বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * যাত্রী বাড়লেও চিরচেনা সেই চাপ নেই সদরঘাটে   * পশ্চিমবঙ্গে বিপৎসীমা ছাড়িয়েছে তিস্তার পানি   * সীমান্তে বেড়েছে গরু চোরাচালান   * সড়কে চাপ আছে যানজট নেই: কাদের   * মানুষ শুধু গরু দেখছে, কিনছে না   * আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবার জিরা আমদানি   * পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু আজ   * এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে যানবাহনের চাপ   * শিগগির যুদ্ধবিরতির সম্ভাবনা দেখছেন না বাইডেন   * বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে ৩ কোটি ২১ লাখ টাকার টোল আদায়  

   আবহাওয়া -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
সারাদেশে বৃষ্টির আভাস

দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। পাশাপাশি কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, রাজশাহী, পাবনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা এবং কুষ্টিয়া জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া বৃহস্পতিবার দেশের উত্তরাঞ্চলে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। তবে দেশের অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এছাড়া সারাদেশে রাতের তাপমাত্রাও প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

শুক্রবার ও শনিবারের পূর্বাভাস জানিয়ে আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এই দুদিন সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

তিনি আরও জানান, বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া রাজশাহী ও খুলনা ছাড়া প্রায় সব বিভাগে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়েছে। সর্বোচ্চ ১০২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়।

সারাদেশে বৃষ্টির আভাস
                                  

দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। পাশাপাশি কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, রাজশাহী, পাবনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা এবং কুষ্টিয়া জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া বৃহস্পতিবার দেশের উত্তরাঞ্চলে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। তবে দেশের অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এছাড়া সারাদেশে রাতের তাপমাত্রাও প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

শুক্রবার ও শনিবারের পূর্বাভাস জানিয়ে আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এই দুদিন সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

তিনি আরও জানান, বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া রাজশাহী ও খুলনা ছাড়া প্রায় সব বিভাগে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়েছে। সর্বোচ্চ ১০২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়।

সুসংবাদ দিচ্ছে না আবহাওয়া অধিদপ্তর
                                  

আগামী পাঁচদিনের মধ্যে চলমান অস্বস্তি ও গরম কমার কোনো সম্ভবনা নেই। বাতাসে অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে এই অস্বস্তি-গরম অনুভূত হচ্ছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদের দেওয়া পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

আবহাওয়া অফিস জানায়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

তাপপ্রবাহ নিয়ে সংস্থাটি জানায়, খুলনা বিভাগসহ গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা ও পটুয়াখালী জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। এছাড়া, সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে অস্বস্তি অব্যাহত থাকতে পারে।

১২ জুন যেমন থাকবে আবহাওয়া পরিস্থিতি

ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; রংপুর, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। এছাড়া, চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে এবং সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে অস্বস্তি অব্যাহত থাকতে পারে।

১৩ জুন যেমন থাকবে আবহাওয়া

রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া, সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে অস্বস্তি অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী পাঁচদিনের শেষের দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

৬ বিভাগে বইছে মৌসুমি বায়ু, কমতে পারে তাপপ্রবাহ
                                  

দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট, ময়মনসিংহ, রংপুর এবং রাজশাহী বিভাগ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। একইসাথে এটির আরও অগ্রসর হওয়ার জন্য পরিস্থিতি অনুকূলে রয়েছে। ফলে দেশের ৯টি অঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু ধরনের তাপপ্রবাহ কিছুটা কমার সম্ভাবনা রয়েছে।

সোমবার (৩ জুন) আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে প্রকাশিত পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিকের সই করা আবহাওয়া বার্তায় সোমবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির আভাস দেওয়া হয়েছে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এতে আরও বলা হয়েছে- রংপুর, দিনাজপুর, সিলেট, চাঁদপুর, নোয়াখালী, খুলনা, বাগেরহাট, যশোর ও বরিশাল জেলাসহ ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। চলমান তাপপ্রবাহ কিছু কিছু জায়গায় প্রশমিত হতে পারে। ফলে সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।


আগামীকাল মঙ্গলবার (৪ জুন) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

সেইসাথে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। তবে ওইসব সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

অপরদিকে, আজ সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাজশাহীর বিভাগের ঈশ্বরদী এবং তাড়াশে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে সিলেট বিভাগে ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এইসময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতও হয়েছে সিলেটে। যার পরিমাণ ২২৭ মিলিমিটার।

সারাদেশে বাড়তে পারে দিনের তাপমাত্রা
                                  

ঘূর্ণিঝড় রিমেলের প্রভাবে ঢাকায় ২২০ মিলিমিটার বৃষ্টিতে স্বস্তি ফিরলেও মঙ্গলবার থেকে বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রা। আজও অব্যাহত রয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা (১-৩) ডিগ্রি সেলসিয়াস বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

বুধবার (২৯মে) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় রিমালের সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে বলা হয়, সিলেট ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি পূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে আসাম ও তৎসংলগ্ন এলাকায় লঘুচাপ আকারে অবস্থান করছে এবং গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে।

অন্যদিকে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

বৃহস্পতিবারের পূর্বাভাস জানিয়ে আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

তিনি আরও জানান, মঙ্গলবার সারাদেশে হালকা থেকে ভারী বৃষ্টি হয়েছে। সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে সিলেটে ১৪৬ মিলিমিটার। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

৬ অঞ্চলে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে
                                  

দেশের ছয়টি অঞ্চলের ওপর দিয়ে দুপুরের মধ্যে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।


বুধবার (২৯ মে) দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিমি বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার (২৮ মে) রাতে দেওয়া আবহাওয়ার সবশেষ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বুধবার সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা বাড়বে। দিন ও রাতে প্রায় এক থেকে তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রংপুরে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় রেকর্ড করা হয় ৩৪.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগের দিন সোমবার ঢাকার তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ একদিনের ব্যবধানে ঢাকার তাপমাত্রা বেড়েছে ৭ ডিগ্রির বেশি।

দুপুরের মধ্যে ঢাকাসহ ২০ অঞ্চলে ৮০ কিমি বেগে ঝড় হতে পারে
                                  

ঘূর্ণিঝড় রিমাল ক্রমশ দুর্বল হলেও এর প্রভাব এখনো কমেনি। রিমালের প্রভাবে আজও সারাদেশে ভারী বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সেই সঙ্গে আজ দুপুরের মধ্যে দেশের ২০টি অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

মঙ্গলবার (২৮ মে) আবহাওয়া অফিসের এক পূর্ভাবাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্ভাবাসে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার ভোর ৫টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহকে দুই নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়াও রাজশাহী, দিনাজপুর, পাবনা, রংপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, যশোর, কুষ্টিয়া, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে দক্ষিণ-পূর্ব/দক্ষিণ দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

৮ বিভাগেই বৃষ্টি হতে পারে
                                  

আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তী সময়ে এটি ঘনীভূত হতে পারে। সেই সঙ্গে সারাদেশে বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

অন্যদিকে সারাদেশে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহ দূর হয়ে গেছে। আবহাওয়া অফিস বলছে, দেশে কোথাও তাপপ্রবাহ চলমান নেই। তবে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

সোমবার (২১ মে) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্ভাবাসে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্ভাবাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে হতে পারে শিলাবৃষ্টি।

একই সময়ে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে দিনের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি হ্রাস পেতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল মোংলায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত সব বিভাগেই কমবেশি বৃষ্টি হয়েছে। এসময়ে সবচেয়ে বেশি ১২১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পটুয়াখালীতে। এছাড়া দেশের কিছু জেলায় হালকা, মাঝারি ও ভারী বৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবারের আবহাওয়ার পূর্ভাবাস তুলে ধরে আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক জানান, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

একই সময়ে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দেশের অন্যত্র তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।
আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হলে পরবর্তী সময়ে এটি ক্রমে শক্তিশালী হতে পারে। লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, নিম্নচাপ, গভীর নিম্নচাপ এবং শেষে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

সারা দেশে টানা ৩ দিন বৃষ্টি হতে পারে
                                  

ভ্যাপসা গরমে বৃষ্টি নিয়ে আবারও সুখবর জানাল বাংলাদেশ আবহাওয়া অফিস। আগামী তিনদিন অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টা সারা দেশে টানা বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। এছাড়া, রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও নীলফামারীসহ খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

রোববার (১৯ মে) আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমানের দেওয়া পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং বাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝাড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া, রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও নীলফামারীসহ খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে যে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, তা অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সংস্থাটি জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ১০৬ মিলিমিটার। আজ দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে মোংলায় ৩৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রংপুর, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝাড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/বাড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এছাড়া, আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তী সময়ে এটি ঘনীভূত হতে পারে।

আগামী তিনদিন কমবে গরম বাড়বে বৃষ্টি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : গত কয়েকদিন ধরে আবারও গরম বেড়েছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ওপর দিয়ে বইছে মৃদু তাপপ্রবাহ। এতে জনজীবন বিপর্যস্ত। তবে তাপমাত্রা কমা ও বৃষ্টি নিয়ে সুখবর দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। যেখানে বলা হয়েছে, সারাদেশে গরম কমে বাড়তে পারে বৃষ্টির প্রবণতা।

রাজধানী ঢাকায় শনিবার সকালে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। বেলা বাড়লেও মেলেনি রোদের দেখা। আকাশে ছিল মেঘের আনাগোনা।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের ছয়টি বিভাগে মৃদু এবং মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ চলছে। তবে তাপপ্রবাহের মধ্যেও সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। রাতের তাপমাত্রা থাকতে পারে প্রায় অপরিবর্তিত। একই সঙ্গে আট বিভাগেই অস্থায়ীভাবে দমকা, ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

শনিবার (১৮ মে) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্ভাবাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট ও ময়মনসিংহের কিছু জায়গায় এবং বরিশাল, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। পাশাপাশি বিক্ষিপ্তভাবে হতে পারে শিলাবৃষ্টিও।

অন্যদিকে ছয়টি বিভাগে তাপপ্রবাহ চলমান থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও বরিশালের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে মৌলভীবাজার, রাঙ্গামাটি, চাঁদপুর ও ফেনী জেলায় তাপপ্রবাহ কমে যাবে।

আবহাওয়াবিদ তারিফুল নেওয়ার কবির জানান, রোববার থেকে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমে যাবে। একই সঙ্গে সারাদেশে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

অন্যদিকে চলমান তাপপ্রবাহে জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে জনজীবনে অস্বস্তি বিরাজ করেছে। গতকাল শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ঈশ্বরদীতে ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল শ্রীমঙ্গলে ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

যেসব জায়গায় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে আজ
                                  

 

সারাদেশে গরমের তীব্রতা অনেকটা কমেছে। শনিবার (১১ মে) ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রসহ বৃষ্টি হয়েছে। যা আজ রোববারও অব্যাহত থাকতে পারে বলে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

পূর্বাভাস অনুযায়ী, সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। সব বিভাগে ঝড়বৃষ্টির এ প্রবণতা কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, সারাদেশে রোববার দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। তবে রাত থেকে আগামীকাল সোমবার (১৩ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এদিন সন্ধ্যা থেকে পরের দিন মঙ্গলবার (১৪ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে।

আর বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, দিন ও রাতের তাপমাত্রা আরও বৃদ্ধি পেতে পারে।

এদিকে রাজশাহীতে গতকাল শনিবার দেশের সর্বোচ্চ ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। এদিন দেশের সর্বনিম্ন ২১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল ঢাকায়।

দুপুরের মধ্যে ১৬ জেলায় ৮০ কিমি বেগে ঝড়ের পূর্বাভাস
                                  

ঢাকাসহ দেশের ১৬টি অঞ্চলের ওপর দিয়ে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বুধবার (৮ মে) দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেওয়া এক পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, রংপুর, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, মাদারীপুর, ফরিদপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে দুই নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে, আজ সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

ঝড়বৃষ্টি থাকবে আরও ছয়দিন
                                  

দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ তাপপ্রবাহের পর চলছে ঝড়বৃষ্টি। তবে এই অবস্থা আরও ছয়দিন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

সোমবার (৬ মে) সকাল ১০টার দিকে এই তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি। এর আগে দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেওয়া এক পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ দুপুর ১টার মধ্যে ময়মনসিংহ এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিমি বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। তাই এসব এলাকার নৌবন্দরগুলোতে ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া রংপুর এবং কক্সবাজার অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে রোববার (৫ মে) রাত সাড়ে ৭টা থেকে সোমবার (৬ মে) সকাল ৯টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেওয়া অপর এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছিলো, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিমি বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এসব এলাকার নৌবন্দরগুলোতে ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছিল।

হিট অ্যালার্টের মধ্যেই ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস
                                  

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে জারি রয়েছে ২৪ ঘণ্টার ‘হিট অ্যালার্ট’। এর মধ্যেই দুই অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এসব এলাকার নদীবন্দরকেও ২ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

রোববার ভোর ৫টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের জন্য দেওয়া পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, নোয়াখালী ও চট্টগ্রাম অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম-উত্তরপশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ হুশিয়ারি সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এর আগে গত ১৯ এপ্রিল দেশজুড়ে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে প্রথমবারের মতো তিন দিনের হিট অ্যালার্ট জারি করেছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর। এরপর কয়েক ধাপে তা বাড়ানো হয়। সবশেষ গত বৃহস্পতিবার (২ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার তাপপ্রবাহের সতর্কতা বা হিট অ্যালার্ট জারি করেছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এদিকে দীর্ঘ তাপপ্রবাহ শেষে আজ (রোববার) থেকে শক্তিশালী বৃষ্টিবলয়ের মধ্যে প্রবেশ করতে যাচ্ছে দেশ। এর ফলে তীব্র বজ্রপাত, কালবৈশাখী ও শিলাবৃষ্টির আশঙ্কার কথা জানিয়েছে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা বাংলাদেশ আবহাওয়া অবজারভেশন টিম (বিডব্লিউওটি)।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, মে মাসে সামগ্রিকভাবে দেশে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে বজ্রপাত, শিলাবৃষ্টির ও তীব্র কালবৈশাখী হাওয়ার কথাও জানিয়েছে সরকারি এ সংস্থাটি।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অবজারভেশন টিম জানায়, ৫ মে থেকে ১৫ মে পর্যন্ত দেশে বৃষ্টিবলয় সক্রিয় থাকবে। অর্থাৎ ১০ দিনের জন্য বৃষ্টির কবলে পড়তে যাচ্ছে দেশ। এই ১০ দিনে ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে সিলেট বিভাগে বৃষ্টিবলয় বিরাজ করবে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সিলেট বিভাগে বৃষ্টিবলয় থাকবে। এছাড়া দেশের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগগুলোতে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিবলয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানায় আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া বেসরকারি এই সংস্থাটি।

কাল থেকে কমতে পারে তাপমাত্রা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : রোববার থেকে বৃষ্টি বেড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে দিনের তাপমাত্রা কমতে পারে। তবে দেশের পশ্চিমাঞ্চল (খুলনা ও রাজশাহী বিভাগ) ও মধ্যাঞ্চলের (ঢাকা বিভাগ) চলমান তাপপ্রবাহ আরও দুদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

গত দু-দিনে ঝড়-বৃষ্টির কারণে বিভিন্ন অঞ্চলে তাপমাত্রা সামান্য কমেছে। তবে এখনো স্বস্তি ফেরেনি জনজীবনে।

এখনো খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ বিভাগের ওপর দিয়ে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও রয়েছে তীব্র তাপপ্রবাহ। শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রায় ৪১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল যশোরে।

এছাড়া শুক্রবার চুয়াডাঙ্গায় ৪১ দশমিক ২, পাবনার ঈশ্বরদী ও মোংলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে আবহাওয়া বিভাগ। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৩৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলের কোথাও কোথাও বৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও বিচ্ছিন্নভাবে দু`এক জায়গায় বৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ৩৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে কুমিল্লায়। বৃষ্টির প্রবণতা চট্টগ্রাম অঞ্চলে বেশি। চট্টগ্রামের বাইরে শ্রীমঙ্গলে ১২, ভোলায় ৩২, সিলেটে ৪, মোংলায় ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু`এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে, সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

পাবনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও বাগেরহাট জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। চাঁদপুর ও মৌলভীবাজার জেলাসহ ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর ও বরিশাল বিভাগ এবং খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানান তিনি।

তবে রবি ও সোমবার আট বিভাগে কমবেশি বৃষ্টি হতে পারে জানিয়ে পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রোববার দেশের পশিচমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।

সোমবার সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরবর্তী দিনগুলোতেও বৃষ্টির প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে বলে পূর্বাভাসে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অন্যদিকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, কক্সবাজার অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিকে ঘন্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি সহ অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এ সব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

৮০ কি.মি. বেগে ঝড়ের আভাস
                                  

সারা দেশের ওপর দিয়ে বইছে তাপপ্রবাহ। এ অবস্থার মধ্যেই সিলেট, কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঝড় বয়ে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।


সোমবার রাত সোয়া ১১টা থেকে মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) সকাল ৯টা পর্যন্ত নদীবন্দরের জন্য দেওয়া সতর্কবার্তায় এ কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সিলেট অঞ্চলের উপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তরপশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া কিশোরগঞ্জ এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তরপশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে
বলা হয়েছে।

দেশের কোন জেলার তাপমাত্রা কত?
                                  

দেশের ওপর দিয়ে স্মরণকালের সবচেয়ে দীর্ঘতম তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। দাবদাহের কারণে হিট স্ট্রোকে মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটছে। দেশের বিভিন্ন এলাকায় স্কুলশিক্ষার্থীসহ অনেক মানুষকে গরমে অসুস্থ হয়ে চিকিৎসা নিতে হয়েছে। গরম থেকে বাঁচতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানী ঢাকার তাপমাত্রা ওঠে ৪০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত।

আজ সন্ধ্যা ৬টায় আবহাওয়ার সবশেষ তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, দেশের সবচেয়ে উত্তপ্ত এলাকা ছিল খুলনাঞ্চল। এ বিভাগের কোথাও আজ তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি সে. এর নিচে নামেনি। এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গায় ছিল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে এর বিপরীত চিত্র দেখা গেছে সিলেট বিভাগে। এ অঞ্চলে তাপমাত্রা অনেকটাই সহনীয় ছিল। এর মধ্যে শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২০ ডিগ্রি সে.।

আবহাওয়া অফিস বলছে, আগামীকালও সারা দেশে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে। আবহওয়াবিদ তরিফুল নেওয়াজ কবির স্বাক্ষরিত এক আবহাওয়া বার্তায় বলা হয়, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, পাবনা ও রাজশাহী জেলার ওপর দিয়ে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ এবং খুলনা ও রাজশাহী বিভাগের অবশিষ্টাংশ এবং ঢাকা বিভাগের ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। ময়মনসিংহ জেলাসহ বরিশাল, রংপুর ও চট্টগ্রাম বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আগামীকাল (মঙ্গলবার) সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে।


ঢাকা বিভাগ

ঢাকা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

টাঙ্গাইল : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ফরিদপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মাদারীপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গোপালগঞ্জ : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

নিকলি : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ... ডিগ্রি সেলসিয়াস।


চট্টগ্রাম বিভাগ

চট্টগ্রাম : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সন্দ্বীপ : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সীতাকুণ্ড : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রাঙামাটি : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কুমিল্লা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চাঁদপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মাইজদীকোর্ট : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ফেনী : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

হাতিয়া: সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কক্সবাজার : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কুতুবদিয়া : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

টেকনাফ : সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩৫.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বান্দরবান : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সিলেট বিভাগ

সিলেট : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শ্রীমঙ্গল : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ... ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ময়মনসিংহ বিভাগ

ময়মনসিংহ : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

নেত্রকোণা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রাজশাহী বিভাগ

রাজশাহী : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ঈশ্বরদী : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বগুড়া : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বদলগাছি : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তাড়াশ : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রংপুর বিভাগ

রংপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দিনাজপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সৈয়দপুর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তেঁতুলিয়া : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ডিমলা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রাজারহাট : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


খুলনা বিভাগ

খুলনা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মোংলা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সাতক্ষীরা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

যশোর : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চুয়াডাঙা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কুমারখালী : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বরিশাল বিভাগ

বরিশাল : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পটুয়াখালী : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

খেপুপাড়া : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ভোলা : সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সূত্র: আবহাওয়া অধিদপ্তর


   Page 1 of 25
     আবহাওয়া
সারাদেশে বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
সুসংবাদ দিচ্ছে না আবহাওয়া অধিদপ্তর
.............................................................................................
৬ বিভাগে বইছে মৌসুমি বায়ু, কমতে পারে তাপপ্রবাহ
.............................................................................................
সারাদেশে বাড়তে পারে দিনের তাপমাত্রা
.............................................................................................
৬ অঞ্চলে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে
.............................................................................................
দুপুরের মধ্যে ঢাকাসহ ২০ অঞ্চলে ৮০ কিমি বেগে ঝড় হতে পারে
.............................................................................................
৮ বিভাগেই বৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
সারা দেশে টানা ৩ দিন বৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
আগামী তিনদিন কমবে গরম বাড়বে বৃষ্টি
.............................................................................................
যেসব জায়গায় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে আজ
.............................................................................................
দুপুরের মধ্যে ১৬ জেলায় ৮০ কিমি বেগে ঝড়ের পূর্বাভাস
.............................................................................................
ঝড়বৃষ্টি থাকবে আরও ছয়দিন
.............................................................................................
হিট অ্যালার্টের মধ্যেই ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
কাল থেকে কমতে পারে তাপমাত্রা
.............................................................................................
৮০ কি.মি. বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
দেশের কোন জেলার তাপমাত্রা কত?
.............................................................................................
ঝড়ের পূর্বাভাস দিলো আবহাওয়া অফিস
.............................................................................................
হিট অ্যালার্টের মধ্যে ঢাকাসহ চার অঞ্চলে বজ্রবৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
রাতে তীব্র ঝড়ের আশঙ্কা, হুঁশিয়ারি সংকেত
.............................................................................................
দুপুরের মধ্যেই যেসব অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪২ ডিগ্রিতে
.............................................................................................
৫৪ জেলায় তাপপ্রবাহ, অব্যাহত থাকার আভাস
.............................................................................................
ছয় বিভাগে তাপপ্রবাহ, আরও বাড়ার আভাস
.............................................................................................
আট জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ, বিস্তৃতি আরও বাড়বে
.............................................................................................
দুই অঞ্চলে বৃষ্টির আভাস, বাড়তে পারে তাপপ্রবাহের আওতা
.............................................................................................
গরম বাড়তে পারে, ৪ বিভাগে হালকা বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
৮ বিভাগেই ঝড়-বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
৮০ কিমি. বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
আজও ৮ বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা, আরও কমবে তাপমাত্রা
.............................................................................................
৬০ কিমি. বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
ঝড়-বৃষ্টির প্রবণতা থাকতে পারে আরও ৩ দিন
.............................................................................................
রাতে বাড়তে পারে শীতের অনুভূতি
.............................................................................................
মঙ্গলবার থেকে ফের শুরু হচ্ছে বৃষ্টি, থাকতে পারে ৪ দিন
.............................................................................................
শীতের মধ্যেই যে বিভাগে বৃষ্টি হতে পারে আজ
.............................................................................................
চলমান শৈত্যপ্রবাহের মধ্যেই দুঃসংবাদ দিল আবহাওয়া অধিদপ্তর
.............................................................................................
শীত নিয়ে যা জানাল আবহাওয়া অফিস
.............................................................................................
দুপুরের মধ্যে ৬০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ, সমুদ্র বন্দরে সংকেত
.............................................................................................
৪ বিভাগে হালকা বৃষ্টির আভাস, কমতে পারে তাপমাত্রা
.............................................................................................
দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির পূর্বাভাস
.............................................................................................
সাগরের লঘুচাপ, বুধবার থেকে বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
সাগরে গভীর নিম্নচাপ: ৮ বিভাগেই বৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
দুই দিনের মধ্যে সাগরে লঘুচাপ, ফের বৃষ্টির আভাস
.............................................................................................
৬ অঞ্চলে বৃষ্টির পূর্বাভাস
.............................................................................................
দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে
.............................................................................................
বাড়বে দিনের তাপমাত্রা
.............................................................................................
অতিভারী বর্ষণের পূর্বাভাস
.............................................................................................
দেশের বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে
.............................................................................................
৮ অঞ্চলে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে
.............................................................................................
১১ জেলায় তাপপ্রবাহ, ক্রমেই বাড়তে পারে বৃষ্টি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: [email protected]
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD