| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * সিরিয়ায় বোমা হামলায় ১৩ সেনা নিহত   * রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা   * আন্তর্জাতিক সনদ পাচ্ছে ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ি   * বরগুনায় কীটনাশক খেয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু   * বিশ্বজুড়ে একদিনে সাড়ে ৮ হাজারের বেশি মৃত্যু   * এসকে সিনহাসহ ১১ জনের মামলার রায় বৃহস্পতিবার   * তিস্তার পানি বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার ওপরে, আকস্মিক বন্যা   * মমেক হাসপাতালে ২ জনের মৃত্যু   * পাকিস্তানের জলসীমায় ভারতের সাবমেরিন, গতিপথ আটকানোর দাবি   * উত্তরাখণ্ডে বৃষ্টি-বন্যায় ১৬ জনের মৃত্যু  

   আবহাওয়া -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বৃষ্টি থাকতে পারে আরও দুদিন, ৩ নম্বর সংকেত বহাল

মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা আরও দুদিন থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। একই সঙ্গে সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হয়েছে।

সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে, তবে দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বেশি। সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে সাতক্ষীরায়, ৯১ মিলিমিটার। এ সময়ে ঢাকায় বৃষ্টি হয়েছে ২৭ মিলিমিটার।

মঙ্গলবার রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের বেশিরভাগ জায়গায় বৃষ্টি থাকবে বলে জানিয়েছেন।

গত রাতে ঢাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকার আকাশে মেঘের সঙ্গে রোদও ছিল। তবে বেলা সোয়া ১০টার মধ্যে আকাশ মেঘে মেঘে ছেয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। থেমে থেমে চলছিল বৃষ্টি।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ বলেন, তেলেঙ্গানা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বিরাজমান লঘুচাপটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের অন্যত্র সক্রিয় আছে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

আগামী দুদিন পর বৃষ্টির প্রবণতা কমতে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

একই সঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে। তাই এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে জারি করা ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখতে বলা রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ দশমিক ১ ছিল কুতুবদিয়ায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বৃষ্টি থাকতে পারে আরও দুদিন, ৩ নম্বর সংকেত বহাল
                                  

মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা আরও দুদিন থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। একই সঙ্গে সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হয়েছে।

সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে, তবে দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বেশি। সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে সাতক্ষীরায়, ৯১ মিলিমিটার। এ সময়ে ঢাকায় বৃষ্টি হয়েছে ২৭ মিলিমিটার।

মঙ্গলবার রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের বেশিরভাগ জায়গায় বৃষ্টি থাকবে বলে জানিয়েছেন।

গত রাতে ঢাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকার আকাশে মেঘের সঙ্গে রোদও ছিল। তবে বেলা সোয়া ১০টার মধ্যে আকাশ মেঘে মেঘে ছেয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। থেমে থেমে চলছিল বৃষ্টি।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ বলেন, তেলেঙ্গানা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বিরাজমান লঘুচাপটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের অন্যত্র সক্রিয় আছে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

আগামী দুদিন পর বৃষ্টির প্রবণতা কমতে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

একই সঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে। তাই এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে জারি করা ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখতে বলা রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ দশমিক ১ ছিল কুতুবদিয়ায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সাগরে লঘুচাপ, বাড়তে পারে বৃষ্টি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশাল বিভাগে বৃষ্টি বেড়েছে। বিচ্ছিন্নভাবে বৃষ্টি হচ্ছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগেও। এরমধ্যেই বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাবে আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বুধবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট বিভাগে কোনো বৃষ্টি হয়নি। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি ১৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পটুয়াখালীতে। ঢাকা বিভাগের ফরিদপুরে ১৫, মাদারীপুরে ২ মিলিমিটার এবং কিশোরগঞ্জের নিকলিতে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তাপমাত্রা কিছু কমলেও স্বস্তি ফেরেনি জনজীবনে। বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সিলেটে ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ দশমিক ২ ডিগ্রি থেকে বুধবার কমে হয় ৩৩ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ বলেন, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে, এর বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। মৌসুমি বায়ু দেশের দক্ষিণাঞ্চলে কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল।

আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে এবং দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের অবশিষ্টাংশ থেকে বিদায় নেওয়ায় আবহাওয়াগত অবস্থা অনুকূলে রয়েছে বলেও জানান এই আবহাওয়াবিদ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়।

বাড়তে পারেে বৃষ্টি, কমবে তাপমাত্রা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কিছুটা বাড়তে পারে, একই সঙ্গে কিছুটা কমতে পারে তাপমাত্রা। অন্যদিকে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশ থেকে বিদায় নিতে শুরু করেছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে সারাদেশ থেকে বিদায় নিতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

গত কয়েকদিন ধরে ঢাকায় ভ্যাপসা গরমে কষ্ট পাচ্ছে নগরবাসী। তবে বুধবার সকাল থেকে ঢাকার আকাশ মেঘলা। গরমও কিছুটা কমেছে।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগ ছাড়া সারাদেশ ছিল প্রায় বৃষ্টিহীন। এ সময়ে ফেনীতে সবচেয়ে বেশি ২৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু (বর্ষা) দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। মৌসুমি বায়ু দেশের অন্যত্র কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আগামী তিনদিনের মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের অবশিষ্টাংশ থেকে বিদায় নেওয়ার আবহাওয়াগত অবস্থা অনুকূলে রয়েছে বলেও জানান এই আবহাওয়াবিদ।

বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে অধিদপ্তর জানিয়েছে, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়, খুলনা ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ময়মনসিংহে, ৩৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চার বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা
                                  

মৌসুমি বায়ু দুর্বল হয়ে পড়ায় বৃষ্টিপাত কমেছে। অস্থায়ীভাবে দেশের আকাশ আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া চট্টগ্রাম, খুলনা, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, মৌসুমি বায়ুর অক্ষ ভারতের পূর্ব উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে।

আজ সোমবার (১১ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে। তবে ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

সারা দেশের দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকবে। মঙ্গলবার নাগাদ উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হতে পারে। বর্ধিত পাঁচদিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হবে।

রোববার (১০ অক্টোবর) দেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে সাতক্ষীরায়, ৩ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তাড়াশে, ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের জন্য কোন সতর্কবার্তা নেই এবং কোন সংকেতও দেখাতে হবে না।

অক্টোবরে আসছে ঘূর্ণিঝড়, স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : চলতি মাসে (অক্টোবর) বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণিঝড়ের সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। একই সঙ্গে এ মাসে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টিরও পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাস দিতে গঠিত আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষজ্ঞ কমিটি এ পূর্বাভাস দিয়েছে।


রোববার (৩ অক্টোবর) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কমিটির নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অধিদপ্তরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

বিশেষজ্ঞ কমিটির দেওয়া চলতি মাসের পূর্বাভাস প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, অক্টোবর মাসে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে। এ মাসে বঙ্গোপসাগরে ১ থেকে ৩টি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে, এর মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।

অক্টোবর মাসের শেষার্ধের মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুপ্রবাহ (বর্ষা) বাংলাদেশ থেকে বিদায় নিতে পারে। অক্টোবর মাসে দেশের প্রধান নদ-নদীতে স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজমান থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক বলেন, সেপ্টেম্বর মাসে সার্বিকভাবে বাংলাদেশে স্বাভাবিকের চেয়ে ২৯ দশমিক ৫ শতাংশ কম বৃষ্টিপাত হয়েছে। তবে খুলনা ও বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিক বৃষ্টি হয়েছে। একই সঙ্গে সেপ্টেম্বরে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল।


সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ১ ও ২, ১৪ ও ১৫ এবং ১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর সারাদেশে বিচ্ছিন্নভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হয়। এ সময় এ মাসের দৈনিক সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ১৯৩ মিলিমিটার সন্দ্বীপে (১৮ সেপ্টেম্বর) রেকর্ড করা হয় বলেও জানান তিনি।

সেপ্টেম্বরে পাঁচটি লঘুচাপ, একটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত

গত ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয় জানিয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরের দীর্ঘমেয়াদি প্রতিবেদনে জানানো হয়, এটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ৭ সেপ্টেম্বর মধ্যপ্রদেশ এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে অবস্থান নেয় এবং ৮ সেপ্টেম্বর দুর্বল হয়ে প্রথমে লঘুচাপে পরিণত হয় এবং পরে মৌসুমি অক্ষের সাথে মিলিত হয়।

১০ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় আরেকটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ১২ সেপ্টেম্বর উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে অবস্থান নেয়। এরপর এটি পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘণীভূত হয়ে প্রথমে নিম্নচাপ এবং পরে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে ১৩ সেপ্টেম্বর উড়িষ্যা এলাকায় অবস্থান নেয়।

এরপর এটি আরও পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে প্রথমে নিম্নচাপ এবং পরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উত্তর মধ্যপ্রদেশ এলাকায় অবস্থান নেয়, পরে আরও পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিমে অগ্রসর এবং দুর্বল হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উত্তর প্রদেশ এলাকায় এবং আরও দুর্বল হয়ে মৌসুমি অক্ষের সাথে মিলিত হয়।

এরপর ২১ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। এটি পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ২২ সেপ্টেম্বর ঝাড়খণ্ড এলাকায় অবস্থান নেয়। এরপর আরও পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর মৌসুমি অক্ষের সাথে মিলিত হয়।

এরপর ২৪ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। এরপর এটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ক্রমশ ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট প্রথমে লঘুচাপ, নিম্নচাপ ও গভীর নিম্নচাপ আকারে ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করে। এটি আরও পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘণীভূত হয়ে ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় একই এলাকায় ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত হয়।

ঘূর্ণিঝড়টি পরবর্তী সময়ে আরও পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ২৬ সেপ্টেম্বর মধ্যরাত নাগাদ ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ-দক্ষিণ উড়িষ্যা উপকূল অতিক্রম করে। এরপর এটি আরও পশ্চিম উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমেই দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপ, নিম্নচাপ এবং সর্বশেষ সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে ২৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় গুজরাট এলাকায় অবস্থান নেয়। এরপর এটি আরও পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে আরব সাগরে পতিত হয়।

সর্বশেষ ২৮ সেপ্টেম্বর উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশ-পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয় এবং দ্রুত তা ঘণীভূত হয়ে একই দিন সন্ধ্যা ৬টায় একই এলাকায় একটি সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়। এরপর এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর ভারতের ঝাড়খণ্ড এলাকায় অবস্থান নেয় এবং সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী এটি বিহার এলাকায় অবস্থান করছিল বলে জানিয়েছে অধিদপ্তর।

অস্বস্তিকর গরম, ৩ দিনের মধ্যে বাড়তে পারে বৃষ্টি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারাদেশ প্রায় বৃষ্টিহীন। তাই অস্বস্তিকর গরমে কষ্ট পাচ্ছেন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ। আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট ছাড়া সারাদেশ ছিল বৃষ্টিহীন। সিলেট ও শ্রীমঙ্গলে ৫ মিলিমিটার করে বৃষ্টি হয়েছে। রংপুরে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ফরিদপুরে, ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃষ্টি না থাকায় শরতের এই তাপমাত্রাই অস্বস্তিকর অবস্থার সৃষ্টি করেছে।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, বিহার ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি দুর্বল হয়ে একই এলাকায় লঘুচাপ হিসেবে পরিণত হয়েছে। এটি পূর্বদিকে অগ্রসর হতে পারে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে।

আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে বলেও জানান এই আবহাওয়াবিদ।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের অনেক জায়গায়; ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও ঢাকা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

তিনদিনের মধ্যে কমতে পারে বৃষ্টি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের বিভিন্ন বিভাগে ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির প্রবণতা কমে যেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার সকাল ৬টা থেকে রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব বিভাগেই বৃষ্টির প্রবণতা বেশি ছিল। এসময়ে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে সন্দ্বীপে, ১৯৩ মিলিমিটার। এছাড়া চাঁদপুরে ১১১, সৈয়দপুরে ১০২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। ঢাকায় ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, বিহার, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় ও রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এসময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

সারা দেশের তাপমাত্রা কমতে পারে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা (১-২) ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। ঢাকায় দক্ষিণপূর্ব/পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ৬-১২ কিলোমিটার।

খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগে অপেক্ষাকৃত বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়ায় তাপমাত্রা কমার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা (১-২) ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। ঢাকায় দক্ষিণপূর্ব/পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ৬-১২ কিলোমিটার।

বুধবার নাগাদ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। বর্ধিত পাঁচ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে।

মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, বিহার, উড়িষ্যা, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশ হয়ে উত্তরপূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

এর আগে রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ ৩৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বগুড়ায় ২০ ও ময়মনসিংহে ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। এ সময় ঢাকায় কোন বৃষ্টি হয়নি বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

গত শনিবার ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাঙ্গামাটিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। ঢাকায় আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

সাগরে ফের লঘুচাপ, ৩ দিনের মধ্যে বাড়তে পারে বৃষ্টি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : বঙ্গোপসাগরে ফের একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাবে আগামী তিনদিনের মধ্যে বাংলাদেশের স্থলভাগে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার খুলনা বিভাগ ছাড়া সারাদেশ ছিল প্রায় বৃষ্টিহীন। তবে শুক্রবার বৃষ্টি কিছুটা বেড়েছে। বরিশাল ও সিলেট বিভাগে কোনো বৃষ্টি হয়নি শুক্রবারও। যেখানে বৃষ্টি হয়েছে, তাও ছিল সামান্য।

শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ঢাকায়, ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান বলেন, মধ্য বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটি ঘনীভূত হতে পারে এবং পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী তিন দিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে বলেও জানান হাফিজুর রহমান।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।


শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে তেঁতুলিয়ায়, ৪৫ মিলিমিটার। এ সময় ঢাকায় ৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

৩ দিনের মধ্যে সাগরে ফের লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তা কমে যাওয়ায় দেশে ফের বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমে গেছে। তাই তাপমাত্রা বাড়ছে। একই সঙ্গে আগামী তিনদিনের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে ফের একটি মৌসুমি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এর আগে গত ৬ সেপ্টেম্বর উড়িষ্যা উপকূলের অদূরে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। পরে সেটি ভারতের স্থলভাগে উঠে নিঃশেষ হয়ে যায়।

গত একদিন প্রায় বৃষ্টিহীন থাকার পর বৃহস্পতিবার বেলা বাড়লে মেঘে ঢেকে যায় ঢাকার আকাশ। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ রিপোর্ট লেখার সময় হালকা বৃষ্টি হচ্ছিল।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় রয়েছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দুএক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়। বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৫ দশমিক তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস। মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সিলেট ও শ্রীমঙ্গলে, এ দুটি স্থানে ৩৪ দশমিক দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছিল আবহাওয়া বিভাগ।

বুধবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টির প্রবণতা অনেকটাই কমে গেছে। এ সময় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে শ্রীমঙ্গলে, ৫৭ মিলিমিটার। ঢাকায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া মাইজদী কোর্টে ১২, যশোরে ১৩, কুমারখালীতে ২২, পটুয়াখালীতে ২২, ভোলায় ১২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। দেশের আর কোথাও বৃষ্টি ১০ মিলিমিটারের উপরে উঠেনি।

ভ্যাপসা গরমে অস্বস্তি, কমতে পারে দিনের তাপমাত্রা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃষ্টি অনেকটাই কমেছে। তাই ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভ্যাপসা গরম অস্বস্তিতে ফেলছে মানুষকে। তবে আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দিনের তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে।

বুধবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে তেঁতুলিয়ায়, ১১৩ মিলিমিটার। ঢাকায় এক মিলিমিটার বৃষ্টি ছাড়া ঢাকা বিভাগের কোথাও বৃষ্টি হয়নি।

একইভাবে রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট বিভাগও ছিল প্রায় বৃষ্টিশূন্য। বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল মংলায়, ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ, বিহার, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী তিন দিনের আবহাওয়া মোটামুটি এরকমই থাকতে পারে বলেও জানান এই আবহাওয়াবিদ।

তিনদিনের মধ্যে ফের বাড়তে পারে বৃষ্টি
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারাদেশেই বৃষ্টি কমেছে। তবে আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির প্রবণতা ফের বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, দক্ষিণ ছত্রিশগড় ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশে অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এসময় সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী তিন দিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে বলে জানান এই আবহাওয়াবিদ।

এদিকে সোমবার সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব বিভাগেই বৃষ্টির প্রবণতা কমেছে। বেশির ভাগ বৃষ্টি পরিমাপক পয়েন্টগুলোতে ১০ মিলিমিটারের কম বৃষ্টি হয়েছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে রাজশাহীতে, ৪০ মিলিমিটার। ঢাকার কোথাও বৃষ্টি হয়নি।

তবে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ রোদ ঝলমলে। সঙ্গে রয়েছে গরমের অস্বস্তি।

উত্তরাঞ্চলে ভারি বৃষ্টির আভাস
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় উত্তরাঞ্চলে কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। খবর বাসসের।

পরবর্তী দু’দিনে আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। পরের ৫ দিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে।

সোমবার দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, সিলেট, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে সর্বোচ্চ ৬৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া রংপুরে ৪৭ মিলিমিটার, রাজারহাটে ৪৩ মিলিমিটার, তেঁতুলিয়ায় ৪১ মিলিমিটার, ফরিদপুর ও সৈয়দপুরে ২৩ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ২১ মিলিমিটার, বদলগাছীতে ১৫ মিলিমিটার এবং বগুড়ায় ১৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

এ সময় ঢাকায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। সোমবার মংলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন রাঙ্গামাটিতে ২৫ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ২৮ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বাড়তি অংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে সক্রিয়, এছাড়া দেশের অন্যত্র কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

বৃষ্টি কমেছে, বাড়তে পারে তাপমাত্রা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃষ্টির প্রবণতা কমে গেছে। আগামী দুইদিন এই প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। তাই এই সময়ে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। তবে দুইদিন পর বৃষ্টির প্রবণতা আবারও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকে শনিবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে তেতুলিয়া ও ডিমলায়। এই দুইটি স্থানে ৬১ মিলিমিটার করে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদফতর। এ সময়ে ঢাকায় এক মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া দিনাজপুরে ৩০, কুমারখালীতে ১২ ও ভোলায় ৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সারাদেশে আর কোথাও বৃষ্টি পরিমাপক স্টেশনগুলোতে ১০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হয়নি বলে আবহাওয়া অধিদফতর থেকে জানা গেছে। শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে, ৩৪ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক জানান, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

তিনি বলেন, শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানান এই আবহাওয়াবিদ।

ফের চালু হল কাবুল বিমানবন্দর
                                  

অনলাইন ডেস্ক : সোমবার দিনভর কাবুল থেকে উঠে এসেছে বহু হৃদয় বিদারক দৃশ্য। আফগানিস্তান তালেবানের দখলে যেতেই সেদেশ ছাড়তে শুরু করেছে বহু সংখ্যক মানুষ।

দেশ ছাড়তে কাবুল বিমানবন্দরে জনসমুদ্রের সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি বিবেচনায় স্থগিত করা হয় বিমান উড্ডয়ন।

তবে আবার চালু হয়েছে কাবুল বিমানবন্দর। আটকে পড়া বিদেশিদের নেওয়ার জন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।
এরই মাঝে জানা গেছে, কাবুলের ভারতীয় দূতাবাসে বেশ কয়েকজন ভারতীয় আটকে রয়েছেন। তাদের উদ্ধারের জন্য সবরকম সহায়তা করা হবে বলে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আশ্বস্ত করেছে। আতঙ্কে রয়েছে আফগানিস্তানে বসাবসরত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ও।

এরই মাঝে আমেরিকার উদ্দেশে ভাষণে নিজের ঘাড় থেকে এক প্রকার সব দায় ঝেড়ে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন দোষ চাপালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, আশরাফ গনিদের ওপর। এই রাজনৈতিক তথা কূটনৈতিক টানাপোড়েনে প্রাণ সংশয়ে আরও একটা দিন কাটাতে চলেছেন সাধারণ আফগানবাসীরা। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, নদীবন্দরগুলোয় সতর্কতা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ভারতের অন্ধপ্রদেশ উপকূলের অদূরে পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।

এর প্রভাবে দেশের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ সময় কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। খবর বাসসের।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে— ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে— রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, মযমনসিংহ, সিলেট, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা ও চট্টগ্রাম অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে (পুন) ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

পরবর্তী দুদিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে। পরের পাঁচ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফরিদপুরে সর্বোচ্চ ৪৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া শ্রীমঙ্গলে ২৮, খেপুপাড়ায় ২৩, কুতুবদিয়ায় ১৯, ঈশ্বরদী ১৭ ও রাঙামাটিতে ১৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ঢাকায় কোনো বৃষ্টি হয়নি বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।

এ ছাড়া সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সোমবার তেঁতুলিয়ায় ও চুয়াডাঙ্গায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সিলেটে ২৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ভারতের অন্ধপ্রদেশ উপকূলের অদূরে পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বাড়তি অংশ হরিয়ানা, পাঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এর একটি বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বাঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার এবং ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৭৫ শতাংশ।


   Page 1 of 17
     আবহাওয়া
বৃষ্টি থাকতে পারে আরও দুদিন, ৩ নম্বর সংকেত বহাল
.............................................................................................
সাগরে লঘুচাপ, বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
বাড়তে পারেে বৃষ্টি, কমবে তাপমাত্রা
.............................................................................................
চার বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
অক্টোবরে আসছে ঘূর্ণিঝড়, স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টি
.............................................................................................
অস্বস্তিকর গরম, ৩ দিনের মধ্যে বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
তিনদিনের মধ্যে কমতে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
সারা দেশের তাপমাত্রা কমতে পারে
.............................................................................................
সাগরে ফের লঘুচাপ, ৩ দিনের মধ্যে বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
৩ দিনের মধ্যে সাগরে ফের লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
ভ্যাপসা গরমে অস্বস্তি, কমতে পারে দিনের তাপমাত্রা
.............................................................................................
তিনদিনের মধ্যে ফের বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
উত্তরাঞ্চলে ভারি বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
বৃষ্টি কমেছে, বাড়তে পারে তাপমাত্রা
.............................................................................................
ফের চালু হল কাবুল বিমানবন্দর
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, নদীবন্দরগুলোয় সতর্কতা
.............................................................................................
হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
কোথাও হালকা কোথাও ভারী বর্ষণের আভাস
.............................................................................................
তাপমাত্রা বাড়ার পূর্বাভাস, বৃষ্টি বাড়তে পারে দুদিন পর
.............................................................................................
বৃষ্টি আরও বাড়তে পারে
.............................................................................................
৬ বিভাগে অস্থায়ী বৃষ্টির পূর্বাভাস
.............................................................................................
তিন দিনের মধ্যে বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................
ঢাকাসহ ৪ বিভাগে বৃষ্টি অব্যাহত থাকছে
.............................................................................................
ঈদের দিন সারাদেশেই বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
বৃষ্টিপাতের প্রবণতা আরো দুইদিন থাকবে
.............................................................................................
ফের বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে
.............................................................................................
আগামী দুই দিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
কাল থেকে বাড়বে বৃষ্টি
.............................................................................................
সারা দেশে বাড়তে পারে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি
.............................................................................................
আগামী দুদিনও মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
বৃষ্টি কমবে, বাড়বে তাপমাত্রা
.............................................................................................
আগামী ৩ দিনে বৃষ্টিপাত বাড়ার সম্ভাবনা
.............................................................................................
সাগরে ফের সৃষ্টি হচ্ছে লঘুচাপ, বাড়বে বৃষ্টি
.............................................................................................
যমুনায় তীব্র স্রোতে নৌকাডুবি, দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
বৃষ্টি হবে টানা দুই দিন
.............................................................................................
ভারী বর্ষণের আভাস
.............................................................................................
৪ বিভাগে ভারি বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
চলতি মাসেই একাধিক শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের আভাস
.............................................................................................
চলতি মাসেই বন্যার সম্ভাবনা
.............................................................................................
আজও বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
দেশে মৃদু তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে!
.............................................................................................
সিলেটে ভূমিকম্পে হেলে পড়েছে ৬ তলার দুই ভবন
.............................................................................................
ফের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল সিলেট
.............................................................................................
আগামী ৩ দিনে বৃষ্টি বাড়ার আভাস
.............................................................................................
গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে ইয়াস, ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত
.............................................................................................
মেঘনার পানি বিপদসীমার উপরে, ডুবে গেছে ৩০ চর
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় ইয়াস: ঢাকা নদীবন্দরে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে ঝালকাঠিতে বাঁধ ভেঙে ২৫ গ্রাম প্লাবিত
.............................................................................................
১৫ সেকেন্ডের ঝড়েই ল`ণ্ডভ`ণ্ড ঘরবাড়ি
.............................................................................................
শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়ে উপকূলে ধেয়ে আসছে ‘ইয়াস’
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop