বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * গঙ্গাস্নানে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা, নারী-শিশুসহ নিহত ২২   * পিলখানা হত্যাকাণ্ডে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন   * ঢাকাসহ ৮ অঞ্চলে হতে পারে ঝোড়ো বৃষ্টি   * শবেবরাত সবার জন্য রহমত ও কল্যাণ বয়ে আনুক : রাষ্ট্রপতি   * দফায় দফায় বাড়ছে খেজুরের দাম   * ডেঙ্গুর প্রকোপ : এবার আগেভাগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার নির্দেশ   * পবিত্র শবে বরাত আজ   * জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস আজ   * রোজার আগেই ভার‌ত থে‌কে দে‌শে পেঁয়াজ ঢুক‌বে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   * যুদ্ধের দুই বছর : হাল ছাড়তে চান না ক্লান্ত ইউক্রেনীয়রা  

   প্রবাস -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসী, এক বছরে গ্রেফতার ১২ হাজার

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ দিন দিন বেড়েই চলছে। গত বছর (২০২৩ সালে) উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্ত দিয়ে এক লাখ ৯১ হাজার ৬০৩ অভিবাসী যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেন। এই সংখ্যা ২০২২ সালের থেকে ৪১ শতাংশ বেশি। শুধুমাত্র কানাডা থেকে অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে ১২ হাজারের বেশি অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ সীমান্তে ভিড় করছেন অভিবাসীরা। ফলে কম সুরক্ষিত এবং আরও বিস্তৃত যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সীমান্ত দিয়ে অভিবাসী পারাপারের সংখ্যা বাড়ছে।

তবে অভিবাসীদের বেশিরভাগ সীমান্ত পারাপারের বৈধ বন্দর ব্যবহার করছেন। তারপরও ২০২৩ সালে কানাডা থেকে ১২ হাজার ২০০ জনের বেশি অভিবাসীকে অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে গ্রেফতার করা হয়। এই সংখ্যা আগের বছর গ্রেফতার হওয়া তিন হাজার ৫৭৮ জন থেকে ২৪১ শতাংশ বেশি।

বেশির ভাগ অবৈধ অভিবাসী শনাক্তকরণ এড়াতে কানাডা থেকে প্রবেশ করেন বলে জানা গেছে। গত তিন মাসে নিউ ইয়র্ক, ভারমন্ট ও নিউ হ্যাম্পশায়ারের কাউন্টিগুলোতে সীমান্ত পারাপারের রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে।

মেক্সিকো থেকে কানাডায় ভ্রমণকারীদের প্রবেশের জন্য ভিসার প্রয়োজন হয় না। ফলে পরিচয় এড়াতে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর সঙ্গে সোয়ান্টন সেক্টর নামে পরিচিত সীমান্তের ২৯৫ মাইল অংশ দিয়ে অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের হার বাড়ছে।

এনওয়াই’র (নিউ ইয়র্ক) চ্যামপ্লেইনে এক নাগরিকের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে ১০ বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করা হয়।

ইউএস বর্ডার প্যাট্রোল সোয়ান্টন সেক্টরের চিফ পেট্রোল এজেন্ট রবার্ট গার্সিয়া ৮ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে লেখেন, ‘এজেন্টরা আমাদের কমিউনিটির সতর্কতার ওপর নির্ভর করে। আপনি যদি কিছু দেখেন তবে কিছু বলুন! ১-৮০০-৬৮৯-৩৩৬২ নম্বরে কল করুন।’

২০২৩ সালের ১ অক্টোবর থেকে তিন মাসে ‘সোয়ান্টন সেক্টর’ বর্ডার পেট্রোল এজেন্টরা ৫৫টি দেশের তিন হাজার ১০০ জনের বেশি লোককে গ্রেফতার করেছে।

এরই মধ্যে চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে নিউ ইয়র্কের কাছে বাংলাদেশ থেকে আসা চার পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়।

নিউ ইয়র্কের ক্লিনটন, এসেক্স, ফ্র্যাঙ্কলিন, সেন্ট লরেন্স ও হারকিমার কাউন্টি, এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারের কুস, গ্রাফটন ও ক্যারল কাউন্টি ও ভার্মন্ট নিয়ে ‘সোয়ান্টন সেক্টর’ গঠিত।

ফেডারেল কর্মকর্তারা জানান, বর্তমানে প্রায় দুই হাজার ২০০ বর্ডার পেট্রোল এজেন্ট যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সীমান্ত পর্যবেক্ষণ করে। এই সীমান্ত পাঁচ হাজার ৫২৫ মাইল প্রসারিত এবং বিশ্বের দীর্ঘতম আন্তর্জাতিক সীমান্ত হিসেবে বিবেচিত।

বর্ডার পেট্রোল কর্মকর্তারা জানান, ১৫টি মিশন ২০২২ সালের অক্টোবর থেকে উত্তর সীমান্তে ৩৭ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। গত দুই বছরে ইউএস-কানাডা সীমান্ত অতিক্রম করার সময় শিশু ও এক গর্ভবতী নারীসহ অন্তত এক ডজন অভিবাসীকে নদী বা জঙ্গলে মৃত পাওয়া যায়। যাদের মরদেহ বরফ হয়ে গিয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসী, এক বছরে গ্রেফতার ১২ হাজার
                                  

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ দিন দিন বেড়েই চলছে। গত বছর (২০২৩ সালে) উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্ত দিয়ে এক লাখ ৯১ হাজার ৬০৩ অভিবাসী যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেন। এই সংখ্যা ২০২২ সালের থেকে ৪১ শতাংশ বেশি। শুধুমাত্র কানাডা থেকে অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে ১২ হাজারের বেশি অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ সীমান্তে ভিড় করছেন অভিবাসীরা। ফলে কম সুরক্ষিত এবং আরও বিস্তৃত যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সীমান্ত দিয়ে অভিবাসী পারাপারের সংখ্যা বাড়ছে।

তবে অভিবাসীদের বেশিরভাগ সীমান্ত পারাপারের বৈধ বন্দর ব্যবহার করছেন। তারপরও ২০২৩ সালে কানাডা থেকে ১২ হাজার ২০০ জনের বেশি অভিবাসীকে অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে গ্রেফতার করা হয়। এই সংখ্যা আগের বছর গ্রেফতার হওয়া তিন হাজার ৫৭৮ জন থেকে ২৪১ শতাংশ বেশি।

বেশির ভাগ অবৈধ অভিবাসী শনাক্তকরণ এড়াতে কানাডা থেকে প্রবেশ করেন বলে জানা গেছে। গত তিন মাসে নিউ ইয়র্ক, ভারমন্ট ও নিউ হ্যাম্পশায়ারের কাউন্টিগুলোতে সীমান্ত পারাপারের রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে।

মেক্সিকো থেকে কানাডায় ভ্রমণকারীদের প্রবেশের জন্য ভিসার প্রয়োজন হয় না। ফলে পরিচয় এড়াতে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর সঙ্গে সোয়ান্টন সেক্টর নামে পরিচিত সীমান্তের ২৯৫ মাইল অংশ দিয়ে অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের হার বাড়ছে।

এনওয়াই’র (নিউ ইয়র্ক) চ্যামপ্লেইনে এক নাগরিকের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে ১০ বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করা হয়।

ইউএস বর্ডার প্যাট্রোল সোয়ান্টন সেক্টরের চিফ পেট্রোল এজেন্ট রবার্ট গার্সিয়া ৮ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে লেখেন, ‘এজেন্টরা আমাদের কমিউনিটির সতর্কতার ওপর নির্ভর করে। আপনি যদি কিছু দেখেন তবে কিছু বলুন! ১-৮০০-৬৮৯-৩৩৬২ নম্বরে কল করুন।’

২০২৩ সালের ১ অক্টোবর থেকে তিন মাসে ‘সোয়ান্টন সেক্টর’ বর্ডার পেট্রোল এজেন্টরা ৫৫টি দেশের তিন হাজার ১০০ জনের বেশি লোককে গ্রেফতার করেছে।

এরই মধ্যে চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে নিউ ইয়র্কের কাছে বাংলাদেশ থেকে আসা চার পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়।

নিউ ইয়র্কের ক্লিনটন, এসেক্স, ফ্র্যাঙ্কলিন, সেন্ট লরেন্স ও হারকিমার কাউন্টি, এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারের কুস, গ্রাফটন ও ক্যারল কাউন্টি ও ভার্মন্ট নিয়ে ‘সোয়ান্টন সেক্টর’ গঠিত।

ফেডারেল কর্মকর্তারা জানান, বর্তমানে প্রায় দুই হাজার ২০০ বর্ডার পেট্রোল এজেন্ট যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সীমান্ত পর্যবেক্ষণ করে। এই সীমান্ত পাঁচ হাজার ৫২৫ মাইল প্রসারিত এবং বিশ্বের দীর্ঘতম আন্তর্জাতিক সীমান্ত হিসেবে বিবেচিত।

বর্ডার পেট্রোল কর্মকর্তারা জানান, ১৫টি মিশন ২০২২ সালের অক্টোবর থেকে উত্তর সীমান্তে ৩৭ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। গত দুই বছরে ইউএস-কানাডা সীমান্ত অতিক্রম করার সময় শিশু ও এক গর্ভবতী নারীসহ অন্তত এক ডজন অভিবাসীকে নদী বা জঙ্গলে মৃত পাওয়া যায়। যাদের মরদেহ বরফ হয়ে গিয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি দম্পতি নিহত
                                  

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের অরেঞ্জ কাউন্টিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি দম্পতি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তাদের ছেলে ও মেয়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- হাফিজ ও সাকি আহমেদ।

জানা গেছে, শুক্রবার রাতে বিন হ্যাম্পটন থেকে ফেরার পথে তারা সপরিবারে এ দুর্ঘটনার শিকার হন। নিউইয়র্কের অরেঞ্জ কাউন্টিতে একটি দুষ্কৃতকারীদের গাড়ি ধাওয়া করছিল পুলিশ। এ সময় তাদের গাড়ির সঙ্গে হাফিজ দম্পতির গাড়ির ধাক্কা লাগলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন তারা।

পুলিশ জানিয়েছে ময়নাতদন্ত শেষে তাদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ায় ১০১ বাংলাদেশিসহ ১৩৪ নির্মাণশ্রমিক আটক
                                  

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১৩৪ অবৈধ নির্মাণশ্রমিককে আটক করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। বুধবার রাতে ৯টি স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) মেলাকার ইমিগ্রেশনের পরিচালক অনির্বান ফৌজি মোহম্মদ আইনী এক বিবৃতিতে বলেন, জনসাধারণের অভিযোগ এবং বিদেশিদের আগমন সংক্রান্ত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

একজন নারীসহ আটকদের মধ্যে ১০১ জন বাংলাদেশি, ২৬ জন ইন্দোনেশিয়ার, ৬ জন মিয়ানমারের এবং একজন নেপালি নাগরিক। তাদের বয়স ২৫ থেকে ৪৮ বছর।

মেলাকার ইমিগ্রেশনের পরিচালক বলেন, অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের মধ্যে পরিচয়পত্রহীন, মেয়াদ অতিবাহিত হওয়া, জাল নথিপত্র বা পাসপোর্ট রাখা এবং ইমিগ্রেশন অ্যাক্ট ১৯৫৯/৬৩ (অ্যাক্ট ১৫৫)/ইমিগ্রেশন রেগুলেশন ১৯৬৩ এবং অ্যান্টি-ট্রাফিকিং ইন পার্সন এবং অ্যান্টি স্মাগলিং অব মাইগ্রেন্টস (অটিপসম) ২০০৭ আইনের অধীনে অন্যান্য অপরাধে তাদের আটক করা হয়। ইমিগ্রেশন পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য আটক হওয়া লোকদের মাচাপ উম্বু ইমিগ্রেশন ডিপোতে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে একই সময়ে সেলাঙ্গর রাজ্যের ক্লাং-এর জালান আমান পেরদানার একটি অ্যাপার্টমেন্টে, অপ খাস আমান নামের অভিযানে ৪৯০ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়। আটকদের মধ্যে বাংলাদেশ, নেপাল, আফগানিস্তান ও ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক রয়েছেন। তবে এ অভিযানে আটকদের মধ্যে কতজন বাংলাদেশি রয়েছেন তা জানা যায়নি।

লিবিয়া থেকে প্রত্যাবাসন হবেন আরও ২৬৩ বাংলাদেশি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : উত্তর আফ্রিকার দেশ লিবিয়া থেকে আরও ২৬৩ অনিয়মিত বাংলাদেশিকে ফেরত আনা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিকল্প মুখপাত্র মোহাম্মদ রফিকুল আলম। তিনি বলেন, ৫ ডিসেম্বর তাদের প্রত্যাবাসন করা হবে।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নতুন ভবনে সাপ্তাহিক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে তিনি এমন তথ্য দেন।

রফিকুল আলম বলেন, বাংলাদেশ দূতাবাস, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ত্রিপোলির আইনজেরা ডিটেনশন সেন্টারে আটক ১৪৩ জন অনিয়মিত বাংলাদেশি নাগরিককে ২৮ নভেম্বর এবং ৩০ নভেম্বর আরও ১১০ জনকে প্রত্যাবাসন করা হয়েছে। ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আইওএমের কর্মকর্তারা বিমানবন্দরে এসব নাগরিকদের অভ্যর্থনা জানান। এ সময় আইওএমের পক্ষ থেকে তাদের প্রত্যেককে পকেট মানি হিসেবে ৫৮৯৬ টাকা এবং কিছু খাদ্য সামগ্রী উপহার দেওয়া হয়। এর ধারাবাহিকতায় ৫ ডিসেম্বর আরও ২৬৩ জন অনিয়মিত বাংলাদেশি নাগরিককে লিবিয়া থেকে বাংলাদেশে প্রত্যাবাসন করা হবে।

লিবিয়া থেকে আনা এসব বাংলাদেশিরা মানবপাচারের শিকার কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অনেকেই ইচ্ছাকৃতভাবে লিবিয়ায় যাচ্ছেন, তাদের জোর করে নেওয়া হচ্ছে না। আসলে তাদের যেখানে নিয়ে যাওয়ার কথা বলা হচ্ছে, সেই জায়গায় তারা শেষ পর্যন্ত পৌঁছাতে পারছেন না। কাজেই এটা ব্যাখ্যার ওপর নির্ভর করে।

এ কূটনীতিক আরও বলেন, আমি যেটা বুঝি, যদি কেউ আইন লঙ্ঘন করে যেতেন, তাহলে তাদের ইমিগ্রেশন ক্রস করার কথা না। বাংলাদেশে থেকে ইমিগ্রেশন পার হওয়া পর্যন্ত হয়তো তিনি আইনটা ঠিকঠাক অনুসরণ করেই যাচ্ছেন, পরে ট্রানজিট পয়েন্ট কিংবা ল্যান্ডিং পয়েন্ট যেটিই থাকুক না কেন, সেখানে পৌঁছানোর পর ভিকটিম হয়ে যাচ্ছেন। এখানে প্রতিটি ক্ষেত্রে নিজস্ব ব্যাখ্যা দাঁড় করানোর একটা সুযোগ আছে।

কানাডায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কবি আসাদ চৌধুরী
                                  

অনলাইন ডেস্ক : কানাডার স্থানীয় সময় শুক্রবার বাদ জুমা একুশে পদকপ্রাপ্ত ও বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারপ্রাপ্ত কবি আসাদ চৌধুরীর জানাজার নামাজ টরন্টোর নাগেট মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানাজার পর কবির মরদেহ সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা ও সম্মান জানানোর জন্য মসজিদের অভ্যন্তরে আধা ঘণ্টা রাখা হয়। সর্বসাধারণের দেখা সম্পন্ন হলে কবির মরদেহ অন্টারিও’র পিকারিং ডাফিন মেডোজ কবরস্থানে দাফন করা হয়।

কবি আসাদ চৌধুরী কানাডার স্থানীয় সময় ৫ অক্টোবর ভোররাত তিনটার সময় কানাডার অশোয়া শহরের লে’ক রিজ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। ইন্নাল ইল্লা হি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজেউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। তিনি গত এক বছর ব্লাড ক্যান্সার রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

কবি আসাদ চৌধুরী দীর্ঘদিন কানাডার টরেন্টোতে তার একমাত্র মেয়ে নুসরাত জাহান চৌধুরী’র সাথে থাকতেন। কবির জামাতা নাদিম ইকবাল জানান, কবি আসাদ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গতমাসে তাকে কানাডার লেকরিজ হেলথ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

কবি আসাদ চৌধুরী ১৯৪৩ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জের উলানিয়া জমিদার বাড়ির এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

মালয়েশিয়ায় ২৫২ বাংলাদেশিসহ ৪২৫ অভিবাসী আটক
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় ৪২৫ অভিবাসীকে আটক করেছে, দেশটির কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন বিভাগ। রাজধানী কুয়ালালামপুরের চেরাসের তামান কনটের তিনটি ভিন্ন ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। যাদের বয়স ৮ থেকে ৫৪ বছর।

শুক্রবার মধ্যরাত ১টায় অভিযানে ৮০ জন ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা মোট ৬০০ জন দেশি-বিদেশি নাগরিকের কাগজপত্র চেক করেন এবং এর মধ্য থেকে যাদের কাগজপত্র নেই এমন ৪২৫ জন বিদেশি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে। যার মধ্যে ৩৭২ জন পুরুষ এবং ৫৩ জন নারী রয়েছেন।

আটকদের মধ্যে বাংলাদেশের ২৫২, মিয়ানমার ১০৮, ইন্দোনেশিয়া ৩০, নেপাল ২০, পাকিস্তান ৭, কম্বোডিয়া ৬ এবং ফিলিপাইনের ২ জন রয়েছেন।

কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন অধিদপ্তরের পরিচালক শ্যামসুল বদরিন মহসিন সাংবাদিকদের বলেছেন, পাস বা পারমিটের অপব্যবহার, অবৈধভাবে পরিচয়পত্র ছাড়াই (অতিরিক্ত অবস্থান) ও বিভিন্ন অরাধের কারণে তাদের আটক করা হয়।

অভিযান শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন অধিদপ্তরের পরিচালক শ্যামসুল বদরিন মহসিন / ছবি সংগৃহীত।

আটকদের বুকিত জলিল ইমিগ্রেশন ডিটেনশন ডিপোতে রাখা হয়েছে। ইমিগ্রেশন অ্যাক্ট ১৯৫৯/৬৩, পাসপোর্ট অ্যাক্ট ১৯৬৬ এবং ইমিগ্রেশন রেগুলেশনস ১৯৬৩ এর অধীনে আরও বেশি তদন্ত করা হবে বলেও যোগ করেন শ্যামসুল বদরিন মহসিন।

কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন অধিদপ্তরের পরিচালক শ্যামসুল বদরিন মহসিন বলেন, আমরা সবসময় জনগণের দেওয়া অভিযোগ এবং তথ্যের ভিওিতে ব্যবস্থা নেবো এবং যারা অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় থাকেন, তাদের পাসের অপব্যবহার এবং এই দেশে অনৈতিক কার্যকলাপ পরিচালনাকারী বিদেশি নাগরিকদের সঙ্গে আপস করব না।

বিদেশে দক্ষ কর্মীর চাহিদা বাড়ছে, হাতছাড়া হতে হচ্ছে ইউরোপ
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : বাংলাদেশে কাজ করছে পাঁচ লাখের বেশি বিদেশিকর্মী : ঘাটতি হচ্ছে বৈদেশিক মুদ্রা। বাংলাদেশ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জনশক্তি রফতানি করলেও এদেশেই কাজ করছেন বিপুল সংখ্যক বিদেশিকর্মী। সরকারি হিসেবে সেটি এক লাখ বলা হলেও এটির প্রকৃত সংখ্যা পাঁচ লাখের বেশি বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে। দুই বছর আগে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-টিআইবির একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে ২১টি খাতে ৪৪টি দেশের আড়াই লাখ কর্মী কাজ করছেন। যারা বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর নিয়ে যাচ্ছেন ২৬ হাজার ৪০০ কোটি টাকা। শিক্ষাবিদ, ব্যবসায়ী ও জনশক্তি রপ্তানির সঙ্গে জড়িতরা বলছেন, দেশের শিক্ষাব্যবস্থা যুগোপযোগি, দক্ষতা ভিত্তিক না হওয়ার কারণে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা নিয়ে বের হলেও শিল্প প্রতিষ্ঠানে যে রকম দক্ষকর্মী প্রয়োজন সেটির চাহিদা পূরণ করতে পারছে না। কারিগরি শিক্ষার দক্ষতার অভাবে বহিঃবিশ্বের বাজারেও অন্যান্য দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। ফলে প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে যারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যাচ্ছেন তাদের বেশির ভাগই অদক্ষ শ্রমিক। আগামী দিনে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব, প্রযুক্তি, রোবটিক ও আইওটির (ইন্টারনেট অব থিংস) যুগে টিকে থাকতে হলে সকল জনশক্তিকে কারিগরি ও প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার তাগিদ দিয়েছেন তারা। একই সঙ্গে পররাষ্ট্র, শিক্ষা, শ্রম ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।গোটা বিশ্বই এখন প্রস্তুত হচ্ছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য। কারণ প্রযুক্তির এই বিপ্লবে বিপ্লব ঘটবে মানুষের জীবনমান, পরিবর্তিত-পরিবর্ধিত হবে শিল্প, অর্থনীতি, যোগাযোগ। সবকিছুর কেন্দ্রে থাকবে মেশিন, রোবট, ইন্টারনেট অব থিংক (আইওটি)সহ প্রযুক্তির নতুন নতুন সব উদ্ভাবন। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দক্ষ জনশক্তির চাহিদাও বাড়ছে দিনে দিনে। এজন্য প্রযুক্তির এসব উদ্ভাবন ও পরিবর্তনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে উন্নত দেশগুলো উন্নত যুগোপযোগী শিক্ষায়, কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষায় বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। জার্মানিতে ৭৩, জাপানে ৬৬, সিঙ্গাপুরে ৬৫, অস্ট্রেলিয়ায় ৬০, চীনে ৫৫, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৫০ শতাংশ মানুষ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত ও দক্ষ। সব উন্নত দেশে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাদের শিক্ষাব্যবস্থার কারিকুলামও তৈরি করে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, তারা যতটা এগুচ্ছে বাংলাদেশ এক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ছে ততটাই। মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রতিদিনই দক্ষ কর্মীর চাহিদা বাড়লেও কেবল প্রয়োজনীয় দক্ষতার অভাবে বাংলাদেশ এই বাজার ধরতে ব্যর্থ হচ্ছে বলে মনে করেন তারা। পিছিয়ে পড়ছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও নেপাল থেকেও। যদিও প্রতি বছরই ৬ থেকে ৮ লাখ জনশক্তি রপ্তানি করছে বাংলাদেশ। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মাধ্যমও তাদের পাঠানো রেমিট্যান্সই।

শিক্ষাবিদ ও জনশক্তি রপ্তানিকারকরা বলছেন, শিক্ষার্থীদের যদি প্রয়োজনভিত্তিক, দক্ষতাভিত্তিক শিক্ষা দেয়া যায় এবং যারা বিদেশের শ্রমবাজারে যাচ্ছেন তাদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তোলা যায় তাহলে এই চিত্র পরিবর্তন হতে পারে। এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ বি এম রাশেদুল হাসান বলেন, এখন আর গতানুগতিক ধারার শিক্ষায় কিছু হবে না। আমাদের নজর দিতে হবে বিশ্ব কোন দিকে ধাবিত হচ্ছে, কি ধরনের পরিবর্তন হচ্ছে, কেমন দক্ষতা প্রয়োজন? কারণ এখনই মেশিন হিউম্যান রিসোর্সের জায়গা নিচ্ছে। তিনি বলেন, প্রযুক্তির কল্যাণে সামনের দিনে যে চ্যালেঞ্জ আসছে সেটিকে কাজে লাগাতে হলে প্রয়োজন হবে কারিগরি শিক্ষা, কম্পিউটারের দক্ষতা। এর কোনো বিকল্প নেই।পার্শ্ববর্তী দেশের উদাহরণ দিয়ে এই শিক্ষাবিদ বলেন, ভারত তাদের পলিটেকনিক ইনস্টিটিউশন ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কারিগরি শিক্ষার ওপর জোর দেয়ার কারণে এখন তারা এই ক্ষেত্রে এগিয়েছে, অনেক জায়গায় নেতৃত্ব দিচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের ভুড়ি ভুড়ি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো দরকার নেই। কৃষিতে, শিল্পে যেরকম প্রয়োজন, তেমন দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা।
কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের তথ্যমতে, কারিগরি শিক্ষার হার প্রায় ২০ শতাংশ। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের তথ্য মতে, প্রতিবছর কয়েক লাখ শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা শেষ করে কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করছে। যাদের বেশিরভাগই সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত। ফলে প্রশাসনিক পদে থাকছে বিপুল প্রতিযোগিতা থাকলেও কর্মক্ষেত্রে যে ধরনের দক্ষতা প্রয়োজন সেটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে না থাকায় বিভিন্ন কর্পোরেট সেক্টর ও বেসরকারি সংস্থাকে বিদেশ থেকে লোক আনতে হচ্ছে।

জানা যায়, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণি পেলেও দেশে ভালো চাকরির নিশ্চয়তা নেই। উচ্চশিক্ষায় দুর্দান্ত ফল অর্জনকারীদের মধ্যে ২ থেকে সাড়ে ৩৪ শতাংশ বেকার। আবার যারা চাকরি পান, তাদের ৭৫ শতাংশেরই বেতন চল্লিশ হাজার টাকার নিচে। উচ্চশিক্ষিত মেধাবীদের চাকরি, বেতন ও বেকারত্বের এ হতাশাজনক চিত্র উঠে এসেছে বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের এক গবেষণায়। ওই গবেষণায় দেখানো হয়েছে, শিক্ষিতদের (এসএসসি, এইচএসসি, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী) এক-তৃতীয়াংশই বেকার। তাদের মধ্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী বেকার বেশি অর্থাৎ যাদের পেছনে দেশ ও পরিবার বেশি অর্থ ব্যয় করেছে, তারাই বেশি বেকার। বিআইডিএসের গবেষণা অনুযায়ী, সার্বিকভাবে শিক্ষিতদের মধ্যে ৩৩ শতাংশের বেশি বেকার। আর এসএসসি, এইচএসসি, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে যারা প্রথম শ্রেণি পেয়েছে, তাদের মধ্যে বেকারত্ব ১৯ থেকে সাড়ে ৩৪ শতাংশ। বিশেষ করে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে প্রথম শ্রেণিপ্রাপ্তদের মধ্যে ৩৪ দশমিক ৪ শতাংশই বেকার। স্নাতক পর্যায়ে এমন মেধাবীদের বেকারত্বের হার প্রায় ২৮ শতাংশ।সাধারণ শিক্ষার্থীদের কর্মবাজারের উপযোগী কারিগরি শিক্ষা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের কর্মবাজারের উপযোগী করতে কারিগরি শিক্ষাকে সুলভ ও আকর্ষণীয় করার চেষ্টা করছে সরকার।

প্রবসীদের প্রতি আমাদের অনেক দায়িত্ব রয়েছে, প্রবাসীদের নিকট আমরা ঋণী : ফয়সাল বিন করিম
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : শপথ নেবো পাচার রোধে, বিদেশ যাবো বৈধ পথে -এই স্লোগানকে সামনে রেখে - অনিয়মিত অভিবাসন ও মানব পাচার রোধে আজ সোমবার ২২ মে সকাল ১১ টায় কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে ব্র্যাক আয়োজিত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ফয়সাল বিন করিম, ব্র্যাক জেলা প্রতিনিধি মোঃ বজলুর রশিদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসাম্মৎ আলো বেগম। মতবিনিময় সভার সঞ্চালন করেন ডিস্ট্রিক্ট ম্যানেজার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন শুরুতেই সবাইকে অভিনন্দন জানিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন। মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন বাংলাদেশের মূল তিনটি চালিকা শক্তির একটি হলো কৃষি, দ্বিতীয় টি হলো গার্মেন্টস শিল্প এবং অন্যটি হলো প্রবাসীদের পাঠানোর রেমিটেন্স, যার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা শক্তিশালী হচ্ছে। তাই এ বিষয়টি নিয়ে উপস্থিত সবাইকে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, কেরানীগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা, কেরানীগঞ্জ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা, সমাজসেবা কর্মকর্তা, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক, কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, উপজেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা সমবায় অফিসার, হযরতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন আয়নাল, রুহিতপুর ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার শামীমা বেগম, বিদেশ ফেরত ও প্রতারিত ব্যক্তি, ব্যাংক প্রতিনিধ, মাইগ্রেশন ফোরাম সদস্য, শিক্ষক, ইমাম, এনজিও প্রতিনিধি, সাংবাদিক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি প্রমুখ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ফয়সাল বিন করিম, বলেন অনিয়মিত অভিবাসন ও মানব পাচার রোধে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন মাঠ পর্যায়ে বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রচারণার পাশাপাশি ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে সচেতনতা বাড়াতে হবে। কারণ প্রবাসীরা বিদেশ গিয়ে কষ্ট করে টাকা ইনকাম করে দেশে পাঠায়। প্রবাসীদের ঘামে টাকা, দেশের চাকা উন্নত হচ্ছে, প্রেরিত রেমিটেন্স দিয়ে আমাদের দেশের অর্থনীতি সচল হচ্ছে, বিদেশের বিভিন্ন দেশ থেকে রেমিট্যান্স পাঠানো টাকা দিয়ে সরকার প্রধান আমাদের বেতন দিচ্ছে। তাই প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রতি আমাদের অনেক দায়িত্ব রয়েছে, প্রবাসীদের নিকট আমরা ঋণী রয়েছি, আমাদের কেরানীগঞ্জ উপজেলা থেকে যেন কোন মানুষ প্রতারিত মানব পাচারের শিকার না হয় সেদিকে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। এলাকা থেকে যদি কেউ বিদেশ যেতে চায় তারা যেন প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সংগ্রহ করে ও ভিসা যাচাই-বাছাই করে বিদেশ যায় সেই বিষয়ে সবাইকে পরামর্শ দেয়ার জন্য আহ্বান জানান। ব্র্যাক এর দেশে প্রবাসে যে পেজটি রয়েছে তার প্রচারণা বাড়ানোর জন্য বেশি করে বোষ্ট করার জন্য অনুরোধ জানান। ব্র্যাক যে স্ট্রাকচার অনুযায়ী কাজ করে তা অনুসরণীয়৷ উপজেলায় অনিয়মিত অভিবাসন ও মানব পাচার রোধে এই ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করার জন্য তিনি ব্র্যাকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইকোনমিক রিইন্টিগ্রেশন ম্যানেজার নূর-ই সাফা আঁখি তিনি ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম এর কার্যক্রম, মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের মূল ফোকাস, মানব পাচার, অনিয়মিত অভিবাসন, মানব পাচারের কারণ, মানব পাচারের কুফল, নিরাপদ অভিবাসনের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট, ফোর পি যেমন : প্রিভেনশন, প্রটেকশন, প্রসিকিউশন ও পার্টনারশিপ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। বিশেষ অতিথি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বলেন - মানুষ বিদেশ যাওয়ার আগে আমাদের সাথে যোগাযোগ কম করে। বিদেশ গিয়ে প্রতারিত হলে আমাদের কাছে আসে শালিশ দরবার করে টাকা উঠায় দেয়ার জন্য। তাই আমি বলব বিদেশ জেনে শুনে যাওয়াটা ভালো তাহলে প্রতারণা ও মানব পাচার কম হবে।দৈনিক এশিয়া বাণী ইউনিট প্রধান সাংবাদিক মিয়া আবদুল হান্নান বলেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা আন্তর্জাতিক শ্রমিক রেমিট্যান্স বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সাফল্যের কারিগর কিছু সংখ্যক ট্রাভেলিং এজেন্ট গুলো অতি মুনাফা করার জন্য সাপ্লাই নামে নতুন ব্যবসা শুরু করছেন,প্রবাসী বাংলাদেশী শ্রমিকদের বেশি বেতনের লোভ দেখিয়ে বিভিন্ন মিল- ফ্যাক্টরী চাকুরী দিয়ে বেতনের টাকা উত্তোলন করে, হিংহ ভাগ টাকা সে সব আদম বেপারীরা হাতিয়ে নিচ্ছে কারণ তারা চুক্তিভিত্তিক সাপ্লাইয়ার এদের প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি করে তাদের প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে। শিক্ষক প্রতিনিধি সোহানুর রহমান সোহেল বলেন সভা-সেমিনারে বক্তব্য দিয়েই শেষ করা নহে বাস্তবতা হচ্ছে ব্র্যাক কর্মকর্তাদের আরও জনসচেতনতার প্রচার বৃদ্ধি মাঠ প্রর্যায়ে বাস্তবায়ন করতে হবে। অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ঢাকা এমআরএসির কাউন্সিলর মাশকুরা বিনতে মুরশেদ। অনুষ্ঠানের উপস্থিত সবাই অনিরাপদ অভিবাসন ও মানব পাচার প্রতিরোধে সচেতনতার বিকল্প নাই বলে উল্লেখ করবেন। তাই যার যার অবস্থান থেকে কাজ করার জন্য অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পরামর্শ প্রদান করেন। আরও বক্তব্য রাখেন কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবে সহ সভাপতি মোঃ আলমগীর হোসেন, বাস্তব ফিল্ড অর্গানাইজার অফিসার সুলতানা ওহাব প্রমুখ।

কুষ্টিয়ার জগলুল বিএনপির দুঃসময়ে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনীতির মাঠে
                                  

ইউএস প্রতিনিধি : যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের সামনে পেনসেলভীনিয়া স্ট্রীটে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা-কর্মীদের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার (০১ মে, ২০২৩) সভা চলাকালে দেখা যায় কুষ্টিয়ার কৃতি সন্তান জগলুল হায়দারকে। যিনি এরশাদ সরকার যখন মার্শাল ল’ দিয়ে দেশ চালাচ্ছিলেন, মানুষ স্বৈরাচার বিরোধী দুর্বার আন্দোলনের জন্য রাজপথ কাঁপিয়েছিল।

তখন ১৯৮৫ সালের ২৭শে জানুয়ারী কুষ্টিয়ায় রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ’র জনসভায় স্টেজে উঠে তাকে (লাল হিল লেডিস জুতার) মালা পরিয়ে দিয়ে দুঃসাহসিক পরিচয় দিয়েছিল এই জগলুল হায়দার। কয়েকদিন পরে গ্রেফতার হয়ে জেলে যান জগলুল। তিনি ছিলেন ছাত্রদলের কুষ্টিয়া জেলার নির্বাচিত সেক্রেটারি এবং সভাপতি। এছাড়াও ছিলেন খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক। যখন ঢাকা কাঁপাচ্ছিল অভি, নিরু আর আমানেরা তখন দেশের পশ্চিমবঙ্গ বলে খ্যাত ঝিনাইদাহ, কুষ্টিয়া, যশোর আর খুলনার আন্দোলনের আতংক ছিল যুগলুল হায়দার, বকুল আর টাইগার আলমরা।

জগলুল হায়দারের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এখন সে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে বসবাস করেন। বেশিরভাগ রাজনৈতিক নেতারা বিশ্বস্ত এবং নিঃস্বার্থ কর্মিদের মূল্যায়ন করেন না বরং তাদের দূরে সরিয়ে দিয়ে হাইব্রিডদের মূল্যায়ন করেন।

কানাডায় সড়কে ঝরলো ৩ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর প্রাণ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : কানাডার অন্টারিও প্রদেশের রাজধানী শহর টরেন্টোতে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরও এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

দেশটির স্থানীয় সময় সোমবার দিনগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে টরেন্টোর ৪২৭ সাউথবাউন্ড হাইওয়ে ডানডাস এক্সিটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

টরেন্টোর পুলিশ এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, হতাহত চারজনই বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। তাদের প্রত্যেকের বয়স ১৭ থেকে ২১ বছরের মধ্যে।

নিহতরা হলেন- শাহরিয়ার খান, এঞ্জেলা বারৈ ও আরিয়ান দীপ্ত। আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিক্ষার্থীর নাম কুমার দে।

পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে কানাডার স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, চারজন যাত্রী নিয়ে একটি গাড়ি খুব দ্রুতগতিতে ৪২৭ সাউথবাউন্ড হাইওয়ে ডানডাস এক্সিটের দক্ষিণ দিকে যাওয়ার সময় এটি র্যাম্প ছেড়ে একটি কংক্রিটের প্রাচীরের ওপর দিয়ে খাদে গিয়ে পড়ে এবং অন্য কংক্রিটের দেওয়ালে বিধ্বস্ত হয় এবং আগুন ধরে যায়।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা খুব দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে গাড়ি থেকে চারজনকে উদ্ধার করেন। এরমধ্যে গাড়ির পেছনের আসনে বসা দুজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। সামনের আসনে বসা আরেক শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করা হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। অন্য এক শিক্ষার্থী ও গাড়ির চালক গুরুতর আহত হন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এরই মধ্যে টরেন্টো পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এ ঘটনায় কানাডার টরেন্টোর স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

তুরস্কের ধ্বংসস্তূপ থেকে দুই বাংলাদেশি উদ্ধার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : তুরস্কে ভূমিকম্পের নিখোঁজ গোলাম সাঈদ রিংকুসহ দুই বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তবে রিংকুর অবস্থা গুরুতর। ঘটনার প্রায় ৪০ ঘণ্টা পর ধ্বংসস্তূপ থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাত নয়টায় তাদের উদ্ধার করা হয়। এর আগে সোমবার আরেক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

বাংলাদেশ দূতাবাসের এক কর্মকর্তা জানান, গোলাম সাঈদ রিংকু তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। কয়েক বছর আগে উচ্চশিক্ষা নিতে তুরস্কে যান তিনি। সোমবার ভোরে ভূমিকম্পের পর তার খোঁজ পাচ্ছিলেন না পরিবার।

সাঈদ তুরস্কের খাহরামানমারাস প্রদেশের আজাজ শহরে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি বগুড়া জেলার গাবতলী থানার দেনাই গ্রামে। তার বাবার নাম গোলাম রাব্বানি। কয়েকবছর আগে উচ্চশিক্ষা নিতে তুরস্কে যান রিংকু।

সেখানকার একটি ভবনে দুইজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নুরে আলম ও মো. রিংকু থাকতেন। ভূমিকম্পে তাদের ভবনটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে সেই ভবন থেকে নুরে আলম বের হতে পারলেও খোঁজ নেই রিংকুর।

রিংকুর বাবা জানান, ভূমিকম্পের খবর পাওয়ার পর আমার ছেলের মোবাইলে ফোন করি কিন্তু তার নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়। সেখানে থাকা তার বন্ধুরাও তার কোন খোঁজ পাচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চল ও উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার অংশে এক ভয়াবহ ভূমিকম্পের ঘটনা ঘটেছে। ৭.৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প এখন পর্যন্ত চার হাজার ৯০০ লোক মারা গেছেন। ধ্বংসস্তূপে আটকেপড়াদের উদ্ধারে অভিযান চলছে।

তুরস্কে ৫ হাজার ৬০৬টি স্থাপনা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এর মধ্যে বহুতল আবাসিক ভবনগুলো ছিল মানুষে পরিপূর্ণ। এ ছাড়া আলেপ্পোতে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনগুলোর ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি কয়েক ডজন ভবন ধসের কথা জানিয়েছে সিরিয়া।

তুরস্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন চালু
                                  

প্রবাস ডেস্ক : তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে ভয়াবহ ভূমিকম্পে দেশটির বাংলাদেশের আঙ্কারা দূতাবাস ও ইস্তাম্বুলের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল অফিসে হটলাইন চালু করা হয়েছে। এ হটলাইনে জরুরি যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

তুরস্কে বাংলাদেশের আঙ্কারা দূতাবাস ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার প্রবাসীদের এ দুটি হটলাইনে যোগাযোগ করতে বলেছে- +৯০ ৫৪৬ ৯৯৫ ০৬৪৭ ও +৯০ ৫৩৮ ৯১০ ৯৬৩৫।

এছাড়াও ইস্তাম্বুলের বাংলাদেশ দূতাবাস এক বার্তায় তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ব্যাপক হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে। তুরস্কে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিকদের জরুরি প্রয়োজনে কনস্যুলেটের হটলাইন নম্বর +৯০৮০০২৬১০০২৬।

গতকাল সোমবার তুরস্কের স্থানীয় সময় ভোররাত ৪টা ১৭ মিনিটে সিরিয়ার সীমান্তবর্তী তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮।

ভূমিকম্পটি যখন আঘাত হানে, তখন বেশির ভাগ মানুষ ঘুমাচ্ছিলেন। এরপর দুপুরে ৭.৫ মাত্রার আরেকটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। কর্মকর্তারা বলেছেন, এটি ভূমিকম্পের পরের আঘাত ছিল না।

বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে উদ্ধারকারী দল রাতভর অভিযান চালিয়েছে। এখনও চলছে উদ্ধারকাজ। এখন পর্যন্ত এই দুর্যোগে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৩০০ জনে। গোটা বিশ্ব যখান যুদ্ধ, শরণার্থী সংকট ও গভীর অর্থনৈতিক সমস্যায় জর্জরিত তখন আরও একটি মানবিক বিপর্যয় দেখছে।

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেটমুক্ত করার সভায় কয়েক দফায় হট্টগন্ডগোল
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : জনশক্তি রপ্তানিকারক ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সিসের (বায়রা) মতবিনিময় সভায় কয়েক দফায় হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এ মতবিনিময় সভা হয়। কম খরচে, দ্রুত কর্মী প্রেরণের নিমিত্তে, মালয়েশিয়া শ্রমবাজার বায়রার সকল সদস্যদের জন্য উন্মুক্ত করার দাবি’ শিরোনামে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে বায়রা। সভায় উপস্থিত ছিলেন বায়রার সাবেক সভাপতি বেনজীর আহমেদ এমপি। মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেটমুক্ত করার সভায় ব্যাপক হট্টগোল

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেটমুক্ত করার সভায় বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক হট্টগোল হয়েছে। এমনকি সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করেন উত্তেজিত সদস্যরা। এই সময়ে দেয়া হয় হুমকি-ধামকি।২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার রিক্রুটিং এজেন্সির সংগঠন বায়রার আয়োজনে মালয়েশিয়া শ্রমবাজার সিন্ডিকেট মুক্ত করে সকল বৈধ এজেন্সির জন্য উন্মুক্ত করতে মতবিনিময় সভা হট্টগোল দিয়ে শুরু হয়। পুলিশের হস্তক্ষেপে একবার শান্ত হলেও আবারও দুই পক্ষের ধস্তাধস্তি শুরু হয়।
এক পর্যায়ে মঞ্চে থাকা টেলিভিশনের মাইক্রফোন ফেলে দেয় উত্তেজিত কয়েকজন সদস্য। হট্টগোলের ছবি তুলতে গেলে টেলিভিশনের সাংবাদিককেও হেনস্তা করে সন্ত্রাসী চক্র। এবং দেখে নেয়ার হুমকি দেন তারা। এর প্রতিবাদ করেন উপস্থিত সাংবাদকর্মীরা। পরিস্থিতি শান্ত হলে, ভিডিও ফুটেজ দেখে আইনি পদক্ষেপ এবং লাইসেন্স বাতিল করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন বায়রার সভাপতি আবুল বাসার।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আবুল বাসার বলেন, ‘আমার কাছে যদি আপনারা ভিডিও ফুটেজ দিতে পারেন, আমি কথা দিলাম আমি তার বা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। সে যেই থাকুক না কেন, আমি প্রশাসনিকভাবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। তাদের লাইসেন্স বাতিল করে কিভাবে এ ব্যবসা থেকে বিতারিত করা যায়, সে ব্যবস্থাও নিব।’ এর আগে মতবিনিময় সভায় ১০০ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে মালয়েশিয়াতে কর্মী পাঠানোর বিরোধিতা করে সিন্ডিকেট বিরোধী সদস্যরা বক্তব্য দেন।
সভায় উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে তারা বলেন, আপনারা দয়া করে কেউ উত্তেজিত না হয়ে আলোচনার পথ খোলা রাখেন। আমরা আশা করি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান আসবে। আপনারা যারা সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত আছেন, আপনারা এখানে কথা দেন যে আজকে এই মুহূর্ত থেকে আর সিন্ডিকেট থাকবে না। উল্লেখ্য, গত বছরে ২ লাখের বেশি শ্রমিক মালয়শিয়াতে পাঠানোর ঘোষণা দেয়া হয়। এরইমধ্যে ৭০ হাজার কর্মী মালয়শিয়াতে গেছেন। বিভিন্ন রিক্রুটিংয়ে ঝুলন্ত রয়েছে মালয়েশিয়া যাওয়ার টাকা পাসপোর্ট জমা দান কারীরা, অনেকের গামকা মেডিকেলের মেয়াদ ও শেষ হয়ে গেছে, সেই সকল মালয়েশিয়া গামীরা হয়রানি স্বীকার হয়ে দিনাতিপাত করছে। যে দেখার কেউ নাই।

২০২২ সালে ফ্রান্সে রেকর্ড আশ্রয় আবেদন
                                  

প্যারিসের অদূরে অনিয়মিত অভিবাসীদের স্থাপিত একটি অস্থায়ী ক্যাম্প। এসব ক্যাম্পে নিয়মিত উচ্ছেদ অভিযান চালায় ফরাসি প্রশাসন। ছবি: এএফপি

অভিবাসন সংক্রান্ত পরিসংখ্যানের প্রাথমিক তথ্য প্রকাশ করেছে ফরাসি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। অনিয়মিত অভিবাসীদের ‘ডিপোর্ট’, আশ্রয় আবেদনের রেকর্ড সংখ্যার পাশাপাশি ২০২২ সালে ফ্রান্সে অনিয়মিত অভিবাসীদের বৈধতা পাওয়ার হারও বেড়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) অভিবাসন সংক্রান্ত প্রাথমিক পরিসংখ্যানের তথ্য প্রকাশ করেছে ফরাসি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ২০২২ সালে আশ্রয় আবেদনের জন্য ফরাসি প্রেফেকচুরগুলোতে স্থাপিত ওয়ান স্টপ বুথে ১ লাখ ৩৭ হাজারেরও বেশি প্রথম আশ্রয়ের আবেদন নিবন্ধিত হয়েছিল।

যা ২০২১ সালের তুলনায় ৩১ শতাংশ বেশি। এই সংখ্যাটি কোভিড-১৯ মহামারির আগের পরিস্থিতি অর্থ্যাৎ ২০১৯ সালের পরিসংখ্যানের কাছাকাছি। ২০১৯ সালে এক লাখ ৩৮ হাজার ৪২০ প্রথম আশ্রয় আবেদন নথিভুক্ত করা হয়েছিল।

তবে প্রথম আশ্রয় আবেদন, পুনঃআবেদন, অপ্রাপ্তবয়স্ক, ডাবলিনভুক্ত আশ্রয় আবেদনসহ ২০২২ সালে রেকর্ড এক লাখ ৫৬ হাজার ১০৩টি আশ্রয় আবেদন নিবন্ধিত হয়েছে। এই সংখ্যাটি ২০১৯ সালে ছিল এক লাখ ৫১ হাজার ২৮৩।

প্রথমবারের মতো আশ্রয় আবেদন করা আশ্রয়প্রার্থীদের মধ্যে শীর্ষে আছে আফগান নাগরিকরা। দেশটির আশ্রয়প্রার্থীরা ২২ হাজার ৫৭০টি আবেদন দায়ের করেছেন। সংখ্যার বিচারে তালিকার পরবর্তী শীর্ষ দেশগুলো হলো ক্রমান্বয়ে বাংলাদেশ, তুরস্ক, জর্জিয়া এবং কঙ্গো থেকে আসা আশ্রয়প্রার্থীরা।

বাংলাদেশিরা ১০ হাজার ৫৫৪টি আশ্রয় আবেদন করেন। যার মধ্যে আট হাজার ৬০০টি আশ্রয় আবেদন প্রথমবারের মতো নথিভুক্ত করা করা হয়েছে।

নজিরবিহীন পরিসংখ্যান

২০২২ সালে ৬৫ হাজার ৮৩৩ জন ইউক্রেনীয় ফ্রান্সে অস্থারী সুরক্ষার সুবিধা নিয়েছেন। তবে এই সংখ্যায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ইউক্রেনীয় শরণার্থীরা অন্তর্ভুক্ত নয়।

অভিবাসন ও ইন্টিগ্রেশন বিষয়ক ফরাসি দপ্তর অফির মহাপরিচালক দিদিয়ের লেসচি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, যদি আমরা ইউক্রেনীয়দের (আশ্রয় আবেদনে) যোগ করি, তাহলে এটি ফ্রান্সে অভিবাসনের ইতিহাসে একটি নজিরবিহীন সংখ্যা হবে।

তিনি বলেন, সর্বোচ্চ সংখ্যক অভিবাসী সংখ্যার সত্ত্বেও ফ্রান্সের আশ্রয় কাঠামোর জরুরি আবাসন ব্যবস্থা সংকটে পড়েনি। কারণ বাস্তুচ্যুত ইউক্রেনীয়দের প্রথাগত জাতীয় অভ্যর্থনা ব্যবস্থায় রাখা হয়নি।


রেকর্ড ডিপোর্টেশন

২০২২ সালে ফরাসি ভূখণ্ড ত্যাগের নোটিশ পাওয়া ব্যক্তিদের নিজ দেশে ডিপোর্ট করার ক্ষেত্রেও রেকর্ড ঘটেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় জানিয়েছে, ২০২২ সালে ১৫,৩৯৬ জন বিদেশিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। যা ২০২১ সালের তুলনায় ১৫ শতাংশ বেশি, কিন্তু ২০১৯-এর তুলনায় কম। ২০১৯ সালে ২৩,৭৪৬ জনকে ডিপোর্ট করা হয়েছিল।

টুইটারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড দারমানা বলেন, নির্দেশানুসারে অপরাধী বিদেশিদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। ২০২২ সালে তিন হাজার ৬১৫ জন বিদেশি অপরাধীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ২০২১ সালে এই সংখ্যাটি ছিল এক হাজার ৮৩৪। অর্থাৎ দ্বিগুণ বেশি।

 

বৈধতার হারও বেড়েছে

২০২২ সালে চাকরিসহ বিভিন্ন বিশেষ নিয়মিতকরণের পদ্ধতিতে ৩৪ হাজার ২৯ জন অভিবাসী বৈধতা পেয়েছেন। যা আগের বছরের তুলনায় আট শতাংশ বেশি।

তবে ‘সার্কুলার ভালস’ বা নির্দিষ্ট সময় চুক্তির বিনিময়ে কাজ করে বৈধতা পাওয়ার হার ২৯.১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পরিসংখ্যানগুলি ফরাসি সংসদে ক্ষমতাসীন দল এবং ডানপন্থি বিরোধী দল লে রিপাবলিকান বা এলআর দলের মধ্যে বিতর্ক তৈরি করবে।

কারণ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় আসন্ন অভিবাসন বিল সংসদে পাস করতে বিরোধী লে রিপাবলিকান দলের এমপিদের সহায়তা প্রয়োজন হবে বর্তমান রাষ্ট্রপতি এমানুয়েল ম্যাক্রঁর জোটের।

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি নতুন অভিবাসন বিল মন্ত্রী পরিষদে উপস্থাপন করার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এই বিলটি আগামী মার্চ মাসে ফরাসি সিনেটে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

নতুন আইনের সর্বোপরি লক্ষ্য হল জনশৃঙ্খলার জন্য হুমকি হিসেবে উপস্থাপিত হওয়া বিদেশিদের বহিষ্কার সহজতর করা।
পশাপাশি নতুন আইনে ভাষা এবং কাজের মাধ্যমে ফরাসি সমাজে ইন্টিগ্রেশনের ওপরও জোর দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: ইনফোমাইগ্রেন্টস

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার কার্যক্রম শুরু ২৭ জানুয়ারি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে মালয়েশিয়া সরকার। এ কার্যক্রম শুরু হবে ২৭ জানুয়ারি। দেশটির নিয়োগকর্তারা ২৭ জানুয়ারি থেকে ‘লেবার রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম (আরটিকে) ২.০’-এর মাধ্যমে বিদেশি কর্মী নিয়োগের জন্য আবেদন শুরু করতে পারবেন।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দেশটির ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতুক সেরি খায়রুল জাইমি দাউদ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন এ তথ্য।

আরটিকে ২.০ নিয়ে একটি ব্রিফিং সেশনে তিনি বলেন, নিয়োগকর্তারা ইমিগ্রেশন বিভাগ থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্টের তারিখ পাওয়ার আগে এই সাইটে অনলাইনেও আবেদন করতে পারবেন।

তিনি বলেন, অনুমোদন প্রক্রিয়া শেষ হতে মাত্র একদিন সময় লাগবে। একবার সম্পূর্ণ হলে, নিয়োগকর্তারা তাদের বিদেশি কর্মীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ফরেন ওয়ার্কার্স মেডিক্যাল এক্সামিনেশন মনিটরিং এজেন্সির (ফমিমা) মাধ্যমে নিতে হবে যাতে তারা সুস্থ এবং তাদের নিজ নিজ সেক্টরে কাজ করতে সক্ষম হয়।

‘পরবর্তী প্রক্রিয়াটি হবে পুনঃনির্মাণ ফি, ভিসা, অস্থায়ী কাজের ভিজিট পাস (পিএলকেস), প্রক্রিয়াকরণ ফি এবং শুল্ক প্রদান। যখন সমস্ত নথি সম্পূর্ণ হয়, নিয়োগকর্তারা পিএলকেস মুদ্রণ করতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ইমিগ্রেশন কখনোই কোনো ব্যক্তি বা সংস্থাকে এজেন্ট বা মধ্যস্থতাকারী হিসেবে নিয়োগ করেনি। আরটিকে, যা প্রাথমিকভাবে ৩১ ডিসেম্বর শেষ হয়েছিল, সেটি আবারও চলবে চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় চার বাংলাদেশি নিহত
                                  

অনলাইন ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন চার বাংলাদেশি। আহত হয়েছেন আরও দুজন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) ভোর ৫টায় কাতারের আল শামাল মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত প্রবাসীদের মধ্যে মোহাম্মদ শাকিল ও মোহাম্মদ ইউসুফ মাতব্বরের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে। আর মোহাম্মদ রাহাতের বাড়ি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে, অপর নিহত মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়।

নিহত তিনজনের মরদেহ রাখা হয়েছে স্থানীয় দোহা হামাদ হাসপাতালের মর্গে। আর রাহাতকে শনিবার কাতারের আবু হামুর কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

অন্যদিকে আহত মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন ও হাবিবুর রহমান অপুকে দোহা হামাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত এই দুজনের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে।

জানা যায়, আল শামাল মহাসড়কে তাদের গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অপর একটি প্রাইভেটকারকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন দুজন। আর হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও দুজনের মৃত্যু হয়।

কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স মুহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, তিনজনের মরদেহ দ্রুত দেশে তাদের পরিবারের কাছে পাঠানো হবে।


   Page 1 of 12
     প্রবাস
যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসী, এক বছরে গ্রেফতার ১২ হাজার
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি দম্পতি নিহত
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় ১০১ বাংলাদেশিসহ ১৩৪ নির্মাণশ্রমিক আটক
.............................................................................................
লিবিয়া থেকে প্রত্যাবাসন হবেন আরও ২৬৩ বাংলাদেশি
.............................................................................................
কানাডায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কবি আসাদ চৌধুরী
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় ২৫২ বাংলাদেশিসহ ৪২৫ অভিবাসী আটক
.............................................................................................
বিদেশে দক্ষ কর্মীর চাহিদা বাড়ছে, হাতছাড়া হতে হচ্ছে ইউরোপ
.............................................................................................
প্রবসীদের প্রতি আমাদের অনেক দায়িত্ব রয়েছে, প্রবাসীদের নিকট আমরা ঋণী : ফয়সাল বিন করিম
.............................................................................................
কুষ্টিয়ার জগলুল বিএনপির দুঃসময়ে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনীতির মাঠে
.............................................................................................
কানাডায় সড়কে ঝরলো ৩ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর প্রাণ
.............................................................................................
তুরস্কের ধ্বংসস্তূপ থেকে দুই বাংলাদেশি উদ্ধার
.............................................................................................
তুরস্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন চালু
.............................................................................................
মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেটমুক্ত করার সভায় কয়েক দফায় হট্টগন্ডগোল
.............................................................................................
২০২২ সালে ফ্রান্সে রেকর্ড আশ্রয় আবেদন
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার কার্যক্রম শুরু ২৭ জানুয়ারি
.............................................................................................
কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় চার বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
আবুধাবিতে লটারিতে ১০৫ কোটি টাকা জিতলেন বাংলাদেশি
.............................................................................................
প্রবাসী আয়ে বড় ধাক্কা, ৭ মাসে সর্বনিম্ন সেপ্টেম্বরে
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় ৫ মাসে লাখেরও বেশি পাসপোর্ট বিতরণ
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় চার মাসে ৬,৫৭৩ অবৈধ অভিবাসী গ্রেফতার, বাংলাদেশি ৮২০
.............................................................................................
রিক্রুটিং এজেন্সি ইস্যুতে ঝুলে আছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার
.............................................................................................
ইউক্রেনে আটকেপড়া বাংলাদেশিদের উদ্ধার করবে রেড ক্রস
.............................................................................................
আজারবাইজানে বাংলাদেশি ছাত্রী খুন
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের সাবেক হাইকমিশনার খায়রুজ্জামান গ্রেফতার
.............................................................................................
লিবিয়ায় বন্দিদের নির্যাতন: ইতালিতে দুই বাংলাদেশির ২০ বছর কারাদণ্ড
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মী নিয়োগের আবেদন শুরু
.............................................................................................
শারজায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি মা-মেয়ে নিহত
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগে অনলাইন আবেদনের তারিখ ঘোষণা
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগের আবেদনের ঘোষণা শিগগিরই
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বৈধ হওয়ার মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩১ ডিসেম্বর
.............................................................................................
মালয়েশিয়া যেতে যেসব সুবিধা পাবেন বাংলাদেশি কর্মীরা
.............................................................................................
বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিতে রাজি মালয়েশিয়ার মন্ত্রিপরিষদ
.............................................................................................
অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে ৬ লাখ বিদেশি কর্মীর প্রয়োজন মালয়েশিয়ায়
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১২৯ অভিবাসী আটক
.............................................................................................
স্পেনে শহীদ বীরমুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ মহান বিজয় দিবস পালিত
.............................................................................................
ওমানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই ভাইসহ তিন বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
কুয়েত প্রবাসীদের দ্বিতীয় দফা বৈধ হওয়ার সুযোগ
.............................................................................................
ইতালিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি যুবক নিহত
.............................................................................................
মরিশাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
এখনই কাটছে না প্রবাসী কর্মীদের অনিশ্চয়তা
.............................................................................................
কানাডায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশীদের জন্য সেকেন্ড হোম অবস্থান তৃতীয়
.............................................................................................
ভিসার মেয়াদ বাড়াতে কফিলেই শেষ ভরসা
.............................................................................................
২৫ হাজার সৌদি প্রবাসীর নতুন করে ভিসা নিতে হবে
.............................................................................................
খাওয়ার পয়সা নেই লেবানন প্রবাসী বাংলাদেশিদের
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের প্রবেশে সুখবর
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বিদেশি শ্রমিকদের জন্য আবাসন : বাস্তবায়নে টালবাহানা
.............................................................................................
পাঁচ মাসে ২৭ দেশ থেকে ফিরেছেন লক্ষাধিক কর্মী
.............................................................................................
স্পেনে করোনা আক্রান্ত ২ শতাধিক বাংলাদেশি
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় মসজিদে নামাজের অনুমতি বিদেশিদের
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Dynamic Scale BD