| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ভারতে করোনায় আক্রান্ত ১,৬১৬ জন, মৃত্যু বেড়ে ৩৫   * রমজান উপলক্ষে টিসিবির তিন পণ্য বিক্রি শুরু   * শরীয়তপু‌রে আইসোলেশনে থাকা যুব‌কের মৃত্যু   * যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ৭৭০ মৃত্যুর রেকর্ড, ছাড়াল চীনকেও   * শেষ হলো পদ্মাসেতুর সবক’টি পিলার বসানোর কাজ   * আক্রান্ত ছাড়িয়েছে সাড়ে আট লাখ, মৃত ৪২ হাজার   * অর্থনৈতিক মন্দায় পড়বে উন্নয়নশীল দেশগুলো: জাতিসংঘ   * মৃত শ্বশুরকে দেখতে যাওয়ার পথে জামাই-মেয়েসহ নিহত ৩   * নেই পিপিই, হেলমেট-রেইনকোটেই লড়ছেন ভারতীয় চিকিৎসকরা   * ১৭০০ দুস্থ পরিবারে খাদ্যসামগ্রী দিল বসুন্ধরা গ্রুপ  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
মোবাইল ফোন জীবাণুমুক্ত রাখতে কি করবেন?

অনলাইন ডেস্ক : শুধু নিঃশ্বাস বা সংস্পর্শে নয়, করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে আপনার মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও। এমনই আতঙ্কের কথা শুনিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। স্ট্যান্ডফোর্ডের সমীক্ষায় জানা গেছে টয়লেট সিটের থেকেও বেশি জীবাণু থাকে মোবাইল ফোনে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, যে কোনো রকম ধাতু, কাচ, প্লাস্টিকে করোনাভাইরাস ৯ দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

কীভাবে সুরক্ষিত রাখবেন মোবাইল ফোনটি

* প্রথমত ফোন সুইচ অফ করে ব্যাক কভার খুলে রাখুন।

* ফোন ধরার আগে এবং পরে হাত ধুয়ে পরিষ্কার করে শুকিয়ে নিন।

* অথবা বারবার স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন।

* অপনার ফোনে স্ক্রিন গার্ড আছে কিনা সেটা নিশ্চিত করুন।

* মোবাইল ফোন পরিষ্কারের জন্য স্পিরিট মাইক্রোফাইবার কাপড়ে দিয়ে পরিষ্কার করুন।

* শুধু মোবাইলের স্ক্রিনই নয় মোবাইলের বাইরের পেছনের দিকটিও একইভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

* ইয়ারবাড দিয়ে চার্জিং পোর্ট ও পেছনের স্পিকার ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে।

* প্লাস্টিক এবং সিলিকনের ব্যাককভার ফোনে থাকলে সেটি খুলে নিয়ে গরম পানিতে স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করুন।

* কথা বলার জন্য যতটা সম্ভব ইয়ারফোন বা হেডফোন ব্যবহার করুন

* ফোন এবং কভার পরিষ্কার হয়ে গেলে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর মোবাইল ফোনের সুইচ অন করুন।

মোবাইল ফোন জীবাণুমুক্ত রাখতে কি করবেন?
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শুধু নিঃশ্বাস বা সংস্পর্শে নয়, করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে আপনার মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও। এমনই আতঙ্কের কথা শুনিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। স্ট্যান্ডফোর্ডের সমীক্ষায় জানা গেছে টয়লেট সিটের থেকেও বেশি জীবাণু থাকে মোবাইল ফোনে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, যে কোনো রকম ধাতু, কাচ, প্লাস্টিকে করোনাভাইরাস ৯ দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

কীভাবে সুরক্ষিত রাখবেন মোবাইল ফোনটি

* প্রথমত ফোন সুইচ অফ করে ব্যাক কভার খুলে রাখুন।

* ফোন ধরার আগে এবং পরে হাত ধুয়ে পরিষ্কার করে শুকিয়ে নিন।

* অথবা বারবার স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন।

* অপনার ফোনে স্ক্রিন গার্ড আছে কিনা সেটা নিশ্চিত করুন।

* মোবাইল ফোন পরিষ্কারের জন্য স্পিরিট মাইক্রোফাইবার কাপড়ে দিয়ে পরিষ্কার করুন।

* শুধু মোবাইলের স্ক্রিনই নয় মোবাইলের বাইরের পেছনের দিকটিও একইভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

* ইয়ারবাড দিয়ে চার্জিং পোর্ট ও পেছনের স্পিকার ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে।

* প্লাস্টিক এবং সিলিকনের ব্যাককভার ফোনে থাকলে সেটি খুলে নিয়ে গরম পানিতে স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করুন।

* কথা বলার জন্য যতটা সম্ভব ইয়ারফোন বা হেডফোন ব্যবহার করুন

* ফোন এবং কভার পরিষ্কার হয়ে গেলে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর মোবাইল ফোনের সুইচ অন করুন।

২৪ ঘণ্টা পর মুছে যাবে টুইট!
                                  

অনলাইন ডেস্ক:
ফ্লিটস (fleets) নামের নতুন একটি ফিচার নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে টুইটার। এর মাধ্যমে এমন টুইট করা যাবে যা ২৪ ঘণ্টা পর নিজে থেকেই মুছে যাবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধারাটি প্রথমে জনপ্রিয় করে তুলেছিল স্ন্যাপচ্যাট। নতুন এ ফিচার যোগ হলে টুইটার ব্যবহারকারীরা এমন বিষয়ে টুইট করতে পারবেন যা তারা তাদের ওয়ালে স্থায়ীভাবে দেখতে চান না। এসব টুইট অন্যরা রিটুইট করতে পারবে না, পাবলিকলি লাইক কিংবা কমেন্টও করতে পারবে না। সূত্র: ভ্যারাইটি

 
পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাবে লিপইয়ার!
                                  

২৯ ফেব্রুয়ারি কারো জন্ম বা বিয়ের মতো ঘটনা ঘটলে প্রায়শই তাদের বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। জন্মবার্ষিকী কিংবা বিবাহবার্ষিকীর জন্য এদের অপেক্ষা করতে হয় চার বছর। তবে ভবিষ্যতে এই ধরনের বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে পড়তে হবে না আর কাউকে। কারণ ২৯ ফেব্রুয়ারি নামে আর কিছু থাকবেই না পৃথিবীতে! অর্থাৎ পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাবে লিপইয়ার। যদিও তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরো ৪০ লাখ বছর।


জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পৃথিবীর নিজ অক্ষের চার দিকে ঘূর্ণনের গতি উত্তরোত্তর কমে আসছে। চাঁদ আমাদের ছেড়ে একটু একটু করে দূরে চলে যাচ্ছে। এর ফলে, আমাদের ওপর চাঁদের টান (‘টাইডাল ফ্রিকশন’) কমে যাচ্ছে। তাই একটু একটু করে বেড়ে যাচ্ছে দিনের আয়ু। প্রতি শতাব্দীতে ১৪ মিলিসেকেন্ড করে! পরিণতি হিসেবে পৃথিবী থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি দিনটি হারিয়ে যাবে। নাসার গর্ডার্ড স্পেস ফ্লাইট সেন্টারের গবেষণা অনুযায়ী, ৪০ লাখ বছর পরে ২৯ ফেব্রুয়ারি দিনটা আর থাকবে না পৃথিবীতে। থাকবে না চার বছর পর পর তার ফিরে আসার কোনো সম্ভাবনাও।

করোনা আতঙ্কে কর্মীদের বাসায় বসে কাজ করতে বললো টুইটার
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট:
করোনা আতঙ্কে বিশ্ব কাঁপছে। ফলে বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো সাময়িক বন্ধের সিদ্ধান্ত নিলেও মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কর্মীদের জন্য নিয়েছে নতুন পদক্ষেপ। কর্মীদের বাসায় থেকেই কাজ করছে বলছে কর্তৃপক্ষ। এক ব্লগ পোস্টে টুইটার এ বিষয়টি জানিয়েছে। পোস্টে উল্লেখ করা হয়েছে, কিছুদিন কর্মীদের বাসা থেকে কাজ করার সহজ উপায় বের করতে কাজ করছে টুইটার। টুইটারের মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান জেনিফার ক্রিস্টি বলেছেন, আমাদের চারপাশে করোনা ভাইরাসের প্রভাব কমিয়ে আনাই আমাদের লক্ষ্য।

এদিকে ফেসবুক এবং গুগলসহ অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি সংস্থা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তাদের অনেক সম্মেলন স্থগিত ও বাতিল করেছে। আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনে গুগলের ইউরোপীয় সদর দফতরের কর্মীরা মঙ্গলবার (০৩ মার্চ) বাসা থেকে পরীক্ষামূলকভাবে কাজ করবেন বলে জানানো হয়েছে। তবে সংস্থাটির আট হাজার কর্মী বুধবার আবারো অফিসে ফিরে আসবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

 
ফেসবুকে ভয়েস দিলেই টাকা
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মধ্যে ফেসবুক অন্যতম। ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিষ্ঠানটি নতুন নতুন অ্যাপ যোগ করছে। তারই জের ধরে গুগল, অ্যামাজন, মাইক্রোসফট ও অ্যাপলের মতো ভয়েস রিকগনিশন বা গলার স্বর চিহ্নিতকরণ অ্যাপ নিয়ে আসছে ফেসবুক। এ প্রযুক্তির উন্নয়নে কিছু ব্যবহারকারীকে টাকাও দেবে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টটি। বৃহস্পতিবার ফেসবুক এ ঘোষণা দিয়ে বলেছে, ফেসবুক তার ভয়েস রিকগনিশন প্রযুক্তির উন্নয়নে কিছু ব্যবহারকারীকে টাকা দেবে। এজন্য প্রতিষ্ঠানটি তার বাজার গবেষণাসংক্রান্ত বিভাগের ‘প্রোনানসিশেন’ নামে এ প্রোগ্রাম চালু করেছে। বলা হয়েছে, ফেসবুকের যে কোনো ব্যবহারকারী অ্যাপে তার বন্ধু তালিকার কোনো বন্ধুর নাম ধরে ডেকে সেটি রেকর্ড করতে পারবেন।

সর্বোচ্চ ১০ জন বন্ধুর নাম ধরে ডেকে রেকর্ড করা যাবে। প্রতি জনের জন্য দু’বার রেকর্ড করা যাবে। ফেসবুক বলছে, প্রতিবার ভয়েস রেকর্ডের মাধ্যমে ভিউপয়েন্ট অ্যাপে ২০০ পয়েন্ট পাওয়া যাবে। এভাবে ১ হাজার পয়েন্ট হলে পেপালের মাধ্যেমে ৫ ডলার ক্যাশ করা যাবে। তবে একজন সর্বোচ্চ ৫ ডলার আয় করতে পারবে। তবে ফেসবুকে এ অ্যাপটি এখনই বাংলাদেশিদের জন্য আসছে না। আপাতত যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীরাই সুযোগটি পাচ্ছেন।

ঘরে বসেই পুলিশের সেবা নিন
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দেশের মানুষের জানমাল রক্ষা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ পুলিশ। এরইমধ্যে গণমুখী পুলিশি সেবা নিশ্চিত করতে বেশ কিছু ই-সেবা চালু করে সংস্থাটি। বাংলাদেশ পুলিশ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন, অপরাধীদের গ্রেপ্তার, মামলা গ্রহণ, বিচারে সহায়তা, সড়ক শৃঙ্খলা ও ভিআইপি নিরাপত্তা-প্রটোকলসহ অনেক দায়িত্ব পালন করে। করে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কাজও।

বাংলাদেশ পুলিশ জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জনগণকে সচেতন করে তোলা, ট্রাফিক আইন মেনে চলতে শিক্ষার্থীসহ অন্যদের আগ্রহী করে তোলা, হেলমেট পরে মোটরসাইকেলে ওঠা – ইত্যাদি বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে কার্যক্রম গ্রহণ করে থাকে। আজকের প্রতিবেদনে থাকছে, ঘরেই বসে জনগণ যেসব সেবাগুলো পুলিশ থেকে পাবে। চলুন জেনে নেই :

ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস ৯৯৯

২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর এই সেবা চালু হয়। পুলিশের অধীনে পরিচালিত একটি জরুরি কল সেন্টার হলো ৯৯৯ জরুরি সেবা। এখান থেকে শুধু পুলিশ নয়, জরুরি প্রয়োজনে ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সেবাও পাওয়া যায়। দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে যে কেউ এই সেবার জন্য ফোন করতে পারেন। সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘণ্টা চালু রয়েছে এ সেবা।

মোবাইল অ্যাপ

‘বিডি পুলিশ হেল্পলাইন’ অ্যাপটি গতবছর চালু করা হয়। সেখানে নাম প্রকাশ না করেও অভিযোগ বা মতামত জানানো যায়। এছাড়া সেখানে সব থানার সঙ্গে যোগাযোগের নম্বরও আছে।

হ্যালো সিটি অ্যাপ

‘সিটি’ মানে হচ্ছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম’ ইউনিট। তাদেরকে তথ্য দেয়ার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ চালু করা হয়েছে। এই অ্যাপ সম্পর্কে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ বলছে, ‘জঙ্গিবাদ/উগ্রবাদ, সাইবার ক্রাইম, বোমা/ বিস্ফোরক/ অস্ত্র/মাদক, আন্তঃদেশীয় অপরাধ/জালিয়াতি, মোস্ট ওয়ান্টেড ব্যক্তি সর্ম্পকে নিজের পরিচয় গোপন রেখে পুলিশকে তথ্য প্রদান করা যাবে।’

পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ

পুলিশ সদরদপ্তরে স্থাপিত ‘আইজিপি’স কমপ্লেন সেল’ ২৪ ঘণ্টাই চালু থাকে। পুলিশ সদস্যের যে কোনো অপেশাদার ও অনৈতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে এই সেলকে জানানো যায়। সরাসরি, কুরিয়ার সার্ভিস কিংবা ডাকযোগে তথ্য জানানো যায়। এছাড়া ০১৭৬৯-৬৯৩৫৩৫ ও ০১৭৬৯-৬৯৩৫৩৬ মোবাইল নম্বরে এবং complain@police.gov.bd এই ই-মেলেও অভিযোগ জানানো যায়।

ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার

নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুদের আশ্রয় বা থাকার জন্য ঢাকার তেজগাঁও থানা চত্বরে এই সেন্টারটি স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি ১০টি বেসরকারি সংস্থা সেখানে আইনি সহায়তাসহ অন্যান্য কাজ করছে।

অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে ‘পুলিশ ক্লিয়ারেন্স’ সার্টিফিকেট দেয়া শুরু করেছে পুলিশ। ঐ সময় পুলিশ সদর দপ্তরে থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, এখন থেকে জনগণ ঘরে বসেই অনলাইন ‘পুলিশ ক্লিয়ারেন্স’ সেবা পাবেন। ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করে পরে তা সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে সংগ্রহ করতে হবে। ফরম পেতে যেতে হবে এই ঠিকানায়- http://pcc.police.gov.bd/en/।

প্রবাসী সহায়তা সেল

বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকরা দেশে কোনো সমস্যার সমাধানে পুলিশের সাহায্য চাইতে পারেন। এ জন্য পুলিশ সদরদপ্তরে ‘প্রবাসী সহায়তা সেল’ চালু আছে। ফোনে (+৮৮ ০১৭৬৯ ৬৯০০১৯) কিংবা ইমেলে expatriatehelp@police.gov.bd যোগাযোগ করা যাবে।

 
বন্ধ হয়ে পড়েছে স্যামসাংয়ের মোবাইল কারখানা
                                  

এবার করোনা ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বিশ্বের নামকরা মোবাইল ব্র্যান্ড স্যামসাংয়ে। ফলে দক্ষিণ কোরিয়ার এই প্রতিষ্ঠানটির মোবাইল কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স জানিয়েছে, দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর গুমির মোবাইল ফ্যাক্টরিতে কর্মরত একজনের শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। তাই শনিবার থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে দায়েগু শহরের এক চার্চ থেকে। আর এই শহরটির খুবই কাছে গুমি। বিশ্বে সব স্যামসাং ফোন তৈরির ছোট অংশ এই অঞ্চল। স্যামসাং ভিয়েতনাম এবং ভারতে বেশিরভাগ পণ্য উৎপাদন করে। এক বিবৃতিতে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স জানিয়েছে, সংক্রামিত কর্মচারীর সংস্পর্শে আসা সহকর্মীদেরও কোয়ারেন্টাইন রাখা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের সম্ভাব্য সংক্রমণের জন্য পরীক্ষার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এই ঘটনা তাদের মোবাইল উৎপাদনে কোনো প্রভাব ফেলবে না। এদিকে দক্ষিণ কোরিয়া জানিয়েছে, দেশটিতে শনিবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে ৪শ’ ৩৩ জন হয়েছে। উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী কিম গ্যাং লিপ বলেছেন, করোনা ভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। দায়েগু শহর এবং আশেপাশ যেখানে হাসপাতালটি অবস্থিত, সে এলাকাকে বিশেষ কেয়ার অঞ্চল ঘোষণা করা হয়েছে।

 
স্মার্টফোন চার্জ হবে ২ মিনিটেই
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট:

মাত্র ১০ মিনিটেই বৈদ্যুতিক গাড়ি আর ২ মিনিটেই স্মার্টফোন পুরোপুরি চার্জ হয়ে যাবে আর সেটা সারাদিন চলে যাবে! সেই অসম্ভবকে দ্রুতই সম্ভব হবে বলে মনে করছেন গবেষকেরা।
সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের গবেষকেরা পরবর্তী প্রজন্মের উপযোগী শক্তি সংরক্ষণ (এনার্জি স্টোরেজ) প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন, যার মাধ্যমে দ্রুতগতিতে চার্জ দিয়ে তা দীর্ঘক্ষণ ব্যবহার করা যাবে। আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গবেষকেদের উদ্ভাবিত এ প্রযুক্তি প্রমাণের ধারণার পর্যায়ে থাকা অবস্থায় দারুণ সম্ভাবনাময় বলে মনে করা হচ্ছে। বৈদ্যুতিক যানবাহন, ফোন, পরিধানযোগ্য প্রযুক্তিসহ বেশ কয়েকটি ব্যবহারিক ক্ষেত্রে প্রয়োগের সম্ভাবনা রয়েছে। গবেষণা সংক্রান্ত নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে ‘নেচার এনার্জি’ শীর্ষক সাময়িকীতে। এতে বলা হয়েছে, উচ্চশক্তির ও দ্রুতগতির সুপার ক্যাপাসিটরের যে সমস্যা থাকে, নতুন প্রযুক্তিতে তা সমাধান করা গেছে। এতে অল্প জায়গার ভেতর বেশি শক্তি ধরে রাখা সম্ভব ছিল না। গবেষণা প্রবন্ধের লেখক ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের গবেষক ঝুয়াংনান লি বলেছেন, আমাদের নতুন সুপার ক্যাপাসিটর পরবর্তী প্রজন্মের শক্তি সংরক্ষণ প্রযুক্তির হিসেবে বর্তমান ব্যাটারি প্রযুক্তির প্রতিস্থাপন বা এর পাশাপাশি ব্যবহার করা হতে পারে। এতে ব্যবহারকারী আরও শক্তি সঙ্গে রাখতে পারবেন।

লি আরও বলেন, তারা এমন উপকরণ নকশা করেছেন, যা তাদের সুপার ক্যাপাসিটরকে একটি উচ্চ শক্তি ঘনত্ব দেয়। এটি দ্রুত চার্জ হওয়া ও চার্জ ছেড়ে দেয়ার ক্ষেত্রে কার্যকর হবে। এ ছাড়া দীর্ঘ সময় চার্জ ধরে রাখতেও পারবে। সাধারণত, এখনকার ব্যাটারি এসব বৈশিষ্ট্যের কোনো একটি পাওয়া যায়। কিন্তু নতুন সুপার ক্যাপাসিটরে উভয় সুবিধাই পাওয়া যায় বলে এটি গুরুত্বপূর্ণ একটি উদ্ভাবন। এ ছাড়া পারফরম্যান্সের কোনো তারতম্য না করেই ওই সুপার ক্যাপাসিটর ১৮০ ডিগ্রি বাঁকানো যায়। এতে কোনো তরল ইলেকট্রোলাইট ব্যবহার করা হয়নি বলে বিস্ফোরণের ঝুঁকিও কম। তাই পরিধানযোগ্য প্রযুক্তিপণ্য ও ভাঁজ করা ডিভাইসে এটি ব্যবহার করা যাবে।

 
মঙ্গল ও চাঁদে যাওয়ার জন্য যাত্রী খুঁজছে নাসা!
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট:
এবার মঙ্গল ও চাঁদে পাড়ি দিতে চলেছে মহাকাশচারীরা। এর জন্য মার্কিন নাগরিকত্বের পাশাপাশি সম্পর্কিত বিষয়ে মাস্টার ডিগ্রি থাকতে হবে। মাটি থেকে ৪০০ কিলোমিটার উপরে তৈরি ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনে থাকার জন্য তৈরি থাকতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের স্পেস এজেন্সি নাসা গত মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) মহাকাশে যাত্রার অগ্রিম পদক্ষেপ তৈরি করার ঘোষণা করে দিয়েছে। আপাতত নাসার কাছে ৪৮ জন মহাকাশচারী রয়েছে। নাসার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ২০২৪ সালের মধ্যে চাঁদে প্রথম নারী ও অপর একজন মহাকাশচারীকে পাঠাতে চলেছে ৷

প্রতিভাশালী নারী ও পুরুষদের আমরা চাকরি দেব ৷ এর জন্য সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং ও স্টেমে মাস্টার ডিগ্রির সঙ্গে দু’বছরের `STEM` পিএইচডি থাকলে আরও ভাল হয় ৷ আবেদনকারীদের কাছ মেডিকেল ডিগ্রি থাকলে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে ৷ তিনি আরও জানিয়েছেন, এর পাশাপাশি আবেদনকারীর কাছে ফ্লাইয়িংয়ের দু’বছরের প্রোফেশনাল এক্সপার্টাইজ থাকতে হবে। পাইলটের জন্য কমপক্ষে ১০০০ ঘণ্টার পাইলট ইন কমান্ড টাইম থাকতে হবে।

আবেদনকারীদের দু’ঘণ্টার একটি অনলাইন টেস্ট দিতে হবে। এর জন্য নাসার তরফে ৫৩,৮০০ ডলার থেকে ৭০,০০০ ডলারের মধ্যে বেতন দেওয়া হবে। নাসার তরফে জানানো হয়েছে যে, ২০২১ সালের মধ্যে তারা যোগ্য প্রার্থী পেয়ে যাবেন ৷ এরপর দু’বছরের ট্রেনিং প্রোগ্রাম হিউস্টনে জনসন স্পেস সেন্টারে তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

 
ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২৫০ কোটি ছাড়াল
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট :

ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২৫০ কোটি ছাড়িয়েছে। ২০১৯ সালের শেষ প্রান্তিকে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২৪৫ থেকে বেড়ে ২৫০ কোটিতে পৌঁছায়। বুধবার এই ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক। খবর আইএনএসের।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা এবং আয় বেড়েছে। তবে ছয় শতাংশ কমেছে শেয়ারের মূল্য। আইএনএস জানায়, যারা রোজ ফেসবুক ব্যবহার করেন তাদের সংখ্যা ১৬২ থেকে বেড়ে ১৬৬ কোটিতে পৌঁছেছে। তবে আগের বছরে এই বৃদ্ধির হার ছিল দুই শতাংশ। আর রাজস্ব আগের চেয়ে ২৫ শতাংশ বেড়ে বর্তমানে দুই হাজার ১০৮ কোটি ডলারে পৌঁছেছে।

এতে শেয়ার প্রতি গ্রাহকরা আয় করছেন ২ দশমিক ৫৬ ডলার। কিন্তু নিট আয় মাত্র ৭ শতাংশ বেড়ে ৭৩০ কোটি ডলার হয়েছে যেখানে তার আগের বছর নিট আয় বেড়েছিল ৬১ শতাংশ। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, খুব ভালো একটি বছর আমরা পার করেছি। আমাদের ব্যবসা ও কমিউনিটি ক্রমান্বয়ে বাড়ছে।

 
অ্যাপেল`র নতুন উদ্যোগ শিশুদের স্মার্টফোনের আসক্তি দূর কর‍ার
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট :

বর্তমানে এক বিরাট সমস্যা হল শিশুদের স্মার্টফোনের আসক্তি। আর স্মার্টফোনের প্রভাব ও মারাত্মক। সম্প্রতি ভারতের চার্টার বিশ্ববিদ্যালয় তাদের একটি গবেষণায় দেখিয়েছে, স্মার্টফোনের অধিক ব্যবহারে শিশুর চোখের রেটিনা, কর্নিয়া এবং অন্যান্য অংশের ক্ষতি হবার বিপুল সম্ভবনার কথা। এছাড়াও রয়েছে আরও অনেক সমস্যা। যেমন- শিশুরা পড়াশোনায় মনোযোগ হারাচ্ছে আর খিটখিটে করে দিচ্ছে শিশুদের মেজাজ। আর তার মোকাবিলার জন্যই বিখ্যাত মোবাইল নির্মাতা সংস্থা অ্যাপেল নিতে চলেছে নতুন উদ্যোগ।

অ্যাপেলরই দুই বিনিয়োগকারী অ্যাপেলকে অনুরোধ জানাচ্ছেন শিশুদের স্মার্টফোনের আসক্তি থেকে রক্ষা করতে। আর তাই অ্যাপেল নিয়ে আসতে চলেছে এমন সফ্টওয়্যার যা ঠিক করে দেবে শিশুদের স্মার্টফোন ব্যবহারের সময়সীমা। অ্যাপেল`র বিনিয়োগকারীরা ‘ডিজিটাল লক’ চালু করার জন্যও আবেদন জানিয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, কিশোর-কিশোরীরা স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে এক ধরনের আকর্ষণ বোধ করে যে, মোবাইল ফোনে মেসেজ এলে সঙ্গে সঙ্গেই তার জবাব দিতে হবে। যার ফলে আসক্তি ক্রমশ বাড়ে। তাই `ডিজিটাল লক`-এর পরিকল্পনা বেশ সাড়া ফেলেছে। লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকসের সামাজিক মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক সোনিয়া লিভিংস্টোন জানান, এই আহ্বান শুনে তিনিও খুশি হয়েছেন।
শিশু-কিশোরদের মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর অতিরিক্ত স্মার্টফোন ব্যবহার যে প্রভাব ফেলছে, তা সত্যিই বিবেচনা করার মতো বিষয়। এই উদ্যোগও তাই প্রশংসাযোগ্য।

 
মুজিববর্ষে আসছে অ্যানিমেটেড মুভি ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ : পলক
                                  

নিউজ ডেস্ক : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমরা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ অঙ্গীকার করেছি, ২০২০ সালে অর্থাৎ মুজিববর্ষে আমরা ১০০ ঘণ্টা অতিরিক্ত বেশি কাজ করে জনগণের সেবা করব। ১০০ টিরও বেশি ডিজিটাল সার্ভিস আমরা জনগণের জন্য উন্মুক্ত করব। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে প্রায় একশ মিলিয়ন মানুষ সেবা পাবে।

দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন জুনাইদ আহমেদ পলক। মুজিববর্ষ পালন উপলক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ কী কী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, সে বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আমরা একশটি উদ্যোগকে সফলভাবে সবার কাছে নিয়ে যাওয়ার জন্য ১০০টি স্টার্টআপকে বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র‍্যান্ড প্রদান করব। যেখানে ১০ লাখ থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত তাদেরকে প্রদান করা হবে। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ড আমরা চলমান রাখব।’

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি অ্যানিমেটেড মুভি বানানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, “বাংলাদেশি যারা অ্যানিমেটেররা আছেন তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজের লেখা ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ অবলম্বনে অ্যানিমেটেড মুভি তৈরি করছে। আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থীদের একটি টিম এই অ্যানিমেটেড মুভিটা বানাচ্ছে। কাজ শুরু হয়েছে। হয়তো বা আরও বেশ কিছু সময় লাগবে। এটি ৪০ থেকে ৫০ মিনিটের একটি মুভি হবে। আমরা আশা করছি, মুজিববর্ষের মধ্যেই এই চলচ্চিত্রটা আমরা উন্মোচন করতে পারব।”

তিনি বলেন, আমরা আশা করছি যে, আমরা শুধুমাত্র উৎসবের পরিবেশেই নয়, এটাকে একটি অর্থবহ বছর হিসেবে যেন পালন করতে পারি। তার জন্য এই ২০২০ সাল একদিকে যেমন বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, অপরদিকে ২০২১ সাল আমাদের বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রসঙ্গে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ এক অভিন্ন অবিচ্ছেদ্য। তিনি বাংলাদেশের মানুষের সেবা করার জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেছেন। তাই আমরা আইসিটি বিভাগ থেকে কর্মের মধ্য দিয়ে, সেবার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুকে মুজিববর্ষে স্মরণ করতে চাই। এই ২০২০ সালকে স্মরণীয় রাখতে চাই।’

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) টেকনো ৭১ উদ্ভাবিত জননিরাপত্তাবিষয়ক ‘স্বাধীন’ অ্যাপ উদ্বোধন করেছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এতে স্পন্সর করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘স্বাধীন সিকিউরিটি অ্যাপটিতে আমরা যে ফিচারগুলো দেখতে পেয়েছি, তাতে এটি অত্যন্ত সময়োপযোগী একটি উদ্যোগ বলে মনে হয়েছে। এটার মধ্যে দিয়ে একটা কমিউনিটি বিল্ডিং করতে পারব। যারাই এই অ্যাপটি ব্যবহার করবেন তারা নোটিফিকেশন পাবেন। অ্যাপটির ব্যবহারকারী সদস্য কোনো রকম বিপদে পড়লে আশপাশে দুই-এক কিলোমিটারের মধ্যে যারা আছেন, তারা নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন। কারণ যিনি বিপদগ্রস্ত হন তার পক্ষে কিন্তু অনেক সময় ফোন করাও সম্ভব হয় না।’

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আমাদের ৯৯৯-এ যে কল সেন্টার আছে, সেখানে হয়তো ফোন করতে গেলে তাৎক্ষণিকভাবে আক্রমণকারী বুঝে যেতে পারেন। ফলে তিনি ফোন করার সুযোগ না-ও পেতে পারেন। তবে বিপদের আশঙ্কা দেখলেই এই অ্যাপ ব্যবহারকারী যদি অ্যাপের সিস্টেমটা চালু করে দেন, তাহলে তার আশপাশের স্বাধীন অ্যাপ ব্যবহারকারী যারা আছেন তারা নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন। তারা ম্যাপ ধরে টু দ্য পয়েন্টে চলে আসতে পারবেন, বা অন্যদের জানাতে পারবেন। তাই এই অ্যাপটা একটি ভালো এবং কার্যকরী অ্যাপ।’

অ্যাপটিতে কিছু ফিচার যুক্ত করার পরামর্শ দিয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘এই অ্যাপের সঙ্গে লোকাল পুলিশ স্টেশনগুলো, হাসপাতাল, ফায়ার স্টেশনগুলো যুক্ত করতে হবে। যেন প্রতিষ্ঠানগুলোও যুক্ত হতে পারে। আমাদের নিকটবর্তী যে পুলিশ স্টেশন আছে সেখানেও কিন্তু একটি করে স্মার্টফোন সরকারের তরফ থেকে দেয়া আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের তরুণদের যারা উদ্ভাবনীমূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে এবং প্রযুক্তিনির্ভর সোশ্যাল প্রবলেমগুলোকে অ্যাড্রেস করে হোম গ্রোন সলিউশন নিয়ে আসছে, আইসিটি বিভাগ বরাবরই তাদের পাশে আছে এবং থাকবে।’

অ্যাপটিতে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ স্পন্সর করায় প্রতিষ্ঠানটিকে ধন্যবাদ জানান জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, ‘আমরা আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে এক হাজার পুলিশ স্টেশনকে হাইস্পিড ব্রডব্যান্ড ফিক্সড কানেকটিভিটি দিয়েছি। টেকনো ৭১ উদ্বাবিত জননিরাপত্তা বিষয়ক স্বাধীন অ্যাপ ইশতেয়াক হাসান সুমন বানিয়েছে এবং স্পন্সর হিসেবে আছে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ। এজন্য এই গ্রুপটিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এই স্বাধীন অ্যাপটি তাদের ডেভেলপার টিমকে নিয়ে আরও নতুন নতুন ফিচার সংযুক্ত করবে বলে আশা করছি।’

‘এই অ্যাপটি তৈরি করার জন্য প্রাইভেট সেক্টরের ব্যবসায়ীরা সহযোগিতা করেছেন। দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ এখানে এগিয়ে এসেছেন। আমি আশা করব, আমাদের তরুণ উদ্ভাবকদের সমাজের এই ধরনের কল্যাণমূলক কাজ, প্রযুক্তিনির্ভর কাজে লাগাতে প্রতিষ্ঠানগুলো এগিয়ে আসবে। যে উদ্ভাবনগুলো আছে সেগুলোতে শুধু সরকারি নয় বেসরকারি খাত, সফল ব্যবসায়ী যারা আছেন তারাও এঞ্জেল ইনভেস্টর হিসেবে এগিয়ে আসবেন, বিনিয়োগ করবেন-সেটাই আমাদের আশা থাকবে’-যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

 
দেশের সকল মানুষকেই আমরা অনলাইনে আনবো: জয়
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

রোববার (১২ জানুয়ারি) সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন।

সজীব ওয়াজেদ বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশে সবার দাবি সব জায়গায় ওয়াইফাই জোন করে দেওয়ার। বিশেষ করে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের। সে কারণেই আমরা এই প্রকল্প হাতে নিয়েছিলাম। ডিজিটাল বাংলাদেশের যাত্রা যখন শুরু করি, তখন অনলাইন তো দূরের কথা, ইন্টারনেট কানেকশনেরই অভাব ছিল। মাত্র ১ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট সুবিধা পেত। এখন সেটা প্রায় ৬০ শতাংশে চলে এসেছে। আমরা গত ১০ বছরে ১০ কোটির বেশি মানুষকে অনলাইনে এনেছি।’

এদিন দেশের সব সরকারি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় ও ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের আওতাধীন সাতটি কলেজে ওয়াইফাই সংযোগ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন জয়।

তিনি বলেন, ‘আমাদের তরুণদের দাবি, সব জায়গা তাদের ওয়াইফাই করে দেওয়া। সেটা কিন্তু আমাদের আওয়ামী লীগ সরকার করে যাচ্ছে। এই প্রকল্প হলো সেটারই অংশ। এই কাজ চলমান থাকবে। সারাদেশেই আমরা ইন্টারনেট আনছি, ইউনিয়ন পর্যন্ত আমরা ফাইবার নিয়ে যাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, ‘আমার স্বপ্ন হচ্ছে দেশের সকল ১৬ কোটি মানুষকেই আমরা অনলাইনে আনবো। এটা হচ্ছে আমাদের ওয়াদা।’

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, সচিব নূর-উর-রহমানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে ডাক ও টেলিযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার দায়িত্ব গ্রহণের পর ‘ইনস্টলেশন অব অপটিক্যাল ফাইভার ক্যাবল নেটওয়ার্ক অ্যাট গভর্মেন্ট কলেজ, ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’ শীর্ষক প্রকল্পটি গৃহীত হয়। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন বিটিসিএল প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ৫৮৭টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে ব্রডব্যান্ড (উচ্চগতি) ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। পর্যায়ক্রমে বেসরকারি কলেজ ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং এরপর স্কুলসহ অন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও ওয়াইফাই চালু করা হবে।

প্রথম এক বছর সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ১০ এমবিপিএস বা প্রয়োজনমতো বিনামূল্যে ব্যান্ডউইথ সরবরাহ করা হবে। চলতি বছরের জুনের মধ্যে প্রকল্পটির বাস্তবায়ন শেষ হবে। প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৫ কোটি টাকা।

৫৮৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৪৩, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩৫, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০৭, বরিশাল বিভাগে ৪৫, খুলনা বিভাগে ৮৩, রাজশাহী বিভাগে ৮৫, রংপুর বিভাগে ৫৬ ও সিলেট বিভাগের ৩৩টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 
সূর্যগ্রহণ: যা মানবেন যা মানবেন না
                                  

নিউজ ডেস্ক

বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ শুরু হয়েছে আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটা থেকে। এটি বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ। বিজ্ঞানীরা এর নাম দিয়েছেন ‘রিং অব ফায়ার’। পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণে চাঁদ সূর্যকে পুরোপুরি ঢেকে ফেলে। তবে বলয়গ্রাসের সময় চাঁদ সূর্যকে পুরোপুরি ঢাকতে পারে না। এ সময় সূর্যের চারদিকে একটি বলয় বা চুড়ির মতো দেখা যায়। তাই একে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ বলে। মহাজাগতিক এ ঘটনা ঘিরে যুগ যুগ ধরে নানা কথা রটেছে। তবে এখনকার বিজ্ঞান অনেক কুসংস্কার ভেঙে দিয়েছে।


বিবর্তনের শুরু থেকে পৃথিবী জুড়ে এই সূর্য ও চন্দ্রগ্রহণ নিয়ে রয়েছে হাজারো জনশ্রুতি, কল্পকাহিনি ও কুসংস্কার। আমাদের দেশে অনেকে বলেন, গর্ভাবস্থায় কোনো নারী সূর্য অথবা চন্দ্রগ্রহণের সময় যদি কিছু কাটাকাটি করেন তাহলে গর্ভের সন্তানের নাকি অঙ্গহানি হয়। আসলে এগুলোর সবই এক শ ভাগ কুসংস্কার। আসলে প্রকৃতির এক অনন্য, অনবদ্য ও খুবই স্বাভাবিক একটি ঘটনা হচ্ছে এই সূর্য অথবা চন্দ্রগ্রহণ। এখানে ভিত্তিহীন গল্পগাথা বা কুসংস্কারের কোনো জায়গা নেই।


পৃথিবী ও চাঁদ একটি নির্দিষ্ট নিয়মে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করছে এবং এর ফলে সূর্যের বিপরীতে পৃথিবী এবং চাঁদের অবস্থান প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে। এই পরিবর্তন হতে হতে চাঁদ, সূর্য ও পৃথিবী যখন একটি নির্দিষ্ট ফ্রেমে অবস্থান নেয় তখনই হয় সূর্য অথবা চন্দ্রগ্রহণ। ব্যাখ্যা দিতে গেলে বলা যায়—আমার মুখে যদি কেউ টর্চের আলো ফেলে আমার ছায়া পড়বে আমার পেছনে। আবার আমার পিঠে আলো ফেললে ছায়া পড়বে আমার সামনে। এভাবে চাঁদ যখন সূর্য ও পৃথিবীর মাঝখানে, সূর্য তখন চাঁদের ওপর সরাসরি আলো ফেলে। এর ফলে চাঁদের ছায়া সোজা গিয়ে পড়ে পেছনে থাকা পৃথিবীর ওপর। পৃথিবীর যে অংশে চাঁদের এই বিশাল ছায়া পড়ে, দিনের বেলাতেই সেই অংশ অন্ধকার হয়ে যায়। আর ওখান থেকে সূর্যের দিকে তাকালে মনে হবে যে সূর্য অন্ধকারে মিলিয়ে যাচ্ছে।

আসলে সূর্য অন্ধকারে মিলিয়ে যাচ্ছে না বা কোনো রাক্ষসও সূর্যকে গিলে ফেলছে না। প্রকৃতপক্ষে এখানে চাঁদ সূর্যের বরাবর আসায় সূর্য চাঁদের আড়ালে চলে যায়। চাঁদের অবস্থানের ওপর নির্ভর করে কখনো চাঁদ পুরোপুরি অথবা কখনো আংশিকভাবে সূর্যকে আড়াল করে। একেই আমরা যথাক্রমে পূর্ণ ও আংশিক সূর্যগ্রহণ বলি।

সূর্য কিন্তু চাঁদের চেয়ে ৪০০ গুন বড়। তবু আমাদের চাঁদ পুরো সূর্যকে আড়াল করে দিতে পারে। এটা সম্ভব হওয়ার একমাত্র কারণ হচ্ছে, সূর্য যেমন চাঁদ অপেক্ষা ৪০০ গুন বড় ঠিক তেমনিভাবে সূর্য পৃথিবী থেকে চাঁদের চেয়ে ৪০০ গুন দূরে অবস্থিত। এই কারণে পৃথিবী থেকে চাঁদ ও সূর্যের আকার আমাদের কাছে সমান মনে হয়। সূর্যগ্রহণের সময় সূর্য থেকে মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণ অতিবেগুনি রশ্মি ছড়ায়। তাই এই সময় খালি চোখে সূর্যের দিকে তাকালে চোখের ক্ষতি হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক।

সূর্যগ্রহণে যেসব কুসংস্কার মানবেন না:
সূর্য গিলে খাচ্ছে ড্রাগন
চৈনিক সভ্যতাসহ বেশ কিছু আমেরিকান ও ইউরোপীয় সভ্যতায় সূর্যগ্রহণের কারণ হিসেবে ড্রাগনের উল্লেখ আছে। ‘গেম অব থ্রোনস’-এর কল্যাণে পুরাকথার এই কল্পিত ড্রাগন স্থান করে নিয়েছে মানুষের কল্পনাতেও। প্রাচীন মায়া সভ্যতা ছাড়াও ‘নেটিভ’ আমেরিকানদের ‘চাকো’ জনগোষ্ঠীতে এখনো ড্রাগনের গল্প প্রচলিত।

প্রসূতি মায়েদের ভয়
সূর্যগ্রহণের সময় জন্ম নেওয়া শিশুদের ব্যাপারে দুই ধরনের গপ্প শুনতে পাওয়া যায়। এক, শিশুটি অসুস্থ হবে এবং দুই, শিশুটি চালাক হবে। তবে এ দুটি ধারণার কোনোটার ক্ষেত্রেই বিশ্বাস করার মতো যুক্তি বা তথ্য পাওয়া যায় না। প্রাচীন অ্যাজটেক সভ্যতায় বিশ্বাস করা হতো, চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদের এক টুকরো খেয়ে ফেলা হয়। ম্যাক্সিকান সংস্কৃতিতে এটা বিশ্বাসে পরিণত হয়, প্রসূতি মা সূর্যগ্রহণ দেখলে তার অনাগত সন্তানের এক টুকরো খেয়ে নেবে দেবতারা!

কাত হয়ে শুতে বারণ
সূর্যগ্রহণে অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের শান্তি নেই। সেন্ট লুইসে অবস্থিত মার্সি হাসপাতালের গাইনোকোলজিস্ট শাফিয়া ভুট্টোর মতে, সূর্যগ্রহণের সময় পাকিস্তানে মায়েদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে চিত করে শোয়ানো হতো। নইলে নাকি গর্ভের শিশু বিকলাঙ্গ হয়! বাংলাদেশেও এ ধারণার অস্তিত্ব রয়েছে। তবে গর্ভে শিশুকে রেখে চিত হয়ে শোয়াটা মায়েদের জন্য বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

ধাতব অলংকার পরা, খাবার ও টয়লেটে বারণ
ধাতব অলংকার পরতে বারণ করা আছে ‘অ্যাস্ট্রোসেইজ’ নামে এক জ্যোতির্বিদ্যা সাইটে। অন্যদিকে ম্যাক্সিকান কুসংস্কারে, গ্রহণ চলাকালীন ধাতব অলংকার পরাকে উৎসাহিত করেছে। মেক্সিকোর প্রসূতি মায়েরা পেটের কাছে ধারালো ছুরি রাখতেন যেন গ্রহণের সময় সন্তানকে ঠোঁট কাটা রোগ থেকে বাঁচানো যায়। প্রচলিত আছে, সূর্যগ্রহণের ১২ ঘণ্টা এবং চন্দ্রগ্রহণের ৯ ঘণ্টা আগে থেকে খাবার গ্রহণ করা বারণ। এ সময় যৌন সংসর্গ বারণ, নিষেধাজ্ঞা রয়েছে মলমূত্র ত্যাগেও। তবে এসব ধারণার সুস্পষ্ট কারণ উল্লেখ নেই এবং নিশ্চিত ভাবেই কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই।

যেটি মানবেন
সূর্যগ্রহণের সময় সূর্যের দিকে সরাসরি তাকানো বারণ। এটি অবশ্যই মানবেন। সত্যি বলতে, যেকোনো সময়েই সূর্যের দিকে সরাসরি তাকাতে নেই। সে হোক গ্রহণের সময়, কিংবা স্বাভাবিক সময়ে। সূর্যগ্রহণ দেখতে কাঁসার পাত্রে পানি থেকে শুরু করে ব্যবহার হয়েছে কাজে লাগে না এমন এক্স-রে প্লেটও। এখন অবশ্য বিশেষ রোদচশমা দিয়ে সূর্যগ্রহণ দেখা যায়। সূর্যগ্রহণ নিয়ে কোনো কুসংস্কারে পাত্তা দেওয়ার কোনো মানে নেই।

সূত্র: ইউএসএ টুডে, কেএসএল ডট কম।

তিন ক্যামেরার সেরা চার স্মার্টফোন
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

সেলফি তোলার জন্য চাই দারুণ ক্যামেরা। প্রিয় মুহূর্তগুলো ক্যামেরাবন্দি করতে কে না চায়। তাইতো স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলো এখন জোড় দিচ্ছে ক্যামেরার দিকে। এক ক্যামেরা থেকে তিন ক্যামেরা! বদলে যাচ্ছে স্মার্টফোনে আকারসহ আরও অনেক কিছু।
আজ আপনাকে জানাবো তিন ক্যামেরা সম্বলিত সেরা চার স্মার্টফোন -

রেডমি নোট ৮

বাজারে এসেছে রেডমি নোট ৮। এতে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের এআই-যুক্ত ক্যামেরা। এছাড়াও রয়েছে 4000mAh ব্যাটারি। ৬.৩ ইঞ্চির এই স্মার্টফোনে আছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩০এস

৬.৪ ইঞ্চির এই ফোনে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ। গ্যালাক্সি এম৩০এস এর ব্যাটারি ক্ষমতা 6000mAh। এতে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। রয়েছে ৮ ও ৫ মেগাপিক্সেলের আরও দুটি ক্যামেরা।

ভিভো ইউ১০

১৩ + ৮ + ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরা রয়েছে ভিভো ইউ১০-এ। ৬.৩৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনে রয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ। এই স্টোরেজ ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব। অ্যান্ড্রয়েড ৯-যুক্ত এই স্মার্টফোনের ব্যাটারি ক্ষমতা 5000mAh।

নোট ৮ প্রো

বিনা বাধায় গেমিংয়ের অভিজ্ঞতার জন্য নোট ৮ প্রো ভালো পছন্দ ক্রেতাদের। রয়েছে ৬.৫৩ ইঞ্চির ডিসপ্লে এবং ২.৫ডি কার্ভের গ্লাস। এতে আছে অ্যালেক্সা ফিচারও। ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের এই ফোনে রয়েছে 64 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ফেসবুকে ১০ প্রতারক থেকে সাবধান
                                  


অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে নানা প্রলোভনের ফাঁদ পেতে রেখেছে সাইবার দুর্বৃত্তরা। সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিধবা, বিপত্নীক ও একলা থাকা লোকজনকে লক্ষ্য করেই এসব ফাঁদ। রোমান্টিক সম্পর্ক তৈরিতে প্রলুব্ধ করা হচ্ছে। এদের ফাঁদে একবার পা দিলেই নানা কৌশলে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াসহ ব্ল্যাকমেলের শিকার হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়। প্রতারকেরা উপহার, অর্থসহ নানা বিষয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যোগাযোগ করে। লোভনীয় বার্তা পাঠিয়ে বা ‘ফিশিং’ করে বিভিন্ন তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

ফেসবুকে বিভিন্ন লোভনীয় লিংক বা স্ক্যাম ছড়িয়ে শিকার ধরার চেষ্টা করা হয়। ফেসবুকে সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া কয়েক ধরনের প্রতারণা সম্পর্কে সচেতন হওয়া জরুরি। ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ঠকাতে অনেক দিন ধরেই নানা রূপে এসব স্ক্যাম রয়ে গেছে। এখন আরও নতুন নতুনরূপে তা সামনে আসছে।

নাইজেরিয়ার রাজপুত্র: ইন্টারনেটজুড়েই একটি স্ক্যাম সবচেয়ে জনপ্রিয়। তা হচ্ছে নাইজেরিয়ার রাজপুত্রের নামে প্রতারণা। স্ক্যামে বলা হয়, নাইজেরিয়ার রাজপুত্র বা তাঁর পরিবারের সদস্যরা এখন বেজায় বিপদে। তাই দেশ থেকে দ্রুত অর্থ স্থানান্তর করতে চাইছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীকে ওই অর্থ গ্রহণ করার প্রলোভন দেখানো হয়। এর বিনিময়ে শুধু অর্থ আনার খরচ চাওয়া হয়। অনেকেই এ প্রলোভনে পড়ে যোগাযোগ করে ফেলেন। এখন অবশ্য এ ধরনের প্রতারকদের বিরুদ্ধে অনেকেই সচেতন হয়েছেন। এতে নাইজেরিয়ার বদলে অন্যান্য দেশের পরিচিত কোনো পরিবারের সদস্যদের নাম ভাঙিয়ে এ ধরনের প্রতারণা করা হতে পারে।


স্পেনের বন্দী: ফেসবুকে এমন লিংক পেয়ে যেতে পারেন, যাতে দাবি করা হয় স্পেনের কেউ একজন প্রচুর অর্থের মালিক বিপদে পড়েছেন। তাঁকে আটকে রাখা হয়েছে। তিনি জরুরি অর্থ পাঠাতে চান। এ জন্য সাহায্য করলে তিনি পুরো অর্থ ফেসবুক ব্যবহারকারীর কাছে পাঠিয়ে দেবেন। এরপর একটা ভাগ তিনি পাবেন। এ ছাড়াও নানা প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ পাঠাতে উৎসাহী করে তোলে সাইবার দুর্বৃত্তরা। আগে মেইলে এ ধরনের প্রতারণা বেশি হতো। তবে এখন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও এ প্রতারণা ছড়িয়েছে।

গাড়ি বিক্রি: অনলাইনে নানা ক্লাসিফায়েড বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে গাড়ি বিক্রির কথা জানাতে পারে সাইবার প্রতারকেরা। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও নানাভাবে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে প্রলোভন দেখায়। এ ক্ষেত্রে অনেক পরিচিত সাইট ব্যবহার করতে পারে। গাড়ি কিনতে আগ্রহী ক্রেতাদের লক্ষ্য করে এ ধরনের বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। এরপর অর্থ স্থানান্তরের জন্য ভুয়া মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণা করতে পারে। অনলাইনে গাড়ি কেনা ও অনলাইনে আগাম অর্থ পাঠানোর আগে সতর্ক করেন গবেষকেরা।

ভুয়া চাকরি: ফেসবুকে অনেক বড় প্রতিষ্ঠানের চাকরির বিজ্ঞাপন দেখে রোমাঞ্চিত হবেন না। চাকরিতে আবেদন করার আগে এবং কোনো সাক্ষাৎকারে যাওয়ার আগে তা প্রতারণা কি না, এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন। অনলাইনে চ্যাটের মাধ্যমে সাক্ষাৎকার ও নিয়োগের কথা বললে প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব সম্পর্কে জেনে নিন। অনলাইনে নিয়োগের ক্ষেত্রে লেনদেনে সতর্ক থাকুন।

বাড়ি ভাড়া: অনেকেই ফেসবুকে সুন্দর বাড়ির ছবি দেখে ভাড়া নিতে চান। কিন্তু বাড়ি ভাড়া নেওয়ার জন্য বাড়ির প্রকৃত অবস্থা জানা প্রয়োজন। ফেসবুকে অনেক সময় প্রতারকেরা ভিন্ন বাড়ির ছবি দিয়ে বাড়ি কিনতে উৎসাহী করে তোলে। এ ক্ষেত্রে আগাম অর্থ পরিশোধ করলে ধোঁকা খেতে হতে পারে।

ফেসবুক রোমান্স: অনেকেই অনলাইনে সঙ্গীর খোঁজ করেন। সুযোগটা কাজে লাগাতে ওত পেতে থাকে সাইবার দুর্বৃত্তরা। ডিজিটাল প্রতারণার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি অর্থ লোকসান হয়েছে অনলাইন রোমান্সের ফাঁদে পা দিয়েই। ২০১৮ সালে ১৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার হাতিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ফেসবুকে বিভিন্ন সুন্দরী মেয়ে বা সুন্দর ছেলের পোস্ট দিয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগে আগ্রহী করে তোলে দুর্বৃত্তরা। অনেকে ক্ষেত্রে দাতব্য কাজ, সঙ্গীহীন পরিচয় দিয়ে অর্থ চাইতে পারে। এমন প্রলোভনে ভুলে গেলেই সর্বনাশ।

গিফট কার্ড: আপনি ফেসবুকে লটারি জিতেছেন বা কোনো উপহার জিতেছেন বলে টাইমলাইনে পোস্ট দেখাতে পারে। বিনা মূল্যে উপহারের নমুনা দেখিয়ে সে লিংকটিতে ব্যবহারকারীকে ক্লিক করতে আকৃষ্ট করে দুর্বৃত্তরা। বর্তমানে ফেসবুকের দ্রুত ছড়িয়ে পড়া স্ক্যামগুলোর একটি এই গিফট কার্ড স্ক্যাম। এ ধরনের লিংকে ক্লিক করলে ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়া হয়। এসব তথ্য দেওয়া হলেও কোনো উপহার পাওয়া যায় না বরং কম্পিউটারে ম্যালওয়্যার ডাউনলোড হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

তারকাদের ভিডিও: ফেসবুকে তারকাদের নিয়ে বা সমসাময়িক বিভিন্ন ঘটনা সংশ্লিষ্ট গুজব নিয়ে চটকদার খবরের পোস্ট পাওয়া যায়। অনেক সময় এ ধরনের খবরকে ‘ব্রেকিং নিউজ’, ‘গোপন খবর’, ‘গুমর ফাঁস’ ‘তথ্য ফাঁস’ ‘আড়ালের খবর’ ইত্যাদি নামে পরিবেশন করা হয়। ফেসবুকে চটকদার পোস্ট দিয়ে তাতে অধিকাংশ সময় লাইক চাওয়া হয়। ইসেটের বিশ্লেষকেদের পরামর্শ হচ্ছে, যে পোস্টগুলোতে লাইক চাওয়া হয় সে পোস্টগুলোতে ক্লিক করা থেকে বিরত থাকুন। খবরের যে উত্সগুলো আপনার পরিচিত নয় সে সাইটগুলোর খবরে ক্লিক করলে ম্যালওয়্যার আক্রমণের ঝুঁকি থাকে। আসল খবরের আদলে সাইবার দুর্বৃত্তরা ফেসবুকে ভুয়া নিউজের লিংক পোস্ট করে তাদের উদ্দেশ্য সফল করে।

রিয়ান্না সেক্স টেপ: ফেসবুকে বিভিন্ন তারকাকে নিয়ে স্ক্যাম রয়েছে। এ ধরনের স্ক্যাম ফেসবুকে ৭.৫৩ শতাংশ জনপ্রিয়। মাইলি সাইরাস, কিম কারদাশিয়ান কিংবা রিয়ান্নাকে নিয়ে ফেসবুকে অসংখ্য স্ক্যাম রয়েছে। নতুন ও পুরোনো অনেক স্ক্যাম লিংক আপনাকে বোকা বানাতে পারে। মনে রাখবেন, ফেসবুকে রিয়ান্নার সেক্স ভিডিও নিয়ে যত লিংক পাবেন সব ভুয়া। তাই এতে ক্লিক করবেন না।

গোপন বোন: ফেসবুকে ‘গোপন বোন’ পরিচয়ের একটি নেটওয়ার্ক দ্রুত ছড়াচ্ছে। আকর্ষণীয় উপহারের প্যাকেজের লোভ দেখিয়ে নারী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ঠকাতে ‘গোপন বোন’ পরিচয় ব্যবহার করা হচ্ছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ইনবক্সে কিংবা নিউজফিড আকারে আকর্ষক একটি উপহার বিনিময়ের বার্তাটি চলে আসতে পারে।‘সিক্রেট সিস্টারস গিফট এক্সচেঞ্জ’ নামের এই বার্তায় উপহার পাঠানোর জন্য ব্যবহারকারীকে প্রলুব্ধ করা হয়। বলা হয়, যদি গোপনে ১০ ডলার মূল্যের একটি উপহার কাউকে পাঠিয়ে তালিকায় নাম লেখানো যায়, তবে এই রকম ৬ থেকে ৩৬টি পর্যন্ত উপহার পাওয়া যাচ্ছে।

যেভাবে সাবধান হবেন: ফেসবুকে প্রতারকের কবলে পড়া থেকে রক্ষা পেতে ব্যবহারকারীকে সচেতন হতে হবে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সাইবার দুর্বৃত্তদের দৌরাত্ম্যে এ ধরনের স্ক্যাম পুরোপুরি সরিয়ে ফেলা সম্ভব হয় না। ব্যবহারকারীদের সচেতনতা ও প্রচেষ্টা থাকা দরকার। এ ধরনের সন্দেহজনক লিংকে ক্লিক করা বা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে সচেতন থাকতে হবে। গবেষকেরা বলছেন, ব্যবহারকারীরা এখন মোবাইল ফোনকে বেশি গুরুত্ব দেন বলে দুর্বৃত্তরা তাঁদের লক্ষ্য করছে বেশি। সামাজিক যোগাযোগের সাইটে আসা বিভিন্ন লিংক, বিশেষ করে মেসেঞ্জারের লিংক বা মোবাইল এসএমএসে এ ধরনের লিংক আসে বেশি। ফিশল্যাবের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষ এখন এসএমএস ও সামাজিক যোগাযোগের সাইটগুলোয় পোস্টগুলোকে বিশ্বাসযোগ্য উৎস হিসেবে মনে করছে।
সাইবার দুর্বৃত্তদের প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পেতে এ ধরনের লিংকে ক্লিক করার আগে বা নির্দেশনা মানার আগে একটু দেখে নেওয়া প্রয়োজন। মনে রাখতে হবে, ফেসবুক বা অন্য কোনো সেবা থেকে লগইন লিংক এসএমএস বা অন্য কোনো উৎসে পাঠানো হবে না। অপরিচিত কেউ কোনো লিংক পাঠালে তাতে ক্লিক করবেন না।


   Page 1 of 11
     তথ্য-প্রযুক্তি
মোবাইল ফোন জীবাণুমুক্ত রাখতে কি করবেন?
.............................................................................................
২৪ ঘণ্টা পর মুছে যাবে টুইট!
.............................................................................................
পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাবে লিপইয়ার!
.............................................................................................
করোনা আতঙ্কে কর্মীদের বাসায় বসে কাজ করতে বললো টুইটার
.............................................................................................
ফেসবুকে ভয়েস দিলেই টাকা
.............................................................................................
ঘরে বসেই পুলিশের সেবা নিন
.............................................................................................
বন্ধ হয়ে পড়েছে স্যামসাংয়ের মোবাইল কারখানা
.............................................................................................
স্মার্টফোন চার্জ হবে ২ মিনিটেই
.............................................................................................
মঙ্গল ও চাঁদে যাওয়ার জন্য যাত্রী খুঁজছে নাসা!
.............................................................................................
ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২৫০ কোটি ছাড়াল
.............................................................................................
অ্যাপেল`র নতুন উদ্যোগ শিশুদের স্মার্টফোনের আসক্তি দূর কর‍ার
.............................................................................................
মুজিববর্ষে আসছে অ্যানিমেটেড মুভি ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ : পলক
.............................................................................................
দেশের সকল মানুষকেই আমরা অনলাইনে আনবো: জয়
.............................................................................................
সূর্যগ্রহণ: যা মানবেন যা মানবেন না
.............................................................................................
তিন ক্যামেরার সেরা চার স্মার্টফোন
.............................................................................................
ফেসবুকে ১০ প্রতারক থেকে সাবধান
.............................................................................................
সরকার ফেসবুকের কাছে আরও বেশি তথ্য চাইছে
.............................................................................................
হুয়াওয়ের কর্মীরা কেন এত খুশি?
.............................................................................................
ফেসবুককে ট্রল করে যা বললেন টুইটার প্রধান
.............................................................................................
বদলে গেল ফেসবুকের লোগো
.............................................................................................
যে ৩২ পাসওয়ার্ড ব্যবহার খুবই বিপজ্জনক
.............................................................................................
ফেসবুক আইডি হ্যাক রোধে করণীয় জানালো ডিএমপি
.............................................................................................
পোশাক খাতে রোবট আনছে সম্ভাবনা, সঙ্গে শঙ্কাও
.............................................................................................
ফেসবুকে আঠার মতো লেগে থাকছে মানুষ
.............................................................................................
৫-জি বাস্তবায়নে পূর্ণাঙ্গ প্রস্তাবনা-নীতিমালা হচ্ছে
.............................................................................................
নিজস্ব ইন্টারনেট ব্যবস্থায় পা রাখল রাশিয়া, নতুন আইন পাশ
.............................................................................................
ফিটবিটে গুগলের ২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ
.............................................................................................
সিলিকন ভ্যালির বদৌলতে মধ্যপ্রাচ্যে রমরমা দাস ব্যবসা
.............................................................................................
হোয়াটসঅ্যাপেও গোপন নজরদারি!
.............................................................................................
‘১ মিনিটেই নগদ অ্যাকাউন্ট’ কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন জয়
.............................................................................................
ফেসবুকের বিরুদ্ধে সাড়ে ৩ হাজার কোটি ডলারের মামলা
.............................................................................................
মধ্যবিত্তের জন্য আসছে হিরোর নতুন বাইক
.............................................................................................
আবরারের আইডি ফেসবুকে ‘রিমেম্বারিং’
.............................................................................................
বিজ্ঞাপনের ৫২ শতাংশ ২০২১ সাল নাগাদ ইন্টারনেটে যাবে
.............................................................................................
গুগল ছাড়া হুয়াওয়ে!
.............................................................................................
ফেসবুকের নতুন ফিচার, অনেক সমস্যার সমাধান
.............................................................................................
স্যামসাং অ্যাপলের ফোন ব্যবহারে ক্যান্সারের ঝুঁকি, আদালতে মামলা
.............................................................................................
আইফোন ইলেভেন সিরিজ দেখুন ছবিতে
.............................................................................................
ট্রিপল ক্যামেরার আইফোন ১১ মিলবে ৬৯৯ ডলারেই
.............................................................................................
ফেসবুক পোস্টে লাইকের সংখ্যা আর দেখা যাবে না!
.............................................................................................
রিমোটে চলবে জীবিত কুকুর!
.............................................................................................
চমক নিয়ে আইফোন ১১ আসছে সেপ্টেম্বরে
.............................................................................................
নতুন ৫ ফিচারে আকর্ষণীয় হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ
.............................................................................................
গুগলে রাজনৈতিক আলোচনা নিষিদ্ধ
.............................................................................................
স্মার্টফোন ফুল চার্জ হবে ৬ মিনিটে
.............................................................................................
সুন্দর ছবির ৫ অ্যাপ
.............................................................................................
বৃষ্টিতে মোবাইল ভিজলে যা করবেন
.............................................................................................
বাজারে এলো নচ ডিসপ্লের প্রিমো এস৭
.............................................................................................
ল্যাপটপের স্ক্রিন ১ ইঞ্চি !
.............................................................................................
ফেসবুকে প্রেম, ঘনিষ্টতা, অতপরঃ...
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD