| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ১ অক্টোবর সৌদিতে বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু : ল্যান্ডিং পারমিশন মেলেনি   * স্ত্রীর স্বপ্ন পূরণে ১৭ লাখ টাকায় হাতি কিনে দিলেন স্বামী   * অ্যাটর্নি জেনারেলের শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন   * স্বাস্থ্য খাতের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ ২০ জনের সম্পদের বিবরণী চেয়ে দুদকের নোটিশ   * সাভারে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৬   * ইয়াঙ্গুনে লকডাউন জারি   * করোনার প্রভাব বেড়ে যাওয়ায় চেক রিপাবলিকের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ   * তিন দিনের মাথায় উঠে যাচ্ছে সড়কের পিচ   * ইরাক দিয়ে তেল চুরি করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: সিরিয়া   * অনুমতি মিলেছে এন্টিজেনভিত্তিক র‌্যাপিড টেস্টের  

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় সংসদের শূন্য হওয়া ঢাকা-৫ আসনে সালাহ উদ্দিন আহমেদ ও নওগাঁ-৬ আসনে শেখ মোহাম্মদ রেজাউল করিমকে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শনিবার বিকেলে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড চারটি আসনে ২৯ জন প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেয়। ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের আগ্রহী প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হলেও প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের নাম ঘোষণা করা হয়নি।

ঢাকা-৫–এর প্রার্থী হতে মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন নবী উল্লাহ নবী, সাবেক সাংসদ সালাহউদ্দিন আহমেদ, শিক্ষকনেতা সেলিম ভূঁইয়া, মো. জুম্মন মিয়া ও আকবর হোসেন।

আর নওগাঁ-৬ আসনে মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন আবদুস শুকুর, এম এম ফারুক, মাহমুদুল আরেফিন, এসহাক আলী, আতিকুর রহমান, শেখ মো. রেজাউল ইসলাম, মো. শফিকুল ইসলাম ও আবু সাঈদ রফিকুল আলম।

আওয়ামী লীগের সাংসদ হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫, ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে নওগাঁ-৬, মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে সিরাজগঞ্জ-১ এবং সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ঢাকা-১৮ আসন শূন্য হয়।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ঢাকা-৫ এবং নওগাঁ-৬ আসনে উপ নির্বাচনে ভোট হবে ১৭ অক্টোবর।

ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়নি।

ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী ঘোষণা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় সংসদের শূন্য হওয়া ঢাকা-৫ আসনে সালাহ উদ্দিন আহমেদ ও নওগাঁ-৬ আসনে শেখ মোহাম্মদ রেজাউল করিমকে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শনিবার বিকেলে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড চারটি আসনে ২৯ জন প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেয়। ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের আগ্রহী প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হলেও প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের নাম ঘোষণা করা হয়নি।

ঢাকা-৫–এর প্রার্থী হতে মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন নবী উল্লাহ নবী, সাবেক সাংসদ সালাহউদ্দিন আহমেদ, শিক্ষকনেতা সেলিম ভূঁইয়া, মো. জুম্মন মিয়া ও আকবর হোসেন।

আর নওগাঁ-৬ আসনে মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন আবদুস শুকুর, এম এম ফারুক, মাহমুদুল আরেফিন, এসহাক আলী, আতিকুর রহমান, শেখ মো. রেজাউল ইসলাম, মো. শফিকুল ইসলাম ও আবু সাঈদ রফিকুল আলম।

আওয়ামী লীগের সাংসদ হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫, ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে নওগাঁ-৬, মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে সিরাজগঞ্জ-১ এবং সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ঢাকা-১৮ আসন শূন্য হয়।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ঢাকা-৫ এবং নওগাঁ-৬ আসনে উপ নির্বাচনে ভোট হবে ১৭ অক্টোবর।

ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়নি।

উপনির্বাচন পরিচালনায় আ`লীগের দায়িত্ব পেলেন যে ৫ নেতা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন ৩ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে দলটির কার্যনির্বাহী সংসদের পাঁচজন নেতাকে।

শনিবার আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানককে। তার সঙ্গে সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম।

এ ছাড়া পাবনা-৪ আসনের উপনির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমানকে। আর নওগাঁ-৬ আসনে দায়িত্ব পেয়েছেন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম। এই দুটি আসনে সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন।

উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হতে প্রথম দিনে বিএনপির মনোনয়নপত্র নিলেন ২৩ জন
                                  

অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন চারটি আসনের উপনির্বাচনের জন্য দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করার প্রক্রিয়া হিসেবে বৃহস্পতিবার থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে বিএনপি। প্রথম দিনে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে ২৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। এর মধ্যে ঢাকা-১৮ আসনে ৭ জন, ঢাকা-৫ আসনে ৫ জন, সিরাজগঞ্জ-১ আসনে ৩ জন ও নওগাঁ-৬ আসনে ৮ জন।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, চারটি উপনির্বাচনে ২৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এদের মধ্যে তিনজন ফরম জমা দিয়েছেন। শুক্রবারও নয়াপল্টন কার্যালয়ে ফরম বিতরণ ও জমা নেয়া হবে। শনিবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে।

ঢাকা-১৮ আসনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন-ঢাকা মহানগর উত্তরের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কফিল উদ্দিন আহম্মেদ, যুবদলের মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন, তরুণ ব্যবসায়ী বাহাউদ্দিন সাদী, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত, মহানগর নেতা মোস্তফা জামান সেগুন, মো. আখতার হোসেন ও ইসমাইল হোসেন।

এছাড়া ঢাকা-৫ আসনের জন্য মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন- বিএনপির বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক আলহাজ সালাহউদ্দিন আহমেদ, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁঁইয়া, বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি নবী উল্লাহ নবী, মহানগর নেতা মো. জুম্মন মিয়া ও আকবর হোসেন নান্টু, নওগাঁ-৬ আসনে আবদুস শুকুর, এমএম ফারুক জেমস, মাহমুদুল আরেফিন স্বপন, এসহাক আলী, আতিকুর রহমান রতন মোল্লা, শেখ মো. রেজাউল ইসলাম, মো. শফিকুল ইসলাম ও আবু সাঈদ রফিকুল আলম রফিক, সিরাজগঞ্জ-১ আসনে বিএম তহবিবুল ইসলাম, নাজমুল হাসান তালুকদার রানা ও রবিউল হাসান।

মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর হাত থেকে এসব ফরম সংগ্রহ করেন। তারা ১০ হাজার টাকা মূল্যমানে ফরম সংগ্রহ করেন। ২৫ হাজার টাকা জামানতসহ জমা দিতে হবে। সকাল ১০টায় প্রথমে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন ঢাকা-১৮ আসনের বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী তরুণ ব্যবসায়ী বাহাউদ্দিন সাদি।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলন এবং দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার অংশ হিসেবে বিএনপি নির্বাচনে যাচ্ছে। আরও একটা বিষয় হচ্ছে, দেশের মানুষ তো ভোট দেয়ার সুযোগ পাচ্ছে না। আর বিএনপি যদি নির্বাচনে অংশ না নেয় তাহলে তো দেশের মানুষ সেই অধিকারটুকুও হারাবে।

আশা করছি দল আমাকে মনোনয়ন দিয়ে ঢাকা-১৮ আসনের জনগণের কাজ করার সুযোগ দেবে। তিনি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে এ আসন উপহার দিতে পারব।

এর কিছুক্ষণ পর একই আসন থেকে যুবদলের উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর মহানগর উত্তরের বিভিন্ন থানার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যয়ের নেতাকর্মীদের নিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমার সঙ্গে তৃণমূল নেতাকর্মীরা আছেন। আমি সব সময়ে রাজপথে ছিলাম এবং আছি।

আমরা এ নির্বাচনকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন হিসেবে নিয়েছি। আমরা বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার আহবান- দেশ বাচাঁও মানুষ বাঁচাও এ স্লোগানকে বাস্তবায়ন করব। সরকারের সব ষড়যন্ত্রকে মোকাবেলা করে নির্বাচনের শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকব। নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে ফিরব।

ঢাকা-৫ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর নবীউল্লাহ নবী বলেন, নির্বাচনের প্রাথমিক প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই সেরেছি। সেই ধারাবাহিকতায় এবার দলীয় ফরমও নিলাম। গত নির্বাচনের পর থেকে এখনও আমি মাঠেই আছি। অত্র এলাকার দলের বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠনকে নিয়ে সব সময়ই আমরা কার্যক্রম চালিয়ে আসছি।

করোনাকালেও থেমে ছিল না আমাদের কার্যক্রম। এ সময় ত্রাণবিষয়ক নানা কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত ছিলাম। আশা করি, নির্বাচনে এর সুপ্রভাব পড়বে। এ আসনে জয়ের ব্যাপারে আমি দারুণ আশাবাদী। শেষ পর্যন্ত বিজয়ের হাসি আমরাই হাসব।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানিয়েছেন, আমার স্বাক্ষর জাল করে জনৈক আলহাজ ফয়েজ আহমেদ লিটন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বলে একটি মিথ্যা, বানোয়াট ও সম্পূর্ণরূপে জালিয়াতমূলক পত্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে তিনি একজন প্রতারক।

তিনি আমার স্বাক্ষর জাল করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চিঠিটি প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়ে বিভ্রান্ত না হতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। শুক্রবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দেয়া যাবে।

শনিবার এ চারটি আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে। ওই দিনই রাতে প্রার্থী চূড়ান্ত করবে দলীয় পার্লামেন্টারি বোর্ড। ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের ভোটগ্রহণ হবে ১৭ অক্টোবর। এছাড়া সিরাজগঞ্জ-১ ও ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচন হবে। তবে এ দুই আসনে এখনও তফসিল ঘোষণা হয়নি।

আইসিইউতে বিএনপি নেতা ব্যারিষ্টার রফিকুল ইসলাম
                                  

অনলাইন ডেস্ক : গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া। মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে রাজধানীর ধানমন্ডির ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রফিকুল ইসলাম মিয়াকে বর্তমানে হাসপাতালে নীবিড় পরিচর্যা ক্ষেদ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

এ বিএনপি নেতার সুস্থ্যতা কামনায় পরিবার ও দলের পক্ষ থেকে দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করা হয়েছে।

মসজিদে বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে নিপুণ রায় চৌধুরী
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : নারায়ণগঞ্জের তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ও আহত মুসল্লিদের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়াতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের সদস্য সচিব এডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী।

আজ মঙ্গলবার ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ দুপুর ১২ টার দিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ২০ পারিবারের মাঝে আর্থিক অনুদান ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বিএনপির কেন্দ্রীয় এই নেত্রী এ আহ্বান জানান।
এসময় তার সাথে ছিলেন দলের যুববিষয়ক সহ-সম্পাদক ও ঢাকা কলেজের সাবেক ভিপি নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম বদরুজ্জামান খান খসরুর ছেলে বিএনপি নেতা মাহমুদুর রহমান সুমন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ, বিলকিস ইসলাম, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও যুবদল নেতা খন্দকার খোরশেদ আলমসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী বলেন, আমরা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে আপনাদের সমবেদনা জানাতে এসেছি। তাদের পক্ষ থেকে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছি। এ বিস্ফোরণে পরিবারগুলোর যে ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ হবার নয়। তারপরও আমরা আর্থিকভাবে কিছু সহায়তা করার চেষ্টা করেছি মাত্র। আমরা আশ্বাস দিচ্ছি, বিএনপি আপনাদের সুখে দুঃখে পাশে আছে ও থাকবে। আমরা দোয়া করি, যেন এ ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা স্বজনহারা ক্ষতিগ্রস্ত পারিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের সাথে কথা বলেছি। তারা এতোটাই শোকাহত যে এখন স্বজনদের জন্য কাঁদতে কাঁদতে তাদের চোখের পানি শুকিয়ে গেছে চোখ দিয়ে এখন আর পানি বের হয় না তাদের মন দীল পাথর হয়ে গেছে । এখন শুধু তাদের বুকে চাপা কান্না। আমরা দাবি করছি, যেসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের গাফিলতিতে এত বড় মারাত্মক সর্বনাশ ও দুর্ঘটনা ঘটলো- অবিলম্বে তাদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে হবে এবং ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেকটি পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।’ গত শুক্রবার রাতে এশা নামাজের সময় নারায়ণগঞ্জের তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত আদায় করার সময় মসজিদে বিস্ফোরণে ২৭ জনের মৃত্যু ও বহু মুসল্লি বিস্ফোরণের আগুনে দগ্ধ হয়েছেন। এখন ১১ জন আইসিইউতে আশংকাজনক অবস্থায় রয়েছে।

মার্কিন বিমানবন্দরে কঠোর নজরদারীতে চীনা ছাত্র-ছাত্রীরা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : চীন-মার্কিন ক্রমবর্ধমান বৈরিতার পরিণতি ভোগ করতে হচ্ছে উচ্চশিক্ষার জন্য আমেরিকায় পড়তে যাওয়া লাখ লাখ চীনা ছাত্র-ছাত্রকে।

আমেরিকার বিমানবন্দরগুলোতে এখন চীন থেকে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের সন্দেহভাজন প্রযুক্তি পাচারকারী হিসাবে দেখা হচ্ছে। বিশেষ করে দেশে ফেরার সময় তাদের ওপর শ্যেন দৃষ্টি রাখা হচ্ছে।

চীনা সরকারি বৃত্তি নিয়ে গবেষণা করতে আসা ১৫ জন শিক্ষার্থীর সাথে চুক্তি গত সপ্তাহে মাঝপথে বাতিল করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়, যে ঘটনা নজিরবিহীন।
ওয়াশিংটনে বিবিসি চীনা সার্ভিসের সংবাদদাতা ঝাও ইন ফেংয়ের কাছে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন চীনা ছাত্র কিথ ঝাং (ছদ্মনাম), যিনি সম্প্রতি পড়া শেষ করে দেশে ফিরে গেছেন।

বোস্টনের লোগান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানে ওঠার জন্য অপেক্ষা করছিলেন ঝাং। তাকে হঠাৎ বোর্ডিং ডেস্কে তলব করা হলে তিনি ভেবেছিলেন রুটিন নিরাপত্তার জন্যেই ডাকা হচ্ছে তাকে। কিন্তু গিয়ে দেখলেন দুজন সশস্ত্র সীমান্ত এজেন্ট পুলিশ তার জন্য অপেক্ষা করছে। দেখে ভয় পেয়ে যান তিনি।

“তারা আমাকে এমনভাবে জেরা শুরু করলো যেন আমি যেন আমি প্রযুক্তি চুরি করতেই আমেরিকাতে পড়তে এসেছিলাম।“

ছাব্বিশ বছর-বয়স্ক পিএইচডি ছাত্র ঝাং যুক্তরাষ্ট্রের ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগে এক বছরের জন্য একটি গবেষণা প্রকল্পে কাজ করতে এসেছিলেন। দেশে ফেরার আগে দু`ঘণ্টা ধরে তাকে যেভাবে জেরার মুখোমুখি হতে হয় তা স্বপ্নেও ভাবেননি তিনি।

মার্কিন পুলিশ বের করার চেষ্টা করছিল তার সাথে চীনা কম্যুনিস্ট পার্টির কোনো সম্পর্ক রয়েছে কিনা।

শুধু ঝাং নয়, যুক্তরাষ্ট্রে যে প্রায় চার লাখের মত চীনা শিক্ষার্থী বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন, তাদের অস্বস্তি দিনকে দিন বাড়ছে।

দুই দেশের মধ্যে শত্রুতার পারদ যত চড়ছে, তারা মনে করছেন তাদের প্রত্যেককেই এখন সন্দেহভাজন চর হিসাবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এ অবস্থা তৈরি হল কেন?

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই-এর পরিচালক ক্রিস্টোফার রে সম্প্রতি এক সেমিনারে বলেছেন, তারা এখন প্রতি ১০ ঘণ্টায় এমন অন্তত একটি সম্ভাব্য গুপ্তচরবৃত্তির ঘটনা খুঁজে পাচ্ছেন যার সাথে চীনের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডেভিড স্টিলওয়েল। তিনি বিবিসিকে বলেন, যারা সত্যিকার লেখাপড়া করতে আসেন তাদের জন্য আমেরিকার `দরজা এখনো খোলা।`

জুলাইতে টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টনে চীনা কনসুলেট বন্ধ করার নির্দেশ দেয়ার সময় মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল ঐ কনসুলেটটি একটি `গুপ্তচরবৃত্তির সেন্টারে` পরিণত হয়েছে।

বিবিসির ঝাউ ইন ফেং বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রে চীনা নাগরিকদের ওপর হালে নজরদারী বহুগুণে বেড়ে গেছে, এবং বিশেষ নজরে পড়েছেন চীন থেকে পড়তে আসা ছাত্র-ছাত্রীরা।

বহু চীনা শিক্ষার্থীর ব্যক্তিগত ব্যবহারের ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে গিয়ে গোয়েন্দারা পরীক্ষা করে দেখছেন। অনেক সময় সপ্তাহের পর সপ্তাহ ধরে তা ফেরত দেওয়া হচ্ছেনা।

`ইচ্ছাকৃত হয়রানি`

তার সাথে যে আচরণ করা হয়েছে, যেসব প্রশ্ন তাকে করা হয়েছে, কিথ ঝাং তাকে `ইচ্ছাকৃত হয়রানি` হিসাবে বর্ণনা করেছেন।

“আমি যদি সত্যিই কোনো ডেটা বা প্রযুক্তি চুরি করতাম তাহলে ক্লাউডের মাধ্যমে অনলাইনে পাচার করে দিতাম। আমার ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন জব্দ করে নিয়ে যাওয়া হয়রানি ছাড়া আর কি হতে পারে?“

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র সরকার তাদের আইনের অপব্যবহার করে “মনগড়া সব অভিযোগে চীনা ছাত্রদের জেরা করছে, গ্রেপ্তার করছে।“

তবে চীনা গবেষকদের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির সাম্প্রতিক কিছু অভিযোগের তদন্তে সন্দেহের পেছনে সুনির্দিষ্ট কিছু প্রমাণ পাওয়ার কথা বলেছেন মার্কিন গোয়েন্দারা।

অগাস্ট মাসে, ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৪ বছরের চীনা ভিজিটিং গবেষক হাই ঝাও উকে শিকাগোর বিমানবন্দরে ফ্লাইটে ওঠার আগে গ্রেপ্তার করা হয়।

মার্কিন বিচার বিভাগ জানায়, বিমানবন্দরে রুটিন নিরাপত্তা পরীক্ষার সময় ঐ চীনা গবেষকের ল্যাপটপে কিছু `সফটওয়ার কোড` পাওয়া যায় যেটা রাখার বৈধতা তার ছিলনা। তার বিরুদ্ধে করা মামলায় বলা হয়েছে, ঐ সফটওয়ার কোড গোপন সামরিক বিষয়ক।

মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, সম্প্রতি তারা বেশ ক`জন চীনা গবেষককে আটক করেছেন যাদের সাথে চীনা সেনাবাহিনীর সম্পর্ক রয়েছে কিন্তু সেই পরিচয় তারা ভিসার আবেদনপত্রে চেপে গেছেন।

গত মাসে এমন একজন অভিযুক্ত চীনা গবেষক গ্রেপ্তার এড়াতে সানফ্রানসিসকোতে চীনা কনসুলেটে গিয়ে আশ্রয় নেন। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আরেক ঘটনায়, একজন চীনা গবেষকের বিরুদ্ধে কম্পিউটারের হার্ড ড্রাইভ নষ্ট করার অভিযোগে ওঠে। তদন্ত চলার সময় প্রমাণ নষ্ট করার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডেভিড স্টিলওয়েল বিবিসিকে বলেন, যারা সত্যিকার লেখাপড়া করতে আসেন তাদের জন্য আমেরিকার `দরজা এখনো খোলা।` “কিন্তু আপনি যদি ছাত্রের ছদ্মবেশে আসেন তাহলে তো আমাদেরকে নিজেদের রক্ষা করতেই হবে।“

ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাসের পাবলিক অ্যাফেয়ার্স বিভাগের অধ্যাপক শিনা গেইটেনস বিবিসিকে বলেন, অ্যাকাডেমিক চ্যানেলের মাধ্যমে চীনে `প্রযুক্তি চুরি` নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি মহলে ব্যাপক উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, “যেহেতু এসব তদন্ত চলছে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে, সুতরাং প্রতিটি অভিযোগের বিস্তারিত আমরা হয়তো কখনই জানতে পারবো না। ফলে কিছু ঘটনা যা মানুষকে জানানো হয়েছে সেগুলোর ভিত্তিতে বলা কঠিন আসলেই চীনা শিক্ষার্থীরা জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি কতটা হুমকি তৈরি করেছে।“

গবেষক হাই উর মত, ঝাংকেও শেষ মূহুর্তে বিমানে উঠতে দেওয়া, কিন্তু তার আগে তাকে প্রচণ্ড মানসিক চাপে ভুগতে হয়েছে। দু`জন পুলিশ সদস্য তাকে বার বার বলতে থাকে যে তিনি মিথ্যা কথা বলছেন। “মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ছিলাম আমি।“

তারপরও সে সময় তিনি চীনা দূতাবাস, ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয় বা কোনো আইনজীবীর সাথে কথা বলতে চাননি।

“আমি জানতাম এসব অধিকার আমার রয়েছে, কিন্তু আমি ফ্লাইট মিস করতে চাইনি।“ তিনি বলেন, তার প্রধান লক্ষ্য ছিল দেশে স্ত্রীর সাথে দেখা হওয়া। মাত্র এক বছর আগে তার বিয়ে হয়েছে, কিন্তু বিদেশে পড়াশোনার জন্য স্ত্রীর সাথে দেখা হয়েছে সামান্যই।

করোনাভাইরাস মরার ওপর খাঁড়ার ঘা

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে যুক্তরাষ্ট্র থেকে চীনে যাতায়াত কঠিন হয়ে পড়েছে, কারণ দুই দেশের মধ্যে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের সংখ্যা খুবই কমে গেছে। ফলে চাপের মধ্যে পড়লেও, হাজার হাজার চীনা ছাত্র-ছাত্রী দেশে ফিরতে পারছেন না।

যেমন, দেশে ফিরতে ঝাংকে কয়েক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হয়েছে। পরে অ্যামস্টারডাম হয়ে সাংহাইতে একটি ওয়ান-ওয়ে টিকেটের জন্য তাকে ৫,০০০ ডলার গুনতে হয়েছে।

প্রধান টার্গেট বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী

সাধারণ নিয়মে, কারো ইলেকট্রনিক ডিভাইস পরীক্ষার জন্য মার্কিন নিরাপত্তা কর্মীদের আদালত থেকে সমন আনতে হয়, কিন্তু বিমানবন্দর ব্যতিক্রম।

সীমান্ত রক্ষীদের মনে `যথেষ্ট সন্দেহের` উদ্রেক হলেই তারা যে কোনো যাত্রীর ইলেকট্রনিক ডিভাইস পরীক্ষা করতে পারে।

হংকং-ভিত্তিক দৈনিক সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে আমেরিকার বিমানবন্দরগুলোতে ১,১০০রও বেশি চীনা নাগরিকের ইলেকট্রনিক ডিভাইস (ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, ক্যামেরা, ঘড়ি) নিয়ে গিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে। আগের বছরের তুলনায় এই সংখ্যা ৬৬ শতাংশ বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল জন ডেমারস অবশ্য দাবি করেন, বিমানবন্দরে যে নজরদারী করা হচ্ছে তা `র‌্যানডম` নয়, বরং আগে থেকে নজরে রাখা চীনাদেরই টার্গেট করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, চীনে কোন স্কুলে সে পড়তো, কী নিয়ে তার লেখাপড়া - এমন কিছু বিষয়ের ভিত্তিতে কাউকে কাউকে বিমানবন্দরে বাড়তি নিরাপত্তা তল্লাশির মুখোমুখি করা হচ্ছে। উচ্চতর বিজ্ঞান বিষয়ে যারা গবেষণার জন্য আসেন এবং যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে চীনা সেনাবাহিনী এবং চীনা কম্যুনিস্ট পার্টির যোগাযোগ রয়েছে তারাই এ ধরণের বাড়তি নজরদারীতে পড়ছেন।

উ এবং ঝাং দুজনেই চীনা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের চায়না স্কলারশিপ কাউন্সিলের (সিএসসি) বৃত্তি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে গবেষণা করতে এসেছিলেন।

জর্জটাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, সিএসসি প্রায় ৬৫,০০০ চীনা শিক্ষার্থীকে বিদেশে পড়তে যাওয়ার জন্য বৃত্তি দিয়েছে। এই সংখ্যা বিদেশে মোট চীনা শিক্ষার্থীর সাত শতাংশ। অবশ্য চীনে পড়তে যায় এমন হাজার হাজার বিদেশি শিক্ষার্থীকেও সিএসসি বৃত্তি দেয়।

বিবিসির ঝাও ইন ফেং বলছেন, চীনে উচ্চশিক্ষা এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোর সিংহভাগই সরকারি। যদিও সব গবেষকই চীনা কম্যুনিস্ট পারটির (সিসিপি) সদস্য নয়, কিন্তু গবেষণার ওপর দলের প্রভাব রয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে গোপনে প্রকাশ্যে এবং ছদ্মবেশে সিসিপির প্রতিনিধি কাজ করে। অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের চার্টারে সিসিপির প্রতি আনুগত্যের কথা প্রকাশ্যে লেখা রয়েছে।

বিমানবন্দরে ঝাং মার্কিন সীমান্ত এজেন্টদের বার বার বলেন, মনোবিজ্ঞান নিয়ে তার গবেষণার সাথে চীনা কম্যুনিস্ট পার্টির কোনো সম্পৃক্ততা নেই। কিন্তু যেহেতু তিনি সরকারি বৃত্তি নিয়ে পড়তে এসেছিলেন, তার ব্যাখ্যা মার্কিন এজেন্টরা কানে নিচ্ছিলেন না।

“বিশ্বের সব দেশের সরকারই বৈজ্ঞানিক গবেষণায় তহবিল জোগায়। আমেরিকার সরকারও অনেক বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানে তহবিল দেয়, তাদের মাথায় যদি এটা ঢুকে বসে থাকে যে সরকারি তহবিল মানেই প্রতিটি গবেষণায় চীনা কম্যুনিস্ট পার্টির প্রভাব রয়েছে, তাহলে কোনোভাবেই আমি তাদের বোঝাতে পারবো না।“

চায়না স্কলারশিপ কাউন্সিল (সিএসসি)-র বৃত্তি নিয়ে কেউ পড়তে গেলেই এখন আমেরিকাতে তাদের গভীর সন্দেহের মুখে পড়েতে হচ্ছে।

গত ৩১শে অগাস্ট, ইউনিভার্সিটি অব নর্থ টেক্সাস সিএসসির তহবিলে পড়েতে আসা ১৫ জন চীনা গবেষকের সাথে তাদের চুক্তি মাঝপথে বাতিল করে দিয়েছে। তার অর্থ, এই ১৫ জনের ভিসা বাতিল হয়ে গেছে। এই প্রথম আমেরিকাতে সিএসসি বৃত্তি নিয়ে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের বের করে দেওয়া হলো।

ভবিষ্যৎ আরো খারাপ

অধ্যাপক গ্রেইটেনস মনে করেন, নভেম্বরের নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন, আমেরিকাতে সরকারি বৃত্তি নিয়ে বিশেষ করে বিজ্ঞান বিষয়ে পড়তে বা গবেষণা করতে আসা চীনা শিক্ষার্থীদের ওপর নজারদারী বাড়তেই থাকবে।

“ট্রাম্প এবং বাইডেন দু`জনেই অবৈধভাবে চীনে মার্কিন প্রযুক্তি চুরির হুমকিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন।“

তার যে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা হয়েছে এবং চীন-মার্কিন সম্পর্ক যেভাবে দিনদিন তলানিতে গিয়ে ঠেকছে তা ভেবে ঝাং ইতিমধ্যেই আমেরিকা থেকে চীনা ছাত্র-ছাত্রীদের দেশে ফিরে আসতে বলছেন।

“নতুন এক শীতল যুদ্ধ শুরু হয়েছে,“ তিনি বলেন, “এর থেকে মুক্তি নেই, কে আমেরিকার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হবেন তার জন্য এই পরিস্থিতি বদলাবে না।“ সূত্র: বিবিসি বাংলা

খালেদার মুক্তির মেয়াদ বাড়ছে
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরো ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তবে এ সময়ের মধ্যে তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না।

বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সাংবাদিকদেরকে এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে, বেগম খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তি চেয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করে তার পরিবার।

পরে ওই আবেদন আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। আইন মন্ত্রণালয় সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর অভিমত দেয়।


আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে বাংলাদেশে বাসায় থেকে চিকিৎসা নেয়ার আগের শর্তে তার সাজা আরো ছয় মাসের জন্য স্থগিত করার পক্ষে তারা মত দিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে আবেদনে স্থায়ীভাবে তার মুক্তি চাওয়া হলেও আইন মন্ত্রণালয় স্থায়ী মুক্তির আবেদন বিবেচনা করেনি।

দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বেগম জিয়ার সাজা স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই স্থায়ী মুক্তির আবেদন করেছিলো তার পরিবার। শারীরিক অসুস্থতার কথা উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করেন বেগম জিয়ার ছোটভাই শামিম ইস্কান্দার।

জানা গেছে, আবেদনে উল্লেখ করা হয়, করোনা পরিস্থিতির কারণে তার শারীরিক অসুস্থতার কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা বা চিকিৎসা করা সম্ভব হয়নি। তাই আবারো সাজা মওকুফের আবেদন।

গত ২৫ মার্চ দুই শর্তে মানবিক কারণে সরকারের নির্বাহী আদেশে সাজা স্থগিতাদেশের পর ছয় মাসের জন্য মুক্তি পান বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সেই সাজার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিলো আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর। দুর্নীতির মামলায় ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দণ্ডিত হয়ে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে যান বেগম জিয়া। এরপরই অসুস্থতার কারণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।

খালেদা জিয়া গৃহবন্দি : ফখরুল
                                  

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন `খালেদা জিয়া গৃহবন্দি অবস্থায় আছেন` উল্লেখ করে তাকে মুক্ত করতে এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় (ভার্চুয়াল) তিনি এ মন্তব্য করেন।

৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির উদ্যোগে এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বক্তব্য রাখেন।

ফখরুল বলেন, `গণতন্ত্রের জন্যই দেশনেত্রী আজকে গৃহবন্দি অবস্থায় কারাবন্দি হয়ে আছেন। গণতন্ত্র, বাংলাদেশের মানুষের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের জন্য তার যে ত্যাগ- এটা নিঃসন্দেহে অপরিসীম।`

তিনি বলেন, `আজকে দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমাদের বড় প্রতিজ্ঞা হোক- যেকোনো মূল্যে আমাদের চ্যালেঞ্জ গণতন্ত্রকে উদ্ধার করা, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। দেশনেত্রীকে মুক্ত না করলে গণতন্ত্র মুক্ত হবে না- এটা হচ্ছে জরুরি কথা এবং সেটা আমাদের অবশ্যই অত্যন্ত যথাযথ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সফল করতে হবে।`

এ জন্য দল ও অঙ্গসংগঠনগুলোকে সংগঠিত হওয়ার আহ্বানও জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, `আজ বিশ্ব রাজনীতি পরিবর্তিত হচ্ছে। ১৯৭১ সালে যে পরিস্থিতি ছিল, এখনকার পরিস্থিতি এক নয়। ১৯৭৫ সালে যে পরিস্থিতি ছিল, এখনকার পরিস্থিতি এক নয়। আজকে ২০২০ সালে যে বিশ্ব রাজনীতির প্রেক্ষাপট, সেই বিশ্ব রাজনীতির প্রেক্ষাপটকে অনুধাবন করে এবং যোগ্য কৌশল উদ্ভাবন করে আমাদের সেই কৌশলের সঙ্গে গণতান্ত্রিক রাজনীতিকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য গণতান্ত্রিকভাবেই এগিয়ে যেতে হবে।`

বিএনপি মহাসচিব বলেন, `অত্যন্ত সত্য কথা- আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু সেই আন্দোলন কীভাবে ফলপ্রসূ হবে সে বিষয়টা আমাদের দেখতে হবে, বুঝতে হবে এবং তার জন্য আমাদের আলোচনা করতে হবে, আলোচনার মধ্য দিয়ে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।`

`জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে সরকারের অপপ্রচারের উদ্দেশে নতুন প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করার` কৌশল উল্লেখ করে এর বিরুদ্ধে ছাত্র সংগঠনকে `ভ্যানগার্ডের` ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, `আসুন হতাশ হবেন না, অনেকে হতাশার কথা বলেন। হতাশ হওয়ার হওয়ার সুযোগ নেই। এটা বিএনপির ওপর দায়িত্ব। গোটা জাতি এটা বিএনপির ওপর দিয়েছে।`

মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জমিরউদ্দিন সরকার, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, শামসুজ্জামান দুদু, হাবিব উন নবী খান সোহেল, মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, যুবদলের সাইফুল আলম নীরব, শ্রমিক দলের আনোয়ার হোসেইন, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, মুক্তিযোদ্ধা দলের ইশতিয়াক আজিজ উলফাত, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের ফজলুর রহমান খোকন, মৎস্যজীবী দলের আবদুর রহিম বক্তব্য রাখেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির যে আবেদন তার পরিবার করেছে, সেখানে কী লেখা হয়েছে- তা দেখে এবং তার স্বাস্থ্যের অবস্থা বিবেচনা করে সরকার সিদ্ধান্ত নেবে।

আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

সচিবালয়ে সাংবাদিকদের আইনমন্ত্রী বলেন, `স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, তিনি একটি দরখাস্ত পেয়েছেন। যেহেতু আগামী সেপ্টেম্বরের ২৪ তারিখ ছয় মাস (খালেদার সাময়িক মুক্তির মেয়াদ) শেষ হয়ে যাবে, তারা সেটির এক্সটেনশন চেয়েছেন। তবে ওই আবেদন এখনও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আইন মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেনি। আবেদন পৌঁছালে আমরা বিবেচনা করব।`

সচিবালয়ে যখন আইনমন্ত্রী কথা বলছিলেন, তখন তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তবে সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি কোনো কথা বলেননি।
সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আনিসুল হক বলেন, `দরখাস্তে কী লিখেছেন সেটি আমি এখনও জানি না। সেক্ষেত্রে আমি কী বিবেচনা করব দরখাস্ত না দেখে? কথা বলাটা আমার ঠিক হবে? উনাকে যখন ছয় মাস আগে একবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবিক কারণে মুক্তি দিয়েছিলেন, ছয় মাসের জন্য… আমরা তার স্বাস্থ্যের অবস্থা বিবেচনা করে দরখাস্তে কী লেখা আছে সেসব বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।`

খালেদা জিয়া জামিনে নেই, কোনো আদালত তাকে জামিন দেয়নি উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আরও বলেন, `গত মার্চ মাসে তার পরিবার থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করা হয়েছিল যেন চিকিৎসার জন্য তাকে নির্বাহী আদেশে জেল থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী মানবিক দিক বিবেচনা করে আমাদের নির্দেশ দিয়েছিলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ (১) ধারায় তার দণ্ডাদেশ স্থগিত করে তাকে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেওয়ার জন্য এবং গত ২৫ মার্চ সেই আদেশে তিনি মুক্তি পেয়েছেন।`
ছয় মাসের ওই মুক্তির মেয়াদ ২৪ সেপ্টেম্বর শেষ হচ্ছে। তার আগেই পরিবারের পক্ষ থেকে সাময়িক মুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করা হয়েছে।

উপ-নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাসের কারণে বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচন বর্জন করলেও এখন পাঁচটি আসনের উপ-নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। শনিবার (২৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় দলের স্থায়ী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

পাবনা-৪ আসনের উপ-নির্বাচনের জন্য রোববার (৩০ আগস্ট) রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রার্থীদের মধ্যে ফরম বিক্রি করা হবে। সোমবার বেলা ২টার মধ্যে ফরম জমা দিতে হবে। ওই দিন বিকেল ৫টা থেকে গুলশান কার্যালয়ে আগ্রহী প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে।

এ বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘নির্বাচনে যাব না, এ কথা আমরা কখনো বলিনি। তখন কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে আমরা নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও সরে এসেছি। এখন যেহেতু সবকিছু স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে, তাই আমরা নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

প্রসঙ্গত, করোনা মহামারির মধ্যেই গত চার মাসে ঢাকার দুজনসহ আওয়ামী লীগের পাঁচজন সাংসদ মারা যান। তাদের শূন্য আসন পাবনা-৪, ঢাকা-৫, সিরাজগঞ্জ-১, ঢাকা-১৮ ও নওগাঁ-৬ আসনে নির্বাচন হবে। ইতোমধ্যে পাবনা-৪ আসনের নির্বাচনে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

স্বাধীনতাকে হত্যা করতেই বঙ্গবন্ধু হত্যা করা হয়: হাছান মাহমুদ
                                  

অনলাইন ডেস্ক : তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, শুধু ব্যক্তি বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যার উদ্দেশ্যেই নয়, বাংলাদেশ রাষ্ট্র ও স্বাধীনতাকে হত্যার চক্রান্তেই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড পরিচালিত হয়েছিল।

তিনি বলেন, যারা এদেশের স্বাধীনতা চায়নি, মুক্তিযুদ্ধের সময় যারা পাকিস্তানের সঙ্গে কনফেডারেশন গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিল, খন্দকার মোশতাকসহ সেইসব বর্ণচোরা ষড়যন্ত্রকারীরা এই নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মহিলা শ্রমিক লীগ আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী এ সময় পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট নির্মমভাবে শহীদ জাতির পিতা ও তার পরিবারের সদস্যদের এবং ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান ও তাদের আত্মার শান্তি কামনা করেন।

ড. হাছান বলেন, বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে স্বাধীনতার ১৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ সারা বিশ্বে একটি অগ্রগতির উদাহরণ হয়ে উঠত, এশিয়ায় সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়ার আগে মানুষ বাংলাদেশের উন্নয়নের গল্প শুনত, কিন্তু তাকে সেই সুযোগ দেয়া হয়নি

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর তিন কোটি গৃহহারা মানুষের একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে ধ্বংসস্তূপ থেকে তুলে দাঁড় করিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয়, তখন দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৭.৪ শতাংশ, যা আমরা চারদশক পর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০১৬-১৭ সালে অতিক্রম করতে পেরেছি। সদ্যস্বাধীন দেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে প্রয়োজনীয় সূচক পূর্ণ করে স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল, পৃথিবীর অনেক দেশ এখনও তা হতে পারেনি। শুধু তাই নয়, ১৯৭৫ সালে দেশ খাদ্যে প্রায় স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল, অনেক পরিসংখ্যান মতে সেবছর দেশে ১০ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য অতিরিক্ত উৎপাদন হয়েছিল।

ইতিহাসের দিকে তাকিয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যাতে হত্যার বিচার না হয় সেজন্য ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ দেয়া হয়েছিল, জিয়া সেটাকে ১৯৭৯ সালে আইনে পরিণত করেন। একইভাবে ২০০২ সালে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি অপারেশন ক্লিনহার্ট পরিচালনা করে প্রায় একশ` মানুষ হত্যা করে তার বিচার বন্ধেও ইনডেমনিটি দেয়। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর দেশে পাকিস্তানি ভাবধারা তৈরি করা হয়েছিল। পাকিস্তানের সঙ্গে কনফেডারেশন করার, জাতীয় পতাকা ও সংগীত পরিবর্তন করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল, বাংলাদেশ বেতারের নাম পরিবর্তন করে রেডিও পাকিস্তানের আদলে রেডিও বাংলাদেশ করা হয়েছিল।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর রক্তস্রোত যার ধমনীতে প্রবহমান, সেই জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ জাতির পিতার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশকে অদম্য গতিতে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন।

নারী উন্নয়ন বিষয়ে এ সময় হাছান মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে নারী অগ্রগতিতে অনন্য উদাহরণ তৈরি করেছে। দেশে আজ নারীরা বিচারপতি, সচিব, জেনারেল হয়েছেন, যা আগে কেউ ভাবেনি। শেখ হাসিনাই সন্তানের পরিচয়ের ক্ষেত্রে মায়ের নাম উল্লেখ বাধ্যতামূলক করেছেন। কারণ একজন মা কখনো সন্তানকে ছেড়ে যান না। অপরদিকে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকাকালে নিজের ও নিজের বেশভূষার উন্নয়ন ঘটালেও নারী উন্নয়নে কার্যকর পদক্ষেপ নেননি।

মহিলা শ্রমিক লীগ সভাপতি সুরাইয়া আক্তারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রহিমা আক্তার সাথীর সঞ্চালনায় সভায় ১৫ আগস্টের শহীদদের ওপর শোকপ্রস্তাব পাঠ করেন সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি শামসুন নাহার এমপি।

সভার আগে জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বরে প্রয়াত বরেণ্য সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক রাহাত খানের জানাজায় অংশ নেন তথ্যমন্ত্রী।

করোনামুক্ত হলেন রুমিন ফারহানা
                                  

অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) থেকে সুস্থ হয়েছেন বিএনপির সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

রোববার (২৩ আগস্ট) তার করোনার নমুনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে বলে জানান বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবীর খান।

শায়রুল বলেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা তার বাসায় অবস্থান করছিলেন। গতকালকের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ রেজাল্ট এসেছে।

গত ১২ আগস্ট নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা জানান, তার করোনা পজিটিভ।

আইভি রহমানের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
                                  

ডেস্ক রিপাের্ট : আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এবং প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী বেগম আইভি রহমানের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সম্মুখে আওয়ামী লীগ আয়োজিত সন্ত্রাসবিরোধী মিছিলপূর্ব এক শান্তিপূর্ণ সমাবেশে ঘাতকের দল বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালায় ও গুলিবর্ষণ করে। এ হামলায় আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক বিশিষ্ট নারী নেত্রী বেগম আইভি রহমান গুরুতরভাবে আহত হন। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ৪ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে ২৪ আগস্ট শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

আইভি রহমানের মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে সোমবার (২৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় বনানী কবরস্থানে তার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে আওয়ামী লীগ। দলটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নেতৃবৃন্দ, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকরা যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এতে অংশগ্রহণ করবেন।

গ্রেনেড হামলায় রাষ্ট্রযন্ত্রকে পরিকল্পিতভাবে ব্যবহার করা হয়েছিলো : ওবায়দুল কাদের
                                  

অনলাইন ডেস্ক : হাওয়া ভবনের ছক অনুযায়ী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে পারেনি বলেই বিএনপি একুশে আগস্টের হত্যাকে দুর্ঘটনা বলছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার সংসদ ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবন থেকে রাজশাহী সড়ক জোনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।
মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে মুছে দেওয়ার লক্ষ্যেই এই হামলা করা হয়েছে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিএনপির নেতারা দিবালোকের মত সত্যকে বিকৃত করে বলছে, একুশে আগস্ট নাকি দুর্ঘটনা। একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলায় রাষ্ট্রযন্ত্রকে পরিকল্পিতভাবে ব্যবহার করে হামলা চালানো হয়েছিলো। যা ছিলো পনের আগস্টের হত্যাকান্ডেরই ধারাবাহিকতা। একুশে আগস্টের টার্গেট ছিলো দেশরত্ন শেখ হাসিনা।
তিনি বলেন, মুফতি হান্নানসহ অন্যান্যদের বক্তব্য এবং দালিলিক প্রমাণে বেরিয়ে এসেছে কারা এর পেছনে মদদ দিয়েছে, কারা বৈঠক করেছে, ষড়যন্ত্র করেছে। এ হামলার মাস্টারমাইন্ড হাওয়া ভবন তাদের নির্দেশেই এই হামলা। বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব সবই জানতো। তারা আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল। মুছে দিতে চেয়েছিলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, খুনীদের নিখুঁত হত্যা-পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ায় তারা তাদের দৃষ্টিকোণ থেকে দুর্ঘটনাই মনে করতে পারে। তদন্তে বাধা দেয়া, জজ মিয়া নাটক সাজানো, আলামত নষ্টকরাসহ পদে পদে বাধাদানের মাধ্যমে তাদের সংশ্লিষ্টতার অকাট্য প্রমাণ জাতির কাছে আজ স্পষ্ট।

করোনাভাইরাস শিগগিরই চলে যাবে বা চলে যাচ্ছে এমন মনে করার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেন, “দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ একটি নির্দিষ্ট পর্যায়ে রয়েছে। বাড়ছেও না, আবার কমছেও না। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে তুলনা করলে বাংলাদেশে তুলনামূলক অবস্থান ভাল হলেও আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই। নিউজিল্যান্ড এবং স্পেনসহ ইউরোপের অনেক দেশে দ্বিত্বীয় ওয়েব শুরু হয়ে গেছে। যে কোন সময়ে পরিস্থিতির আরও অবনতি কিংবা দ্বিতীয় ওয়েভ শুরু হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

তিনি বলেন, সেক্ষেত্রে করোনাভাইরাস শিগগিরই চলে যাবে বা চলে যাচ্ছে এমন মনে করার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। এমন ভেবে স্বাস্থ্যবিধির প্রতি অবহেলা প্রদর্শন বিপর্যয়ের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে। আমাদের অভ্যাসের পরিবর্তন ঘটিয়ে তা স্বাস্থ্যবান্ধব করতে হবে।”

বিআরটিএ মালিক-শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের সাথে মতবিনিময়ের সুপারিশ মন্ত্রণালয় হয়ে কেবিনেট ডিভিশনে প্রেরণ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, “সংক্রমণ রোধে প্রতিরোধ ব্যবস্থায় অধিক মনযোগ দেয়াই হচ্ছে সর্বোত্তম কৌশল। সরকার করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেয়। গাড়ির আসনসংখ্যা অর্ধেক খালি রাখা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে ভাড়া সমম্বয় করে এ সময়ের জন্য। শুরুতে কিছু পরিবহন প্রতিশ্রুতি মেনে চললেও এখন অনেকেই মেনে চলছেনা। আসন খালি না রাখলে এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানলে যাত্রীসাধারণ অতিরিক্ত ভাড়া কেন দিবে? বাসস

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নানের স্মরণ সভায় বিএনপির নেতৃত্বকে কবর দিতেই ২১ আগস্টের ঘটনা - বাবু গয়েশ্বর
                                  

মিয়া আবদুল হান্নান : দল ক্ষমতায় থাকতে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় যে ভুল-ভ্রান্তি হয়েছে খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান তার খেসারত দিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। শুক্রবার (২১ আগস্ট) দুপুরে নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সদ্য প্রয়াত ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নানের স্মরণে সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ইচ্ছায় হোক আর অনিচ্ছায় হোক সরকারে থাকতে আমাদের কিছু ভুল-ভ্রান্তি হয়েছিল। যার খেসারত আজকে জনগণ দিচ্ছে, আমরা দিচ্ছি। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান দিচ্ছেন। বিএনপির সিনিয়র এ নেতা আরো বলেন, যারা অপকর্ম করেছে তারা খেসারত দেয় নাই। তারা কিন্তু আমাদের আশেপাশে আরও বলীয়ান হওয়ার চেষ্টা করছেন। এটা (২১ আগস্টের ঘটনা) বাংলাদেশের ভাবনা থেকে হয়নি। এর পরিকল্পনা অন্য কোথাও থেকে হয়েছে। এটাও ঠিক যে যারা গ্রেনেড হামলায় সম্পৃক্ত ছিল তারা ভিকটিম বা আসামি হয়নি। এখানে আমাদেরও ব্যর্থতা আছে। আর আওয়ামী লীগ সরকার সেই পারপাজটা ভালো করে আমাদের ওপরে চাপিয়ে দিতে পারছে। গয়েশ্বর দাবি করেন, ২১ আগস্টের ঘটনার প্রকৃত দোষীরা এখনও বেঁচে আছে। তিনি বলেন, তারা নিরাপদে বেঁচে আছে এবং ভালো আছে। তারা দেশে আছে, দেশের বাইরেও আছে। সেটা সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার অজানা নেই। যেহেতু এটা একটি রাজনৈতিক হিসাব-নিকাশের ব্যাপার সেই কারণে আসল ঘটনা কখনও আলোর মুখ দেখবে না, আপনারা-আমরা জানবো না।

তিনি বলেন, বিএনপির নেতৃত্বকে কবর দিতেই ২০০৪ সালে ২১ আগস্টের ঘটনা এক-এগারোর রিঅ্যারেজমেন্ট। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং সাবেক প্রতিমন্ত্রী আবদুল মান্নান`র মৃত্যুতে বিএনপি`র ভার্চুয়াল স্মরণসভা প্রধান অতিথি: ডঃ খন্দকার মোশাররফ হোসেন সদস্য -জাতীয় স্থায়ী কমিটি বিএনপি,বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি বৃন্দ: মির্জা আব্বাস সদস্য-জাতীয় স্থায়ীকমিটি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল, বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায় সদস্য-জাতীয় স্থায়ী কমিটি বিএনপি, নজরুল ইসলাম খান- সদস্য জাতীয় স্থায়ী কমিটি বিএনপি, আলহাজ আমান উল্লাহ আমান সদস্য, বিএনপি চেয়ারপার্সন`র উপদেষ্টা,সাবেক ডাকসু ভিপি, কাউন্সিল- রুহুল কবির রিজভী আহমেদ সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব -জাতীয় নির্বাহী কমিটি বিএনপি, ফজলুল হক মিলন সাংগঠনিক সম্পাদক-জাতীয় নির্বাহী কমিটি বিএনপি, ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন আহমেদ অসীম আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক-জাতীয় নির্বাহী কমিটি বিএনপি, ডাঃ দেওয়ান মোঃ সালাহউদ্দিন বাবু সভাপতি-ঢাকা জেলা বিএনপি, খন্দকার আবু আশফাক সাধারণ সম্পাদক-ঢাকা জেলা বিএনপি, সঞ্চালনায়-শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি-প্রচার সম্পাদক জাতীয় নির্বাহী কমিটি বিএনপি। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উপনির্বাচন : তৃতীয় দিনে আ.লীগের ২৩ মনোনয়ন ফরম বিক্রি
                                  

অনলাইন ডেস্ক : শূন্য হওয়া পাঁচটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের জন্য তৃতীয় দিনে ২৩টি দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে গত তিন দিনে আওয়ামী লীগের মোট ৬৬টি ফরম বিক্রি হয়েছে।

বুধবার ঢাকা-৫ আসনে একজন, ঢাকা-১৮ আসনে সাতজন, পাবনা-৪ আসনে সাতজন, নওগাঁ-৬ আসনে সাতজন এবং সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে একজন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

গত সোমবার (১৭ আগস্ট) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের ধানমন্ডিতে সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা নেয়া শুরু হয়। আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহ ও জমা চলবে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত।


   Page 1 of 73
     রাজনীতি
ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী ঘোষণা
.............................................................................................
উপনির্বাচন পরিচালনায় আ`লীগের দায়িত্ব পেলেন যে ৫ নেতা
.............................................................................................
উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হতে প্রথম দিনে বিএনপির মনোনয়নপত্র নিলেন ২৩ জন
.............................................................................................
আইসিইউতে বিএনপি নেতা ব্যারিষ্টার রফিকুল ইসলাম
.............................................................................................
মসজিদে বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে নিপুণ রায় চৌধুরী
.............................................................................................
মার্কিন বিমানবন্দরে কঠোর নজরদারীতে চীনা ছাত্র-ছাত্রীরা
.............................................................................................
খালেদার মুক্তির মেয়াদ বাড়ছে
.............................................................................................
খালেদা জিয়া গৃহবন্দি : ফখরুল
.............................................................................................
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন
.............................................................................................
উপ-নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি
.............................................................................................
স্বাধীনতাকে হত্যা করতেই বঙ্গবন্ধু হত্যা করা হয়: হাছান মাহমুদ
.............................................................................................
করোনামুক্ত হলেন রুমিন ফারহানা
.............................................................................................
আইভি রহমানের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
.............................................................................................
গ্রেনেড হামলায় রাষ্ট্রযন্ত্রকে পরিকল্পিতভাবে ব্যবহার করা হয়েছিলো : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নানের স্মরণ সভায় বিএনপির নেতৃত্বকে কবর দিতেই ২১ আগস্টের ঘটনা - বাবু গয়েশ্বর
.............................................................................................
উপনির্বাচন : তৃতীয় দিনে আ.লীগের ২৩ মনোনয়ন ফরম বিক্রি
.............................................................................................
কাপুরুষতা নিয়ে রাজপথে আসবেন না: বিএনপিকে ডাকসু ভিপি
.............................................................................................
বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্থগিত
.............................................................................................
বিএনপিই প্রমাণ করেছে তারা খুনিদের দল : তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার জন্য নয়াপল্টনে দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
করোনা বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করার আহ্বান কাদেরের
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত রুমিন ফারহানা
.............................................................................................
কক্সবাজার জেলা যুবলীগের দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা ২৯ আগষ্ট
.............................................................................................
রাজনীতিতে যারা প্রতিহিংসা ছড়িয়েছে তাদের মুখে গণতন্ত্রের কথা ষড়যন্ত্রের অংশ : কাদের
.............................................................................................
এবারের ঈদেও খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পাচ্ছেন না নেতাকর্মীরা
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের আয় বেড়েছে ৩৫ শতাংশ
.............................................................................................
ফখরুলকে পাল্টা প্রশ্ন কাদেরের
.............................................................................................
এক দশকেও তিস্তা চুক্তি করতে পারেনি সরকার: মির্জা ফখরুল
.............................................................................................
আজ স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী
.............................................................................................
জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহম্মেদ বাবলু
.............................................................................................
সব ক্ষেত্রে ব্যর্থতা -রিজভী
.............................................................................................
জনরোষের ভয়ে বিএনপি এখন মানসিকভাবে বিপন্ন : সেতুমন্ত্রী
.............................................................................................
কোনোভাবেই দলের আদর্শের অপব্যবহার করতে দেওয়া হবে না- কাদের
.............................................................................................
যশোর ও বগুড়া উপনির্বাচন সম্পূর্ণ কমিশনের এখতিয়ার: ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
বগুড়া-১ ও যশোর-৬ উপ-নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপি
.............................................................................................
করোনাভাইরাস পরীক্ষায় ফি আরোপ করা গণবিরোধী সিদ্ধান্ত : রিজভী
.............................................................................................
দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক আলহাজ এ এম এম বাহাউদ্দীনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা প্রত্যাহার করুন: ইসলামী আন্দোলন
.............................................................................................
দুর্যোগে সবার আগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায় আওয়ামী লীগ : সেতুমন্ত্রী
.............................................................................................
জাপা থেকে নোমানকে অব্যাহতি
.............................................................................................
অপরাধী দলীয় কিংবা ক্ষমতাবান হলেও ছাড় দেয়া হবে না: কাদের
.............................................................................................
বিএনপিই ক্রসফায়ার-গুম-খুন শুরু করেছিলো: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
মিথ্যাচার বন্ধ করে সংকট সমাধানে পরামর্শ থাকলে দিন: বিএনপিকে কাদের
.............................................................................................
মানুষকে বাঁচানোই এখন একমাত্র রাজনীতি : কাদের
.............................................................................................
করোনাভাইরাসে বিএনপির ৭৩ নেতাকর্মীর মৃত্যু
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
শেরপুর পৌর আ`লীগের ত্রাণ বিতরণ
.............................................................................................
সংকটে মানুষের পাশে দাঁড়ানো আ.লীগের ঐতিহ্য: কাদের
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ
.............................................................................................
আপাতত বিদেশ যাচ্ছেন না খালেদা জিয়া
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: তাজুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়: ২১৯ ফকিরের ফুল (১ম লেন, ৩য় তলা), মতিঝিল, ঢাকা- ১০০০ থেকে প্রকাশিত । ফোন: ০২-৭১৯৩৮৭৮ মোবাইল: ০১৮৩৪৮৯৮৫০৪, ০১৭২০০৯০৫১৪
Web: www.dailyasiabani.com ই-মেইল: dailyasiabani2012@gmail.com
   All Right Reserved By www.dailyasiabani.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD