| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * কক্সবাজারে ইয়াবা ও আগ্নেয়াস্ত্র সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক   * স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ ৪০০ মণ আম ধ্বংস   * হুয়াওয়ের সাথে প্যানাসনিকের ব্যবসা স্থগিত   * বিজেপি এগিয়ে ৩৩৯ আসনে, কংগ্রেস ৯০   * ৩২ দলেই হবে কাতার বিশ্বকাপ   * সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেনকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা   * টিকিট নিয়ে বিভ্রান্তি, ভোগান্তিতে মানুষ   * গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ থেকে আগুন ধরে একই পরিবারের ৪ জন নিহত   * সঙ্গীতশিল্পী খালিদ হোসেনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক   * মেক্সিকোতে অপরাধী চক্রের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১০  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
হুয়াওয়ে ফোনে আপডেট দেবে না গুগল, থাকবে না ইউটিউব

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : চীনভিত্তিক স্মার্টফোন নির্মাণকারী ব্র্যান্ড হুয়াওয়েকে আর অ্যান্ড্রয়েড সেবা দেবে না বলে জানিয়েছে মার্কিন টেক-জায়ান্ট গুগল। ফলে হুয়াওয়ের নতুন মডেলের হ্যান্ডসেটগুলোতে ইউটিউব, জি-মেইল, গুগল ম্যাপ, ক্রোম ব্রাউজারের মতো জনপ্রিয় গুগল অ্যাপসগুলো আর থাকবে না। এখন থেকে হুয়াওয়ের ডিভাইসগুলোতে কোনো ধরনের আপডেট ভার্সন দেবে না গুগল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন ও জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্র এমন কোম্পানিতে তালিকাভুক্ত করেছে, যার সঙ্গে বাণিজ্য করতে হলে মার্কিন কোম্পানিগুলোকে লাইসেন্স নিতে হবে। এরপরই গুগল এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্প প্রশাসনের ‘ব্ল্যাকলিস্ট’ এর কারণে হুয়াওয়ের সঙ্গে চলমান দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে গুগল। তবে ‘ওপেন সোর্স প্ল্যাটফর্ম’-এ থাকা সফটওয়্যারগুলোই শুধু সচল থাকবে হুয়াওয়ের স্মার্টফোনগুলোতে।

গুগলের এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যম দুটি বলছে, চীনে গুগল ব্যবহার সীমিত আকারে থাকায় সেখানে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না এ সিদ্ধান্ত। তবে চীনের বাইরে অন্যান্য দেশগুলোতে অ্যান্ড্রয়েড এবং গুগলের নানারকম অ্যাপস বেশ জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত। তাই সেসব দেশের হুয়াওয়ে ডিভাইস ব্যবহারকারীরা পড়তে যাচ্ছেন বেশ বড় রকমের ঝামেলায়। যা চীনা প্রতিষ্ঠানটির বৈশ্বিক ব্যবসায় প্রভাব ফেলবে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ট্রাম্প প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রে ‘কালোতালিকা’ ভুক্ত করে। এমন সিদ্ধান্তের পরেই নিজেদের সিদ্ধান্ত জানায় গুগল। এর ফলশ্রুতিতে হুয়াওয়ের নতুন হ্যান্ডসেটগুলোতে আর অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম থাকছে না। থাকবে না ‘গুগল প্লে’ অ্যাপ স্টোর। তবে গুগল প্লে স্টোরের অ্যাকসেস থাকা বর্তমান হুয়াওয়ের ডিভাইস ব্যবহারকারীরা এখনো গুগলের অ্যাপ্লিকেশনের আপডেট ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে এ বিষয়ে হুয়াওয়ের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ‘সম্ভাব্য’ সব উপায় হুয়াওয়ে খতিয়ে দেখছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্র দেশগুলো বরাবরই অভিযোগ করে আসছে, চীনের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ব্যবহারকারীদের তথ্য পাচারের মাধ্যমের গুপ্তচরবৃত্তিতে লিপ্ত রয়েছে হুয়াওয়ে ও আরেক চীনা কোম্পানি জেডটিই। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রে ফাইভ-জি সেবার কাজে প্রতিষ্ঠান দুটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

হুয়াওয়ে ফোনে আপডেট দেবে না গুগল, থাকবে না ইউটিউব
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : চীনভিত্তিক স্মার্টফোন নির্মাণকারী ব্র্যান্ড হুয়াওয়েকে আর অ্যান্ড্রয়েড সেবা দেবে না বলে জানিয়েছে মার্কিন টেক-জায়ান্ট গুগল। ফলে হুয়াওয়ের নতুন মডেলের হ্যান্ডসেটগুলোতে ইউটিউব, জি-মেইল, গুগল ম্যাপ, ক্রোম ব্রাউজারের মতো জনপ্রিয় গুগল অ্যাপসগুলো আর থাকবে না। এখন থেকে হুয়াওয়ের ডিভাইসগুলোতে কোনো ধরনের আপডেট ভার্সন দেবে না গুগল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন ও জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্র এমন কোম্পানিতে তালিকাভুক্ত করেছে, যার সঙ্গে বাণিজ্য করতে হলে মার্কিন কোম্পানিগুলোকে লাইসেন্স নিতে হবে। এরপরই গুগল এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্প প্রশাসনের ‘ব্ল্যাকলিস্ট’ এর কারণে হুয়াওয়ের সঙ্গে চলমান দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে গুগল। তবে ‘ওপেন সোর্স প্ল্যাটফর্ম’-এ থাকা সফটওয়্যারগুলোই শুধু সচল থাকবে হুয়াওয়ের স্মার্টফোনগুলোতে।

গুগলের এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যম দুটি বলছে, চীনে গুগল ব্যবহার সীমিত আকারে থাকায় সেখানে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না এ সিদ্ধান্ত। তবে চীনের বাইরে অন্যান্য দেশগুলোতে অ্যান্ড্রয়েড এবং গুগলের নানারকম অ্যাপস বেশ জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত। তাই সেসব দেশের হুয়াওয়ে ডিভাইস ব্যবহারকারীরা পড়তে যাচ্ছেন বেশ বড় রকমের ঝামেলায়। যা চীনা প্রতিষ্ঠানটির বৈশ্বিক ব্যবসায় প্রভাব ফেলবে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ট্রাম্প প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রে ‘কালোতালিকা’ ভুক্ত করে। এমন সিদ্ধান্তের পরেই নিজেদের সিদ্ধান্ত জানায় গুগল। এর ফলশ্রুতিতে হুয়াওয়ের নতুন হ্যান্ডসেটগুলোতে আর অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম থাকছে না। থাকবে না ‘গুগল প্লে’ অ্যাপ স্টোর। তবে গুগল প্লে স্টোরের অ্যাকসেস থাকা বর্তমান হুয়াওয়ের ডিভাইস ব্যবহারকারীরা এখনো গুগলের অ্যাপ্লিকেশনের আপডেট ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে এ বিষয়ে হুয়াওয়ের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ‘সম্ভাব্য’ সব উপায় হুয়াওয়ে খতিয়ে দেখছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্র দেশগুলো বরাবরই অভিযোগ করে আসছে, চীনের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ব্যবহারকারীদের তথ্য পাচারের মাধ্যমের গুপ্তচরবৃত্তিতে লিপ্ত রয়েছে হুয়াওয়ে ও আরেক চীনা কোম্পানি জেডটিই। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রে ফাইভ-জি সেবার কাজে প্রতিষ্ঠান দুটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

ফেসবুক ভেঙে ফেললে `বাজার দখলের প্রতিযোগিতা বাড়বে`
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফেসবুককে ভেঙে না ফেলে এটিকে নিয়ন্ত্রণ করলে ব্যবহারকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণ এবং ডলার ব্যয় করে বিজ্ঞাপন দেয়ার প্রতিযোগিতা দূর হবে। অন্যথায় ‘বাজার দখলের প্রতিযোগিতা বাড়বে’, বা আরও খারাপ কিছু হবে।

মঙ্গলবার (১৪ মে ২০১৯) প্রকাশিত এক মতামতে এসব কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আর্থিক এবং ব্যবসা সংক্রান্ত নিউজ ওয়েবসাইট বিজনেস ইনসাইডারের গ্লোবাল এডিটর-ইন-চিফ নিকোলাস কার্লসন।

তিনি বলেন, ফেসবুক ভেঙে গেলে সিলিকন ভ্যালির টেকনোলজি কোম্পানিগুলো এবং বিশ্বের তিনটি নতুন কোম্পানি বাজার দখলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠবে। এদিকে আবার তখন তাদেরকে সমর্থন দেবে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।

কার্লসন বলেন, দ্রুতগতিতে অগ্রসরমান নতুন তিনটি, চারটি, বা পাঁচটি সোশ্যাল নেটওয়ার্ক গড়ে উঠতে দেয়ার এবং সেগুলো আবার ভাঙার দরকার নেই আমাদের। তাই ফেসবুক ভেঙে না ফেলে এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা সরকারের জন্য সবচেয়ে ভালো বিকল্প এখন।

তিনি আরও বলেন, নিয়ন্ত্রণ মানে হলো কনজ্যুমারদের ও বিদ্যমান প্লেয়ারগুলোকে সুরক্ষিত করা। পাশাপাশি বাজার দখলের পথে বাধা তৈরি করা।

গত ৯ মে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজেস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটিকে তিনটি আলাদা কোম্পানিতে বিভক্ত করার আহ্বান জানান।

এখন ২৪০ কোটির মতো ব্যবহারকারী আছে ফেসবুকের। এছাড়া হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রামের প্রতিটিতেই ১০০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী আছে। ২০১২ সালে ইনস্টাগ্রাম ও ২০১৪ সালে হোয়াটসঅ্যাপ কিনে নেয় ফেসবুক।

হিউজেসের ভাষ্য মতে, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামকে আলাদা কোম্পানি করা হোক। তবে এই আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণের ওপর গুরুত্ব দেয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গের বরাত দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির মুখপাত্র নিক ক্লেগ বলেন, ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম করে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে দায় নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

ল্যাপটপ আনছে রেডমি
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : স্মার্টফোনের পর এবার ল্যাপটপ নিয়ে আসছে রেডমি। চলতি সপ্তাহে চীনে আনুষ্ঠানিক ভাবে ল্যাপটপ উন্মুক্তের ঘোষণা আসবে।

ওই অনুষ্ঠানে Snapdragon 855 চিপসেট ব্যবহার করে নতুন স্মার্টফোন উন্মুক্ত করবে রেডমি। এতদিন রেডমি ব্র্যান্ডের অধীনে শুধুমাত্র স্মার্টফোন উন্মুক্ত করেছে শাওমি।

সম্প্রতি টুইটারে এক পোস্টে রেডমির ল্যাপটপ উন্মুক্তে খবর সামনে আসে। কম দামে ল্যাপটপ নিয়ে আসতে পারে রেডমি। শাওমি এমআই নোটবুক ল্যাপটপে মেটাল বডি থাকলেও রেডমি ল্যাপটপে থাকতে পারে প্লাস্টিক বিল্ড।

এতদিন রেডমি ব্র্যান্ডে শুধুমাত্র মিডরেঞ্জ স্মার্টফোন উন্মুক্ত করেছে শাওমি। তবে নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোনে থাকবে Snapdragon 855 চিপসেট। ডিসপ্লের নীচে থাকবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। একাধিক স্টোরেজ ও মেমোরি ভেরিয়েন্টে এই ফোন পাওয়া যাবে।

ছবি তোলার জন্য থাকছে ৪৮ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। সাথে থাকবে ৮ মেগাপিক্সেল আর ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য এই ফোনে একটি ৩২ মেগাপিক্সেল সেন্সার ব্যবহার করেছে শাওমি।

এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান সহ-প্রতিষ্ঠাতা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : এখনই বন্ধ করে দেয়া উচিত ফেসবুক। সম্প্রতি এমনই এক মন্তব্য করেছেন মার্ক জাকারবার্গের সাবেক রুমমেট তথা ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজেস। নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি এই মন্তব্য করেন।

হিউজেস বলেন, আমরা এমন এক জাতি যেখানে একচ্ছত্র আধিপত্যে লাগাম দেয়া হয়েছে, তা সে যতই সৎ উদ্দেশ্য থাকুক কোনও সংস্থার মালিকের। মার্কের ক্ষমতা প্রশ্নাতীত এবং অ-আমেরিকান সুলভ।
২০০৪ সালে হার্ভার্ডে পড়াশোনা করা অবস্থায় মার্ক জাকারবার্গ এবং ডাস্টিন মস্কোভিৎজের সঙ্গে ফেসবুকের জন্ম দেন ক্রিস হিউজেস। ২০০৭ সালে তিনি ফেসবুক ত্যাগ করেন এবং পরে লিংকেডিন সাইটে এক পোস্টের মাধ্যমে হিউজেস জানান, তিন বছর ফেসবুকের সঙ্গে কাজ করার ফলে তিনি ৫০ কোটি ডলার উপার্জন করেছেন।
হিউজেস জানান, ১৫ বছর হয়ে গেল হার্ভার্ডে আমি ফেসবুক সহ-প্রতিষ্ঠা করি। এটাও সত্য যে গত এক দশকে আমি ওই সংস্থার জন্য কোনও কাজ করিনি। কিন্তু তবু আমি ক্ষোভ ও দায়িত্ববোধে ভুগী। তবে ফেসবুকের পক্ষ থেকে হিউজেসের এমন মন্তব্যের কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

ফেসবুকের এই সহ-প্রতিষ্ঠাতা আরও বলেন, মার্ক অত্যন্ত ভালো ও দয়ালু মানুষ। কিন্তু উন্নয়নের দিকে নজর থাকায় ক্লিক বাড়াতে গিয়ে নিরাপত্তা ও শিষ্টতা সে ভুলে গিয়েছে। তার আশপাশে এমন কিছু মানুষ ও কর্মী সব সময় ঘিরে থাকে, যারা তার এই বিশ্বাসকে চ্যালেঞ্জ না করে তাতে ইন্ধন জোগায়।

উল্লেখ্য, বিশ্বের বৃহত্তম সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকের বর্তমান গ্রাহক সংখ্যা ২০০ কোটিরও বেশি। এছাড়া ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াট্‌সঅ্যাপ, মেসেঞ্জার এবং ইনস্টাগ্রামের প্রতিটিতে ১০০ কোটির বেশি ইউজার রয়েছে।

বড় ডিসপ্লের সঙ্গে থাকছে শক্তিশালী ব্যাটারি ও মেমোরি
                                  

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক : যারা স্মার্টফোনে ভালো গেমিং ও ভিডিও এক্সপেরিয়েন্স পেতে চান, তাদের জন্য নতুন আকর্ষণ নিয়ে বাংলাদেশের বাজারে এলো হুয়াওয়ে ওয়াই ম্যাক্স ফ্যাবলেট। স্মার্টফোন আর ট্যাবলেটের সমন্বয়ে তৈরি ফ্যাবলেট নামে পরিচিত হুয়াওয়ের নতুন এ ডিভাইসে থাকছে সুপার লার্জ ডিউড্রপ ডিসপ্লে, বড় ব্যাটারি, দুর্দান্ত পারফরমেন্সের জন্য উন্নত প্রসেসরসহ শক্তিশালী র‌্যাম।

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের ওয়াই ম্যাক্স ফ্যাবলেট নামের নতুন এ ডিভাইসটি এখন বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে হুয়াওয়ের অনুমোদিত নির্দিষ্ট ব্র্যান্ডশপ থেকে ডিভাইসটি কিনলে ফ্রি গিফট হিসেবে মিলবে চমৎকার হেডফোন ও গ্রামীণফোণের আকর্ষণীয় ডেটা বান্ডেল অফার।

প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ভিডিও এক্সপেরিয়েন্সের জন্য এ ফ্যাবলেটে রাখা হয়েছে ৭.১২ ইঞ্চির সুপার লার্জ ডিউড্রপ ডিসপ্লে। ডিসপ্লে যাতে বেশি জায়গাজুড়ে থাকে তাই এতে স্ক্রিন টু বডি রেশিও রাখা হয়েছে ৯০ শতাংশ। এছাড়া ফ্যাবলেটটির রেজ্যুলেশন হবে ফুল এইচডি প্লাস। ফলে নেটফ্লিক্স, ইউটিউব বা গেমিংয়ের ক্ষেত্রে দুর্দান্ত ভিউ পাওয়া যাবে।

ডিভাইসটি সম্পর্কে হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ (বাংলাদেশ) এর কান্ট্রি ডিরেক্টর কেলভিন ইয়াং বলেন, বড় ডিসপ্লে, গেমিং সুবিধার কারণে ফ্যাবলেট জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। যারা গেম খেলতে ভালোবাসেন, ভিডিও দেখতে ভালো অভিজ্ঞতা পেতে চান মূলত তাদের জন্য ডিভাইসটি এনেছি। আশা করি, আমাদের অন্য ডিভাইসগুলোর মতো এ ফ্যাবলেটটিও গ্রাহকদের প্রত্যাশা পূরণ করবে।

ডিভাইসটির ডিজাইন নান্দনিক ও দৃষ্টি আকর্ষক।

৮.৪ মিলিমিটার পুরুত্বের স্লিম ডিজাইনের ফ্যাবলেটটির ওজন মাত্র ২১০ গ্রাম। লেদার ফিনিশড্ ডিজাইনের ওয়াই ম্যাক্স ফ্যাবলেট মিলছে অ্যাম্বার ব্রাউন ও মিডনাইট ব্ল্যাক এ দু’টি কালারে। ব্যাটারি ব্যাক-আপের অনাকাঙ্খিত ঝামেলা দূর করতে এ ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি।
একসঙ্গে অনেক কিছু সংরক্ষণ আর দুর্দান্ত পারফরমেন্স পেতে ফ্যাবলেটে ব্যবহার করা হয়েছে ৪ জিবির শক্তিশালী র‌্যাম। থাকবে ১২৮ জিবির রম সুবিধা। এছাড়া কম পাওয়ার ব্যয় করে ভালো পারফরমেন্সের জন্য ফ্যাবলেটটিতে আছে কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৬৬০ প্রসেসর।

আকর্ষণীয় ছবি পেতে ফ্যাবলেটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ও ২ মেগাপিক্সেলের দু’টি এআই রিয়ার ক্যামেরা। এছাড়াও সেলফির জন্য রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা। হুয়াওয়ে অনুমোদিত সকল ব্র্যান্ডশপে ফ্যাবলেটটি কিনতে পাওয়া যাচ্ছে। এর দাম রাখা হয়েছে ২৬,৯৯৯ টাকা।

চালক ছাড়াই চলবে যাত্রীবাহী বিমান
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ছুটি কাটাতে নিজেদের গন্তব্যে চালকবিহীন বিমানে চড়েই যেতে পারবেন যাত্রীরা। অনলাইন পর্যটন সংস্থা কিউই ডটকমের অংশীদারিত্বে চেক বিমান প্রযুক্তি কোম্পানি জুরি পুরোপুরি চালকবিহীন আকাশে উড়াল দিতে পারবে এমন যাত্রী বিমানের ধারনা নিয়ে এসেছে।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলের খবরে এমনটিই বলা হয়েছে।

নির্মাণকারীরা আশা করছে, এ ধরনের বিমান একনাগাড়ে অন্তত ৪৩৪ মাইল উড়তে সক্ষম হবে। যেটা লন্ডন থেকে জার্মানিতে উড়াল দূরত্বের সমান।

বিমানটি দেখতে হবে ঠিক ড্রোনের মতো, নির্মাণে খাড়াভাবে উড্ডয়ন ও অবতরণ(ভিটিওএল) প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। আটটি বৈদ্যুতিকমোটরের মাধ্যমে জ্বালানি যোগান দেয়া হবে এটির।

বিমান কোম্পানি জুরি জানিয়েছে, বিমানটি চারজন যাত্রী বহন করতে পারবে। ক্রু সংখ্যা কমিয়ে এবং একজন চালক দিয়ে কার্যক্রম পরিচালনার সম্ভাবনা জাগিয়ে এয়ারলাইনসগুলোর খরচ কমাতে সাহায্য করবে নতুন এই স্বয়ংক্রিয় বিমান ও প্রযুক্তির ধারনা।

এয়ারবাস ও বোয়িংয়ের মতো বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো এমন এক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা আবিষ্কারের চেষ্টা করছে, যাতে কোনো একদিন কেবল কম্পিউটার দিয়ে বিমান চালানো যায়।

তবে চালকবিহীন যাত্রীবাহী নতুন এই বিমানের ৩৬ ফুট বিস্তারের পাখা থাকবে, আর ওজন হবে কেবল ৯০০ কেজি। এছাড়া খাড়াভাবে উড্ডয়ন করায় প্রচলিত বিমানের মতো জায়গারও দরকার পড়বে না এটির। কাজেই অবতরণের জায়গাও একইভাবে কম লাগবে।

বিমানটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, কেবল দ্বীপগুলোর মধ্যেই এটির যাতায়াত সীমিত থাকবে। কাজেই বাণিজ্যিক বিমান থেকে নৌকা কিংবা গাড়িতে ওঠার ঝক্কি পোহাতে হবে না যাত্রীদের।

কিভাবে স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমাবেন
                                  

ডেটা রেসট্রিকশন : অনেকেই জানেন না যে স্মার্টফোনটি যখন ব্যবহার করছেন না কিন্তু ডেটা অন করে রেখেছেন তখনও আপনার ডেটা খরচ হচ্ছে! হ্যাঁ ঠিক তাই। আপানার অ্যানড্রয়েড ফোনটির বেশির ভাগ অ্যাপস ই সার্ভিস সচল রাখার জন্য ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা ব্যবহার করে। যেমন হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, প্লে-স্টোর, গুগল অ্যাপস, মেসেঞ্জার ইত্যাদি। এই অ্যাপসগুলো আপনি অন্য কাজ করার সময়ও অকারণে ডেটা কাটতে থাকে। এর থেকে বাঁচতে আপনার সেটিংস অপশনে গিয়ে ডেটা ইউজেস> তারপর রেস্টিক্ট ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা অপশনে টিক দিয়ে দিন। নোটিফিকেশন বারে একটি বিস্ময়সূচক চিহ্ন দেখাবে। মানে অ্যাপগুলি আর ব্যাকগ্রাউন্ডে ডেটা চুরি করতে পারবে না।

শুধু প্রয়োজনীয় অ্যাপস চালু : যেহেতু স্মার্টফোন ইউজ করেন সেহেতু নিশ্চয়ই ইন্টারনেটভিত্তিক কোনো একটি বা একাধিক ইনস্টেন্ট মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। এর মাঝে এমন একটি অ্যাপ থাকতে পারে যেটিকে সব সময় চালু রাখা দরকার। যদি ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা বন্ধ করে রাখেন তবে সবগুলি অ্যাপ একত্রে ব্যাকগ্রাউন্ডে বন্ধ হয়ে থাকবে। এই সমস্যা থেকে বাঁচতে সেটিংস>ডেটা ইউজেস এ গিয়ে দেখতে পাবেন সবগুলি অ্যাপ দেখাচ্ছে। কোন অ্যাপ কি পরিমাণ ডেটা খরচ করছে সেটাও আপনি দেখতে পারবেন। এখন একটু সময় নিয়ে অ্যাপসগুলোতে ক্লিক করে ভেতরে প্রবেশ করুন এবং যে অ্যাপগুলো চালু রাখা দরকার সেগুলো বাদ দিয়ে দিন।

ডেটা সেভিংস অ্যাপ ব্যবহার : কিছু কিছু অ্যাপস আছে যেগুলো অনেক লো ডেটা খরচ করে আপনাকে ব্রাউজিংয়ের সুযোগ দেয়। যেমন অপেরা মিনি, অপেরা নিউ, ইউসি ব্রাউজারে ডেটা সেভিংস মুড আছে। এই মুড ব্যবহার করে আপনি ৮০ শতাংশ পর্যন্ত ব্রাউজিং খরচ বাঁচাতে পারেন। ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং এর ক্ষেত্রে সঠিক অ্যাপ নির্বাচন করুন। যেমন ভয়েস কলিংয়ের ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপে ডেটা খরচ খুবই কম হয়। তাই দেখেশুনে সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। সিকিউরিটি অ্যাপ ব্যবহার : বিভিন্ন সিকিউরিটি অ্যাপস ব্যবহার করেও ডেটা খরচ কমাতে পারেন। এই অ্যাপগুলোর দ্বারা জানতে পারবেন কোন অ্যাপগুলো আপনার ডেটা চুরি করছে। সেটিংসের মাধ্যামে পারমিশন ছাড়া ডেটা ব্যাবহার করতে পারবে না।
ডেটা সেটিংস : আপনার ফোনে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু সেটিংস রয়েছে যেগুলিকে ব্যবহার করা জরুরি। যেমন আপনার স্মার্টফোনটিকে ওয়াইফাই্ হটস্পট হিসেবে ব্যবহার করা যায়। ওয়াইফাই-ভিত্তিক কিছু অ্যাপস যেমন শেয়ার ইট ব্যবহারের সময় আপনার অজান্তেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে অনেকসময় হটস্পট চালু হয়ে যায়। এর ফলে আপনার অজান্তে অন্য কেউ আপনার ডেটা ব্যবহারের সুযোগ পাবে।

ফোনের আয়ু বাড়াতে...
                                  

মোবাইল ফোন আমাদের নিত্য ব্যবহার্য একটি দরকারি জিনিস। এই বস্তুটির যত্ন নিতে প্রয়োজন ছোট্ট কিছু বিষয় মেনে চলা। আসুন জেনে নেই বিষয়গুলো।


নোটিফিকেশনের জন্য ভাইব্রেশন চালু রাখা
মোবাইল ফোনের আয়ু যত বাড়তে থাকে, তার কার্যকারিতা ততই কমতে থাকে। ইনকামিং কল কিংবা ম্যাসেজের জন্য ভাইব্রেশন চালু রাখা যেতে পারে। তবে ছোটখাটো সকল ধরনের নোটিফিকেশনের জন্য ভাইব্রেশন মুড চালু রাখার ফলে মোবাইলের আয়ু কমে যেতে থাকে সময়ের চাইতে অনেক বেশি দ্রুত।

অব্যবহৃত অ্যাপস চালু রাখা
আইফোন কিংবা অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে অব্যবহৃত অ্যাপস ব্যাটারির আয় কমিয়ে দেয়। হুট করে কোন অ্যাপ চালু করার পর সেটা পুনরায় আর ব্যবহার না করে ব্যাকগ্রাউন্ডে রেখে দেওয়ার অভ্যাসটি কমবেশি প্রায় সবার মাঝেই আছে। এতে করে ব্যাটারির বাড়তি কাজ করতে হয়। ব্যাটারির উপর চাপ কমাতে ব্যাকগ্রাউন্ডের অব্যাবহৃত অ্যাপসগুলো বন্ধ করে দিতে হবে ব্যবহারের পরপরই।

অপ্রয়োজনীয় পারমিশন অ্যালাউ করা
রাইড শেয়ারিং অ্যাপসের জন্য লোকেশন পারমিশন দেওয়ার প্রয়োজন আছে, কারণ ইউজার হিসেবে আপনার সঠিক অবস্থান জানানো প্রয়োজন। তবে এমন ধরনের অ্যাপস ছাড়া অন্যান্য অ্যাপসের ক্ষেত্রে লোকেশনের পারমিশন নেওয়ার প্রয়োজন নেই। তাই অপ্রয়োজনীয় কিংবা র‍্যানডম অ্যাপসের ক্ষেত্রে বাড়তি পারমিশন দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

ব্যাটারি ড্রেইন হচ্ছে যে সকল অ্যাপসের কারণে
মোবাইলের ব্যাটারি সবচেয়ে বেশি ড্রেইন হয় স্ন্যাপচ্যাট, গুগল ম্যাপস, নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন ও ফেসবুক অ্যাপসের জন্য গার্ডিয়ান জানাচ্ছে, যারা মোবাইলে ফেসবুক ব্যবহার থেকে বিরত থাকে কিংবা মোবাইলে ফেসবুক কম ব্যবহার করেন, তাদের মোবাইলের ব্যাটারির আয়ু অন্ততপক্ষে ২০ শতাংশ কম খরচ হয়। এই অ্যাপসগুলো ব্যাকগ্রাউন্ডে চালু থাকার ফলে মোবাইলের ব্যাটারি প্রয়োজনের চাইতে ৩০-৪৫ শতাংশ বেশি খরচ হয়।

মোবাইলের স্ক্রিন অনেক বেশি উজ্জ্বল
অনেকেই মোবাইলের স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা একেবারে কমিয়ে রাখেন। ঠিক তেমনিভাবে অনেকেই মোবাইলের স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা প্রয়োজনের চাইতে অনেক বেশি বাড়িয়ে রাখেন। স্ক্রিনের বাড়তি উজ্জ্বলতা ব্যাটারির পাশাপাশি মোবাইলেরও ক্ষতি করে।

বালিশের নিচে মোবাইল রাখা
ঘুমানোর সময় ভুলবশত মোবাইল বালিশের নিচে চলে যায়। এতে করে মোবাইলের উত্তাপ বেড়ে আগুন ধরার সম্ভবনা তৈরি হয়। এর পাশপাশি মোবাইলের ব্যাটারির আয়ুও কমে যায় বাড়তি উত্তাপের ফলে।

এবার ভারতে বন্ধ হলো টিকটক
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ভারতে বন্ধ করা হয়েছে ভিডিও বানানোর জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশে গুগল মঙ্গলবার বিকেলের দিকে এই অ্যাপটি ব্লক করে দেয়।

টিকটকের বিরুদ্ধে প্রথম সরব হয় মাদ্রাজ হাই কোর্ট। বিচারক অ্যাপটি নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দেন। এই নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশের আবেদন করা হলে সুপ্রিম কোর্ট তা অস্বীকার করে। সর্বোচ্চ আদালতের এই নির্দেশের পর মন্ত্রণালয় থেকে গুগল এবং অ্যাপলকে অ্যাপটি ভারতে ব্লক করতে বলা হয়।

চীনা প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের এই অ্যাপটির বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি প্রচারের বেশ কয়েকটি দেশের অভিযোগ আছে।

বাংলাদেশের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার একবার বলেন, বাংলাদেশে তিনি এই অ্যাপটি বন্ধ করতে চান।

অ্যাপ ব্লক করার বিষয়ে গুগল বিস্তারিত কিছু বলতে রাজি হয়নি। ছোট এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, স্থানীয় আইন তারা সব সময় মেনে চলে।

মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের পর টিকটক থেকে অ্যাপটি ব্লক না করতে ভারত সরকারকে অনুরোধ জানানো হয়। অনুরোধে কাজ না হলে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে তারা চ্যালেঞ্জও জানায়।

ভারতে ২৪০ মিলিয়ন বার এই অ্যাপটি ডাউনলোড করা হয়েছে।

ব্ল্যাক হোল আসলে দেখতে কেমন?
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : প্রথমবারের মতো ব্ল্যাক হোল বা কৃষ্ণ গহ্বরের ছবি ধারণ এবং প্রকাশ কছেন বিজ্ঞানীরা। এ ঘটনাকে বিজ্ঞানের এক বড় অর্জন বলে মনে করছেন তারা।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিজ্ঞান গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল সায়েন্স ফাউন্ডেশন (এনএসএফ) এক প্রেস কনফারেন্সে ব্ল্যাক হোলের প্রথম ছবি প্রকাশ করে।

তারা জানায়, মেসিয়ার বা এম-৮৭ নামের এক ছায়াপথের কেন্দ্র থেকে বৃহদাকার এই ব্ল্যাক হোল এবং তার ছায়ার ছবি ধারণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা বলেন, আমরা তাই দেখতে পেরেছি যাকে দেখা সম্ভব নয় বলে আমরা ভেবেছিলাম। এটিই ব্ল্যাক হোলের প্রথম প্রত্যক্ষ প্রমাণ।

ছবিতে দেখা গেছে, হলুদ রঙের ধুলো ও গ্যাসের একটি চক্র প্রকাণ্ড ব্ল্যাক হোলটিকে ঘিরে আছে। এম-৮৭ ছায়াপথের মাঝখানে, পৃথিবী থেকে ৫ কোটি ৫০ লাখ আলোকবর্ষ দূরে এর অবস্থান। ব্ল্যাক হোলটি ৪ হাজার কোটি কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত এবং পৃথিবী থেকে ৩০ লাখ গুণ বড়।

ব্ল্যাক হোলের প্রথম ছবিটি তুলেছে ইভেন্ট হরাইজন টেলিস্কোপ কোলাবোরেশন বা ইএইচটি। দুই শতাধিক বিজ্ঞানী এই প্রকল্পে কাজ করছেন। এই ছবি তোলার জন্য তারা এক দশকের বেশি সময় ধরে কাজ করছেন।

এই প্রকল্পের অংশ হিসেবে ব্ল্যাক হোলের ছবি তোলার জন্য ২০১৭ সালে বিজ্ঞানীরা একটি বৈশ্বিক নেটওয়ার্ক গড়ে তোলেন। অবশেষে সফলতার মুখ দেখলেন তারা।

নাসার মতে, ব্ল্যাক হোল হলো অসংখ্য বস্তুর সঙ্কুচিত ছোট এলাকা যা ব্যাপক মাহকর্ষীয় ক্ষেত্র তৈরি করে এবং আলোসহ তার চারপাশে থাকা সবকিছিুকে নিজের অভ্যন্তরে টেনে নেয়। এছাড়াও ব্ল্যাক হোলের বস্তু গলানোর নিজস্ব পন্থা রয়েছে যা মুহূর্তের মধ্যে চারপাশের সবকিছুকে গলিয়ে ফেলতে পারে।

২১ ও ২২ এপ্রিল ‘বিপিও সামিট ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও খাতের অবস্থানকে তুলে ধরতে আগামী ২১ ও ২২ এপ্রিল চতুর্থবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০১৯’।

রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠেয় দুই দিনের বিপিও সামিট বাংলাদেশ-২০১৯ এর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক প্রমুখ।

বিপিও সামিট বাংলাদেশ-২০১৯ সম্পর্কে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ বলেন, ২০১৫ সালে বিপিও সেক্টর সম্পর্কে জনগণের তেমন কোনো ধারনা ছিলো না। তিনবারের বিপিও সামিট আয়োজনের ফলে এখন সবাই এ বিষয়টি সম্পর্কে অবগত। বিপিও খাতে উন্নয়নের জন্য এ সামিট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
আয়োজন সম্পর্কে সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন জানান, সব শ্রেণীর মানুষের চাকরির সুযোগ রয়েছে বিপিও সেক্টরে। আমরা এ সামিটে তা তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, বিপিও সেক্টরে দেশের যেকোনো জায়গায় বসে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। বিপিও সামিটে বিশ^বিদ্যালয় থেকে দক্ষ তরুনদের এনে চাকরির দেয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। প্রযুক্তি ক্ষেত্রে বাংলাদেশের রপ্তানি অসীম সম্ভবনা রয়েছে। এ যাত্রা বর্তমান সরকারের আমলে শুরু হয়েছে। আগে আমরা প্রযুক্তি পণ্য আমদানীকারক দেশ ছিলাম, বর্তমানে আমরা উৎপাদন ও রপ্তানী করছি।

বাক্যের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিপিও সামিট বাংলাদেশ-২০১৯ আয়োজন সফল করার জন্য দেশব্যাপী পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হবে এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়েও প্রচারণার মাধ্যমে সিভি সংগ্রহ করা হবে।

এর আগে ২০১৬ সালে সরাসরি ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে এই সম্মেলন হতে কল সেন্টারসহ বিভিন্ন চাকরি পেয়েছে ৩শতাধিক শিক্ষার্থী। ২০১৫ সালে প্রথম বিপিও সম্মেলন হতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি পেয়েছিল ২৩৫ শিক্ষার্থী।
আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুই দিনের আয়োজনে দেশি-বিদেশি তথ্যপ্রযুক্তিবিদ, সরকারের নীতিনির্ধারক, গবেষক, শিক্ষার্থী এবং বিপিও খাতের সঙ্গে জড়িতরা অংশ নেবেন।

প্রযুক্তি ব্যবসা বিশেষ করে আউটসোর্সিং ব্যবসা পরিচালনা, ব্যবসার উন্নয়ন ও বিনিয়োগের আদর্শ দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্ব-দরবারে ইতোমধ্যে পরিচিতি পেয়েছে।

এবারের আয়োজনে দেশের আউটসোসিং খাতকে আরও কিভাবে ভালো করা যায় সে বিষয় বিশ্বকে জানানো হবে এবং সরকারের রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নে বিপিও খাতের বিভিন্ন উদ্যোগ তুলে ধরা হবে। বিপিও খাতে দক্ষ ও পর্যাপ্ত জনবল তৈরিও এই সামিটের অন্যতম লক্ষ্য।

বিপিও খাতে ২০২১ সালের মধ্যে ১লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি লক্ষ্যে এ আয়োজন গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে বলে আশা করেন আয়োজকরা।

এবারের আয়োজনে ৪০ জন স্থানীয় স্পিকার, ২০ জন আন্তর্জাতিক স্পিকার অংশগ্রহণ করবে। এবারের বিপিও সামিটে ১২টি সেমিনার ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে।
সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগে’র আওতাধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) এর আয়োজনে এই সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আয়োজনে অংশীদার হিসেবে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস), বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস), বাংলাদেশ ওমেন ইন টেকনোলজি (বিডব্লিউআইটি), আইএসপি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) ও বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইমপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন (বিএমপিআইএ) ইত্যাদি। বাসস

অন্ধকারে ঝকঝকে ছবি তোলার মোবাইল ফোন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : প্রযুক্তির অগ্রযাত্রায় মোবাইল ফোনে প্রতিনিয়তই যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন সুবিধা। বাজার ধরে রাখতে মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোও প্রতিযোগিতার দৌড়ে ছুটছে প্রতি নিয়ত। নিত্যনতুন সুবিধা আর ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে গ্রাহকের কাছে।

এবার এক অভিনব প্রযুক্তি প্রদর্শন করেছে হুয়াওয়ে। চীনের এই প্রতিষ্ঠানটি ‘পি ৩০’ মডেলের একটি ফোন প্রদর্শন করেছে যা অন্ধকারে ঝকঝকে ছবি তুলতে পারে।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার সানওয়েসিটির কনভেনসন সেন্টারে বিশ্বের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস প্রস্তুতকারী ব্র্যান্ডটি পি ৩০ বিশেষজ্ঞ ফোনটি উদ্বোধন করে।

হুয়াওয়ে পি৩০ ফোনটির এ সময়ের হাইএন্ড ফোনগুলোর যাবতীয় অগ্রগতিকে ধারণ করে কিন্তু এর বিশেষত্ব মূলত ফটোগ্রাফিতে।

সানওয়ে সিটিন প্রদর্শনীকেন্দ্রের মধ্যে দুটি ডার্করুম বসিয়ে হুয়াওয়ে হাতেনাতে দেখিয়ে দেয়া হয় যে, অন্ধকার ঘেঁটে ঠিক ঠিক স্পষ্ট আলোকচিত্র করতে পারে ফোনটি।

শুধু মোবাইল ফোনের ক্যামেরার সীমাবদ্ধতাকে অতিক্রম করে অন্ধকারের ছবি তুলতে পারাই নয়, বরং একটি প্রফেশনাল ক্যামেরার যাবতীয় গুণাবলীকে হাতের মুঠোয় তুলে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে হুয়াওয়ের এই ফোনে।

মোবাইল ফোনের বিস্ফোরণ ঠেকাতে করনীয়
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বর্তমানে মোবাইল ফোনের ব্যাটারী বিস্ফোরণ একটি অহরহ ঘটনা। আর এ থেকে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। তবে কিছু বিষয় মেনে চললে এই দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

মোবাইলের বিস্ফোরণ রোধে করণীয়গুলো-

ভাল ব্রান্ডের মোবাইল ফোন ব্যবহার করুন। মোবাইল চার্জের জন্য সার্টিফায়েড চার্জার ব্যবহার করুন।

অনেকে সস্তা খোলা বাজারের পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহার করেন। পাওয়ার ব্যাংক মোবাইলের ব্যাটারি নষ্ট করে দিতে পারে। ঘটাতে পারে বিস্ফোরণ।

অনেকেই ঘুমাতে যাওয়ার আগে মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখেন আর সকালে খোলেন। এ বিষয়টি বেশ বিপজ্জনক। অতিরিক্ত চার্জ দেয়া মোবাইলের জন্য ক্ষতিকর।

দীর্ঘ সময় ধরে ফোনকে রোদে রাখলে ব্যাটারি ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল থাকে। বিশেষ করে গ্রীষ্মপ্রধান দেশে রোদে মোবাইল ফেলে রাখা বিপজ্জনক।

এছাড়া মোবাইল ব্যবহার করতে করতে ব্যাটারী একটু ফুলে গেলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাটারী চেঞ্জ করা দরকার।

কপিরাইট আইনের ফাঁদে গুগল ও ইউটিউব
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ইউটিউব ও গুগলে কন্টেন্ট নিয়ে বিপাকে রয়েছে ইউটিউবারবা। কপিরাইট আইন পাসের পক্ষে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্টে ভোট হয়েছে। এতে আইনটির পক্ষে ভোট পড়েছে বেশি। তবে এ আইন পাসে বিরোধিতায় রয়েছে গুগল ও ইউটিউব।


এই বিতর্কিত আইনটি পাস করার পক্ষে ভোট দিয়েছেন ইউরোপিয়ান সংসদের ৩৪৮ জন সংসদ সদস্য, আর এর বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন ২৭৮ জন।

কেন বিরোধিতা করা হচ্ছে?

নতুন এ নীতিমালায় (বিতর্কিত অনুচ্ছেদ ১৩সহ) অনুমতি ছাড়া কপিরাইট আইন ভঙ্গ করে কোনো কিছু ইন্টারনেটে প্রকাশ করা হলে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো তার দায়ভার নেবে। ফলে এসব প্রতিষ্ঠানের ওপর দায়-দায়িত্ব থাকছে।

জানা গেছে, মিম ও জিআইএফ শেয়ার করা এই নতুন আইনের অন্তর্ভুক্ত হবে না।

অনেক সঙ্গীতশিল্পী, চিত্র ও কারুশিল্পী মনে করেন এই নিয়ম বাস্তবায়ন হলে শিল্পীদের আর্থিক মূল্যায়ন সঠিকভাবে হবে।

এদিকে আবার অন্য অনেকেই মনে করেন এর ফলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের তৈরি করা কাজ, যেগুলোকে ইউজার-জেনারেটেড কন্টেন্ট বলা হয় যা ধ্বংসের মুখে পড়বে।

কপিরাইট কী?

কপিরাইট হলো একজন ব্যক্তির আইনি অধিকার, যা ওই ব্যক্তির তৈরি করা কোনো কাজ কোথায় এবং কীভাবে ব্যবহার হবে তার সুরক্ষা নিশ্চিত করে।

তবে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর দাবি, বর্তমান আইনের অধীনে শিল্পীদের ন্যায্য সম্মানীই দেয়া হচ্ছে।

এ নিয়ে গুগল বলেছে, এই আইন `ইউরোপের ডিজিটাল ও সৃজনশীল শিল্পকে ক্ষতিগ্রস্ত` করবে।

কী নিয়ে বিতর্ক?

আইনটির দুটি ধারা নিয়ে সবচেয়ে বেশি বিতর্ক তৈরি হচ্ছে, সেগুলো অনুচ্ছেদ ১১ ও অনুচ্ছেদ ১৩ হিসেবে পরিচিত।

অনুচ্ছেদ ১১ অনুযায়ী, যে কোনো নিউজ ওয়েবসাইটের লিঙ্ক ব্যবহার করতে সার্চ ইঞ্জিন এবং নিউজ অ্যাগ্রিগেট প্ল্যাটফর্মগুলোকে অর্থ দিতে হবে।

অনুচ্ছেদ ১৩ অনুযায়ী, কপিরাইট লাইসেন্স ছাড়া যে কোনো কিছু পোস্ট করলে বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে দায়বদ্ধ করা হবে। কপিরাইট করা কাজ ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও আরোপিত হবে কড়াকড়ি। এরই মধ্যে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো কপিরাইটসহ পোস্ট করা গান এবং ভিডিও সরিয়ে নিয়েছে।

গুগল ডুডলে মহান স্বাধীনতা দিবস
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ২৬শে মার্চ, বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবস আজ। এ উপলক্ষে বিশেষ ডুডল তৈরি করেছে বিশ্বের জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। সোমবার দিবাগত রাত ১২টার পর থেকেই সার্চ ইঞ্জিন গুগল এই ডুডলটি চালু করেছে।

ছবিতে তিন জন মাঝি তিনটি নৌকা বাইছে। এর মধ্যে দু’টি নৌকায় মাঝির সঙ্গে বিভিন্ন পণ্য ও অপর নৌকাটিতে কেবল একজন মাঝিকে দেখা যায়।

এতে মার্ক করলে লেখা উঠছে ‘বাংলাদেশ ইন্ডিপেন্ডেন্স ডে ২০১৯’। আর তাতে ক্লিক করলেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসের ইতিহাস এবং এ সম্পর্কিত ওয়েবসাইটগুলো দেখাবে গুগল।

উল্লেখ্য, বিশেষ কোনো দিন, বিশেষ কোনো ব্যক্তি কিংবা আবিষ্কার নিয়ে সার্চ বক্সের ওপরে নিজেদের লোগোর পরিবর্তে এর সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নকশার যে লোগো তৈরি করে গুগল, তাকেই বলা হয় ডুডল। তারই ধারাবাহিকতায় আজ বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবসে দৃষ্টিনন্দন ডুডল প্রকাশ করেছে জনপ্রিয় এই সার্চ ইঞ্জিন (গুগল)।

জিমেইলে `পাসওয়ার্ডযুক্ত ই-মেইল` পাঠাবেন যেভাবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : গত বছর কনফিডেনসিয়াল মোড চালু করেছে জিমেইল। এই ফিচারের সাহায্যে সুরক্ষিত মেইল পাঠানো সম্ভব। অর্থাৎ কনফিডেনসিয়াল মোড ব্যবহার করে গ্রাহকরা পাসওয়ার্ডযুক্ত ইমেইল পাঠাতে পারেন।

এই মেইল পাঠানোর সময় একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে দেবেন প্রেরক। প্রাপককে সেই মেইল ওপেন করতে হলে পাসওয়ার্ডটি জানতে হবে। তা না হলে কোনোভাবেই তিনি সেটা ওপেন করতে পারবেন না।

অর্থাৎ কনফিডেনসিয়াল মোড হলো সুরক্ষিত উপায়ে ইমেইল পাঠানোর পদ্ধতি যা তৃতীয় কারও পক্ষে ওপেন করা সম্ভব নয়। চলুন দেখে নেয়া যাক কনফিডেনসিয়াল মোড ব্যবহার করে কিভাবে ইমেইল পাঠাতে হয়-
১। প্রথমে আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করুন

২। ওপরের বাম পাশে কম্পোজ অপশনে ক্লিক করুন

৩। কম্পোজ উইন্ডোতে প্রাপকের মেইল অ্যাড্রেস যুক্ত করুন এবং ইমেইল বার্তা লিখুন

৪। এবার যেখানে সেন্ড অপশনটি আছে তার একেবারে ডানপাশে ঘড়ি চিহ্নযুক্ত একটি অপশনে ক্লিক করুন এবং সেখানে ‘কনফার্ম বাই এসএমএস পাসকোড’ অপশনে সিলেক্ট করুন

৫। এক্সপাইরেশন লিমিট (কখন এই মেইলটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে) নির্দিষ্ট করুন

৬। এ পর্যায়ে যাকে ইমেইল করছেন তার কোন ফোন নম্বরে পাসওয়ার্ডটি পাঠাবেন তা দিতে হবে

৭। এরপর প্রাপক আপনার দেয়া পাসওয়ার্ডযুক্ত একটি মেসেজ পাবে। তখন তিনি জিমেইলের ইনবক্সে গিয়ে এই পাসওয়ার্ডটি প্রবেশ করানোর মাধ্যমে আপনার মেইলটি ওপেন করতে পারবেন।

৮। যখন প্রাপক তার মোবাইল ফোনে মেসেজের মাধ্যমে আসা কোড দেবেন কেবল তখনই তিনি মেইলটি খুলতে সক্ষম হবেন

তবে এ পদ্ধতিতে মোবাইলের ক্ষেত্রে আপনাকে জিমেইলের আপডেটেড ভার্সন ব্যবহার করতে হবে। জিমেইল অ্যাপের সর্বশেষ ভার্সন আছে এমন আইফোন বা অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন লাগবে।


   Page 1 of 7
     তথ্য-প্রযুক্তি
হুয়াওয়ে ফোনে আপডেট দেবে না গুগল, থাকবে না ইউটিউব
.............................................................................................
ফেসবুক ভেঙে ফেললে `বাজার দখলের প্রতিযোগিতা বাড়বে`
.............................................................................................
ল্যাপটপ আনছে রেডমি
.............................................................................................
এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান সহ-প্রতিষ্ঠাতা
.............................................................................................
বড় ডিসপ্লের সঙ্গে থাকছে শক্তিশালী ব্যাটারি ও মেমোরি
.............................................................................................
চালক ছাড়াই চলবে যাত্রীবাহী বিমান
.............................................................................................
কিভাবে স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমাবেন
.............................................................................................
ফোনের আয়ু বাড়াতে...
.............................................................................................
এবার ভারতে বন্ধ হলো টিকটক
.............................................................................................
ব্ল্যাক হোল আসলে দেখতে কেমন?
.............................................................................................
২১ ও ২২ এপ্রিল ‘বিপিও সামিট ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হবে
.............................................................................................
অন্ধকারে ঝকঝকে ছবি তোলার মোবাইল ফোন
.............................................................................................
মোবাইল ফোনের বিস্ফোরণ ঠেকাতে করনীয়
.............................................................................................
কপিরাইট আইনের ফাঁদে গুগল ও ইউটিউব
.............................................................................................
গুগল ডুডলে মহান স্বাধীনতা দিবস
.............................................................................................
জিমেইলে `পাসওয়ার্ডযুক্ত ই-মেইল` পাঠাবেন যেভাবে
.............................................................................................
বাংলাদেশের জাতীয় শিশু দিবসে গুগলের ডুডল
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে হঠাৎ বন্ধ ফেসবুক
.............................................................................................
মেসেঞ্জারে ডার্ক মোড চালু করবেন যেভাবে
.............................................................................................
ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে ডার্ক মোড!
.............................................................................................
এবার দেশের বাজারে আসছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ১০ ও ১০‍ প্লাস
.............................................................................................
এবার ভাঁজযোগ্য স্মার্টফোন প্রদর্শন করলো হুয়াওয়ে
.............................................................................................
টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতার পদত্যাগ
.............................................................................................
কিছু করতে পারবে না যুক্তরাষ্ট্র: হুয়াওয়ে প্রধান
.............................................................................................
ফেসবুকে ভেরিফায়েড হলো বাংলা উইকিপিডিয়া
.............................................................................................
নতুন স্মার্ট জুতা আনল শাওমি
.............................................................................................
পাসওয়ার্ড চেকআপ সেবা আনল গুগল
.............................................................................................
যেসব ছবির কারণে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন হ্যাক হতে পারে
.............................................................................................
ম্যাসেঞ্জারে নতুন সুবিধা
.............................................................................................
চিংড়ি ভুনা
.............................................................................................
২ এপ্রিল বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লাস
.............................................................................................
হ্যাপি বার্থডে ফেসবুক!
.............................................................................................
দৈনিক মারা যান ৮ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী
.............................................................................................
পোষা প্রাণির জন্য `স্মার্ট টয়লেট`
.............................................................................................
ফোর জি ও থ্রি জি মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ
.............................................................................................
স্মার্টফোন থেকে হারিয়ে গেছে যেসব ফিচার
.............................................................................................
আপত্তিকর গানের কর্তন সাপেক্ষে ছাড়পত্র পাচ্ছে ‘বয়ফ্রেন্ড’
.............................................................................................
মিয়ানমারের কয়েকশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেছে ফেসবুক
.............................................................................................
চাঁদের অদেখা অংশে আলু ও ফুলের বীজ নিয়ে যাচ্ছে চীন
.............................................................................................
অত্যাধুনিক সব ফিচারে আসছে অপো আর১৭ প্রো
.............................................................................................
ডিএসএলআরে তোলা ছবিকে নিজেদের বলল স্যামসাং!
.............................................................................................
০১৪ নম্বর সিরিজ চালু করল বাংলালিংক
.............................................................................................
বিপিএলের ভেন্যু থেকে বাদ এম এ আজিজ স্টেডিয়াম!
.............................................................................................
চার হাজারে ফোরজি ফোন দিচ্ছে রবি
.............................................................................................
৬ মাসে ১৫০ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ
.............................................................................................
নতুন তিন ফোন আনছে নকিয়া
.............................................................................................
অ্যাস্ট্রোফটোগ্রাফি নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কৃত্রিম সূর্য তৈরি করল চীন!
.............................................................................................
অসুখী হতাশা বাড়াচ্ছে স্মার্টফোন
.............................................................................................
দেশের বাজারে আসছে অপো এ৭
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]