংকে নেমে দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর মৃত্যু
.............................................................................................
রাজধানী ঢাকার সাভারে ভূয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে পশুর হাটের ইজারা নেয়ার অভিযোগ
.............................................................................................
ঈদযাত্রায় চাপ নেই, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়‌ক ফাঁকা
.............................................................................................
৬ লাখে বিক্রি হবে সাড়ে ২২ মণের রাজা বাবু
.............................................................................................
একরাতে ৪ ট্রান্সফরমারের কয়েল চুরি, সেচকাজ বন্ধ
.............................................................................................
টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় কৃষি কর্মকর্তাসহ নিহত ২
.............................................................................................
এখন গরিবেরা তিনবেলা ভাত খায় আর ধনীরা খায় আটা : খাদ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
বিদ্যালয়ের মাঠে পশুর হাট, ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা
.............................................................................................
সেন্ট মার্টিনে বিকল্প পথে যাবে পণ্য, যাতায়াত করবে মানুষও
.............................................................................................
মিয়ানমারে গোলাগুলি, টেকনাফ সীমান্তে আতঙ্কে স্থানীয়রা
.............................................................................................
সালথায় পশুর হাটে অতিরিক্ত হাসিল, ক্ষুব্ধ ক্রেতা-বিক্রেতারা
.............................................................................................
রাজধানী সাভার পৌর এলাকার মাদক কারবারির ঘর খুঁড়ে মিলল মানব কঙ্কাল
.............................................................................................
সুবর্ণচরের পানিতে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু
.............................................................................................
অধিকাংশ নদ-নদীর পানি কমছে
.............................................................................................
হাট থেকে ছুটে রেলসেতুতে গরু, থেমে গেল ট্রেন
.............................................................................................
২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে পৌনে তিন কোটি টাকার টোল আদায়
.............................................................................................
কুমিল্লায় অস্ত্র ঠেকিয়ে খামার থেকে ১০ গরু-মহিষ লুট
.............................................................................................
বলাৎকারের পর আসহাবুস সুফ্ফা মাদ্রাসার শিক্ষার্থী শিশু রাব্বি`র হত্যাকারী গ্রেফতার
.............................................................................................
নাইকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াসহ আটজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ অব্যাহত রয়েছে
.............................................................................................
মিশ্র দ্রুত বর্ধনশীল প্রজাতির বনায়নের চারা রোপণের মাধ্যমে বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন কক্সবাজার উত্তরের ডিএফও
.............................................................................................
২৫ লাখে বিক্রি হবে ৩২ মণের সুলতান
.............................................................................................
রাঙ্গামাটিতে একসঙ্গে তিন পুত্র সন্তানের জন্ম
.............................................................................................
ছড়িয়ে পড়ছে রাসেলস ভাইপার, অ্যান্টিভেনম নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
ভূমিহীন-গৃহহীনমুক্ত হলো আরও ৭০ উপজেলা
.............................................................................................
ইউটিউব দেখে বাড়ির আঙিনায় আঙুর চাষ করে সফল সরোয়ার
.............................................................................................
লোকসান নিয়েই পদ্মা সেতু হয়ে ছুটল ‘ম্যাংগো স্পেশাল’
.............................................................................................
আজ থেকে চলবে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন
.............................................................................................
সিলেটে টিলা ধসে মাটিচাপা পড়েছেন একই পরিবারের ৩ জন
.............................................................................................
আশুলিয়ায় `নয়ারাজার` দাম উঠলো ১৪ লাখ টাকা
.............................................................................................
সেন্টমার্টিনের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ, দ্বীপে খাদ্য সংকটের শঙ্কা
.............................................................................................
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ১২ কিলোমিটার যানজট
.............................................................................................
ফেনীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর
.............................................................................................
চকরিয়ায় সাড়ে ১২ লক্ষ পিস ইয়াবা উদ্ধার : মাদকাসক্তির ছোবল থেকে রক্ষা পেলো হাজারো কোমলমতি সন্তান
.............................................................................................
অভিযানের ইতি, যা মিলল নেত্রকোনার ‘জঙ্গি আস্তানায়’
.............................................................................................
কোরবানির হাট কাঁপাবে দিনাজপুরের রাজা ও সম্রাট
.............................................................................................
কুমিল্লা সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
তিন ঘণ্টার বৃষ্টিতে ফের সিলেট নগরে জলাবদ্ধতা
.............................................................................................
অরক্ষিত ভাঙা ব্রিজ থেকে পড়ে সাইকেল আরোহীর মৃত্যু
.............................................................................................
পাবনায় এক রাতে ৫ কঙ্কাল চুরি
.............................................................................................
যশোরে রাইফেল ও ৩০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার
.............................................................................................
বেনজীরের রিসোর্ট জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় রিমালে স্থগিত ১৯ উপজেলায় ভোট চলছে
.............................................................................................
ধর্মশুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আতিকুল ইসলাম সহ-সভাপতি জজমিয়া সদস্য সচিব নরেন্দ্র কুমার
.............................................................................................
সুন্দরবনে কুমিরের আক্রমণে প্রাণ গেলো মৌয়ালের
.............................................................................................
নেত্রকোনায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: [email protected]
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD