| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ঈদে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২৯ জুলাই   * সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বনদস্যু বাহিনী প্রধানসহ নিহত ২   * ছেলেধরা ও গণপিটুনি বিষয়ে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা   * উত্তরাঞ্চলে পানি কিছুটা কমলেও নদীগুলোর পানি এখনও বিপদসীমার ওপর   * সৌদি পৌঁছেছেন ৭৫ হাজার ৫৯০ হজযাত্রী   * হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার   * দুদক পরিচালক এনামুল বাছির গ্রেফতার   * চট্টগ্রামের আনোয়ারায় ৮ বাড়িতে বন্য হাতির তাণ্ডব   * আদালতে মিন্নির দু`টি আবেদন নামঞ্জুর   * পেশায় ইমাম, জিন তাড়ানোর নামে করতেন নারী-শিশু ধর্ষণ  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
চাঁদে পা রাখার ৫০ বছর উপলক্ষে গুগলের ডুডল

এশিয়া বাণী ডেস্ক : ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই চাঁদে পা ফেলে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন প্রয়াত মার্কিন মহাকাশচারী নীল আর্মস্ট্রং। এরপর ৫০ বছর পার হয়ে গেছে। আরো বহু অভিযান চালানো হয়েছে চাঁদে। কিন্তু মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার নীল আর্মস্ট্রং নেতৃত্বাধীন অ্যাপোলো ১১’র চন্দ্রাভিযান মানব সভ্যতার ইতিহাসে চিরকাল এক বিস্ময়কর সফলতা হিসেবেই বিবেচিত হবে। সেই চন্দ্রাভিযানের ৫০ বছরপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে ডুডল করেছে গুগল। ১৯ জুলাই সারাদিন ডুডলটি গুগলের হোমপেজে ভেসেছিল।

অ্যাপোলো ১১ চাঁদে নামার আগে আকাশে ভেসে বেড়ানো সাদাটে উপগ্রহটি মানুষের জন্য কেবলই কল্পনার জগত ছিল। ধরা-ছোঁয়ার বাইরের ওই জগত নিয়ে রচিত হয়েছে হাজারো সাহিত্য। কিন্তু ১৯৫৯ সালে চাঁদে প্রথম বস্তু পাঠায় সোভিয়েত ইউনিয়ন।

এরপর ১৯৬৯ সালে চার লাখ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞের অক্লান্ত পরিশ্রমে অ্যাপোলো ১১ সফল উড়ান দিয়েছিল। অ¯পৃশ্য ওই জগতে রেখে আসে মানুষের পদচিহ্ন। কল্পনার দেয়াল ভেঙে বাস্তব হয়ে মানুষের চোখে হাজির হলো চাঁদ।

নীল আর্মস্ট্রংয়ের সঙ্গে যুগান্তকারী সে যাত্রার সঙ্গী হয়েছিলেন বাজ অলড্রিন ও মাইকেল কলিন্স। শিশুকাল থেকেই পাঠ্যবইয়ে এই নামগুলো পড়ে বড় হয়েছে তাদের পরবর্তী প্রজন্ম। এদিকে, চাঁদের অভিযান বিশ্বব্যাপি পরিচিত হলেও অপেক্ষাকৃত একটি কম পরিচিত তথ্য হচ্ছে, ওই অভিযানের পরপরঅই নাসা’র ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টারে বিস্ফোরণ ঘটেছিল। সে ভয়াবহতা ও চ্যালেঞ্জ নিয়েই গুগলের ডুডল ভিডিও ‘দ্যাটস ওয়ান স্মল স্টেপ’।

ভিডিওতে দেখতে পাবেন মাইকেল কলিন্স ছিলেন সেই চন্দ্রাাভিযানের কমান্ড মডিউল পাইলট। নীল আর্মস্ট্রং ও বাজ অলড্রিনের চাঁদের বুকে পা রাখার পর থেকে ফিরে আসা পর্যন্ত সমস্ত অভিযান ধরা রয়েছে ভিডিওতে।

মহাকাশচারীরা পৃথিবী থেকে রওনা দিয়ে সরাসরি চাঁদে যাননি। প্রথমে চাঁদের চারপাশে একটি কক্ষপথ ধরে প্রদক্ষিণ করার পর ‘ঈগল’ নামের একটি চন্দ্র মডিউলে করে ১৩ মিনিটের একটি সফরের পর চাঁদের বুকে পা রাখেন। সেই শ্বাসরুদ্ধ হওয়া ১৩ মিনিটে ঘটেছিল দু’টি যান্ত্রিক গোলযোগ। প্রথমত বেতার তরঙ্গে পৃথিবীর সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলেছিলেন আর্মস্ট্রং ও অলড্রিন। পৃথিবী থেকে শোনা যাচ্ছিল না তাদের কোনো কথা। কেবল দুর্বোধ্য যান্ত্রিক আওয়াজ ও মডিউলে হিজিবিজি কোড শো করছিল ক¤িপউটার। দ্বিতীয়ত, মডিউলের জ্বালানিতে টান পড়েছিল। তবে সকল প্রতিক’লতা কাটিয়ে ২০ জুলাই সফলভাবে দুই নভোচারী পা রাখেন চাঁদে। প্রথম পা রেখে ইতিহাস গড়েছিলেন আর্মস্ট্রং। অভিযান শেষে পাঁচ দিন পর ২৫ জুলাই পৃথিবীতে ফিরে আসেন তারা।

চাঁদে পা রাখার ৫০ বছর উপলক্ষে গুগলের ডুডল
                                  

এশিয়া বাণী ডেস্ক : ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই চাঁদে পা ফেলে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন প্রয়াত মার্কিন মহাকাশচারী নীল আর্মস্ট্রং। এরপর ৫০ বছর পার হয়ে গেছে। আরো বহু অভিযান চালানো হয়েছে চাঁদে। কিন্তু মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার নীল আর্মস্ট্রং নেতৃত্বাধীন অ্যাপোলো ১১’র চন্দ্রাভিযান মানব সভ্যতার ইতিহাসে চিরকাল এক বিস্ময়কর সফলতা হিসেবেই বিবেচিত হবে। সেই চন্দ্রাভিযানের ৫০ বছরপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে ডুডল করেছে গুগল। ১৯ জুলাই সারাদিন ডুডলটি গুগলের হোমপেজে ভেসেছিল।

অ্যাপোলো ১১ চাঁদে নামার আগে আকাশে ভেসে বেড়ানো সাদাটে উপগ্রহটি মানুষের জন্য কেবলই কল্পনার জগত ছিল। ধরা-ছোঁয়ার বাইরের ওই জগত নিয়ে রচিত হয়েছে হাজারো সাহিত্য। কিন্তু ১৯৫৯ সালে চাঁদে প্রথম বস্তু পাঠায় সোভিয়েত ইউনিয়ন।

এরপর ১৯৬৯ সালে চার লাখ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞের অক্লান্ত পরিশ্রমে অ্যাপোলো ১১ সফল উড়ান দিয়েছিল। অ¯পৃশ্য ওই জগতে রেখে আসে মানুষের পদচিহ্ন। কল্পনার দেয়াল ভেঙে বাস্তব হয়ে মানুষের চোখে হাজির হলো চাঁদ।

নীল আর্মস্ট্রংয়ের সঙ্গে যুগান্তকারী সে যাত্রার সঙ্গী হয়েছিলেন বাজ অলড্রিন ও মাইকেল কলিন্স। শিশুকাল থেকেই পাঠ্যবইয়ে এই নামগুলো পড়ে বড় হয়েছে তাদের পরবর্তী প্রজন্ম। এদিকে, চাঁদের অভিযান বিশ্বব্যাপি পরিচিত হলেও অপেক্ষাকৃত একটি কম পরিচিত তথ্য হচ্ছে, ওই অভিযানের পরপরঅই নাসা’র ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টারে বিস্ফোরণ ঘটেছিল। সে ভয়াবহতা ও চ্যালেঞ্জ নিয়েই গুগলের ডুডল ভিডিও ‘দ্যাটস ওয়ান স্মল স্টেপ’।

ভিডিওতে দেখতে পাবেন মাইকেল কলিন্স ছিলেন সেই চন্দ্রাাভিযানের কমান্ড মডিউল পাইলট। নীল আর্মস্ট্রং ও বাজ অলড্রিনের চাঁদের বুকে পা রাখার পর থেকে ফিরে আসা পর্যন্ত সমস্ত অভিযান ধরা রয়েছে ভিডিওতে।

মহাকাশচারীরা পৃথিবী থেকে রওনা দিয়ে সরাসরি চাঁদে যাননি। প্রথমে চাঁদের চারপাশে একটি কক্ষপথ ধরে প্রদক্ষিণ করার পর ‘ঈগল’ নামের একটি চন্দ্র মডিউলে করে ১৩ মিনিটের একটি সফরের পর চাঁদের বুকে পা রাখেন। সেই শ্বাসরুদ্ধ হওয়া ১৩ মিনিটে ঘটেছিল দু’টি যান্ত্রিক গোলযোগ। প্রথমত বেতার তরঙ্গে পৃথিবীর সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলেছিলেন আর্মস্ট্রং ও অলড্রিন। পৃথিবী থেকে শোনা যাচ্ছিল না তাদের কোনো কথা। কেবল দুর্বোধ্য যান্ত্রিক আওয়াজ ও মডিউলে হিজিবিজি কোড শো করছিল ক¤িপউটার। দ্বিতীয়ত, মডিউলের জ্বালানিতে টান পড়েছিল। তবে সকল প্রতিক’লতা কাটিয়ে ২০ জুলাই সফলভাবে দুই নভোচারী পা রাখেন চাঁদে। প্রথম পা রেখে ইতিহাস গড়েছিলেন আর্মস্ট্রং। অভিযান শেষে পাঁচ দিন পর ২৫ জুলাই পৃথিবীতে ফিরে আসেন তারা।

ফেসঅ্যাপের হাতে কোটি মানুষের তথ্য !
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এখন বয়ষ্কদের ছবিতে ভরা। দেখে মনে হবে, হুট করে সবাই বুড়ো হয়ে গেছে! ফেসঅ্যাপ নামের অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে ছবিতে বুড়ো হয়ে যাচ্ছে অনেকেই। আর এসব ছবিতে এখন ছয়লাব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

বয়স কমানোর পাশাপাশি অ্যাপ দিয়ে চুল-দাড়ির ধরনও পাল্টানো যাচ্ছে। এছাড়া স্মার্টফোন থেকে যেকোনো ছবি নিজেদের সার্ভারে আপলোড করে সম্পাদনার কাজও করা যাচ্ছে। মানুষকে তার মুখের ভঙ্গি, তাকানো এবং বিভিন্ন বয়সের ছবি তৈরির ক্ষমতা দিচ্ছে ফেসঅ্যাপ। ঠিক একই সময়ে, যেকোনো উদ্দেশ্যে, যতদিন ইচ্ছা ততদিনের জন্য মানুষ তার ছবি ও নাম ব্যবহারের ক্ষমতা দিচ্ছে ফেসঅ্যাপকে।

রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গের একটি প্রতিষ্ঠান ফেসঅ্যাপ তৈরি করেছে। এটি ২০১৭ সালেই তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করে। সে সময় গুগল প্লে-স্টোরের সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপগুলোর তালিকায় স্থান করে নেয় এটি। এবার ১০ কোটিরও বেশি মানুষ গুগল প্লে-স্টোর থেকে ফেসঅ্যাপ ডাউনলোড করেছে। অ্যাপ অ্যানির তথ্য মতে, এই মুহূর্তে ১২১টি দেশে আইওএস অ্যাপ স্টোরের তালিকায় সবচেয়ে উপরে আছে ফেসঅ্যাপ।

কিন্তু ঝামেলা অন্য জায়গায়। ফেসঅ্যাপ ব্যবহারের যেসব শর্ত আছে, সেগুলো ব্যবহারকারীকে নিরাপত্তা হুমকিতে ফেলছে। ফেসঅ্যাপ ব্যবহারের শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে, এ অ্যাপ ব্যবহার করলে আপনি কোম্পানির সার্ভারে আপলোড করা সব ছবি, নিজের নাম, আপনি কী পছন্দ করেন এসব তথ্য বাণিজ্যিক কারণে ব্যবহারের অনুমতি দিচ্ছেন। এছাড়া ফেসঅ্যাপকে একটি চিরস্থায়ী, অপরিবর্তনীয়, একচেটিয়া, রয়্যালটি-মুক্ত, বিশ্বব্যাপী, সম্পূর্ণ-অর্থ প্রদান, পুনরুৎপাদন, সংশোধন, অভিযোজন, প্রকাশ, অনুবাদ, বিতরণ, প্রকাশ্যে সম্পাদন ও প্রদর্শনের অনুমতি দিচ্ছেন।

ফেসঅ্যাপের এসব শর্তকে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা হুমকি বলে মনে করছে অনেকে। কারণ, অনুমতি না নিয়েই ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনের সংরক্ষিত ছবি আপলোড করছে ফেসঅ্যাপ। অনেক ক্ষেত্রে এটি বিপজ্জনক নাও হতে পারে। ফেসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ছবি আমেরিকার আমাজন সার্ভারে থাকতে পারে। ফোর্বস বলছে, মানুষের ছবি ও নাম দিয়ে যা ইচ্ছা তা করার জন্য ফেসঅ্যাপের লাইসেন্স রয়েছে।

কিন্তু গত কয়েক বছরে যেটা দেখা গেছে যে, ভাইরাল ফেসবুক অ্যাপসগুলো যেসব তথ্য সংগ্রহ করেছে, মানুষ যেভাবে অনুমান করছে সেভাবে ব্যব্হার করেনি। তবে সংগৃহীত তথ্য ঠিকঠাক সংরক্ষণ করা হয় না। এক্ষেত্রে নিরাপত্তাহীনতার আশঙ্কা রয়েছে।

র্যাকস্পেসের সাবেক ম্যানেজার রব না গিজ বলছেন, ফেসঅ্যাপ যথাযথভাবে ব্যবহার করতে হলে আপনার সব ছবিতে প্রবেশের অনুমতি দিতে হবে।

২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের সময় ফেসবুকের অন্তত পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ ওঠে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার বিরুদ্ধে। ব্রিটিশ এ প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে নির্বাচনের সময় ফেসবুকের তথ্য হাতিয়ে ট্রাম্পের পক্ষে কাজের অভিযোগ রয়েছে। পরে একইভাবে আরও কিছু প্রতিষ্ঠান ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লগইন করার পর চেহারা বদলের সময় ফটো গ্যালারির অ্যাক্সেস চায় ফেসঅ্যাপ। একইসঙ্গে ফেসবুকের সঙ্গে অ্যাপটি ব্যবহার করতে চাইলে কিংবা ফেসবুক থেকে ছবি নিতে চাইলে সেটিরও অনুমতি দিতে হয় ব্যবহারকারীকে। ফলে অ্যাপটি চাইলেই ব্যবহারকারীর ফটো গ্যালারি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিতে পারে। একইভাবে নিতে পারে ফেসবুকের আইডি-পাসওয়ার্ডও। ফলে একটা নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি হয়।

তবে এখনও পর্যন্ত কারও ব্যক্তিগত ডিভাইসে ঢুকে অ্যাপটি সতর্ক হওয়ার মতো কোনো অসাধু কাজ করেনি। তারপরও নিরাপত্তা ঝুঁকি থেকেই যায়।

বাংলাদেশের পণ্য বিদেশে বিক্রি করবে অ্যামাজন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্য যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের বাজারে বিক্রি করতে চায় অ্যামাজন। এজন্য প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ সরকারের নীতিগত সহায়তা চেয়েছে।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সাথে অ্যামাজনের প্রতিনিধি দলের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে অ্যামাজন এই আগ্রহের কথা জানায়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এর সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অ্যামাজনের ক্যাটাগরি ম্যানেজার গগন দ্বীপ সাগর, মার্চেন্ট সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠান টেক রাজশাহীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাহফুজুর রহমানসহ তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বৈঠক শেষে টেক রাজশাহীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাহফুজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশ থেকে সংগ্রহ করা পণ্য ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বিক্রির জন্য আগ্রহী অ্যামাজন। গ্লোবাল প্ল্যাটফর্ম থেকে এসব পণ্য বিক্রি হবে। তবে বাংলাদেশ থেকে পণ্য নিতে হলে বিদেশি ক্রেতাকে কিছু জটিলতার মুখোমুখি হতে হয়। সে সমস্যা সমাধানে সরকারের কাছে নীতিগত সহায়তা প্রয়োজন।

অ্যামাজন বাংলাদেশে এখনই কোন অফিস খুলছে না জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, তারা এখানেই কোন রিটেইল ব্যবসায়িক কার্যক্রম করতে ইচ্ছুক কি না সে বিষয়ে এখনো কোনো আলোচনা হয়নি। আপাতত তারা আমাদের এখান থেকে পণ্য সোর্সিং করে তাদের ওয়ারহাউজে নিতে আগ্রহী। আমরা তাদের বলেছি যে, আমাদের সরকার উদার নীতির সরকার। আমরা আশা করি যে, আমাদের স্থানীয় ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা সরাসরি অ্যামাজনে পণ্য দিতে পারলে তারা লাভবান হবে।

প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিংয়ের জন্য ‘সার্কেল লাইনার ডটকম’
                                  

স্টাফ রিপাের্টার : একটা সময় ছিল, যখন ক্যারিয়ার গড়ার জন্য মামা, চাচার প্রভাব থাকাটা ছিল খুবই জরুরী।

এবার সেই প্রভাব কাটিয়ে উঠছে প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্ম।

প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিং এখন ক্যারিয়ার গড়ার অন্যতম প্ল্যাটফর্ম। এর মাধ্যমে ইতমধ্যে অনেকেই উপকৃত হয়েছেন। আছে বহু প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্ম।

এরমধ্যে এগিয়ে আছে লিঙ্কড ইন। এখানে গ্রাজুয়েশনের আগে অনেকেই আইডি খোলেন। আর তার প্রধান সমস্যা হলো প্রফেশনালদের খুঁজে খুঁজে বের করে কানেক্ট করতে হয়। যা সংখ্যাও খুবই সীমিত। এ কারণে একজন ব্যবহারকারী নিজেকে যেমন প্রফেশনালদের মাঝে ঠিকভাবে তুলতে ধরতে পারছেন না। একইভাবে সঠিক ক্যারিরারের দিক নির্দেশনার অভাবে অনেকেই নিজের ক্ষেত্র থেকে ছিটকে পরছেন।

এসব সমস্যা সমাধানে সার্কেল লাইনার ডটকম (Circleliner.com) নিয়ে এসেছে দারুন সমাধান। যেখানে একজন ডাক্তার আইডি খোলা মাত্রই দেশ-বিদেশের সকল ডাক্তারদের সাথে যুক্ত হয়ে যাবেন। একইভাবে একজন স্থপতি যুক্ত হয়ে যাবে অন্য স্থপতিদের সাথে। ইঞ্জিনিয়ার, মার্কেটার, ব্যাংকার, সাংবাদিক, উকিল থেকে শুরু করে প্রত্যেকে তাদের নিজেদের সার্কেলের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যাবেন সহজেই।

নতুন এই প্লাটফর্ম নিয়ে কথা হয় প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক আরিয়ান শাহরিয়ার সাথে। তিনি জানান, একই ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আসা একজন ফ্রেশার বা নতুন কর্মীর সঙ্গে পেশাদার বা প্রফেশনাল’র গ্যাপ কমিয়ে আনার চেষ্টা করেছেন তারা। যা স্ক্রিল ডেভেলপমেন্ট থেকে শুরু করে, চাকরি বিভ্রাটের সমস্যা সমাধানে উভয়পক্ষ উপকৃত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন সার্কেল লাইনার ডটকম এর নির্বাহী পরিচালক।


তিনি আরোও জানান, `কেউ যদি নিজেদের ব্যাকগ্রাউন্ডের বাইরে কারো সাথে যুক্ত হতে চান, সে ব্যবস্থাও আছে ফলো অপশন এর মাধ্যমে।`

সার্কেল লাইনার ডটকম এর নির্বাহী পরিচালক জানান, এই প্লাটফর্মে শুধু ছবি কিংবা স্ট্যাটাস নয় বরং শেয়ার করা যাবে নিজের করা যে কোনো প্রজেক্ট, পডক্যাস্ট (অডিও ইন্টারভিউ), প্রাসঙ্গিক নিউজ কিংবা আপনার প্রফেশনের কোন সেমিনার / ইভেন্ট’র খবর। এমনকি এখানে নিজের লেখা আর্টিকেলও প্রকাশ করা যাবে।

‘সার্কেল লাইনার ডটকম’ এর লিড ইঞ্জিনিয়ার কাজী জামিল হোসেন বলেন, “আমরা ইউজারকে যে কোন পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে চাই। আর এজন্যই কন্টেন্ট ফিল্টারিং সিস্টেম সামনে আনা। আমরা অপ্রাসঙ্গিক কন্টেন্ট দিয়ে ইউজারকে কখনই বিরক্ত করতে চাই না। কানেকশন এবং শেয়ারিং ছাড়াও ইউজারদের ব্যক্তিগত যোগাযোগের জন্য প্লাটফর্মে রয়েছে নিজস্ব ম্যাসেঞ্জার সার্ভিস।”

তবে এখানেই এই প্লাটফর্মের কাজ শেষ নয়। প্রতিষ্ঠানের নিয়োগের ক্ষেত্রেও ভূমিকা রাখে সার্কেল লাইনার ডটকম। এ প্রসঙ্গে সার্কেল লাইনার ডটকমের প্রোডাক্ট ম্যানেজার রায়াদ জামান বলেন, ‘‘সার্কেল লাইনার.কম ভিন্নধর্মী জব প্লাটফর্ম, যা দিয়ে ৩ থেকে ৪ সপ্তাহের নিয়োগের প্রসেস কমে ১০ মিনিটে নিয়ে আসা যাবে।”

তিনি জানান, প্লাটফর্মটি ইতোমধ্যে প্রাক্তন আইসিটি মন্ত্রী ও বর্তমান মাননীয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বারসহ দেশের গণ্যমান্য ব্যক্তির ভুয়সী প্রসংসা কুড়িয়েছে। প্ল্যাটফর্মটি বর্তমানে ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে ভিজিট ও সাইন আপ করা যাচ্ছে। এর অ্যান্ড্রয়েড এবং আইও এস ভার্সন খুব শিগরই পাবলিশ করা হবে।

বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে অ্যাপ
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে মোবাইল অ্যাপ বানিয়েছেন পাবনার চাটমোহর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার। স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিএসপি-৩ এর আর্থিক সহায়তায় এই অ্যাপটি বানানো হয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রীদের কমনরুমে ট্যাব রাখা থাকবে। বাল্যবিয়ের বিষয়ে তারা অ্যাপে প্রবেশ করে নিজের নাম-ঠিকানা, শ্রেণি-রোল নম্বর দিয়ে তার সমস্যার কথা লিখলে মেসেজ চলে যাবে উপজেলা প্রশাসনের কাছে। তখন প্রশাসন থেকে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শুধু বাল্যবিয়েই নয়, যেকোনো যৌন হয়রানি, নির্যাতন বিষয়েও একইভাবে অ্যাপে ছাত্রীরা জানালে উপজেলা প্রশাসন দ্রুত ব্যবস্থা নেবে বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

সম্প্রতি পাবনার চাটমোহরে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধী অ্যাপটি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সেই অ্যাপ ব্যবহারের জন্য ট্যাব বিতরণ করা হয়েছে।
উপজেলার মুলগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসেবে অ্যাপটি উদ্বোধন ও ট্যাব বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক বলেন, সন্তানদের শুধু জিপিএ-৫ পাওয়ানোর প্রতিযোগিতায় নামলে হবে না, তাদের মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এজন্য প্রধান ভূমিকা পালন করতে হবে মায়েদের। সন্ধ্যার পর স্টার জলসা, জি বাংলা না দেখে সন্তানের পাশে বসে লেখাপড়া দেখতে হবে।

মুলগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম বকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাফিউল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ মাস্টার প্রমুখ।

আজ রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ ঘটবে
                                  

এশিয়া বাণী ডেস্ক : আজ রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ ঘটবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। সূর্যগ্রহণটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ৫৫ মিনিট ১৮ সেকেন্ডে এবং শেষ হবে রাত ৩টা ৫০ মিনিট ৩৬ সেকেন্ডে।

সূর্য ও চন্দ্র যখন একই সরল রেখায় অবস্থান করে তখনই ঘটে সূর্যগ্রহণ। পূর্ণগ্রাস যখন ঘটে, তখন সূর্য ও পৃথিবীর মাঝ বরাবর চাঁদ চলে আসে। এতে চাঁদের আড়ালে সূর্য ঢাকা পড়ে যায়। এসময় চাঁদকে অনেক বড় দেখায়। সূর্যগ্রহণে চাঁদ সূর্যকে সম্পূর্ণ ঢেকে ফেলতে পারে। এতে কোনও কোনও স্থানে তখন পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখা দেয়।

দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়ার মুতুওয়ারা দ্বীপের বাসিন্দা আর বলিভিয়ার বাসিন্দারা আজকের পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখতে পাবেন। তবে বাংলাদেশ সময় রাতে হওয়ায় বাংলাদেশের আকাশে সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের এক বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, যখন গ্রহণ শুরু হবে তখন এর অবস্থান থাকবে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়ার মুতুওয়ারা দ্বীপের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে। কেন্দ্রীয় সূর্যগ্রহণ শুরু হবে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের নিউজিল্যান্ডের উত্তর-পশ্চিম দিকে। সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে পেরুর পশ্চিম দিকে। কেন্দ্রীয় গ্রহণকালে অবস্থান থাকবে আর্জেন্টিনার লিব্রে দেল সউদ শহরে। আর গ্রহণ শেষের দিকে অবস্থান থাকবে বলিভিয়ার মরুকু শহরের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে।

মঙ্গলবার পূর্ণ সূর্য গ্রহণ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : আগামীকাল মঙ্গলবার পূর্ণ সূর্য গ্রহণ ঘটবে বলে আইএসপিআর’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, আগামীকাল ২২টা ৫৫ মিনিট ১৮ সেকেন্ড বিএসটিতে তা শুরু হয়ে ৩ জুলাই ৩টা ৫০ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড বিএসটিতে শেষ হবে।

৩ জুলাই ১টা ২৩ মিনিটে বিএসটিতে সর্বোচ্চ গ্রহণ ঘটবে। গ্রহণটির সর্বোচ্চ মাত্রা হবে ১.০৪৫৬। বাংলাদেশে গ্রহণটি দেখা যাবে না। তবে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়ার মুতুওয়ারা দ্বীপের দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে শুরু হয়ে বলিভিয়ার মুরুকু শহরের দক্ষিণ-পূর্ব দিক পর্যন্ত গ্রহণটি দেখা যাবে।
বিস্তারিত বিবরণ বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট www.bmd.gov.bd/eclipse-এ দেয়া রয়েছে। বাসস

স্মার্টফোনের ব্যাটারি ভালো রাখতে. . .
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : স্মার্টফোন ছাড়া জীবন এখন যেন থেমেই থাকে। কিন্তু সারাদিন ফোন ব্যবহার করতে গেলে তো ফোনের ব্যাটারি টিকে থাকাও প্রয়োজন। তা না হলেই চার্জার, পাওয়ার ব্যাঙ্কের ঝক্কি তো রয়েছেই।

আজ আপনাকের জানাবো এমন কিছু টিপস যা চিন্তায় রাখলে ব্যাটারি অনেক দিন ভালো থাকবে। দেখে নিন, ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখবেন যেভাবে-

১) চার্জ দেওয়ার জন্য ফোনের সঙ্গে দেওয়া চার্জারটি ব্যবহার করুন। অন্য কোনও ফোনের চার্জার বা দোকান থেকে কেনা অন্য চার্জার যত সম্ভব কম ব্যবহার করুন।

২) ফোনের ব্যাটারি ১০% বা ৫% না হওয়া পর্যন্ত চার্জ না দেওয়াই ভাল। বার বার চার্জ দিলে ফোন অহেতুক গরম হয়।

৩) ফোন সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে গেলেই চার্জার থেকে খুলে নিন। সারা রাত চার্জে বসিয়ে রেখে দেবেন না। ব্যাটারির পক্ষে এটি যেমন ক্ষতিকর, তেমনই বিপদজনক।

৪) ফোনের ব্যাটারি সেভার বলে একটি অপশন থাকে। ফোনের ব্যাটারি কমের দিকে থাকলে সেই অপশনটি অন করে দিতে পারেন।

৫) ফোনের পর্দার ব্রাইটনেস্ রাখুন কমের দিকে। চোখও ভাল থাকবে। ব্যাটারিও দীর্ঘস্থায়ী হবে।

৬) ফোনের সেটিংসে যান। সেখানে Apps & notifications-এ টাচ করুন। এ বার যে অ্যাপগুলি আপনি সবসময়ে ব্যবহার করেন না, তাতে টাচ করুন। ব্যাটারি অপশানে গিয়ে Background usage এবং Notification অফ করে দিন।

৭) ফোনের ডেটা প্রয়োজন মতো অন-অফ করুন। ডেটাও সাশ্রয় হবে, ব্যাটারিও।

হুয়াওয়ের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : হুয়াওয়ের ওপর থেকে সকল নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন ট্রাম্প। শনিবার (২৯ জুন) জাপানের ওসাকায় অনুষ্ঠিত জি২০ শীর্ষক সম্মেলনে এমন ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের সব কোম্পানি হুয়াওয়ের সাথে ব্যবসা করতে পারবে এখন থেকে।

ব্লুমবার্গ ও সিএনএন এর খবরে বলা হয়, ট্রাম্পের এমন ঘোষণা আসার আগে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাথে একান্ত বৈঠকে মিলিত হন ট্রাম্প।

বৈঠকে হুয়াওয়ে সম্পর্কে আলোচনা সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, চীনের প্রেসিডেন্ট এবং তার সাথে ‘চমৎকার’ সম্পর্ক রয়েছে। এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সব কোম্পানি যেমন হুয়াওয়ের সাথে ব্যবসা করতে পারবে তেমনি হুয়াওয়েও যুক্তরাষ্ট্র থেকে সব পণ্য কিনতে পারবে।

এর আগে গত মাসে হুয়াওয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। তাতে বলা হয় `গুগল, ইউটিউবের মতো মার্কিন কোম্পানি হুয়াওয়ের সাথে আর ব্যবসা করতে পারবে না`।

সেপ্টেম্বরের পর থেকে ফেসবুক-ইউটিউবে হস্তক্ষেপ : জব্বার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : ফেসবুক, ইউটিউবসহ সোশাল মিডিয়ায় গুজবসহ যেকোনো তথ্য নিয়ন্ত্রণের সক্ষমতা সরকার আগামী সেপ্টেম্বরেই অর্জন করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। তিনি বলেছেন, সরকার এখন যেকোনো ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রণে সক্ষম। সেপ্টেম্বরের পর থেকে আমরা ফেসবুক, ইউটিউবে হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা অর্জন করব।

শনিবার (২৯ জুন) দুপুরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ‘তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

পরে রাতে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল একাত্তরের একটি অনুষ্ঠানে সংযুক্ত হন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমেরিকায় একটি মেয়ে রাস্তায় হাফপ্যান্ট পরে হেঁটে গেলে তা সমস্যা না। তবে আমেরিকা ও বাংলাদেশের স্ট্যান্ডার্ড এক না। বাংলাদেশে এমন অবস্থা সম্ভব না। তাই আমেরিকান স্ট্যান্ডার্ডে না, বাংলাদেশের ব্যবহারকারীদের পোস্ট এখানকার স্ট্যান্ডার্ডে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।’

মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী বলেন, ‘ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রণের সক্ষমতা অর্জন করলেও ফেসবুক-ইউটিউবে সুনির্দিষ্ট তথ্য নিয়ন্ত্রণে সক্ষমতা এতদিন আসেনি, যা একটি সমস্যা ছিল সরকারের জন্য। সমস্যা হচ্ছে যখন ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়া হয়, অথবা ভিডিও প্রচার করা হয়, সেই ক্ষেত্রে তা্ৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এর কারণ হচ্ছে, বিশেষ করে ফেসবুক বা ইউটিউব-এই দুটি প্রতিষ্ঠানই মার্কিন প্রতিষ্ঠান। এটা তাদের আমেরিকান কমিউনিটির স্ট্যান্ডার্ড মেনে কাজ করে থাকে। আমরা সরাসরি তাদের হস্তক্ষেপ করতে পারি না।’

‘আপনাদের জন্য সুখবর হচ্ছে, সেপ্টেম্বর মাস অতিক্রম করার পরে আমরা এই ক্ষেত্রে সরাসরি হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা অর্জন করব। অর্থাৎ কেউ ইচ্ছে করলেই যা খুশি তাই সোস্যাল মিডিয়াতে ব্যবহার করতে পারবে না, প্রচার করতে পারবে না’-যোগ করেন মন্ত্রী।

অর্থাৎ এতদিন ফেসবুক কিংবা ইউটিউবে কোনো তথ্য আটকাতে হলে পুরো অ্যাপটিই বন্ধ করতে হতো সরকারকে, সেপ্টেম্বরের পর তা না করে যে তথ্য আটকাতে চায়, শুধু তা আটকে দিতে পারবে সরকার।

মতবিনিময় সভায় তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ সোশাল মিডিয়ায় গুজব বা ভুয়া তথ্যের সমস্যার দিকটি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব এটি একটি বিশ্বব্যাপী সমস্যা। এটি শুধু বাংলাদেশের সমস্যা তা নয়। কম্বোডিয়ায় গিয়েছিলাম কদিন আগে, সেখানেও মূল আলোচ্য ছিল, কীভাবে এই গুজব প্রতিরোধ করা যায়।’

এ সময় মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই, মানুষের অধিকার অবারিত থাকুক। কিন্তু মানুষের অবারিত অধিকার চর্চা করতে গিয়ে যেন অন্যের অধিকার খর্ব না হয়, কিংবা অন্যের ব্যক্তি স্বাধীনতা খর্ব না হয়, কিংবা রাষ্ট্রে হানাহানি সৃষ্টি না হয়, সমাজে অস্থিরতা না হয়, সেটা আমাদের সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে।’

১৩ মিনিটেই ফুল চার্জ হবে স্মার্টফোন!
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : ফাস্ট চার্জিং-এর প্রযুক্তি এখন প্রায় সব ফোনেই। কিন্তু ১৩ মিনিটে ফুল চার্জ? কিভাবে সম্ভব!

সম্প্রতি চীনের সাংহাইয়ের মোবাইল কংগ্রেসে এমনই অভিনব চার্জিংয়ের খবর দিলো ভিভো।

ভিভোর দাবি, এই বিশেষ প্রযুক্তির চার্জিং ব্যবস্থায় মাত্র ১৩ মিনিটেই ফুল চার্জ হবে ব্যাটারি। ৫ মিনিটেই হবে ৫০ ভাগ চার্জ। নতুন এই চার্জিং ব্যবস্থাকে সুপার ফ্ল্যাশচার্জ ১২০ ওয়াট বলে অভিহিত করছে ভিভো।

মোবাইল কংগ্রেসে সবার নজর কাড়ে ভিভো। নতুন এই সুপার ফ্যাশচার্জ প্রযুক্তির প্রকাশের দিকেই ছিল সবার নজর।

ভিভোর দাবি, ৪০০০mAh ব্যাটারি চার্জ দেওয়া যাবে এই প্রযুক্তিতে। তাদের বিশেষজ্ঞ দল ১২০ ওয়াট চার্জার ব্যবহার করেই এই অসাধ্য সাধন করেছে। তবে এই বিশেষ চার্জিং প্রযুক্তি কোন ফোনে ব্যবহার করা হবে তা নিয়ে এখনই মুখ খুলনি ভিভো।

সিম লাগাতেই শাওমি স্মার্টফোন বিস্ফোরণ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : নতুন ফোনে সিমকার্ড লাগাতে গিয়ে হঠাৎ বিস্ফোরণ হলো শাওমি স্মার্টফোন। মঙ্গলবার (২৫ জুন) সকালে রাজধানীতে এমন ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

মোবাইলের ক্রেতা জাহাঙ্গীর কিরণ গণমাধ্যমে জানান, সোমবার (২৪ জুন) রাতে বসুন্ধরা সিটির নিচতলার শাওমি শো-রুম থেকে রেডমি মডেলের একটি স্মার্টফোন কিনে বাসায় আনি। বিক্রেতার পরামর্শ অনুযায়ী তা চার্জ দেই। সকালে স্মার্টফোনটিতে সিমকার্ড লাগানোর জন্য পেছনের কেসিং খুলতেই ব্যাটারিতে ধোঁয়া দেখতে পাই।

তিনি আরও বলেন, ধোঁয়া দেখে স্মার্টফোনটি নিচে রেখে দেই। তখনই এতে বিস্ফোরণ হয় এবং আগুন ধরে যায়। মুহূর্তেই ঘর ধোঁয়ায় ছেয়ে যায়। আল্লাহর রহমতে বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছি।

এব্যাপারে শাওমি বাংলাদেশের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে শিগগিরই তারা অফিসিয়ালি বিবৃতি দেবে বলে জানিয়েছে।

বাংলা এসএমএস পাঠানো যাবে ২৫ পয়সায়
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : মোবাইল ফোন থেকে বাংলায় এসএমএস পাঠানোকে উৎসাহিত করতে খরচ কমিয়েছে সরকার। মোবাইল থেকে মোবাইলে বাংলায় এসএমএস পাঠাতে এখন খরচ হবে ২৫ পয়সা, যা প্রতিবার ইংরেজি এসএমএসের অর্ধেক। ২০ জুন থেকে এটি কার্যকর হবে।

টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিস বিভাগের উপপরিচালক সামিরা তাবাসসুম স্বাক্ষরিত গত ১৩ জুন এক নির্দেশনায় বলা হয়, আগামী ২০ জুন থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। বাংলায় প্রতিটি এসএমএসের জন্য ভ্যাট ও ট্যাক্স ব্যতীত ২৫ পয়সা করে নির্ধারণ করা হলো।

নির্দেশনাটি দেশের সকল মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর প্রধান নির্বাহীদের বরাবর পাঠানো হয়েছে বলেও জানানো হয়।

এদিকে মঙ্গলবার (১৮ জুন) ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘বাংলায় একটি এসএমএস পাঠাতে ইংরেজির প্রায় দ্বিগুণ খরচ হয়। কারণ, বাংলায় অক্ষর বেশি হয়ে যায়। সেই অসুবিধার যুগ অতিক্রান্ত। এখন রাষ্ট্রভাষায় এসএমএস পাঠান ইংরেজির অর্ধেক দামে।’

বর্তমানে প্রতি এসএমএস এর ক্ষেত্রে ৫০ পয়সা (ভ্যাট ও ট্যারিফ ব্যতীত) খরচ হয়। ২০১০ সালের ১৫ আগস্ট থেকে এ ট্যারিফ কার্যকর আছে।

ডিজিটাল মুদ্রা ‘লিব্রা’ আনছে ফেসবুক
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : ডিজিটাল মুদ্রা ‘লিব্রা’ আনার ঘোষণা দিয়েছে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। মঙ্গলবার (১৮ জুন) ‘লিব্রা’ নামের ক্রিপটোকারেন্সি উন্মুক্ত করার পরিকল্পনার কথা জানায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এই ডিজিটাল মুদ্রা লেনদেনের জন্য ইতোমধ্যে পেপ্যাল, ভিসা, মাস্টারকার্ড, ইবে, স্পটিফাইয়ের মতো বড় বড় ২৮টি প্রতিষ্ঠানকে যুক্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের প্রথদিকে এ মুদ্রা বাজারে চালু করা হবে বলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরেই ফেসবুকের লিব্রা মুদ্রা নিয়ে গুঞ্জন চলছিল। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে আগেই প্রকাশিত হয়েছিল যে, ‘প্রজেক্ট লিব্রা’ নামে একটি প্রকল্পের অধীনে নিজেদের ভার্চ্যুয়াল মুদ্রা তৈরি করছে ফেসবুক।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লিব্রা আনার পর বিশ্বব্যাপী ব্যাংক পরিষেবায় আমূল পরিবর্তন ঘটবে। এই ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রকল্প সফল হলে, বিশ্বের সব আর্থিক লেনদেন অচিরেই ব্লকচেইন প্রযুক্তির আওতায় চলে আসবে। প্রচলিত মুদ্রা অর্থাৎ ডলার, পাউন্ড, টাকা ইত্যাদির মতো ক্রিপ্টোকারেন্সিও এক ধরনের ভার্চ্যুয়াল মুদ্রা বা বিনিময় মাধ্যম। ব্লকচেইন প্রযুক্তির মাধ্যমে লেনদেনের জন্য ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার করা হয়।

প্রচলিত এমন মুদ্রা হলো— বিটকয়েন, বিটক্যাশ, মোনেরো, লাইটকয়েন ইত্যাদি। অন্যদিকে ব্লকচেইন হলো তথ্য সংরক্ষণ করার একটি নিরাপদ ও উন্মুক্ত পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে বিভিন্ন ব্লকে একটির পর একটি তথ্য চেইন আকারে সংরক্ষণ করা হয়।

বিশ্বের বৃহৎ আর্থিক লেনদেন পরিষেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক গ্রাহক পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ফেসবুকের সঙ্গে ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়ে চুক্তি করেছে। ফেসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরির জন্য এক কোটি ডলার করে বিনিয়োগ করবে সংস্থাগুলো। এছাড়া জেনেভাভিত্তিক ‘লিব্রা অ্যাসোসিয়েশন’ নামে একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অধীনে এ ব্যবস্থাটি পরিচালনা করবে।

ডিজিটাল ওয়ালেট হিসেবে ভার্চ্যুয়াল মুদ্রা সংরক্ষণ, আদান-প্রদান ও খরচ করার সুবিধা দিতে ‘ক্যালিব্রা’ নামের একটি সাবসিডিয়ারি চালু করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এটি ফেসবুকের কয়েক শ কোটি ব্যবহারকারীর মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গে যুক্ত থাকবে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মূলত ফেসবুকের ২০০ কোটিরও বেশি মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর কাছে ডিজিটাল মুদ্রা কতটা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে, তা যাচাই করতেই অন্য সংস্থাগুলো যোগ দিয়েছে।

দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেসবুকের এ উদ্যোগটি সফল হলে, তা থেকে লাভবান হওয়ার আশায় মাস্টারকার্ড ও ভিসার মতো সংস্থা ডিজিটাল মুদ্রা ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, ফেসবুক নিজেদের ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার সহজ করতে প্রচলিত এটিএম বুথের মতো ব্যবস্থা রাখার পরিকল্পনা করছে। এসব বুথ থেকে ‘লিব্রা’ দিয়ে দেশের প্রচলিত সরকারি মুদ্রা নিতে পারবেন গ্রাহকরা।

সংবাদশিল্প থেকে গুগলের আয় ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার
                                  

অনলাইন ডেস্ক : সার্চ ও গুগল নিউজ থেকে ২০১৮ সালে ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার আয় করেছে গুগল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউজ মিডিয়া অ্যালায়েন্সের এক সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

সোমবার প্রকাশিত সমীক্ষায় অ্যালায়েন্সের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী ডেভিড চাভার্ন বলেছেন, গুগলের এ আয়ে সাংবাদিকদেরও ভাগ রয়েছে। কারণ তারাই এসব সংবাদ তৈরি করে। গুগলে যে কন্টেন্ট অনুসন্ধান করা হয় তার মধ্যে ১৬ থেকে ৪০ শতাংশ হচ্ছে নিউজ।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, গত বছর মার্কিন সংবাদশিল্প ডিজিটাল বিজ্ঞাপন থেকে আয় করেছে ৫১০ কোটি ডলার। সংবাদশিল্প যে অর্থ অনলাইন থেকে আয় করেছে, এটা খুব কম করে ধরা হয়েছে। কারণ, ব্যবহারকারীরা গুগলে প্রদর্শিত নিউজে ক্লিক করলে যে পরিমাণ ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে প্রযুক্তির এই প্রতিষ্ঠানটি, সমীক্ষায় তা হিসাব করা হয়নি। সেটি হিসাব করলে দেখা যাবে, গুগলের আয় সংবাদশিল্পের আয়কে ছাড়িয়ে যাবে।

হুয়াওয়ে ফোনে আপডেট দেবে না গুগল, থাকবে না ইউটিউব
                                  

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : চীনভিত্তিক স্মার্টফোন নির্মাণকারী ব্র্যান্ড হুয়াওয়েকে আর অ্যান্ড্রয়েড সেবা দেবে না বলে জানিয়েছে মার্কিন টেক-জায়ান্ট গুগল। ফলে হুয়াওয়ের নতুন মডেলের হ্যান্ডসেটগুলোতে ইউটিউব, জি-মেইল, গুগল ম্যাপ, ক্রোম ব্রাউজারের মতো জনপ্রিয় গুগল অ্যাপসগুলো আর থাকবে না। এখন থেকে হুয়াওয়ের ডিভাইসগুলোতে কোনো ধরনের আপডেট ভার্সন দেবে না গুগল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন ও জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্র এমন কোম্পানিতে তালিকাভুক্ত করেছে, যার সঙ্গে বাণিজ্য করতে হলে মার্কিন কোম্পানিগুলোকে লাইসেন্স নিতে হবে। এরপরই গুগল এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্প প্রশাসনের ‘ব্ল্যাকলিস্ট’ এর কারণে হুয়াওয়ের সঙ্গে চলমান দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে গুগল। তবে ‘ওপেন সোর্স প্ল্যাটফর্ম’-এ থাকা সফটওয়্যারগুলোই শুধু সচল থাকবে হুয়াওয়ের স্মার্টফোনগুলোতে।

গুগলের এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যম দুটি বলছে, চীনে গুগল ব্যবহার সীমিত আকারে থাকায় সেখানে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না এ সিদ্ধান্ত। তবে চীনের বাইরে অন্যান্য দেশগুলোতে অ্যান্ড্রয়েড এবং গুগলের নানারকম অ্যাপস বেশ জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত। তাই সেসব দেশের হুয়াওয়ে ডিভাইস ব্যবহারকারীরা পড়তে যাচ্ছেন বেশ বড় রকমের ঝামেলায়। যা চীনা প্রতিষ্ঠানটির বৈশ্বিক ব্যবসায় প্রভাব ফেলবে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ট্রাম্প প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রে ‘কালোতালিকা’ ভুক্ত করে। এমন সিদ্ধান্তের পরেই নিজেদের সিদ্ধান্ত জানায় গুগল। এর ফলশ্রুতিতে হুয়াওয়ের নতুন হ্যান্ডসেটগুলোতে আর অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম থাকছে না। থাকবে না ‘গুগল প্লে’ অ্যাপ স্টোর। তবে গুগল প্লে স্টোরের অ্যাকসেস থাকা বর্তমান হুয়াওয়ের ডিভাইস ব্যবহারকারীরা এখনো গুগলের অ্যাপ্লিকেশনের আপডেট ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে এ বিষয়ে হুয়াওয়ের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ‘সম্ভাব্য’ সব উপায় হুয়াওয়ে খতিয়ে দেখছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্র দেশগুলো বরাবরই অভিযোগ করে আসছে, চীনের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ব্যবহারকারীদের তথ্য পাচারের মাধ্যমের গুপ্তচরবৃত্তিতে লিপ্ত রয়েছে হুয়াওয়ে ও আরেক চীনা কোম্পানি জেডটিই। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রে ফাইভ-জি সেবার কাজে প্রতিষ্ঠান দুটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।


   Page 1 of 8
     তথ্য-প্রযুক্তি
চাঁদে পা রাখার ৫০ বছর উপলক্ষে গুগলের ডুডল
.............................................................................................
ফেসঅ্যাপের হাতে কোটি মানুষের তথ্য !
.............................................................................................
বাংলাদেশের পণ্য বিদেশে বিক্রি করবে অ্যামাজন
.............................................................................................
প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিংয়ের জন্য ‘সার্কেল লাইনার ডটকম’
.............................................................................................
বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে অ্যাপ
.............................................................................................
আজ রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ ঘটবে
.............................................................................................
মঙ্গলবার পূর্ণ সূর্য গ্রহণ
.............................................................................................
স্মার্টফোনের ব্যাটারি ভালো রাখতে. . .
.............................................................................................
হুয়াওয়ের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার
.............................................................................................
সেপ্টেম্বরের পর থেকে ফেসবুক-ইউটিউবে হস্তক্ষেপ : জব্বার
.............................................................................................
১৩ মিনিটেই ফুল চার্জ হবে স্মার্টফোন!
.............................................................................................
সিম লাগাতেই শাওমি স্মার্টফোন বিস্ফোরণ
.............................................................................................
বাংলা এসএমএস পাঠানো যাবে ২৫ পয়সায়
.............................................................................................
ডিজিটাল মুদ্রা ‘লিব্রা’ আনছে ফেসবুক
.............................................................................................
সংবাদশিল্প থেকে গুগলের আয় ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার
.............................................................................................
হুয়াওয়ে ফোনে আপডেট দেবে না গুগল, থাকবে না ইউটিউব
.............................................................................................
ফেসবুক ভেঙে ফেললে `বাজার দখলের প্রতিযোগিতা বাড়বে`
.............................................................................................
ল্যাপটপ আনছে রেডমি
.............................................................................................
এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান সহ-প্রতিষ্ঠাতা
.............................................................................................
বড় ডিসপ্লের সঙ্গে থাকছে শক্তিশালী ব্যাটারি ও মেমোরি
.............................................................................................
চালক ছাড়াই চলবে যাত্রীবাহী বিমান
.............................................................................................
কিভাবে স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমাবেন
.............................................................................................
ফোনের আয়ু বাড়াতে...
.............................................................................................
এবার ভারতে বন্ধ হলো টিকটক
.............................................................................................
ব্ল্যাক হোল আসলে দেখতে কেমন?
.............................................................................................
২১ ও ২২ এপ্রিল ‘বিপিও সামিট ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হবে
.............................................................................................
অন্ধকারে ঝকঝকে ছবি তোলার মোবাইল ফোন
.............................................................................................
মোবাইল ফোনের বিস্ফোরণ ঠেকাতে করনীয়
.............................................................................................
কপিরাইট আইনের ফাঁদে গুগল ও ইউটিউব
.............................................................................................
গুগল ডুডলে মহান স্বাধীনতা দিবস
.............................................................................................
জিমেইলে `পাসওয়ার্ডযুক্ত ই-মেইল` পাঠাবেন যেভাবে
.............................................................................................
বাংলাদেশের জাতীয় শিশু দিবসে গুগলের ডুডল
.............................................................................................
বিশ্বজুড়ে হঠাৎ বন্ধ ফেসবুক
.............................................................................................
মেসেঞ্জারে ডার্ক মোড চালু করবেন যেভাবে
.............................................................................................
ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে ডার্ক মোড!
.............................................................................................
এবার দেশের বাজারে আসছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ১০ ও ১০‍ প্লাস
.............................................................................................
এবার ভাঁজযোগ্য স্মার্টফোন প্রদর্শন করলো হুয়াওয়ে
.............................................................................................
টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতার পদত্যাগ
.............................................................................................
কিছু করতে পারবে না যুক্তরাষ্ট্র: হুয়াওয়ে প্রধান
.............................................................................................
ফেসবুকে ভেরিফায়েড হলো বাংলা উইকিপিডিয়া
.............................................................................................
নতুন স্মার্ট জুতা আনল শাওমি
.............................................................................................
পাসওয়ার্ড চেকআপ সেবা আনল গুগল
.............................................................................................
যেসব ছবির কারণে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন হ্যাক হতে পারে
.............................................................................................
ম্যাসেঞ্জারে নতুন সুবিধা
.............................................................................................
চিংড়ি ভুনা
.............................................................................................
২ এপ্রিল বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লাস
.............................................................................................
হ্যাপি বার্থডে ফেসবুক!
.............................................................................................
দৈনিক মারা যান ৮ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী
.............................................................................................
পোষা প্রাণির জন্য `স্মার্ট টয়লেট`
.............................................................................................
ফোর জি ও থ্রি জি মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]