বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * পদত্যাগ করছেন পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী   * করোনায় আরও ৪৫৪ মৃত্যু, শনাক্ত আড়াই লাখের নিচে   * পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৮, এখনো নিখোঁজ ৬৫   * সেনাবাহিনীতে যুক্ত হলো নতুন সামরিক বিমান   * ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি রিভা আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেলে   * শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ‘চোখ ওঠা’ ছড়াচ্ছে দ্রুত   * পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি : করতোয়ার তীরে শোকের মাতম, নিহত বেড়ে ২৪   * দেশীয় মাছ ও শামুক সংরক্ষণে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান   * জাপানে শক্তিশালী টাইফুনের আঘাত, ২ জনের মৃত্যু   * একদিনে আরও ৪৪০ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে  

   রাজধানী -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে বিস্ফোরণ, নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিসের মালামাল লোড-আনলোডের সময় কেমিক্যাল বিস্ফোরণে একজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন। প্রাথমিকভাবে নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। আহতরা হলেন- হালিম (২৮) মার্সেল (৩৬) ও আশিক (৪০)।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোক্তারুজ্জামান।

তিনি বলেন, হাজারীবাগের বউবাজার এলাকায় মেট্রো এক্সপ্রেস কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিসের অফিসের সামনে মালামাল লোড-আনলোডের সময় কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে কেমিক্যাল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে একজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে হতাহতরা লেবার হিসেবে কাজ করছিলেন।

উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইমদাদুল হক শাহীন বলেন, কিছুক্ষণ আগে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। প্রত্যক্ষদর্শী ও কেমিক্যালের আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

সূত্র: জাগো নিউজ

হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে বিস্ফোরণ, নিহত ১
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিসের মালামাল লোড-আনলোডের সময় কেমিক্যাল বিস্ফোরণে একজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন। প্রাথমিকভাবে নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। আহতরা হলেন- হালিম (২৮) মার্সেল (৩৬) ও আশিক (৪০)।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোক্তারুজ্জামান।

তিনি বলেন, হাজারীবাগের বউবাজার এলাকায় মেট্রো এক্সপ্রেস কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিসের অফিসের সামনে মালামাল লোড-আনলোডের সময় কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে কেমিক্যাল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে একজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে হতাহতরা লেবার হিসেবে কাজ করছিলেন।

উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইমদাদুল হক শাহীন বলেন, কিছুক্ষণ আগে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। প্রত্যক্ষদর্শী ও কেমিক্যালের আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

সূত্র: জাগো নিউজ

ন্যূনতম মজুরির ঘোষণাসহ ৬ দফা দাবি পোশাক শ্রমিকদের
                                  

অনলাইন ডেস্ক : দ্রব্যমূল্য জনগণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে এনে গার্মেন্টস সেক্টরে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ঘোষণাসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছে গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলন। একই সঙ্গে অবিলম্বে মজুরি বোর্ড গঠন করে গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য ২৫ হাজার টাকা ন্যূনতম মজুরি ঘোষণারও দাবি জানিয়েছে ১০টি গার্মেন্টস শ্রমিক সংগঠনের এ জোটটি।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এসব দাবি জানানো হয়। বাজারদর, মজুরি বৃদ্ধি ও ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন প্রসঙ্গে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।

সভায় ২০১৮ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির পরিমাণ উল্লেখ করা হয়। লিখিত বক্তব্য অনুযায়ী ২০১৮ থেকে ২০২২ সালের মধ্যে চালের দাম বেড়েছে ১৭ শতাংশ, ডাল (মোটা দানা) ৯৬ শতাংশ, আটা (প্যাকেট) ৭২ শতাংশ, সয়াবিন তেল লুজ ৯৭ শতাংশ, এক লিটার বোতল ৭৮ শতাংশ, পাঁচ লিটার বোতল ৯৩ শতাংশ, লবণ ৪০ শতাংশ ও ডিম (হালি) ৫০ শতাংশ।

বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) গবেষকরা বলছেন, সরকারি হিসাবের চেয়েও প্রকৃত মূল্যস্ফীতি অনেক বেশি। বর্তমান বাজারদর অনুযায়ী ঢাকার কেন্দ্রস্থলে বসবাসরত একজন ব্যক্তির মাসিক খাবার খরচ পাঁচ হাজার ৩৩৯ টাকা। চারজনের একটি পরিবারের ক্ষেত্রে এই খরচ হচ্ছে ২১ হাজার ৩৫৮ টাকা। খাবারের সঙ্গে এক কক্ষের ঘরভাড়া, গ্যাস-বিদ্যুতের বিল, চিকিৎসা ব্যয়, স্বাস্থ্য সুরক্ষার পণ্য ক্রয়, সন্তানের পড়ালেখার খরচ, যাতায়াত, মোবাইলফোন ও ইন্টারনেটের বিল হিসাব করলে ঢাকার আশপাশের এলাকায় চার সদস্যের এক পরিবারের মাসিক খরচ গিয়ে দাঁড়ায় ৪২ হাজার ৫৪৮ টাকা। তবে ঢাকার কেন্দ্রস্থলে বাড়িভাড়া বেশি। সে ক্ষেত্রে মাসিক খরচ হবে ৪৭ হাজার ১৮২ টাকা। খাবারের তালিকা থেকে মাছ, গরুর মাংস, খাসির মাংস ও মুরগি বাদ দিলেও তা ৩৩ হাজার ৮৪১ টাকায় দাঁড়ায়। তিন মাস ধরে মূল্যস্ফীতির হার ছয় শতাংশের ওপরে। কয়েকটি নিত্যপণ্যের দাম ৪০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে গেছে।

বেঁচে থাকার জন্য ২৫ হাজার টাকার কম মজুরিতে একজন পোশাক শ্রমিক চলতে পারেন না বলে উল্লেখ করেন বক্তারা। তারা বলেন, জ্বালানি তেলসহ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি শুধু শ্রমিকের জীবন নয় উৎপাদনে তৈরি করেছে বিরূপ প্রতিক্রিয়া। উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি করেছে। ফলে শ্রমিক এবং শিল্পের স্বার্থেই অতিদ্রুত মজুরি বোর্ড গঠন করে মজুরি বৃদ্ধি প্রয়োজন। পোশাক শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধির লড়াইকে ঐক্যবদ্ধভাবে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার দিকে নিয়ে যাবার জন্য সবাইকে আহব্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের পক্ষ থেকে রফিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের গার্মেন্টস শ্রমিকরা বর্তমানে খুব অসহায় সময় পার করছে। তাদের এই দুঃসময়ে তাদের কথা সবাইকে ভাবতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

শ্রমিকদের মানসম্মত মজুরির বিষয়ে ব্রাক ইন্সটিটিউট অব গভর্নেন্স অ্যান্ড ডেভলপমেন্টের গবেষক মাহীন সুলতানা বলেন, কোনো ধরনের মজুরির কথা আমরা বলছি। মানসম্মত নাকি বেঁচে থাকার জন্য মজুরি। শুধু বেঁচে থাকার জন্য একটা মজুরি নিয়ে কেন আমরা বাঁচতে চাইবো? সেই হিসেবে ২৫ হাজার টাকা মজুরিও অনেক কম। সঞ্চয়, স্বাস্থ্যখাত, শিক্ষা সব মিলিয়ে এই টাকায় হয় না। এগুলো বাদই থেকে যায়। সরকার ও মালিকপক্ষের সঙ্গে বসে সমস্যার সমাধানের পরামর্শ দেন তিনি। সবশেষ ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের প্রতি জোর দেন মাহিন সুলতানা।

সরকার মালিকদের অনুগত হয়ে কাজ করছে উল্লেখ করে গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের ভারপাপ্ত সভাপতি শামীম ইমাম বলেন, মালিকরা তাদের কুকুরের জন্য দৈনিক ২০০টাকা খরচ করেন। সেই কুকুরকে দেখবালের জন্যও একজন লোক রাখা হয়। সে হিসেবে একজন গার্মেন্টস শ্রমিকের পেছনে তার অর্ধেক টাকাও খরচ করেন না মালিকরা। শ্রমিকদের টাকা দেওয়ার সময় আসলে মালিক এবং সরকারের টাকা থাকে না। সরকার মালিকদের অনুগত হয়ে কাজ করছে। আমাদের কে চিনতে হবে আমাদের বন্ধুকারা এবং শত্রু কারা। শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে আমাদের এই আন্দোলন রাজনৈতিকভাবে করতে হবে।

গার্মেন্টস মালিকরা মজুরি কম দিয়ে অর্থ বিদেশে পাচার করছে উল্লেখ করে গবেষক মাহা মির্জা বলেন, মজুরি বৃদ্ধি পেলে যে গার্মেন্টস শিল্প ধ্বংস হয়ে যাবে এমন ইতিহাস বাংলাদেশে নেই। শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধি পেলে উল্টো শিল্পের মান আরও উন্নত হবে। গার্মেন্টস শিল্প ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে বলে মালিকরা যে অপপ্রচার করছে তা শ্রমিকদের মজুরি না বাড়ানোর জন্য।

সভায় উপস্থিত ছিলেন গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের সমন্বয়ক শহিদুল ইসলাম সবুজ, বাংলাদেশ টেক্সটাইল গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রডারেশনের সভাপতি এড. মাহবুবুর রহমান ইসমাইল, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সভা প্রধান তাসলিমা আখতার, জাতীয় সোয়েটার গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি এ এ এম ফয়েজ হোসেন, বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সভাপতি মাহমুদ হোসেন, গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মাসুদ রেজা প্রমুখ।

সহপাঠীর মৃত্যু: শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত
                                  

রাজধানীর ফার্মগেটে সড়ক থেকে সরে গেছেন শিক্ষার্থীরা। তবে তারা মঙ্গলবার দুপুর থেকে আবারো আন্দোলন শুরু করবেন বলে জানান।

সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) ফার্মগেটে মূলসড়কে টানা দুই ঘণ্টা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শেষে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা করেন।

মাইক্রোবাসের ধাক্কায় সরকারি বিজ্ঞান কলেজের ছাত্র আলী হোসেনের নিহতের ঘটনায় বিচার ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনে তেজগাঁও সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি বিজ্ঞান স্কুল ও কলেজ, তেজগাঁও আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আর কত মায়ের বুক খালি হলে নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত হবে। আর কতজন আলী হোসেন মারা গেলে নিরাপদে রাস্তায় চলাফেরা করতে পারবো। শুধু আলী হোসেনের বিচারের দাবিতে নয়, দেশের সব শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছি।

তারা জানান, দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে তারা একত্রিত হয়ে সড়কে অবস্থান নেবেন বলে জানান।

এর আগে রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল পৌনে ৭টার দিকে একটি মাইক্রোবাসের ধাক্কায় আহত হন আলী হোসেন। তিনি সরকারি বিজ্ঞান কলেজের ছাত্র।

আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সহপাঠীর মৃত্যু: সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : প্রাইভেটকারের ধাক্কায় সহপাঠী মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে ফার্মগেটের মূলসড়ক এরপর বিজয় সরণি মোড়ে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। দুপুর ১টা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে রাখে। প্রথমে সরকারি বিজ্ঞান স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা সড়কে এলে পরে আশপাশের আরও কয়েকটি স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ অংশ নেন।

এতে করে ফার্মগেট ও বিজয় সরণীসহ আশপাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অবরোধের কারণে স্থবির হয়ে পড়ে রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক। এসময় শিক্ষার্থীরা তাদের সহপাঠীর মৃত্যুর ঘটনায় বিচার দাবি করেন।

বিক্ষোভের সময় শিক্ষার্থীদের শান্ত করতে কলেজগুলোর শিক্ষক ও পুলিশকে দৌড়ঝাঁপ করতে দেখা যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বিজয় সরণি মোড়ে উপস্থিত হন তেজগাঁও জোনের এডিসি রোবায়েত হাসান। তিনি ও কলেজ শিক্ষকরা বুঝিয়ে শিক্ষার্থীদের সরিয়ে ফার্মেগেটে নিয়ে যান।

শহিদুল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের কলেজের স্কুলের সামনে দিয়ে যত্রতত্রভাবে গাড়ি চলাচল করে। অনেক গতিতে গাড়ি চলাচল করলেও পুলিশ কখনো ব্যবস্থা নেয়নি। আমার এক সহপাঠী খুন হলো। বিচার কখনো হয় না। তাই বিচারের দাবিতে আমরা সড়ক অবরোধ করেছি।

সরকারি বিজ্ঞান স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রনি বলেন, আমরা চাই নিরাপদ সড়ক। শুধু আমাদের সহপাঠী কেন, কোনো শিক্ষার্থীর যেন সড়কে নির্মমভাবে মৃত্যু না হয় সেটা নিশ্চিত করার দায়িত্ব পুলিশের।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে এডিসি রোবায়েত হাসান বলেন, রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকার বিজি প্রেসের সামনের রাস্তা পার হওয়ার সময় প্রাইভেটকারের ধাক্কায় আলী হোসেন নামে এক শিক্ষার্থী নিহত হয়। সে সরকারি বিজ্ঞান কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

ওই ঘটনায় তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় মামলা হয়েছে। ঘাতক প্রাইভেটকার ও গাড়িচালককে শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানান এডিসি।

এর আগে রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল পৌনে ৭টার দিকে একটি প্রাইভেটকারের ধাক্কায় আহত হন আলী হোসেন। তিনি সরকারি বিজ্ঞান কলেজের ছাত্র।

আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পদ্মা ব্যাংকে মানিলল্ডারিং ও সন্ত্রাসী কার্যে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও মূল্যায়ন কর্মসূচী
                                  

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : পদ্মা ব্যাংক মানিলল্ডারিং ও সন্ত্রাসী কার্যে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ে দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ ও মূল্যায়ন কার্যক্রম আয়োজন করে। ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার পদ্মা ব্যাংকের মিরপুর ট্রেনিং ইনিস্টিটিউটে এএমএল ডিভিশনের তত্বাবধানে অনুষ্ঠিত হয় এই কর্মসূচী। ব্যাংকের বিভিন্ন শাখা থেকে ৪৬ জন ব্যামেলকো, শাখা অপারেশন ম্যানেজারগণ ও প্রধান কার্যালয়ের ব্যাংকিং অপারেশন ডিভিশন এর কর্মকর্তাগণ সহ সর্বমোট ৯৫ জন এই

কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) এর যুগ্মপরিচালক খন্দকার আসিফ রাব্বানী। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন পদ্মা ব্যাংকের ইভিপি ও হেড অব অপারেশন সৈয়দ তৌহিদ হোসেন এবং ব্যাংকের ডেপুটি ক্যামেলকো রাশেদুল করিম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বিএফআইইউ এর যুগ্ম পরিচালক তাঁর সেশন পরিচালনা করেন। কর্মসূচীর শেষে অংশগ্রহণকারীরা ঘন্টাব্যাপী বিএফআইইউ সার্কুলার নং ২৬ এবং মৌলিক এএমএল/সিএফটি বিষয়ক মূল্যায়ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

রাজধানীতে ট্রেনে কাটা পড়ে গাড়িচালকের মৃত্যু
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর উত্তরায় রেলগেটে রাস্তা পারাপারের সময় ট্রেনে কাটা পড়ে মো. সানি (২০) নামের এক গাড়িচালকের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের ১০ নম্বর সড়ক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ২টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ব্যক্তির ভাবি সোনিয়া বলেন, আমার দেবর পেশায় একজন গাড়িচালক। রাতে রেলগেটে পারাপারের সময় ট্রেনে কাটা পড়েন তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেলের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, আমাদের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী সদর উপজেলায়। বর্তমানে আমার দেবর উত্তরা চার নম্বর সেক্টর ১০ নম্বর রোড এলাকায় থাকতেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। মরদেহ ময়নতদন্ত ছাড়াই স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

রাজধানীতে অটোরিকশার ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর কদমতলী থানার পূর্ব জুরাইন আশরাফ মাস্টার স্কুলের সামনে অটোরিকশার ধাক্কায় মারিয়া আক্তার (৭) নামের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ফাইজা (৭) নামের আরেক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী।

বুধবার (২৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা জুলফিকার জানান, আমার মেয়ে পূর্ব জুরাইন আশরাফ মাস্টার স্কুলের তৃতীয় শ্রেণীতে পড়তো। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আমার মেয়ে ও ফাইজা নামের আর এক মেয়ে স্কুলে যাওয়ার সময় একটি দ্রুতগামী অটোরিকশা এসে তাদের দুজনকে ধাক্কা দেয়। পরে তাদের দুজনকেই আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে আমার মেয়ে মারিয়াকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ফাইজা জরুরি বিভাগের চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক)মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।

এবার ব্যক্তি পর্যায়ে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি এবার ব্যক্তি পর্যায়ে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘সবার সম্মিলতি প্রচেষ্টা অনেকখানি জ্বালানি এবং বিদ্যুৎ সাশ্রয় করবে।’ ঢাকা -৩ সংসদীয় আসনে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্টে আজ ২৩ আগস্ট ২০২২ মঙ্গলবার এক পোস্টে তিনি আহ্বান জানান। প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘ইউক্রেন-রাশিয়া সংকটে পৃথিবীজুড়ে বিভিন্ন দেশের সরকারগুলো জ্বালানি সাশ্রয়ের উদ্যোগ নিয়েছে। বাংলাদেশ সরকারও দিনের আলোর সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে কর্মঘণ্টা বদলে দিয়েছে। একই-সঙ্গে সরকারি, বেসরকারি সব অফিসে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে নানা উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছে। সরকারের আহ্বানে সাড়া দিয়ে অফিসগুলোতে কম আলো জ্বেলে এবং শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের ব্যবহারে সাশ্রয়ী হয়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার কমাচ্ছে।’প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘দুনিয়াজুড়ে সংকটের মধ্যে চীন দৃষ্টিনন্দন লাইটিং ব্যবহারও সীমিত করেছে। পৃথিবীর সবচেয়ে জ্বালানি সমৃদ্ধ দেশ অস্ট্রেলিয়া নির্দিষ্ট সময়ে লোডশেডিং করছে।’

বিদুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে। পাশাপাশি ব্যক্তি পর্যায়েও আমরা যদি আমাদের অভ্যাসে ছোটখাটো কিছু পরিবর্তন আনি, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী সরঞ্জাম ব্যবহার করি, খেয়াল করে লাইট, ফ্যানগুলো বন্ধ করি, ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে এসি না চালাই, দিনের আলো বেশি ব্যবহার করি, তাহলে সবার এই ছোট ছোট কন্ট্রিবিউশন মিলে দেশের অনেকখানি জ্বালানি সাশ্রয় করবে।’

প্রসঙ্গত, সরকারি উদ্যোগে স্কুলগুলোতে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য নানামুখী উদ্যাগ নেওয়া হয়। এতে করে একজন শিক্ষার্থী ঘরে ফিরে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে উদ্যোগ নিতে পারে। এছাড়া বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে প্রতিটি পরিবার সচেতন হলে যেমন সম্পদের অপচয় কমে যাবে। তেমনই বিদ্যুতের বিলও কম আসবে।

খোঁজ মিলেছে শিক্ষার্থী ইয়াশার, মায়ের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজের শিক্ষার্থী ইয়াশা মৃধা সুকন্যার সন্ধান মিলেছে। তবে তিনি পরিবারে কাছে ফিরতে চান না। মায়ের প্রতি রয়েছে নির্যাতনসহ নানা অভিযোগ।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ২৪ এর মুখোমুখি হয়ে এই অভিযোগ জানান ইয়াশা মৃধা সুকন্যা।

তিনি বলেন, আমি পরিবারে ফিরতে চাই না। সেখানে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগী। আমার মা আমাকে নানা ধরনের নির্যাতন করে। তিনি আমাকে বিক্রি করে দিতে চেয়েছিলেন।

সুকন্যা বলেন, বিয়ে করার জন্য আমাকে জোর করা হচ্ছিল। মা আমাকে সাড়ে তিন লাখ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিতে চাচ্ছিলেন। রাতে আমি ভয়ে ঘুমাতে পারতাম না। আমাকে বালিশ চাপা দেওয়া হবে! নানার বাড়ি গেলে, তারাও আমাকে একই কথা বলতেন। বিয়েটা করে ফেল। সাড়ে তিন লাখ টাকা পাবি। লাগলে আরও টাকা বাড়িয়ে দেবে।

এদিকে মেয়ের নানা অভিযোগের বিষয়ে ইয়াশার মা নাজমা ইসলাম লাকীর সঙ্গে একাধিকবার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এর আগে গত ২৩ জুন থেকে নিখোঁজ সুকন্যা। পরে ২০ আগস্ট মা নাজমা ইসলাম লাকী মেয়ের সন্ধানে সংবাদ সম্মেলন করেন। এ ঘটনায় সুকন্যার মায়ের করা মামলায় তার বন্ধু ইসতিয়াক এখন কারাগারে।

গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে হামদর্দের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত
                                  

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

২১ শে আগস্ট ভয়াল গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব, এনএসআইয়ের সাবেক ডিজি, হামদর্দ বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান কাজী গোলাম রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলা একাডেমি পুরস্কার প্রাপ্ত কবি ও ছড়াকার আসলাম সানী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ এর চিফ মোতাওয়াল্লী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক; হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ড. হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া।

প্র্র্রধান অতিথির বক্তব্যে কাজী গোলাম রহমান বলেন, ২১ আগস্ট বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি কলঙ্কময় দিন। ২০০৪ সালের এই দিনে কতিপয় কুচক্রীর সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতায় ঢাকায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ আয়োজিত সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে বর্বরতম গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। এই হামলার মূল লক্ষ্য ছিল স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, গণতন্ত্র এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করা; জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাসহ বাংলাদেশকে নেতৃত্বশূন্য করে হত্যা, ষড়যন্ত্র, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও দুঃশাসনকে চিরস্থায়ী করা।

রাজধানীর বাংলামোটরে হামদর্দ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন হামদর্দ বাংলাদেশ এর উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও মোতাওয়াল্লী হাকীম মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন রাসেল।

অন্যান্যের মধ্যে অনুভূতি ব্যক্ত করেন সিনিয়র পরিচালক অর্থ ও হিসাব মো. আনিসুল হক, হামদর্দ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের পরিচালক অবসর প্রাপ্ত লে. কর্নেল মাহবুবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক মানব সম্পদ উন্নয়ন ডা. হাকীম নার্গিস মার্জান, পরিচালক ক্রয় হাকীম সাইফউদ্দিন মুরাদ, পরিচালক বিপণন মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, পরিচালক তথ্য ও গণসংযোগ আমিরুল মোমেনীন মানিক।

বিদেশে কেউ ব্যক্তিগত গল্প করে আসলে দায় দলের না: তথ্যমন্ত্রী
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘বিদেশে গিয়ে কেউ ব্যক্তিগত গল্প করে আসলে, সেই দায় দলের না’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, ‘বিদেশে কেউ যদি কারও সঙ্গে ব্যক্তিগত গল্প করে আসে, সেই দায় আওয়ামী লীগের না। দলের পক্ষ থেকে তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়নি।’

রোববার (২১ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি (এ কে আব্দুল মোমেন) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কেউ নন। তাই আওয়ামী লীগের পক্ষে বিদেশে গিয়ে কিছু বলার দায়িত্ব তাকে দেওয়া হয়নি।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, পরের দিন তিনি বলেছেন ডিসটর্ট (বিকৃত) হয়েছে। দলের ভিত জনগণ। আমরা জনগণের শক্তিকে বিশ্বাস করি। আমরা মনে করি, জনগণ ছাড়া কেউ সরকার টিকিয়ে রাখতে পারে না।’

যাত্রাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে মো. আবু বক্কর সিদ্দিক হাবু (৩৮) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তি ৫০ নম্বর ওয়ার্ডের ১৪ নম্বর ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টার দিকে যাত্রাবাড়ী থানা এলাকার শহীদ ফারুক সড়কে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ৮টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত আবু বক্করের খালাতো ভাই মো. মিঠু জানান, তার ভাই কাঁচামাল ব্যবসায়ী ছিলেন। দোকান থেকে বাসায় ফেরার পথে শহীদ ফারুক সড়ক এলাকায় পৌঁছালে ফাহিমসহ কয়েকজন তাকে ছুরিকাঘাত করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, নিহত আবু বক্কর সিদ্দিক শরীয়তপুরের ডামুড্যা থানার নর্দা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর সন্তান। কর্মসূত্রে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর টানবাজার এলাকায় থাকতেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় অবগত করা হয়েছে।

উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনা : চালক ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা
                                  

রাজধানীর উত্তরায় নির্মাণাধীন বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের ক্রেন থেকে গার্ডার ছিটকে প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে পাঁচজন নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলায় অবহেলাজনিতভাবে ক্রেন পরিচালনাকারী চালক, প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে দায়িত্বপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) দিনগত রাতে নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝরণা আক্তারের ভাই মো. আফরান মণ্ডল বাবু বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় এ মামলা করেন। মামলা নম্বর-৪২।

উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মোহসীন রাতে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি মহসীন বলেন, ‘উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনায় নিহত দুই বোনের ভাই বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলায় তিনি অবহেলাজনিতভাবে ক্রেন পরিচালনাকারী চালক, সিজিজিসি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে দায়িত্বপ্রাপ্ত অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ঘটনাটি গুরুত্বসহকারে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।’

এর আগে সোমবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের প্যারাডাইস টাওয়ারের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা ঢাকায় একটি বৌভাতের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ফিরছিলেন।

রাতে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়, গাড়িটিতে মোট সাতজন যাত্রী ছিলেন। এরমধ্যে দুই শিশু, দুই নারী ও একজন পুরুষ মারা গেছেন।

নিহতরা হলেন- রুবেল (৫০), ঝরণা (২৮), ফাহিমা, জান্নাত (৬) ও জাকারিয়া (২)। তাদের মরদেহ রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

ভয়াবহ এ দুর্ঘটনায় হৃদয় (২৬) ও রিয়া মনি (২১) নামে নবদম্পতি গুরুতর আহত হয়েছেন। তারা উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্বজনরা জানান, ফাহিমা হলেন নববধূ রিয়া মনির মা। আর ঝরণা হলেন তার খালা। রুবেল সম্পর্কে ফাহিমা-ঝরণার বেয়াই। জান্নাত ও জাকারিয়া ঝরণার সন্তান। ফাহিমা-ঝরণাদের বাড়ি জামালপুরের ইসলামপুরে। আর রুবেলের বাড়ি মেহেরপুরে।

এদিকে, উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। সোমবার রাতে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কমিটিতে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (আরবান ট্রান্সপোর্ট অনুবিভাগ) নীলিমা আখতারকে প্রধান করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে একদিনের মধ্যে প্রাথমিক ও দুদিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

মতিঝিলে ফুটপাত থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর মতিঝিলের আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পাশের ফুটওভার ব্রিজের নিচের ফুটপাত থেকে অজ্ঞাত (৭০) এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে মতিঝিল থানা পুলিশ।

শনিবার (১৩ আগস্ট) সকাল দশটার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ফরিদ আহমেদ জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করি। পরে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, আমরা ওই এলাকার লোকজনের মুখে জানতে পারি নিহত বৃদ্ধ ওই এলাকায় থাকতেন, ভবঘুরে ছিলেন। আজ ফুটপাতে অসুস্থ হয়ে পড়ে তার মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

তিনি আরও জানান, নিহতের পরিচয় আমরা এখনো জানতে পারিনি। ক্রাইমসিনকে খবর দেওয়া হয়েছে। ফিঙ্গার প্রিন্টের মাধ্যমে তার পরিচয় জানা যাবে।

এক ডাবের দাম ১৫০ টাকা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে ডাবের বাজারে। দুদিন আগেও খুচরা পর্যায়ে প্রতি পিস ডাব যেখানে ১২০ টাকায় বিক্রি হতো সেই একই ডাব এখন প্রতি পিস ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বিক্রেতারা বলছেন, বর্তমানে ডাবের চাহিদার তুলনায় সরবরাহ তুলনামূলক কম। একদিকে ব্যাপক চাহিদা অন্যদিকে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় ডাবের দাম এক লাফে ৩০ টাকা বেড়ে দেড়শ টাকায় বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন তারা।

ক্রেতারা বলছেন, করোনার শুরুতে প্রতি পিস ডাব যেখানে ৫০ টাকা থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হতো সেই ডাব এখন প্রতি পিস দেড়শ টাকা। ডাবের মূল্য নিয়ন্ত্রণ এখন জরুরি হয়ে পড়েছে বলে তারা অভিমত ব্যক্ত করেন।

সোমবার, সকাল সাড়ে ৭টা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির অদূরে শহীদ সোহরাওয়ার্দীর গেটের সামনে পার্কে নিয়মিত প্রাতঃভ্রমণে আসা এক তরুণকে ডাব বিক্রেতার সঙ্গে দাম নিয়ে কথা কাটাকাটি করতে দেখা যায়।

ওই তরুণ ডাব বিক্রেতাকে বলছিলেন, প্রাতঃভ্রমণ শেষে প্রায় প্রতিদিনই আপনার দোকান থেকে ডাব কিনে খাই। গতকালও তো ১২০ টাকায় খেলাম। কি এমন হলো যে একলাফে ডাবের দাম ১৫০ টাকা হয়ে গেলো। ১০ টাকা লাভে ১৩০ টাকা দেই, একটা ডাব কাটেন।

এমন কথার জবাবে ডাব বিক্রেতা রমিজ ব্যাপারী বলেন, এক দাম দেড়শ টাকা। মোকাম থেকে ১০০ পিস ডাব কিনতেই খরচ হয়েছে ১২ হাজার টাকা। সেখান থেকে ভ্যানে করে ডাবগুলো নিয়ে আসতে ভ্যানগাড়ি ভাড়া ও নাস্তা বাবদ আরও খরচ যোগ হয়েছে। ফলে দেড়শ টাকা বিক্রি না করলে পোষাবে না। শেষ পর্যন্ত রাগে গজগজ করতে করতে তরুণকে দেড়শ টাকায় ডাব কিনে খেতে দেখা যায়।

ভ্যাপসা গরমে পিপাসা মেটাতে অনেকেরই পছন্দের তালিকায় রয়েছে ডাব। কিন্তু দিনকে দিন ডাবের দাম বৃদ্ধির ফলে তা সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। গত ৫ আগস্ট কেরোসিন, পেট্রোল অকটেন ও ডিজেলের দাম লিটার প্রতি ৪২-৫২ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির ফলে ডাবের দাম বেড়েছে।

পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, বর্তমানে ডাবের উৎপাদন এমনিতেই কম। তাছাড়া গরমের কারণে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এমতাবস্থায় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি পাওয়ায় দাম বাড়াটাই স্বাভাবিক।

সোমবার সকালে এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে আফসার আহমেদ নামক এক তরুণ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, করোনার শুরুর দিকে বড় সাইজের একটি ডাবের দাম ছিল সর্বোচ্চ ৬০ টাকা। আজ সেটি দেড়শ টাকায় কিনে খেতে হলো। দেশ কোথায় যে যাচ্ছে, বাজার নিয়ন্ত্রণের কেউ বুঝি নেই।

ডাব বিক্রেতা রমিজ ব্যাপারী বলেন, তারা পাইকারি বাজার থেকে কমে কিনতে পারলে কম দামে বিক্রি করেন আর বেশি দামে কিনলে বেশি দামে বিক্রি করেন। এখানে তার মুনাফা খুবই সীমিত বলে মন্তব্য করেন।

ফজরের নামাজ পড়ে হাঁটছিলেন ছাদে, পা পিছলে পড়ে নার্সের মৃত্যু
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর সবুজবাগের নিজ বাসার চার তলা ছাদ থেকে পড়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মো. আতাউল করিম অপুর (৫০) মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (৬ আগস্ট) ভোরের দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল ৮টার দিকে ঘোষণা করেন।

নিহতের সহকর্মী কামাল পাটোয়ারী জানান, সবুজবাগের নিজ বাসার চার তলায় ছাদে ফজরের নামাজ পড়ে হাঁটছিলেন। ওই সময় ছাদ পিছিল থাকায় অসাবধানতাবশত নিচে পড়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক)মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।


   Page 1 of 58
     রাজধানী
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে বিস্ফোরণ, নিহত ১
.............................................................................................
ন্যূনতম মজুরির ঘোষণাসহ ৬ দফা দাবি পোশাক শ্রমিকদের
.............................................................................................
সহপাঠীর মৃত্যু: শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত
.............................................................................................
সহপাঠীর মৃত্যু: সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
পদ্মা ব্যাংকে মানিলল্ডারিং ও সন্ত্রাসী কার্যে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও মূল্যায়ন কর্মসূচী
.............................................................................................
রাজধানীতে ট্রেনে কাটা পড়ে গাড়িচালকের মৃত্যু
.............................................................................................
রাজধানীতে অটোরিকশার ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
এবার ব্যক্তি পর্যায়ে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর
.............................................................................................
খোঁজ মিলেছে শিক্ষার্থী ইয়াশার, মায়ের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ
.............................................................................................
গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে হামদর্দের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
বিদেশে কেউ ব্যক্তিগত গল্প করে আসলে দায় দলের না: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
যাত্রাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
.............................................................................................
উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনা : চালক ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা
.............................................................................................
মতিঝিলে ফুটপাত থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
এক ডাবের দাম ১৫০ টাকা
.............................................................................................
ফজরের নামাজ পড়ে হাঁটছিলেন ছাদে, পা পিছলে পড়ে নার্সের মৃত্যু
.............................................................................................
হামদর্দ বোর্ড অবট্রাস্টিজের সভা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
মৎস্য সপ্তাহে হাতিরঝিলে বর্ণাঢ্য নৌ শোভাযাত্রা
.............................................................................................
লোডশেডিং নিয়ে নতুন পরিকল্পনা আসছে: নসরুল হামীদ বিপু
.............................................................................................
মাতুয়াইলে বাস উল্টে আহত ১৯ যাত্রী, আশঙ্কাজনক ৮ জন
.............................................................................................
রাজধানীতে নারী সাংবাদিকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
গাবতলীতে ঘরমুখো মানুষের উপচেপড়া ভিড়
.............................................................................................
প্রেস ক্লাবের সামনে গায়ে আগুন দেওয়া ব্যক্তি মারা গেছেন
.............................................................................................
রাজধানীতে প্রস্তুত কোরবানির হাট, আসতে শুরু করেছে পশু
.............................................................................................
পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ছোঁয়া লেগেছে হাতিরঝিলেও
.............................................................................................
প্রস্তুত হচ্ছে রাজধানীর পশুর হাটগুলো
.............................................................................................
রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৪৬
.............................................................................................
কদমতলীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে অটোরিকশা চালকের মৃত্যু
.............................................................................................
জুরাইনে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুলছাত্রের মৃত্যু
.............................................................................................
রাজধানীতে ইয়াবা-হেরোইন-গাঁজাসহ গ্রেফতার ৩১
.............................................................................................
রাজধানীর জুরাইনে চিপসের কারখানার অগ্নিকান্ড
.............................................................................................
মাঙ্কিপক্স সন্দেহে তুরস্কের নাগরিককে হাসপাতালে ভর্তি
.............................................................................................
রাজধানীতে বাসের চাপায় কনস্টেবল নিহত
.............................................................................................
শাহ আমানতে দুবাইফেরত যাত্রীর লাগেজে মিললো ৩৪ স্বর্ণের বার
.............................................................................................
রাজধানীতে চালের ট্রাকে মিললো দেড় কোটি টাকার হেরোইন
.............................................................................................
রাজধানীতে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় পুলিশ সদস্য নিহত
.............................................................................................
রাজধানীতে গরম আর যানজটে ভোগান্তি চরমে
.............................................................................................
পরিচ্ছন্ন শহর গড়তে ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণ করছে ডিএনসিসি
.............................................................................................
অ্যাম্বুলেন্সে করে আদালতে সম্রাট
.............................................................................................
ঢাবিতে শক্ত অবস্থানে ছাত্রলীগ, শোডাউনের প্রস্তুতি ছাত্রদলের
.............................................................................................
রওশন জাহান ইস্টার্ণ মেডিকেল কলেজ এর পরিচালনা পর্ষদের সভা এবং বৈজ্ঞানিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
ডিএমপির মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৯৪
.............................................................................................
রাজধানীতে বৈদ্যুতিক খুঁটি পড়ে রিকশাচালকের মৃত্যু
.............................................................................................
ভ্যাপসা গরম আর তীব্র যানজটে নাকাল নগরবাসী
.............................................................................................
কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজারের চুরি যাওয়া মোবাইল-টাকা উদ্ধার
.............................................................................................
রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ২২
.............................................................................................
`ফ্রিজের কম্প্রেসার বিস্ফোরণে` আহত স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু
.............................................................................................
যাত্রাবাড়ীতে দুই বাসের মাঝে পড়ে ওয়ার্কশপ মিস্ত্রি নিহত
.............................................................................................
রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু
.............................................................................................
তাদের ভরসা বায়তুল মোকাররমের পাঞ্জাবি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD